নাটোরে সড়ক দুর্ঘটনায় ট্রাক হেলফার নিহত

নাটোরে  সড়ক দুর্ঘটনায় ট্রাক হেলফার নিহত



 রাজশাহী ব্যুরো
 নাটোরের বড়াইগ্রামে সড়ক দুর্ঘটনায় ট্রাক হেলফার রনি (১৮) নিহত হয়েছে। রনি সাতক্ষিরা জেলার কলারুয়া উপজেলার ধরাখালি গ্রামের মৃত মিজানুর রহমানের পুত্র। বনপাড়া হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা খন্দকার শফিকুল ইসলাম জানান, নাটোর-পাবনা মহাসড়কে বড়াইগ্রাম উপজেলার রাজাপুর কলেজ মোড় এলাকায় শনিবার রাত দুইটার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। হাইওয়ে থানার পুলিশ টহলরত অবস্থায়  দুর্ঘটনায় কবলিত ট্রাক দেখে এগিয়ে যায় এবং ঘটনাস্’ল থেকে রনিকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করে। দুর্ঘটনায় বিধ্বস্’ ট্রাকটির দুমড়ে-মুচড়ে ভেঙ্গে গেছে। সামনের ধীরগতিতে চলমান অপর একটি ট্রাককে পেছন থেকে সজোরে ধাক্কা দেওয়ায় ট্রাকটির সামনের দিকে দুমড়ে-মুচড়ে যায় এবং ট্রাকে থাকা হেলফার ঘটনাস্থলে নিহত হয়।

সুন্দরবনের খালে মৎস্য আহরনের অভিযোগে দুই জেলেকে আটক করেছে পুলিশ

সুন্দরবনের খালে মৎস্য আহরনের অভিযোগে দুই জেলেকে আটক করেছে পুলিশ



মোঃএরশাদ হোসেন রনি, মোংলা   
নিষিদ্ধ সময়ে সুন্দরনের খালে মৎস্য আহরনের অভিযোগে মোংলায় দুই জেলেকে  জরিমানা  করা হয়েছে। রবিবার দুপুরে সুন্দরবনের জয়মনি খালে নিষিদ্ধ নেট জাল দিয়ে পোনা আহরনের সময় তাদের   আটক করে মোংলা থানা পুলিশ। এসময় জব্দ  করা হয় একটি নৌকা ও দুইশ মিটার  নেটজাল।    আটককৃতরা হলেন সিগনাল  টাওয়ার এলাকার বাসিন্ধা মোঃ আলামিন(২৪) ও মোঃ ডালিম(৪৫)। পরে ভ্রাম্যমানের আদালত পরিচালনা করে  দুই জেলেকে চার হাজার  টাকা জরিমানা করেন উপজেলা সহকারী কমিশনার ( ভুমি) নয়ন কুমার রাজবংশী।  জব্দকৃত জাল পুড়িয়ে নষ্ট করা হয়।
মোংলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইকবাল বাহার চৌধুরী জানান, সুন্দরবনের বনজ ও মৎস্য সম্পদ রক্ষায় চলতি মাসে অভিযান শুরু করে মোংলা থানা পুলিশ। গত ৩ জুলাই  অভিযান কার্যক্রমের উদ্ধোধন করেন বাগেরহাট জেলা পুলিশ সুপার পংকজ চন্দ্র রায়।

আশাশুনি আওয়ামী মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম লীগ উপজেলা কমিটি অনুমোদন

আশাশুনি আওয়ামী মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম লীগ  উপজেলা কমিটি অনুমোদন




আহসান  উল্লাহ  বাবলু  উপজেলা প্রতিনিধিঃ  বাংলাদেশ আওয়ামী মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম লীগ আশাশুনি উপজেলা কমিটি অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। রবিবার বাংলাদেশ আওয়ামী মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম লীগের জেলা সভাপতি গাজী উজ্জ্বল হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক শেখ রাজিব হোসেন স্বাক্ষরিত একপত্রে মুরশিদ আলমকে সভাপতি,  খোকন চন্দ্র মন্ডল, আহসান উল্লাহ, পারভেজ আজাদ রাজু, বাহারুল ইসলাম ও আক্তারুজ্জামান আক্তারকে সহ-সভাপতি, মেহেদী হাসান উজ্জ্বলকে সাধারণ সম্পাদক, আরাফাত হোসেন, আক্তারুজ্জামান সবুজ ও রইচ উদ্দীনকে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, আরিফুল ইসলাম আরিফ, মাসুম বিল্লাহ ও ফারুক হোসেনকে সাংগঠনিক সম্পাদক, সুমন হোসেন দপ্তর সম্পাদক, নুরুল হুদা প্রচার সম্পাদক, তুর্যয় হোসেন অর্থ সম্পাদক, রেজাউল করিম ত্রাণ ও দূর্যোগ বিষয়ক সম্পাদক, আক্তার হোসেন মোড়ল কৃষি বিষয়ক সম্পাদক, নাইম ইসলাম শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক, ডা: বঙ্কিম চন্দ্র বৈদ্য স্বাস্থ্য বিষয়ক, রানা সরদার সাংস্কৃতি বিষয়ক, আছাফুর রহমান প্রতিবন্দী বিষয়ক, মোজাফফর হোসেন রাজা ক্রীড়া বিষয়ক, সাইফুল ইসলাম ধর্মীয় বিষয়ক, আকাশ মন্ডল পাঠাগার বিষয়ক সম্পাদক এবং শাহিনুর ইসলাম, আলমগীর হোসেন, ইসলাম গাজী, ইউসুফ রহমান, রুবেল সরদার ও খান জাহান আলীকে সদস্য করে এক বছর মেয়াদী বাংলাদেশ আওয়ামী মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম লীগ আশাশুনি উপজেলা কমিটি অনুমোদন দেওয়া হয়।

চৌগাছা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতির জন্মদিনে পাশাপোল ইউনিয়ন ছাত্রলীগ নেতার শুভেচ্ছা জ্ঞাপন

চৌগাছা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতির জন্মদিনে পাশাপোল ইউনিয়ন ছাত্রলীগ নেতার শুভেচ্ছা জ্ঞাপন


 
প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ যশোর জেলার চৌগাছা উপজেলা আওয়ামী লীগের  সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা এস এম হাবিবুর রহমানের শুভ জন্ম দিনে পাশাপোল ইউনিয়ন  ছাত্র  লীগের  সাধারণ সম্পাদক, তারুণ্যের অহংকার ও গঙ্গানন্দপুর ডিগ্রি  কলেজের প্রভাষক মোঃ সবুজ হোসেন শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেছেন।
এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে তিনি এ-ই মহান নেতার দীর্ঘায়ু কামনা করা সহ তাকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।  

নির্বিচারে বৃক্ষ ধ্বংসের ফলে মানুষ নিজের বিপদ নিজেরা ডেকে আনছে: এম. রেজাউল করিম চৌধুরী

নির্বিচারে বৃক্ষ ধ্বংসের ফলে মানুষ নিজের বিপদ নিজেরা ডেকে আনছে: এম. রেজাউল করিম চৌধুরী




রিয়াজুল করিম রিজভী প্রতিনিধি চট্টগ্রামঃ-

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী মুজিববর্ষ উপলক্ষে গ্রীন এনভায়রনমেন্ট মুভমেন্ট চট্টগ্রাম মহানগরের উদ্যোগে আয়োজিত বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি-২০২০ অনুষ্ঠানের অংশ হিসেবে নগরীর চান্দগাঁও থানাধীন এন এম সি আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে ১৮ জুলাই শনিবার দুপুর ১২ ঘটিকায় স্কুল কেন্দ্রীক বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়। 

সংগঠনের সভাপতি ফজলে রাব্বি সুমনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সভাপতি, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র পদপ্রার্থী, বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব এম রেজাউল করিম চৌধুরী। 

এসময় এম রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, মানুষের চাহিদা ভোগবিলাস দিনদিন বৃদ্ধি পাওয়ার ফলে মানুষ প্রতিদিন নির্বিচারে বৃক্ষ ধ্বংস করছে। আর এই ধ্বংসের ফলে প্রকৃতি তার ভারসাম্য হারাচ্ছে। তাই সুস্থ জীবনযাপনের জন্য ও দূষণমুক্ত পরিবেশের জন্য বৃক্ষরোপণের বিকল্প নাই। কেননা এই গাছ আমাদের একমাত্র কৃত্রিম বন্ধু। গাছপালা বাদ দিয়ে পৃথিবীতে অন্য কোনো জীবের অস্তিত্ব কল্পনা করা যায় না। সুতরাং নির্বিচারে প্রকৃতি ধ্বংস করে নিজেরা নিজেদের বিপদ ডেকে আনবেন না।

সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুর রহিমের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এইচ এম সিদ্দিকী, শিক্ষক হাসান জোনায়েদ, ইসলামিয়া ডিগ্রী কলেজের সাবেক ভিপি ও চট্টগ্রাম মহানগর যুবলীগ নেতা নাজমুল আলম খাঁন, পূর্ব ষোলশহর ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ হোসেন, ওয়ার্ড যুবলীগ নেতা রোকনুজ্জামন রোকন, আবদুল হালিম, ওয়াসিম চৌধুরী, দীপল বড়ুয়া, রাশেদ মজুমদার, মো. জাহেদুল আলম, মো. ফোরকান, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের উপ-শিক্ষা ও পাঠচক্র বিষয়ক সম্পাদক মো. ইলিয়াছ, ইউসুফ মো. মিনার, এডভোকেট সাদ্দাম হোসেন, মো. দুলাল, চট্টগ্রাম কলেজ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মোক্তার হোসেন রাজু, এনামুল হক, ইরাদ হোসেন, আব্দুল মাবুদ আসিফ, শরিফুল আলম প্রমুখ।

রেড ক্রিসেন্ট চট্টগ্রামের উদ্যোগে চালু হচ্ছে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা

রেড ক্রিসেন্ট চট্টগ্রামের উদ্যোগে চালু হচ্ছে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা




রিয়াজুল করিম রিজভী প্রতিনিধি চট্টগ্রাম

করোনা প্রাদুর্ভাব বেড়ে যাওয়ার কারণে বিভিন্ন হাসপাতালে নন কোভিড রোগীদের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের সেবা পাওয়া দূঃসাধ্য হয়ে পড়েছে। চলমান কোভিড -১৯ অপারেশনের অংশ হিসেবে নন কোভিড রোগীদের স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করার লক্ষ্যে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবার জন্য ফ্লু কর্ণার ও ইনভেস্টিগেশন সেল চালু করছে রেড ক্রিসেন্ট চট্টগ্রাম। নগরীর দিদার মার্কেটস্থ সাফা আর্কেড কমিউনিটি সেন্টারে আগামী ২১ জুলাই ২০২০ ইং মঙ্গলবার থেকে ২৭ জুলাই ২০২০ ইং সোমবার পর্যন্ত সপ্তাহব্যাপী সকাল ৯ ঘটিকা হতে দুপুর ২ ঘটিকা পর্যন্ত বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের মাধ্যমে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি চট্টগ্রাম জেলা ও সিটি ইউনিটের সার্বিক তত্ত্বাবধাণে যুব রেড ক্রিসেন্ট চট্টগ্রামের বাস্তবায়নে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির ম্যানেজিং বোর্ড সদস্য ও চট্টগ্রাম জেলা ইউনিটের ভাইস চেয়ারম্যান ডা. শেখ শফিউল আজম ও চট্টগ্রাম সিটি ইউনিটের ভাইস চেয়ারম্যান এম. এ. ছালাম এর দক্ষ দিকনির্দেশনায় স্বাস্থ্যসেবা ক্যাম্প পরিচালনা করা হবে। নগরীর বিভিন্ন প্রান্তের মানুষের কাছে চিকিৎসা সেবা পৌছেঁ দেওয়ার লক্ষ্যে ব্যাপক প্রস্তুতি চলমান রয়েছে।  
ইতিমধ্যে ফ্লু কর্ণার ও ইনভেস্টিগেশন সেল কার্যক্রম পরিচালনার অংশ হিসেবে যুব রেড ক্রিসেন্ট, চট্টগ্রামের যুব প্রধান মোঃ ইসমাইল হক চৌধুরী ফয়সালের নেতৃত্বে নগরীর ডিসি রোড, বাকলিয়া, মাস্টারপুলসহ আশে পাশের এলাকায় জনসাধারণকে অবহিত করার জন্য যুব রেড ক্রিসেন্ট, চট্টগ্রামের স্বেচ্ছাসেবকদের মাধ্যমে মাইকিং এবং লিফলেট বিতরণ করা হয় এবং ধারাবাহিকতায় নগরীর অন্যান্য এলাকা গুলোতে ও করা হবে। চিকিৎসা সেবা প্রাপ্তির জন্য ০১৮১৫২০০৭৫১, ০১৮৪৫৮০৮৩০৩ নাম্বারে যোগাযোগ করে সিরিয়াল নেওয়ার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে।

পরিবেশ সংরক্ষণে বৃক্ষরোপণ কর্মসুচি পালন সকলের জন্য অপরিহার্য : এম রেজাউল করিম চৌধুরী

পরিবেশ সংরক্ষণে বৃক্ষরোপণ কর্মসুচি পালন সকলের জন্য অপরিহার্য : এম রেজাউল করিম চৌধুরী




রিয়াজুল করিম রিজভী প্রতিনিধি চট্টগ্রামঃ-

নগরীর বিভিন্ন সংগঠনের সংগঠকদের মাঝে বিভিন্ন প্রকার ফলদ,বনজ ও ঔষধি গাছের চারা বিতরণ করেন চসিক নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত মেয়র পদপ্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব এম রেজাউল করিম চৌধুরী। 
১৯ জুলাই রবিবার সকালে বিভিন্ন সংগঠনের সংগঠকদের মাঝে চারা গাছ বিতরনকালে মু্ক্তিযোদ্ধা এম রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন,পরিবেশ সংরক্ষণে বৃক্ষরোপণ কর্মসুচি পালন সকলের জন্য অপরিহার্য। 

এসময় তিনি প্রাকৃতিক ভারসাম্য রক্ষার পাশাপাশি, দৃষ্টিনন্দন সবুজ ও নান্দনিক নগরী গড়তে সকলের
আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেন। সেই সাথে তিনি বাংলাদেশ শিক্ষা ও গবেষণা ফাউন্ডেশনসহ বিভিন্ন সংগঠনের সংগঠকদের মাঝে বিভিন্ন প্রকার ফলজ, বনজ ও ঔষধি গাছের চারা বিতরণ করেন। 

এসময় তাঁর হাত থেকে গাছের চারা গ্রহণ করেন বাংলাদেশ শিক্ষা ও গবেষণা ফাউন্ডেশনের সেক্রেটারি অধ্যক্ষ এম সোলাইমান কাসেমী,কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক মো. আবু সাঈদ সুমন, মহানগর যুবলীগ নেতা মাহমুদ ইউসুফ মিনার, যুবলীগ নেতা আবিদ খান, চান্দগাঁও থানা ছাত্রলীগের যুগ্ন-সাধাারণ সম্পাদক তৌহিদুল আলম বাবু, মো. জাহেদ, মো. ইরাদ, মো. মুসলিম প্রমুখ।

বাংলাদেশ অনলাইন বঙ্গবন্ধু ঐক্য পরিষদ তারাকান্দা উপজেলার ০৫ বালিখাঁ ইউনিয়ন কমিটি গঠন

