মোংলা পৌর বিএনপির সহ-সভাপতি মো: মমতাজুল ইসলামের ইন্তেকাল

মোংলা পৌর বিএনপির সহ-সভাপতি মো: মমতাজুল ইসলামের ইন্তেকাল

 


মোংলা প্রতিনিতিঃ মোংলা পৌর বিএনপির সহ-সভাপতি মো: মমতাজুল ইসলাম (৮২) ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্নাইলাহি রাজিউন)। বাধক্যজনিত কারণে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ৩টা ৪৫ মিনিটের সময় পৌর শহরের রাজ্জাক সড়কস্থ তার নিজ বাড়ীতে মারা যান তিনি। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ৪ পুত্র ও ৫ কন্যাসহ আত্মীয়-স্বজন এবং অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। শুক্রবার বিএলএস জামে মসজিদ চত্বরে মরহুমের জানাযা নামাজ শেষে পৌর কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে। মরহুমের জানাযায় বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দসহ বিপুল সংখ্যক লোকজন অংশ নেন। মরহুম মমতাজুল ইসলাম ছিলেন পৌর বিএনপির সহ-সভাপতি ও ৫ নং ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি। রাজনীতির পাশাপাশি ছিল বিভিন্ন ব্যবসাও। পৌর শহরের প্রাণ কেন্দ্রে অবস্থিত সুনামধন্য ‘হোটেল প্যারাডাইসথর মালিকও ছিলেন তিনি। তিনি ছিলেন একজন ক্রীড়াবিদ ও ক্রীড়া প্রেমী। বিএনপি নেতা মরহুম মমতাজুল ইসলামের মৃত্যুতে শোক জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন বাগেরহাট জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক লায়ন ড. শেখ ফরিদুল ইসলাম, মোংলা পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মো: জুলফিকার আলী, বিএনপি নেতা এমরান হোসেন, মাহবুবুর রহমান মানিক, বাবুল হোসেন রনি, আ: সালাম ব্যাপারীসহ থানা ও পৌর বিএনপিসহ সকল সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা। 

বাজার মানব কল্যাণ সংস্থার নবগঠিত কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠান সম্পন্ন

 বাজার মানব কল্যাণ সংস্থার নবগঠিত কমিটির  অভিষেক অনুষ্ঠান সম্পন্ন

মোঃরেজাউল ইসলাম শাফি, কুলাউড়া উপজেলা প্রতিনিধিঃশিক্ষা, ঐক্য, মানবতা,  এই প্রতিপাদ্য বিষয় নিয়ে চৌধুরী বাজার মানব কল্যাণ সংস্থার  কমিটি গঠন করা হয়। তার ধারাবাহিকতায়  চৌধুরী বাজার মানব কল্যাণ সংস্থার আয়োজনে অভিষেক ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের  আয়োজন করা হয় (২৭ নভেম্বর) শুক্রবার বিকাল ৪ ঘটিকায়  স্থানীয় চৌধুরী বাজারে , সংগঠনের সভাপতি আহমদ হোসেন জামালের সভাপতিত্বে  সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম জুয়েলের পরিচালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাউৎগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল জলিল জামাল, সংবর্ধিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন  সংগঠনের উপদেষ্টা রুহুল আমিন, শেখ লুৎফুর রহমান, তাজুল ইসলাম, এস রুজেল আহমদ, রাসেল হুসাইন , রুমন আহমদ,এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন  চৌধুরী বাজার মানব কল্যাণ সংস্থার সিনিয়র সহ সভাপতি নুরুল ইসলাম, আসিফ 
 আহমদ,সহ সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল জুনেদ, গোলাপ খান, সাংগঠনিক সম্পাদক জাহিদ চৌধুরী সাব্বির, রুমেল আহমদ, জেবুল আহমদ,পাবেল খান, ইমন আহমদ, হুসাইন  আহমদ , শিমুল আহমদ, সালাউদ্দিন আহমেদ, সাদিক আহমদ প্রমুখ।

লাকসাম পরিত্যাক্ত ডোবার থেকে কিশোরের লাশ উদ্ধার

লাকসাম পরিত্যাক্ত ডোবার থেকে কিশোরের লাশ উদ্ধার

লাকসাম, কুমিল্লা জেলা  প্রতিনিধিঃকুমিল্লার লাকসাম পৌরশহরের কোমারডোগা এলাকা থেকে নিখোঁজের ৭২ঘন্টা পর আজাদ আহম্মেদ মুন্না (১৩) নামে এক কিশোরে মরদেহ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। সে সিলেট সুনামগঞ্জ দোয়ারা বাজার উপজেলার বড়হরি গ্রামে মঞ্জিল মিয়ার ছেলে। বর্তমানে পিতা-মাতার সহ প্রায় ১বছর যাবৎ তার নানার বাড়ী গন্ডামারায় তারা বসবাস করছে। শুক্রবার (২৭ নভেম্বর) সকালে থানা পুলিশ সংবাদ পেয়ে তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই কিশোরের মরদেহ উদ্ধার করে।


আত্মীয় সূত্রে জানা যায়, গত মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) বিকেলে মুন্না তার আত্মীয় স্থানীয় বাসিন্দা পিকআপ ড্রাইবার জাহিদের গাড়ি পরিস্কার শেষে বাড়িতে গিয়ে ফুচকা খাওয়ার জন্য মায়ের কাছ থেকে ২০টাকা নিয়ে বাহির হয়ে আর ঘরে ফিরেনি । পরিবার সদস্যরা ওইদিন বিকেল থেকে মুন্না বাড়িতে না ফেরায় অনেক খোঁজাখুঁজির পর তার মা মনোয়ারা বেগম বুধবার সকালে লাকসাম থানায় একটি সাধারণ ডাইরী রুজু এবং সমগ্র এলাকায় মুন্না নিখোঁজের মাইকিং প্রচার করে।

দীর্ঘ ৭২ ঘন্টা মুন্না নিখোঁজের কোন সংবাদ পায়নি স্বজনরা। অবশেষে শুক্রবার সকালে এলাকার ছেলেরা ক্রিকেট খোলার সময় ক্রিকেট বলটি কোমারডোগা গ্রামের ছোবহান মিয়ার ডোবায় পড়ে গেলে বলটি তুলতে গিয়ে ১টি মরদেহ দেখতে পায়। তখন ওইসব ছেলেরা চিৎকার দিলে আশেপাশের লোকজন ছুটে এসে মরদেহটি চিনতে পেরে স্বজনদের খবর দেয়। স্বজনরা ঘটনাস্থলে এসে পুত্রকে চিনতে পেরে তাৎক্ষনিক শোকে আত্মচিৎকার শুরু করলে কিছুক্ষনের জন্য সমগ্র এলাকা স্তব্ধ হয়ে পড়ে।


এ ঘটনাটি একটি হত্যাকান্ড বলে ওই কিশোরের স্বজনরা জানায়। সংবাদ পেয়ে লাকসাম থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে কিশোর মুন্নার মরদেহ উদ্ধার করে।


শুক্রবার (২৭ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১১টায় মরদেহটি উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।


স্থানীয় একাধিক সূত্র জানায়, ঐ ডোবার পাশে পরিত্যাক্ত একটি মাঠে প্রতিনিয়ত ফুটবল/ক্রিকেট খেলা নিয়ে ঝগড়া/মারা-মারির ঘটনা ঘটে আসছে। ওই মাঠ নির্জন থাকার কারণে সন্ধার পর মাদকের হাট বসে এবং বিভিন্ন এলাকা থেকে আগত বিভিন্ন বয়সী নারীদের আনা ঘোনা চলে আসছে। স্থানীয় ভাবে একাধিক বার ওই সব অনৈতিক কর্মকান্ড প্রতিহতের উদ্দ্যোগ নিলেও এলাকার কতিপয় ব্যক্তির কারনে তা বন্ধ হচ্ছে না। মুন্নার মৃত্যুকে একটি পরিকল্পিত হত্যাকান্ড বলে অভিমত দেন এলাকাবাসী। তবে কেউ কেউ এ ঘটনাকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে বলছেন ভিন্ন কথা।


স্থানীয়, ওয়ার্ড কাউন্সিলর ওমর আলী জানায়, বিভিন্ন মাধ্যমে মরদেহ পাওয়ার খবর শুনে তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে যাই। এবং বিস্তারিত অবগত হই। তবে হত্যাকান্ডের পাশা-পাশি বিদ্যুৎ বিভাগের দায়িত্বহীনতাকে দায়ী করা সহ ময়না তদন্ত রিপোর্টের উপর ভিত্তি করে এ ঘটনাটি পরিস্কার হবে বলে মনেকরি।


লাকসাম থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ নিজাম উদ্দীন জানান, মরদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য কুমিল্লা মর্গে পাঠানো হয়েছে।

গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়নে গনসংযোগ করেন এমপি প্রতিনিধি আমিনুর রহমান

গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়নে গনসংযোগ করেন এমপি প্রতিনিধি আমিনুর রহমান


স্টাফ রিপোর্টারঃ আজ (২৭ শে নভেম্বর ) শুক্রবার  সন্ধা ৬ টার পর  থেকে  রাত ৮ টা পর্যন্ত   যশোর জেলার ঝিকরগাছা উপজেলাধীন ১ নং গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়ন এর ৭ নং ওয়ার্ডের কাগমারী গ্রামের  দাসপাড়ায়  চায়ের দোকান, মন্দির সহ জনগুরুত্বপূর্ণ এলাকায়   গনসংযোগ করেন ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও বর্তমান এমপি প্রতিনিধি আমিনুর রহমান। 
এসময় তার সাথে ছিলেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আব্দুস সামাদ, আওয়ামী লীগ নেতা মহর আলী,আবুল কালাম,বাবুল আক্তার, আক্তারুল  ইসলাম,আবুল ফজল, আব্দুর গফুর, আহাদ,ইমামুল হক, শহীদ, নিমাই চন্দ্র, নজরুল ইসলাম,আঃ খালেক,    কার্তিক,ইয়াজুল ইসলাম (বাকের), আবু তাহের, ফহিম বক্স, তোতা, আঃ গনি, মহসীন প্রমুখ। 


এসময় তিনি সকলের সাথে কুশল বিনিময় করেন এবং আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে তার পক্ষে দোয়া ও সমার্থন চান। 

আশাশুনির কুঁন্দুড়িয়ায় প্রাক্তন প্লেয়ারদের প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত

আশাশুনির কুঁন্দুড়িয়ায় প্রাক্তন প্লেয়ারদের প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত

আহসান উল্লাহ বাবলু আশাশুনি সাতক্ষীরা  প্রতিনিধি:
আশাশুনির কুঁন্দুড়িয়া পি এন মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে প্রাক্তন প্লেয়ারদের অংশ গ্ৰহনে ৫০ ঊর্ধ্ব এবং পাইথালী মিলন মহল যুব সংঘের প্রাক্তন প্লেয়ারদের সমন্বয়ে গঠিত দলের মধ্যে প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার বিকাল ৪টায় ঐতিহ্যবাহী কুঁন্দুড়িয়া পি এন মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে পাইথালী মিলন মহল যুব সংঘের আয়োজনে আয়োজিত খেলায় প্রধান অতিথি ছিলেন বুধহাটা ইউপি চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার আবম মোসাদ্দেক, বিশেষ অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী, তরুন উদীয়মান রাজনীতিবীদ এম ডি ফিরোজ আহমেদ, ইউপি সদস্যর মতিয়ার রহমান, মোঃ আলতাফ হোসেন, গ্ৰাম আদালতের সমন্ময়ক রবিউল ইসলাম তোতা প্রমূখ।

হাজার দর্শকের উপস্থিতিতে মনোমুগ্ধকর ভিন্নধর্মী এই প্রীতি ফুটবল খেলায় ৫০ ঊর্ধ্ব দল ১-০ গোলের ব্যবধানে পাইথালী মিলন মহল যুব সংঘ দলকে পরাজিত করে।

কাউন্সিলর পদে মনোনয়ন প্রত্যাশী নাজিম উদ্দীন নাজু

 কাউন্সিলর পদে মনোনয়ন প্রত্যাশী নাজিম উদ্দীন নাজু

সেলিম চৌধুরী,  স্টাফ  রিপোর্টারঃচট্টগ্রামের প্রথম শ্রেণীর পটিয়া পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ড একটি একটি গুরুত্বপূর্ণ ওয়ার্ড। এ ওয়ার্ডে  অবস্থিত  হযরত শাহচান্দ আউলিয়ার মাজার ছাড়াও পিটিআই ট্রেনিং ইনস্টিটিউটে। রয়েছে পটিয়া পৌরসভার কার্য়লয় ও পটিয়া জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত, পটিয়া বিসিক শিল্পনগরীসহ শিক্ষিত জনগোষ্ঠীর বসবাস সহ অনেক    জ্ঞানীগুনি শিক্ষাবিদ রাজনৈতিক নেতা ব্যাবসায়িসহ সরকারি বেসরকারি নেতাদের বাসস্থান।  আসন্ন পটিয়া পৌরসভা নির্বাচন আওয়ামীলীগের সমর্থনে  ৭ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে    নির্বাচন  করা জন্য মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন ৭নং ওয়ার্ডের আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি ও পটিয়া পৌরসভা আওয়ামী যুবলীগের সহ সম্পাদক আওয়ামী যুবলীগের তূর্ণমূল থেকে উঠে আসা লড়াই সংগ্রামের মধ্য দিয়ে নির্যাতিত ছাত্রনেতা নাজিম উদ্দিন নাজু।


জাতীয় সংসদের হুইপ আলহাজ্ব শামসুল হক চৌধুরীর নেতৃত্বে  ৭ নং ওয়ার্ডে  বিভিন্ন ক্ষেত্রে উন্নয়ন ও  জনগণের  সেবা নিশ্চিত করতে  নির্বাচনে আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়নে সমর্থন  প্রত্যাশি নাজিম উদ্দীন নাজু। নাজিম  জানান,  সাধারণ মানুষের  বিভিন্ন সরকারি  সেবা নিশ্চিত করতে আসন্ন পটিয়া পৌরসভা নির্বাচনে দলীয় সমর্থনে প্রতিদ্বন্ধিতা করে কাউন্সিলর হতে চায় । পটিয়ার এমপি জাতীয় সংসদের মাননীয়  হুইপ আলহাজ্ব শামসুল হক চৌধুরী নির্দেশে দীর্ঘদিন ধরে ছাএলীগ থেকে শুরু করে যুবলীগ রাজনীতির সাথে জড়িত। ১৯৯৬ সাল থেকে আজ পর্যন্ত দলের জন্য কাজ করেছি। দলের জন্য কাজ করতে গিয়ে মামলা হামলা নির্য়াতনের শিকার হয়েছি। আমার দৃঢ় বিশ্বাস দল আমাকে মনোনয়ন দিলে আমি কাউন্সিলর নির্বাচিত হব। ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামী যুবলীগ সভাপতি নাজিম উদ্দীন নাজু বলেন,আমি এলাকার বিভিন্ন  সামাজিক সংগঠনের সাথে জড়িত। বিগত সময়ে বিভিন্ন   আন্দোলন সংগ্রামে রাজপথে ছিলাম  দলের সিদ্ধান্ত মেনে নির্বাচন করব ।  তিনি বলেন,  দল যদি চায় নির্বাচন করতে  সর্বোচ্চ  প্রস্তুত রয়েছি। তবে  দলীয় সিদ্ধান্ত চুড়ান্ত। নাজিম  বলেন, পটিয়া পৌরসভার মধ্যে ৭নম্বর ওয়ার্ডকে একটি আধুনিক মডেল ওয়ার্ড হিসাবে গড়ে তুলতে এবং সাধারণ মানুষের সেবা নিশ্চিত করতে  দারিদ্রদের মধ্যে যে কোন  জিনিস পত্র বিতরণ কিংবা দরিদ্র জনগোষ্ঠীকে সঠিকভাবে মূল্যায়ন করতে  তিনি নির্বাচন করতে আগ্রহী। নাজিম আরোও জানান আমরা সুসময় জন্য দল করেনি দলের স্বার্থ সংরক্ষণ জন্য জীবন বাজি রেখে সংগঠন করেছি অনেকবার বিএনপি জামাত জোট সরকারে  শাসনআমলে অনেকবার   মৃত্যুর মুখোমুখি হতে হয়েছে।করোনাভাইরাস শুরু থেকে এখন পর্যন্ত গরীব, দুঃখী, মেহনতী অসহায় দিনমজুর মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ  এবং  দুর্গাপুজায়  সহযোগিতা করেছি।  জনগণকে সঠিকভাবে মূল্যায়ন করা হবে জানিয়ে পৌরসভা যুবলীগ সহ সম্পাদক  নাজিম বলেন, জাতীয়   সংসদের হুইপ পটিয়ার এমপি  আলহাজ্ব   সামশুল হক চৌধুরীর সহযোগিতায় বিগত ১২ বছরে পটিয়ায়   হাজার হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন হয়েছে। এই উন্নয়নের  ধারাবাহিকতা অব্যহত রাখতে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহবান জানিয়ে   তিনি সকলের সহযোগিতা   দোয়া  ও আশীর্বাদ কামনা  করেন.

