করোনা মোকাবিলায় মাঠে নেমেছে মেহেরপুর ডিবি পুলিশ

করোনা মোকাবিলায় মাঠে নেমেছে মেহেরপুর ডিবি পুলিশ
মাঠে নেমে প্রচারভিযান পরিচালনা করছেন ডিবি পুলিশ!  
তানভীর আহম্মেদ,মেহেরপুর প্রতিনিধিঃ করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় মেহেরপুর ডিবি পুলিশেকে মাঠে নামতে দেখা গিয়েছে।মেহেরপুর ডিবি পুলিশের  উদ্যোগে শহরে  জনসচেতনতা মূলক প্রচারণা ও জনসাধারণের মধ্যে মাস্ক বিতরণ করা হয়েছে। আজ মেহেরপুর শহরের বিভিন্ন এলাকায় এই কর্মসূচির পালন করা হয়।

মেহেরপুর ডিবি'র ইন্সপেক্টর শাহ আলমের নেতৃত্বে ডিবি পুলিশের সদস্যরা মেহেরপুর শহরের হোটেল বাজার এলাকা থেকে শুরু করে কলেজ মোড়, বড়বাজার এলাকাসহ শহরের প্রধান প্রধান সড়কগুলোতে জনসচেতনতামূলক প্রচারণা চালায়। এসময় তারা বলেন,   করোনার প্রকাপ বেড়ে যাওয়ার কারণ হচ্ছে স্বাস্থ্যবিধি না মেনে চলা। শুধু মাস্ক পরলেই হবে না, সাবান-পানি দিয়ে হাত ধোয়ার অভ্যাস চালু রাখতে হবে।তিনি মাস্ক বিহীন বাইরে না আসার আহ্বান জানান।  দ্বিতীয় ধাপে করোনা মোকাবিলায় জেলার পুলিশের পক্ষ থেকে নানা উদ্যোগে মাস্ক বিতরণ করছে মেহেরপুর ডিবিপুলিশ।

মেহেরপুরে দিন দিন বেড়েই চলেছে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা

মেহেরপুরে দিন দিন  বেড়েই চলেছে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা
মেহেরপুরে করোনা রোগীর সংখ্যা বাড়ছে! 
তানভীর আহম্মেদ,মেহেরপুর প্রতিনিধিঃ  জেলায় দিন দিন  বাড়ছে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগী সংখ্যা। আজ একদিনেই করোনায়  আক্রান্ত হয়েছেন ১০জন। স্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়েছেন- মেহেরপুরে লকডাউন ও স্বাস্থ্যবিধি না মানার কারণেই দিনে দিনে বেড়েই চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। এখন শহর ও গ্রামে সমানতালে বাড়ছে রোগীর সংখ্যা।

মেহেরপুর সিভিল সার্জন ডাঃ নাসির উদ্দিন জানিয়েছেন- মেহেরপুরে ১৮ জনের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট আসে যার ১০ জনের রিপোর্ট পজেটিভ। আক্রান্তদের মধ্যে সদর উপজেলার ৪ জন, গাংনী উপজেলার ২ জন ও মুজিবনগর উপজেলার ৪ জন  বাসিন্দা।

শৈলকুপায় ক্ষীর্নকায় দম্পতির বিয়েঃ মুখরিত আউশিয়া গ্রাম

শৈলকুপায় ক্ষীর্নকায় দম্পতির বিয়েঃ মুখরিত আউশিয়া গ্রাম

সম্রাট হোসেন , ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ ক্ষীর্নকায় এক দম্পতির বিয়ে নিয়ে শৈলকুপার আউশিয়া গ্রাম এখন মুখরিত। দলে দলে মানুষ আসছেন এই নবদম্পত্তিকে আশির্বাদ করতে। চল্লিশ ইঞ্চি উচ্চতার আব্বাস উদ্দীন (৩০) ও বিয়াল্লিশ ইঞ্চি উচ্চতার মিম খাতুনের (১৮) বিয়ে হয়েছে শুক্রবার রাতে। এই বিয়ে নিয়ে উভয় পরিবার উচ্ছাসিত। বর আব্বাস উদ্দীনের মা সালেহা খাতুন জানান, কৃষক ছেলের জন্য মেয়ে খুজে পাচ্ছিলাম না। অবশেষে শৈলকুপার লক্ষনদিয়া গ্রামে মেয়ে খুজে পায়। ওই গ্রামের ইউনুস আলীর এমন একটি মেয়ের আছে বলে আমরা খবর পায়। বিয়ের পয়গম পাঠানোর পর রাজি হয় কনের পরিবার। এরপর আসে সেই মেহন্দ্রক্ষন। শুক্রবার রাতে ছেলে আব্বাস উদ্দীনের সঙ্গে মিমের বিয়ে সম্পন্ন হয়। এই বিয়েতে ১৫ জন বরযাত্রী যায়। শনিবার সকালে বিয়ে বাড়ি গিয়ে দেখা যায় বর কনে পাশাপাশি বসে খোশ মেজাজে গল্প করছেন। আব্বাস ও মিম জানান, তাদের দাম্পত্য জীবন সুখি হবার জন্য যেন সবাই দোয়া করেন।

রাজাপুরে বিয়ের প্রলোভনে স্কুল ছাত্রী ধর্ষণ, বাড়ি ছাড়া করার হুমকি!

রাজাপুরে বিয়ের প্রলোভনে স্কুল ছাত্রী ধর্ষণ, বাড়ি ছাড়া করার হুমকি!

মো. নাঈম ঝালকাঠি প্রতিনিধি: ঝালকাঠির রাজাপুরে ১৭ বছর বয়সী স্কুল পড়ুয়া নবম শ্রেনীর এক ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভনে দীর্ঘদিন ধরে ধর্ষণের ঘটনায় ওই ছাত্রী ৯ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। শুক্রাবার গভীর রাতে ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে মো. রাজু হাওলাদারকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন (মামলা নম্বর-০৬)। রাজু হাওলাদার উপজেলার গালুয়া ইউনিয়নের নলবুনিয়া এলাকার মো. হারুন হাওলাদারের ছেলে। মামলায় ছাত্রীর বাবা অভিযোগ করেন, স্কুলছাত্রী ও রাজু একই বাড়িতে বসবাস করেন। রাজু ওই ছাত্রীকে বিয়েসহ বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে দীর্ঘদিন ধরে দৈহিক সম্পর্কে লিপ্ত হয়। এতে ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। স্কুলছাত্রী বিষয়টি রাজুকে জানালে রাজু তাকে বিয়ে করতে অস্বীকার করে। বর্তমানে সে ৯ মাসের অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় লোকলজ্জার ভয়ে আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে। এলাকাবাসীর অভিযোগ, ঘটনা জানাজানি হলে কয়েক মাস ধরে বাচ্চা নষ্ট করার জন্য ওই ছাত্রীকে ও তার পরিবারকে চাপ দেয়। লোকলজ্জার ভয়ে ওই ছাত্রী ও তার পরিবার অসহায় হয়ে পড়ে। এমনকি ওই ছাত্রীকে বিয়ের জন্য রাজু ও তার পরিবারকে বললে ওই ছাত্রী ও তার পরিবারকে এলাকা ছাড়া করার হুমকি দেয় ধর্ষণে অভিযুক্ত ও তার প্রভাবশালী আত্মায়ী স্বজন। এ বিষয়ে জানতে চাইলে রাজাপুর থানার মো. শহিদুল ইসলাম জানান, তার বাবার আবেদনের প্রেক্ষিতে মামলা রেকর্ড করে ওই স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করে তার জবানবন্দি রেকর্ড ও ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য আদালতে পাঠানো হয়েছে। তবে অভিযুক্ত আসামী রাজু পলাতক রয়েছে। আসামি রাজুকে গ্রেফতারে পুলিশী অভিযান অব্যাহত আছে। 

কলাপাড়ার উপজেলা শ্রমিকলীগের উদ্যোগে মাস্ক বিতরণ

কলাপাড়ার উপজেলা  শ্রমিকলীগের   উদ্যোগে মাস্ক বিতরণ

নাঈমুর রহমান পটুয়াখালী জেলা প্রতিনিধি:কোভিড-১৯ মোকাবেলায় জনসাধারনের মাঝে সচেতনতা সৃস্টির লক্ষ্যে কেন্দ্রীয় শ্রমিকলীগের   নির্দেশে কলাপাড়া উপজেলা শ্রমিকলীগের   আয়োজনে মাস্ক বিতরন.।  উপজেলা শ্রমিকলীগের    উদ্যোগে শনিবার  সকাল ১১ টার সময়  এ মাস্ক বিতরণ করা হয়েছে। কলাপাড়া উপজেলা শ্রমিকলীগের  সভাপতি হীরা হাওলাদার স্বপন  ও সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ (কালাম সরদার’র নেতৃত্বে   শ্রমিকলীগ কর্মীরা কলাপাড়া  কলেজ রোড  গোডাউন গার্ড চলাচলরত মোটরবাইক.অটো রিক্সা. অটোভ্যান চালকসহ চলাচলরত বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষের মাঝে এ মাস্ক বিতরণ করেন। এসময় করোনা মহামারির প্রাদুর্ভাব থেকে বাচঁতে সকলকে সরকারের দেয়া কঠোর নির্দেশনা মেনে চলার আহবান জানানো হয়। মহামারির এ প্রাদুর্ভাব থেকে নিজেদের রক্ষা করতে পারিবারিক সুরক্ষার তাগিদ দেন শ্রমিকলীগ নেতা ও কর্মিরা।

কলাপাড়া উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি হীরা হাওলাদার শ্বপন ও সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ (কালাম সরদার)  জানান, কেন্দ্রীয় শ্রমিকলীগের  সাধারণ সম্পাদক   আলহাজ্ব কে এম আজম খসরু দাদার  নির্দেশে মাস্ক বিতরনসহ কোভিট-১৯ এর সকল কার্যক্রমে মাঠে জনগনের পাসে আছি এবং থাকব ইনশাল্লাহ। এ সময় উপস্থিত ছিলেনঃ পটুয়াখালী জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি সৈয়দ নাসির উদ্দীন,উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক  অধ্যক্ষ শহিদুল আলম,কলাপাড়া পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি বাবু বিপুল চন্দ্র হাওলাদার, ৮নং ওয়াড আওয়ামীলীগের সভাপতি ও ৮নং ওয়াড কাউন্সিল  আলহাজ্ব আব্দুল লতিফ খালাসী ,উপজেলা শ্রমিকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নুরজামাল খালাসী, উপজেলা শ্রমিকলীগের  সাংগঠনিক সম্পাদক মিন্টু মল্লিক,উপজেলা শ্রমিকলীগের দপ্তর সম্পাদক মনিরুল ইসলাম,উপজেলা শ্রমিকলীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক নাঈমুর রহমান,উপজেলা শ্রমিকলীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক এইচ কে নয়ন খলিফা, উপজেলা শ্রমিকলীগের  অর্থ বিষয়ক সম্পাদক কৃষ্ণা দাস,উপজেলা শ্রমিকলীগের  সহ-অর্থ বিষয়ক সম্পাদক  মোঃ আল-আমিন হাওলাদার, উপজেলা শ্রমিকলীগের প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক দুুুলাল হাওলাদার,    সহ-প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক প্রিন্স হাওলাদার , উপজেলা শ্রমিকলীগের ক্রিয়া ও সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক রাজিব সরদারসহ, বিভিন্ন ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ের নেতা কর্মিরা উপস্থিত ছিলেন।

মুরহুম তাজুল ইসলাম পাটোঃ স্মৃতি ফাউন্ডেশন’র উদ্যোগে আমজাদ হাটে আর্থিক অনুদান ও ইফতার সামগ্রী বিতরণ

মুরহুম তাজুল ইসলাম পাটোঃ স্মৃতি ফাউন্ডেশন’র উদ্যোগে আমজাদ হাটে আর্থিক অনুদান ও  ইফতার সামগ্রী বিতরণ

কে এম রুবেল বিশেষ প্রতিবেদক : মানুষ মানুষের জন্য এ কথা কে বাস্তবে রপান্তিত করলেন মরহুম তাজুল ইসলাম পাটোয়ারী স্মৃতি ফাউন্ডেশন'এর প্রতিষ্ঠাতা শিল্পপতি জনাব নজরুল ইসলাম পাঠোয়ারী বাবলু, মহামারী করোনা পরিস্থিতি মানুষ যখন মৃত্যর মুখামুখি সারা দেশে সরকার ঘোষিত লকডানের কারনে যখন গ্রামের কেটে খাওয়া মানুষ কর্মহীন অবস্থাই পরিবার পরিজন  নিয়ে না খেয়ে অসহাই অবস্থাই নানা খারাপ চিন্তায় দিন কাটাচ্ছে  ঠিক তখনি মানবতার জয়ের  স্লোগান কে সামনে রেখে লকডাউন ও আসন্ন পবিত্র মাহে রমজান কে সামনে রেখে  মানবতার হাত  বাড়িয়ে ফেনীর ফুলগাজী উপজেলার আমজাদ হাট ইউনিয়নের বিভিন্ন চায়ের দোকানে গ্রামে গ্রামে সুমধুর আলোচনার মুখ্য পাত্র এখন মরহুম তাজুল ইসলাম পাটোয়ারী স্মৃতি ফাউন্ডেশন' এর সম্মানিত প্রতিষ্ঠাতা তরুন শিল্পপতি মানবতার ফেরিওয়ালা জনাব নজরুল ইসলাম বাবলু গতকাল ১০ এপ্রিল রোজ শনিবারে ফেনীর ফুলগাজী থানাধীন আমজাদ ইউনিনের কিলিদিঘি এলাকা ও পাশ্ববর্তী ৩/৪ গ্রামের অসহায়  প্রাই ৩০০ পরিবার কে করোনা দূর্যোগে  পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষ্যে  আমজাদহাট ইউনিয়নেরসেচ্ছাসেবী সংগঠন "মরহুম তাজুল ইসলাম পাটোয়ারী স্মৃতি ফাউন্ডেশন'র"উদ্যোগর ফাউন্ডেশনে'র প্রতিষ্ঠাতা নইসলাম পাটোয়ারী বাবলু'র আর্থিক সহায়তায় ইফতার সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

মরহুম তাজুল ইসলাম পাটোয়ারী স্মৃতি ফাউন্ডেশন'উদ্দেগে এই ইফতার সামগ্রী বিতরণে সার্বিক সহযোগিতা করেন ফাউন্ডেশনে'র সদস্য শরিফুল ইসলাম পাটোয়ারী সাবলু, মোহাম্মদ রবিন মজুমদার, শাকিল, মিজান, পলাশ, বেলাল, মোশারফ, শরীফ, সাপাত, জয়নাল, হাসান ও কাদের  সহ প্রমুখ ।
মরহুম তাজুল ইসলাম পাটোয়ারী স্মৃতি ফাউন্ডেশন' প্রতিষ্ঠাতা শিল্পপতি নজরুল ইসলাম পাটোয়ারী বাবলু দৈনিক আলোকিত দেশ কে জানান, করোনা ভাইরাসের প্রভাবে মানুষজন যখন কষ্টে দিন কাটাচ্ছে। এই সংকটময় মুহুর্তে আমজাদহাট ইউনিয়নের মানুষের কষ্ট লাঘবের জন্য আমার পিতা তাজুল ইসলাম পাটোয়ারীর নামে গড়া মরহুম তাজুল ইসলাম পাটোয়ারী স্মৃতি ফাউন্ডেশনে'র পক্ষ থেকে দুঃস্থ, অসহায়, দরিদ্র, কর্মহীন ৩শ পরিবারে ইফতার সামগ্রী বিতরণ করেছি। নজরুল ইসলাম পাটোয়ারী বাবলু'র এই মহৎ উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন স্থানীয় এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