বাংলাদেশ অনলাইন বঙ্গবন্ধু ঐক্য পরিষদ তারাকান্দা উপজেলার ০৫ বালিখাঁ ইউনিয়ন কমিটি গঠন



স্টাফ রিপোর্টার : আর.জে. মিজানুর রহমান ইমন

 "বাংলাদেশ অনলাইন বঙ্গবন্ধু ঐক্যবদ্ধ পরিষদ" ময়মনসিংহ জেলার তারাকান্দা উপজেলা শাখার অর্ন্তগত ০৫ নং বালিখাঁ  ইউনিয়ন শাখা কমিটি আগামী (১) বছরে জন্য গঠন করা হয়েছে । "বাংলাদেশ অনলাইন বঙ্গবন্ধু ঐক্য পরিষদ" (BOBOP) এই অনলাইন ভিত্তিক সংগঠনটি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একটি সহযোগী ও সহযোদ্ধা সংগঠন হিসেবে কাজ করতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ । জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে লালিত শিক্ষিত সমাজের নবধারা নব দিগন্তের প্রযুক্তি নির্ভর সংগঠন (BOBOP) সারাদেশ ও সারাবিশ্বে যেকোন প্রান্ত থেকে লোক স্বল্প সময়ে এই (BOBOP)  সংগঠনে যুক্ত হয়ে অবদান  রেখেছে । মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার হাত কে শক্তিশালী করতে  সর্বদা পাশে আছে, পাশে থাকবে ।

নব-গঠিত কমিটিতে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন, মোঃ জোবায়ের হোসেন, সাধারণ সম্পাদকঃ সাব্বিকুল ইসলাম রাকিব

সহ সভাপতি, মোঃ রাশিদুল ইসলাম, সহ সভাপতি, মোঃ জোবায়ের মিয়া, সহ সভাপতি, মোঃ পারভেজ খান, সহ সভাপতি, মোঃ হৃদয় হাসান, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক, মোঃ রবিউল আউয়াল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ মানিক মিয়া, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক, মোঃ আবু সুফিয়ান, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক, মোঃ মেহেদী হাসান, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক, মোঃ তাইজুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক, মোঃ শরীফুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক, মোঃ কাওসার আহমেদ, সাংগঠনিক সম্পাদক, মোঃ শাকিব, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক, মোঃ জামিরুল ইসলাম, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক, মোঃ রাতুল, প্রচার সম্পাদক, মোঃ মাহমুদুল হাসান, সহ প্রচার সম্পাদক, মোঃ শাকিল মিয়া, দপ্তর সম্পাদক, মোঃ ইমন মিয়া, সহ দপ্তর সম্পাদক, মোঃ নাঈম মিয়া, তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক, মোঃ জিয়ারুল, সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক, মোঃ জাহিদুল

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ অনলাইন বঙ্গবন্ধু ঐক্য পরিষদ তারাকান্দা উপজেলা শাখা কমিটির সভাপতি আর.জে মিজানুর রহমান ইমন, সাধারণ সম্পাদক, হোসাইন আহমাদ রেজা, সহ সভাপতি, মোঃ সোহেল রানা, সহ-সভাপতি ফকির শামীম আহমেদ অপু, সহ সভাপতি শেখ রহমান লিটন, সহ সভাপতি, শেখ রহমান লিটন সহ, সহ আরো অনেকেই ।

আইনজীবি হিসেবে ঘোষণা দিয়ে গেজেট প্রকাশের দাবিতে ঝিনাইদহে শিক্ষানবিশ আইনজীবিদের অবস্থান কর্মসূচী

আইনজীবি হিসেবে ঘোষণা দিয়ে গেজেট প্রকাশের দাবিতে ঝিনাইদহে শিক্ষানবিশ আইনজীবিদের অবস্থান কর্মসূচী


খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার। 
( ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধি) 




প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের আইনজীবি হিসেবে ঘোষণা দিয়ে গেজেট প্রকাশের দাবিতে ঝিনাইদহে অবস্থান কর্মসূচী পালন করেছে শিক্ষানবিশ আইনজীবিরা। রোববার বেলা ১২ টা থেকে দুপুর ২ টা পর্যন্ত বার কাউন্সিলের সামনে এ কর্মসূচী পালন করে তারা। এসময় শিক্ষানবিশ আইনজীবি পরিষদ জেলা শাখার আহ্বায়ক তপন কুমার মুখার্জী, সদস্য আকরামুল কবির, শিরিন সুলতানা, মনিরা খাতুন, সেলিনা খাতুন, মিতা সাহা, কুলসুম খাতুনসহ অন্যান্যরা বক্তব্য রাখেন।শিক্ষানবিশ আইনজীবিদের এ কর্মসূচীতে একাত্বতা প্রকাশ করেন আইনজীবি সমিতির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক। এসময় বক্তারা বলেন, আইনজীবী তালিকাভুক্তকরণ পরীক্ষার প্রিলিমিনারি সম্পন্ন হওয়ার পর বর্তমান করোনাভাইরাস বৈশ্বিক মহামারির কারণে লিখিত পরীক্ষা স্থগিত হয়ে রয়েছে। এ অবস্থায় উত্তীর্ণদের গেজেটের মাধ্যমে সনদ দেওয়ার দাবী জানান তারা।

আশাশুনিতে স্বাস্থ্য সুরক্ষা ও পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা সামগ্রী বিতর

আশাশুনিতে স্বাস্থ্য সুরক্ষা ও পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা সামগ্রী বিতর





আহসান উল্লাহ বাবলু উপজেলা প্রতিনিধিঃ  

মহামারী করোনা ভাইরাস ও ডেঙ্গু প্রতিরোধে আশাশুনিতে স্বাস্থ্য সুরক্ষা ও পরিষ্কার পরিছন্নতা উপকরণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। রবিবার সকালে উপজেলা পরিষদ চত্বরে এ সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করা হয়। আশাশুনি উপজেলা পরিষদ ও উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে মহামারী করোনাভাইরাস ও ডেঙ্গু প্রতিরোধে অগ্রণী ভূমিকা পালন করার জন্য উপজেলার প্রতিটি  ইউনিয়ন পরিষদে স্বাস্থ্য সুরক্ষা ও পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা উপকরণ সামগ্রী বিতরণ করেন আশাশুনি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এবিএম মোস্তাকিম। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সোহাগ খান, বুধহাটা ইউপি চেয়ারম্যান ইঞ্জিঃ আ ব ম মোসাদ্দেক, সদর ইউপি চেয়ারম্যান সেলিম রেজা মিলন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সামাদ বাচ্চু, ইউপি সদস্য ও যুবলীগ নেতা মনিরুল ইসলাম, সাংবাদিক আহসান উল্লাহ বাবলু,আনিসুর রহমান বাবলা প্রমুখ

শিবগঞ্জে ডক্টরস সেফটি চেম্বার ও বৃক্ষের চারা বিতরণের উদ্বোধন

শিবগঞ্জে ডক্টরস সেফটি চেম্বার ও বৃক্ষের চারা বিতরণের উদ্বোধন



শামিম উদ্দিন চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি :
চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে করোনার নমুনা সংগ্রহের জন্য ডক্টর’স সেফটি চেম্বার ও বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়েছে। আজ রবিবার এর উদ্বোধন করেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য ডা. সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল।
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে উপজেলা প্রশাসন বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচির আয়োজন করে। ‘মুজিববর্ষের আহ্বান, লাগাই গাছ বাড়াই বন’- এ স্লোগান কে সামনে রেখে এ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। উপজেলা আনসার ও ভিডিপি কার্যালয় চত্বরে অনুষ্ঠিত চারা বিতরণ অনুষ্ঠানে আনসার ও ভিডিপি সদস্যদের মাঝে বিভিন্ন বৃক্ষের চারা বিতরণ করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি।
পরে তিনি শিবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স চত্বরে করোনা ভাইরাস টেস্ট করার জন্য ডক্টরস সেফটি চেম্বার’র উদ্বোধন করেন।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে সংসদ সদস্য ডা. সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল বলেন, করোনাকালে সরকার জনগণের স্বাস্থ্য সুরক্ষা ও জীবন-জীবিকার নিশ্চয়তায় নিরলসভাবে কাজ করে চলেছে। বিশেষ করে নারী ও কিশোরীর প্রজনন স্বাস্থ্য এবং মা-শিশুর স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করতে সরকারের কার্যক্রম চলমান রয়েছে। স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত এবং বিভিন্ন ধরনের প্রশিক্ষণ প্রদান করে জনগণকে জনসম্পদে পরিণত করা সরকারের লক্ষ্য।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাকিব-আল-রাব্বির সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলাম, শিবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সায়রা খান, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা প্রকৌশলী আরিফুল ইসলাম, উপজেলা আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা মো. ইমরান, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া।

মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ এর নাগরপুর উপজেলা শাখার পূর্নাঙ্গ কমিটি অনুমোদন

মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ এর নাগরপুর উপজেলা শাখার পূর্নাঙ্গ কমিটি অনুমোদন




হাসান সাদী,নাগরপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধিঃ
বাংলার স্বাধীনতা অর্জণের অগ্রগামী মাধ্যম রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধ। তাই মুক্তিযুদ্ধের উজ্জীবিত নিবেদিত প্রাণ মুক্তি সংগ্রামের ইতিহাস কে নতুন প্রজন্মের কাছে পৌছে দিতে প্রবীণদের সার্বিক প্রচেষ্টার আরেক নাম “মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ” তারই ধারাবাহিকতায় মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় সকলে মুক্তি সংগ্রামের স্মৃতিকথা তুলে ধরতে গঠন করা হয়েছে নাগরপুর উপজেলা শাখা কমিটি। মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ টাঙ্গাইল জেলা কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক আগামী এক বছরের জন্য নাগরপুর উপজেলা শাখা কমিটি অনুমোদন দেয়া হয়েছে।গত ০৮-০৭-২০২০ তারিখ ইং মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ জেলা কমিটির প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের জেলা কমিটির বিপ্লবী সভাপতি জনাব শামীম কবির রাসেল ও সংগ্রামী সাধারন সম্পাদক জনাব তুষার তালুকদার সাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে মোঃ আশিকুর রহমান আশিক কে সভাপতি এবং আমিনুর মিয়া কে সাধারণ সম্পাদক করে নাগরপুর উপজেলা কমিটির অনুমোদন দেয়া হয় । পূর্নাঙ্গ কমিটির সদস্য সংখ্যা ৭১জন।

ফজলুল উলুম বহুমুখী কওমিয়া মাদ্রাসায় বৃক্ষ রোপণ

ফজলুল উলুম বহুমুখী কওমিয়া মাদ্রাসায় বৃক্ষ রোপণ



প্রেসবিজ্ঞপ্তি : শনিবার যশোর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন বিপুল এর নির্দেশনায়, সদর উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা মুনতাসির হাসান সুজনের আয়োজনে ইছালী ইউনিয়নের এনায়েতপুর ফজলুল উলুম বহুমুখী কওমিয়া মাদরাসা প্রাঙ্গণে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালন করা হয়।

সরকারি এমএম কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ইয়াসিন আরাফাত তরুনের নেতৃত্বে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচিতে এসয় উপস্থিত ছিলেন, ৩ নম্বর ইছালী ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওর্য়াডের ইউপি সদস্য ইনসার আলী, লেবুতলা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আহবায়ক রুহুল কুদ্দুস, পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট শাখা ছাত্রলীগের যুগ্মসম্পাদক নাসিম রেজা, সরকারি এমএম কলেজ ছাত্রলীগ নেতা শামীম আহমেদ, সদর উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা মুকিত হোসেন, ইমরান আলী, রাকিব হাসান জয়, আব্দুর রহমান অপু, শহর  ছাত্রলীগের সদস্য ওবাইদুর ইসলাম রাকিব, তৌফিক রাব্বি বর্ষন, ছাত্রলীগ নেতা, এস.এম আল হুসাইন রাফসান, শেখ নোমান, সাব্বির আহমেদ অভি, আমির হামজা, আরবপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের নেতা, মোঃ উজ্জল হোসেন, ইছালী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আশরাফুল আলম, সম্রাট, মোঃ রাহুল, রায়হান আলী, মোঃ জুয়েল রানা।

নওগাঁয় মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে মানবন্ধন

নওগাঁয় মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে মানবন্ধন

 রাজশাহী ব্যুরোঃ
 নওগাঁর মহাদেবপুর প্রেসকাবের সদস্য দৈনিক স্বাধীন সংবাদ পত্রিকার উপজেলা প্রতিনিধি সুইট হোসেনের বিরুদ্ধে হয়রানিমূলক মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে সর্বস্তরের সাংবাদিকেরা। রবিবার দুপুরে নওগাঁ কোর্ট চত্ত্বর প্রাঙ্গনে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন নওগাঁ জেলা প্রেস কাবের সাধারণ সম্পাদক আবু বকর সিদ্দিক। ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধনে জেলা প্রেসকাবের যুগ্ম-সম্পাদক এমআর রকি, মাহমুদুন নবী বেলাল, জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি শহীদ হাসান সিদ্দিকী স্বপন, সাধারণ সম্পাদক আজাদ হোসেন মুরাদ, ডিবিসি নিউজ টেলিভিশসের প্রতিনিধি এ.কে. সাজু সহ অন্যান্য সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।

এসময় বক্তারা বলেন, নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার নওহাটা মোড় থেকে গত ৮ই জুলাই বুধবার সন্ধ্যা ৮.৩০ মিনিটের সময় জাতীয় দৈনিক স্বাধীন সংবাদ, দেশের কণ্ঠ ও তরঙ্গ নিউজ ২৪.কম এর সাংবাদিক সুইটকে মহাদেবপুর থানা ও নওহাটা পুলিশ ফাঁড়ির পুলিশ সাংবাদিক সুইট কে চ্যালেঞ্জ করে তোমার কাছে অবৈধ কিছু আছে এরপর তার দেহ তল্লাশি করে কিছু না পেয়ে পাশে থাকা সুইটের মটরসাইকেল তল্লাশি করে সিটের নিচে সামান্ন ফাঁকা স্থান থেকে ৪৪ পিচ ইয়াবা উদ্ধার করে তাকে আটক দেখানো হয়। যা স্থানীয় বাসিন্দা ও আমাদের মনেকে প্রশ্নবৃদ্ধ করে। বক্তারা আরও বলেন সুইট হোসনকে জন সম্মুখে আটক করার পরও এজাটারে উল্লেখ করা হয়েছে দৌড়ে পালানোর সময় তাকে ধাওয়া করে আটক করা হয়েছে। আর তাই এ ঘটনায় সুস্পষ্ট তদন্ত করে জড়িতদের আইনের আওতায় আনার জন্য মামলাটি পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) এর মাধ্যমে তদন্ত দাবী তুলে ধরেন সাংবাদিকরা।

নাটোরে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর উদ্যোগে বৃক্ষ রোপন কর্মসূচির উদ্বোধন

নাটোরে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর উদ্যোগে  বৃক্ষ রোপন কর্মসূচির উদ্বোধন




