ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের শিখনফল মূল্যায়ন পদ্ধতি

ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের শিখনফল মূল্যায়ন পদ্ধতি


নিউজ ডেস্কঃ  মাধ্যমিক  স্তরে ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের শিখনফল এবার কীভাবে মূল্যায়ন করা হবে সেই পদ্ধতি ঠিক করে দিয়েছে সরকার।প্রতি সপ্তাহে একজন শিক্ষার্থী তিনটি অ্যাসাইনমেন্ট পাবে, যার উত্তর তাদের লিখতে হবে পাঠ্যপুস্তক অনুসরণ করে। নোট বা গাইড বই দেখা চলবে না এবং অন্যের লেখা নকল করেও অ্যাসাইনমেন্ট জমা দেওয়া যাবে না।

করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় পুনর্বিন্যাসকৃত পাঠ্যসূচির আলোকে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি) শিখনফল মূল্যায়নের এই পদ্ধতি শনিবার জানিয়ে দিয়েছে।সেখানে বলা হয়েছে, ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের সপ্তাহে তিনটি করে অ্যাসাইনমেন্ট দিতে হবে। নির্ধারিত বিষয়ের অ্যাসাইনমেন্ট জমা নেওয়া, মূল্যায়ন, পরীক্ষকের মন্তব্যসহ সেটি শিক্ষার্থীকে দেখানো এবং প্রতিষ্ঠানে সংরক্ষণের কাজ আগামী ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে শেষ করতে হবে।শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যঝুঁকির কথা বিবেচনা করে এবার সরকার প্রথাগতভাবে বার্ষিক পরীক্ষা না নেওয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তাই অ্যাসাইনমেন্টের মাধ্যমে তাদের অর্জিত শিখনফল মূল্যায়ন করা হবে বলে জানিয়েছে মাউশি।পুনর্বিন্যাসকৃত পাঠ্যসূচির ভিত্তিতে কোনো সপ্তাহে শিক্ষার্থীদের কী মূল্যায়ন করা হবে, সেই পরিকল্পনা ধরে নির্ধারিত কাজ বা অ্যাসাইনমেন্ট ঠিক করা হয়েছে। সপ্তাহের শুরুতে ওই সপ্তাহের জন্য নির্ধারিত অ্যাসাইনমেন্টগুলো দিয়ে দেওয়া হবে।

সপ্তাহ শেষে শিক্ষার্থীরা তাদের অ্যাসাইনমেন্ট শেষ করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে জমা দিয়ে নতুন কাজ বুঝে নেবে। অভিভাবক বা অন্য কারও মাধ্যমে বা অনলাইনে অ্যাসাইনমেন্ট জমা দেওয়া যাবে।অ্যাসাইনমেন্টের আওতায় ব্যাখ্যামূলক প্রশ্ন, সংক্ষিপ্ত প্রশ্নের উত্তর, সৃজনশীল প্রশ্নের উত্তর, প্রতিবেদন প্রণয়নের মত কাজ রাখা হয়েছে শিক্ষার্থীদের জন্য।সাদা কাগজে নিজের হাতে লিখে শিক্ষার্থীদের ওই অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে হবে। অভিভাবক বা তার প্রতিনিধি স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে প্রতি সপ্তাহে এক দিন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে অ্যাসাইনমেন্ট সংগ্রহ করবেন এবং তা জামা দেবেন।

আর শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে নির্দেশনায় বলা হয়েছে, অ্যাসাইনমেন্টের কাজের জন্য পাঠ্যপুস্তক অনুসরণ করতে হবে; গাইড বই, নোট বই বা কেনা নোটের প্রয়োজন নেই।