মামুনুল ও দুর্নীতিবাজদেরকে পুষে রাখবেন না : মোমিন মেহেদী

মামুনুল ও দুর্নীতিবাজদেরকে পুষে রাখবেন না : মোমিন মেহেদী

প্রেস বিজ্ঞপ্তি: নতুনধারা বাংলাদেশ এনডিবির চেয়ারম্যান মোমিন মেহেদী বলেছেন, মামুনুল ও দুর্নীতিবাজদেরকে পুষে রাখবেন না; যদি অপরাধ প্রমাণিত হয় বিচারের আওতায় আনুন, নির্দোশ হলে মুক্ত করুন। যদি দেশকে ভালোবাসেন নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য স্থিতিশীল করুন, নীতি-আদর্শের রাজনীতিকদেরকে কাজ করার সুযোগ গড়ে দিন।

১০ এপ্রিল বিকেল ৩ টায় 'মামুনুল-লকডাউনে ব্যর্থতা কার?' শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি আহবান জানিয়ে উক্ত কথা বলেন তিনি। সভায় প্রেসিডিয়াম মেম্বার রাশেদ চৌধুরী, সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান শান্তা ফারজানা, সাংগঠনিক সম্পাদক ওয়াজেদ রানা, মো. শরীফ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। এসময় বক্তারা বলেন, দেশকে কোন অন্যায়-অপরাধ-দুর্নীতিবাজ-জঙ্গীবাদের দিকে ঠেলে দিতে না চাইলে লম্পট-লুটেরাদের রাজনীতিকে প্রতিরোধ করুন, ধর্ম ব্যবসায়ীদের রাজনীতি নিষিদ্ধ করতে হবে। পবিত্র রমজান ও ঈদকে সামনে রেখে পরিকল্পিত ও স্বাস্থ্য সম্মতভাবে ব্যবসা সহ সকল সেক্টর উম্মুক্ত রাখতে হবে।

কুড়িগ্রামের রাজারহাটে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের শুভ উদ্ধোধন

কুড়িগ্রামের রাজারহাটে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের শুভ উদ্ধোধন

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ ১০ এপ্রিল শনিবার সকাল ১০টায় রাজারহাট উপজেলার চাকিরপশার ইউপির পাঠকপাড়া এলাকায় উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানে রাজারহাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূরে তাসনিমের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, জাহিদ ইকবাল সোহরাওয়ার্দ্দী বাপ্পি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবুনুর মোঃ আক্তারুজ্জামান, রংপুর বিভাগের ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপ-পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত)  মোঃ ওহিদুল ইসলাম, গণপূর্ত বিভাগ কুড়িগ্রামের নির্বাহী প্রেকৌশলী মোঃ মনিরুজ্জামান,রাজারহাট সদর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ এনামুল হক, জেলা পরিষদ সদস্য আব্দুস ছালাম, প্রেসক্লাব রাজারহাট এর সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, প্রচার সম্পাদক এ.এস. লিমন প্রমূখ।

দীর্ঘদিন পর হিলিতে নতুন করে একজন করোনায় আক্রান্ত

দীর্ঘদিন পর হিলিতে নতুন করে একজন করোনায় আক্রান্ত

কৌশিক চৌধুরী,হিলি প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরের হিলিতে দীর্ঘদিন ধরে করোনায় আক্রান্ত শুন্যের তালিকায় থাকলেও করোনার দ্বিতীয় ধপে এসে নতুন করে একজন করেনায় আক্রান্ত হয়েছে। শনিবার দুপুরে হাকিমপুর উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স থেকে এই তথ্য জানানো হয়। আক্রান্ত ব্যাক্তি হিলির বাসুদেবপুর চুরিপট্টি এলাকার বাসিন্দা। বর্তমানে সে তার নিজ বাড়িতেই হোমকোয়ারেন্টিনে রয়েছে।শনিবার দুপুরে হাকিমপুর উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স থেকে এই তথ্য জানানো হয়।

এনিয়ে হিলিতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাড়ালো ৮৭জনে, এর মধ্যে মৃত্যুবরন করেছেন একজন, ৮৫জন সুস্থ্য হয়েছেন এবং চিকিৎসা নিচ্ছেন এক জন। 
হাকিমপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. তৌহিদ আল হাসান জানান, প্রশাসনের বিভিন্ন পদক্ষেপ ও স্বাস্থ্যবিভাগের নানামুখি কর্মতৎপরতার কারনে হিলিতে দীর্ঘদিন ধরেই করোনার রোগী ছিলনা। বর্তমানে করোনার দ্বিতীয় শুরুর পর থেকেই এই উপজেলাতে করোনা রোগী ছিলনা।

গতবুধবারে ওই ব্যাক্তি জ্বর-সর্দী নিয়ে হাসপাতালে আসে। এরপর আমরা নমুনা সংগ্রহ করে তা পরীক্ষার জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। আজ নমুনা পরিক্ষার রিপোর্ট আসলে তাতে তার পজিটিভ ধরা পড়ে। সে তার নিজ বাড়িতেই হোম কোয়ারেন্টিনে রয়েছে। আমরা নিয়মিত তার সাথে যোগাযোগ রাখছি ও তাকে প্রয়োজনীয় ওষধ বা পরামর্শ দিচ্ছি।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে এবারে এই ভাইরাসটি আরো দ্রুত মানুষের মাঝে ছড়াচ্ছে এবং আগের চেয়ে বেশ শক্তিশালী। তাই সকলকে মাস্ক ব্যবহার করতে ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাচল করতে অনুরোধ জানান তিনি। ।

ঘোড়াঘাটে ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর ৯৭ পরিবারের মাঝে গরু বিতরণ

ঘোড়াঘাটে ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর ৯৭ পরিবারের মাঝে গরু বিতরণ

কৌশিকচৌধুরী, হিলি প্রতিনিধিঃ
দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর ৯৭টি পরিবারের মাঝে সরকারী বরাদ্দের গরু বিতরণ করেছেন দিনাজপুর-৬ আসনের সংসদ সদস্য ও সমাজকল্যাণ মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য শিবলী সাদিক।
আজ শনিবার (১০ এপ্রিল) সকালে উপজেলা প্রাণীসম্পদ কার্যালয়ের আয়োজনে ঘোড়াঘাট সরকারী কলেজ মাঠে সমতল ভূমিতে অনগ্রসর ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর আর্থ-সামাজিক ও জীবন মান উন্নয়নের লক্ষে সমন্বিত প্রাণীসম্পদ উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় এসব গরু বিতরণ করা হয়।
পরিবার গুলোর মাঝে গরুর পাশাপাশি গরুর যথাযথ ভাবে লালন পালনের জন্য ১২৫ কেজি দানাদার গো-খাদ্য, গরুর আবাস ঘরের জন্য ৫টি টিন, ৪টি সিমেন্টের পিলার এবং ১৯০ পিচ ইট বিতরণ করা হয়।

এছাড়াও উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের আয়োজনে সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতায় ক্যান্সার, জন্মগত হ্নদরোগ ও থ্যালাসেমিয়া সহ বেশ কয়েকটি রোগে আক্রান্ত দুস্থ রোগীদের মাঝে অর্থ সহায়তার চেক বিতরণ করেছেন সংসদ সদস্য শিবলী সাদিক।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুর রাফে খন্দকার শাহানসা, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাফিউল আলম, ঘোড়াঘাট সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ মনিরুল ইসলাম, ঘোড়াঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আজিম উদ্দিন এবং উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা আব্দুল আওয়াল প্রমুখ।

ঝিকরগাছায় ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও নার্স এ্যাসোসিয়েশনের সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়

ঝিকরগাছায় ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও নার্স এ্যাসোসিয়েশনের সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়

আফজাল হোসেন চাঁদ : ঝিকরগাছায় ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার অনার্স এ্যাসোসিয়েশনের সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় অনুষ্ঠিত হয়েছে।
স্থানীয় উপজেলা ডাক বাংলোতে শনিবার সকাল ১১টায় ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও নার্স এ্যাসোসিয়েশনের সহ সভাপতি মোঃ শামীম রেজার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক একরামুল হক খোকনের সঞ্চালনার মধ্যদিয়ে উপস্থিত ছিলেন, ঝিকরগাছা প্রেসক্লাবের সভাপতি এমামুল হাসান সবুজ, সহ-সভাপতি আতাউর রহমান জসি, সাধারণ সম্পাদক সৈয়েদ ইমরানুর রশিদ, যুগ্ম সম্পাদক তরিকুল ইসলাম, সদস্য ইলিয়াস উদ্দিন, জুলফিকার আলী ভুট্টো, মতিয়ার রহমান, সাংবাদিক আফজাল হোসেন চাঁদ, মিঠুন সরকার, আমিরুল ইসলাম জীবন,   মহসীন আলী ,  হান্নান হোসেন, শাহ জামাল শিশির, , ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও নার্স এ্যাসোসিয়েশনের যুগ্ম সম্পাদক কাজী মাসুদুল রহমান মাসুদ, সাংগঠনিক সম্পাদক মারুফ হোসেন, দপ্তর সম্পাদক হাবিবুর রহমান, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক সোনিয়া পারভীন, সদস্য আলাউদ্দীন রাজন, সামিরুল ইসলাম প্রমুখ।

লালমনিরহাটে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপে মধ্যে সংঘর্ষ,আহত -৭

লালমনিরহাটে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপে মধ্যে সংঘর্ষ,আহত -৭

রশিদুল ইসলাম রিপন লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ লালমনিরহাট জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জাবেদ হোসেন বক্করের নামে থানায় মামলার ঘটনায় আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগের মধ্যে সংঘর্ষ ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয় পক্ষে অন্তত ৫ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছে এমন খবর পাওয়া গেছে।

শনিবার দুপুরে জেলা শহরের বানিয়াপট্টি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করলেও শহরজুড়ে আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগ মুখোমুখি অবস্থান নিয়েছে।এর আগে গত বৃহস্পতিবার লালমনিরহাট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মতিয়ার রহমানের বোনের বাসায় হামলার অভিযোগ উঠে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান জাবেদ হোসেন বক্করের বিরুদ্ধে।

 এ ঘটনায় জাবেদ হোসেন বক্করের বিরুদ্ধে শুক্রবার থানায় মামলা করেছেন ভুক্তভোগী পরিবার। এ দিকে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জাবেদ হোসেন বক্করের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রতিবাদে ও মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে জেলা ছাত্রলীগের কার্যালয়ে শুক্রবার রাতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন জেলা ছাত্রলীগ।

সংবাদ সম্মেলনে লালমনিরহাট পৌরসভা ছাত্রলীগের সম্পাদক শহিদুল ইসলাম পাপফু বলেন, দলীয় কোন্দলের কারণে ছাত্রলীগ সভাপতি জাবেদ হোসেন বক্করসহ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের নামে মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। ওই মামলা প্রত্যাহার করা না হলে আগামী সোমবার জেলায় সকাল সন্ধ্যা হরতাল পালন করবেন জেলা ছাত্রলীগ।লালমনিরহাট জেলা পুলিশ সুপার আবিদা সুলতানা জানান, বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। শহরজুড়ে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

মানুষ যদি সচেতন না হয় চিকিৎসক দিয়ে করোনা নির্মুল করা সম্ভব নয় হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি

মানুষ যদি সচেতন না হয় চিকিৎসক দিয়ে করোনা নির্মুল করা সম্ভব নয় হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি

 মামুনুর রশিদ,দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্য বিধি না মানলে কমানো সম্ভব নয় উল্লেখ করে বলেন, স্বাস্থ্যবিধিই একমাত্র পথ করোনা থেকে রক্ষা পেতে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রথম দফায় যে ভাবে দেশ ও দেশের মানুষকে আল্লাহর রহমতে রক্ষা করছে ঠিক সেভাবেই দ্বিতীয় দফার এই ভয়াবহ করোনা থাবা থেকে রক্ষা করতে সকল ধরনের প্রদক্ষেপ নিয়েছে। মানুষকে বাচানোই শেখ হাসিনার লক্ষ। মানুষ বাচলে দেশ বাচবে। তিনি বলেন, অসুস্থ্য হওয়ার পর রোগীরা চিকিৎসা নিয়ে সচেতনতা না থাকে, স্বাস্থ্যবিধি না মানলে এ রোগ নির্মুল করা সম্ভব হবে না। মানুষ যদি সচেতন না হয় চিকিৎসক দিয়ে করোনা নির্মুল করা সম্ভব নয়। কোভিড-১৯ এর অন্যতম চিকিৎসা হচ্ছে সচেতনতা। আর বিএনপি মানুষের পাশে না গিয়ে ঘরে বসেই বিভিন্ন ধরনের গুজব ছড়িয়ে দেশে অরাজকতা সৃষ্টি করছে। হুইপ অরাজকতা সৃষ্টি না করে করোনার এই দুর্যোগমুহর্তে জনগনের পাশে দাড়ানোর আহবান জানান।
১০ এপ্রিল শনিবার দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মিলনায়তনে দিনাজপুর জেলায় করোনা  ভাইরাস সংক্রমন রোধে অধিকতর কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহন ও কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীদের সুচিকিৎসাসহ বর্তমান পরিস্থিতির উপর মতবিনিময় সভায় হাসপাতাল ব্যবস্থাপনার কমিটির সভাপতি ও জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি এসব কথা বলেন। এর আগে হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ডোজ টিকা নেন।
মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর জেলা প্রশাসক খালেদ মোহাম্মদ জাকী, জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন বিপিএম, পিপিএম (বার), অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) সুজন সরকার, এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ এর ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ডাঃ সৈয়দ নাদির হেসেন, হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক ডাঃ আবু  রেজা মোঃ মাহমুদুল হক, দিনাজপুর সিভিল সার্জন ডাঃ আব্দুল কুদ্দুস, দিনাজপুর সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম সোহাগ, পৌরসভার প্যানেল মেয়র আবু তৈয়ব আলী দুলাল, বিএমএর সাধারন সম্পাদক ডাঃ বি কে বোস, আইসিইউ কনসালটেন্ট ডাঃ আক্তার কামাল প্রমুখ।

দিনাজপুরে চিত্র সাংবাদিক মরহুম শাহিন হোসেনের দ্বিতীয় মৃত্যু বার্ষিকী পালন

দিনাজপুরে চিত্র সাংবাদিক মরহুম শাহিন হোসেনের দ্বিতীয় মৃত্যু বার্ষিকী পালন

 মামুনুর রশিদ,দিনাজপুর প্রতিনিধি :
দিনাজপুরে টেলিভিশন ক্যামেরাপারসন মরহুম শাহিন হোসেনের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী পালন করেছে দিনাজপুর টিভি ক্যামেরা  পার্সোন এসোসিয়েশন।  দিনাজপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে স্থানীয় ও জাতীয় পত্রিকা এবং টেলিভিশন সাংবাদিক- ক্যামেরা পারসনরা এ সভায় উপস্থিত উপস্থিত ছিলেন। দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে মরহুম শাহিন হোসেনের বিদেহী আত্মার শান্তি ও মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত পরিচালনা করেন দিনাজপুর সদর থানা মসজিদের ইমাম। দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি স্বরূপ বক্সী বাচ্চু,সাধারণ সম্পাদক গোলাম নবী দুলাল, পিএমএন টেলিভিশনের স্বত্বাধিকারী মাহমুদুন্নবী পলাশ, বৈশাখী টিভি ও ইন্ডিপেন্ডেন্ট পত্রিকার প্রতিনিধি একরাম হোসেন তালুকদার, ডিবিসি টেলিভিশনের দিনাজপুর প্রতিনিধি মোর্শেদুর রহমান, ৭১ টিভি এবং ডেইলি স্টারের দিনাজপুর প্রতিনিধি কঙ্কন কর্মকার, স্থানীয় দৈনিক উত্তরবঙ্গের সম্পাদক খোকন কুমার দেব, বিএসএস প্রতিনিধি রুস্তম আলী মন্ডল , দৈনিক আমাদের সময় প্রতিনিধি রতন সিং, এশিয়ান টিভির দিনাজপুর প্রতিনিধি রফিকুল ইসলাম ফুলাল,দেশ টিভির দিনাজপুর প্রতিনিধি আবুল কাশেম, নিউজ টুয়েন্টিফোর চ্যানেল প্রতিনিধি ফখরুল হাসান পলাশ, নিউ নেশন প্রতিনিধি ইফতেখার আহমেদ পান্না, সকালের সময় প্রতিনিধি মাসুদ রেজা হাই, প্রেসক্লাবের সাহিত্য ও পাঠাগার সম্পাদক কাশি কুমার দাস ঝন্টু,সময় টিভির ক্যামেরাপারসন মনজিদ আলম শিমুল, চ্যানেল আই ক্যামেরাপারসন আরমান হোসেন বরকত, মাছরাঙ্গার ক্যামেরাপার্সন রুবেল, ক্যামেরাম্যান মোস্তফা ও পাপ্পুসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা এসময় উপস্থিত ছিলেন।