রাজশাহী ব্যুরোঃ 
“মুজিব বর্ষের আহবান,লাগাই গাছ বাড়াই বন”- এই স্লোগানকে সামনে রেখে নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলা আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়েছে।আজ (১৯ জুলাই)রবিবার উপজেলা পরিষদ চত্বরে এ অনুষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন করা হয়।

উক্ত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন,বড়াইগ্রাম উপজেলা আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাসুদ রানা।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আনোয়ার পারভেজ বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে সারা দেশে এক কোটি গাছের চারা রোপন করা হবে। তারই আলোকে বড়াইগ্রামেও ব্যাপক পরিমাণে গাছের চারা রোপন এর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এসময় তিনি বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠান স্কুল-কলেজ রাস্তার দু’ধারে গাছ লাগানোর জন্য সবাইকে অনুরোধ জানান।

এসময় উপজেলার মোট ৬৯ জন সদস্যের মধ্যে বিভিন্ন ধরনের ২০৭ টি গাছের চারা বিতরণ করা হয়েছে।

জাতীয় শ্রমিক লীগ আত্রাই উপজেলা শাখার উদ্যেগে বৃক্ষ রোপন কর্মসূচি পালন

জাতীয় শ্রমিক লীগ আত্রাই উপজেলা শাখার উদ্যেগে বৃক্ষ রোপন কর্মসূচি পালন
বৃক্ষ রোপণ  

মোঃ ফিরোজ হোসাইন 
 রাজশাহী ব্যুরো

কেন্দ্রীয় ও জেলা জাতীয় শ্রমিক লীগের কর্মসূচি অনুযায়ী আজ জাতীয় শ্রমিক লীগ আত্রাই উপজেলা শাখার, উদ্যোগে কাশিয়াবাড়ী ঔ সুইচগেট সংলগ্ন রাস্তায় ২০০টি আম গাছের চারা রোপণ করা হয়েছে।জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর শত তম জন্ম বার্ষিকী উপলক্ষে বৃক্ষ রোপন কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

বৃক্ষ রোপন কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় শ্রমিক লীগ আত্রাই উপজেলা শাখার বিপ্লবী সাধারণ সম্পাদক সরদার শোয়েব,জাতীয় শ্রমিক লীগ আত্রাই উপজেলা শাখার সহ শ্রমিক কল্যান বিষয়ক সম্পাদক আসলাম, ভৌঁপাড়া ইউনিয়ন জাতীয় শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক ঝড়ু প্রামাণিক ও ভৌঁপাড়া ইউনিয়ন জাতীয় শ্রমিক লীগের সদস্য শফিকুল ইসলাম সহ আওয়ামী সহযোগী সংগঠনের নেতা কর্মীরা।জাতীয় শ্রমিক লীগ আত্রাই উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক সরদার শোয়েব বক্তব্যে বলেন মুজিব বর্ষে সকলকে তিন টি করে গাছ লাগানোর আহবান জানান।

জবি শিক্ষার্থী মনিরের মুক্তির দাবিতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

জবি শিক্ষার্থী মনিরের মুক্তির দাবিতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন



জবি প্রতিনিধিঃ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) এর হিসাববিজ্ঞান বিভাগের ১৪ তম আবর্তনের শিক্ষার্থী মনির হোসেনের মুক্তির দাবিতে প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা।


রবিবার (১৯ জুলাই, ২০২০) সকাল ১০.৩০ থেকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি শুরু করে শিক্ষার্থীরা।

মানববন্ধন এ অংশগ্রহণ করা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মো.ফয়সাল বলেন, জবি শিক্ষার্থী মনির হোসেনকে একটি মিথ্যা মামলায় যেভাবে ফাঁসানো হয়েছে তার প্রতিবাদে আজ আমরা এই করোনাকালীন মহামারীকে উপেক্ষা করেও রাজপথে নেমেছি। যদি তাকে নিঃশর্তভাবে মুক্তি না দেওয়া হয় তাহলে আমরা আরও জোরালো অবস্থানে যাবো সেক্ষেত্রে কোনো বাধাকেই আমরা গ্রাহ্য করবো না। অন্যায়ের বিরুদ্ধে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সর্বদা সোচ্চার এর প্রমাণ অতীতে আমরা অনেকবার দিয়েছি। একটি সুন্দর জীবন ধ্বংস হোক তা আমরা চাই না, হতেও দেবো না তার জন্য যথা সম্ভব আমরা করে যাবো।

মানববন্ধনে অংশ নেয়া জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শরীয়তপুর জেলা ছাত্রকল্যাণের সাধারণ সম্পাদক ডি এম বখতিয়ার বলেন, মনির আমাদের জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের একজন নিয়মিত ছাত্র। এই লকডাউন এর জন্য সে যখন গ্রামের বাড়িতে ছিল এবং তখন এই হত্যা ঘটনায় পুলিশ তাকে অজ্ঞাতনামা আসামি হিসেবে আটক করে নিয়ে যায়। আমরা দোষী পুলিশ সদস্যের শাস্তি এবং এ বিষয়ে সরকারের সুদৃষ্টি আশা করছি এবং  অনতিবিলম্বে মনির এর মুক্তি দাবি জানাচ্ছি।

এদিকে জানা যায়, শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার ভোলাই মুন্সিকান্দি গ্রামে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে রিয়াজ মাদবর (১৭) নামে এক কিশোর নিহতের ঘটনায় গত শনিবার জাজিরা থানা পুলিশ বিনা অপরাধে মনিরকে গ্রেপ্তার করে এবং মামলা দিয়ে কোর্টে চালান করে দেয়। গত বৃহস্পতিবার জেলা দায়রা জজ আদালতে জামিন আবেদন করলে আদালত তা নাকচ করে দেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. মোস্তফা কামালকে মানববন্ধন এর ব্যাপারে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন, প্রেসক্লাবে একটা মানববন্ধন হয়েছে আমি শুনেছি। আমি বলতে চাই আমার ছাত্র যাতে ন্যায়বিচার পায়, সে যাতে কোনধরনের হয়রানির শিকার না হয়।

মাধবপুরে পুলিশের হাতে বিপুল পরিমাণ গাঁজাসহ আটক ৪জন

মাধবপুরে পুলিশের হাতে বিপুল পরিমাণ গাঁজাসহ আটক ৪জন




লিটন পাঠান হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি 

হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলায় পৃথক অভিযানে বিপুল পরিমাণ ভারতীয় গাঁজা সহ ৪ মাদক চোরাকারবারিকে আটক করেছে পুলিশ। রবিবার (১৯-জুলাই) সকালে মাধবপুর থানার অন্তর্গত কাশিমনগর পুলিশ ফাঁড়ির এসআই আতিকুর রহমান এর নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে অভিনব কৌশলে বালিশের ভেতরে করে ভারতীয় গাঁজা পাচারের সময় ছালেক মিয়া (৩৫) নামে এক মাদক চোরাকারবারিকে আটক করে পুলিশ।

আটককৃত ছালেক মিয়া মাধবপুর পৌরসভার গুমোটিয়া গ্রামের নুরুল ইসলাম এর ছেলে। পুলিশ সূত্রে জানা যায় গোপন সূত্রে খবর পেয়ে কাশিমনগর পুলিশ ফাঁড়ির এসআই আতিকুর রহমান এর নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল মাধবপুর উপজেলার বহরা ইউনিয়নের গুনাপাড়া মোড় থেকে দুইটি বালিশের ভেতরে করে অভিনব কৌশলে মাদক পাচারের সময় উল্লেখিত ব্যাক্তিকে আটক করে। 

এসময় মাদক পরিবহনের কাজে ব্যাবহৃত একটি মাইক্রোবাস আটক করে পুলিশ। অপর এক অভিযানে শনিবার (১৮-জুলাই) রাতে মাধবপুর থানার অন্তর্গত তেলিয়াপাড়া পুলিশ ফাঁড়ির এসআই রাকিবুল হাসান এর নেতৃত্বে ৩ কেজি ভারতীয় গাঁজা সহ ৩ মাদক চোরাকারবারিকে আটক করে পুলিশ। আটককৃতরা হলো, মাধবপুর উপজেলার শাহজাহানপুর ইউনিয়নের ভান্ডারুয়া 

গ্রামের ফণী ঘোষ এর ছেলে শ্রী উজ্জ্বল ঘোষ (২০) আজগর আলীর ছেলে ইমন মিয়া (২০) ও সিদ্দিক মিয়া’র ছেলে সাইফুল ইসলাম (২৪) পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শনিবার রাতে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে তেলিয়াপাড়া পুলিশ ফাঁড়ির এসআই রাকিবুল হাসান এর নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল মাধবপুর উপজেলার শাহজাহানপুর ইউনিয়নের 

নোয়াহাটি বাজারে অভিযান চালিয়ে ৩ কেজি ভারতীয় গাঁজা সহ উল্লেখিত ৩ মাদক চোরাকারবারিকে আটক করে। মাধবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইকবাল হোসেন। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আটককৃতদের বিরুদ্ধে মাধবপুর থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

নাটোরে মুক্তিযোদ্ধার লাশ দাফন কেন্দ্রিক অভিযোগ : আ’লীগ নেতার নির্দোষ দাবি

নাটোরে মুক্তিযোদ্ধার লাশ দাফন কেন্দ্রিক অভিযোগ : আ’লীগ নেতার নির্দোষ  দাবি



রাজশাহী ব্যুরো
নাটোর লালপুর উপজেলার ওয়ালিয়া ইউনিয়নের নান্দ রায়পুর গ্রামে মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আমান উল্লাহ্’র লাশ দাফনে ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম বাধা দিয়েছেন মর্মে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর গত ১৬ জুলাই অভিযোগ করেছেন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান আমিরুল ইসলাম বাবু। এ অভিযোগকে মিথ্যা ও ষড়যন্ত্র মূলক বলে দাবি করেছেন ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সভাপতি রফিকুল ইসলাম।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত বুধবার (১৫ জুলাই) ওয়ালিয়া ইউনিয়ন ও ১০ নং কদিমচিলান ইউনিয়নের মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আমান উল্লাহ্ মারা যান। আমান উল্লাহ’র মৃত দেহ নান্দ রায়পুর পশ্চিম পাড়া সামাজিক কবরস্থানে দাফন না করে মৃত্যুর পূর্বে ওসিয়ত অনুযায়ী পার্শ্ববর্তী নান্দ রায়পুর মধ্য পাড়া কবরস্থানে রাষ্ট্রীয়ভাবে সম্মাননার মাধ্যমে দাফন করা হয়। দাফন পরবর্তী সময়ে পশ্চিমপাড়া কবরস্থানে পিতার লাশ দাফন করতে বাধা দেন ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সভাপতি রফিকুল ইসলাম এমন অভিযোগ তুলেন আমান উল্লাহ্’র ছেলে বাবু।

আমিরুল ইসলাম বাবু জানান, আমার পিতার ওসিয়তের ব্যাপারে বলতে পারবো না। আমরা পশিচমপাড়া কবরস্থানের সদস্য, নিয়মিত চাঁদা দিয়ে আসছি। অথচ ঐ কবরস্থানে আমার পিতার মরদেহ দাফনে বাধা দেয় আ’লীগ নেতা রফিকুল, এজন্য পার্শ্ববর্তী অন্য কবরস্থানে দাফন করেছি। স্বাধীন দেশে একজন মুক্তিযোদ্ধার লাশ দাফনে বাধা প্রদান এটা সন্তান হিসেবে মানতে পারি নি এজন্য অভিযোগ করেছি। 

অভিযোগ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন দাবি করে রফিকুল ইসলাম বলেন, আমরা পারিবারিক ভাবে আওয়ামীলীগ পরিবারের সদস্য ও মুক্তিযুদ্ধের স্ব-পক্ষের চেতনায় বিশ্বাসী। কাজেই একজন মুক্তিযোদ্ধার অসম্মান হোক, সেটা কখনোই চাইবো না। আমি কবরস্থান কমিটির সভাপতি বা সেক্রেটারী নই। কমিটির সেক্রেটারী মুক্তিযোদ্ধা আমান উল্লাহ্’র ছেলে বাবু নিজে। এছাড়া আমার সাথে কবরস্থানে দাফন বিষয়ে কারো কোন কথা হয় নি। বরং অন্য কবরস্থানে দাফনের ব্যবস্থা হচ্ছে শুনে আমি, কবরস্থান কমিটির সভাপতি সহ অনেকেই আমাদের সামাজিক কবরস্থানে দাফনের জন্য বলেছি। মৃত্যুর পূর্বে তিনি ওসিয়ত করেছিলেন, এ জন্য উনাকে ঐ কবরস্থানে দাফন করেছে তারা। এরপরেও আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ কেন করছে বুঝলাম না। 

নান্দ রায়পুর পশ্চিমপাড়া কবরস্থানের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম বলেন, মুক্তিযোদ্ধা আমান উল্লাহ্ আমার সমাজের লোক। নিয়ম অনুযায়ী আমাদের কবরস্থানে উনার দাফন হওয়ার কথা। কিন্তু উনি মৃত্যুর পূর্বে ওসিয়ত করে যাওয়ার কারনে তার পরিবারের পক্ষ থেকে মধ্যপাড়া কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে। 

নান্দ রায়পুর মধ্যপাড়া কবরস্থানের প্রধান সমন্বয়ক সাহেব আলী বলেন, মৃত্যুর ২ দিন পূর্বে আমান উল্লাহ্ নিজেই আমার নিকট আমাদের কবরস্থানে দাফনের জন্য জায়গা চান। তিনি মারা গেলে তার ছেলে বাবু আমার নিকট তার বাবার ওছিয়ত অনুযায়ী কবরের জায়গা চায়। সে মোতাবেক কবরস্থান কমিটির সভাপতির সাথে কথা বলে আমাদের কবরস্থানে দাফন করা হয়। 

ওয়ালিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান বলেন, আমি জানাযায় ছিলাম। মুক্তিযোদ্ধা আমান উল্লাহ্ পশ্চিমপাড়া সমাজের লোক হলেও উনার ওছিয়ত অনুযায়ী  নান্দ রায়পুর মধ্যপাড়া কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

অভিযোগ প্রসঙ্গে লালপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার উম্মুল বানীন দ্যুতি জানান, এ সংক্রান্ত অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি সঠিকভাবে খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেবো।

সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ সুপার মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান পিপিএম বার'কে কালিগঞ্জ বাসির অভিনন্দন।

সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ সুপার মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান  পিপিএম বার'কে কালিগঞ্জ বাসির অভিনন্দন।


দাইয়ানুর রহমান মিষ্টারনুরঃসাতক্ষীরা জেলা পুলিশের অভিভাবক জনাব মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান পিপিএম(বার), পুলিশ সুপার, সাতক্ষীরা এঁর নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় জেলা পুলিশের নিরাপত্তা ডিউটির সাহায্যার্থে কালিগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ জনাব মোঃ দেলোয়ার হোসেনকে ১টি HIJET PICKUP গাড়ী হস্তান্তর করেন
কালীগঞ্জের মানুষের নিরাপত্তার স্বার্থে পিকআপ ভ্যান প্রদান করায় সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ সুপার মহোদয়কে অভিনন্দন ও শুভ কামনা জানান কালিগঞ্জবাসী।

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে করোনা আক্রান্ত হয়ে একজনের মৃত্যু

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে করোনা আক্রান্ত হয়ে একজনের মৃত্যু