মূল্যায়নের ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের নিজস্বতা, স্বকীয়তা, সৃজনীলতা যাচাই করা হবে। তাই অন্যের লেখা নকল করে জমা দিলে তা বাতিল করা হবে। নতুন করে সেই অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে হবে। অভিভাবকদেরও এ বিষয়ে সতর্ক করা হয়েছে।মাউশি বলছে, কিশোর বাতায়নের মতো কিছু প্ল্যাটফর্মে ডিজিটাল ক্লাসগুলোকে এমনভাবে আপলোড করা হয়েছে, যাতে শিক্ষার্থীরা দেশের যে কোনো জায়গা থেকে ক্লাসগুলো দেখতে পায়। কিন্তু অনেকে এ সুযোগ থেকে বঞ্চিত।এ কারণে তাদের পাঠ্যসূচি পুনর্বিন্যাস ও অ্যাসাইনমেন্টের মাধ্যমে মূল্যায়নের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এই মূল্যায়নের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের অর্জিত শিখনফলের দুর্বলতা চিহ্নিত করে পরবর্তী শ্রেণিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলা হয়েছে নির্দেশনায়।শিখনফল মূল্যায়ন নিয়ে শিক্ষক, শিক্ষার্থী, প্রতিষ্ঠান প্রধান, অভিভাবক এবং শিক্ষা কর্মকর্তাদের জন্য আলাদা আলাদা নির্দেশনাও দিয়েছে মাউশি।সেখানে বলা হয়েছে, প্রতিটি শিক্ষার্থী যাতে এই মূল্যায়নের আওতায় আসে, তা নিশ্চিত করতে হবে। প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সব মূল্যায়ন রেকর্ড যথাযথভাবে সংরক্ষণ করতে হবে।

শিক্ষক একটি শ্রেণির একটি বিষয়ের সবগুলো অ্যাসাইনমেন্টের সামগ্রিক মূল্যায়নের ওপর ভিত্তি করে মন্তব্য করবেন- যেমন অতি উত্তম, উত্তম, ভালো ও অগ্রগতি প্রয়োজন।অ্যাসাইনমেন্ট ভিত্তিক এই মূল্যায়ন প্রক্রিয়া চলাকালে শিক্ষার্থীদের অন্য কোনো ধরনের পরীক্ষা নেওয়া বা বাড়ির কাজ দেওয়া যাবে না।করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শুরুর পর গত ১৭ মার্চ থেকে দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। কওমি মাদ্রাসা বাদে অন্যসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আগামী ১৪ নভেম্বর ছুটি ঘোষণা করা আছে।

এবার মহানবীর ব্যঙ্গ প্রতিকৃতি কে সমর্থন করলেন কোরবানপুরের শঙ্কর বাবু

 এবার মহানবীর ব্যঙ্গ প্রতিকৃতি কে সমর্থন করলেন কোরবানপুরের শঙ্কর বাবু

বাংগরা বাজার থানা প্রতিনিধিঃমুসলমানদের ধর্ম প্রবর্তক হজরত মুহাম্মদ সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর ফ্রান্স এর প্রেসিডেন্ট কর্তৃক ব্যঙ্গ প্রতিকৃতিতে ক্ষুব্দ বিশ্বের সকল মুসলিম জাতি। ধর্মকে হেয় করা ছিলো যার প্রধান উদ্দেশ্য। এবার কুমিল্লা উত্তর জেলার মুরাদনগর উপজেলার বাংগরা বাজার থানার কোরবানপুর গ্রামের কিন্ডার গার্ডেন এর প্রতিষ্ঠাতা শঙ্কর সাহা ফ্রান্স এর প্রেসিডেন্ট এর সাথে সমর্থন জানালেন এক ফেইজবুক বার্তায়।তিনি ফ্রান্স এর এই ঘৃণিত কাজকে সমর্থন জানিয়ে সাদুবাদ জানিয়েছেন বলে জানা গেছে।ঘটনা সূত্রে জানা জায় এলাকার স্থানীয় রা তাদের বাড়ি ভাংচুর করলে প্রশাসন এসে বাঁধা দেওয়াতে এই তথ্য বেরিয়ে আসে। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিষয়টি দেখবেন বলে সবাইকে শান্ত করেন।এ নিয়ে তেমন কোনো হতাহতের খবর পাওয়া না গেলেও ঘরবাড়ির ব্যপক ক্ষতির কথা জানা যায়।গতকাল বিকেল থেকে আজ পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি করে, পুলিশি তৎপরতায় রয়েছে সে গ্রাম টি।ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দিয়ে বিধর্মীদের সমর্থন করার কারনে বিচার চেয়ে স্থানীয় প্রশাসনের কাছে ঘটনাটি তুলে ধরা হয়।

খন্দকার এনামুল হক (বাবলু) এর সভাপতিত্বে জেল হত্যা দিবস পালিত

 খন্দকার এনামুল হক (বাবলু) এর সভাপতিত্বে জেল হত্যা দিবস পালিত

 