আসছে গানচিত্র "মুক্তি দিলাম পাখি তোরে"

আসছে গানচিত্র "মুক্তি দিলাম পাখি তোরে"

বিনোদন ডেস্কঃ আজ মুক্তি পাচ্ছে নতুন গানচিত্র "মুক্তি দিলাম পাখি তোরে"। প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান বিট জোন এর ব্যানারে মুক্তি পেয়েছে এই নতুন গানচিত্রটি। এটি পরিচালনা করেছেন শফিকুল ইসলাম নাট্য। 
কাজী রাসেল এর গীত রচনায় এই গানের সুর করেছেন সামরান মিলন এবং  সঙ্গীতায়োজন এর পাশাপাশি গানটিতে কন্ঠ  দিয়েছেন সঙ্গীতশিল্পী পূর্ণ মিলন। গানটিতে মডেল  হিসেবে অভিনয় করেছেন সাহস রিজ, নওশিন মেঘলা ও জনি।
ঢাকার বাহিরে শ্রীনগর আরমান রির্সোট এবং দোহার পদ্মা নদীর চরে গানটির শুটিং করা হয়েছে। মনের ভিতর দাগ কেটে যাওয়ার মতো দারুণ একটি গল্প দিয়ে সাজানো হয়েছে নতুন এই গানচিত্রটি। ১১ তারিখ রবিবার সন্ধা ৭ টায় বিট জোন ইউটিউব চ্যানেল রিলিজ দেওয়া হবে গানটি।
মডেল অভিনেতা সাহস রিজ বলেন, এর আগেও আমি অনেক গুলো মিউজিক ভিডিওতে কাজ করেছি। "মুক্তি দিলাম পাখি তোরে" এই গানে নতুন ভাবে নাট্য ভাই আমাকে তার নতুন মিউজিক ভিডিওতে মডেল  হিসেবে কাজ দিয়েছে এবং কাজটি করে আমার বেশ ভালো লেগেছে।
মেঘলা বলেন, আমি এই মিউজিক ভিডিওতে কাজ করে বেশ মজা পাইছি। আমার সাথে সাহস রিজ ভাইয়া এক সঙ্গে মিউজিক ভিডিওতে অভিনয় করেছে। এবং আশা করি সবার কাছে মিউজিক ভিডিওটি বেশ ভালো লাগবে।

করোনা সচেতনতায় জবি ছাত্রলীগের মাস্ক বিতরণ

করোনা সচেতনতায় জবি ছাত্রলীগের মাস্ক বিতরণ

জবি প্রতিনিধি: বাংলাদেশে চলছে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ।প্রতিদিন মৃত্যুর মিছিলে যোগ হচ্ছে অনেকে।করোনা প্রতিরোধ করতে সচেতনতা ও স্বাস্থ্যবিধি মানার কোন বিকল্প নেই। এরই পরিপ্রেক্ষিতে মানুষের মাঝে জনসচেতনতা সৃষ্টি করতে মাস্ক বিতরণ কর্মসূচি পালন করেছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ।

শনিবার (১০ মার্চ) জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের আশেপাশে সহ বাহাদুর শাহ পার্ক, পাটুয়াটুলি সহ সদরঘাট এরিয়ার বিভিন্ন জায়গায় মাস্ক বিতরণ করেছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এ সময় জনসাধারণকে মাস্ক পড়তে সচেতন করা হয়। 

মাস্ক বিতরণ কর্মসূচী সম্পর্কে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক নুরুল আফসার বলেন, "করোনাকে প্রতিরোদ করতে মাস্ক পড়া জরুরী। সাধারণ মানুষের মাঝে স্বাস্থ্য সচেতনতা গড়ে তুলতেই আমাদের এই কার্যক্রম।"

এছাড়া জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগে সাবেক মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক নাহিদ পারভেজ বলেন, "আমাদের সবাইকে সচেতন থাকতে হবে। মাস্ক পরার মাধ্যমে অনেক রোগ থেকে বেচে থাকা যায়। আমরা সবাই মাস্ক পড়ব ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলব।"এ সময় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা সহ পদ প্রত্যাশি অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

নলছিটিতে জেলেদের চাল নিয়ে জালিয়াতির অভিযোগ

নলছিটিতে জেলেদের চাল নিয়ে জালিয়াতির অভিযোগ

মোঃ নাঈম ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলায় জেলেদের জাল টিপসই দিয়ে হাজিরা (মাস্টার রোল) তৈরি করে ১২২ বস্তা চাল আত্মসাত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও সচিবের বিরুদ্ধে।

এ ঘটনা জানাজানি হলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) নির্দেশে তড়িঘড়ি করে এ চাল বিতরণ করা হয়। চাল বিতরণে দুর্নীতির আশ্রয় নেওয়ায় ইউপি সচিব ওবায়েদুর রহমানকে শোকজ করেছে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। জালিয়াতির বিষয়টি স্বীকার করে 'ভুল হয়েছে' বলে জানান সচিব।জানা যায়, নিষিদ্ধ সময়ে ইলিশ ধরা বন্ধ রাখায় জেলেদের জন্য বিশেষ ভিজিএফ চাল বরাদ্দ করে সরকার। নলছিটি উপজেলার নাচনমহল ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে ৬৫ জন জেলেকে দুই দফায় ৮০ কেজি করে চাল বিতরণের দায়িত্ব দেওয়া হয়। নলছিটি খাদ্যগুদাম থেকে চেয়ারম্যান সেরাজুল ইসলাম সেলিমের নামে ২১ মার্চ ১২২ বস্তা চাল ছাড়িয়ে নেন ইউপি সচিব। চাল নিয়ে ইউনিয়ন পরিষদের গুদামে রাখা হয়। গত ২২ মার্চ চাল বিতরণের কথা থাকলেও অজ্ঞাত কারণে চাল বিতরণ করা হয়নি। এমনকি তালিকাভুক্ত জেলেরাও জানে না যে তাদের নামে চাল বরাদ্দ এসেছে। এ চাল না দিয়ে জেলেদের জাল টিপসই দিয়ে একটি হাজিরা (মাস্টার রোল) তৈরি করা হয়। চেয়ারম্যানের নির্দেশে ইউপি সচিব এ কাজ করেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।জাল টিপসই দেওয়া মাস্টার রোল জমা দেওয়া হয় উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার দপ্তরে। চাল বিতরণ করা হয়েছে বলে প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) বিজন কুমার খরাতীকে জানান ইউপি সচিব। পিআইও বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জানান।

স্থানীয় কয়েকজন জেলে বিষয়টি জানতে পেরে বিভিন্ন স্থানে খোঁজ খবর নেন। পরে তাঁরা জানতে পারেন বরাদ্দকৃত চাল আত্মসাতের জন্য নাচনমহল ইউনিয়ন পরিষদের গুদামঘরে রাখা আছে। জেলেদের মাধ্যমে খবর পেয়ে জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার (এনএসআই) এক মাঠ কর্মকর্তা তদন্ত করে সত্যতা পায়। গোয়েন্দা সংস্থার কর্মকর্তা ও স্থানীয় লোকজন আজ সকালে গুদামে গিয়ে চাল দেখতে পায়। বিষয়টি নিয়ে চ্যালেঞ্জ করলে ইউপি চেয়ারম্যান ও সচিব নানা টালবাহানা শুরু করে। এক পর্যায়ে তারা নিজেদের ভুল স্বীকার করেন। জাল টিপসইয়ের বিষয়টি জানতে পেরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইউপি সচিবকে শোকজ করেন। কেন তাঁর বিরুদ্ধে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে লিখিতভাবে জানানো হবে না, তা জানতে চাওয়া হয়। এদিকে, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার চাপের মুখে আজই চাল বিতরণ করবেন বলে প্রতিশ্রুতি দেন ইউপি চেয়ারম্যান ও সচিব। দুপুরের পরে তাঁরা নিবন্ধিত জেলেদের মধ্যে ওই চাল বিতরণ করেন। নাচনমহল ইউনিয়ন পরিষদের সচিব ওবায়েদুর রহমান বলেন, 'চাল গুদামে আনার পরে প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আমাদের চাল বিতরণ করে দ্রুত মাস্টাররোল দিতে বলেন। তাই তাড়াহুড়ো করে একটি মাস্টার রোল জমা দিয়েছি। ইউপি নির্বাচন হওয়ার কথা ছিল এজন্য চেয়ারম্যান সাহেব ব্যস্ত ছিলেন। তাই সময়মতো চাল জেলেদের দিতে পারিনি। আমরা পরবর্তীতে চাল দেওয়ার জন্য গুদামে রেখেছিলাম, আত্মসাতের জন্য নয়। তারপরেও এটা আমাদের ভুল হয়েছে। এ ধরনের কাজ আর কখনও করব না। নাচনমহল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সেরাজুল ইসলাম সেলিম বলেন, 'চাল বিতরণ সঠিক নিয়মেই হয়েছে। নির্ধারিত তারিখে দিতে পারিনি, তবে আজকে দিয়েছি। গরিবের চাল আত্মসাতের প্রশ্নই আসে না।

নলছিটি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুম্পা সিকদার বলেন, 'চাল বিতরণ হয়েছে বলে আমাদের কাছে একটি মাস্টার রোল জমা দেন ইউপি সচিব। প্রকৃতপক্ষে তারা চাল জেলেদের দেয়নি। বিষয়টি এতোদিন ধরা পরেনি। আজকে জানার পরে আমি চাল বিতরণের নির্দেশ দিয়েছি। এ ঘটনায় ইউপি সচিবকে শোকজ করা হয়েছে। কেন চাল বিতরণে দেরি হয়েছে তার সঠিক জবাব না দিলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

রাজাপুরে তিন ভাই ৩ বিঘা জমির মিশ্র ফসলে এক মৌসুমে দেড় লাখ টাকা আয়

রাজাপুরে তিন ভাই ৩ বিঘা জমির মিশ্র ফসলে এক মৌসুমে দেড় লাখ টাকা আয়

মোঃ নাঈম ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ কঠোর পরিশ্রম ও ইচ্ছা থাকলে কৃষিতেও সফলতা অর্জন করা সম্ভব। এমনটাই প্রমাণ করলেন ঝালকাঠি জেলার রাজাপুর উপজেলার শুক্তাগড় গ্রামের তিন ভাই। তারা হচ্ছেন উত্তম কুমার বিশ্বাস, নয়ন কুমার বিশ্বাস এবং অসীম কুমার বিশ্বাস। পৈতৃকসূত্রে তারা জমি পেয়েছেন আড়াই বিঘা। এ জমির সাথে প্রতিবেশীর কাছ থেকে লীজ নিয়েছেন ১০ কাঠা।

সব মিলিয়ে এই ৩ বিঘা জমিতে তারা মিশ্র ফসল চাষ করে ভাগ্য বদল করেছেন তারা। এদের মধ্যে উত্তম ও নয়ন বিশ্বাস মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষিত হলেও অসীম বিশ্বাস উচ্চশিক্ষিত। তিনি একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক পদে চাকরি করছেন।

এক সময়ে তাদের পরিবারের এমনই অবস্থা ছিলো যেন লবণ আনতে পান্তা ফুরানোর অবস্থা। পিতার একার আয়েই কোনোমতে চলতো সংসার। কিন্তু কয়েক বছর আগে ওই জমিতেই মিশ্র চাষ পদ্ধতি ব্যবহার করে আর্থিক স্বচ্ছলতা ফিরে পেয়েছেন তারা। তাদের সার্বক্ষণিক কৃষি পরামর্শ সহায়তা দেন ওই এলাকায় দায়িত্বরত (শুক্তাগড় ব্লক) উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মো. তরিকুল ইসলাম। 

সরেজমিনে রাজাপুর উপজেলার শুক্তাগড় গ্রামে মিশ্র ফসল চাষের খেতেই দেখা মেলে উত্তম ও নয়ন বিশ্বাসের সঙ্গে। উত্তম বিশ্বাস জানান, আড়াই বিঘা পৈতৃক জমির সাথে ১০ কাঠা জমি লীজ নিয়ে ৩ বিঘা জমিতে কৃষি কাজ শুরু করেন। আড়াই বিঘা জমিতে এক সময় শুধু ধান চাষ করা হতো। তাতে যে ফসল আসতো তা দিয়ে সংসারের খরচ চালানো কষ্টকর ছিল।

একপর্যায়ে তারা ধান চাষের সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে বহুমুখী কৃষি কাজের পরিকল্পনা করেন। পরিকল্পনা অনুযায়ী জমি তৈরি করে বিভিন্ন ধরনের বীজ এনে রোপন করেন। ক্রমান্বয়ে তাদের সফলতা আসতে থাকে। প্রতি মৌসুমে টমেটো, ফুলকপি, বাঁধাকপি, ওলকপি, শালগম, মূলা, গাজর, লাউ, শিম, লাল শাক, পালং শাক, বেগুন, মিষ্টি কুমড়া, করলা, ঢেঁড়স, বরবটি, পুঁইশাক, কাঁচা মরিচ, বোম্বাই মরিচ ও বাঙ্গির চাষ করেন।

বেনাপোলে সিনিয়র সাংবাদিক জামাল হোসেন করোনায় আক্রান্ত

বেনাপোলে সিনিয়র সাংবাদিক জামাল হোসেন করোনায় আক্রান্ত

তুহিন হোসেন, বেনাপোল প্রতিনিধি : একুশে টেলিভিশন ও দৈনিক কালের কন্ঠের বেনাপোল প্রতিনিধি ও বেনাপোল সিএন্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব জামাল হোসেন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। শারীরিক অসুস্থতার কারণে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি। পরে করোনা পরীক্ষা করার পর রিপোর্টে পজেটিভ আসলে জেনারেল হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসা না পাওয়ায় তাদের পরামর্শে যে কোন আইসোলেশন সুবিধা সম্বলিত হাসপাতালে ভর্তির কথা বলেন। পরে শুক্রবার দুপুরের পর সাতক্ষীরার সি বি হসপিটাল এ ভর্তি হয়েছে। সেখানে ৭০২ নম্বর কেবিনে চিকিৎসাধীন আছেন তিনি।
এদিকে অসুস্থ‍্য সাংবাদিক জামাল হোসেন এর সুস্থতা কামনা করে বিবৃতি দিয়েছেন শার্শা-বেনাপোলে সকল সাংবাদিকবৃন্দ এবং জামাল হোসেন এর জন্য সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন। 

চট্টগ্রাম সাংবাদিক কল্যান এসোসিয়েশনের উপদেষ্টা হলেন শিল্পপতি নজরুল ইসলাম পাঠোয়ারী বাবলু

চট্টগ্রাম সাংবাদিক কল্যান এসোসিয়েশনের উপদেষ্টা হলেন শিল্পপতি  নজরুল ইসলাম পাঠোয়ারী  বাবলু