স্বাস্থ্যবিধি মেনে শুধুমাত্র সনাতন ধর্মাবলম্বীদের পূজা ও পূণ্যস্নানে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

 স্বাস্থ্যবিধি মেনে শুধুমাত্র সনাতন ধর্মাবলম্বীদের পূজা ও পূণ্যস্নানে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

মোঃএরশাদ হোসেন রনি, মোংলাঃকরোনা পরিস্থিতির কারণে এবার সুন্দরবনের দুবলার চরে শত বছরের ঐতিহ্যবাহী রাস উৎসব বা মেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে না। মেলার পরিবর্তে শুধুমাত্র সনাতন (হিন্দু) ধর্মাবলম্বীদের রাস পূর্ণিমার পূজা ও পূণ্যস্নানে অংশগ্রহণের অনুমতি দেয়া হয়েছে।

ইতিমধ্যে রাস পূজা ও পূণ্যস্নানে অংশ নেয়ার জন্য মোংলাসহ সুন্দরবন অঞ্চলের সনাতন ধর্মালম্বী লোকজন বন বিভাগের দেয়া সকল শর্তবিধি মেনে যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। অপরদিকে পরিবেশবাদীরা এবার সীমিত আকারে রাস পূজার অনুমতি দেয়ায় বন বিভাগকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের কাছে এক আকর্ষণীয় উৎসবের নাম সুন্দরবনের দুবলার চরের আলোর কোলের রাস মেলা বা উৎসব। সনাতন (হিন্দু) ধর্মাবলম্বীদের পূজা অর্চনা ঘিরে এই রাস মেলা অনুষ্ঠিত হলেও ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে প্রতিবছর হাজার হাজার মানুষ এই মেলায় অংশগ্রহণ করেন।

প্রতিবেশী রাষ্ট্র ভারতসহ বিদেশ থেকেও অনেক ভক্ত ও দর্শনার্থীরা আসেন এই মেলায়। করোনা পরিস্থিতির কারণে এবার শর্ত সাপেক্ষে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শুধুমাত্র সনাতন ধর্মাবলম্বীদের পূজা ও পূণ্যস্নানে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। আগামী  ২৯ নভেম্বর সন্ধ্যায় সুন্দরবনের দূবলার চরে রাস পূজা ও ৩০ নভেম্বর সকালে দূবলার চর সংলগ্ন বঙ্গোপসাগরে পুণ্যস্নানের মাধ্যমে রাস পূজা শেষ হবে। ২৮ নভেম্বর ভোর থেকে পূজারীরা সুন্দরবনের দুবলার চরের আলোর কোলের উদ্দেশ্যে ট্রলার ও নৌকা নিয়ে রওনা দিবেন। এর আগে ২০১৯ সালে ঘূর্ণিঝড় বুলবুলে কারণে রাস পূজা ও পূণ্যস্নান উপলক্ষে কোনো মেলা বা উৎসব হয়নি।

প্রতিবছর রাস উৎসব বা মেলায় অংশ নেবার নামে এক শ্রেণির অসাধু লোক সুন্দরবনের অভ্যন্তরে প্রবেশ করে হরিণ ও নানা বন্যপ্রাণী শিকারসহ জীব বৈচিত্রের নানা ধরনের ক্ষতি সাধন করে আসছিল। এবার সীমিত আকারে রাস পূজার অনুমোদন দেওয়ায় বন্যপ্রাণী নিধন ও পরিবেশের ক্ষতি অনেকটাই হ্রাস পাবে বলে মনে করছেন পরিবেশবাদিরা।

বারবাজার হাইস্কুলে ”মুজিব শতবর্ষ স্মরনে” বিশেষ ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান

বারবাজার হাইস্কুলে ”মুজিব শতবর্ষ স্মরনে” বিশেষ ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান



খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার,খুলনা ব্যুরো প্রধান:ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে হাটবারবাজার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে মুজিব শতবর্ষ স্মরনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রাত্যহিক সমাবেশে বঙ্গবন্ধুর স্মরনে নিয়মিত শপথবার্তা পাঠের লক্ষে বিশেষ ম্যাগাজিন ও শুটিং অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।
"প্রজন্মের শপথ-বঙ্গবন্ধু তোমায় মনে রাখবো"  এই গানকে সামনে রেখে শুক্রবার সাকালে হাট বারবাজার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের আয়োজনে বিদ্যালয় প্রঙ্গনে এক বিশেষ ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ উপলক্ষে প্রথমে কেক কেটে অনুষ্ঠান শুরু করা হয়। পরে শান্তির প্রতিক কবুতরের পায়ে জন্মবার্তা পাঠানো ও শিক্ষার্থীদের পাঠ শেখানো, জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মাধ্যমে বিজয়বার্তা পাঠানো, শপথবার্তার মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিত্বে পূষ্পমাল্য অর্পন, শপথ গান বঙ্গবন্ধু তোমায় মনে রাখবো, কবিতা অবৃতি এবং শিক্ষার্থীদের স্কুল পোশাক বিতরন করা হয়। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলামের সঞ্চালনায় ও বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও বারবাজার ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মাহবুবার রঞ্জুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনার, বিশেষ অতিথি হিসাবে কালীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর সিদ্দিকী ঠান্ডু, ভাইস চেয়ারম্যান শিবলী নোমানী। 

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, যশোর টিচার্স ট্রেনিং কলেজের অধ্যক্ষ, প্রফেসর ড. জয়নাল আবেদীন খান, কালীগঞ্জ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মধুসুদন সাহা, দ্যা অ্যাপারেল নিউজের সম্পাদক ও সভাপতি অমিত কুমার বিশ্বাস, সাংবাদিক হাবিব ওসমান, সুজন হোসেন প্রমূখ।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমপি আপনার বলেন, বঙ্গবন্ধুর জীবনী, মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস ও গৌরবগাঁথা যথাযথভাবে পৌঁছে দিতে হবে প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে। বঙ্গবন্ধু, মুক্তিযুদ্ধ ও বাংলাদেশ  এই তিনটি শব্দ একই সুতোয় গাঁথা। বাঙ্গালীর ইতিহাসের মহানয়ক জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনী নতুন প্রজন্মকে জানাতে শিক্ষকদের প্রতি আহবান জানান।  বঙ্গবন্ধুর আদর্শে রয়েছে চিরন্তন প্রেরণার উৎস। তরুণ প্রজন্ম যেন সেই ইতিহাস সঠিকভাবে অনুধাবন করে আর বঙ্গবন্ধুর আদর্শের পথে নিজেদেরকে পরিচালিত করার মতো পাঠদান করবে এমনটি আশা করেন তিনি।

দিনাজপুরে জমি-জমার বিরোধে দেশীয় অস্ত্রের কোপে নিহত-১

দিনাজপুরে জমি-জমার বিরোধে দেশীয় অস্ত্রের কোপে নিহত-১

মামুনুর রশিদ,দিনাজপুর প্রতিনিধি ঃ দিনাজপুরের বিরলে ভাই ভাইয়ে জমি-জমার পূর্ব বিরোধে ধান কাটতে বাঁধা দেয়ায় দেশীয় অস্ত্রের কোপে নিহত হয়েছে একজন। পুলিশ একটি দেশীয় অস্ত্র (হাসুয়া) উদ্ধার করেছে। ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।
শুক্রবার দুপুরে উক্ত জমিতে থাকা ধান আব্দুল কাদের কেটে শুকাতে দেয়ার পর অপর ভাই আবুল হোসেন বাবু'র রোপিত ধান ক্ষেত আরেক ভাই রোস্তম আলী তাঁর স্ত্রী সন্তানসহ ভাড়াটে লোকজন নিয়ে কাটতে যায়। এ সময় আব্দুল কাদের ও আবুল হোসেন বাঁধা দিতে গেলে তর্ক-বিতর্কের এক পর্যায়ে মারপিট শুরু হয়। মারপিটের এক পর্যায়ে রোস্তম আলীর ছেলে নাঈম ইসলাম (৩৫) ধারালো দেশীয় অস্ত্র (হাসুয়া)'র কোপ দিলে আব্দুল কাদের রক্তাক্ত জখম হোন। 
এসময় আত্মচিৎকারে পরিবারের অন্যান্য লোকজনসহ প্রতিবেশিরা এগিয়ে এলে নাঈম ইসলাম ও তাঁর পিতা রোস্তম আলী এবং মাতা নারগীস বেগম ও ভাড়াটে লোকজনগুলো পালিয়ে যায়। 
পরে তড়িঘড়ি করে আব্দুল কাদেরকে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। 
বিরল থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ নাসিম হাবিব জানান, সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌছে একটি ধারালো দেশীয় অস্ত্র (হাসুয়া) উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনায় জড়িতদের আটকের চেষ্টা চলছে। মামলা দায়ের প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

 

নগরকান্দায় দৃষ্টি প্রতিবন্ধীর মানবেতর জীবনযাপন ভাগ্যে জুটেনি সরকারি কোন অনুদান

 নগরকান্দায় দৃষ্টি প্রতিবন্ধীর মানবেতর জীবনযাপন ভাগ্যে জুটেনি সরকারি কোন অনুদান

 


ফরিদপুর প্রতিনিধিঃ ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলার লস্করদিয়া ইউনিয়নের বারখাদিয়া গ্রামের দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী রোজিনা বেগম (৩৮)। স্বামী হামেদ শেখ (৫৫) একজন সামান্য বেতনের কেয়ারটেকার। ঘরে অসুস্থ শয্যাশয়ী বৃদ্ধা মা সহ পাঁচ সদস্যদের নিয়ে ভাঙ্গা একটি ছাপড়া ঘরে মানবেতর জীবনযাপন করছেন তারা। এক বেলা খেলে অন্য বেলা তাদের থাকতে হয় উপোস।

সরকারের সাহায্য নিয়ে দুই বেলা খেয়ে বেঁচে থাকার স্বপ্ন দেখছেন তারা কিন্তু স্বপ্ন তাদের কাছে এখনও অধরা। একমাত্র উপার্জনক্ষম স্বামীর সামান্য বেতনের টাকায় অর্ধাহারে-অনাহারে দিন কাটাতে হয় তাদের।

জন্মগতভাবে রোজিনা বেগম অন্ধ হলেও তিনি আজ পর্যন্ত পাননি কোনো প্রতিবন্ধীভাতা। সরকারি সহায়তার জন্য একাধিক বার জনপ্রতিনিধিদের দ্বারে দ্বারে ঘুরেও কোনো সুফল পাননি।

তাই দৃষ্টি প্রতিবন্ধী রোজিনা বেগম মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে একটি প্রতিবন্ধী ভাতা সহ থাকার জন্য একটি ঘরের দাবী জানিয়েছেন।

কয়রায় ৫ শ কৃষকের মাঝে সার ও বীজ বিতরন

কয়রায় ৫ শ কৃষকের মাঝে সার ও বীজ বিতরন


মোহাঃ ফরহাদ হোসেন  কয়রা(খুলনা)প্রতিনিধিঃ চলতি রবি মৌসুমে প্রাকৃতিক দূর্যোগের কারনে ক্ষয়ক্ষতি পুষিতে নিতে এবং রবি মৌসুমে ফসলের উৎপাদন বাড়ানোর লক্ষ্যে গোপালগঞ্জ জেলায় বিএআরআই এর কৃষি গবেষণা কেন্দ্র স্থাপন ও দেশের দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলের পরিবেশ-প্রতিবেশ উপযোগী গবেষণা কার্যক্রম জোরদারকরনের মাধ্যমে কৃষির উন্নয়ন প্রকল্পের অর্থায়নে উপজেলার ৫০০ জন ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মধ্যে বিনামূল্যে বোরো ধানের বীজ, আলু ও রবি মৌসুমের বিভিন্ন ফসলের বীজ ও সার বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সকাল ১০ টায় মহারাজপুর ইউনিয়ন পরিষদের মাঠে বাংলাদেশ কৃষি গবেষনা ইনস্টিটিউট, সরেজমিন গবেষণা বিভাগ খুলনা এর আয়োজেন এ সব বীজ সার বিতরণ করা হয়। মহারাজপুর ইউপি চেয়ারম্যান জিএম আব্দুল্লাহ আল মামুন লাভলুর সভাপতিত্বে এ উপলক্ষে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা সরেজমিন গবেষণা বিভাগ খুলনা ড. হারুনর রশিদ। এমএলটি সাইট কযরার বৈজ্ঞানিক সহকারি জাহিদ হাসানের পরিচালনায় এতে আরও বক্তব্য রাখেন উপজেলা কৃষকলীগের আহবায়ক প্রভাষক শাহাবাজ আলী, উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রচার সম্পাদক এসএম হারুন অর রশদি, সাংবাদিক সদর উদ্দীন আহম্মেদ, ইউপি সদস্য আঃ অহিদ মোড়ল, আকবর ঢালী, মহিলা সদস্য নুরজাহান বেগম, আনোয়ার হোসেন প্রমুখ। এ সময় প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, প্রধানমন্ত্রীর ঘোষনা অনুযায়ী এক ইঞ্চি জমিও যেন খালী পড়ে না থাকে সেই লক্ষে প্রণোদনা দিচ্ছে বাংলাদেশ সরেজমিন কৃষি গবেষণা বিভাগ। কৃষি বান্ধব সরকার খাদ্য মোকাবেলায় বড় চ্যালেঞ্চ নিয়ে সরকার করোনাকালীন যেন খাদ্য ঘাটতি না ঘটে তাই বিনামূল্যে কৃষকদের মাঝে বীজ ও সার বিতরণ করা হচ্ছে। তিনি কৃষকদের উদ্যেশে আরও বলেন, রবি মৌসুমে কৃষকদের সর্বাত্তক প্রচেষ্টায় কয়রায় বিভিন্ন মাঠে ফসল ফলবে। সোনালী ধান , শীতকালীন সবজি, হলুদ ও সবুজের মিশ্রনে সরিষার ক্ষেত সহ অন্য ফসলে কয়রার মাঠ সোনালী ফসলে সবুজে সমারোহে ভরপুর যেন থাকে।

ঝিকরগাছায় মুদিখানা মালিক ব্যবসায়ী সমিতির উদ্যোগে কোভিড-১৯ প্রতিরোধে মাস্ক বিতরন কর্মসূচী অনুষ্ঠিত

ঝিকরগাছায় মুদিখানা মালিক ব্যবসায়ী সমিতির উদ্যোগে কোভিড-১৯ প্রতিরোধে মাস্ক বিতরন কর্মসূচী অনুষ্ঠিত