ডেক্স রিপোর্টঃ ১৯৭৫ সালের ৩রা নভেম্বর  তৎকালীন আওয়ামী লীগের চারজন সিনিয়র নেতা -সৈয়দ নজরুল ইসলাম, তাজউদ্দিন আহমেদ, ক্যাপ্টেন মনসুর আলী এবং এ এইচ এম কামরুজ্জামানকে ঢাকার কারাগারে হত্যা করা হয়,বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি শেখ মুজিবুর রহমান এক সামরিক অভ্যুত্থানের সম্মুখীন হন।শেখ মুজিবের হত্যাকারীরা দেশ থেকে নির্বাসিত হওয়ার পূর্বে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দী চার নেতাকে হত্যা করার সিদ্ধান্ত নেয়,কতিপয় সেনা কর্মকর্তা ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে অভ্যন্তরে সাবেক উপরাষ্ট্রপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম, সাবেক বাংলাদেশী প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দিন আহমদ, ক্যাপ্টেন মনসুর আলী এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী আ হ ম কামারুজ্জামানকে গুলি করে হত্যা করে,জাতীয় চার নেতার স্মরনে ১১নং দক্ষিণ কাট্টলী ওর্য়াডের  কাউন্সিলর পদপ্রার্থী খন্দকার এনামুল হক বাবলুর উদ্যোগে শেখ জামাল স্মৃতি পরিষদ এর আয়োজনে দোয়া মাহাফিল ও এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়, এতে উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব বেলায়েত হোসেন স্পেশাল এডিটর নিউজ টু ডে, জনাব মহিউদ্দিন সওদাগর সভাপতি সন্দীপ আওয়ামী পরিষদ হালিশহর, জনাব নিজাম উদ্দিন রিজভী সাধারণ সম্পাদক বঙ্গবন্ধু  মাতৃসদন এ ব্লক, জনাব শহিদুল ইসলাম রিপন,  উত্তরজেলা জাসদ নেতা আওয়ামী লীগ নেতা কাজী মামুনুর রশীদ বাবু, মোঃ ফুয়াদ উদ্দিন, জসিম উদ্দিন, মাসুম আক্তার, যুবলীগ নেতা সোহেল আহমেদ, মোঃ সিরাজুল আমিন বাবু, ছাত্রলীগ নেতা আবির আহমেদ সহ আওয়ামী পরিবারের সদস্য এবং সঞ্চালনায় ছিলেন জনাব আবুল কালাম আজাদ, সাধারণ সম্পাদক সন্দীপ আওয়ামী পরিষদ হালিশহর, সহ ওর্য়াড আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাএলীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন

ঝিনাইদহে ইয়াবাসহ এক মাদক ব্যবসায়ী

 ঝিনাইদহে ইয়াবাসহ এক মাদক ব্যবসায়ী

সোহান হোসেন, সদর( ঝিনাইদহ)  উপজেলা প্রতিনিধিঃঝিনাইদহে এক মাদক ব্যবসায়ীকে ইয়াবাসহ আটক করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার দুপুরে শহরের কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। এসময় তার কাছ থেকে ৩ শত পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়। সে কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার ভেড়ামারা গ্রামের ইলঅহি বিশ্বাসের ছেলে।

ঝিনাইদহ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ মিজানুর রহমান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি শহরের ভুটয়ারগাতী কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল এলাকায় মাদক কেনাবেচা চলছে। এমন খবরের ভিত্তিতে এস আই রফিকুল ইসলামসহ সঙ্গিয় ফোর্স নিয়ে সেখানে অভিযান চালায়। সেসময় রবেদুল নামের এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়। পরে তার দেহ তল্লাশি করে ৩শত পিচ ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় ঝিনাইদহ সদর থানায় একটি মাদক মামলা হয়েছে।