কে এম রুবেল বিশেষ প্রতিবেদক :ফেনী জেলার কৃর্ত সন্তান শিল্পপতি নজরুল ইসলাম পাঠোয়ারী বাবলু নাম সহ আরো ১০ জনকে  চট্টগ্রাম সাংবাদিক কল্যান এসোসিয়েশনের উপদেষ্টা হিসাবে ঘোষনা করা হয়েছে 
গতকাল রোজ শুক্রবার  ৯ এপ্রিল বিকেল ৩  ঘটিকায় চট্টগ্রাম সাংবাদিক কল্যান এসোসিয়েশনের  চৌমহুনী কার্যলয়ে এক জরুরী শভাই সংগঠনের সকল সদস্যদের উপস্থিতি ও মতামতের উপর ভিত্তি করে ১০ জনকে উক্ত সংগঠনের উপদেষ্টা হিসাবে গ্রহন ও ঘোষনা করা হয় এতে  ফেনী জেলার ফুলগাজী থানাধীন আমজাদ হাট ইউনিয়নের কিলাদিঘি এলাকার মুরহুম তাজুল ইসলাম এর গূর্বিত সন্তান সিএনএফ ব্যবসায়ী বিশিষ্ট রাজনৈতিকবীদ বিশিষ্ট শিল্পপ নজরুল ইসলাম পাঠোয়ারী বাবলুকে আগামী ২ বছরের জন্য চট্টগ্রাম সাংবাদিক কল্যান এসোসিয়েশনের সম্মানিত উপদেষ্টা হিসাবে গ্রহিন / গ্রহন করা হয়, উক্ত সংগঠনের অন্যান্য উপদেষ্টারা হলেন গগনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সাবেক  স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী জনাব সামশুল হক টুকু এমপি,সাবেক ধর্ম ও পর্যটন মন্ত্রি, সাবেক সংসদ জনাব নাজিম উদ্দীন আল আজাদ, বিশিষ্ট লেখক দৈনিক আজাদী সহ  সম্পাদক দৈনিক পূর্বাদেশ অধ্যাপক জনাব মাসুম চৌধুরী, বাংলাদেশ আওয়ামী যুব লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য জনাব সৈয়দ মাহামুদুল হক,প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক সহকারী জনাব কবি সংকর রয়,বিশিষ্ট সমাজ সেবক লায়ন এস এম আজিজ, চ,কা,এ,ভ এর সম্মানিত সভাপতি, বিশিষ্ট রাজনৈতিকবীদ জনাব আমজাদ হাজারী সহ ফুলগাজী উপজেলা চেয়ারম্যান জনাব আব্দুল আলিম 

 সাংবাদিকদের কে জাতির বিবেগ বলা হয়, আর সংবাদ মাধ্যমের মাধ্য দিয়ে সাংবাদিকদের যাত্রা শুরু হয়, বাংলাদেশ  একটি স্বাধীন দেশ আর সে স্বাধীন নিজের মত স্বাধীন ভাবে সাংবাদিকতা করার মত মজা আনন্দ আর কিছু হতে পারে না, সাংবাদিক দের মুল কাজ হল দেশের আনাছে কানাছে ঘটে যাওয়া  সঠিক তথ্য তার কর্মরত সংবাদ মাধ্যমে সংবাদের মধ্যে দিয়ে জাতির সামনে সঠিক ভাবে প্রকাশ করা,আর ঠিক তখনি দেখা যাই সাংবাদিকরা সঠিক কথা / সঠিক৷ তথ্য প্রকাশ করলে অন্যায় কারী অথবা যে কোনো একটি পক্ষের ক্ষয় ক্ষতি হয়ে যাই, তখন দেখা যাই যে সাংবাদিকের তার লেখা সংবাদ প্রকাশের কারনে ক্ষতি সাধন হয় তখনি যাদের ক্ষতি হয় তখন তারাই বাদী হয়ে হয়তো আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করে না হলে স্থানীয়  সসন্ত্রাসী দ্বারা ঐ সাংবাদিকে সামাজিক /মানষিক ক্ষতি করে, যখন ঐ সাংবাদিক দেশের জন্য সংবাদ প্রকাশ করার কারনে তার নিজের ক্ষতি হয় ঠিক তখন তার মালিক পক্ষ ক্ষতিগ্রস্ত সাংবাদিকের দায় বার না নিয়ে তাকে চাকরি থেকে বের করে দেই তখন ঐ সাংবাদিক  সর্বহারা হয়ে যাই  ঠিক তখনি একজন সংবাদ বাহক / সংবাদ কূর্মীর সম্মান নিয়ে বেচে থাকার জন্য / অন্যায় কারীদের মোকাবেলা করার জন্য বিশেষ ভাবে প্রয়োজন হয়ে থাকে একটি নির্বর যোগ্য নেতা ও সাংবাদিক সংগঠনের, মাঠ ময়দানে থেকে সাংবাদিকদের দাবী আদায়ের চট্টগ্রামের সকল সাংবাদিকদের কে ঐক্যবদ্ধ থাকার ও সাংবাদিক দের খারাপ সময়ে সবাই এক থাকার জন্য ২০১৯ সালে সাবেক  স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকু এমপি,বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির কার্যকারী সদস্য অ্যাডভোকেট নুর ইসলাম ঠানডু,বাংলাদেশ বিনোদন সাংবাদিক সমিতি বাবিসাস এর সভাপতি জনাব আবুল হোসেন মজুৃমদার, চট্টগ্রাম রিপোর্টাস ইউনিটির তখনকার সাধারণ সম্পাদক কাজী হোমায়নের যৌত উদ্দেগে উপস্থিতিতে  গঠিত হয় ,চট্টগ্রাম সাংবাদিক কল্যান এসোসিয়েশন, চট্টগ্রাম সাংবাদিক কল্যান এসোসিয়েশন    ২০১৯-২০২০ এর কমিটি সফল  ভাবে মেয়াদ উত্তিন্ন হওয়াই গত পহেলা এপ্রিল ২০২১ জাতীয় দৈনিক আলোকিত দেশ পত্রিকা চট্টগ্রাম অফিসে উক্ত সংগঠনের সকল সদস্য ও চট্টগ্রামের আরো অন্যান্য সাংবাদিক সংগঠনের নেতা-কর্মীদের উপস্থিতি, যৌত মত প্রয়োগের ভিত্তিতে আবারো উক্ত সংগঠনের ২ বছরের মেয়াদি ২০২১-২০২২ এর ৫১ জন বিশিষ্ট পূর্নাজ্ঞ কমিটি গঠন করা হয় উক্ত কমিটিতে দৈনিক আলোকিত দেশ পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক কে এম রুবেল কে সভাপতি এ চ্যানেল এস এর চট্টগ্রাম প্রতিনিধি মো রাসেদকে সাঃ সম্পাদক ঘোষননা করা হয়।

কুলাউড়ায় ভূকশিমইলে হাজি মক্রম আলী ও কদরবান বিবি ফাউন্ডেশন এর আত্মপ্রকাশ

কুলাউড়ায় ভূকশিমইলে হাজি মক্রম আলী ও কদরবান বিবি ফাউন্ডেশন এর আত্মপ্রকাশ

মোঃরেজাউল ইসলাম শাফি,কুলাউড়া উপজেলা প্রতিনিধিঃ কুলাউড়া উপজেলার ২নং ভূকশিমইল ইউনিয়নের সুনামধন্য একটি পরিবার মরহুম হাজি মক্রম আলী এবং মরহুমা কদরবান বিবির পরিবারের পক্ষ থেকে নতুন একটি ফাউন্ডেশন এর আত্মপ্রকাশ হয়েছে।


তাদের রেখে যাওয়া উত্তরাধিকারী ৫ সন্তান হাজি চাঁন মিয়া, মোঃ সুরুজ মিয়া, মোঃ মানিক মিয়া, লন্ডন প্রবাসী মোঃ মনিরুজ্জামান মিয়া এবং আমেরিকা প্রবাসী হাবিবুর রহমান চিনু ও উনাদের নাতি-নাতনি দের উদ্যোগে ১০ সদস্য বিশিষ্ট উপদেষ্টা করে এবং উনাদের নাতি মোঃ নজরুল ইসলাম কে সভাপতি এবং বাবর আহমদ তারেক কে সাধারণ সম্পাদক করে ২৬ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি হাজি মক্রম আলী এবং কদরবান বিবি ফাউন্ডেশন এর আত্মপ্রকাশ করে।ফাউন্ডেশনের আত্মপ্রকাশ উপলক্ষে অত্র ইউনিয়নের গরীব, দুঃখী, অসহায় প্রায় দুই শতাধিক পরিবারের মধ্যে পবিত্র মাহে রমজান এর ইফতার সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। হাজি চাঁন মিয়ার সভাপতিত্বে ও কামাল আহমেদ এর সঞ্চালনায় উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ২নং ভূকশিমইল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ আজিজুর রহমান মনির, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুলাউড়া ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সভাপতি বদরুজ্জামান সজল, ভূকশিমইল মাধ্যমিক বিদ্যালয় এন্ড কলেজ এর প্রধান শিক্ষক আবুল মনসুর, সহকারী প্রধান শিক্ষক জনাব নুরুল ইসলাম , দারুল উলুম ভূকশিমইল আলিম মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল এইচ এম বজলুল হক, হাফেজ সুজন আহমেদ, সাবেক মেম্বার মাসুক মিয়া ও মোঃ শাহিদ মিয়া আরও অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উস্তার মিয়া, এলাইচ মিয়া কালা, হাজি তাহির মিয়া সহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।


এ সময় বক্তরা উল্লেখ করেন যে ফাউন্ডেশন করার আগেও বহুবছর থেকে নিরবে এই পরিবার সব সময় মানুষের সাহায্য সহযোগিতা করে গেছেন এখন হাজি মক্রম আলী এবং কদরবান বিবির স্মৃতি আজীবন সবার মাঝে ধরে রাখার জন্য এই ফাউন্ডেশন এর মাধ্যমে আজীবন সকলের পাশে থাকবেন।
সর্বশেষে মোনাজাত এর মাধ্যমে ও পরিবারের পক্ষ থেকে মোঃ মানিক মিয়া উনার বাবা-মায়ের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে সকলের নিকট দোয়া প্রার্থনা করে অনুষ্ঠান সমাপ্তি হয়।

রিনিকের মেডিকেলে চান্স পাওয়ার গল্প

রিনিকের মেডিকেলে চান্স পাওয়ার গল্প

সেলিম চৌধুরী পটিয়াঃ ছোটবেলা থেকেই রিনিকের স্বপ্ন ছিল ডাক্তার হওয়ার, সাদা অ্যাপ্রোন গায়ে জড়ানোর। অবশেষে রিনিকের সেই স্বপ্ন পূরণ হয়েছে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ বগুডায় চান্স পেয়ে।চট্টগ্রাম জেলার কর্ণফুলী  উপজেলার বড়উঠান ইউনিয়নের দৌলতপুর  গ্রামের শওকত হোসেন হারুন ও শামীমা আকতারের ছোট ছেলে আতাউল করিম রিনিক এবার মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় সফলতার সঙ্গে উত্তীর্ণ হয়েছেন।অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষক  পিতার দুই মেয়ে ও দুই ছেলে। অত্যন্ত মেধাবী রিনিক ছোটবেলা থেকেই পড়ালেখা করতে ভালোবাসে। মেধাবী এই ছাত্র এলাকার দৌলতপুর এম আর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে গোল্ডেন-এ প্লাস ও বৃত্তি পেয়ে পিএসসিতে সফলতার সহিত উত্তীর্ণ হয়। এরপর দৌলতপুর বহুমুখী উচ্চ  বিদ্যালয় থেকে জেএসসি ও এসএসসি উভয় পরীক্ষায় গোল্ডেন-এ প্লাস ও বৃত্তি পায়। স্কুলের সবাই একনামে চিনে তাকে। স্যার-ম্যামদের প্রিয় রিনিক। তারপর সে ভর্তি হয় গাছবাড়িয়া সরকারি কলেজে। কলেজের দূরের ছাত্র ছিল সে। আধাঘণ্টা রাস্তায় হেঁটে আরও দেড়ঘণ্টা গাড়িতে চড়ে চন্দনাইশের  আসতে হতো তাকে প্রতিদিন।রিনিকের ভাষ্যমতে, স্যার-ম্যাম আর বন্ধুদের আদর ভালোবাসায় কোনো কষ্টই মনে হতো না তার। রিনিকের প্রিয় বিষয় ছিল গণিত। স্যাররা বোর্ডে একদিকে প্রশ্ন লিখতেন আর অন্যদিকে তার অংক করা শেষ হয়ে যেত। একদিন তো তার এক বন্ধু স্যারকে জিজ্ঞাসা করে- স্যার রিনিক এত তাড়াতাড়ি লিখে ফেলে কীভাবে?

সে স্কুল ও কলেজ জীবনে ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার, পাইলট, লয়ার, প্রোগ্রামার, ম্যাথমেটিশিয়ান আরও কত কিছুই হওয়ার স্বপ্ন দেখত। তবে সাদা অ্যাপ্রোনের মায়া উপেক্ষা করতে পারেনি সে। অত্র কলেজ থেকে এবছর রিনিকই একমাত্র মেডিকেল চান্স পাওয়া শিক্ষার্থী। কোনো মেডিকেলে কেউ আছেন বলেও জানা নেই। তাই চান্স পাবে কিনা- এ ভয়টা কলেজের সবার মতো তারও হতো  না এমন নয়। কলেজ লাইফটা ছিল তার কাছে স্বপ্নের মতো। কলেজের প্রতিটি পরীক্ষায় প্রথম হওয়া,  প্রিন্সিপাল স্যার থেকে শুরু করে সব স্যার-ম্যামরা এবং তার বান্ধুরা অনেক অনেক বেশি আদর করতেন তাকে। সব সময় মোটিভেট করতেন। রিনিক কোনোদিন মন খারাপ করে থাকলে স্যার-ম্যামরা জিজ্ঞাসা করতেন- কী হয়েছে রিনিক মন খারাপ কেন? তুমি কি অসুস্থ? এ জিনিসগুলো যে কত বড় পাওয়া!

পিতা-মাতার আদরের  ছেলে রিনিক। তারা কখনো পড়ালেখা করতে চাপাচাপি করেননি। ইনফ্যাক্ট তার আম্মু আব্বু বলতেন এত পড়তে হবে না। মেডিকেলে না হলে আরও অনেক ভার্সিটি আছে। কোনো চাপ নেয়ার দরকার নেই। রেজাল্টের আগের দিন রাতেও বুঝিয়ে বলেছেন অন্য কোথাও পড়াবেন সমস্যা নেই। সব সময় সাপোর্ট করতেন তাকে; যা চাইতো উনাদের কাছে তার চেয়েও বেশি দিতেন। রিনিক বলেছেন, আমি মনে করি কলেজ লাইফেই অ্যাডমিশনের রুট গড়ে নেওয়া উচিত। আর এতে আমার সম্মানিত স্যাররা, আম্মু-আব্বু আমাকে সর্বোচ্চ সাহায্য করেছেন। উনাদের দোয়া ও মহান আল্লাহর ইচ্ছায় আমি মেডিকেলে চান্স পেয়েছি, আলহামদুলিল্লাহ। রিনিক সবার কাছে দোয়া চেয়ে জানান, মহান আল্লাহর ইচ্ছায় সে যেন একজন ভালো ডাক্তার হয়ে সত্য ও ন্যায়ের পথে থেকে সবার সেবা ও পেশাদারি দায়িত্ব পালন করতে পারেন।

ঝিকরগাছা থানার এস আই সুব্রত কুমার কুন্ডু-এর অভিযানে মাদক ব্যবসায়ী মিঠু গ্রেফতার

ঝিকরগাছা থানার এস আই সুব্রত কুমার কুন্ডু-এর অভিযানে মাদক ব্যবসায়ী মিঠু গ্রেফতার

ঝিকরগাছা উপজেলা প্রতিনিধিঃযশোরের ঝিকরগাছা থানা পুলিশের অভিযানে ০৫ (পাঁচ) বোতল মাদকদ্রব্য ফেনসিডিল সহ মাদক ব্যবসায়ী মিঠু মিয়া (২৬) এবং ২২ (বাইশ) পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট সহ মাদক ব্যবসায়ী হিমন (৩৩) গ্রেফতার হয়েছে।