মোঃ ইকরামুল করিম সৈকত , ঝিকরগাছা প্রতিনিধিঃ যশোরের ঝিকরগাছায় মুদিখানা মালিক ব্যবসায়ী সমিতির উদ্যোগে কোভিড-১৯ প্রতিরোধে মাস্ক বিতরন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছে।
শুক্রবার সকাল ১০টায় ঝিকরগাছা বাজার কাপুড়িয়া পট্টিতে অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে  প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঝিকরগাছা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম। বিশেষ অথিতি হিসেবে উপস্তিত ছিলেন ঝিকরগাছা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান  সেলিম রেজা।
এছাড়াও ঝিকরগাছা উপজেলার সাবেক আওয়ামীলীগ নেতা আমিনুল কাদীর টুল্লু, বাংলাদেশ পূজা উর্যাপন পরিষদের সভাপতি দুলাল অধিকারী, ও ঝিকরগাছা বাজারের মুদি ব্যবসায়ী সমিতির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অনলাইনে কেনাকাটা এখন রত্না ফ্যাশন হাউজে

অনলাইনে কেনাকাটা এখন  রত্না ফ্যাশন হাউজে

যারা অনলাইনে কেনাকাটা করতে চান তারা এখনি ঘুরে আসতে পারেন  রত্না ফ্যাশন হাউজ এখানে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের রুচিশীল প্রডাক্ট প্যান্ট  টি-শার্ট জ্যাকেট পাঞ্জাবি কাবলি থ্রি পিস পলোসার্ট শাড়ি  লেহেঙ্গা বিছানার চাদর অন্যান্য প্রোডাক্ট

ঝিকরগাছার কৃতি সন্তান আনোয়ার হোসেনকে প্রেসিডিয়াম সদস্য করায় আনন্দ র‌্যালী

ঝিকরগাছার কৃতি সন্তান আনোয়ার হোসেনকে প্রেসিডিয়াম সদস্য করায় আনন্দ র‌্যালী


মোঃ মতিয়ার রহমান , ঝিকরগাছা প্রতিনিধি  : ‘গৌরব, ঐতিহ্য, সংগ্রাম ও সাফল্যের’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়নের কৃতি সন্তান আনোয়ার হোসেনকে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির প্রেসিডিয়াম সদস্য মনোনিত করাই, জননেত্রী শেখ হাসিনাকে প্রাণঢালা শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে আনন্দ র‌্যালী অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকালে উপজেলার ১নং গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ সহ সকল অঙ্গ সংগঠনের আয়োজনে গঙ্গানন্দপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠ হতে আনন্দ র‌্যালীটি বের হয়ে ছুটিপুর বাজার হয়ে গুরুত্বপূর্ণ স্থান প্রদক্ষিণ করে আবারও  প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে সংক্ষিপ্ত আলোচনাসভার মধ্যদিয়ে আনন্দ র‌্যালীর পরিসমাপ্তি ঘটে। গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আতাউর রহমান ঝন্টুর সভাপতিত্বে আনন্দ র‌্যালীতে উপস্থিত ছিলেন, সহ সভাপতি বীরমুক্তীযোদ্ধা আবদার রহমান, মতিয়ার রহমান, সাধারণ সম্পাদক ও চেয়ারম্যান বদরউদ্দীন বিল্টু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আদম আলী, সহ সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, সালাউদ্দিন বাবু, প্রচার সম্পাদক আজগর আলী, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক কওসার আলী, ইউনিয়ন যুবলীগের আহব্বায়ক গোরা চাঁদ চক্রবর্তী , যুগ্ম আহব্বায়ক বাবলুর রহমান, ময়েজ উদ্দিন আহমেদ, লতিফুর কবির মিলন, সদস্য রাজু আহমেদ, ফিরোজ উদ্দীন, মফিজুর রহমান, জাহাঙ্গীর আলম, ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সহ অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় আফতাব উদ্দীন স্মৃতি ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বিনামূল্যে ডায়াবেটিস পরীক্ষা ও চক্ষু সেবা প্রদান

 ঝিনাইদহের শৈলকুপায় আফতাব উদ্দীন স্মৃতি ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে  বিনামূল্যে ডায়াবেটিস পরীক্ষা ও চক্ষু সেবা প্রদান

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃঝিনাইদহের শৈলকুপায় আফতাব উদ্দীন স্মৃতি ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ১ হাজার রোগিকে বিনামূল্যে ডায়াবেটিস পরীক্ষা ও চক্ষু সেবা প্রদান করা হয়েছে। শুক্রবার সকালে শৈলকুপা উপজেলার পিড়াগাতি গ্রামে দিনব্যাপী এ সেবার আয়োজন করা হয়।

আফতাব উদ্দীন স্মৃতি ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান জানান, দিনব্যাপী এলাকার ১ হাজার নারী পুরুষকে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে চক্ষুসেবা ও ডায়াবেটিস পরীক্ষা করা হয়েছে। এসময় ডায়াবেটিস পরীক্ষা ও চক্ষু সেবা প্রদান করেন ডা. মেজবাহুল আজম, ডা. মেহেদী হাসান, ডা. আরাফাত হোসেন, ডা. নাসিরুল ইসলাম লিমন, রবিউল ইসলাম, জিয়াউর রহমানসহ ১০ জন চিকিৎসক। অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন সাবেক ছাত্রনেতা ও সমাজ সেবক আলমগীর হোসেন। পরে বাছাইকৃত রোগিদেরকে ছানি অপারেশনসহ বিনামূল্যে চশমা প্রদান করা হবে বলেও জানান আয়োজকরা। উল্লেখ্য বেসরকারি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা আফতাব উদ্দিন স্মৃতি ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠার পর থেকে এলাকার স্বাস্থ্যসেবা সহ সকল প্রকার উন্নয়ণমূলক কর্মকান্ড অব্যাহত রেখেছেন।

আরও পড়ুনঃ   ঝিনাইদহে আইনজীবী সমিতির নির্বাচন সম্পন্ন

ঝিনাইদহে আইনজীবী সমিতির নির্বাচন সম্পন্ন

ঝিনাইদহে আইনজীবী সমিতির নির্বাচন সম্পন্ন

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃঝিনাইদহ আইনজীবী সমিতির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার সকাল ৯ টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত বার ভবনে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। বৃহস্পতিবার  মধ্য রাতে নির্বাচন কমিশনার এ্যাড. আজিজুর রহমান এ ফলাফল ঘোষণা করেন। নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্যানেল সভাপতিসহ ১৩ টি পদে জয়ী হয়েছেন। অন্য দিকে বিএনপি মনোনীত প্যানেল সাধারণ সম্পাদকসহ ৬ টি পদে নির্বাচিত হয়েছেন।

সভাপতি পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত এ্যাড. খান আখতারুজ্জামান ও বিএনপি মনোনীত সাধারণ সম্পাদক পদে এ্যাড. জাকারিয়া মিলন নির্বাচিত হয়েছেন।

সহ-সভাপতি পদে আব্দুল খালেক-১, সহ-সাধারণ সম্পাদক পদে আব্বাস উদ্দিন, হিসাব নিরীক্ষক পদে আব্দুল খালেক সাগর, সাহিত্য ও গ্রন্থাগার সম্পাদক পদে আব্দুল আলিম-৩, ক্রীড়া ও প্রমোদ সম্পাদক পদে গৌতম কুমার বিশ্বাস, ধর্মীয় ও আপ্যায়ণ সম্পাদক পদে জাহিদুল ইসলাম জাহিদ, তথ্য ও প্রযুক্তি সম্পাদক পদে শাহিনুল ইসলাম শাহিন,  সদস্য পদে মীর সাখাওয়াত হোসেন, হাবিবুল্লাহ বাহার, মঞ্জুরুল ইসলাম, সুভাষ বিশ্বাস মিলন, আসাদুজ্জামান বাবু, আ,ম সোহানুর জোয়ার্দ্দার সাথী, বীনা খাতুন, মুশফিকুর ওয়ালিদ ইমরোজ, মুস্তাফিজুর রহমান মিথুন।

নির্বাচন কমিশনার এ্যাড. আজিজুর রহমান জানান, ভোট গ্রহণ শেষ হয়ে রাত ১ টার দিকে বেসরকারি ভাবে ফলাফল ঘোষণা করা হয়েছে। মোট ভোটার সংখ্যা ২৭৩ জন। এর মধ্যে ২৭১ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন।

আরও পড়ুনঃ   ঝিনাইদহের শৈলকুপায় আফতাব উদ্দীন স্মৃতি ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বিনামূল্যে ডায়াবেটিস পরীক্ষা ও চক্ষু সেবা প্রদান

কাজী মোঃ এয়াকুব আজও স্মৃতির মিনারে চির অম্লান

কাজী মোঃ এয়াকুব আজও  স্মৃতির মিনারে চির অম্লান

সেলিম   চৌধুরী, স্টাফ  রিপোর্টারঃ-মরহুম কাজী মোঃ এয়াকুব এর আগামী ৯ই ডিসেম্বর প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আজকে দুই কলম লিখতেছি, কাজী সাহেব আমাকে নিজের ছোট ভাইয়ের মত ভালবাসতেন, দীর্ঘ দিন তাঁর সাথে চলার পথে আমি দেখেছি জাতীয়তাবাদী রাজনীতিকে ধারণ করে চট্রগ্রাম দক্ষিণ জেলার বিভিন্ন উপজেলায় অসংখ্য নেতা-কর্মী সৃষ্টি করেছেন এবং সব সময় নেতা-কর্মীদের সুখ-দুঃখ ভাংগ করে নিতেন এবং বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী রাজনৈতিক কর্মীদের জন্য পটিয়া থানার মোড়ের ভাড়িটি ছিল অমূক্ত। আমি  চলার পথে দেখেছি সব সময় অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে ও আন্দোলন সংগ্রামে সামনে থেকে নেতা-কর্মীদের সাহস যোগিয়ে রাজপথে নেতৃত্ব  দিয়ে আন্দোলন সফল করতে। আমৃত্যু দল ও দেশের জন্য সংগ্রাম করে গিয়েছিল, বুকে আগলে রেখেছিল রাজপথে,১৯৮৭ সালে ছাত্র নেতা হিসেবে ঢাকা চলো আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়েছিল ও ১৯৯০ সালে স্বৈরাচার বিরুদ্ধী গন আন্দোলনের সময় এরশাদের কথিত স্ত্রী মরিয়ম মমতাজের লিপলেট সহ লাল দিঘির পুরাতন গীর্জায় চট্রগ্রাম দক্ষিণ জেলা বিএনপির অফিসের সামনে থেকে ডিবি পুলিশের কাছে গ্রেফতার হয়।কাজী এয়াকুব গন মানুষের অধিকার আদায়ের জন্য সংগ্রাম করে গেছেন আজীবন।

পটিয়া থানার অন্তর্গত কচুয়াই গ্রামে ১৯৬৪ সালের ২৮ শে সেপ্টেম্বর রোজ রবিবার সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে মরহুম কাজী মোহাম্মদ ইউনুছ এর ঘরে জন্ম গ্রহন করেন।

কাজী মোঃএয়াকুব এর শিক্ষা জীবন শুরু হয় কচুয়াই মাতাদীনি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে,অত্র বিদ্যালয় হতে ৩য় শ্রেণী পাশ পরিবর্তী ৪র্থ ও ৫ম শ্রেণী মোহছেনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় হতে প্রাথমিক পাশ শেষে পটিয়ার স্বনামধন্য এ,এস, রাহাত আলী উচ্চ বিদ্যালয় হতে ১৯৮০ সালে এস সি এবং দক্ষিন চট্টলার ঐতিহ্যবাহী পটিয়া সরকারী কলেজ থেকে এইচ এস সি ও ডিগ্রি পাশ করেন এবং পাশাপাশি আরবি শিক্ষাও গ্রহন করেন।তিনি লোহাগাড়া সিনিয়র মাদ্রাসা থেকে দাখিল ও আলিম এবং ওয়াজেদীয়া আলিয়া মাদ্রাসা পাঁচলাইশ থেকে কামিল পাশ করেন।

কাজী মোঃ এয়াকুব এর রাজনৈতিক জীবন এ,এস, রাহাত আলী উচ্চ বিদ্যালয়ে  অধ্যায়নত থাকা অবস্থায় হাতেখড়ি সংগঠনের মাধ্যমে ডানপন্থী ছাত্র রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়ার মধ্য দিয়ে এবং তারই ধারাবাহিতায় ১৯৮০ সালে পটিয়া সরকারি কলেজ ছাত্র সংসদ নির্বাচনে স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক পদে নির্বাচন করার মাধ্যমে ছাত্র রাজনীতিতে কাজী মোঃ এয়াকুবের উত্থান।১৯৮০-১৯৮৪ সালে পটিয়া কলেজ ছাত্র দলের সভাপতি এবং ১৯৮৫ সালের দক্ষিণ জেলা ছাত্র দলের আহবায়ক ও ১৯৮৭-১৯৯০ সাল পর্যন্ত দক্ষিণ জেলা ছাত্র দলের সভাপতি ছিলেন। ১৯৯১ হতে ১৯৯৫ সালে চট্রগ্রাম দক্ষিণ জেলা যুবদলের সভাপতি ও যুব দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ছিলেন,১৯৯০ সালে স্বৈরাচার এরশাদ বিরোধী আন্দোলনে ডানপন্থী ছাত্র সংগঠন গুলো সংগ্রামী ছাত্র জোট গঠন করলে কাজী মোঃ এয়াকুবকে দক্ষিণ জেলা সংগ্রামী ছাত্র জোটের আহ্বায়ক নির্রবাচিত করা হয়। সংগ্রামী ছাত্র জোটের পাশাপাশি বাম ছাত্র সংগঠন গুলো দক্ষিণ জেলা ছাত্র সংগ্রাম পরিষদ গঠন করে, আন্দোলনের গতি বাড়ানোর লক্ষ্যে সংগ্রামী ছাত্র জোট ও ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের সমন্বয়ের জন্য ১৯৯০ সালে দক্ষিণ জেলা উভয় সংগঠনের সমন্বয়কারী হিসাবে কাজী মোঃ এয়াকুবকে নির্বাচিত করেন।পরবর্তীতে পটিয়া থানা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও দক্ষিণ জেলা বিএনপির সদস্য এবং দলীয় বিভিন্ন কমিটিতে ছিলেন।কাজী মোঃ এয়াকুব ছিলেন জাতীয়তাবাদী রাজনীতির নিবেদিত প্রান। পরবর্তীতে ২০০৬ সালে ড. কর্ণেল অলি আহমেদ বীর বিক্রম (অবঃ) লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি -এলডিপি গঠন করলে কাজী মোঃ এয়াকুব এলডিপিতে যোগদান করেন এবং এলডিপি'র পটিয়া পৌরসভার প্রতিষ্ঠাতা সাধারন সম্পাদক ও চট্রগ্রাম দক্ষিণ জেলার সহ-সভাপতি হন।পরবর্তীতে ২০১৭ সালে  পটিয়া পৌরসভা এল,ডি,পি'র সভাপতি নির্বাচিত হন।

কাজী মোঃএয়াকুব কলেজ পর্যায়ে ছাত্র রাজনীতি শুরু করে জেলা ও কেন্দ্রীয় রাজনীতিতেও প্রিয়মুখ  ছিলেন নেতা-কর্মীদের মাঝে। তিনি একজন বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী ব্যক্তিত্ব ছিলেন।একাধারে তিনি একজন, রাজনৈতিক নেতা,সমাজসেবক ও শিক্ষানুরাগী।সদা কর্মচঞ্চল, মানবদরদি ও কর্মীবান্ধব  ব্যক্তিত্ব ছিলেন। সততা ও নিষ্ঠার মাধ্যমে আদর্শবান রাজনৈতিক ও সমাজসেবক কর্মী হিসেবে সবার কাছে প্রতিষ্ঠিত হয়েছেন।চট্রগ্রাম দক্ষিণ জেলা বা পটিয়া উপজেলায় জাতীয়তাবাদী রাজনীতিতে যদি কেউ এমন কোনো আদর্শবান রাজনীতিবিদ কিংবা সমাজসেবীর নাম বলতে চান তাহলে নিঃসন্দেহে তার নাম বলতে হবে। যেকোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগে সাহায্যের হাত বাড়ানো এবং অসহায় মানুষের কল্যাণে এগিয়ে আসার বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করে একজন উঁচুমাপের সমাজসেবক হিসেবে ব্যাপক সুনাম অর্জন করেছিলেন।

 অসম্ভব মেধা, প্রচণ্ড আত্মবিশ্বাস ও সময়োপযোগী কর্মোদ্যগের মাধ্যমে বহু আগেই সমাজে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিলেন। তিনি দলের ক্রান্তিকালে কেন্দ্রীয়  নির্দেশ পালনের মাধ্যমে দক্ষিণ জেলা ও পটিয়া বিএনপির নেতা-কর্মীদের সুসংগঠিত করতে চেষ্টা করেছেন। সামরিক শাসন আর স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে রাজপথে ছিলেন।স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনের সময়,হামলা-মামলা-নির্যাতন- জেল জুলুম সহ্য করে তিনি এক এক করে কর্মীদের প্রিয় মুখ হয়ে উঠেছিল আজ তিনি আমাদের মাঝে নেই...