কুষ্টিয়া প্রতিনিধিঃদৌলতপুরে করোনা আক্রান্ত হয়ে সুশান্ত কুমার সরকার (৬২) নামে একজনের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার দিবাগত রাত ১টার দিকে উপজেলার আল্লারদর্গা হলুদবাড়িয়া গ্রামের নিজ বাড়িতে তিনি মারা যান। সে একই এলাকার মৃত ননী গোপাল সরকারের ছেলে। শুক্রবার রাতে কুষ্টিয়া পিসিআর ল্যাব থেকে করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসার পর তিনি বাড়িতে চিকিৎসাধীন ছিলেন। শনিবার রাতে শ্বাসকষ্ট বেড়ে যাওয়ায় চিকিৎসা কেন্দ্রে নেওয়ার আগেই সুশান্ত কুমার সরকারের মৃত্যু হয়। এনিয়ে জেলায় এ পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ২৫জনে। মৃত সুশান্ত কুমার সরকার আল্লারদর্গা বাজারে মোটরসাইকেল মেকানিকস্ হিসেবে কর্মরত ছিলেন। আজ রবিবার সকালে ভেড়ামারা শ্মশান ঘাটে করোনা স্বাস্থ্য বিধি মেনে মৃত সুশান্ত কুমার সরকারের সৎকার করা হয়।

দৈনিক আজকের সাতক্ষীরা পত্রিকার সম্পাদকের মৃত্যুতে আশাশুনি রিপোর্টার্স ক্লাবের গভীর শোক

দৈনিক আজকের সাতক্ষীরা পত্রিকার সম্পাদকের মৃত্যুতে আশাশুনি রিপোর্টার্স ক্লাবের গভীর শোক




আহসান উল্লাহ বাবলু উপজেলা প্রতিনিধিঃ   করোনা উপসর্গে সাতক্ষীরা থেকে প্রকাশিত দৈনিক আজকের সাতক্ষীরা পত্রিকার সম্পাদক মহসিন হোসেন বাবলু মৃত্যু হয়েছে।রোববার (১৯ জুলাই) রাত ২ টার সময় সাতক্ষীরা শহরের রসুলপুরস্থ নিজ বাড়িতে তার মৃত্যু হয়।দৈনিক আজকের সাতক্ষীরা পত্রিকার সম্পাদক মহসিন হোসেন বাবলুর অকাল মৃত্যুতের রুহের মাগফেরাত কামনা করা সহ  গভীর শোক প্রকাশ করে শোক  সমাপ্ত সমবেদনা জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন আশাশুনি রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ বাচ্চু, সিনিয়র সহ-সভাপতি আইয়ুব হোসেন, রানা, সহ-সভাপতি রাবিদ মাহমুদ চঞ্চল, তৌফিকে কাইফু,এম এম সাহেব আলি, যুগ্মসাধারণ সম্পাদক আখতারুজ্জামান মুকুল, সাংগঠনিক সম্পাদক গাজী ফরহাদ, অর্থ সম্পাদক আনিসুর রহমান বাবলা, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক.বিএম আলাউদ্দিন  ক্রীড়া সম্পাদক আলমিন ছোট, গাউছুল আজম  প্রমুখ।

আশাশুনির বাইপাস সড়কে স্ট্রিট ল্যাম্প স্থাপন করেন উপজেলা চেয়ারম্যান এবিএম মোস্তাকিম

আশাশুনির বাইপাস সড়কে স্ট্রিট ল্যাম্প স্থাপন করেন উপজেলা চেয়ারম্যান এবিএম মোস্তাকিম




আহসান উল্লাহ বাবলু উপজেলা প্রতিনিধি:
আশাশুনির নবনির্মিত জনবহুলপাইপাস সড়কে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ৪টি স্ট্রিট ল্যাম্প স্থাপন করা হয়েছে।রবিবার সকালে স্ট্রিট ল্যাম্প স্থাপন উদ্বোধন করেন উপজেলা পরিষদচেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এ বি এম মোস্তাকিম। সোলার স্ট্রিট ল্যাম্প স্থাপন কালে এবিএম মোস্তাকিম বলেন-আশাশুনি উপজেলাবাসী বহু দিনেরস্বপ্ন মরিচ্চাপ ব্রীজ টু মানিকখালী ব্রিজের বাইপাস সড়কে সোলার স্ট্রিট ল্যাম্প স্থাপনের মাধ্যমে ব্রীজ ও তার সংলগ্ন বাইপাস সড়ক আলোকিত হয়েউঠবে। আজ সেটি বাস্তবে পরিনত হয়েছে। মুজিববর্ষের অঙ্গিকার বাস্তবায়নের লক্ষ্যে আমি আশাশুনি উপজেলার প্রতিটি জনগুরুত্বপূর্ণ স্থানে সোলার
স্ট্রিট ল্যাম্প স্থাপন করে আসছি এবং ভবিষ্যতেও এ ধারাবাহিকতা অব্যাহতথাকবে। এসময় উপস্থিত ছিলেন-আশাশুনি উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) শাহিন সুলতানা, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সোহাগ খান, সদর ইউপি চেয়ারম্যান
স,ম সেলিম রেজা মিলন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সামাদ বাচ্চু, প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি জি,এম মুজিবুর রহমান, প্রেসক্লাবের সভাপতি জি,এল আল ফারুক, সাধারণ সম্পাদক সমীর রায়, সাংবাদিক
আহসান হাবিব, এম এম সাহেব আলী,আহসান  উল্লাহ বাবলু মইনুল ইসলাম, প্রমুখ।

নওগাঁর আত্রাইয়ে জমে উঠেছে নৌকার হাট

নওগাঁর আত্রাইয়ে জমে উঠেছে নৌকার হাট


 

মোঃ ফিরোজ হোসাইন 
রাজশাহী ব্যুরো

নওগাঁর আত্রাইয়ে বিস্তীর্ণ এলাকা বন‌্যাকবলিত হয়েছে। পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন হাজার হাজার মানুষ। সড়ক যোগাযোগ ব‌্যাহত হওয়ায় নৌকার চাহিদা বেড়েছে। বিলে খালে মাছ ধরার জন্যও নৌকা কিনছেন অনেকে। তাই উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় জমে উঠেছে নৌকার হাট।
কয়েক সপ্তাহ ধরে লাগাতার বর্ষণ এবং উজান থেকে আসা পানির ঢলে আত্রাই নদী ফুঁসে উঠেছে। আত্রাই উপজেলার তেঁতুলিয়া ও মধুগুড়নই গ্রামে বেড়ি বাঁধ ভেঙেছে। গত বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার আত্রাই- বান্দাইখাড়া পাকা সড়কের জাতআমরুল এলাকায় এবং আত্রাই-সিংড়া পাকা সড়কের বৈঠাখালী ও পাঁচুপুরে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ভেঙে কালিকাপুর ইউনিয়নের গন্ডগোহালী, ধনেশ্বর, বাজেধনেশ্বর ও গোয়ালবাড়িয়া, আহসানগঞ্জ ইউনিয়নের সিংসাড়া, দীঘা, দমদমা ও ব্রজপুর, পাঁচুপুর ইউনিয়নের মধুগুড়নই, পাঁচুপুর, বাঁকিওলমা ও কাঁন্দওলমা, বিশা ইউনিয়নের বৈঠাখালী, পারমোহনঘোষ, বিশা ও থলওলমাসহ অর্ধশতাধিক গ্রামের লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। অনেকে পরিবার নিয়ে উঁচু বাঁধের ওপর আশ্রয় নিয়েছেন। এসব এলাকায় চলাচলের জন‌্য নৌকার বিকল্প নেই। মাঠগুলো পানিতে ডুবে যাওয়ায় কৃষকদের এখন অখণ্ড অবসর। তারা এ সময়ে উন্মুক্ত জলাশয়ে মাছ শিকারের জন্য নৌকা কিনছেন। এজন্য বিভিন্ন হাট-বাজারে বেড়েছে নৌকার বেচাকেনা।
এদিকে, নৌকা তৈরি করে জীবিকা নির্বাহ করছেন অনেক কাঠমিস্ত্রি। যেসব মিস্ত্রি শুকনো মৌসুমে কাজের অভাবে মানবেতর জীবনযাপন করেছেন, তাদের এখন দম ফেলার ফুরসত নেই। যথেষ্ট আয় হওয়ায় হাসি ফুটেছে তাদের মুখে।সমসপাড়া হাটে নৌকা বিক্রি করতে আসা উপজেলার পারমহোনঘোষ গ্রামের আব্দুল লতিফ, ফেকু, আব্দুল মজিদ বলেন, ‘আমরা কৃষক। বর্ষায় ফসলের মাঠ ডুবে যাওয়ায় এখন আমরা নৌকার ব‌্যবসা করছি। শুক্রবার ও সোমবার সমসপাড়া হাটে নৌকা বিক্রি করি। শুধু আত্রাই নয়, পার্শ্ববর্তী রাণীনগর, নাটোরের সিংড়া এবং চলনবিল এলাকার লোকজনও এ হাটে নৌকা কিনতে আসেন।মহাদিঘী গ্রামের মোঃওমর ফারুক বলেন, ‘বর্ষা মৌসুমে মাছ শিকার ও চলাচলের জন্য নৌকা কিনতে এসেছি। এ সময় নৌকাই আমাদের একমাত্র বাহন।

দৌলতখান ও বোরহানউদ্দীন থেকে মাত্র ৩ ঘন্টায় রূগী পৌঁছাবে ঢাকায়

দৌলতখান ও বোরহানউদ্দীন থেকে মাত্র ৩ ঘন্টায় রূগী পৌঁছাবে ঢাকায়

মোঃ আওলাদ হোসেন, জেলা প্রতিনিধি ভোলা (দৌলতখান)

ভেলার দৌলতখান ও বোরহানউদ্দিন উপজেলাটি নদী উপকূলীয় এলাকা হওয়ার কারনে মুমূর্ষু রুগী ও নিদির্ষ্ট সময় ছাড়া উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা নেয়া সম্ভব হতো না। বহু ভোগান্তিতে পরতে হতে রুগীদের। 
এখন দৌলতখান ও বোরহানউদ্দিন উপজেলা থেকে মাত্র তিন ঘন্টায় রোগী নিয়ে ঢাকায় আসবে স্পিড বোট। স্থানীয় সংসদ সদস্য আলী আজম মুকুলের উদ্যোগে এমন অত্যাধুনিক দুটি স্পিড বোটসেবা চালু করা হয়েছে ভোলা-২ আসনে। যার সুবিধা পাবে সংসদীয় আসনটির ৫ লাখের বেশি মানুষ।
সংসদীয় আসনের গুরুত্বপূর্ণ কাজ করতে দ্রুত যাতায়াত, জরুরি রোগীদের চিকিৎসা সেবা দিতে ঢাকায় নিয়ে আসতে এ সেবা কার্যক্রম চালু করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সংসদ সদস্য আলী আজম মুকুল।

সংসদ সদস্য বলেন, ‘কাঙ্খিত কিছু প্রাপ্তির আনন্দই অনেক। করোনা ভাইরাসের এই স্থবির পরিবেশের মধ্যেও চেয়েছি এলাকার কাজগুলো যেন এগিয়ে যায়। প্রতিদিনই চাই নতুন কিছু যোগ হোক আমার এলাকায়। এই ধারায় এবার যোগ করেছি অত্যাধুনিক মানের দুটি স্পিড বোট। যা মাত্র ৩ ঘণ্টায় ঢাকা থেকে ভোলা পৌঁছাবে।’
তিনি আরও বলেন, ‘আমার নির্বাচনী এলাকার দৌলতখান ও বোরহানউদ্দিন উপজেলায় জনগুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে এগুলো বিশেষ ভূমিকা পালন করা ছাড়াও অত্যন্ত জরুরি রোগী মাত্র ৩ ঘণ্টার মধ্যে ঢাকায় নেয়া যাবে। আমি আমার নির্বাচনী এলাকায় বিশ্ব মানবতার মা, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানিয়ে কৃতজ্ঞাতা প্রকাশ করছি।‘
এছাড়া করোনাকালের শুরু থেকে নিজ সংসদীয় আসনের জনগণের জন্য মানবিক ভূমিকায় দেখা গেছে এই সাংসদকে। নির্বাচনী এলাকার প্রায় ৪০ হাজারের বেশি মানুষের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেছেন আলী আজম মুকুল। কখনো খোলা মাঠে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে, কখনো কর্মহীন মানুষের দুয়ারে পৌঁছে দিচ্ছেন খাদ্য সহায়তা। প্রয়োজনে দুস্থদের চিকিৎসা নিশ্চিতেও কাজ করেছেন এই দুর্যোগের সময়ে।
করোনা শনাক্তে দৌলতখান ও বোরহানউদ্দিন উপজেলা হাসপাতাল চত্বরে বসানো হয়েছে নমুনা সংগ্রহে সেফটি বুথ। পাশাপাশি প্রতিটি ইউনিয়নে প্রকৃত অভাবী পরিবারের তালিকা করে সাংসদ মুকুলের ব্যক্তিগত তহবিল থেকে নিয়মিত খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হচ্ছে।

বিজেডিও'র কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হলেন সাংবাদিক মো.আবির ইসলাম

বিজেডিও'র কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হলেন সাংবাদিক মো.আবির ইসলাম




ডা.এম.এ.মান্নান,টাংগাইল জেলা প্রতিনিধি:নবগঠিত বাংলাদেশ সাংবাদিক উন্নয়ন সংস্থা কেন্দ্রীয় কমিটি প্রকাশ ও সাংগঠনিক কার্যক্রম শুরু উপলক্ষে সকল সদস্যদের অভিনন্দন জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোঃআবির ইসলাম   এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, ডিজিটাল যুগে সাংবাদিকতা দক্ষতার বিকাশের জন্য যাত্রা শুরু করেছে একটি নতুন মিডিয়া ফোরাম, বাংলাদেশ সাংবাদিক উন্নয়ন সংস্থা (বিজেডিও)। বিজেডিও ২০২০-২১ সালের জন্য নির্বাচিত সভাপতি সাকিব সনেট ও সাধারণ সম্পাদক আবির ইসলাম নির্বাহী কমিটি ঘোষণা করেছে,কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি বলেছেন, নতুন মিডিয়া ফোরামটি আধুনিক সরঞ্জামাদি ব্যবহার করে সংবাদ ব্যবস্থাপনায় ভবিষ্যতের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সাংবাদিকতায় দক্ষতা বিকাশের জন্য কাজ করবে।সাংবাদিকতা একটি মহান পেশা, এ পেশার প্রতি দুর্বলতা রয়েছে অধিকাংশ সচেতন মানুষের। কিন্তু সাংবাদিকতা পেশায় যেমন রয়েছে ঝুঁকি, তেমন রয়েছে সম্মান ও রোমাঞ্চ।এবং কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক বলেছেন, সংবাদ কর্মীদের অধিকার রক্ষায় আমরা বাংলাদেশ সাংবাদিক উন্নয়ন সংস্থা ( bjdo ) সন্দেহ নেই যে সাংবাদিকতা হচ্ছে সবচেয়ে সুন্দর ও সম্মানজনক পেশাগুলোর মধ্যে অন্যতম,এর পেছনে কারণ হিসেবে বলা যায় – যারা সাংবাদিকতার সাথে সম্পৃক্ত, তারা সবার সামনে তথ্য ও সত্যকে তুলে ধরেন। এই তুলে ধরার কাজটা মোটেও সহজ নয়। অবশ্যই তা কঠিন ও ঝুঁকিপূর্ণ।সংবাদ কর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি আরও বলেন, আপনাদের কল্যানে অর্থনৈতিক তহবিল গঠন করা হবে। যা থেকে ব্যয় করা হবে চাকরীচ্যুত, সুবিধা বঞ্চিত, অবহেলিত, নির্যাতিত সংবাদকর্মীদের আইনি সহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ প্রয়োজনে। সবশেষে তিনি দৃঢ়ভাবে ব্যক্ত করেন, সর্বোপরি আপনার, আমার, আমাদের আন্তরিক সঙ্ঘবদ্ধ প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ সাংবাদিক উন্নয়ন সংস্থার মাধ্যমে সংবাদকর্মীদের উন্নয়নে কাজ করে যাবো ইনশাহ্ আল্লাহ্

ফেনী ও নোয়াখালী সড়কটির বেহালদশা দেখার যেন কেউ নেই !!!