পুলিশ সুপার, যশোর মহোদয়ের নির্দেশে মাদকমুক্ত যশোর জেলা গঠনের লক্ষ্যে  জুয়েল ইমরান, সহকারী পুলিশ সুপার, নাভারণ সার্কেল, যশোর এবং  মোঃ আব্দুর রাজ্জাক, অফিসার ইনচার্জ, ঝিকরগাছা থানা, যশোর'দ্বয়ের সার্বিক দিক নির্দেশনায় অদ্য ইং-০৯/০৪/২০২১ তারিখ ভোর ০৪.৪৫ ঘটিকার সময় এস.আই (নিঃ) সুব্রত কুমার কুন্ড সঙ্গীয় অফিসার ফোর্সসহ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করে মাদক ব্যবসায়ী মিঠু মিয়া (২৮), পিতা-শুকুর আলী, সাং-মাগুরা (নওদাপাড়া), থানা-ঝিকরগাছা, জেলা-যশোর'কে তার ঝিকরগাছা থানাধীন অমৃত বাজারস্থ নিজ দোকানের সামনে পাঁকা রাস্তার উপর ০৫ (পাঁচ) বোতল ফেনসিডিল সহ হাতে নাতে ধৃত করেন এবং এস.আই (নিঃ) সুমন বিশ্বাস ইং-০৯/০৪/২০২১ তারিখ  ভোর ০৫.৪৫ ঘটিকার সময় সঙ্গীয় অফিসার ফোর্সসহ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করে মাদক ব্যবসায়ী হিমন (৩৩), পিতা-জয়নাল আবেদীন, থানা-ঝিকরগাছা, জেলা-যশোর'কে ঝিকরগাছা থানাধীন ছুটিপুর বাজারস্থ জামতলা মোড় পাঁকা রাস্তার উপর হতে ২২ (বাইশ) পিচ ইয়াবা ট্যাবলেটসহ হাতে নাতে ধৃত করে। 

উপোরক্ত ঘটনায় আসামী মিঠু মিয়ার বিরুদ্ধে ঝিকরগাছা থানার মামলা নাং-১০, তারিখ-০৯/০৪/২০২১ খ্রিঃ, ধারা-২০১৮ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ  আইনের ৩৬ (১) এর ১৪ (ক) এবং আসামী হিমন এর বিরুদ্ধে ঝিকরগাছা থানার মামলা নাং-১১, তারিখ-০৯/০৪/২০২১ খ্রিঃ, ধারা-২০১৮ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ  আইনের ৩৬ (১) এর ১০ (ক) ধারায় মামলা রুজু পূর্বক বিচারের নিমিত্তে বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

আসামী মিঠু মিয়ার পিসিপিআরঃ
১। ঝিকরগাছা থানার মামলা আর নং-১৫/২৪০, তারিখ- ২৫/১০/২০২০; ধারা- ৩৬(১) এর ১৪(খ)/৩৮ মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন, ২০১৮; 
২। ঝিকরগাছা থানার মামলা নং-২৬/৪৬, তারিখ- ১৯/০২/২০২১; ধারা- ৩৬(১) এর ১৯(ক) মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন।

খোঁজ  নিয়ে জানা যায় মিঠু একজন প্রফেশনাল  মাদক ব্যবসায়ী।এলাকার লোকজন তাকে নিয়ে অতিষ্ট। এই সফল অভিযানে অনেকেই নতুন অফিসার সহ অফিসার ইনচার্জ , ঝিকরগাছা  থানাকে ধন্যবাদ জানিয়েছে।
এখানে নতুন অফিসার সুব্রত কুমার কুন্ডু সহ অফিসার ইনচার্জ  জনাব আব্দুর রাজ্জাক  এর ভূয়সী প্রশংসা করেছেন।
এছাড়া আরেক  নতুন অফিসার সুমন বিশ্বাস  ও একই দিনে অন্য এলাকা থেকে আর এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে।  মাদক মুক্ত ঝিকরগাছা গঠনে নতুন অফিসারদের এসব কর্মকাণ্ড মানুষকে নতুন আশা দেখাচ্ছে।

কুমিল্লার একুশে পদকপ্রাপ্ত,হাজী হাসেম আর নেই

কুমিল্লার একুশে পদকপ্রাপ্ত,হাজী হাসেম আর নেই

শাহ আলম জাহাঙ্গীর
কুমিল্লা ব্যুরো প্রধানঃ 
২০১১সালে একুশে পদক প্রাপ্ত সাবেক গণপরিষদ সদস্য মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ও বীর মুক্তিযোনদ্ধা বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ  সহচর একালের  হাজি মহসিন খ্যাত হাজি মো: আবুল হাসেম আর নেই। শতবর্ষী এ দানবীর আজ শুক্রবার  (৯ এপ্রিল)সকাল ১১টায়  ঢাকার শ্যামলীস্থ নিজ বাড়িতে বার্ধক্য জনিত কারনণ ইন্তেকাল করেন(ইন্নালিল্লাহিওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।মৃত্যু কালে তিনি ২ছেলে ও ১০মেয়ে নাতি-নাতনিসহ বহু আত্মীয় স্বজন ও গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। বাদ আছর শ্যামলী মসজিদে জানাযা শেষে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় তাকে আজিমপুর কবরস্থানে বাবার কবরের পাশে দাফন করা হয়।
তার গ্রামের বাড়ি কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার রাজা চাপিতলায়। তিনি মুরাদনগর উপজেলার আ'লীগের দীর্ঘদিন সভাপতি ছিলেন এবং  উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা যাচাই-বাছাই কমিটির সভাপতি ছিলেন। তিনি কোম্পানীগঞ্জ বদিউল আলম  কলেজ,কোম্পানীগঞ্জ বদিউল আলম হাই স্কুল, বাখরনগর হাসেমিয়া মাদ্রাসা, চাপিতলা অজিফা খাতুন হাই স্কুল, নুরুন্নাহার বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, হোমনার রামকৃষ্ণপুর কামাল স্মৃতি হাই স্কুল, কাশীপুর হাসেমিয়া হাই স্কুল সহ সারা দেশে ৬৪টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের একক প্রতিষ্ঠাতা।  দানবীর শিক্ষানুরাগী হাজি হাসেমের  মৃত্যুতে তার  নিজ এলাকা
মুরাদনগর ও হোমনায়  শোকের ছায়া নেমে আসে।

করোনা প্রতিরোধে জনসচেতনতা মূলক প্রচার অভিযান করছেন চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আমিনুর রহমান

করোনা প্রতিরোধে জনসচেতনতা মূলক প্রচার অভিযান করছেন চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আমিনুর রহমান

স্টাফ রিপোর্টার: দেশের করোনা পরিস্থিতি প্রতিরোধে জনসচেতনতা মূলক প্রচার অভিযান পরিচালনা  করছেন চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আমিনুর রহমান । নিয়মিত প্রচার অভিযানের অংশ হিসেবে আজ (৯ এপ্রিল) যশোর জেলার ঝিকরগাছা উপজেলার ১নং গঙ্গানন্দপুর  ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের গুলবাগপুর গ্রামের প্রচারাভিযানে অংশ নেন অত্র ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান, বর্তমান এমপি প্রতিনিধি ও চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আমিনুর রহমান।
এ সময় তিনি সবাইকে মুখে মাস্ক বাধ্যতামূলকভাবে পরার অনুরোধ জানান সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সরকারের ঘোষিত নির্দেশনা যথাযথ পালন করার জন্য বিশেষভাবে সকলকে অনুরোধ জানান।
এ সময় তিনি সকলকে সরকারের দেওয়া নির্দেশনায় যথার্থভাবে মানার জন্য আহ্বান জানান এবং সন্ধার পরে ওষুধের দোকান ব্যতীত সকল দোকানপাট বন্ধ রাখতে সবাইকে উদ্বুদ্ধ করেন। উক্ত প্রচার অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বার শামসুর রহমান, এমপি প্রতিনিধি আশরাফুল ইসলাম, দৈনিক কপোতাক্ষ নিউজ এর সম্পাদক ও প্রকাশক প্রভাষক মহসীন আলী, যুবলীগ নেতা মুরাদ আলী, আব্দুস সবুর,মেম্বার পদপ্রার্থী তরিকুল ইসলাম, আহসান আলী, ছাত্রলীগ নেতা শামীম হোসেন , ইমাম-উল-হক ,যুবলীগ নেতা সামাউল ইসলাম, সোনা মিয়া ,পলাশ হোসেন, আরিজুল ইসলাম ,সাইফুল ইসলাম, হোসেন আলী, আশরাফুল ইসলাম প্রমুখ।
এর আগে উত্তর গ্রামের উপজেলা পাড়ার সোহাগ হোসেন এর আগুনে পুড়ে যাওয়া অসুস্থ শিশুকন্যাকে দেখতে তার বাড়িতে যান এবং আর্থিক সহযোগিতা প্রদান করেন।

রাজাপুরে পিকআপ খাদে পড়ে বিজিবির সাবেক সদস্য নিহত

রাজাপুরে পিকআপ খাদে পড়ে বিজিবির সাবেক সদস্য নিহত

মো. নাঈম ঝালকাঠি প্রতিনিধঃ ঝালকাঠির রাজাপুরে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পিকআপ ভ্যান খাদে পড়ে বিজিবির সাবেক এক সদস্য নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে রাজাপুর-ভান্ডারিয়া আঞ্চলিক মহাসড়কে উপজেলার পাকাপোল এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত মো. মাইনদ্দিন (৪৩) বামনা উপজেলার মৃত আবদুল জব্বারের ছেলে। তিনি ওই গাড়ির মালিক। তিনি বামনা শহরে বিসমিল্লাহ এন্টারপ্রাইজ নামে একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার হিসেবে ব্যবসা করে আসছিলেন। মৃতদেহ রাজাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রয়েছে। এ ঘটনায় গুরুতর আহত গাড়িচালক মো. সজীব মিয়াকে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় উদ্ধার করে তাৎক্ষণিক রাজাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠান। রাজাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, ময়নাতদন্ত ছাড়াই মাইনদ্দিনের মৃতদেহ পরিবারের সদস্যরা বাড়িতে নেওয়ার জন্য জেলা প্রশাসকের কাছে আবেদন করলে জেলা প্রশাসক মহোদয় অনুমতি দেন। পরে শুক্রবার দুপুরের দিকে পরিবারের কাছে মৃতদেহ হস্তান্তর করা হয়।

তাকওয়া অসহায় সেবা সংস্থা উদ্যোগে মাস্ক বিতরণ ও সচেতনতামূলক আলোচনা

তাকওয়া অসহায় সেবা সংস্থা উদ্যোগে মাস্ক বিতরণ ও সচেতনতামূলক আলোচনা

স্টাফ রিপোর্টারঃ আর.জে মিজানুর রহমান ইমনঃ প্রাণঘাতী নোবেল করোনা ভাইরাসের কোভিড-১৯, দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় ৯ এপ্রিল রোজ শুক্রবার সকাল ১০ হতে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত তাক্ওয়া অসহায় সেবা সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক, গরীব দুঃখী অসহায় মানুষের বন্ধু তপু রায়হান রাব্বির প্রচেষ্টায় উক্ত সংগঠনের নেতা-কর্মীকে সাথে নিয়ে ফুলপুরের জনগণের সাথে গুরুত্বপূর্ণ সচেতনতা মূলক আলোচনা ও মাস্ক বিতরণ কর্মসূচি পালিত হয় ।
ইতিমধ্যেই  তপু রায়হান রাব্বি বলেন, আমি সব সময় অসহায় মানুষের পাশে ছিলাম, এখনো আছি, ভবিষ্যতেও থাকবো ইনশাআল্লাহ। আমি যতদিন বেচেঁ আছি মানুষের সেবায় নিয়োজিত থাকবো। তিনি আরও বলেন, আমি সব সময় দেশের কল্যানের জন্য কাজ করে যেতে চাই। এতে আপনাদের দোয়া ও সহযোগিতা কামনা করছি।
করোনা মোকাবেলায় সচেতনতার লক্ষ্য ফুলপুরের সামাজিক সংগঠন "তাক্ওয়া অসহায় সেবা সংস্থা" এর উদ্যেগে পয়ারী ইউনিয়ন এবং ভাইটকান্দি ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থানে জনগণের সাথে গুরুত্বপূর্ণ সচেতনতা মূলক আলোচনা ও প্রায় এক হাজার পিছ মাস্ক বিতরণ করেন। 
মাস্ক বিতরণ কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করেন পয়ারী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মফিজুল ইসলাম, ভাইটকান্দি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন আহমদ, তাক্ওয়া অসহায় সেবা সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক তপু রায়হান রাব্বি, সাধারণ সম্পাদক রুবেল মাসুদ, সাংগঠনিক সম্পাদক আকিকুল ইসলাম, উদ্দীপ্ত তরুণ সংগঠনের সভাপতি আব্দুল আলিম, পয়ারী ইউনিয়নের লিডার গ্রাম পুলিশ এর লিডার মোহাম্মদ আলী, স্বেচ্ছাসেবক সাব্বির, তীতুমির, নাছির উদ্দিন নয়ন সহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ প্রমুখ।

মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ বৃহত্তর ঢাকা-ময়মনসিংহ বিভাগীয় কর্মকর্তা -কর্মচারী সমন্বিত ঐক্য পরিষদ গঠন

মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ বৃহত্তর ঢাকা-ময়মনসিংহ বিভাগীয় কর্মকর্তা -কর্মচারী সমন্বিত ঐক্য পরিষদ গঠন

মোঃএরশাদ হোসেন রনি, মোংলা: মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ বৃহত্তর ঢাকা-ময়মনসিংহ বিভাগীয় কর্মকর্তা -কর্মচারী সমন্বিত ঐক্য পরিষদ কমিটি গঠিত হয়েছে। তিন বছর মেয়াদের নতুন এ কমিটির সভাপতি হিসেবে মো: গোলাম মোস্তফা (সিনিয়র আউটডোর এ্যাসিসটেন্ট) ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে এস,এম মনির হোসেন (সিনিয়র আউটডোর এ্যাসিসটেন্ট) নিবার্চিত করা হয়েছে। কমিটির অপর নেতৃবৃন্দরা হলেন, কার্যকরী সভাপতি বিপুল হোসাইন (পিএ টু ব্যবস্থাপক, প্রশাসন), সিনিয়র সহ-সভাপতি মো: শাহজাহান মিয়া (ওয়ারলেস অপারেটর), সহ-সভাপতি মো: এনায়েত হোসেন (সিনিয়র আউটডোর এ্যাসিসটেন্ট), সহ-সভাপতি মো: মতিউর রহমান (টাইড ওয়াচার), সহ-সভাপতি মো: আমিরুল ইসলাম (ফর্কলিফট ড্রাইভার), সহ-সভাপতি মিকাইল মন্ডল (টোপাস), অতিরিক্ত সাধারণ সম্পাদক মো: মনিরুল ইসলাম (তথ্য সহকারী, অ: দা:), যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নাজমুন হোসাইন (লস্কর), যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তুহিনুল ইসলাম (সিনিয়র আউটডোর এ্যাসিসটেন্ট), সহ-সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আবু নাইম (সিনিয়র আউটডোর এ্যাসিসটেন্ট), সহ-সাধারণ সম্পাদক মো: মাহফুজুর রহমান (ওয়ারলেস অপারেটর), সহ-সাধারণ সম্পাদক মো: শিমুল মল্লিক (ড্রাইভার মেরিন), ক্যাশিয়ার উজ্জল হোসেন (লস্কর), ক্রীড়া সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম দিদার  (ষ্টেনো টাইপিস্ট), প্রচার সম্পাদক রাসেল মোল্লা (টাইড ওয়াচার), মহিলা সম্পাদিকা ফারহানা সোমা (সিনিয়র আউটডোর এ্যাসিসটেন্ট), সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম (টাইড ওয়াচার), সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী হাসান (অভর্যণাকারী), সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক শহিদুল ইসলাম (লাইট হাউস মিস্ত্রী), ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক নুরুল ইসলাম টিটু (কার ড্রাইভার), সহ-ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল মজিদ (টোপাস), কার্যকরী সদস্য আনিসুজ্জামান টিটু (ভেসেল ইলেক্ট্রিশিয়ান), কার্যকরী সদস্য মো: পারভেজ (কার ড্রাইভার) ও কার্যকরী সদস্য রানা দেব (গ্রিজার কাম পাম ড্রাইভার)। 

কমিটির উপদেষ্টারা হলেন, নুরুল ইসলাম নুরু (ড্রাইভার, মেরিন), জাহিদুর রহমান (লস্কর ইনচার্জ), আমজাদ হোসেন (উচ্চমান সহকারী), সিরাজুল ইসলাম (সিনিয়র আউটডোর এ্যাসিসটেন্ট), আবু নাছের আলী আহমেদ (পারহাউস ড্রইভার), হাফিজুর রহমান (এটিআই), রেজাউল ইসলাম (ইউডিএ) ও হাসান মোল্লা (সিনিয়র আউটডোর এ্যাসিসটেন্ট)। 