আল্লাহর দরবারে প্রার্থনা করি আল্লাহ ভাইয়ের জীবনের সমস্ত গুনহ মাপকরে জান্নাতুল ফেরদৌস দান করেন..আমিন। লেখাগুলো লিখেছেন সাইফুর রহমান, সদস্য লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি-এলডিপি, 
চট্রগ্রাম দক্ষিণ জেলা।

চলনবিল কৃষকের উন্নয়নে সরকার ৬ শ কোটি টাকা ব্যয়ে চলনবিল প্রকল্প দিয়েছেন-পলক

চলনবিল কৃষকের উন্নয়নে সরকার ৬ শ কোটি টাকা ব্যয়ে চলনবিল প্রকল্প দিয়েছেন-পলক




রাজু আহমেদ, নাটোর: 
তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি বলেছেন,
সরকার ৬শ কোটি টাকা চলনবিল প্রকল্প দিয়েছেন। কৃষি ও কৃষকদের উন্নয়নে জননেত্রী শেখ হাসিনা সবসময় পাশে আছে, থাকবো। আমার গ্রাম, আমার শহর প্রকল্পে সিংড়ার গ্রাম গুলো মডেলে পরিনত হবে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বৈরি অবস্থার মধ্য দিয়ে আমরা কাজ করছি। করোনার বিপর্যয়ে শক্তিশালী অর্থনৈতিক দেশ ও বিপর্যস্ত। কিন্তু মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দুর্দর্শিতায় দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। ৯ কোটি মানুষ মোবাইল একাউন্ট ব্যবহার করছে। ১১ কোটি মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করছে। ডিজিটাল বাংলাদেশের সুবিধা ভোগ করছে মানুষ।

তিনি আরো বলেন, জীবনের ঝূঁকি নিয়ে আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ এবং জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক, সরকারী কর্মকর্তা কাজ করছে। ডিজিটাল মাধ্যম ব্যবহার করে আমরা প্রযুক্তিতে এগিয়ে যাচ্ছি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে সারাদেশে বিনামূল্য সার,বীজ সহ অন্যন্যে উপকরণ বিতরন করা হচ্ছে। 

প্রতিমন্ত্রী শুক্রবার সকাল সাড়ে দশটায় নাটোরের সিংড়া ২০২০-২১ মৌসুমে কৃষি পুনর্বাসন ও প্রনোদনা কর্মসূচির আওতায় ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক ২০ হাজার চাষীদের মাঝে বিনামূল্য বোরা ধান, গম, মসুর, চিনাবাদাম, সরিষাসহ বিভিন্ন বীজ ও সার বিতরন কার্যক্রম উদ্বোধনকালে উপরোক্ত কথা গুলো বলেন। প্রতিমন্ত্রী ভার্চুয়ালে যুক্ত হয়ে শুভ উদ্বোধন করেন। 

উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাসরিন বানুর সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন, সিংড়া পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব মো: জান্নাতুৃল ফেরদৌস,  ডাহিয়া ইউপি চেয়ারম্যান এম এম আবুল কালাম, উপজেলা কৃষি অফিসার সাজ্জাদ হোসেন, ডায়াবেটিক সমিতির সাধারন সম্পাদক মাওলানা রুহুল আমিন, সিংড়া মডেল প্রেসক্লাবের  সভাপতি রাজু আহমেদ সহ কৃষি বিভাগের কর্মকর্তা বৃন্দ।

রাজু আহমেদ
২৭/১১/২০

লাকসামে দীর্ঘ ৭ বছরও বিএনপির দুই শীর্ষ নেতা ফিরে না আসায় জনমনে নানা প্রশ্ন

লাকসামে দীর্ঘ ৭ বছরও বিএনপির দুই শীর্ষ নেতা ফিরে না আসায় জনমনে নানা প্রশ্ন

লাকসাম প্রতিনিধিঃ আজ আজ শুক্রবার  নীরবে- নিস্তব্দে কেটে যাচ্ছে কুমিল্লার দক্ষিনাঞ্চল বিএনপি’র প্রান পুরুষ এ অঞ্চলের গণ মানুষের নেতা লাকসামের দুই শীর্ষ ব্যবসায়ী ও বিএনপি নেতা সাইফুল ইসলাম হিরু ও হুমায়ন কবির পারভেজ নিখোঁজের ৭ বছর গুম দিবস।

অপহরণকারীদের পরিবার  জানায়, ২০১৩ সালের ২৭ নভেম্বর এ দিনে র‌্যাব-১১ পরিচয়ে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর লোকজন সাদা পোষাকে লাকসাম উপজেলা বিএনপির সভাপতি, সাবেক এমপি ও দৌলতগঞ্জ বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি সাইফুল ইসলাম হিরু ও  পৌর বিএনপির সভাপতি- ব্যবসায়ী হুমায়ুন কবির পারভেজকে কুমিল্লা যাওয়ার পথে আলীশ্বর নামক স্থান থেকে এবং অপর বিএনপির ১০ নেতা-কর্মীকে নিখোঁজ হিরুর মালিকানাধীন লাকসাম ফ্লাওয়ার মিল থেকে নগদ টাকা ও বেশক’টি দামী মোবাইল সেটসহ আটক করে। ঘটনার দিন সন্ধ্যা পৌনে ৮টা থেকে রাত ২টা পর্যন্ত বিদ্যুৎ সঞ্চালন বন্ধ করে পৌর এলাকার বিভিন্ন স্থানে ওই যৌথবাহিনীর অভিযান চলে। ওইদিন গভীর রাতে অভিযানকারী যৌথ বাহিনীর সদস্যরা আটক ১০ জনকে লাকসাম থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করলেও অপর দুই শীর্ষ নেতা হিরু-পারভেজের ভাগ্যে কি ঘটেছে দীর্ঘ ৩ বছরেও সন্ধান দিতে পারেনি কোন সংস্থা।

স্থানীয় জনৈক মানবাধিকার কর্মী ও রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা জানায়, গত ৩০ আগষ্ট ২০১৬ গুমের মত একটি ভীতিপ্রদ ও অমানবিক ঘটনা বিভিন্ন দেশে যে ভাবে ঘটছে তারই বিরুদ্ধে প্রতিবাদ স্বরূপ এবং গুম বিরোধী জনসচেতনতা গড়ে তোলার জন্য আর্ন্তজাতিক গুম প্রতিরোধ দিবস হিসেবে পালিত হয়েছে। আমাদের দেশেও এ দিনটি পালিত হয়েছে ক্ষোভ, উদ্ভেগ, উৎকন্ঠা ও  চোখের জ্বলের মধ্য দিয়ে। গুমের ঘটনা পুলিশ হেফাজতে নির্যাতনের চেয়েও অনেক বেশি ভয়াবহ ও ট্র্যাজেটি। যাকে গুম করা হয় তাদের আত্মীয় স্বজন কেহই জানতে পারে না অপহৃতরা কোথায় আছে, কি ভাবে আছে, জানতে পারে না তারা কি জীবিত না মৃত। আবার অধিকাংশ ক্ষেত্রেই গুম হওয়া মানুষগুলোর স্বজনেরা তাদের লাশের সন্ধান পায় না। খুব ভাগ্যবান হলে কিছু কিছু লাশের সন্ধান পায়। সেই নিরীক্ষে এ অঞ্চলের গণ মানুষের নেতা হিরু- পারভেজের কি পরিনতি হয়েছে নিখোঁজের ৩ বছর পার হলেও আজও তাদের খোঁজ নেই।


 শুধুমাত্র দু'পরিবার ঘরোয়া ভাবে মিলাদ মাহফিলের আয়োজন ছাড়া স্থানীয় বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা এ নিয়ে জোরালো কোন কর্মসূচী নেয়নি। বিগত দিনে এ দু’নেতার নানাহ কর্মসূচী ঘিরে তৃনমূল নেতাকর্মীদের মাঝে ক্ষোভ ও পকেট বানিজ্যের অভিযোগ উঠেছে। অথচ বলতে বলতে দীর্ঘ ৩ বছর পার হলেও মনে হয় এইতো সেদিনের ঘটনা। তবে এ ঘটনার স্বাদ তীব্র ভাবে অনুভব করছেন অপহৃত দুই পরিবার-পরিজনরা।সর্বচ্চো আতংক আর অপহৃত দুই পরিবারের জন্য সারা জীবনের অলিখিত এক অজানা অপেক্ষার প্রহর গুনতে হচ্ছে স্বজনদের। ওই অপহৃত দু’জনের সন্ধান পেতে এবং স্বজনদের কাছে ফিরে আসতে আজও অপেক্ষায় তারা।

জানা যায়, ২০১৩ সালের এ দিনে এ দক্ষিণ কুমিল্লার লাকসাম অঞ্চলের ২ বিএনপি  নেতা অপহৃত ব্যাক্তিদের দু’পরিবার দাবী করছে, আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য পরিচয়ে ওই শীর্ষ নেতাকে আটক করে নিয়ে যাওয়ার পর দীর্ঘ ৭বছরেও তাদের কোন হদিস পাচ্ছে না। তেমনি কাঁদতে কাঁদতে চোখের পানি শুকিয়ে গেছে অপহৃত দুই নেতার পরিবার-পরিজনের। হিরু-পারভেজ এখনও বেঁচে আছেন, তারা ফিরে আসবে, না কি তাদের মেরে ফেলা হয়েছে তাহলে অন্তত দু’জনের লাশটি ফেরত দিন। কে দিবে স্বজনদের প্রশ্নের জবাব। 

 স্থানীয় লোকজন জানায়, দীর্ঘ ৭ বছর জুড়ে চোখের জ্বলে দিন কাটছেন অপহৃত দু’শীর্ষ নেতার পরিবার-পরিজন ও ভক্তদের। তাদের সন্ধান না পেয়ে স্বজনরা প্রশাসনের ধারে ধারে ঘুরে ক্লান্ত হয়ে পড়েছে। দুই নেতা নিখোঁজে স্তব্দ হয়ে পড়েছে এ অঞ্চলের অলি-গলি। অপহৃতদের স্বজনরা আরো জানায়, থানায় ডায়েরী, কুমিল্লার কোর্টে মামলা তবুও থামছে না স্বজন-ভক্তদের কান্না। এ অঞ্চলের গণ মানুষের নেতা হিরু-পারভেজ নিখোঁজে এ অঞ্চলে একপ্রান্ত থেকে অপরপ্রান্তের মানুষগুলো যেন একাকার হয়ে গেছে। ৭ বছর জুড়ে তবুও নিরবে নিঃস্তব্দে কাঁদছে এ অঞ্চলের সকল পেশার মানুষ। দু’শীর্ষ নেতা নিখোঁজে অপহৃত পারভেজের ছোট ভাই গোলাম ফারুক লাকসাম থানায় ডায়েরী ও কুমিল্লা কোর্টে মামলা দায়ের করলে তার তদন্ত ভার লাকসাম থানা পুলিশের উপর ন্যাস্ত হয়। মামলা ও ডায়েরী তদন্তে ৩ বছর পার হলেও মামলার উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি না থাকা এবং মূল পরিকল্পনাকারীদের সনাক্ত করতে বিভিন্ন তদন্ত সংস্থার লোকজনের ব্যর্থতাকে দায়ী করে তাদের রহস্যজনক নীরব ভূমিকা নিয়ে বিভিন্ন প্রশ্ন তুলেছেন স্বজনরা। এ দিকে দু নেতা নিখোঁজের মামলায় পুলিশী প্রতিবেদনের নারাজী দিয়েছে মামলা ও ডায়েরীর বাদী গোলাম ফারুক।

অপহৃত দুই পরিবারের স্বজনরা জানায়, থানা পুলিশ মূল হোতাদের বাদ দিয়ে তদন্ত প্রতিবেদন আদালতে জমা দিলে, ওই নাটকীয় প্রতিবেদনের বিরুদ্ধে মামলার বাদী গোলাম ফারুক অনাস্থা আবেদন জমা এবং একই সাথে মামলাটি সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ বিচার বিভাগীয় তদন্ত দাবী করেছে।

কিশোরগঞ্জে বাড়ী বাড়ী গিয়ে বিস্কুট বিতরণ

কিশোরগঞ্জে বাড়ী বাড়ী গিয়ে বিস্কুট বিতরণ

মোঃ লাতিফুল আজম,নীলফামারী প্রতিনিধিঃনীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার নয়ানখাল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষার্থীর বাড়ী বাড়ী গিয়ে বিস্কুট বিতরণ করেছে বিদ্যালয়ের শিক্ষকসহ ক্লাষ্টার অফিসার।


সকালে স্কুল ফিডিং কর্মসূচীর আওতায় আরডিআরএস বাংলাদেশের সহযোগীতায় ২শ ৫৯ জন শিক্ষার্থীর বাড়ীতে গিয়ে এ বছরের শেষ দিনের পর্যন্ত বিস্কুট বিতরণ করা হয়। শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার উপর বিশেষ নজরদারী বৃদ্ধি করতে অভিভাবকদের দেয়া হয় পরামর্শ। প্রয়োজন ছাড়া বাহিরে শিশুদের না যাওয়ার জন্য পরামর্শ দেন শিক্ষকবৃন্দ। খাওয়ার আগে ও পরে ভাল করে সাবান পানি দিয়ে হাত ধোয়ার পরামর্শ দেয়া হয়। বাড়ীতে বসে না থেকে অনলাইন ক্লাশ ও সংসদ টিভিতে ক্লাশ উপভোগ করে জ্ঞান চর্চার পরামর্শ দেয়া হয়।

বিস্কুট বিতরণের উদ্বোধন করেন,পানিয়াল পুকুর মিক্সড ক্লাষ্টারের দায়িত্বে থাকা নবাগত সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার মাহ্তাবুর রহমান বুলেট। এসময় উপস্থিত ছিলেন আরডিআরএস বাংলাদেশ নীলফামারী মনিটরিং এন্ড রিপোর্টিং অফিসার সোহেল রানা,আরডিআরএস বাংলাদেশ স্কুল ফিডিং কর্মসূচী প্রকল্পের কিশোরগঞ্জ শাখার ফিল্ড মনিটর সাজেদুর রহমান ও নয়ানখাল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গোলাম মওলা প্রমূখ।