ফেনী ও নোয়াখালী সড়কটির বেহালদশা দেখার  যেন কেউ নেই !!!



 মোঃরুবেল হোসাঈন শুভ, নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ ফেনীর মহিপাল ও নোয়াখালীর বাসস্ট্যান্ড এলাকার জিরো পয়েন্ট থেকে  আনসার ক্যাম্প পযর্ন্ত মূল সড়কটি ময়লার ভাগাড়ে পরিণত হয়েছে । সড়কের অনেকটা অংশ জুড়ে ফল ব্যবসায়ীদের পঁচা ফলসহ বিভিন্ন আবর্জনা স্তপ করে রাখেন।এসব আবর্জনা দীর্ঘদিন পড়ে থাকায় উৎকট দূর্গন্ধ সৃষ্টি হয়।এতে করে জনবহুল এই সড়কে চলাচলকারী যাত্রী ও পথচারী সহ আশেপাশের লোকজনের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়।সড়কটির পাশে রয়েছে গণ পূর্ত অধিদপ্তরের উপ- বিভাগীয় প্রকৌশলী কার্যালয়,বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশন  (বিএডিসি) কার্যালয়,ট্রমা সেন্টার যক্ষ্মা নিরাময় কেন্দ্র,আনসার ক্যাম্প এবং সড়কের আরেক পাশে ম্যাজিষ্ট্রেট কলোনীসহ বিভিন্ন সরকারী ও বেসরকারী গুরুত্বপূর্ণ দপ্তর ও স্থাপনা।এছাড়াও প্রতিনিয়ত বৃহত্তম নোয়াখালী , লক্ষীপুরফেনীর দাগনভূর্ঞা,ভোলা,বরগুনাসহ দক্ষিন পূর্বাঞ্চলের প্রায় ২১ টি জেলার বিভিন্ন শ্রেণীর লোকজন যাতায়াত করে থাকেন।

কয়রায় নবাগত ইউএনও কে ফুলেল শুভেচ্ছা জানালেন কয়রা ব্লাড ব্যাংক

কয়রায় নবাগত ইউএনও কে ফুলেল শুভেচ্ছা জানালেন কয়রা ব্লাড ব্যাংক




কয়রা প্রতিনিধি:-কয়রা উপজেলার নবাগত উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) অনিমেষ বিশ্বাসকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়েছেন অনলাইন ভিত্তিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন কয়রা ব্লাড ব্যাংক।

রবিবার (১৯ জুলাই) সকাল ১০ টায়  কয়রা ব্লাড ব্যাংকের সদস্যরা  উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কক্ষে এ শুভেচ্ছা জানান।

অনলাইন ভিত্তিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন কয়রা ব্লাড ব্যাংকের সংগঠনের সদস্যদের কার্যক্রমের প্রশংসা করে কয়রা উপজেলার সার্বিক উন্নয়নে সহযোগীতা কামনা করে সদ্য যোগদানকৃত নির্বাহী কর্মকর্তা অনিমেষ বিশ্বাস বলেন, রক্তদানের আসল শক্তিই হচ্ছে মানুষের স্বতঃস্ফূর্ততা৷যিনি রক্ত দিলেন, তাঁর সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি অন্যের জীবন বাঁচানোর গৌরব ও সামাজিক দায়িত্ব পালনের তৃপ্তি৷ কারো প্রয়োজনে নিজের রক্ত দেওয়ার আশ্বাস প্রদান করে   তিনি সকলকে অন্যের জীবন বাঁচাতে রক্ত দান করতে আহবান জানান।এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সহকরী কমিশনার ভূমি নূরে-ই আলম সিদ্দিকি, ব্লাড ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা সোহাগ বাবু, কয়রা ব্লাড ব্যাংকের সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান, সহ -সভাপতি সাংবাদিক ওবায়দুল কবির সম্রাট, সাবিরুল ইসলাম ডালিম, সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুল ইসলাম, সাংস্কৃতিক সম্পাদক -ইমরান হোসেন,কপোতাক্ষ কলেজ শাখার সভাপতি-নাইমুল রনি, প্রচার সম্পাদক -ইমদাদুল হক,দপ্তর সম্পাদক-হাসানুল কবীর,সদস্য ইকবল হোসেন, খালিদুজ্জামান রিপন, শেখ আবু ইসহাক,ওহিদুল,রউফ শেখসহ সংগঠনের  সদস্যরা  উপস্থিত ছিলেন।

বেশী বেশী গাছ লাগিয়ে এ দেশকে সবুজ সবুজে ভরে তুলতে হবে

বেশী বেশী গাছ লাগিয়ে এ দেশকে সবুজ সবুজে ভরে তুলতে হবে






মামুনুর রশিদ দিনাজপুর প্রতিনিধি  ঃ বঙ্গবন্ধু একটি নাম-একটি ইতিহাস। তিনি জন্ম না হলে আমরা এদেশ স্বাধীন পেতাম কিনা সন্দেহ থেকে যায়। তার জন্ম না হলে আমরা আজ এখানে দাঁড়িয়ে কথা বলতে পারতাম না। তিনি আমাদের মহান নেতা, তিনি আমাদের জাতির পিতা। এটিকে যারা অস্বীকার করবে, আমি বলবো-তাদের আসলে দেশে থাকারই দরকার নাই। পিতাকে অস্বীকার করে যেমন নিজের পরিবারে থাকা যায় না, তেমনি জাতির পিতাকে অস্বীকার করে দেশেও থাকা যায় না। তাঁর জন্মশতবার্ষিকীতে আমাদের প্রধানমন্ত্রী যে গাছ লাগানোর কর্মসূচী দিয়েছেন, তা সত্যিই প্রশংসার দাবীদার। কেননা, একটি গাছ ধীরে ধীরে বিশাল বৃক্ষ হিসেবে রূপ নেয়। এটির সুফল আমরা নাও পেতে পারি। কিন্তু পরবর্তীতে কেউ না কেউ এর সুফল পাবে। তাইতো আমাদের ধর্মীয় দৃষ্টিতেও গাছ লাগনোকে সদকায়ে জারিয়া হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। আজ বঙ্গবন্ধু নেই, আমরা তার উত্তরসূরী হিসেবে যে গাছ লাগাবো, তার ফল কেউ তো পাবেই। আর আমরা এবং বঙ্গবন্ধুও এর জন্য মহান আল্লাহ পাকের কাছ থেকে অনেক সওয়াব লাভ করবো। তাই আমাদেরকে এ সময় বেশী বেশী গাছ লাগিয়ে এ দেশকে সবুজ সবুজে ভরে তুলতে হবে। তবেই বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীসহ আমাদের সমস্ত কর্মসূচী স্বার্থক ও সফল হবে।
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী মুজিব বর্ষ উপলক্ষে সদর উপজেলার কাশিপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠ প্রাঙ্গনে বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলা দিনাজপুর জেলা শাখার আয়োজনে শিশু-কিশোরদের মাঝে গাছের চারা বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে দিনাজপুর জেলা প্রশাসক মাহমুদুল আলম উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। কাশিপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা লোকমান হাকিমের সভাপতিত্বে ও বঙ্গবন্ধু শিশু-কিশোর মেলার সাংস্কৃতিক সম্পাদক প্রদীপ ঘোষের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুজন সরকার। আরো বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আলতাফুজ্জামান মিতা, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক ফারুকুজ্জামান চৌধুরী মাইকেল, বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলা কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র সাধারণ সম্পাদক ও মুখপাত্র মনিরুজ্জামান জুয়েল, জেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক তৈয়ব উদ্দীন চৌধুরী, জেলা শিশু কিশোর মেলার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শাহজাহান নভেল, সহ-সভাপতি অধ্যাপক আবদুস সবুর ও সহকারী শিক্ষা অফিসার আব্দুল বারী। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন, নুর আলম, জয়ন্ত ঘোষ, আবুল কালাম প্রমুখ। অনুষ্ঠানের শেষে ১৫ আগষ্ট কালরাত্রিতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ নিহত সকল শহীদ এবং করোনায় আক্রান্ত হয়ে নিহতদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে বিশেষ মুনাজাত করা হয়। মুনাজাত পরিচালনা করেন কাশিপুর স্কুলের সহকারি শিক্ষক জাহাঙ্গীর আলম। পরে স্কুল শিক্ষার্থীদের মাঝে রোপনের জন্য গাছের চারা বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠান শেষে স্কুল প্রাঙ্গণে বেশ কয়েকটি ফলজ ও ওষধি গাছের চারা রোপন করা হয়।

নবীনগরে নদী দূষণ, ভরাট, দখলের বিরুদ্ধে মানব বন্ধন করছেন স্থানীয়রা

নবীনগরে নদী দূষণ, ভরাট, দখলের বিরুদ্ধে মানব বন্ধন করছেন স্থানীয়রা


এস.এম অলিউল্লাহ ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

ব্রাহ্মনবাড়িয়ার নবীনগরে পৌরসভার বাসা বাড়ির ও বাজারের ময়লা-আর্বজনা ফেলে তিতাস ও বুড়ী নদী দূষণ, দখল, ভরাটের বিরুদ্ধে সামাজিক দূরত্ব ও সরকারি নির্দেশনা মেনে " নদী বাঁচাও,  নবীনগর বাঁচাও" স্লোগানকে সামনে রেখে ( ১৯/০৭/২০)  নবীনগরের সর্বস্তরের জনগণের উদ্যোগে মানব বন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় উপস্থিত ব্যক্তি বর্গ তিতাস ও বুড়ী নদী খননে অনিয়ম, দুর্নীতি, অবহেলা ও পৌরসভার বাসা-বাড়ির ময়লা - আর্বজনা ফেলে দূষন, দখল ও ভরাটের বিরুদ্ধে তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করে বক্তব্য প্রদান করেন। সরে জমিনে গিয়ে দেখা যায় পৌরসভার বাসাবাড়ি, দোকান ও বাজারের ময়লা - আর্বজনা ফেলে নদীর তীরে স্তুপ করে ফেলা রাখা হয়েেছ। এতে পানির তোড়ে ভেসে ফসলি জমি ও নদীতে ছড়িয়ে পড়ছে ময়লা - আর্বজনার স্তুপ।  এতে দূষন ও ভরাট হচ্ছে তিতাস ও বুড়ী নদী। মানব বন্ধনে অংশ গ্রহনকারি আব্দুল বাতেন সুমন জানান, নবীনগরে পৌরসভার জন্য নির্দিষ্ট ডাম্পিং স্টেশন থাকা সত্ত্বেও কেন নদীতে ফেলা হচ্ছে?  দ্রুত এ বিষয়ে মাননীয় এমপি এবাদুল করিম বুলবুল সাহেব ও মাননীয় মেয়র এড. শিব শংকর দাসের দৃষ্টি কামনা করছি। উৎপল গুহ রনি জানান, দীর্ঘদিন যাবৎ তিতাস ও বুড়ী নদী খননের নামে প্রহসন চলছে। কচ্ছপ গতিতে চলা ড্রেজিংয়ে কোন উপকার পাচ্ছে না নবীনগরবাসী। সাংবাদিক ঐক্য পরিষদের সভাপতি বলেন, আমরা নবীনগর বাসী দ্রুত এই সমস্যার সমাধান চান। ফেসবুক স্যাস্টাস ফোরামের সাধারন সম্পাদক ওবায়দুর রহমান বাদল বলেন, আমাদের নবীনগরবাসীর এখন একটাই দাবি নদী বাঁচান, নবীনগরের সৌন্দর্য বাঁচান।দ্রুত নদী তীরবর্তী অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ করুন। স্থানীয় কৃষক মিরাজ জানান,  ময়লা- আর্বজনা ছড়িয়ে ফসলি জমিতে গিয়ে পড়ছে।  এতে ফসলি জমি ময়লা - আর্বজনার কারনে ফসল করা কষ্টকর হবে। মানব বন্ধনে এছাড়াওকৃষক, শিক্ষক, শ্রমজীবি সহ সর্ব সাধারণ জনগন একাত্মতা ঘোষণা করে সাধুবাদ জানিয়েছেন।

মণিরামপুরে চাঞ্চল্যকর রফি হত্যাকান্ডে ৫ জন আটক

মণিরামপুরে চাঞ্চল্যকর রফি হত্যাকান্ডে ৫ জন আটক





মোরশেদ আলম যশোর ভ্রাম্যমান প্রতিনিধিঃ  
যশোর মণিরামপুরে চাঞ্চল্যকর সাবেক চরমপন্থী নেতা রফিকুল ইসলাম রফি (৫০) হত্যাকান্ডের ঘটনায় ৫ চরমপন্থী সদস্য আটকের মধ্যদিয়ে হত্যাকান্ডের ক্লু-উদঘাটন হয়েছে বলে পুলিশের দাবী। আটক অভিযানের সময় একটি দোনালা বন্দুক, দুই রাউন্ড কার্তুজ ও খুনিদের ব্যবহৃত ৫টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয় বলে জানা যায়।শনিবার এক ব্রিফিংএ এ তথ্য নিশ্চিত করেন যশোর পুলিশ সুপার মুহাম্মদ আশরাফ হোসেন। 
পুলিশ ব্রিফিংএ দাবী করা হয়, গত শুক্রবার যশোর ডিবি, অভয়নগর ও মণিরামপুর থানা পুলিশের যৌথ অভিযান চালিয়ে মণিরামপুর ও অভয়নগর এলাকা থেকে সাবেক চরমপন্থী নেতা রফিকুল ইসলাম রফি হত্যাকান্ডে জড়িত ৫ জনকে আটক করা হয়। আটককৃতরা হেলাল ভূঁইয়া (২০), মো. সেলিম (২২), হাসান আলী, (৩৫), সমীরণ পাঁড়ে (৫৪) ও তাপস মোড়ল (৩৮)। তারা নিউ পূর্ববাংলার কমিউনিষ্ট পার্টির সদস্য এবং তারা পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে রফিকুল ইসলাম হত্যাকান্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। নিহত রফিকুল ইসলাম রফি এক সময় একই চরমপন্থী দলের সদস্য ছিল। কৌশলে তাকে ঘটনাস্থলে ডেকে নিয়ে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়। পুলিশ সুপার মুহাম্মদ আশরাফ হোসেন জানান, সাবেক চরমপন্থী নেতা রফিকুল ইসলাম হত্যা মামলা চাঞ্চল্যকর ও লোমহর্ষক হওয়ায় যৌথ অভিযান পরিচালনা করে গ্রেফতারকৃত ৫ জনকে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি গ্রহণের জন্য আদালতে হাজির করা হবে। 
উল্লেখ্য, উপজেলার মধুপুর এলাকার মৃত আসমত বিশ্বাসের পুত্র রফিকুল ইসলাম রফি (৫০) কে গত ৯ জুলাই দুপুর পৌনে ২টার দিকে উপজেলার আলোচিত ক্রাইম পয়েন্ট কুচলিয়া-দিগঙ্গা মাধ্যমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন মণিরামপুর-নওয়াপাড়া সড়কে গুলি করে ও গলাকেটে হত্যা করে দূর্বৃত্তরা। প্রকাশ্য দিবালোকে সাবেক চরমপন্থী নেতা হত্যাকান্ডের পর এলাকায় অজানা আতংক ছড়িয়ে পড়ে। এর পরপরই হত্যাকান্ডের ক্লু উদঘাটনের জন্য মণিরামপুর থানা পুলিশসহ জেলা পুলিশের বিভিন্ন গোয়েন্দা শাখা মাঠে নামে। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী শিরিনা আক্তার বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা খুনিদের বিরুদ্ধে মণিরামপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। চাঞ্চল্যকর এ হত্যা মামলার তদন্তভার দেয়া হয় ওসি (তদন্ত) শিকদার মতিয়ার রহমানের উপর। হত্যাকান্ডের পর নিহতের পরিবারসহ কয়েকটি সূত্র দাবী করেন, চরমপন্থী দল ছেড়ে রফিকুল ইসলাম রফি স্বাভাবিক জীবন-যাপনে ফিরে আসার অংশ হিসেবে ভাড়ায় ইজিবাইক চালাতেন।  