বৃহস্পতিবার নতুন এ ঢাকা-ময়মনসিংহ বিভাগীয় কর্মকর্তা -কর্মচারী সমন্বিত ঐক্য পরিষদ ও উপদেষ্টাদের পূণার্ঙ্গ কমিটি প্রকাশ করেছেন পরিষদ পরিচালনা কমিটির আহবায়ক মো: ফিরোজ মিঞা (সিনিয়র আউটডোর এ্যাসিসটেন্ট) ও সদস্য সচিব মো: হযরত আলী (পি এ টু চীফ ইঞ্জিয়ার, সিভিল)। মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ বৃহত্তর ঢাকা-ময়মনসিংহ বিভাগীয় কর্মকর্তা -কর্মচারী সমন্বিত ঐক্য পরিষদের মোট সাধারণ সদস্যের সংখ্যা দেড়শ জন। 

সিরাজগঞ্জে মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের সংবর্ধনা

সিরাজগঞ্জে মেডিকেল  ভর্তি  পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের সংবর্ধনা

মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ
সিরাজগঞ্জ  জেলা হতে মেডিকেল  কলেজ  ভর্তি  পরীক্ষায় উত্তীর্ণ মেধাবী  শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা  প্রদান করা  হয়েছে। শুক্রবার  (৯ এপ্রিল)  সকাল ১০ টায় সার্কিট  হাউজ  সম্মেলন কক্ষে  জেলা প্রশাসনের  আয়োজনে মেধাবী শিক্ষার্থীদের ফুল দিয়ে বরণ  ও নগদ অর্থ প্রদান করেন  প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক  ড. ফারুক  আহাম্মদ। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(শিক্ষা ও আইসিটি এবং উন্নয়ন ও মানব সম্পদ ব্যবস্থাপনা) শাখার মোহাম্মদ মনির হোসেন এর সঞ্চালনায়  অন্যান্যদের মধ্যে  বক্তব্য  রাখেন , জেলা সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি  এবং  প্রেসক্লাবে সভাপতি মোঃ হেলাল আহমেদ,শিক্ষার্থীদের মধ্যে  শাহজাদপুর  উপজেলার  থেকে আসা মোঃ আরিফুল ইসলাম  ও প্রীতি নিহা  প্রমূখ। সংবর্ধনা শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে জেলা প্রশাসক  ড.ফারুক  আহাম্মদ বলেন,মানব সেবার জন্য চিকিৎসা পেশাকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দেয়া হয়। কারণ মানুষ যখন  অসুস্থ  হয় তখন ডাক্তারের প্রয়োজনীয়তা অপরিহার্য। আবার একজন চিকিৎসক যেমন সামাজিক মর্যাদা ও সম্মান বেশি পান, তেমনি আয়ের সুযোগও তুলনামূলক অনেক বেশি। এরই প্রেক্ষিতে সেবা ও অধিক আয়ের জন্য মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের একটা বড় অংশের প্রধান লক্ষ্য ডাক্তার হওয়া।যারা সত্যিকার অর্থে মানুষকে ভালোবাসে, মানুষের সেবা করে, নিজেকে একজন বড় সেবক হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে চায়, তাদেরই এই পেশায় আসা উচিত। আমার একই উপদেশ থাকবে  যে শিক্ষা তোমরা নিতে যাচ্ছ, তা দিয়ে মানুষের সেবা করবে। তিনি আরও বলেন, আগে তোমরা একজন ভালো মানুষ হও, তবে এমনিতেই একজন ভালো ডাক্তার হবে ।পৃথিবীর সব পেশার চেয়ে  ডাক্তারি পেশাটা হলো মানুষকে  সরাসরি  সেবা করা সুযোগ রয়েছে । 

বক্তাগণ কৃতি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, সংবর্ধনার মাধ্যমে অনুপ্রেরণা নিয়ে প্রকৃত মানুষ হয়ে দেশের কল্যাণে সকলকে কাজ করতে হবে। দেশ সেরা কৃতিত্ব অর্জনের মধ্য দিয়ে সংবর্ধনা নেওয়া নতুন প্রজন্মরা আগামীতে সিরাজগঞ্জকে দেশের মধ্যে পরিচিত করে তুলবে। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে  সভাপতিত্ব করেন  জেলা প্রশাসক ড. ফারুক  আহাম্মদ ।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ  সিরাজগঞ্জ জেলার ৪২জন কৃতি শিক্ষার্থীকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়।এসময় প্রেসক্লাবে  সাংগঠনিক সম্পাদক হীরক গুন (চানেল২৪),ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক রিংকু কুণ্ডু (সময় টিভি), এশিয়ান টিভির জেলা  প্রতিনিধি  ফারুক  জিন্নাহ , দৈনিক বাংলাদেশ  বুলেটিনের জেলা প্রতিনিধি  মোঃ নাজমুল হোসেন সহ জেলা প্রশাসন সকল সহকারী কমিশনার গণ  উপস্থিত ছিলেন।

করোনা সচেতনতা বাড়ানোর লক্ষ্যে মাস্ক বিতরণ করা হয়

করোনা সচেতনতা বাড়ানোর লক্ষ্যে মাস্ক বিতরণ করা হয়

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ করোনা সচেতনতা বাড়ানোর লক্ষ্যে বাংলাদেশ স্বেচ্ছাসেবক ফাউন্ডেশন প্রথম বর্ষ পূর্তি উপলক্ষ্যে সুনামগঞ্জ জেলার তাহিরপুর উপজেলায় সাধারন মানুষের মাঝে বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ করা হয়। 
শুক্রবার ৯এপ্রিল দুপুর বাংলাদেশ স্বেচ্ছাসেবক ফাউন্ডেশন তাহিরপুর উপজেলার প্রধান স্বেচ্ছাসেবক আবু সায়েম সুনামগাঞ্জ জেলা শাখার  নির্দেশক্রমে তাহিরপুরে সাধারণ মানুষের মধ্যে এ মাস্ক বিতরণ করেন।
বাংলাদেশ স্বেচ্ছাসেবক ফাউন্ডেশন তাহিরপুর উপজেলার প্রধান স্বেচ্ছাসেবক আবু সায়েম মাস্ক বিতরণ কর্মসূচির নেতৃত্ব দেন। কর্মসূচিতে আরও উপস্থিত ছিলেন- সহপ্রধান স্বেচ্ছাসেবক নাইমুর রহমান , সদস্য আজহারুল ইসলাম ,আরমান আহমেদ,রিয়াদ,তাজুল ইসলাম,প্রমুখ। এ সময় আবুসায়েম বলেন, করোনা মোকাবিলা করতে হলে সাধারণ মানুষের মধ্যে সচেতেনতা বাড়াতে হবে। প্রত্যেকে বাড়ির বাইরে গেলে মাস্ক পড়তে হবে। তারা সাধারণ মানুষের হাতে মাস্ক তুলে দিয়ে সর্বসাধারণকে মাস্ক পরাড় পরামর্শ দেন।

পটিয়ার পিঙ্গালার গ্রামের কৃতি সন্তান মরহুম বদিউর রহমান ট্রাস্টের উদ্যোগে ইফতার সামগ্রী বিতরণ

পটিয়ার পিঙ্গালার গ্রামের কৃতি সন্তান মরহুম বদিউর রহমান ট্রাস্টের উদ্যোগে ইফতার সামগ্রী বিতরণ

পটিয়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার কাশিয়াইশ ইউনিয়নের পিঙ্গলা গ্রামের কৃতি সন্তান মরহুম বদিউর রহমান ট্রাস্টের উদ্যেগে পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে ইফতার সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ বদিউল আলম।

প্রধান বক্তা ছিলেন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহবায়ক মোহাম্মদ ফারুক।সভাপতিত্ব করেন মরহুম বদিউল রহমান ট্রাস্টের চেয়ারম্যান শেখ জাহাঙ্গীর আলম। বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় দেশরত্ন পরিষদের সভাপতি সাহাব উদ্দিন, পটিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা সুকুমার মল্লিক, কাশিয়াইশ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ফোরকান চৌধুরী, ভাটিখাইন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন, নাজিম উদ্দিন মেম্বার, জসিম উদ্দিন শিশু, দিদারুল হক জসিম, মোক্তার আহমেদ আরিফ, শেখ মোজাম্মেল হক, তারেক হোসেন, শিমুল বড়ুয়া, সাইফুল ইসলাম সোহেল, ফজলুল করিম, আজিজুল হক মানিক, তৌহিদুল আলম জুয়েল, সিদ্ধার্ত বড়ুয়া, রণি মজকুরি, মিজানুর রহমান, উৎপল বড়ুয়া, আনিসুল ইসলাম সৌমিক, সাইফুল ইসলাম জুয়েল, ইব্রাহিম ফারুক, এমদাদুল হক রুমান, শেখ রাসেদুল আলম, সাইফুল ইসলাম রাসেল, জয়নাল আবেদিন রাফি, মেহেদি হাসান মারুফ প্রমূখ।

মেহেরপুরের দরবেশপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় যুবকের মৃত্যু

মেহেরপুরের দরবেশপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় যুবকের মৃত্যু

তানভীর আহমেদ, মেহেরপুর জেলা প্রতিনিধি: মেহেরপুর-চুয়াডাঙ্গা সড়কের দরবেশপুরে মোটরসাইকেল ও বাঁশ বোঝায় আলগামনের মুখোমুখি সংঘর্ষে রিপন হোসেন (২৩) নামের এক মাইক্রো বাসের ড্রাইভার নিহত হয়েছেন।আজ বিকাল পাঁচটার সময় মেহেরপুর-চুয়াডাঙ্গা সড়কের সদর উপজেলার দরবেশপুর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত রিপন মুজিবনগর উপজেলার কোমরপুর গ্রামের আবদুল হাকিমের ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, রিপন হোসেন ও তার বন্ধু মামুন মোটরসাইকেলযোগে চুয়াডাঙ্গা যাওয়ার পথে দরবেশপুর বাজার এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিকে ছেড়ে আসা বাঁশ বোঝাই স্যলো ইঞ্জিনচালিত একটি আলগামনের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই রিপন নিহত হয়। আহত মামুনকে উদ্ধার করে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
মেহেরপুর সদর থানার ওসি শাহ দারা খান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

মাওলানা ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রো-ভিসি নিযুক্ত হলেন অধ্যাপক ড. সোলাইমান

মাওলানা ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ে  প্রো-ভিসি নিযুক্ত হলেন অধ্যাপক ড. সোলাইমান

ডা.এম.এ.মান্নান
টাংগাইল জেলা প্রতিনিধি : মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর হিসেবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. এ আর এম সোলাইমান-কে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার মহামান্য রাষ্ট্রপতি ও চ্যান্সেলর মোঃ আবদুল হামিদ এর অনুমোদনক্রমে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব মোঃ নুর-ই-আলম স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে এ তথ্য দেয়া হয়। উল্লেখ্য, নব-নিয়োগ প্রাপ্ত প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর ড. এ আর এম সোলাইমান বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিশ্ববিদ্যালয়ের মৃত্তিকা বিজ্ঞান বিভাগের (পিআরএল ভোগরত) অধ্যাপক। ২০১৪ সালের জুলাই মাসে ১ম প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর হিসেবে অধ্যাপক ড. মনিরুজ্জামান দায়িত্ব শেষ করার পর মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর পদটি শূন্য ছিল। অধ্যাপক ড. এ আর এম সোলাইমান বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়ে ২য় প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর হিসেবে নিয়োগ পেলেন।

সেই মুন্নীর মেডিক্যালে পড়ার দায়িত্ব নিলেন হুইপ ইকবালুর রহিম

সেই মুন্নীর মেডিক্যালে পড়ার দায়িত্ব নিলেন হুইপ ইকবালুর রহিম

 
মামুনুর রশিদ,দিনাজপুর প্রতিনিধি: পাবনার মেধাবী শিক্ষার্থী মোছা. জান্নাতুম মৌমিতা মুন্নীর মেডিক্যাল কলেজে পড়াশোনার দায়িত্ব নিলেন বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের হুইপ দিনাজপুর সদর-৩ আসনের সংসদ সদস্য ইকবালুর রহিম।
'মেডিক্যালে চান্স পেয়েও ভর্তি অনিশ্চিত মুন্নীর' এই শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ হয়। সংবাদটি দেখার সঙ্গে সঙ্গে দিনাজপুর সদর-৩ আসনের সংসদ সদস্য ইকবালুর রহিম যোগাযোগ করেন। এরপর প্রাথমিক ফোন আলাপের পর মুন্নীর পরিবারের সঙ্গে কথা বলেন তিনি।
সকালে মুন্নী এবং তার পরিবারের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হন হুইপ ইকবালুর রহিম। তখন ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হন মুন্নীর বাবা, মা ও চাচা। দীর্ঘ আলাপের পরে হুইপ তাদের আশ্বস্ত করেন মুন্নীর মেডিক্যাল কলেজে ভর্তিসহ সমস্ত বিষয় নিয়ে। মুন্নীর পরিবার আবেগ আপ্লুত হয়ে পড়লে হুইপ ইকবালুর মেয়েকে নিয়ে কোনো ধরনের দুশ্চিন্তা না করা জন্য বলেন।
এ বিষয়ে শিক্ষার্থী মুন্নী বলেন, আমার পরিবার যে সিদ্ধান্ত দেবে সেটি আমার সিদ্ধান্ত। আমি আমার বাবা মায়ের স্বপ্ন পূরণ করতে চাই।
মুন্নীর বাবা বাকী বিল্লার বলেন, 'এখন আমি চিন্তামুক্ত। সংবাদ প্রকাশের পরে অনেকেই আমার মেয়ের শিক্ষার জন্য এগিয়ে এসেছেন। তবে যেখানে আমার মেয়ে চান্স পাইছে সেই মালিক হুইপ সাহেব আমাক ফোন দিয়েছিলেন। তার সঙ্গে কথা বলিছি, আমরা সবাই। তিনি আমার মেয়ের সমস্ত দায়িত্ব নিয়েছেন। আমরা তার অধীনেই ওই মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি করার জন্য মনস্থির করেছি। '
এ বিষয়ে সবচেয়ে বেশি সহযোগিতা করেছেন মুন্নীর সম্পর্কে প্রতিবেশি চাচা  মো. জিয়াউর রহমান। তিনি বলেন, এই সংবাদটি যে এভাবে আমাদের মেয়েকে সহযোগিতার জন্য সাড়া ফেলবে আমরা বুঝে উঠতে পারিনি। গণমাধ্যমকর্মীদের অসংখ্য ধন্যবাদ জানায় আমাদের পরিবারের পক্ষ থেকে।
এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট উপজেলার চেয়ারম্যান শাহীনুজ্জামান শাহীন বলেন, আমরা সকলে মিলে মুন্নীর পরিবারের সবাইকে নিয়ে বসেছিলাম। সবার সিদ্ধান্তে মুন্নীকে ওই মেডিক্যাল কলেজে হাসপাতালে ভর্তি করা হবে। আর তার ভর্তিসহ সমস্ত দায়িত্ব নিয়েছেন ওই মেডিক্যাল কলেজের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি। আমরা গ্রামবাসী ও পরিবার তাকে অসংখ্য ধন্যবাদ জানাচ্ছি।
বাংলাদেশ সংসদের হুইপ দিনাজপুর সদর-৩ আসনের সংসদ সদস্য ইকবালুর রহিম বলেন, মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক প্রয়াত সংসদ সদস্য এম আব্দুল রহিম মেডিক্যাল কলেজ আমার প্রয়াত বাবার নামে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নামকরণ করেছেন। আমি সংসদের যে ভাতা পাই সেই অর্থ দিয়ে প্রতি বছরই মেধাবী শিক্ষার্থীদের সাহায্যে ব্যয় করে থাকি। বর্তমানে আমাদের এই মেডিক্যাল কলেজে ৫ জন শিক্ষার্থী বিনাখরচে পড়াশোনা করছেন। ইতোমধ্যে ১৪ জন এমবিএস পাস করেছেন। সংবাদটি দেখার পরে আমি ওই অদম্য শিক্ষার্থীর পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করে তাদের চিন্তামুক্ত করেছি। তার মেডিক্যাল কলেজের শিক্ষা গ্রহনের জন্য যে অর্থ ব্যয় হবে সেটা আমি বহন করবো। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাদেশ গড়ার লক্ষে আর প্রধানমন্ত্রীর দিক নির্দেশনায় আমরা সবসময় সাধারণ মানুষের পাশে থাকতে চাই।