কুলাউড়ায় অভিযান চালিয়ে চুরি হওয়া সিএনজি উদ্ধারসহ আটক ১

কুলাউড়ায় অভিযান চালিয়ে চুরি হওয়া সিএনজি উদ্ধারসহ আটক ১


মোঃরেজাউল ইসলাম শাফি, কুলাউড়া উপজেলা প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার চান্দগাঁও এলাকা থেকে ২৫ নভেম্বর বুধবার গভীররাতে চুরি হওয়া এক সিএনজি গাড়ী উদ্ধারসহ  আমজদ আলী (৩০) নামে একজন কে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ ।
কুলাউড়া থানার ওসি বিনয় ভূূষণ রায় বলেন , ২৫ নভেম্বর বুধবার  গভীররাতে হাজিপুর ইউনিয়নের চান্দগাঁও নিবাসী সুনিল মল্লিক এর বাড়ী থেকে চোরেরা সিএনজি গাড়ী চুরি করে পালানোর সময় রাত্রিকালীন টহলরত এসআই কানাই লাল চক্রবর্তীর নেতৃত্বে পুলিশ ফোর্স জনতার সহায়তায় সিএনজি চোর চান্দগাঁও বাগানবাড়ী নিবাসী আমজদ আলীকে সিএনজিসহ আটক করে। এব্যাপারে সিএনজি গাড়ীর মালিক সুনিল মল্লিক বাদী হয়ে ২৬ নভেম্বর  বৃহস্পতিবার কুলাউড়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। আটক সিএনজি চোর আমজদকে মৌলভীবাজার কোর্টে সোপর্দ করা হয়েছে ও উদ্ধারকৃত সিএনজি গাড়ী থানা হেফাজতে রয়েছে বলে কুলাউড়া থানাসুত্রে জানা গেছে । এছাড়া মামলার অপর আসামিদের গ্রেপ্তারের অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে এসআই কানাই লাল চক্রবর্তী জানান।

খুলনায় মাস্ক পরিধান না করায় ২০ জনকে ১,১৭০০ টাকা জরিমানা

খুলনায় মাস্ক পরিধান না করায় ২০ জনকে ১,১৭০০ টাকা জরিমানা


তুহিন রানা (আব্রাহাম) ; খুলনা নগর প্রতিনিধিঃ
করোনা ভাইরাস সংক্রমণের সম্ভাব্য দ্বিতীয় ওয়েভ মোকাবেলার প্রস্তুতি হিসেবে আজ ২৬ নভেম্বর, জেলা প্রশাসক ও বিজ্ঞ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, খুলনা জনাব মোহাম্মদ হেলাল হোসেনের নির্দেশে নগরীর ৫নং, ৪নং ও ৭নং ঘাট এলাকায় মোবাইল কোর্টের অভিযান পরিচালিত হয়। মোবাইল কোর্টের অভিযান পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জনাব দেবাশীষ বসাক। এছাড়া উপজেলা সমূহে উপজেলা নির্বাহী অফিসারগণ এবং সহকারী কমিশনার (ভূমি)-গণ নিজ নিজ অধিক্ষেত্রে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন। 

মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে মাস্ক সাথে না থাকায় এবং যথাযথভাবে মাস্ক পরিধান না করায় ১৫টি মামলায় ২০ (বিশ) জনকে মোট ১১,৭০০/- (এগারো হাজার সাতশত) টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়। 'সংক্রামক রোগ (প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল) আইন, ২০১৮' এর সংশ্লিষ্ট ধারার বিধান মোতাবেক এসব জরিমানা করা হয়। 

সম্প্রতি করোনা ভাইরাস সংক্রমণের হার বেড়ে যাওয়ায় গত ০৮ নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ তারিখের জেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভার সর্বসম্মত সিদ্ধান্তের প্রেক্ষিতে ০৯ নভেম্বর, ২০২০ তারিখ থেকে জেলা প্রশাসন কঠোর অবস্থা গ্রহণ করে। 

মোবাইল কোর্ট পরিচালনায় সহযোগিতা করেন এপিবিএন এবং উপজেলাসমূহে স্ব-স্ব থানা পুলিশের সদস্যগণ। স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতকরণে জেলা প্রশাসনের এমন অভিযান অব্যাহত থাকবে।

নওগাঁর আত্রাইয়ের বান্দাইখাড়ার বধ্যভূমির তিন মাথার মোড় যেন মৃত্যুর ফাঁদ

নওগাঁর আত্রাইয়ের বান্দাইখাড়ার বধ্যভূমির তিন মাথার মোড় যেন মৃত্যুর ফাঁদ


মোঃ ফিরোজ হোসাইন, রাজশাহী ব্যুরোঃ

নওগাঁর আত্রাইয়ের বান্দাইখাড়া বধ্যভূমির তিন  মাথার মোর যেন মৃত্যুর ফাঁদ ! ৭১ এর যুদ্ধে পাকিস্তানি মেলেটারির বর্বর হামলায় এক সঙ্গে প্রায়, ৪০ থেকে ৪৫ জন লোক কে ব্রাস ফায়ার করে হত্যা করে তারই ফলশ্র"তিতে বান্দাইখাড়া বাজারের দক্ষিন পূর্বো কর্ণারে গরে তোলা হয় শহিদদের স্মৃতি ফলক শহিদ মিনার, আত্রাই নদীর উপর গড়ে তোলা ব্রীজের রাস্তা বধ্যভূমির গা ঘেষে যাওয়ার কারনে বদ্যভুমির মেইন গেটের সামনে দিয়ে বাজারে ভিতরে রাস্তা চলে গিয়েছে, আর পশ্চিমের রাস্তা সেই গেইটের সামনে দিয়ে ব্রীজের উপর উঠেছে,যার কারনে এখানে তিন রাস্তার মোড় তৈরি হয়েছে। যখন ব্রীজের উপর থেকে গাড়ি আসে আবার বাজারের ভিতর থেকে গাড়ি আসে এবং পশ্চিম দিক হতে গাড়ি আসে, বধ্যভূমির যায়গার উপর রাস্তা ঘেষে ইটের ঘর থাকার কারনে সেখানে রাস্তা অনেকটা সরু হওয়ায় সব সময় গাড়ির জ্যাম লেগেই থাকে, আর ব্রীজের রাস্তা অত্যান্ত খাড়া হওয়ার কারনে প্রতি নিয়ত গ্রাড়ির ব্রেক ছিড়ে এই বধ্যভূমির প্রতি নিয়ত দূর্ঘটনা ঘটছে এ যেন এক মৃত্যুর ফাঁদ। প্রতিনিয়ত এই দূর্ঘটনা হওয়ার কারনে সাধারণ জণগন একটা আতঙ্ক নিয়ে রাস্তা চলা চল করতে হচ্ছে। এলাকার মানুষের দাবি এই বধ্যভূমির সুন্দর পরিবেশ তৈরি হোক এটাই সকলের কামনা।
মোঃ ফিরোজ হোসাইন 
রাজশাহী ব্যুরো
  
০১৭১০৯৬৭৫২২
২৬/১১/২০২০

সৌদি আরবে সড়ক দূর্ঘটনায় কানাইঘাটের দুই প্রবাসী সহ ৩ জনের মৃত্যু : বাড়িতে শোকের মাতম

সৌদি আরবে সড়ক দূর্ঘটনায় কানাইঘাটের দুই প্রবাসী সহ ৩ জনের মৃত্যু : বাড়িতে শোকের মাতম


কানাইঘাট প্রতিনিধি :
সৌদিআরবের তায়েফ তুরাবায় কাজে যাওয়ার সময় একটি গাড়ি অপর একটি গাড়ির সাথে ধাক্কা লেগে মারাত্মক দূর্ঘটনার স্বীকার হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান দু'জন। এ সময় হাসপাতালে গুরুতর আহত অবস্থায় আরো দু'জনকে নিয়ে গেলে সেখানে মারা যান আরো একজন। এদের সকলের বাড়ি সিলেটের কানাইঘাট ও জকিগঞ্জ উপজেলায়।
জানা যায়, বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) সকাল অনুমান ৭টায় সৌদিআরবের তায়েফ তুরাবায় কাজে যাওয়ার সময় মর্মান্তিক সড়ক দূর্ঘটনায় মারা কানাইঘাট উপজেলার ৪নং সাতঁবাক ইউপির কুওরের মাটি গ্রামের আব্দুল খালিকের পুত্র মাশুক আহমদ (৩৫) ও নুর আহমদের পুত্র আব্দুশ শুকুর (৩২)। স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুন নুর জানান, করোনাকালীন সময়ে আব্দুশ শুকুর বাড়িতে ছিলো। পরিবারে অভাব অনটনের কারণে মাত্র দেড় মাস পূর্বে সে সৌদিআরবে গমন করে। তিনি বলেন, কুওরের মাটি গ্রামে ও নিহতদের বাড়িতে শোকের মাতম চলছে।   
এছাড়া একটি গাড়ির ড্রাইভার সিরাজ উদ্দিন (৪০) মারা যান। তার বাড়ি জকিগঞ্জ উপজেলা গঙ্গারজল এলাকায়। এ সড়ক দূর্ঘটনায় অপর আরেকজন গুরুতর আহত অবস্থায় সৌদিআরবের তায়েফ তুরাবার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধিন আছেন। তার নাম জালাল আহমদ (৩৯) বাড়ি কানাইঘাট পৌরসভার বায়মপুর গ্রামে।
এদিকে সৌদিআরবের তায়েফ তুরাবায় কাজে যাওয়ার সময় সড়ক দূর্ঘটনায় নিহতদের বাড়িতে চলছে শোকের মাতম। এলাকাবাসী জানান, যে ৩ জন প্রবাসী সৌদিআরবে মারা গেছেন তারা করোনাভাইরাসের মহামারি কালে সেখানে খুবই কষ্টে দিনাতিপাত করছিলেন।

আশাশুনিতে ভ্রাম্যমান আদালতে ২টি অবৈধ ইটভাটা উচ্ছেদ

আশাশুনিতে ভ্রাম্যমান আদালতে ২টি অবৈধ ইটভাটা উচ্ছেদ



আহসান উল্লাহ বাবলু আশাশুনি সাতক্ষীরা  প্রতিনিধি ঃ আশাশুনি উপজেলার বড়দলে ভ্রাম্যমান আদালতে ২টি অবৈধ ইটভাটায় উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামাল এর নির্দেশে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ নূরুল আমিন এ উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেন। অভিযান পরিচালনাকালে ভ্রাম্যমান আদালত একেএস ব্রিকস্ ও আরএসবি ব্রিকস্ এর বাহির ও ভিতরের ওয়াল, চিমনীর মোটরসহ ভাটার দৃশ্যাংশ এসকেবেটর মেশিন দ্বারা ভেঙ্গে দেয়। এছাড়াও ভাটা দুইটির কার্যক্রম বন্ধ ঘোষনা করে ভ্রাম্যমান আদালত। এসময় পরিবেশ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক শরিফুল ইসলাম, বড়দল ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা এসএম আব্দুল মজিদসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

যশোরের কৃতি সন্তান মোঃ আনোয়ার হোসেনকে কেন্দ্রীয় কমিটির প্রেসিডিয়াম সদস্য র্নিবাচিত করায় মাগুরা ও গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে শেখ হাসিনাকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন

যশোরের কৃতি সন্তান মোঃ আনোয়ার হোসেনকে কেন্দ্রীয় কমিটির প্রেসিডিয়াম সদস্য র্নিবাচিত করায় মাগুরা ও গঙ্গানন্দপুর  ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে শেখ হাসিনাকে শুভেচ্ছা ও  অভিনন্দন


নিউজ ডেস্কঃ যশোরের কৃতি সন্তান মোঃ আনোয়ার হোসেনকে বাংলাদেশে আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির প্রেসিডিয়াম সদস্য র্নিবাচিত করায় মাগুরা ও গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের উদ্যোগে থেকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে প্রাণ ঢালা শুভেচ্ছা ও  অভিনন্দন জানিয়ে আজ ২৬ নভেম্বর এক বিশাল আনন্দ মিছিলের আয়োজন করা হয়।

উক্ত আনন্দ মিছিলের আয়োজন করেন, মাগুরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ জান আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুজ্জামান চুন্নু , মাগুরা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক অবেদুর রহমান অবেদ, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সদস্য আবু বক্কার ছিদ্দিক, প্রচার সম্পাদক দবিবার রহমান , মাগুরা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতা রেফাজ উদ্দিন, যুব নেতা ফিরোজ , রুবেল, আলমগীর ও মোর্শেদ আলী, মাগরা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মফিদুল ইসলাম, মাগুরা ইউনিয়ন তরুণলীগের সভাপতি ইকবাল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক আরিফ হোসেন, গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আতাউর রহমান ঝন্টু, গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বদরুদ্দীন বিল্টু, মাগুরা ইউনিয়ন ছাত্র নেতা অপু, সালাম, টিটোন সহ মাগুরা ও গঙ্গান্দপুর ইউনিয়নের অন্যান্য নেতাকর্মী। 

 
আনন্দ মিছিলের ভিডিও চিত্র

নন্দীগ্রাম থানার নতুন ওসি নাসির উদ্দিন মন্ডল বিদায় নিলেন শওকত কবির

নন্দীগ্রাম থানার নতুন ওসি নাসির উদ্দিন মন্ডল বিদায় নিলেন শওকত কবির


নন্দীগ্রাম বগুড়া প্রতিনিধিঃ---বগুড়ার নন্দীগ্রাম থানার নতুন ওসি হিসাবে মোঃ নাসির উদ্দিন মন্ডল যোগদান করেছেন আর বিদায় নিয়েছেন মোঃ শওকত কবির। গত ২৫শে নভেম্বর বুধবার রাত ৯টায় এডিশনাল এসপি জনাব মোঃ আব্দুর রশিদ এর উপস্থিতিতে নবাগত ওসির যোগদান ও আগের ওসি মোঃ শওকত কবিরের বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়। এসময় থানার সকল পুলিশ কর্মকর্তা নবাগত ওসি কে ফুল দিয়ে বরণ করেন এবং বিদায়ী ওসি শওকত কবির নবাগত ওসি কে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান। জানাযায়, নবাগত ওসি মোঃ নাছির উদ্দিন মন্ডল এর আগে সফলতার সাথে ১১টি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন, সর্বশেষ ১২তম থানা হিসেবে নন্দীগ্রাম থানায় যোগদান করলেন। যোগদান শেষে নবাগত ওসি মোঃ নাসির উদ্দিন মন্ডল সাংবাদিকদের জানান, নন্দীগ্রাম উপজেলা থেকে সন্ত্রাস চাঁদাবাজ দখলবাজ সহ মাদক নির্মূল কল্পে কঠোর অবস্থানে থাকবে নন্দীগ্রাম থানা পুলিশ। কেউ আইনের ঊর্ধ্বে নয়, আইন সবার জন্য সমান, আর পুলিশ জনগণের বন্ধু, এই বিশ্বাস টুকু সবার মনে স্থাপন করতে চাই। সর্বোপরি নন্দীগ্রাম উপজেলায় আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার জন্য সকলের সহযোগিতা কামনা করেন নবাগত ওসি মোঃ নাসির উদ্দিন মন্ডল।

লাকসামে স্বাস্থ্য সহকারীদের বেতন বৈষম্য নিরশনের দাবিতে অনির্দিষ্টকালের জন্য কর্মবিরতী পালন

লাকসামে স্বাস্থ্য সহকারীদের বেতন বৈষম্য নিরশনের দাবিতে অনির্দিষ্টকালের জন্য  কর্মবিরতী পালন

 


মো: রবিউল হোসাইন সবুজ, লাকসাম প্রতিনিধি:

সারাদেশের ন্যায় বাংলাদেশ হেলথ্ এ্যাসিস্ট্যান্ট এসোসিয়েশন কর্মসুচীর অংশ হিসাবে কুমিল্লা জেলা লাকসাম উপজেলা শাখার আয়োজনে নিয়োগ-বিধি সংশোধনসহ বেতন আপগ্রেডেশনের দাবিতে বাংলাদেশ হেলথ এসিস্ট্যান্ট এসোসিয়েশন, বাংলাদেশ স্বাস্থ্য বিভাগীয় পরিদর্শক সমিতি, বাংলাদেশ বিভাগীয় মাঠ কর্মচারী এসোসিয়েশন ও বাংলাদেশ হেল্থ ইন্সপেক্টর সেক্টোরাল এসোসিয়েশন যৌথভাবে এই কর্মসূচী পালন করছে। 
"ভ্যাকসিন হিরো সম্মান স্বাস্থ্য সহকারীর অবদান" প্রতিপাদ্যে 