জাতীয় সাংবাদিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন তারাকান্দা উপজেলা ১১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন

জাতীয় সাংবাদিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন তারাকান্দা উপজেলা ১১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন

 

স্টাফ রিপোর্টার :  সাংবাদিকদের প্রাণের সংগঠন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার অনুমোদিত গভঃ রেজিঃ নং- ৯১৬৮ জাতীয় সাংবাদিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন (জেএসকেএফ) এর ময়মনসিংহ জেলার তারাকান্দা উপজেলা শাখা কমিটি গঠিত হয়েছে । গত ১৫ জুলাই বুধবার জাতীয় সাংবাদিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন'র সম্মানিত চেয়ারম্যান মোঃ সাইফুল ইসলাম ও মহাসচিব এম এ আবির সামাজিক দূরত্বকে প্রধান্য প্রদান করেন ফেসবুকের মাধ্যমে অনলাইন থেকে ময়মনসিংহ জেলার তারাকান্দা উপজেলায় ১১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ঘোষণা করেন ।

১৫ জুলাই বুধবার ২ টার টার দিকে জাতীয় সাংবাদিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন'র মহাসচিব এম এ আবির, প্রথমেই বাবুল চন্দ্র সূত্রধর কে সভাপতি এবং আর.জে মিজানুর রহমান ইমন কে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করে ময়মনসিংহ জেলার তারাকান্দা উপজেলায় ১১ সদস্য কমিটি ঘোষণা প্রদান করেন ।

 এ ছাড়া ১১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটিতে রয়েছেন সহ-সভাপতি, মোঃ ফজলে এলাহী ঢালি, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক, মোঃ হান্নান মিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক, মোঃ হোসেন আলী, প্রচার সম্পাদক, মোঃ এমদাদুল হক, আইন বিষয়ক সম্পাদক, মোঃ মফিজ উদ্দিন তালুকদার, অর্থ ও দপ্তর সম্পাদক, মোঃ আজাদ মিয়া, আইসিটি বিষয়ক সম্পাদক, আমিরুল ইসলাম, সম্মানিত সদস্য, মোঃসাইদুল ইসলাম, আনিছুর রহমান আনিছ ।

 জাতীয় সাংবাদিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন'র এর পক্ষ থেকে করোনায় মৃত্যুবরণকারী শ্রদ্ধেয় শিক্ষক, মুক্তিযোদ্ধা, ডাক্তার, সকল সাংবাদিক পুলিশ সহ শহীদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করা হয় ।

জাতির ৪র্থ স্তম্ভে থাকা সাংবাদিকের প্রতি বিভিন্ন দাবী কল্যাণ সাধন ও অধিকার আদায়ের সংগঠন হিসেবে পরিচিত ও সেবা প্রদানের লক্ষে সকল সাংবাদিকদের একত্রে কাজ করার আহ্বান জানানো হয় । 
ময়মনসিংহ জেলার তারাকান্দা উপজেলার ১১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষণার পর নির্বাচিত সভাপতি, বাবুল চন্দ্র সরকার ও সাধারণ সম্পাদক, আর.জে মিজানুর রহমান ইমন জাতীয় সাংবাদিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন'র প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এবং সকল সাংবাদিকদের সহযোগিতার ক্ষেত্রে নিজেদের পাশে রাখার মনোভাব ব্যাক্ত  করেন এবং সেই সাথে আরো কৃতজ্ঞা প্রকাশ করেন জাতীয় সাংবাদিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন ময়মনসিংহ বিভাগীয়  আহব্বায়ক মোঃ রবিউল বাশার সাদ্দাম এর প্রতি।

খিদমাহ্ হোম সার্ভিস মানিকগঞ্জ এর শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠিত হলো

খিদমাহ্ হোম সার্ভিস মানিকগঞ্জ এর শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠিত হলো


আব্দুর রাজ্জাক, হরিরামপুর (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ
উক্ত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মানিকগঞ্জের বিশিষ্ট ব্যবসায়ি, সমাজ সেবক, মানিকগঞ্জ উলামা মাশায়েখ পরিষদের সম্মানিত মহাসচিব আলহাজ্ব মোঃ বশির রেজা, প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মানিকগঞ্জ ইসলামিয়া কামিল মাদ্রাসার হেড মুহাদ্দিস মাওলানা শেখ মোঃ সালাহ উদ্দিন সাহেব বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মানিকগঞ্জ ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মাস্টার ট্রেইনার মাওলানা আশরাফুল আলম সাহেব, ঢাকা জজ কোর্টের বিজ্ঞ আইনজীবি তাওহিদুল ইসলাম তুহিন, বিশিষ্ট ব্যবসায়ি ও সমাজসেবক আলহাজ্ব মোঃ শরিফুল ইসলাম, মানিকগঞ্জ সদর উপজেলা জামে মসজিদের ইমাম ও খতিব হাঃ মাওঃ কবির আহমাদ

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আলহাজ্ব মোঃ বশির রেজা এ উদ্যোগের প্রশংসা করে বলেন, খিদমাহ্ হোম সার্ভিস মানিকগঞ্জ একটি যুগোপযোগী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে, আমি মনে করি তারা অতিদ্রুত ক্রেতাদের মানসম্মত সেবা দিয়ে মানিকগঞ্জে সাড়া ফেলতে সক্ষম হবে, তিনি তার বক্তব্যে নিজেও নিয়মিত খিদমাহ্ হোম সার্ভিস থেকে বাজার করার ইচ্ছা পোষন করেন এবং সকলকে বাজার করার জন্য উৎসাহ প্রদান করেন। প্রধান আলোচক মাওলানা শেখ মোঃ সালাহ উদ্দিন সাহেব বলেন আলেমদের সমাজের সর্বস্তরে ভূমিকা রাখা এখন সময়ের দাবি। তিনি আরো বলেন, সমাজের ভালো মানুষ, সৎ মানুষ, আলেম শ্রেণিরা যদি ব্যবসায় আসে তাহলে সাধারণ মানুষ ধোকা ও প্রতারণার শিকার হবেনা। এছাড়াও বক্তব্য রাখেন বিশেষ অতিথি তাওহিদুল ইসলাম তুহিন, আলহাজ্ব মোঃ শরিফুল ইসলাম, মাওলানা আশরাফুল আলম, হাঃ মাওঃ কবির আহমাদ 

খিদমাহ্ হোম সার্ভিসের পরিচালক হাঃ মাওঃ আশিকুল ইসলাম ছানোয়ার তার বক্তব্যে বলেন কুরআনুল কারিমে এরশাদ হচ্ছে, আল্লাহ ব্যবসাকে হালাল করেছেন এবং সুদকে হারাম করেছেন, হাদিসে রসুল সাঃ বলেন রিজিকের ৯০% রয়েছে ব্যবসার মধ্যে আর ১০% রয়েছে অন্যান্য পেশায়, অসংখ্য নবী রাসুলরা ছিলেন ব্যবসায়ী এবং অনেক সাহাবী কেরাম তাদের জীবিকা অর্জনের প্রধান মাধ্যম হিসেবে ব্যবসাকে বেছে নিয়েছিলেন। মূলত কুরআনের বানী রাসুলের হাদিস এবং সাহাবীদের জীবন চরিত্র থেকে অনুপ্রাণিত হয়েই ব্যবসায়িক লাইনে যাত্রা শুরু করার ইচ্ছা পোষন করেছি। ইনশাআল্লাহ আপনাদের সহযোগিতা থাকলে আমাদের সফলতা অর্জন করা সহজ হবে।

অনুষ্ঠানে আরোও বক্তব্য রাখেন মানিকগঞ্জ দারুল আজহার মডেল মাদরাসার সম্মানিত প্রিন্সিপাল মাওলানা শেখ মাহবুবুর রহমান, ও সিকিউর আইটি স্যুলেশনের মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি হাঃ মাওঃ আনিসুর রহমান আনাস সহ আরো অনেকে।

বক্তব্য শেষে খিদমাহ্ হোম সার্ভিসের সফলতা কামনা করা দোয়া ও মোনাজাতের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষনা করা হয়।

প্রবাসী বিএনপি পরিবার ওয়ার্ল্ড অনলাইন কেন্দ্রীয় কমিটি গঠিত

প্রবাসী বিএনপি পরিবার ওয়ার্ল্ড অনলাইন কেন্দ্রীয় কমিটি গঠিত


মিরসরাই প্রতিনিধি

বিভিন্ন দেশে বসবাসরত বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির নেতৃবৃন্দকে নিয়ে ' প্রবাসী বিএনপি পরিবার ও ওয়ার্ল্ড অনলাইন কমিটি গঠন করা হয়েছে। সংগঠনের উপদেষ্টা বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন ৭১ সদস্য বিশিষ্ট এই কমিটির অনুমোদন দিয়েছেন। এছাড়া উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্যরা হলেন ডা. মাহিদুর রহমান মাহিদ, ডা. নিলুফা চৌধুরী মনি, শাহ জালাল সিকদার সাগর, আহমেদ আলী মুকিন, শহিদুল ইসলাম ভুঁইয়া, জলতাজুল ইসলাম মনির।

সংগঠনের সভাপতি হলেন শাহজালাল সাজু ( সৌদী আরব), সিনিয়র সহ-সভাপতি আবু সুফিয়ান (কাতার), মো. বাবুল হোসেন (সৌদিআরব), আহমেদ সালেহ (আমেরিকা), মো. ইমতিয়াজ আহমেদ (লন্ডন), মো. বাদশা (সৌদিআরব), সাধারণ সম্পাদক মো. মোর্শেদুল হক মোর্শেদ (আরব আমিরাত) সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক মো. হারুনুর রশীদ (সৌদিআরব), যুগ্ম সম্পাদক জামাল উদ্দিন (ওমান), কমল সরকার (কুয়েত), মো. স্বপন (সৌদিআরব), সাংগঠনিক সম্পাদক মো. ইকবাল (আমিরাত) সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আবু হোসাইন জয় (সৌদিআরব), কবির মিয়া (লন্ডন) রবিউল হোসেন (আমিরাত), এম ডি হৃদয় (মালয়েশিয়া), মো. মানিক (আমিরাত), অর্থ সম্পাদক শেখ মোঃ খোরশেদ আলম ( আমিরাত), দপ্তর সম্পাদক আসিফ মাহমুদ (সৌদিআরব), সহ-দপ্তর সম্পাদক মো. আলমগীর হোসেন (সৌদিআরব), আন্তর্জাতিক সম্পাদক কাজল মির্জা (আমিরাত), সহ-আন্তর্জাতিক সম্পাদক জালাল আহমেদ (সৌদিআরব), তথ্য ও প্রচার সম্পাদক শামসুল আলম রুবেল (ওমান), সহ-তথ্য ও প্রচার সম্পাদক দেওয়ান মিজান (সৌদিআরব), মাঈনুল ইসলাম (আমিরাত), সাগর ইসলাম পাবেল (সৌদিআরব), সহ-অর্থ সম্পাদক মো. মাসুদ (কুয়েত), ধর্ম সম্পাদক কাজী রিয়াদ( ওমান) সহ-ধর্ম সম্পাদক মহিন উদ্দিন জিয়া (সৌদিআরব), সাহিত্য সম্পাদক মো. জাফর আহমেদ (ওমান), সহ-সাহিত্য সম্পাদক মো. সাইফুল (মালয়েশিয়া)।

 সিনিয়র সদস্যরা হলেন এরশাদ বিন নুরুল হক (সৌদিআরব), মো. বাবু (সৌদিআরব), জাহাঙ্গীর আলম (আমিরাত), জাহেদুল ইসলাম (ওমান), মো. কালাম (কাতার), মো. লিটন (সৌদিআরব), মো. রতন (আমিরাত), অনিক হাসান (সৌদিআরব),মো. শরিফ (ওমান), মো. নাসির (সৌদিআরব), মো. রুবেল হোসেন (আমেরিকা), মো. খুরশীদ আলম (সৌদিআরব), মো. জাকির হোসেন (ওমান), ওমর ফারুক (আমিরাত),আলমগীর কবির (কুয়েত), শহিদুল ইসলাম (আমিরাত)। সদস্যরা হলেন জাকির হোসেন (কাতার), মো. ড্যানি (সৌদিআরব), আজিজুল হাকিম (আমিরাত), আলা উদ্দিন (মালয়েশিয়া), মো. শাহরুখ (কুয়েত), মো. বাবু হোসেন (সৌদিআরব), শেখ সোহেল শেখ সাব (কুয়েত), বাহার মির্জা (আমিরাত), জাহেদ খান (সৌদিআরব), লোকমান হোসেন (আমিরাত),হাবিব উল্লাহ (কুয়েত),  রাইস উদ্দিন (সৌদিআরব), মো. রিপন (সৌদিআরব), শাহাদাত হোসেন (ওমান), মিনহাজ বাবু (সৌদিআরব), মো. শাহীন (সৌদিআরব), মানিক মিয়া (সৌদিআরব),  মো. শুভ (সৌদিআরব)। মহিলা সম্পাদিকা লিজা আক্তার (আমিরাত), সহ-মহিলা সম্পাদিকা রত্মা আক্তার (সৌদিআরব), সিনিয়র সদস্য কল্পনা আক্তার (সৌদিআরব), সদস্য সালমা আক্তার (আমিরাত), সদস্য সুমি খাতুন (সৌদিআরব), সদস্য স্বপ্না আক্তার (আমিরাত)।