দিনাজপুরে করোনা প্রতিরোধে প্রানিজ পুস্টি নিশ্চিত করনের লক্ষে ন্যায্যমুল্যে ভ্রাম্যমান দুধ ডিম মাংস বিক্রি শুরু হয়েছে

দিনাজপুরে করোনা প্রতিরোধে প্রানিজ পুস্টি নিশ্চিত করনের লক্ষে ন্যায্যমুল্যে ভ্রাম্যমান দুধ ডিম মাংস বিক্রি শুরু হয়েছে


মামুনুর রশিদ, দিনাজপুর প্রতিনিধি:  দিনাজপুরে করোনা ১৯ পরিস্থিতিতে জনসাধারনের প্রানিজ পুস্টি নিশ্চিত করনের লক্ষে মৎস্য ও প্রানি সম্পদ বিভাগের উদ্যগে সারা দেশের মত দিনাজপুরেও ন্যায্যমুল্যে ভ্রাম্যমান দুধ ডিম মাংস বিক্রি শুরু হয়েছে।

আজ  দিনাজপুর গোরা শহীদ ময়দানে ভ্রাম্যমান দুধ ডিম মাংস বিক্রি কায্যক্রমের উদ্বোধন করেন দিনাজপুর জেলা প্রশাসক খালেদ মোহাম্মদ জাকি। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আশরাফ হোসেন, জেলা প্রানি সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ শাহিনুর আলম, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাগফেরুল আব্বাসী প্রমুখ।

করোনা পরিস্থিতিতে দিনাজপুরের সদর উপজেলায় ৮টি পয়েন্টে প্রান্তিক খামারীদের কাছ থেকে পন্য সংগ্রহ করে ন্যায্যমুল্যে ভ্রাম্যমান বিক্রয় কেন্দ্রের মাধ্যমে এই সব পন্য বিক্রি করা হচ্ছে।

পুস্টিকর খাদ্য খেলে শরীরে হিউমিনিটি বৃদ্ধৃ পাবে ফলে করোনা মোকাবেলা সম্ভব হবে এ লক্ষে
খুব শীখ্রই দিনাজপুরের ১৩ উপজেলায় এই ভ্রাম্যমান দুধ ডিম মাংস বিক্রির কার্য্যক্রম ছড়িয়ে দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন প্রানি সম্পদ বিভাগ। ভ্রাম্যমান এই কার্য্যক্রমে দুধ ডিম ও মাংসের দাম বাজারের দামের তুলনায় অনেক কম। ফলে সাধারন মানুষ তাদের পন্য কম দামে পেয়ে ক্রয় করছেন।

ঝিনাইদহে নুরে আলম সিদ্দিকীর সুস্থতা কামনায় দোয়া মাহফিল

ঝিনাইদহে নুরে আলম সিদ্দিকীর সুস্থতা কামনায় দোয়া মাহফিল

সম্রাট হোসেন, ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি, ৬ দফা, ভাষা আন্দোলন ও বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের অন্যতম সংগঠক নূরে আলম সিদ্দিকীর সুস্থতা কামনায় ঝিনাইদহের বিভিন্ন মসজিদে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।
শুক্রবার বাদ জুম্মা সদর উপজেলার কালিচরণপুর ইউনিয়নের ২৮ টি মসজিদে এ দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে যুবলীগ নেতা জাহাঙ্গীর আলম। এসময় তার সুস্থতা কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।
উল্লেখ্য, নুরে আলম সিদ্দিকী মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ও মুজিব বাহিনীর নেতা ছিলেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিপিও ছিলেন। তিনি যশোর-২ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। নূরে আলম সিদ্দিকীর বড় ছেলে তাহজীব আলম সিদ্দিকী সমি ঝিনাইদহ-২ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য। নূরে আলম সিদ্দিকী বর্তমানে থাইল্যান্ডের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। একই সাথে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারের প্রয়াত সদস্যদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া করা হয়।

শ্রীলংকা সিরিজের জন্য টাইগারদের প্রাথমিক দল ঘোষণা

শ্রীলংকা সিরিজের জন্য টাইগারদের প্রাথমিক দল ঘোষণা

তানজিম, স্পোর্টস রিপোর্টারঃ  শ্রীলংকার বিপক্ষে দুই ম্যাচের টেষ্ট সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। দু'টি টেষ্ট-ই টেষ্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ। এ সিরিজের জন্য ২১ সদস্যের প্রাথমিক দল ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।আজ থেকে শুরু হওয়া আইপিএল খেলার জন্য শ্রীলংকা সিরিজে সাকিবকে পাচ্ছে না বলা বাংলাদেশ দল। তার জায়গায় প্রায় পাঁচ বছর পর জাতীয় দলের ডাক পেয়েছেন ব্যাটিং অলরাউন্ডার শুভাগত হোম চৌধুরী। শেষবার  ২০১৬ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশ দলের জার্সি গায়ে টেষ্ট খেলতে নেমেছিলেন তিনি৷ এছাড়া উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান নুরুল হাসান সোহানও ফিরেছেন দীর্ঘদিন পর। 


টেষ্ট দলে তিন নতুন শহিদুল ইসলাম, মুকিদুল ইসলাম ও শরিফুল ইসলাম। এই তিন জনের মধ্যে একমাত্র বাংলাদেশ জার্সি গায়ে উঠেছে শরিফুল ইসলামের সদ্য সমাপ্ত নিউজিল্যান্ড সফরে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে অভিষেক হয় এই পেসারের। 

এই সিরিজে প্র্যাকটিসের জন্য নেট বোলার দিবে না স্বাগতিক শ্রীলংকা কারণটা "করোণা"। যেকারণে বাড়তি খেলোয়াড় নিয়ে যেতে হচ্ছে টাইগার টিম ম্যানেজমেন্টের। চলতি মাসের ১২ তারিখ শ্রীলংকার উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করবে বাংলাদেশ দল। সেখানে পৌঁছে দুই দিনের একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে তামিম-মুশফিকরা। তারপরই চুড়ান্ত দল ঘোষণা করবে বাংলাদেশ। 


শ্রীলঙ্কা সফরের জন্য বাংলাদেশের প্রাথমিক স্কোয়াডঃ মুমিনুল হক, লিটন কুমার দাস, মোহাম্মদ মিঠুন, মুশফিকুর রহিম, তামিম ইকবাল খান, সাদমান ইসলাম অনিক, আবু জায়েদ চৌধুরী রাহি, তাইজুল ইসলাম, নাজমুল হোসেন শান্ত, মেহেদী হাসান মিরাজ, নাইম হাসান, তাসকিন আহমেদ, এবাদত হোসেন চৌধুরী, মোহাম্মদ সাইফ হাসান, ইয়াসির আলি চৌধুরী রাব্বি, শরিফুল ইসলাম, সৈয়দ খালেদ আহমেদ, মুকিদুল ইসলাম মুগ্ধ, শুভাগত হোম চৌধুরী, শহিদুল ইসলাম ও কাজী নুরুল হাসান সোহান।

রাজাপুরের সোহাগ ক্লিনিকে জরায়ু অপারেশনে ভুল চিকিৎসায় মৃত্যুর মুখে ফরিদা, মালিকের ধৃষ্টতা

রাজাপুরের সোহাগ ক্লিনিকে জরায়ু অপারেশনে ভুল চিকিৎসায় মৃত্যুর মুখে ফরিদা, মালিকের ধৃষ্টতা

মো. নাঈম ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ- ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার মনোহরপুর গ্রামের ইদ্রিস মোল্লার স্ত্রী ফরিদা বেগম (৪০) গত বছরের ১০ নভেম্বর রাজাপুর সোহাগ ক্লিনিকে জরায়ুর সমস্যা নিয়ে ভর্তি হন। ফরিদা বেগমের এইচবিএসএজি পজিটিভ থাকার পরেও ১১নভেম্বর ওই ক্লিনিকে জরায়ু অপারেশ করেন ডা. নাসরিন সুলতানা। অপারেশনের ৫দিন পরে তাকে ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ ছাড়পত্র দেন। রোগীর সুস্থতার পরিবর্তে আরো দিন দিন অবনতির দিকে ধাবিত হতে থাকে অপারেশনের স্থানসহ শারিরীক অবস্থার। পরে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালের চিকিৎসক ( প্রসুতি ও স্ত্রী রোগ বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক) ডা. শাহ আলম তালুকদারকে দেখালে চিকিৎসা ব্যবস্থায় ভুল ধরা পড়ে। ক্লিনিক মালিক আহসাান হাবিব সোহাগ'র কাছে বিষয়টি জানালে তিনি নিজ খরচে উন্নত চিকিৎসা করানোর প্রতিশ্রুতি দিয়ে সময় ক্ষেপন করতে থাকেন। ৩মাস অতিবাহিত হলে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে ক্লিনিক মালিক সোহাগ'র কাছে গিয়ে পুনরায় চিকিৎসা সহায়তার আবেদন জানান ফরিদা বেগমের স্বামী ইদ্রিছ মোল্লা। তখন সোহাগ ঢাকা মেডিকেল কলেজ ফিস্টুলা সেন্টার/বিবিএফ যাবার পরে ফোন দিতে বলেন। উক্ত চিকিৎসার ব্যয়ভার বহনের কথা উল্লেখ করলে চিকিৎসার টাকা দিতে অপারগতা স্বীকার করে থানায় গিয়ে পারলে মামলা করতে বলে ধৃষ্টতা দেখান আহসান হাবিব সোহাগ। জরায়ু টিউমার অপারেশন করাতে গিয়ে চিকিৎসকের অদক্ষতায় এখন মৃত্যু পথযাত্রী ফরিদা বেগম। উপায়হীন হয়ে ফরিদা বেগমের স্বামী ইদ্রিস মোল্লা ঝালকাঠি সিভিল সার্জন বরাবরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। 
অভিযোগে উল্লেখ করেন, রাজাপুর সোহাগ ক্লিনিকে ফরিদা বেগমের জরায়ু টিউমার অপারেশন করানো হলে চিকিৎসক নাসরিন সুলতানা ভুল চিকিৎসা করেন। ৩মাস অতিবাহিত হলে পুনরায় ঢাকা মেডিকেল কলেজে উন্নত চিকিৎসা করানোর দায়ভার নেন সোহাগ ক্লিনিকের মালিক আহসান হাবিব সোহাগ। ৩মাস পরে জনপ্রতিনিধিসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে আহসান হাবিব সোহাগ'র সাথে আলোচনায় বসা হয়। তখন সোহাগ ঢাকা মেডিকেল কলেজ ফিস্টুলা সেন্টার/বিবিএফ যাবার পরে ফোন দিতে বলেন। উক্ত চিকিৎসার ব্যয়ভার বহনের কথা উল্লেখ করলে চিকিৎসার টাকা দিতে অপারগতা স্বীকার করে পারলে থানায় গিয়ে মামলা করতে বলে। 
ইদ্রিস মোল্লা জানান, আমি অশিক্ষিত মানুষ। ডাক্তার যেভাবে ভালো বুজেছেন সেভাবেই অপারেশ করেছেন। আমার স্ত্রীর এইচবিএসএজি পজিটিভ থাকার পরেও ডা. অপারেশন করেছেন। একারণে তার অপারেশন স্থলে সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। পরে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালের চিকিৎসক ( প্রসুতি ও স্ত্রী রোগ বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক) ডা. শাহ আলম তালুকদারকে দেখালে চিকিৎসা ব্যবস্থায় ভুল ধরা পড়ে। তখন বুজতে পারি ডাক্তার অদক্ষতার পরিচয় দিয়েছেন। বর্তমানে রাজাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে চিকিৎসাধীন আছেন। এখন যে কোন সময়ে দুর্ঘনা ঘটতে পারে। সিভির সার্জনের কাছে দেয়া অভিযোগের যথাযথ বিচার দাবিও করেন তিনি। এব্যাপারে সোহাগ ক্লিনিকের মালিক আহসান হাবিব সোহাগ জানান, রোগী ভর্তি করানোর পরে অপারশেন সফলভাবেই সম্পন্ন হয়েছে। ৩মাস পরে অপারেশন স্থলে সমস্যা কথা নিয়ে এলে তাদের উন্নত চিকিৎসা নেয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। এখন তারা আমার উপরে সম্পুর্ণ দায়ভার চাপাতে চেষ্টা করছেন।

ঝিকরগাছায় মাস্ক বিতরণ করেন ইউএনও আরাফাত রহমান

ঝিকরগাছায় মাস্ক বিতরণ করেন ইউএনও আরাফাত রহমান

আফজাল হোসেন চাঁদ : যশোরের ঝিকরগাছা পৌর সদরের বাজার ও বাসস্ট্যান্ডে শুক্রবার সকালে সাধারণ মানুষের মাঝে  মাস্ক না থাকায় বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আরাফাত রহমান।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আরাফাত রহমান বলেন, বর্তমানে আমরা করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় সময় পার করছি। আমাদের মধ্যে যেন ভাইরাস অধিক হারে বিস্তার করতে না পারে, সেটার বিষয়ে সকলকে সচেতন থাকতে হবে।  সরকার সবার জন্য মাস্ক বাধ্যতামূলক করায় আমরা বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ করছি। করোনাকালীন এই সময়ে মানুষের মধ্যে যদি কোন প্রকার জনসচেতনা তৈরী না হয় তাহলে আমাদের সবার জীবন মরাণাপন্ন হতে পারে। যার জন্য করোনা ভাইরাস থেকে আমাদের বাঁচতে হলে সকলকে সচেতন হয়ে মাস্ক ব্যবহার করতে হবে। এসময় তার সফর সঙ্গী ছিলেন, ঝিকরগাছা প্রেসক্লাবের সভাপতি এমামুল হাসান সবুজ, সাংবাদিক আফজাল হোসেন চাঁদ, ইউএনও অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার (মুদ্রক্ষরিক) শাহ জালাল, থানার অফিসার ইনচার্জের পক্ষে এসআই (নিঃ) হেলাল প্রমুখ।