নড়াইলে ৪ জুয়াড়ী জুয়ার সরঞ্জামসহ পুলিশের হাতে আটক

 নড়াইলে ৪ জুয়াড়ী জুয়ার সরঞ্জামসহ পুলিশের হাতে আটক

মো: আজিজুর বিশ্বাস স্টাফ রিপোর্টার।।নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার ৩ নং শালনগর ইউনিয়নের মাকড়াইল গ্রামের মাঠ এলাকা থেকে জুয়া খেলার সময় ৪ জুয়াড়ী কে জুয়ার সরঞ্জামসহ গ্রেফতার করেছে লোহাগড়া থানা পুলিশের এসআই গুরাচাঁদ ও সঙ্গীয় ফোর্স ।পুলিশ সূত্রে জানা যায়  শালনগর ইউনিয়নের মাকড়াইল গ্রামের মাঠের মধ্য কিছু জুয়াড়ি টাকার বিনমিয়ে জুয়া খেলছে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে লোহাগড়া থানার এস আই গোরাচাঁদ সহ সঙ্গীয় ফোর্সদের সাথে নিয়ে ১.আবু জাফর খান, পিং মৃত গোলাম নবী খান,২.রফিকুল ইসলাম, পিং আবু সাইদ, উভয় সাং মাকড়াইল ৩.গোলাম সারোয়ার, পিং আবু মোল্যা, সাং লাহুড়ীয়া ডহরপাড়া এবং ৪,আব্দুর রউফ, পিং মতিয়ার মোল্যা সাং চরশালনগর সর্ব থানা- লোহাগড়া, জেলা- নড়াইলদের ০২/১১/২০২০ তারিখ : সোমবার অনুমানিক রাত ১ ঘটিকার সময় মাকড়াইল মাঠের ভেতর থেকে জুয়ার সরঞ্জামসহ হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়।এসআই গুরাচাঁদ বলেন আসামীদের গ্রেফতার করে থানা হেফাজতে রাখা হয় এবং  সকালে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

রাজারহাটে জাতীয় স্বেচ্ছায় রক্তদান ও মরণোত্তর চক্ষুদান দিবস পালিত

রাজারহাটে জাতীয় স্বেচ্ছায় রক্তদান ও মরণোত্তর চক্ষুদান দিবস পালিত
রাজারহাটে জাতীয় স্বেচ্ছায় রক্তদান ও মরণোত্তর চক্ষুদান দিবস পালিত

মোঃইয়ামিন সরকার আকাশ,কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃকুড়িগ্রাম জেলায়  রাজারহাটে  জাতীয় স্বেচ্ছায় রক্তদান ও মরণোত্তর চক্ষুদান দিবস 2020 পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে রাজারহাটের মানব কল্যাণ ছাত্র সংগঠনের আয়োজনে  উপজেলার নাককাটি হাট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে  রক্তদাতাগণকে সম্মাননা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এসময় জেলার বিভিন্ন সামাজিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের স্বেচ্ছাসেবকগণ উপস্তিত ছিলেন।মানবতার জন্য সব সময় কাজ করার ইচ্ছা প্রকাশ করেন সংগঠনগুলো।পরে তাড়া ফ্রি ব্লাড ক্যামপিং করেন।মানব কল্যান ছাএ সংগঠনকের পক্ষ থেকে সবাইকে ফুলে শুভেচ্ছা জানানো হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে ফাহমিদা হক পরিবহনের পরিচালক জনাব ফজলুল হক  সভাপতিত্ব করেন। প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কুড়িগ্রাম জেলার সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ হাবিবুর রহমান। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, রাজারহাট উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব জাহিদ সোহরাওয়ার্দী বাপ্পী।আরো ও উপস্তিত ছিলেন নাককাটি হাট বালিকা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জনাব মোঃ জয়নাল আবেদীন প্রমূখ।

পলুয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি গঠনে অনিয়মের অভিযোগ

পলুয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি গঠনে অনিয়মের অভিযোগ

 


স্টাফ রিপোর্টারঃ যশোর জেলার চৌগাছা উপজেলার পলুয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি গঠনে অনিয়মের অভিযোগ । উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ ডঃ মুস্তানিচুর রহমানের নিকট অভিযোগ করেছেন পার্শ্ববর্তী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক সোহরাব হোসেন। অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, পলুয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হারুন আর রশিদ ম্যানেজিং কমিটির মনোনয়নের জন্য পার্শ্ববর্তী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক প্রতিনিধির  নাম না দিয়ে নিজের ইচ্ছেমত ৩ কিঃমি দূরের মুক্তারপুর আমজামতলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক সত্য নারায়ণ   পালের নাম লিখে দিয়েছেন। অথচ ২০০মিঃ দুরে অবস্থিত খলসি বাজার মাধ্যমিক বিদ্যালয়। অত্র বিদ্যালয়ের কোন শিক্ষকের নাম দেননি।তথ্য সূত্রে আরো জানা যায়, অন্যান্য সদস্যদের শিক্ষাগত যোগ্যতা লেখেননি,অথচ আরও ৩জন সদস্য আছেন যারা উচ্চশিক্ষায় শিক্ষিত। না লেখার একমাত্র কারণ সত্যনারায়ণ পালকে কুউদ্দেশ্যে  সভাপতি নির্বাচন করে নিজের সার্থ উদ্ধার করা।এব্যাপারে উপজেলা চেয়ারম্যানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন প্রধান শিক্ষক হারুন আর রশিদকে কারণ দর্শনোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে। জবাব পেলে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ইন্দুরকানীতে সেচ্ছাসেবক দলের তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ ও ফরম বিতরন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত

ইন্দুরকানীতে সেচ্ছাসেবক দলের তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ ও ফরম বিতরন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত


মিঠুন কুমার রাজ, স্টাফ রিপোর্টারঃ স্বেচ্ছাসেবক জনতা-গড়ে তোল একতা ” এই স্লোগানকে সামনে রেখে ইন্দুরকানীতে স্বেচ্ছাসেবক দলের তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ ও ফরম বিতরন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার বিকালে উপজেলা ছাত্রদলের কার্যালয় উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আয়োজনে পিরোজপুর জেলা কর্তৃক নির্ধারিত টিম প্রধান পিরোজপুর জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সহ-সভাপতি মোঃ রুহুল আমিন মুন্সির নেতৃত্বে ফরম বিতরন ও আলোচনা সভা করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন টিম সহযোগী মোঃ মিরাজ হাওলাদার,মোঃ সাদ্দাম হোসেন বাবু মোঃ তুহিন হাওলাদার,মোঃ আনোয়ার হোসেন, ভান্ডারিয়া স্বেচ্ছাসেক দলের যুগ্ন আহ্বায়ক মোঃ মনোয়ার হোসেন পলাশ। আলোচনা সভায় ইন্দুরকানী(জিয়ানগর)উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সহ-সভাপতি মোঃ আবদুল হালিম হাওলাদারের সভাপত্বিতে বক্তাব্য রাখেন উপজেলা স্বেচ্চাসেবক দলের সাধারন সম্পাদক হুমাউন কবির, যুবদলে সভাপতি আতিকুর রহমান, উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি মোঃ শাহিদুল ইসলাম, সাধারন সম্পাদক আল আমিন হোসেন, ইন্দুরকানী সরকারি  কলেজ শাখা ছাত্রদলে সভাপতি মোঃ জুয়েল রানা, পিরোজপুর স্বেচ্চাসেবক দলে সদস্য মোঃ খায়রুল ইসলাম লাভলু,বশির আহমেদ,উপজেলা স্বেচ্চাসেবক দলের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ শাহীন, সহ অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ প্রমুখ। আলোচনা শেষে কর্মীদের মাঝে ফরম বিতরন করেন।

ফ্রান্সে মহানবী হযরত মোহাম্মদ (সা.) ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে আজিজনগর যুব সংঘের মানববন্ধন

 ফ্রান্সে মহানবী হযরত মোহাম্মদ (সা.) ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে আজিজনগর যুব সংঘের মানববন্ধন

 

মানববন্ধন ও আলোচনা  

সাব্বির হোসেন রকি, ব্যুরো প্রধানঃরাসূলের অপমানে যদি না কাঁদে তোর মন, মুসলিম নয় তুই মুনাফিক রাসূলের দূশমন,পঞ্চগড় জেলার তেঁতুলিয়া উপজেলায় ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে মহানবী হযরত মোহাম্মদ (সা.) ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে আজ (০২ নভেম্বর  ) রোজ সমবার আসরের নামাজের পর  আজিজনগর যুব সংঘ উদ্দ্যেগে  মানববন্ধন  ও সিরাতুন নবী সম্পর্কে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