ঝিকরগাছায় আওয়ামীলীগ নেতার মৃত্যুতে এম পি নাসির উদ্দিনের শোক

ঝিকরগাছায় আওয়ামীলীগ নেতার মৃত্যুতে এম পি নাসির  উদ্দিনের শোক







মোঃ ইকরামুল করিম সৈকত, 
ঝিকরগাছা (যশোর) প্রতিনিধিঃ
যশোরের ঝিকরগাছা প্রেসক্লাবের সভাপতি এমামুল হাসান সবুজের বাবা এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি ইউসুপ আলী (৭৪) ইন্তেকাল করেছেন। (ইন্নালিল্লাহি… রাজিউন)। শনিবার ১৮জুলাই দুপুরে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে তিনি নিজ বাড়িতে ইন্তেকাল করেন।
শনিবার আসর নামাজ বাদ ঝিকরগাছা দারুল উলুম কামিল মাদরাসা মাঠে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়েছে।

বর্ষীয়ান এই আওয়ামী লীগ নেতার মৃত্যুতে শোক ও শোকাহত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করে বিবৃতি দিয়েছেন যশোর-২ আসনের মাননীয় জাতীয় সংসদ সদস্য মেজর জেনারেল (অব.) অধ্যাপক ডাক্তার মোঃ নাসির

উদ্দিন।

ঝিনাইদহে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নির্দেশ অমান্য করে সড়ক ও ড্রেন নির্মাণ

ঝিনাইদহে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নির্দেশ অমান্য করে  সড়ক ও ড্রেন নির্মাণ
 



খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার। 
( ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধি) 



ডাকবাংলাবাজার ত্রীমোহনী থেকে
কালীগঞ্জ পর্যন্ত ২৩ কিলোমিটার সড়ক ও
২১২ মিটার আর,সি,সি পাকা ড্রেন নির্মাণে
চরম অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। নিম্নমানের
কাজের খবর পেয়ে ঝিনাইদহ সদর উপজেলা
নির্বাহী অফিসার বদরুদোজা শুভ রাস্তা ও
ড্রেনের নির্মান কাজ বন্ধ করে দেন।
কিন্তু একদিন না যেতেই উপজেলা নির্বাহী
অফিসারের নির্দেষ অমান্য করে সেই কাজ
শুরু করেছে ঝিনাইদহ সড়ক ও জনপথ বিভাগ ও
ঠিকাদার। এ নিয়ে এলাকায় চরম অসন্তোষ
বিরাজ করছে। খবরের সত্যতা নিশ্চিত করে
ঝিনাইদহ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার
শুভ জানান, সরোজমিন পরির্দশনে দেখেছি
অত্যন্ত নিন্মমানের রড, পাথর, বালি সিমেন্ট
ব্যবহার করে সড়কটির পাশে ড্রেন নির্মাণ
করা হচ্ছে। ঘটনাস্থল থেকে আমি ঝিনাইদহ
সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী জিয়াউল
হায়দারের মোবাইল ফোন করে বিষয়টি
জানালে তিনি আমাকে সড়ক বিভাগের উপ-
বিভাগীয় প্রকৌশলীর সাথে কথা বলতে
বলেন।
ইউএনও বলেন, আমি তাৎক্ষনিক ভাবে নির্মান
কাজ বন্ধ করে দিয়েছি। ইউএনও অভিযোগ
করেন, আমার নির্দেষ অমান্য করে সড়ক
বিভাগের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মুকুল
জ্যতি বসু ও ঠিকাদার মিলে আবারো
নিন্মমানের সামগ্রী দিয়ে কাজ শুরু করেছেন।
এদিকে ঝিনাইদহ সড়ক বিভাগের উপ-
বিভাগীয় প্রকৌশলী মুকুল জ্যতি বসু
অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, সিডিউল
মোতাবেক নির্মাণ কাজ করা হচ্ছে। তিনি
আরো বলেন, পিএমপি প্রকল্পের অধিন
ঝিনাইদহের ডাকবাংলাবাজার-কালীগঞ্জ
সড়কের ২৩ কিলোমিটার মজবুতি করণসহ
ওয়ারিং কোর্সের কাজ চলছে। খুলনার
ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মোজাহার
এন্টারপ্রাইজ প্রাইভেট লিমিটেড কাজটির
প্রকৃত ঠিকাদার। তবে কাজটি করছেন
ঝিনাইদহের ঠিকাদার মিজানুর রহমান মাসুম।
এ সড়কটির নির্মাণে ব্যয় ধরা হয়েছে ২০
কোটি টাকার উপরে।
তিনি বলেন, সড়কের পানি নিস্কাশনের জন্য
ডাকবাংলা বাজার এলাকায় ২১২ মিটার
আরসিসি পাকা ড্রেন নির্মাণ করা হচ্ছে। এ
কাজের জন্য আলাদা ভাবে প্রায় ২৯ লাখ
টাকা ব্যয় ধরা হয়েছে। ড্রেনটি নির্মাণ
কাজের জন্য আমিনুল হক এন্টার প্রাইজ
নামের অপর এক ঠিকাদারকে নিয়োগ করা
হয়েছে।
উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মুকুল জ্যতি বসু
জানান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার কাজ
বন্ধ রাখার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন। তবে তার
দাবি সড়কের পাশে স্তুপ করে রাখা
নিন্মমানের

নৌবাহিনীর প্রধান হলেন কুমিল্লার গর্ব দেবিদ্বারের কৃতি সন্তান শাহীন ইকবাল

নৌবাহিনীর প্রধান হলেন কুমিল্লার গর্ব দেবিদ্বারের কৃতি সন্তান শাহীন ইকবাল





শাহ আলম জাহাঙ্গীর
ব্যুরো চিফ, কুমিল্লা

নৌবাহিনীর প্রধান হিসেবে নিয়োগ পেলেন কুমিল্লার গর্ব দেবিদ্বারের কৃতি সন্তান রিয়ার অ্যাডমিরাল মোহাম্মদ শাহীন ইকবাল। তাকে ভাইস অ্যাডমিরাল পদে পদোন্নতি দিয়ে নৌপ্রধান হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়। 
শনিবার (১৮ জুলাই) প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে এ বিষয়ে এক প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।
প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, রিয়ার অ্যাডমিরাল মোহাম্মদ শাহীন ইকবালকে আগামী ২৫ জুলাই থেকে ভাইস অ্যাডমিরাল পদে পদোন্নতি দেয়া হয়েছে। ওই সময় থেকে প্রতিরক্ষা বাহিনীগুলোর প্রধানদের আইন-২০১৮ অনুযায়ী ২০২৩ সালের ২৪ জুলাই পর্যন্ত, তিন বছরের জন্য বাংলাদেশ নৌবাহিনী প্রধান পদে নিয়োগ প্রদান করা হলো।
গত সাত মাস ধরে নৌ সদরে সহকারী নৌ প্রধান (অপারেশান্স) হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসা শাহীন ইকবাল নৌবাহিনী প্রধান পদে অ্যাডমিরাল আবু মোজাফফর মহিউদ্দিন মোহাম্মদ আওরঙ্গজেব চৌধুরীর স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন। আবু মোজাফফর মহিউদ্দিন মোহাম্মদ আওরঙ্গজেব চৌধুরী ২৫ জুলাই চাকরির মেয়াদ পূর্ণ করে অবসর প্রস্তুতি ছুটিতে (এলপিআর) যাচ্ছেন বলে আলাদা এক আদেশের জানিয়েছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। গণমাধ্যমে পাঠানো আন্তঃবাহিনী সংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে। 
কুমিল্লার সন্তান নব নিযুক্ত নৌবাহিনী প্রধান রিয়ার অ্যাডমিরাল এম শাহীন ইকবাল ০১ জুন ১৯৮০ তারিখে বাংলাদেশ নৌবাহিনীতে যোগদান করেন এবং ০১ ডিসেম্বর ১৯৮২ তারিখে এক্সিকিউটিভ শাখায় কমিশন লাভ করেন। তার দীর্ঘ এবং সুপরিচিত ৪০ বছরের কর্মজীবনে তিনি দৃষ্টান্তমূলক সামরিক সক্ষমতা প্রদর্শন করেছেন। তার পেশাদারিত্ব, সততা ও একনিষ্ঠতার জন্য তিনি নৌবাহিনীর সর্বস্তরের কর্মকর্তা ও নাবিকগণের নিকট সুপরিচিত। তিনি নৌবাহিনী ফ্রিগেটসহ সকল শ্রেণির জাহাজ ও গুরুত্বপূর্ণ ঘাঁটি কমান্ড করেছেন। তাছাড়া, তিনি নৌ সদরে সহকারী নৌ প্রধান (অপারেশান্স), সহকারী নৌ প্রধান (পার্সোনেল), পরিচালক নৌ অপারেশান্স, পরিচালক নৌ গোয়েন্দা, চট্টগ্রাম নৌ অঞ্চলের আঞ্চলিক কমান্ডার, খুলনা নৌ অঞ্চলের অঞ্চলের আঞ্চলিক কমান্ডার, জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার পরিচালকসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব অত্যন্ত দক্ষতা ও সফলতার সাথে পালন করেন। চাকরি জীবনে প্রতিটি ক্ষেত্রে তিনি সর্বোচ্চ নেতৃত্বের গুণাবলী, সুদূর প্রসারী চিন্তা ভাবনা, আন্তরিকতা ও সততার ছাপ রেখেছেন।
দীর্ঘ চাকরি জীবনে তিনি দেশে ও বিদেশে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ প্রশিক্ষণ ও সামরিক কৌশলগত শিক্ষা অর্জন করেছেন। তিনি প্রতিটি প্রশিক্ষণে উচ্চতর গ্রেডিং অর্জন এবং কৃতিত্বের স্বাক্ষর রাখায় নৌবাহিনী প্রধান এর নিকট হতে সর্বোচ্চ প্রশংসা প্রাপ্তসহ নানা ধরনের সম্মানে ভূষিত হন। তিনি যুক্তরাষ্ট্র হতে নেভাল স্টাফ কোর্স, মেরিটাইম কম্পোনেন্ট কমান্ডার ফ্ল্যাগ অফিসার কোর্স, ইন্টারন্যাশনাল সারফেস ওয়ারফেয়ার কোর্স, ভারত হতে এন্টি সাবমেরিন ওয়ারফেয়ার কোর্স এবং মিরপুর ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজ হতে এনডিসি কোর্সসহ দেশ-বিদেশে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ প্রশিক্ষণ অত্যন্ত সফলতার সাথে সম্পন্ন করেন।
চাকরি জীবনে রিয়ার অ্যাডমিরাল এম শাহীন ইকবাল জাতীয় বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ কাজে বিশেষ অবদান রাখেন। ২০১১ সালের ২৬ জানুয়ারি থেকে ২০১৩ সালের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার (এনএসআই) পরিচালকের দায়িত্বে ছিলেন শাহীন ইকবাল। পরে ২০১৩ সালে খুলনা নৌ অঞ্চলের আঞ্চলিক কমান্ডার এর দায়িত্ব পালনকালে তিনি বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে সমুদ্রসীমা নির্ধারনের ক্ষেত্রে আন্তর্জাতিক বিচারক ও বিশ্লেষক দলের সাথে কাজ করেন এবং তাদের সুরক্ষা নিশ্চিত করেন। জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন কালে চট্টগ্রাম পার্বত্য অঞ্চলের স্থানীয় ও ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর মধে স্থিতিশীলতা নিশ্চিত করা, মিয়ানমার-টেকনাফ মাদক এবং মানব পাচার রোধে বিশেষ অবদান রাখাসহ জাতীয় বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব অত্যন্ত সফলতার সাথে পালন করেন।
২০১৭ সালে বলপূর্বক বাস্তচ্যুত মায়ানমার নাগরিকদের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে পুর্নবাসনের জন্য ভাসান চর প্রকল্পের বাস্তবায়নে রিয়ার অ্যাডমিরাল এম শাহীন ইকবাল অন্যতম মূখ্য ভূমিকা পালন করেন। তিনি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ও সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সাথে প্রকল্পের পরিকল্পনা, তদারকি ও বাস্তবায়ন কাজে বিশেষ ভূমিকা রাখেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দিক-নির্দেশনা মোতাবেক প্রকল্প সূচনার মাত্র ১০ মাসের মধ্যে এক লক্ষ রোহিঙ্গাদের জন্য একটি প্রত্যন্ত দ্বীপকে বাসযোগ্য করে তোলার মাধ্যমে তিনি সর্বমহলের ভূয়সী প্রশংসা অর্জন করেন।
বর্ণাঢ্য চাকরি জীবনে রিয়ার অ্যাডমিরাল এম শাহীন ইকবাল আন্তর্জাতিক মেরিটাইম পরিমন্ডলে একাধিকবার বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করেন। তিনি যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া, তুরস্ক, ভারত, সৌদি আরব, কুয়েত এবং কাতার সহ বিভিন্ন দেশে সেমিনার, সিম্পোজিয়াম ও সামরিক প্রদর্শনীতে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন। রিয়ার অ্যাডমিরাল এম শাহীন ইকবাল তার অসামান্য একাডেমিক সাফল্য ও পেশাদারিত্বের জন্য নৌবাহিনীর সর্বোচ্চ পদক (এনবিপি) এবং নৌ উৎকর্ষ পদক (এনইউপি) তে ভূষিত হন।
ব্যক্তি জীবনে রিয়ার অ্যাডমিরাল এম শাহীন ইকবাল ঢাকার এক সভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন। তাঁর পৈত্রিক বাড়ি কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলার মোহনপুর ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের ছোটনা গ্রামে। তাঁর বাবা ছোটনা গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা প্রয়াত মো. আফজাল হোসেন। পারিবারিক জীবনে তিনি ( শাহীন ইকবাল) মিসেস মনিরা রওশন আক্তার এর সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। তাদের একমাত্র ছেলে মুনতাসির মামুন নর্থ-সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালক ও জ্যেষ্ঠ প্রভাষক হিসেবে কর্মরত এবং তার স্ত্রী UNFPA তে গবেষক হিসেবে কাজ করে যাচ্ছেন। রিয়ার অ্যাডমিরাল এম শাহীন ইকবালের বিস্তৃত অভিজ্ঞতা, সাধারন জীবন যাপন এবং অসাধারন নেতৃত্ব প্রদানের ক্ষমতা নৌবাহিনীর সর্বস্তরের সদস্যদের উৎসাহ ও অনুপ্রেরণার উৎস। তাঁর সুদক্ষ নেতৃত্ব ও দিকনির্দেশনায় ভবিষ্যতে বাংলাদেশ নৌবাহিনী আরো সমৃদ্ধ হবে বলে সকলের প্রত্যাশা। পারিবারিক জীবনে নৌপ্রধান মোহম্মদ শাহীন ইকবাল মিলন ৫ ভাইবোনের মাঝে চতুর্থ। বড়ো ভাই কর্নেল (অবঃ) জাফর ইকবাল, মেজো ভাই শামীম আহাম্মদ বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা ও ছোটো ভাই খোকন মেরিন ইঞ্জিনিয়ার। মোহাম্মদ শাহীন ইকবালের নৌপ্রধান হিসেবে নিয়োগ পাওয়ায় কুমিল্লাবাসী আনন্দিত এবং সর্বমহল তাকে অভিনন্দন জানিয়েছে।

মাধবপুরে শ্রমজীবী চা শ্রমিকের দিন রজনী

মাধবপুরে শ্রমজীবী চা শ্রমিকের দিন রজনী





লিটন পাঠান হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি 

দুটি পাতা একটি কুড়ি ও সবুজ চা গাছের সঙ্গে চা শ্রমিকের মিতালী শত বছর ধরে প্রতিদিন ঘুম থেকে উঠে চায়ের কাপে চুমুক দিয়ে মন ও শরীরকে চাঙ্গা করে।