পটিয়ায় যৌতুক ও নারী নির্যাতন মামলার আসামি বহাল তবিয়তে

পটিয়ায় যৌতুক ও নারী নির্যাতন মামলার আসামি বহাল তবিয়তে

পটিয়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ- পটিয়া যৌথুক ও নারী নির্যাতন মামলার ওয়ারেন্ট আসামি ঢাকায় একটি বেসরকারি ব্যাংকে চাকুরীতে বহাল তবিয়তে রয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছেন য়ৌথুক নির্য়াতনের শিকার (হুমাইরা আকতার২১) নামে এক নারী। নারী শিশু নির্যাতন ট্রাইবুনালের মামলা নং ৩১৪/১৯ ইং   সুএে জানাযায়, গত ২০ নভেম্বর  ২০১৬ সালে পটিয়া কচুয়াই ইউনিয়নে আজিমপুর খন্দকার বাড়ির মোহাম্মদ হোসেন এর কন্যা হুমাইরা সাথে একই গ্রামের সালেহ উদ্দিন ছেলে মোঃ আরমান হোসেন সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। বিবাহ পর তাদের সংসার বর্তমানে     ইমরান হোসেন তানিম নামে  একটি ছেলে সন্তান রয়েছে। বিবাহর পর থেকে হুমাইরাকে    তার স্বামী  আরমান  বাপের বাড়ি থেকে বিভিন্ন তারিখ ও সময়ে য়ৌথুকের  ২ লক্ষ টাকা দাবি করে। এ নিয়ে 
  হুমাইরা আকতার দাম্পত্য জীবনের সুখের কথা চিন্তা করে বাপের বাড়ি থেকে ৫০ হাজার টাকা এনে দেন  স্বামী কে।  কিন্তু য়ৌথুকলোভী স্বামী আরমান হোসেন কিছুদিন নিরব থেকে আবারও য়ৌথুক টাকা  দাবি করে। এতে হুমাইরা তার পিতার আর্থিক অবস্থা খারাপ  হওয়ায় অপারগতার প্রকাশ করিলে গত  ০১/০৯/২০১৯ ইং দুুইদফা মারধর করে  আরমান সহ তার পরিবারের সদস্যরা। এমনকি হুমাইরা কে  এলোপাতাড়ি পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে
।এ  ঘটনার খবর পেয়ে হুমাইরা পিতা মোঃ হোসেন মা শামীম আকতার মেয়েকে শশুর বাড়ি থেকে  উদ্ধার করে পটিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা সেবা নেয়। এনিয়ে পটিয়া থানায়  ও ইউনিয়ন পরিষদের একাধিক সালিশ বিচার হয়।  এতে ক্লান্ত হয়নি  আরমান পুর্নরায় মারধর নির্যাতন চালায়।তা সহ্য করতে না পেরে এর প্রতিকার চেয়ে হুমাইরা আকতার বাদী হয়ে তার স্বামী আরমান হোসেন শশুর মোহাম্মদ সালেহ উদ্দিন, শাশুড়ী হাছিনা আকতার, ননদ আইরিন আকতার, দেবর আরাফাত হোসেন এর বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম নারী শিশু নির্যাতন ট্রাইবুনাল৩ মামলা নং ৩১৪/১৯ ইং দায়ের করে। মামলা টি দীর্ঘদিন শুনানি শেষে গত মাসে আসামিদের বিরুদ্ধে ওয়ারেন্ট ইস্যু করে।বর্তমানে আসামিগন পলাতক থেকে মামলার বাদীনীকে নানানভাবে হুমকি ধামকি দিচ্ছে মামলা প্রত্যাহার করার জন্য। গত ২ বছর যাবত আরমান হোসেন তার স্ত্রী ছেলে সন্তানের কোনধরণের বরণ পোষণ না দিয়ে ঢাকায় একটি বেসরকারি ব্যাংকে চাকুরী করার সুবাদে ঐখানে বহাল তবিয়তে থেকে অন্যাতাই বিয়ে করার জন্য পায়তারা চালাচ্ছে বলে হুমাইরা আকতার অভিযোগ করেন। অভাব  অনটনে মানবতার জীবন যাপন করছে হুমাইরা সন্তান নিয়ে। সে এ ব্যাপারে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছে।   

কেভিড-১৯ প্রতিরোধে ঝিকরগাছা পৌরসভা অভ্যন্তরে মসজিদে বিভিন্ন দ্রব্য বিতরণ

কেভিড-১৯ প্রতিরোধে ঝিকরগাছা পৌরসভা অভ্যন্তরে মসজিদে বিভিন্ন দ্রব্য বিতরণ

আফজাল হোসেন চাঁদ : কেভিড-১৯ (করোনা ভাইরাস সংক্রমণ) প্রতিরোধে শুক্রবার সকালে যশোরের ঝিকরগাছা পৌরসভা অভ্যন্তরে প্রত্যেকটা মসজিদে মাক্স, স্যানিটাইজার, সাবান, স্যাভলন লিকুইড বিতরণ করেছেন পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব মোস্তফা আনোয়ার পাশা জামাল।  এসময় তার সাথে ছিলেন, কাউন্সিলর আব্দুর রাজ্জাক, নিমাই চন্দ্র ঘোষ, সাইফুল আলম সুজন, মশিয়ার রহমান,  সচিব সন্তোষ হাজরা, পৌরসভার সহকারী প্রকৌশলী মোঃ ইদ্রিস আলী সর্দার, হিসাব রক্ষক খায়রুল আলম, পৌর কর্মকর্তা কর্মচারী সহ পৌরসভা অভ্যন্তরে প্রত্যেকটা মসজিদের ইমাম বৃন্দ।

সাতক্ষীরার শ্যামনগরে বিদ্যুতের মেইন লাইনের তার ছিঁড়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে এক শিশুর মৃত্যু

সাতক্ষীরার শ্যামনগরে বিদ্যুতের মেইন লাইনের তার ছিঁড়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে এক শিশুর মৃত্যু

হুদা মালী, শ্যামনগর প্রতিনিধি : সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলায় আটুলিয়া ইউনিয়নে বিদ্যুতের মেইন লাইনের তার আকস্মিক ছিড়ে গায়ে পড়ে আব্দুর রহমান (১০) নামে এক শিশুর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে।

শুক্রবার (৯ এপ্রিল) সকাল ১০টায় উপজেলার চুনা ব্রিজ সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।নিহত আব্দুর রহমান ওই এলাকার গফুর গাজীর ছেলে।গফুর গাজী জানান, তাদের বাড়ির পাশ দিয়েই বিদ্যুতের মেইন লাইন গেছে। সকালে রহমান বাড়ির উঠানে খেলা করছিল। এসময় হঠাৎ মেইন লাইনের তার ছিড়ে তার গায়ে পড়ে। এতে তার পিঠের বিভিন্ন অংশ পুড়ে যায় এবং ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। আটুলিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবু সালেহ বাবু বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বেনাপোল ভূমিদস্যু আশা বাহিণী কর্তৃক সাংবাদিক লাঞ্চিত, প্রাণনাশের হুমকি !

বেনাপোল ভূমিদস্যু আশা বাহিণী কর্তৃক সাংবাদিক লাঞ্চিত, প্রাণনাশের হুমকি !

নিজস্ব প্রতিবেদক : শার্শা উপজেলার ৩নং বাহাদুরপুর ধান্যখোলা গ্রামের মেন্দের টেক বাওর সংলগ্ন কৃষি জমি থেকে মাটি উত্তোলন করছে আশা নামে এক ভূমিদস্যু। সে মাটি স্থানীয়   বোয়ালিয়া বাজারে অবস্থিত অর্নব ব্রিক্সে বিক্রি করছে এমন অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনা স্থলে সাংবাদিকরা গেলে সেখানে তাদের আটকে রেখে শরীরক ভাবে লাঞ্ছিত করেছে ভূমিদস্যু আশা সহ সহযোগী কয়েকজন। মাটি উত্তোলনের ছবি ও ভিডিও করলে তাদের নিকট থেকে মোবাইল ও ক্যামেরা কেড়ে নেওয়া হয়। ভূমি দস্যু ধান্যখোলা এলাকার ত্রাস আনু কামারের ছেলে আশা ও তার বাহিনী। 


বৃহস্পতিবার (০৮ ই এপ্রিল) সন্ধ্যায় শার্শা উপজেলার ৩ নং বাহাদুরপুর বাওর সংলগ্ন মেন্দের টেকের পাশে এ ঘটনা ঘটে। দৈনিক সকালের সময় শার্শা উপজেলা প্রতিনিধি সুমন হোসেইন জানান, সন্ধ্যা সাড়ে ৮ টার দিকে সংবাদ সংগ্রহের জন্য বাহাদুরপুর বাওর সংলগ্ন মেন্দের টেকের পাশ থেকে কৃষি জমি থেকে মাটি উত্তোলন করছে তা দেখতে আমি এবং আমার সহকর্মী ৩ জন সাংবাদিক সহ সেখানে উত্তোলনের ছবি তুলি! এবং মাটিবাহী ট্রাক্টর চালকের নিকট জিজ্ঞেসা করি কে বা কারা মাটি উত্তোলন করছেন। তখন দুর হতে খালি গায়ে এক ব্যাক্তি সহ বেশকয়েজন আমাদের কাছে এসে বলে "ছবি তুললি কেন তোর কে ছবি তোলার অনুমতি দিছে" বলে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে এবং মোবাইল ক্যামেরা আমাদের কাছ থেকে কেড়ে নেওয়া হয়। সে বলে আমার এলাকায় তোদের ঢোকার পারমিশন কে দিছে। তোদের মত সাংবাদিকদের মাটিতে পুতে রাখবো তাহাতে কোন খবর হবে না এসব বলে আমাদের সাথে থাকা ক্যামেরা ও মোবাইল ছিনিয়ে নেন আশা ও তার সন্ত্রাশী বাহিনীর বাবলু,সুমন, সহ অরোও ৮/১২জন। তারপর তারা আমাদেরকে শারিরিক ভাবে নির্যাতন করে এবং ধারণকৃত ভিডিও মুছে ফেলার জন্য সাথে থাকা ক্যামেরা ও স্টান্ড অস্ত্রের মুখে ছিনতাই  করে নিয়ে যান এবং তার বডিগার্ড দিয়ে আমাদেরকে তাদের এলাকা থেকে বাহির করে দেওয়া হয়। এসময় তারা আরো বলে বেনাপোল থানায় তোদের কোন বাবা আছে তাদেরকে বল গিয়ে। 

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মীর আলিফ রেজা বলেন, বিষয়টি আমি শুনেছি। থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করার পরামর্শ দিয়েছি। বিষয়টি তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অভিযোগের ভিত্তিতে আসামিদেরকে গ্রেফতার নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে। 

এবিষয়ে সাংবাদিক মহল দ্রুত আইনি সহায়তা কামনা করছে এবং ভূমিদস্যুদের কাছ থেকে কৃষকের কাঙ্ক্ষিত ভূমি মুক্তির দাবি করছে।

ডি-৮ এর সভাপতি হলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

ডি-৮ এর সভাপতি হলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

আজহারুল ইসলাম সাদী, স্টাফ রিপোর্টারঃ উন্নয়নশীল দেশগুলোর জোট ডি-৮-এর দশম শীর্ষ সম্মেলনে সংস্থার সভাপতির দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আগামী দুই বছর তিনি এ পদে দায়িত্ব পালন করবেন।

বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) জোটের বৈঠকে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট ও সংস্থার বর্তমান সভাপতি রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোয়ানের কাছ থেকে দায়িত্ব গ্রহণ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ডি-৮-এর দশম শীর্ষ সম্মেলনের শুরুতে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট উদ্বোধনী ভাষণের পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে সভাপতিত্বের দায়িত্ব তুলে দেন।

শীর্ষ সম্মেলনে ভাষণ দেয়ার সময় প্রধানমন্ত্রী  বলেন, ডি-৮-এর অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা সদস্য হিসেবে এই সংগঠনের জন্য তার সবসময়ই একটি বিশেষ দুর্বলতা রয়েছে। ১৯৯৭ সালে ডি-৮ প্রতিষ্ঠার সময় তিনি প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ইস্তাম্বুলে প্রথম শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিয়েছিলেন। ১৯৯৯ সালে ঢাকায় দ্বিতীয় ডি-৮ শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার সময়ও শেখ হাসিনা সভাপতিত্ব করেছিলেন।

উন্নয়নশীল-৮ নামে পরিচিত ডি-৮ অর্থনৈতিক সহযোগিতার জন্য আটটি উন্নয়নশীল মুসলিম-প্রধান দেশ- বাংলাদেশ, মিশর, ইন্দোনেশিয়া, ইরান, মালয়েশিয়া, নাইজেরিয়া, পাকিস্তান ও তুরস্কের সমন্বয়ে গঠিত হয়।ডি-৮-এর সব রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধান, পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা, ডি-৮ মহাসচিব প্রতিনিধিরা ভার্চুয়ালি এই সম্মেলনে যোগ দেন।

রাজাপুরে খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির চাল বিতরণে অনিয়মের অভিাযোগ

রাজাপুরে খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির চাল বিতরণে অনিয়মের অভিাযোগ

মো. নাঈম ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ 
ঝালকাঠির রাজাপুরে খাদ্য অধিদপ্তর কর্তৃক পরিচালিত হতদরিদ্রদের জন্য খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির দশ টাকা মূল্যের চাল বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলা সদর ইউনিয়নের হাজীর হাট এলাকায় ডিলার কর্তৃক চাল বিতরণে ট্যাগ অফিসারের উপস্থিতিতে চাল বিতরণের কথা থাকলেও ট্যাগ অফিসার অনুপস্থিত ছিলেন। জানা গেছে, চাল বিতরণের সময় পার গোপালপুর এলাকার মৃত আরজ আলীর ছেলে আব্দুর রহিম হাওলাদার তিনটি চাল গ্রহনের কার্ড নিয়ে ডিলারের কাছে আসেন এবং তিনটি কার্ড থেকেই চাল উত্তোলন করেন। ঘটনাটি স্থানীয়দের নজরে আসলে তারা ঘটনাটি প্রশাসনসহ সাংবাদিকদের জানায়। তিনটি কার্ড কোথায় পেয়েছেন এ বিষয়ে আব্দুর রহিমের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানায় তার এলাকার ইউপি সদস্য মো. তৌহিদুল ইসলাম তহিদ তাকে সরবরাহ করেছে। একজনকে তিনটি কার্ডে চাল কেন বিতরণ করা হয়েছে এ ব্যাপারে ডিলার মো. রফিকুল ইসলাম বাচ্চু খান এর কাছে জানতে তার মুঠোফোনে বার বার কল দিয়েও পাওয়া যায়নি। স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. তৌহিদুল ইসলাম তহিদের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানায়, কার্ড বিতরণের দায়িত্ব অফিসের, আমি কি ভাবে তাদের কার্ড দিব। চাল বিতরণে ট্যাগ অফিসার উপজেলা উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা মো. আসিক মাহমুদ জানায়, অফিসে রিপোর্টিং এর কাজ থাকায় চাল বিতরণে উপস্থিত থাকতে পারিনি। এছাড়াও সকালে বড়ইয়ার কাচারীবাড়ি ও উত্তমপুরে চাল বিতরণের সময় ওখানেও ট্যাগ অফিসাররা অনুপস্থিত দেখা গেছে। এমনকি উত্তমপুরে ডিলার এমএস আলম মাপে চাল কম দেয় বলে অভিযোগ রয়েছে। এ ব্যাপারে ডিলারের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানায় মাপে একটু উনিশ-বিষ হতে পারে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মোক্তার হোসেন বলেন, হাজীর হাটের ডিলারকে ডেকে আনা হয়েছে। বিষটি গুরুত্বের সাথে দেখছেন প্রশাসন।

দুই ব্যক্তির পোড়ানো লাশ উদ্ধার

দুই ব্যক্তির পোড়ানো লাশ উদ্ধার

মোঃ আওলাদ হোসেন  জেলা প্রতিনিধি,ভোলাঃ ভোলা চরফ্যাশন উপজেলার আছলামপুর ইউনিয়ন ৭নং ওয়ার্ডের সুন্দরী ব্রীজ সংলগ্ন ভূইয়াদের ছাড়া বাড়িতে অজ্ঞাত দুই ব্যাক্তির মাথা বিহীন পোড়ানো লাশ উদ্ধার করেছেন থানা পুলিশ৷ ধারনা করা হয়েছে লাশের বয়স আনুমানিক ৩৫-৪০ বছরের মধ্যে হবে৷

বৃহস্পতিবার ৮ এপ্রিল দুপুর ১২টার সময় মোঃ আজাদ নামের এক কৃষক তার বাড়ির পুকুরে গেলে এ পোড়ানো লাশ দেখতে পায়৷ পার্শ্ববর্তী লোকজনকে ঘটনা বললে তারা চরফ্যাশন থানা পুলিশকে খবর দেন৷

এ খবর শুনে চরফ্যাশন থানা অফিসার ইনচার্জ মনির হোসেন, আছলামপুর ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম, পৌর ৯নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মিজানুর রহমান মনজু সহ নেতৃবৃন্দ ঘটনা স্থান পরিদর্শন করেন৷ সংবাদ সংগ্রহের শেষ সময় পর্যন্ত লাশের কোন পরিচয় শনাক্ত করা যায়নি এবং চরফ্যাশন উপজেলার কোন ব্যাক্তি নিখোঁজের সংবাদও পাওয়া যায়নি৷

এ মর্মান্তিক ঘটনা সম্পর্কে চরফ্যাশন থানা অফিসার ইনচার্জ বলেন, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হবে৷ কে বা কাহারা এমন ঘটনা ঘটিয়েছে তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি৷ আমরা তদন্ত সাপেক্ষে পুরো ঘটনা উদঘাটনের চেষ্টা করছি