(বৃহস্পতিবার ২৬শে নভেম্বর) লাকসান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে এ অনির্দিষ্টকালের জন্য কর্মবিরতী পালন করছেন। আর দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত এই কর্মসূচী চলবে। 

বাংলাদেশ হেল্থ এসিস্ট্যান্ট এসোসিয়েশন লাকসাম উপজেলা শাখার সভাপতি আতিকুর রহমান বলেন, ১৯৭৯ সাল থেকে সম্প্রসারিত টিকাদান কর্মসূচির (ইপিআই) মাধ্যমে স্বাস্থ্য সহকারীগণ ১০টি মারাতœক সংক্রমৃত রোগের (শিশুদের যক্ষা, পোলিও, ধনুষ্টংকার, হুপিংকাশি, ডিপথেরিয়া, হেপাটাইটিস-বি, হিমোফাইলাস ইনফ্লুয়েঞ্জা, নিউমোনিয়া ও হামে-রুবেলা) টিকা প্রদান করেন। কিন্তু স্বাস্থ্য সহকারীদের টেকনিক্যাল পদমর্যদা প্রদান করা হচ্ছে না। এছাড়া মহামারি করোনা পরিস্থিতিতে অত্যন্ত ঝুঁকি নিয়ে স্বাস্থ্য সহকারীগণ শিশুদের টিকা প্রদান সহ বিদেশ ফেরত জনসাধারণের তথ্যাদি সংগ্রহ করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রেরণ করেন এবং বিদেশ ফেরতদের হোম কোয়ারান্টাইনে থাকার অনুরোধ জানিয়ে মাঠে কাজ করেন। এসব ঝুকি নিয়ে কাজ করতে গিয়ে সারাদেশে কমপক্ষে ৮ শতাদিক স্বাস্থ্য সহকারী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এবং অনেকে মৃত্যুবরণ করেছেন। এ ক্ষেত্রে স্বাস্থ্য সহকারীগণ এখনো অবহেলিত রয়েছেন।

এসময়  বক্তব্যে আরো বলেন, নিয়োগবিধি সংশোধনসহ ক্রমানুসারে স্বাস্থ্য পরিদর্শক, সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক ও স্বাস্থ্য সহকারীদের বেতনগ্রেড ১৬তম থেকে যথাক্রমে ১১,১২ ও ১৩ তম গ্রেডে উন্নীতকরণ করার দাবি না মেনে নেওয়া পর্যন্ত এই কর্মসুচী অব্যাহত থাকবে। এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ১৯৯৮ সালে স্বাস্থ্য পরিদর্শক, সহাকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক এবং স্বাস্থ্য সহকারীদের এক সমাবেশে বেতন বৈষম্য নিরসনের ঘোষণা দেন। এছাড়া ২০১৮ সালে তৎকালিন স্বাস্থ্যমন্ত্রী আমাদের দাবি মেনে নিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য একটি কমিটি গঠন করা হলেও অদ্যবধি এর কোনো কার্যকারিতা নেই। তিনি অনতিবিলম্বে দাবিগুলো মেনে নিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান। অন্যথায় এ কর্মবিরতি অনির্দিষ্টকাল ধরে চলবে বলে হুঁশিয়ারি দেন।

মোংলা পোর্ট পৌরসভার নিবার্চনে মেয়র ও কাউন্সিলর পদে একক দলীয় প্রার্থী দেয়া হবে...কেসিসি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক

মোংলা পোর্ট পৌরসভার নিবার্চনে মেয়র ও কাউন্সিলর পদে একক দলীয় প্রার্থী দেয়া হবে...কেসিসি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক


মোঃএরশাদ হোসেন রনি,মোংলাঃখুলনা সিটি করপোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক বলেছেন, নিবার্চন কমিশনারের দ্বিতীয় দফার তফসিলে মোংলা পোর্ট পৌরসভার নাম ঘোষণার সম্ভাবনা রয়েছে। তাই আসন্ন সম্ভাব্য পৌর নিবার্চনে মেয়র ও কাউন্সিল পদে দল থেকে একজন করে প্রাথর্ী দেয়া হবে। মেয়র পদ নিধার্রণ করে দিবেন দলীয় মনোনয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আর কাউন্সিলর নিধার্রণ করা হবে স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দদের মতামতের উপর ভিত্তি করে। সুতরাং দল থেকে যাকে দেয়া হবে সকলইে তার হয়ে কাজ করতে হবে। দলের বাহিরে গিয়ে কেউ বিদ্রোহী প্রার্থী হলে তার দলে কোন ঠাই থাকবে না। 

বৃহস্পতিবার বিকেলে পৌর শহরের টি,এ, ফারুক স্কুল এন্ড কলেজ মাঠে পৌরসভার ১, ২ ও ৩ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগসহ সহযোগী সংগঠনের নেতা-কমর্ী-সমর্থকের নিয়ে অনুষ্ঠিত কমর্ী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, বিএনপি-জামায়াত সরকার কোনদিন মোংলা বন্দরের উন্নয়ন করেনি। যত উন্নয়ন, সব আওয়ামী লীগ সরকারের আমলেই হয়েছে। তাই দল, মত নির্বিশেষে পৌরবাসীকে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রাথর্ীকে ভোট দিয়ে নিবার্চিত করার আহবাণ জানান তিনি। তিনি আরো বলেন, আওয়ামী লীগ যে উন্নয়ন করেছে তা শুধুমাত্র ভোট দিয়ে প্রতিদান দিলেও তার প্রতিদান শেষ হবেনা। দলীয় সিদ্ধান্তের বাহিরে তিনি দলের অন্য কেউকে প্রাথর্ী না হওয়ার জন্য বার বার হুশিয়ারী উচ্চারণ করেন। সমাবেশে সমস্বরে উপস্থিত দলীয় নেতা-কমর্ী ও সমর্থকেরাও তার সেই হুশিয়ারীতে সায় দেন। এ সময় দলের অন্যান্য নেতৃবৃন্দরাও তাদের বক্তব্যে দলের নিধার্রিত প্রার্থী নিয়ে একসাথে কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। 

পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আ: রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান আবু তাহের হাওলাদার, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ইদ্রিস আলী ইজারদার, উপজেলা আওয়ামী লীগে সভাপতি সুনীল কুমার বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম হোসেন, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব শেখ কামরুজ্জামান জসিম ও চাঁদপাই ইউপি চেয়ারম্যান মোল্লা তারিকুল ইসলাম। 

করোনার কারণে দীর্ঘদিন দলীয় প্রচারণা বন্ধ থাকার পর বৃহস্পতিবারের কমর্ী সমাবেশ জনসমুদ্রে পরিণত হয়েছিল। নারী-পুরুষ উভয়রেই উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মত। পযার্য়ক্রমে পৌরসভার সকল ওয়ার্ডকে নিয়েই কমর্ী সমাবেশ করে দলকে বেগবান করা হবে বলে জানিয়েছেন পৌর আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দরা। 

গফরগাঁওয়ে তিতাস গ্যাসের আগুনে দগ্ধ হয়ে বৃদ্ধার মৃত্যু

গফরগাঁওয়ে তিতাস গ্যাসের আগুনে দগ্ধ হয়ে বৃদ্ধার মৃত্যু

আশিকুজ্জামান মিজান ময়মনসিংহঃ প্রতিনিধিঃময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে তিতাস গ্যাসের আগুনে দগ্ধ হয়ে সখিনা খাতুন (৯০) নামে এক বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে। পরিবারের লোকজনের ধারনা খালি বাসায় রান্না ঘরে গ্যাসের চুলা জ্বালাতে গিয়ে অসাবধানবশত গ্যাসের চুলার পড়ে গিয়ে দগ্ধ হয়ে মারা যান তিনি।

বৃহস্পতিবার (২৬) নভেম্বর বিকালে পৌর শহরের ৮ নং ওয়ার্ডের টিচার্স রোডে ওই বৃদ্ধার ছেলে সিদ্দিক হোসেনের বাসায় এই দুঘর্টনা ঘটে। সখিনা খাতুন হালিম উদ্দিনের স্ত্রী।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, ছিদ্দিক হোসেন ও তার পনিবারের লোকজন বৃহস্পতিবার দুপুরে বেড়াতে উপজেলার বাগুয়া গ্রামে ছিদ্দিক হোসেনের শ্বশুর বাড়িতে যায়। বাসায় একাই ছিলেন সখিনা খাতুন। বিকাল ৪ টার দিকে ছিদ্দিক হোসেন ও তার পরিবারের লোকজন বাসায় এসে দেখতে পায় সখিনা খাতুন জ্বলন্ত গ্যাসের চুলার কাছে অগ্নিদগ্ধ হয়ে পড়ে রয়েছে। আগুনে শরীরের বেশ কিছু অংশ পুড়ে যাওয়ায় ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় ছিদ্দিক হোসেনের পরিবার ও এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসছে।

সিরাজগঞ্জে মাস্ক পরিধান না করায়১৩ জনকে অর্থদন্ড

 সিরাজগঞ্জে  মাস্ক পরিধান না করায়১৩ জনকে অর্থদন্ড


 মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলাপ্রতিনিধিঃমাস্ক পরিধান না করার কারণে বৃহস্পতিবার সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার কাঠেরপুল সংলগ্ন এলাকায় পথচারী, সিএনজি ও অটো রিকশা চালক এবং যাত্রীদেরকে অর্থদন্ড দেয়ন  সিরাজগঞ্জ সদরের সহকারী কমিশনার (ভূমি)  ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জনাব মোহাম্মদ রহমত উল্লাহ। ১৩ জন ব্যক্তিকে মাস্ক পরিধান না করায় বিভিন্ন অংকের সর্বমোট ১৬০০ টাকা অর্থদন্ড দেয়ন।

এসময় পথচারী, অটো চালক, সিএনজি চালক এবং যাত্রীদের মাঝে ফ্রি মাস্ক বিতরণ করেনন। এর পাশাপাশি তাদেরকে করোনার ২য় ওয়েভ নিয়ে সচেতন করেন।

কোভিড-১৯ এর ২য় ওয়েভ মোকাবেলায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা অব্যাহত থাকবে বলে তিনি যানান।  এ সময় সিরাজগঞ্জ আনসার বাহিনীর সদস্যগণ উক্ত মোবাইল কোর্টে উপস্থিত ছিলেন।

কালিয়ার চাঁচুড়ি সাবেক এক উ,পি, চেয়ারম্যান কে কুপিয়েছে দূর্বৃত্তরা

কালিয়ার চাঁচুড়ি সাবেক এক উ,পি, চেয়ারম্যান কে কুপিয়েছে দূর্বৃত্তরা




মো: আজিজুর বিশ্বাস স্টাফ রিপোর্টার নড়াইল।।



নড়াইলের কালিয়া উপজেলার চাচড়ী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ লুৎফর মোল্যা (৬০) কে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেছে একদল দূর্বৃত্ত।


পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার ২৬ ( নভেম্বর) সকাল আনুমানিক ১০ টার দিকে নড়াইল পৌর মেয়রের জানাযায় অংশগ্রহনের জন্য বাড়ি থেকে রওনা করলে বাশগ্রাম পল্লী মঙ্গল প্রাথামিক বিদ্যালয়ের সামনে পৌছালে পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা একদল দূর্বৃত্ত অতর্কিত হামলা করে এলোপাতাড়ীভাবে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। 

স্থানীয় লোকজন মূমুর্ষ অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে নড়াইল সদর হাসপাতালে আনলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে প্রেরণ করেন।  
কালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ রফিকুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এখনো অভিযোগ পাইনি তবে জড়িতদের আটকের জোর চেষ্টা চলছে।


মো: অাজিজুর বিশ্বাস স্টাফ রিপোর্টার নড়াইল।

মোবাইল :০১৯২০২৮১৭৮৭/০১৭০৫১৯৩০৩০

লোহাগড়া ৪ ঘন্টার মধ্যে ধর্ষণ মামলার আসামি বিল্লাল গ্রেফতার

লোহাগড়া ৪ ঘন্টার মধ্যে ধর্ষণ মামলার আসামি বিল্লাল গ্রেফতার





মো: অাজিজুর বিশ্বাস স্টাফ রিপোর্টার নড়াইল।



নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার জয়পুর ইউনিয়নের চাচই গ্রামের মৃত নজির শেখের ছেলে মো:  বিল্লাল শেখ (২৮)কে লোহাগড়া থানায় মামলা দায়েরের ৪ ঘন্টার মধ্যে গ্রেফতার করেছে লোহাগড়া থানা পুলিশ।


পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গতকাল ২৬ (নভেম্বর) সকাল আনুমানিক ১১ টার দিকে এস আই পিয়াস কুমার সাহা'র নেতৃত্বে এ.এস আই কামরুল, এ.এস আই মিকাইল এর সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে চাচই, ধানাইড়, বাজার এলাকায়  অভিযান চালিয়ে ধর্ষক বিল্লালকে আটক করতে সক্ষন হন।

জানা গেছে, চাচই গ্রামের এক গৃহবধূর সাথে দীর্ঘদিন যাবৎ প্রভাব খাটিয়ে ও নানা প্রকার ভয়ভীতি দেখিয়ে শারীরিক সম্পর্ক চালিয়ে যাচ্ছিলেন ধর্ষক বিল্লাক। এক পর্যায়ে ওই গৃহবধূ গর্ভবতী হয়ে পড়লে ধর্ষক বিল্লাল ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার জন্য জোরপূর্বক ডাক্তার লুৎফুর নাহারের ব্যক্তিগত চেম্বারে নিয়ে ওই গৃহবধুর গভপাত করেন।  ওই গৃহবধু বাদী হয়ে বিল্লাল শেখ  ও অজ্ঞাত ৩/৪ জনকে আসামী করে লোহাগড়া থানায় একটি ধর্ষনের মামলা দায়ের করেন।

 তার প্রেক্ষিতে লোহাগড়া থানা পুলিশ ধর্ষক বিল্লাক কে গ্রেফতার করেন। 

লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সৈয়দ আশিকুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আসামী বিল্লাককে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং তাকে নড়াইল আদালতের মাধ্যমে জেলা হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।  

শীত বাড়ার সাথে সাথে ব্যাস্ত সময় পার করছেন কাপড় এবং তুলা ব্যবসায়ীরা

শীত বাড়ার সাথে সাথে ব্যাস্ত সময় পার করছেন কাপড় এবং তুলা ব্যবসায়ীরা




মোঃ রশিদুল ইসলাম রিপন, লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ
লালমনিরহাট জেলার কালীগঞ্জ উপজেলায় ব্যাস্ত সময় পার করছেন বাজারের সব লেপ তোষকের দোকানীরা।  শীত বাড়ার সাথে উপজেলার মানুষেরা ভীড় করছেন লেপ তোষকের দোকান গুলোতে। সরেজমিনে জনতা ব্যাংক সংলগ্ন ভোটমারী সাব্বির বেডিং ষ্টোরে গিয়ে জানা যায় লেপ তোষকের দোকানগুলো জমজমাট হয়ে গেছে।  সাব্বির বেডিং ষ্টেরের মালিক মোঃ আসাদুল ইসলাম জানান প্রতিবছের ন্যায় এবার অধিক সংখ্যক পন্য ষ্টোক করে রেখেছি শীতে তুমুল হারে ব্যবসা হবে বলে। আমরা উন্নতমানের তুলাসহ লেপ তোষক তৈরির যাবতীয় পন্য স্বল্প মূল্যে সরবরাহ করি।  কিন্তু এবছর আমরা কাষ্টমারের তেমন কোনো সাড়া পাচ্ছি না।  তিনি আরে জানান আমাদের দোকানের বেশিরভাগ কাষ্টমার তিস্তার চর( শৌলমারী) থেকে আসে।  কিন্তু এবারে ধান কাটা মারীর জন্য সবাই নিজ কাজে ব্যাস্ত। তিনি আশা করেন ধান কাটামারী হলে অবশ্যই তাদের ব্যবসার প্রসার ঘটবে।  