চা উৎপাদনের পেছনের নিপুন কারিগর হলেন সহজ সরল চা শ্রমিকরা। এই হচ্ছে সুপেয় চায়ের মূল কথা। প্রতিদিন সকালে চায়ে চুমুক দিয়ে যে ক্লান্তি দূর হয় এর পেছনে যাদের ঘামশ্রম রয়েছে এ সব শ্রমিকদের জীবনমান এখনো দারিদ্রসীমার নিচে।

বহু বছর আগে ব্রিটিশ শাসনামলে ভারত উপমহাদেশে বিভিন্ন রাজ্য থেকে তাদের আগমন ঘটলেও এখন তারা এ দেশের নাগরিক। তাদের সামাজিক রীতিনীতি ধর্ম কৃষ্টি কালচার জীবনাচরণ বর্ণ ধর্ম কথা বলার ঢং কাজের নিখুুঁত বুনন আমাদের ঐতিহ্য ধারাকে আরো সমৃদ্ধ করে তুলেছে।

চা বাগানে বিভিন্ন গোত্রের লোকজন বসবাস করেন। এর মধ্যে উরিয়া মুন্ডা সাঁওতাল ভুমিজ উরাং ভূঁইয়া সবর রেলী তন্ত্রবায় গোত্রের লোকজন রয়েছেন। প্রত্যেক গোত্রের লোকজনের ধর্মীয় রীতিনীতি বিয়ে সাদী পুজা অর্চনায় রয়েছে নিজস্ব রীতিনীতি।

বিনোদন প্রিয় শ্রমিকরা ছোট্টু কুঁড়ে ঘরে ছেলে সন্তান নিয়ে ঠাসাঠাসি করে কোনো রকমে জীবন চালায়। বড় কথা হচ্ছে নারী চা শ্রমিকরা কঠোর পরিশ্রম করে থাকে। চা বাগানের শ্রমিকরা কেউ অলস সময় কাটায় না।

যাদের বাগানে কাজ রয়েছে তারা সকালে ঘুম থেকে বাড়ি ঘরের কাজ শেষে পায়ে হেঁটে দল বেঁধে বাগানে যায়। অবিরাম দুটি পাতা একটি কুঁড়ি উত্তোলন করে এ কচি পাতা মাথায় করে কারখানা অথবা ট্রাক্টরে পৌঁছায়।

পুরুষ শ্রমিকরা নতুন চা বাগান সৃজন সহ ভারী কাজ করে থাকেন। নারী শ্রমিকরা বেশির ভাগ পাতা উত্তোলন ও নার্সারীতে কাজ করেন। চা শ্রমিকরা দুপুরের খাবার সেরে নেয় বাগানের ভিতর ৫/৭ জন নারী শ্রমিক দল বেধে বসে খাবার প্রস্তুত করে।

এ খাবারে কি পরিমাণ খাদ্যপ্রাণ অথবা পুষ্টিগুণ রয়েছে এ সম্পর্কে তাদের আদৌ কোনো ধারণা নেই। ক্ষুধা মেটাতে হবে এই প্রয়োজনে খাবার খাবার তালিকা থাকে মুড়ি চানাচুর কাচামরিচ কাচা চা পাতা পেয়াজ আলু চটকিয়ে ভর্তা বানিয়ে রুটি দিয়ে এ খাবার খায়।

সঙ্গে থাকে বোতল ভর্তি গরম লাল চা। কাজ সেরে সন্ধ্যায় বাড়ি ফিরে শ্রমিকরা। ক্লান্ত শরীর মলিন মুখ ক্ষুধার্ত হাড্ডিসার দেহখানা নিয়ে ঘরে ফেরার পর আবার শুরু হয় পারিবারিক কাজ।

রাতের খাবার শেষে চট-ছালা বিছিয়ে মশারী বিহীন অন্ধকার ঘরে ঠাসাঠাসি ঘরে ছেলে সন্তান নিয়ে ঘুমিয়ে পড়ে। নারী চা শ্রমিকদের মাতৃত্বকালীন ছুটি ৬ মাস হলেও অনেক সময় দেখা যায় নব জাতক শিশুকে নিয়ে নারী শ্রমিকরা কাজে যোগ দেয়। অবুঝ শিশুকে গাছের নিচে রেখে নারী শ্রমিকরা কাজ করে। অভাব অনটন নারী শ্রমিকদের এখন নিত্য দিনের সঙ্গী।

হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার তেলিয়াপাড়া সুরমা জগদীশপুর বৈকুণ্ঠপুর নোয়াপাড়া চা বাগানের নারী শ্রমিকদের সঙ্গে কথাবলে জানা গেছে, তারা সকাল সন্ধ্যা রোদে পুড়ে বৃষ্টিতে ভিজে চা বাগানের ভিতরে কাজ করেন। কিন্তু ১০২ টাকা দৈনিক মজুরীতে তাদের জীবন জীবিকা চালানো কঠিন হয়ে পড়ে।

চা বাগানের পক্ষ থেকে যেটুকু স্বাস্থ্য সেবা দেওয়া হয় তা পর্যাপ্ত নয়। এ কারণে অনেক শ্রমিক নানা রোগে আক্রান্ত। অর্থাভাবে তাদের চিকিৎসা হয় না। তাদের অভিযোগ চা বাগানের পক্ষ থেকে যতটুকু সহযোগিতা করা হয় সরকারিভাবেও তাদের বিভিন্ন সুবিধা দেওয়া হয়। কিন্তু এগুলো প্রয়োজনের তুলনায় খুবই কম।

চা বাগানে অনেক বেকার লোক রয়েছে। যাদের বাগানের ভিতরে কাজের কোন ব্যবস্থা নেই। হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলায় বিভিন্ন স্থানে শিল্প কারখানায় চা বাগানের লোকজন কাজ করে দক্ষতার স্বাক্ষর রাখছে।

লস্করপুর ভ্যালীর সভাপতি রবীন্দ্র গৌড় বলেন চা বাগানে শ্রমিকদের শিক্ষা, গৃহ নির্মাণ বিশুদ্ধ পানি মজুরী ও রেশনের স্বল্পতা পর্যাপ্ত স্বাস্থ্য সেবা সহ নানাবিধ সমস্যা রয়েছে।

সরকার ও মালিকপক্ষ যৌথভাবে শ্রমিকদের সমস্যা চিহ্নিত করে এগুলো সমস্যা সমাধান করলে চা শ্রমিকদের জীবনমান উন্নত হবে।

চা শ্রমিক নেত্রী গীতা রানী কানু বলেন, যুগযুগ ধরে চা শ্রমিকরা নানা ভাবে বঞ্চিত হয়ে আসছে। অধিকার হারা এসব শ্রমিকদের উন্নয়নের মূল স্রোতে না আনতে পারলে টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) পূরণ হবে না।

মাধবপুর উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা সুলায়মান মজুমদার বলেন, ইউনিসেফের অর্থায়নে ২০১১ সন থেকে চা বাগানে বিনা মূল্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়। এখন রাজস্ব খাত থেকে পর্যায়ক্রমে সকল চা শ্রমিকদের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হচ্ছে।

এ ছাড়া চা শ্রমিক সন্তানদের লেখাপড়ার জন্য উপবৃত্তি সহ শিক্ষা উপকরণ দেওয়া হচ্ছে। মাধবপুর মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা জান্নাত সুলতানা বলেন, সুবিধা বঞ্চিত নারী শ্রমিকদের জন্য সরকার বিশেষ প্রকল্প হাতে নিয়েছে।

এ প্রকল্পের পক্ষ থেকে নারী শ্রমিকদের বিভিন্ন আর্থিক ও কারিগরি সহযোগিতা দেওয়া হচ্ছে।

বন্যার পানিতে প্লাবিত হয়েছে হরিরামপুর উপজেলা

বন্যার পানিতে প্লাবিত হয়েছে হরিরামপুর উপজেলা





আব্দুর রাজ্জাক, হরিরামপুর (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধি  মানিকগঞ্জ জেলার সঙ্গে হরিরামপুর উপজেলার প্রধান সড়কের আন্ধারমানিক পাটগ্রাম হাইস্কুল মাঠ সংলগ্ন বন্যার পানিতে প্রাবিত হয়ে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়েছে। এতে উপজেলা থেকে জেলা শহরে সরাসরি যানবাহন চলাচল করতে পারছেন না। অপর দিকে পাটগ্রাম অনাথ বন্ধু সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠ হরিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এর সামনে রাস্তা ও প্রাবিত হয়ে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পরেছে। এতে বিভিন্ন ইউনিয়নের সঙ্গে উপজেলা রাস্তা যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। হরিরামপুর উপজেলার। চেয়ারম্যান দেওয়ান সায়েদুর রহমান বলেন  উপজেলা রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের বকচর, জগনাথপুর,ভাওয়ারী, বয়ড়া ইউনিয়নের দড়িকান্দি, খালপার বয়ড়া, দাসকান্দি বয়ড়া হারুকান্দি ইউনিয়নের ভেলাবাদ, হারুকান্দি চরাঞ্চল চানপুর গ্রাম,গোপীনাথপুর ইউনিয়নের চর পাড়া, উজানপাড়া, ভাটিপাড়া,বাহাদুরপুর, কাঞ্চনপুর ইউনিয়নের  গৌরবিদ্যা, কাঞ্চনপুর, চালা ইউনিয়নের দিয়াবাড়ী,দিয়াবাড়ী আশ্রয়ন প্রকল্প, দুর্গাপুর, কামারঘোনা, গোপাল পুর, গালা ইউনিয়নের কালই গোপালপুর ধুসুরিয়া, গাংধুসুরিয়া অনিগালা, গালা বাঙ্গালা বাজার কলতাগ্রাম বন্যার পানি প্রবেশ করে প্লাবিত হয়েছে। তিনি আরোও বলেন এসব এলাকা বন্যার পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় মানুষের যোগাযোগ একমাত্র মাধ্যম হচ্ছে নৌকা। হরিরামপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাবিনা ইয়াসমিন জানান বন্যায় ক্ষয়ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্যে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। জনপ্রতিনিধি দের মাধ্যমে তালিকা করা হয়েছে। প্রর্যাক্রমে ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্য করা হবে। উজান থেকে নেমে আসা ঢল বৃষ্টির পানিতে মানিকগঞ্জ আরিচা পয়েন্ট গেইজ মোঃ ফারুক আহমেদ জানান শনিবার ১৮ জুলাই সকাল ৬ টাকা থেকে ২৪ ঘন্টায় যমুনা পানি ৩ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়েছে বিপদ সীমার ৭০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহি হচ্ছিলো। মানিকগঞ্জের পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মাঈন উদ্দিন বলেন মূলত উজান থেকে নেমে আসা ঢল আর স্থানীভাবে অতিরিক্ত বৃষ্টির কারণে বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। এতে যমুনা সংলগ্ন দৌলতপুর শিবালয় উপজেলার পদ্মা নদী সংলগ্ন সাটুরিয়া উপজেলার নিম্নাঞ্চল ইতোমধ্যে বন্যার কবলিত হয়ে পড়ছে, এ দিকে হরিরামপুর প্রায় হাজার হাজার মানুষ খাবার,বিশুদ্ধপানি সংকটে  ভোগান্তিতে পড়েছেন। বন্যার পানি থেকে রক্ষা পেতে অনেক ঘরবাড়ি  ছেড়ে উঁচু স্থানে আশ্রয়   নিয়েছেন। গবাদি পশু নিয়ে বিপাকে পড়েছেন শত শত মানুষ। মানিকগঞ্জ জেলা প্রশাসক এস এম ফেরদৌস বলেন, বন্যায় জেলা এ পযর্ন্ত ৭৪ বর্গকিলোমিটার প্লাবিত হয়েছে। বন্যার প্রভাব ৬৮৮টি পরিবারে মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে  এবং তাদের সহায়তা দেওয়া হচ্ছে।

অবহেলায় পারি না বাঁচতে লেখকঃ মোঃকুতুবুল আলম

অবহেলায় পারি না বাঁচতে লেখকঃ মোঃকুতুবুল আলম
 




চাইলেই সব চাওয়া হয়না তো পাওয়া,
হাজারও পাওয়ার মাঝে থেকে যায় চাওয়া।
আমি চেয়েছি তোমায় নিয়ে সুখে থাকতে,
তিলে তিলে তোমার অবহেলায় পারি না বাঁচতে। 

দিনের আলোতে আমি খোঁজি গো তোমায়, 
রাতের আঁধারেও খোঁজি দেখা দাও না আমায়। 
নিরাশার বুকে আজ করে শুধু হাহাকার, 
তোমাকে হারিয়ে শূন্য পৃথিবীতে আছি একাকার। 

আগের স্মৃতির মাঝে ডুবে থাকি তোমাকে নিয়ে,
সারানিশি কষ্টে কাটে বেলা তোমাকে হারিয়ে।
ওগো মোর প্রিয়তমা বাসি ভালো তোমাকে,
জনম জনমের আপন করে কাছে নাও না আমাকে।

তোমার জন্য হৃদয়ের গভীরে আছে শুধু টান,
কাছে থেকেও তোমার জন্য করে আনচান।
চোখের জল নিয়ে নির্বাক মুখে ফুটে হাসি,
সত্যি প্রিয় তোমাকে অনেক বেশি ভালোবাসি।

পারিবারিক কবরস্থানে এএসআই (নিঃ) আমির হোসেনের দাফন সম্পন্ন

পারিবারিক কবরস্থানে  এএসআই (নিঃ) আমির হোসেনের দাফন সম্পন্ন





এস.এম অলিউল্লাহ ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি:

গত ১৭/০৭/২০২০খ্রিঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানায় কর্মরত এএসআই(নিঃ) আমির হোসেন সঙ্গীয় অফিসার ও ফোর্সসহ অস্ত্র, মাদক ও ডাকাতি মামলার পরোয়ানাভুক্ত পলাতক আসামী মামুন মিয়া (২৮), পিতা-মুসা মিয়া, সাং-চান্দপুরকে পাঘাচং বাজার হতে গ্রেফতারের সময় ধস্তাধস্তিকালে আসামীর কোমরে থাকা ছুরি দ্বারা আমির হোসেনের বুকের বাম পাশে ও বুকের মাঝ খানে আঘাত করে গুরুতর জখম করে ঘটনাস্থল হতে দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় এএসআই আমির হোসেনকে তাৎক্ষনিক চিকিৎসার জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করে। অদ্য ১৮/০৭/২০২০খ্রিঃ সকাল ১০.০০ ঘটিকায় পুলিশ লাইন্স মাঠে মৃত এএসআই আমির হোসেন এর জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় মৃতের জানাজার নামাজে পুলিশ সুপার ব্রাহ্মণবাড়িয়াসহ জেলার উর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন। পুলিশ লাইন্স ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জানাজার নামাজ শেষে পুলিশ স্কটের মাধ্যমে লাশ মৃতের গ্রামের বাড়ি ময়মনসিংহ জেলার ডিয়ারচর গ্রামে পৌছানো হয়। সেখানে মৃতের দ্বিতীয় জানাজার নামাজ শেষে সন্ধ্যা ১৮.৩০ ঘটিকায় পারিবারিক কবরস্থানে তার বাবার কবরের পাশে দাফন করা হয়।