উপজেলার বিভিন্ন বাজার ঘুরে জানা যায় সব দোকানেই একই অবস্থা।  কিছু কিছু দোকানে কথা বলে জানা যায় বছরে শীতের মৌসুম এলেই বেড়ে যায় তাদের বেচাকেনা, এছাড়া অন্যসময় লেপ তোষকের দোকানগুলো তেমন চলে না। সারা বছরের আয় তারা শীতের সময় করে।

এবছর তেমন শীত পড়তে না পড়তেই তাদের বেচাকেনা আগের থেকে বেড়ে গেছে, সামনে যতই শীত বাড়বেব ততই তাদের বেচাকেনা বাড়বে এমনটাই তাদের আশা।


এছাড়া উপজেলার পোশাকের দোকানগুলো বেশ জমজমাট হয়ে উঠেছে।  মানুষ নানা রঙবেরঙ্গের কাপর পরতে শুরু করেছে।

সিংড়ায় বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবিতে কর্মবিরতি

সিংড়ায় বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবিতে কর্মবিরতি


রাজু আহমেদ, নাটোর: নাটোরের সিংড়ায় বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবিতে কর্মবিরতি কর্মসূচি পালন  করছে বাংলাদেশ হেলথ এসোসিয়েশন সিংড়া উপজেলা শাখা। দাবি না মানলে অনির্দিষ্টকাল এ কর্মসূচি পালন করবে বলে জানিয়েছে এসোসিয়েশন নেতৃবৃন্দ. বৃহস্পতিবার সিংড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ  উপজেলার সকল টিকাদান কেন্দ্রের কর্মরতরা সমবেত হয়। 

এসময় উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ হেলথ এ্যাসিস্ট্যান্ট এসোসিয়েশননের সিংড়া উপজেলার সভাপতি আব্দুল্লাহেল বাকি,  সাধারন সম্পাদক রাজিবুল হাসান, স্বাস্থ্য পরিদর্শক এসোসিয়েশন সিংড়া উপজেলা শাখার সভাপতি মোহাম্মাদ আলী, সাধারন সম্পাদক আফসার আলী সহ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

উল্লেখ্য, সিংড়া উপজেলায় ১২ টি ইউনিয়নের প্রায় ২৮৮ টি কেন্দ্র টিকাদান কেন্দ্র বন্ধ রয়েছে। কর্মবিরতি পালন করায় কার্যত অচল এসব কেন্দ্র। তৃনমৃলে সেবা পাচ্ছেনা সাধারন মানুষ। এজন্য সচেতন মহল দ্রুত বিষয়টি নিরসনে সরকারের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন।

কেশবপুরে কৃষকদের স্বেচ্ছাশ্রমে খালের পলি অপসারণ শুরু

কেশবপুরে কৃষকদের স্বেচ্ছাশ্রমে খালের পলি অপসারণ শুরু

মোরশেদ আলম,কেশবপুর যশোর প্রতিনিধি: কেশবপুরের কৃষকরা স্বেচ্ছাশ্রমে আগরহাটি-ডহুরী খালের প্রায় ৩ কিলোমিটার পলি অপসারণের কাজ শুরু করেছেন। আগরহাটি ৪ ব্যান্ড স্লুইস গেটের পাশে গিয়ে দেখা যায় ভরত ভায়না বিল এলাকার প্রায় ২০০ কৃষক খালের পলি অপসারণ করছেন। আগরহাটি-ডহুরী খালের পানি নিষ্কাশন পথ পলি দ্বারা বন্ধ হয়ে ভরতভায়না বিল এলাকার জলাবদ্ধতা দেখা দিয়েছে। চলতি মৌসুমে বোরো আবাদের লক্ষে বিল এলাকার শত শত কৃষক গত ২দিন ধরে স্বেচ্ছাশ্রমে ওই খালের পলি অপসারণ কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন।
জানা গেছে, আগরহাটি-ডহুরী খালের ৪ ব্যান্ড স্লুইস গেট দিয়ে ভরতভায়না বিল এলাকার সারুটিয়া, ভেরচি, ডহুরী, কাঁকবাঁধাল, ভরতভায়না, সন্ন্যাসগাছাসহ কয়েকটি বিলের পানি নিষ্কাশন হয়ে থাকে। ওই খাল পলিতে ভরাট হওয়ার কারণে গত বছর অধিকাংশ বিলে বোরো আবাদ হয়নি। একথা বিবেচনা করে এলাকার কৃষকরা স্বেচ্ছাশ্রমে ওই খালের পলি অপসারণ কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন।
এ সময় কৃষক প্রদত্ত বিশ্বাস বলেন, ভরত ভায়না বিলে রয়েছে ৯০০ হেক্টর জমি। খালটি পলিতে ভরাট হওয়ায় পানি ঠিকমত সরতে না পেরে বিলে দেখা দিয়েছে জলাবদ্ধতা। ওই জলাবদ্ধতা নিরষণ করে কৃষকরা বোরো আবাদ করার জন্য বিল পারের ডহুরী, কাঁকবাঁধাল, সারুটিয়া গ্রামের প্রায় ২০০ কৃষক সকাল থেকে খালের পলি অপসারণ কাজ চালান। কৃষকদের সঙ্গে পলি অপসারণ কাজে সহযোগিতা আসা ডহুরী গ্রামের কৃষক স্বপন কুমার বলেন, খালটি হরি নদী থেকে উৎপত্তি হয়ে আগরহাটি ৪ ব্যান্ড স্লুইস গেট দিয়ে ডহুরী এবং ডহুরী থেকে কাঁকবাঁধাল পর্যন্ত খালটি গিয়ে মিশেছে। খাল দিয়ে বিলের পানি প্রবাহে বাঁধাগ্রস্থ হওয়ায় বিলের কৃষকরা বোরো আবাদ করা নিয়ে শঙ্কার মধ্যে রয়েছে। এ কারণেই কৃষকরা স্বউদ্যোগে স্বেচ্ছাশ্রমে খালের পলি অপসারণ করছেন।

কয়রা কপোতাক্ষ মহাবিদ্যালয়ে যৌন হয়রানী প্রতিরোধে কমিটি গঠন

কয়রা কপোতাক্ষ মহাবিদ্যালয়ে  যৌন হয়রানী প্রতিরোধে কমিটি গঠন



মোহাঃ ফরহাদ হোসেন কয়রা ((খুলনা)) প্রতিনিধি 
খুলনার  কয়রা উপজেলা জলবায়ু পরিষদের উদ্যোগে কপোতাক্ষ মহাবিদ্যালয়ে যৌন হয়রানী প্রতিরোধে কমিটি গঠন করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১১ টায় কলেজের হলরুমে অধ্যক্ষ অদ্রিশ আদিত্য মন্ডলের সভাপতিত্বে ও সিএসআরএল প্রকল্পের উপজেলা ফিল্ড অফিসার নিরাপদ মুন্ডার পরিচালনায় এ উপলক্ষে আলোচনায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা (ভারপ্রাপ্ত) মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ মোহসিন আলম, জলবায়ু পরিষদের সদস্য প্রভাষক বিদেশ রঞ্জন মৃধা, চন্দ্র কুমার, সাংবাদিক রিয়াছাদ আলী, প্রধান শিক্ষক এস এম নুরুল আমিন নাহিন, এস এম গোলাম রসুল, ইউপি সদস্য সুলতানা মিলি, স্বেচ্ছাসেবক টিমলিডার রাসেল রানা প্রমুখ। আলোচনা শেষে কলেজের অধ্যক্ষ অদ্রিশ আদিত্য মন্ডলকে সার্বিক দায়িত্বে ও মোছাঃ বিলকিছ নাহারকে আয়বায়ক করে ৭ সদস্য বিশিষ্ঠ যৌন হয়রানী প্রতিরোধ কমিটি গঠন করা হয়।

নড়াইলের পৌর মেয়রের জানাযায় লক্ষ মানুষের ভীড় পারিবারিক কবরস্থানে দাফন সম্পর্ণ

নড়াইলের পৌর মেয়রের জানাযায় লক্ষ মানুষের ভীড় পারিবারিক কবরস্থানে দাফন সম্পর্ণ

মো:আজিজুর বিশ্বাস স্টাফ রিপোর্টার নড়াইলঃ নড়াইল পৌরসভার মেয়র ও জেলা আওয়ামী-লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মো:জাহাঙ্গীর বিশ্বাস (৬০) ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি…….রাজিউন)।
বুধবার (২৫ নভেম্বর) দুপুর ১২-২০ মিনিটের সময় রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে মেয়র জাহাঙ্গীর হোসেন বিশ্বাস শেষ নিঃশাষ ত্যাগ করেন।
মৃত্যুকালে তিন ছেলে ও স্ত্রী রেখে গেছেন।
গত (১৮ নভেম্বর) ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হন পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর বিশ্বাস।
এদিন তার শরীরের রক্তের প্লাটিলেট ৪৪ হাজারে নেমে আসে,যে কারণে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে হেলিকপ্টার যোগে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে নেয়া হয়।
সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার (২৫ নভেম্বর) বেলা ১২-২০ মিনিটের সময় মেয়রের মৃত্যু হয়।
পরে ঔদিন রাত ১১টার দিকে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতাল থেকে লাশবাহী ফ্রিজার এ্যাম্বুলেন্সে নড়াইলে তার নিজ বাড়িতে আনা হয়।
এসময় নড়াইল জেলায় শোকের ছায়া নেমে আসে,এবং এক নজর দেখার জন্য লাক্ষ স্বজনদের ভিড় দেখা যায়।
লাশবাহী এ্যাম্বুলেন্স ধরেই স্বজন"রা সারা রাত কাটিয়ে দিয়েছেন,আমাদের সব শেষ হয়ে গেছে বলেও চিৎকার চেঁচামেচি করেন।
কে গরিব অসহায়কে দেখবে কে ডেকে নিয়ে চাল,ডাল দিবে কে ভালো মন্দের খোজখবর রাখবে,সব শেষ হয়ে গেল।
আজ (২৬ নভেম্বর) সকাল ১১ ঘটিকার সময় নড়াইল ভওয়াখালী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে লাক্ষমানুষের উপস্থিতিতে নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।
এসময় নামাজে জানাজায় উপস্থিত ছিলেন,আওয়ামী-লিগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম কামাল,নড়াইল ০২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফী বিন মোর্তুজা,নড়াইল ০১ আসনের সংসদ সদস্য কবিরুল হক মুক্তি,নড়াইল জেলা পরিষদের চেয়াম্যান এ্যাডঃ শোহরভ হোসেন বিশ্বাস,নড়াইল জেলা আওয়ামী-লিগের সভাপতি,শুভাস চন্দ্র বোষ,সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন খান নিলু,সহ নড়াইল জেলার বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতা কর্মিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন প্রমূখ।
নামাজে জানাজা শেষ করে নেতা কর্মি"রা ফুলেল শ্রোদ্ধা জানান,পরে ভওয়াখালী নিজ পারিবারিক কবর স্থানে তার দাফন সম্পর্ণ হয়।

নড়াইলে একবৃদ্ধকে কুপিয়ে জখম ও টাকা ছিনতাই

নড়াইলে  একবৃদ্ধকে কুপিয়ে জখম ও টাকা ছিনতাই


মো: আজিজুর বিশ্বাস স্টাফ রিপোর্টার নড়াইলঃনড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার জয়পুর ইউনিয়নের বাবরা গ্রামে একজন বৃদ্ধকে কুপিয়ে আহত করে টাকা  ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে।

এ ঘটনায় পুলিশ হাতেম শরীফ নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে।এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৭ টার দিকে উপজেলার জয়পুর ইউনিয়নের মানিকগঞ্জ বাজারের ব্যবসায়ী মোঃ লোকমান শেখ(৬৮) দোকান বন্ধ করে নিজ বাড়ি বাবরা গ্রামে ফিরছিলেন। 

জয়পুর- লাহুড়িয়া সড়কের বাবরা নামক স্থানে পৌছালে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ওৎ পেতে থাকা হাতেম শরীফের নেতৃত্বে তার সহযোগিরা লোকমান শেখকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে দু'হাতে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে তার কাছে থাকা ৫০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়। তার চিৎকারে এলাকাবাসী ছুটে এসে তাকে উদ্ধার করে লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। 

এ ঘটনায় লোহাগড়া থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে স্বজনরা জানিয়েছেন। লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সৈয়দ আশিকুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় হামেত শরীফ নামে একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। 

উল্লেখ্য , বাবরা গ্রামের বৃদ্ধ লোকমান শেখের সাথে একই গ্রামের হাতেম শরীফের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। এর জের ধরে লোকমান শেখের ওপর হামলা ও টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে বলে জানা যায়।

ব্রীজের অভাবে চরম দুর্ভোগে রায়পুর বাসী

ব্রীজের অভাবে চরম দুর্ভোগে রায়পুর বাসী


রাজশাহী ব্যুরোঃ নওগাঁর আত্রাই উপজেলার কালিকাপুর ইউনিয়ন পরিষদ থেকে পূর্বদিকে মিনিট পনেরো পথ হেঁটে গেলেই মদন ডাংগা পাড়া. নদী পাড় হলেই ডাংগাপাড়া. মন্ডলপাড়া. রায়পুর গ্রাম। খানিকটা দুরে হলেও গ্রামের মাঝদিয়ে বয়ে গেছে আত্রাই নদী আর এই নদীই কাল হয়ে দাঁড়িয়েছে স্থানীয় সাধারণ মানুষের যাতায়াত সহ কোমলমতি স্কুল শিক্ষার্থীদের যাতায়াতে ।
কথায় বলে একনদী পাড় এক কোশ সমান।আর এই কথায় যেন বাস্তবে পরিণিত হয়েছে  আত
আত্রাইয়ে রায়পুর বাসীর কাছে।

এই নদীর উপর ব্রীজ না থাকায় তিন যুগেরও বেশী সময় ধরে নিজ উদ্যোগে ঝুঁকিনিয়ে নৌকাতে পারাপার হতে হয় স্থানীয় গ্রামের হাজার হাজার সাধারণ মানুষ সহ কোমল মতি বিদ্যালয়গামী শিক্ষার্থীদের।

এছাড়াও কোন মহিলার প্রসব বেদনা অথবা মূমুর্ষ রোগী হাসপাতালে নিতে হলে পড়তে হয় নানা বিড়ম্বনায়. পোহাতে হয় সীমাহীন দূর্ভোগ। আর এই সীমাহীন দূর্ভোগ পোহাতে হয় স্থানীয়দের একদম নিরুপায় হয়ে.বর্ষা কলে যা ভয়াবহ রুপধারন করে স্থানীয় জনজীবনে. চারিদিকে ভরা পানি.তাদের আর্তনাদের চিৎকার যেন পানির সাথেই মিশিয়েযায়. যেন পৃথিবীর সবচেয়ে অবহেলিত গ্রামে বসবাস করেতারা। স্থানীয় গ্রামের কৃষকেরা ধান আলু খিরা সহ বিভিন্ন সবজি প্রচুর পরিমাণে উৎপাদন করে থাকেন.

কুমারেরা তৈরী করেন হাড়ি পাতিল বদনা সহ বিভিন্ন রকম মাটির আসবাবপত্র।কিন্তু নিজেদের উৎপাদিত তৈরী পন্য বাজারজাত করতে হলে পড়তে হয় নানা বিড়ম্বনায় যোগাযোগ ব্যাবস্থা অত্যন্ত নাজুক হওয়ায় সময় মতো পন্য বাজারে নিয়ে যেতে না পাড়ায় গুনতে হয় মাসূল বনঞ্চিত হতে হয় ন্যায্যমুল্য হতে। এলাকাবাসীর দাবী এ যায়গায় একটি ব্রীজ নির্মাণ করা হোক।

স্বাধীনতার আটচল্লিশটি বছর পার হয়েছে.ক্ষমতার পালা বদল হয়েছে বেশ কয়েকবার. উন্নয়ন হয়েছে আশেপাশের আনেক রাস্তাঘাট.এমপি মন্ত্রী যারাই এখানে এসেছেন দুর্ভোগের কথা শুনেছেন দিয়েছেন আশ্বাস। আর এই আশ্বাস নিয়েই কাটছে যুগের পর যুগ অমানবিক দুর্দশার জীবন যাত্রা এগিয়ে আসেনি কেউ. এভাবেই দুঃখ প্রকাশ করেন এলাকাবাসী।তারা মনে প্রানে বিশ্বাস করে এবিষয়ে সংশ্লীষ্ট কতৃপক্ষ চাইলে এই ব্রীজ নির্মাণ অসম্ভব কিছুই নয়, প্রয়োজন তাদের সু দৃষ্টি।

এবিষয়ে কালিকাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ নাজমুল হক নাদিম বলেন ওই ব্রীজটি নির্মান ওই এলাকার মানুষের প্রণের দাবীতে পরিনত হয়েছে।ওই স্থানে ব্রীজ হলে রায়পুর গ্রামের হাজার হাজার মানুষের যাতায়াত ব্যাবস্থার যে দূরভোগ তা লাঘব হবে। এবিষয়ে আমি এমপি মহোদয়ের সাথে আলাপ করেছি তিনি আশাব্যঞ্জক উত্তর জানিয়ে বলেছেন রায়পুর গ্রামের মানুষের দুর্ভোগের কথা ভেবে ব্রীজ নির্মানের বিষয়টি সর্বোচ্চ বিবেচনায় রাখা হয়েছে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মোঃ বেলাল হোসেন বলেন জনদূর্ভোগের এবিষয়টি আমি আমার উর্ধ্বআতন কর্তৃপক্ষের কাছে বার বার জানিয়েছি আশাকরছি তারা যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহন করবেন।

খুলনায় নকল খাদ্যপণ্যের ফ্যাক্টরিতে মোবাইল কোর্টের অভিযান অর্ধলক্ষ টাকা অর্থদণ্ড

খুলনায় নকল খাদ্যপণ্যের ফ্যাক্টরিতে মোবাইল কোর্টের অভিযান অর্ধলক্ষ টাকা অর্থদণ্ড


তুহিন রানা (আব্রাহাম) ; খুলনা নগর প্রতিনিধিঃ
খুলনায় খাদ্যে ভেজাল প্রতিরোধের বিরুদ্ধে চলমান কার্যক্রমের ধারাবাহিকতায় গতকাল ২৫ নভেম্বর, জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, খুলনা জনাব মোহাম্মদ হেলাল হোসেনের নির্দেশে এবং বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যজিস্ট্রেট, খুলনা জনাব মোঃ ইউসুপ আলীর তত্ত্বাবধানে নগরীর বাস্তুহারা কলোনি, খালিশপুরে মোবাইল কোর্টের অভিযান পরিচালিত হয়। মোবাইল কোর্টের অভিযান পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জনাব মোঃ তাহমিদুল ইসলাম। 

মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে অনুমোদনহীন এবং নকল খাদ্যদ্রব্য যেমন হরলিক্স, জেলি ইত্যাদি তৈরির প্রমাণ পাওয়া যায়। এছাড়া কোনো ধরনের অনুমোদন ছাড়াই বাড়িতে খাদ্যদ্রব্য তৈরি এবং বাজারজাত করার প্রমাণ পাওয়া যায়। উক্ত অপরাধ আমলে নিয়ে সংশ্লিষ্ট ধারা মোতাবেক ৫০,০০০/- (পঞ্চাশ হাজার) টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে প্রদান করা হয় এবং অবৈধ মালামাল জব্দ করে বিনষ্ট করা হয়।

মোবাইল কোর্ট পরিচালনায় সহযোগিতা করেন খালিশপুর থানার পুলিশ সদস্যবৃন্দ, বিএসটিআই এবং এনএসআই এর কর্মকর্তাবৃন্দ।ভেজালমুক্ত এবং স্বাস্থ্যসম্মত খাদ্যমান নিশ্চিতকরণে জেলা প্রশাসনের এমন অভিযান অব্যাহত থাকবে।

চৌগাছায় ৩ দিন ব্যাপি সাংবাদিকতায় বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ শুরু

 চৌগাছায় ৩ দিন ব্যাপি সাংবাদিকতায় বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ শুরু

যশোর জেলা প্রতিনিধি:যশোরের চৌগাছায় ৩ দিন ব্যাপি সাংবাদিকতায় বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ শুরু হয়েছে। বুধবার বেলা ১০ টায় প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ (পিআইবি)র আয়োজনে উপজেলা পরিষদ হল রুমে এই প্রশিক্ষণ কর্মশালা শুরু হয়।উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ ড. মোস্তানিছুর রহমান।

চৌগাছা প্রেসক্লাবের সভাপতি জিয়াউর রহমান রিন্টুর সঞ্চালনায় বক্তৃতা করেন চৌগাছা উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রকৌশলী এম. এনামুল হক, পিআইবির প্রশিক্ষক রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক ড. প্রদীপ কুমার পান্ডে, পিআইবির প্রশিক্ষক পারভীন সুলতানা রাব্বী, ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) যুগ্ম মহাসচিব ও ডিবিসি টেলিভিশনের যশোর প্রধান সাকিরুল কবীর রিটন, যশোর সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি দৈনিক জনকন্ঠের স্টাফ রিপোর্টার ও যমুনা টেলিভিশনের যশোর প্রধান সাজেদ রহমান বকুল।

৩ দিন ব্যাপি এই বুনিয়াদি প্রশিক্ষণে চৌগাছা উপজেলায় কর্মরত ৩৫ জন বিভিন্ন জাতীয় ও স্থানীয় পত্রিকার প্রতিনিধি এবং শিক্ষানবিশ সাংবাদিক অংশ নিচ্ছেন।

তৃণমূল থেকে তিলে তিলে উঠে আসা রাজনৈতিক কর্মী আব্দুর রহমান

তৃণমূল থেকে তিলে তিলে উঠে আসা রাজনৈতিক কর্মী আব্দুর রহমান

সেলিম  চৌধুরী  স্টাফ  রিপোর্টারঃ- চট্টগ্রামের পটিয়া পৌরসভার  ৭ নং ওয়ার্ডের কৃতি সন্তান  বাংলাদেশ  আওয়ামী যুবলীগের  কেন্দ্রীয়  কমিটির  উপ ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক আব্দুর রহমান নির্বাচিত হওয়ায় বিভিন্ন  মহল অভিনন্দন  জানিয়েছেন।জানা গেছে, যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির উপ ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক আব্দুর রহমান ১৯৯০ সালে পটিয়া সদরের বাহুলী ওয়ার্ড ছাত্রলীগের প্রচার সম্পাদক, ১৯৯২ সালে পটিয়া সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক ও ১৯৯৫ সালে কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, ১৯৯৭ সালে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সম্পাদক, ১৯৯৯ সালে দক্ষিণ জেলা যুবলীগের কার্য নির্বাহী কমিটির সদস্য। ২০০৩ থেকে ২০১২ পর্যন্ত যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য। বিএনপির ১৯৯৬ সালে একতরফা নির্বাচনের প্রতিবাদ আন্দোলনে রাজধানীতে যুবলীগের প্রতিটি কর্মসূচিতে স্বক্রিয় আন্দোলন। চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের প্রয়াত সভাপতি ও সাবেক সিটি মেয়র এ.বি.এম মহিউদ্দীন চৌধুরীর নেতৃত্বে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকামূখি লং মার্চ নগরীর খুলশী থানায় গ্রেফতারসহ বিভিন্ন আন্দোলন সংগ্রামে স্বক্রিয় অংশ গ্রহণ ছিলেন আব্দুর রহমানের। এছাড়া রাজনীতির পাশাপাশি বিভিন্ন শিক্ষা, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, ক্রীড়া অসংখ্যা সংগঠনের সাথেও দীর্ঘদির ধরে যুক্ত এগুলোর মধ্যে পটিয়া ক্লাবের লাইফ মেম্বার, বাহুলী প্রগতি সংঘের সাধারণ সম্পাদক, সহ সভাপতি পটিয়া সদরের বাহুলী উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি। সদস্য চট্টগ্রাম সিনিয়র ক্লাব, উপদেষ্ঠা বাহুলী অগ্রগতি সংঘ ও নগরীর এহসান স্কুল এন্ড কলেজের দায়িত্ব রয়েছে। যুবলীগ নেতা আব্দুর রহমানের মামা চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা কাজী আবু তৈয়ব, তার ভাই ইরফানুর রহমান রাসেল বাহুলী ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এই কমিটির সভাপতি ছিলেন পটিয়া আইনজীবী সমিতির সভাপতি এডভোকেট কামাল উদ্দীন। আব্দুর রহমান চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের তৎকালিন সভাপতি বর্তমান দক্ষিণ জেলা যুবলীগের সভাপতি আ.ম.ম টিপু সুলতান চৌধুরীর হাত ধরে রাজনীতিতে আসলেও দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আইয়ুব বাবুল ও পটিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোতাহেরুল ইসলাম চৌধুরী ছিলেন তার রাজনৈতিক গুরু। পটিয়া থেকে ঢাকায় যাওয়ার পর বর্তমান যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সম্পাদক মুহাম্মদ বদিউল আলমের মাধ্যমে যুবলীগের তৎকালিন দায়িত্বরত সভাপতি বর্তমান বাংলাশে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক ও সাধারণ সম্পাদক ও জাতীয় সংসদের হুইপ মির্জা আজমের নেতৃত্বে যুবলীগের সাংগঠনিক কর্মকান্ডে সারা দেশে তাদের সাথে সাংগঠনিক টিমে ছিলেন। এ বিষয়ে পটিয়া উপজেলা যুবলীগের সহ সভাপতি আবছার হোসেন জানান, আব্দুর রহমানকে যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে উপ ক্রীড়া বিয়ষক পদটি দেয়ার পর অনেকের রাতের ঘুম হারাম হয়ে গেছে। রহমানের দীর্ঘ ত্যাগের পর মাননীয় প্রধানমন্ত্রী একজন ত্যাগী কর্মীকে মূল্যায়ন করায় পটিয়ার আওয়ামী পরিবারের পক্ষ থেকে অভিনন্দন জানায় এবং তৃণমূল নেতা কর্মীরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এবং যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির প্রতি কৃতজ্ঞ। এ বিষয়ে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও পটিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি আইয়ুব বাবুল বলেন, আব্দুর রহমান দলের র্দুসময়ের সাহসী কর্মী, যখন পটিয়ায় হাতেগনা কয়েকন কর্মী ছিল সেই সময় আব্দুর রহমান পটিয়ার দলীয় প্রতিটি কর্মসূচি এবং শিশু সংগঠন শাপলুকুড়ি আসরের সাথেও যুক্ত ছিলেন। দলের ত্যাগী কর্মীদের একদিন না একদিন মূল্যায়ন হবে তার প্রমান যুবলীগের বদিউল আলম ও আব্দুর রহমান তারা কর্মগুনে এখন যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে গুরুত্বপূর্ণ জায়গা পেয়েছেন তারা পটিয়াবাসীর গর্ব এবং আওয়ামী রাজনীতির অহংকার। এ বিষয়ে যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির উপ ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক আব্দুর রহমান বলেন, আমি গ্রাম থেকে উঠে এসে রাজধানীতেও রাজনীতি করেছি, পদ পদবী নিয়ে কখনো লোভ করেনি, রাজনীতি করতে গিয়ে অনেক জেল, জুলুন নির্যাতনের শিকার হয়েছি। দীর্ঘ ৩১ বছরের রাজনৈতিক জীবনে আমাকে মূল্যায়ন করায় বঙ্গবন্ধু কন্যা মানবতার মা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এবং যুবলীগের চেয়ারম্যান ও সাধারণ সম্পাদকের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। আমি চেষ্টা করব যুবলীগের জন্য যতটুকু সম্ভব নিজের মেধা ও শ্রম দিয়ে প্রিয় সংগঠন যুবলীগকে এগিয়ে নেয়ার জন্য।

কুলাউড়া শান্তি পরিষদের ১ম বর্ষপূর্তি উদযাপ

কুলাউড়া শান্তি পরিষদের ১ম বর্ষপূর্তি উদযাপ

মোঃরেজাউল ইসলাম শাফি,  কুলাউড়া উপজেলা প্রতিনিধিঃমৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলায় কুলাউড়া শান্তি পরিষদের ১ম বর্ষপূর্তি উপলক্ষে বর্ষপূর্তি ও কেককাটা অনুষ্ঠান (২৫ নভেম্বর) বুধবার কুলাউড়া ছামী ইয়ামী চায়নিজ বাংলা রেষ্টুরেন্টে অনুষ্ঠিত হয়। মিনার বকসের সভাপতিত্বে ও মুমিনুর রহমান অনিকের সঞ্চালনায় উক্ত  অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুলাউড়া সরকারি কলেজের  অধক্ষ্য সৌম্য প্রদিপ ভট্রাচার্য্য সজল , প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পৌর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক আমেরিকা প্রবাসী জনাব এনামুল ইসলাম । বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সম্মানিত উপদেষ্টা জাহেদূর রহমান জাহেদ । বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সম্মানিত উপদেষ্টা আব্দুল্লাহ আল মনি । বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুলাউড়া বাজারের ব্যবসায়ী ও সাংবাদিক  মো:নাজমুল বারী সুহেল বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট সমাজসেবক তালুকদার আবু সারোয়ার। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন কুলাউড়া শান্তি পরিষদের সিনিয়র সহ সভাপতি রাহিম আহমেদ মান্না,সহ সভাপতি শাহিন হোসেন, যুগ্ম সম্পাদক শুকুর আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদি হাসান খান সহ সাংগঠনিক সম্পাদক রাব্বি খান সহ সাংগঠনিক সম্পাদক সফিক আহমেদ,সমাজসেবা বিষয়ক সম্পাদক সফিউল গালিব, শিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক মাহফুজুর রহমান, দপ্তর সম্পাদক মাহফুজ আহমেদ, অফিস সম্পাদক জামিল আহমেদ, সহ সকল সদস্যবৃন্দরা, প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে কুলাউড়া শান্তি পরিষদের কর্মসূচি হিসেবে ২০০ টি গাছ রোপন ও শহরের বিভিন্ন জায়গায় মাস্ক বিতরন করা হয়।

ফুটবল কিংবদন্তি ম্যারাডোনা মারা গেছেন

ফুটবল কিংবদন্তি ম্যারাডোনা মারা গেছেন
ছবি: সংগৃহীত

নিউজ ডেস্কঃ ফুটবল ঈশ্বর খ্যাত দিয়েগো ম্যারাডোনা ৬০ বছর বয়সে পৃথিবীকে বিদায় জানিয়ে দিলেন। হৃদযন্ত্রের ক্রীয়া বন্ধ হয়ে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন আর্জেন্টাইন এই কিংবদন্তি ফুটবলার। ১৯৮৬ বিশ্বকাপ জয়ী এই ফুটবলারের মৃত্যুর খবরটি নিশ্চিত করেছেন আন্তর্জাতিক বিভিন্ন গণমাধ্যমগুলো।

গত মাসে বুয়েনস এইরেসের হাসপাতালে মস্তিষ্কে জরুরি অস্ত্রোপচার করা হয় ম্যারাডোনার। ঐ সময় তার মস্তিষ্কে জমাট বেঁধে থাকা রক্ত অপসারণ করানো হয়েছিল।

মাদকাসক্তি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থতায় ভোগা ম্যারাডোনা ২৫ নভেম্বর নিজ বাসায় হৃদযন্ত্রের ক্রীয়া বন্ধ হয়ে মারা গেছেন।

তথ্যসূত্র: আরটিভি