উক্ত মানববন্ধন কর্মসূচি বক্তারা সমাবেশে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, রাষ্ট্রীয় পৃষ্টপোষকতায় ফ্রান্সে মহানবী হযরত মোহাম্মাদ (সা.)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রর্দশন করে যে ধৃষ্টতা দেখিয়েছে তা বিশ্বের দুই শ’ কোটি মুসলমানের হৃদয়ে চরম আঘাত করেছে এবং ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। আমরা ওই ঘটনার তীব্র নিন্দা ও ঘৃণা প্রকাশ করছি। এই অসভ্য কর্মকাণ্ড বন্ধ করতে হবে এবং অবিলম্বে ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁকে ক্ষমা চাইতে হবে।এসময় মানববন্ধন  ও সিরাতুন নবী সম্পর্কে আলোচনা সভা কর্মসূচি উপস্থিত ছিলেন, মাওলানা মোঃআঃহান্নান,মাওলানা মোঃমোখলেছুর রহমান,তেঁতুলিয়া উপজেলা কৃষক লীগ এর সাধারন সম্পাদক জুলফিকার আলী জুয়েল, তেঁতুলিয়া উপজেলা ছাত্রলীগ এর সাবেক সাধারণ সম্পাদক শোয়েব আক্তার মিয়া, আজিজনগর সরকারি প্রথমিক বিদ্যালয়ের মেনেজিং কমিটি সভাপতি আবু সাঈদ মিয়া,  আজিজনগর যুব সংঘ সভাপতি সাইদুর রহমান বাবলু, সহ আরোও অনেকে।আজিজনগর যুব সংঘের সাধারন সম্পাদক  হেলাল রানা বলেন,ফান্সের শার্লি এবদো নামে একটি ম্যাগাজিন নবী করিম (সা.)-কে নিয়ে ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন করেছে। বাক স্বাধীনতা এমনভাবে উপভোগ করতে হবে যাতে তা অন্য কোনও ধর্ম বা কারও ধর্মীয় বিশ্বাসকে আঘাত না করে। মুহাম্মদ (সা.)-কে মুসলমান জাতি তাদের নয়নের মনি কোটায় স্থান দিয়েছে। তাকে অমর্যাদা করে ফ্রান্সে যা করা হয়েছে আমরা তার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।’বক্তারা আরো দাবী জানান, বাংলাদেশ থেকে ফ্রান্সের সকল পণ্য বয়কট করতে হবে,বাংলাদেশ থেকে ফ্রান্সের দূতাবাস সরিয়ে ফেলতে হবে।

লাকসামে জাতীয় স্বেচ্ছায় রক্তদান দিবসে বর্ণাঢ্য র্যালী, ও আলোচনা সভা উদযাপন অনুষ্ঠিত

 লাকসামে জাতীয় স্বেচ্ছায় রক্তদান দিবসে  বর্ণাঢ্য র্যালী, ও আলোচনা সভা উদযাপন অনুষ্ঠিত


 লাকসামে জাতীয় স্বেচ্ছায় রক্তদান দিবসে আলোচনা সভা 

মোঃ রবিউল হোসাইন সবুজঃআজ ২রা নভেম্বর,  ২০২০ খ্রিষ্টাব্দে জাতীয় স্বেচ্ছায় রক্তদান দিবস উপলক্ষ্যে লাকসাম উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে ভিক্টোরি অব হিউম্যানিটি অর্গানাইজেশন এর উদ্যোগে বর্ণাঢ্য র্যালী, আলোচনা সভা ও সংগঠনের ৫০০০তম রক্তদান উদযাপন অনুষ্ঠিত হয়।অনুষ্ঠানে ভিক্টোরি অব হিউম্যানিটি অর্গানাইজেশনের সভাপতি মোঃ ফয়সাল হোসেন বাপ্পির সঞ্চলনায় লাকসাম পৌরসভার মেয়র ও সংগঠনের অধ্যাপক মোঃ আবুল খায়েরের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন লাকসাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ডাঃ এ কে এম সাইফুল আলম। আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন লাকসাম উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা উপন্যাস চন্দ্র দাস, লাকসাম ফেয়ার হেলথ হসপিটাল এর ভাইস চেয়ারম্যান মীর মোঃ আবু বাকার, লাকসাম মেডিকেল সেন্টার প্রাঃ লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক লুৎফুর রহমান জুয়েল, উপ ব্যাবস্থাপনা পরিচালক আজিজুল হক মজুমদার, আমেনা মেডিকেল সেন্টার প্রাঃ লিঃ এর ব্যবস্থাপক মোঃ মাঈনউদ্দিন। 

আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন ভিক্টোরি অব হিউম্যানিটি অর্গানাইজেশনের সহ সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সাকিব, সাধারণ সম্পাদক জহিরুল কাঈয়ূম অনিক, মিডিয়া এডভাইজর জহিরুল কাইয়ূম ফিরোজ, নির্বাহী সদস্য রোকনুজ্জামান রোকন। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সিনিয়র সহ সভাপতি ফরহাদ আলম, দপ্তর সম্পাদক রকিবুল হাসাম শান্ত, সমাজসেবা বিষয়ক সম্পাদক ইমরান মাহমুদ, কর্মসূচি বিষয়ক সম্পাদক মহসিন মিয়া, নারী শিশু ও শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক ইকবাল মাহমুদ, নির্বাহী সদস্য আজিমুর রহমান, কাউসার আলম, মাইনুল ইসলাম রাসেল, সদস্য মোঃ আজিজ, শাহাদাত হোসেন, জোবায়ের আহমেদ, রাফি মাহমুদ, আক্তার হোসেন, মামুন হোসেন, অন্তু, নাজমুল হাসান, রাশেদ সহ প্রমুখ।আলোচনা সভা শেষে ৫০০০তম রক্তদান পূর্ণে উপলক্ষ্যে কেক কাটা হয় এবং ৫জন উদয়ীমান স্বেচ্ছাসেবককে সম্মাননা প্রদান করা হয়। এরপর উপজেলা পরিষদ থেকে এক বর্ণাঢ্য র্যালী নগরীর বিভিন্ন রাস্তা পদক্ষিণ করে আবারো উপজেলা পরিষদে এসে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয়।

ঠাকুরদীঘি বাজারে ইসলামী ব্যাংকের এজেন্ট ব্যাংকিংয়ের উদ্বোধন

ঠাকুরদীঘি বাজারে ইসলামী ব্যাংকের এজেন্ট ব্যাংকিংয়ের উদ্বোধন


ঠাকুরদীঘি বাজারে ইসলামী ব্যাংকের এজেন্ট ব্যাংকিংয়ের উদ্বোধন

মিরসরাই প্রতিনিধিঃমিরসরাই উপজেলার ঠাকুরদীঘি বাজারে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেডের এজেন্ট ব্যাংকিং আউটলেট উদ্বোধন করা হয়েছে। সোমবার ( ২ নভেম্বর) বিকেলে ফিতা কেটে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়। ইসলামী ব্যাংকের এভিপি ও বারইয়ারহাট শাখা প্রধান মুহাম্মদ বোরহান উদ্দিন খাঁনের সভাপতিত্বে এবং ব্যাংক কর্মকর্তা মোঃ দিদারুল আলমের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন মিরসরাই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব জসীম উদ্দিন। অনুষ্ঠানে গেস্ট অব অনার ছিলেন ইসলামী ব্যাংকের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট ও চট্টগ্রাম উত্তর জোন প্রধান মোঃ নাইয়ার আজম।বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ব্যাংকের এভিপি ও মিরসরাই শাখা প্রধান লুৎফুল্লাহিল মাজিদ, সোশাল ইসলামী ব্যাংক বারইয়ারহাট শাখার ব্যবস্থাপক শহীদুল হক চৌধুরী, সাউথইষ্ট ব্যাংকের বারইয়ারহাট শাখার ব্যবস্থাপক মোঃ শাহজাহান। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন ইসলামী ব্যাংক এজেন্ট ব্যাংকিং  ঠাকুরদীঘি আউটলেট মেসার্স সাইফুল বারি এন্টারপ্রাইজের স্বত্ত্বাধিকারী এবিএম আলমগীর চৌধুরী। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ৮ নং দুর্গাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু সুফিয়ান বিল্পব, সাবেক চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম খোকা, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক এম সাইফুল্লাহ দিদার, মিরসরাই প্রেসকাবের সভাপতি নুরুল আলম, দুর্গাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ফরিদ আহম্মেদ আরজু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মোতাহের হোসেন চৌধুরী জুয়েল। প্রধান অতিথির বক্তব্যে জসিম উদ্দিন বলেন, দেশের প্রত্যন্ত এলাকায় আধুনিক ব্যাংকিং পদ্ধতির মাধ্যমে ব্যাংকিং সেবা পৌঁছে দেয়ার জন্য ইসলামী ব্যাংকের নতুন নতুন সেবা কার্যক্রমের একটি অংশ হলো এজেন্ট ব্যাংকিং সেবা। দারিদ্র দুরীকরণ করে উন্নত দেশের কাতারে উপনীত হতে এজেন্ট ব্যাংকিং সেবা ভূমিকা রাখবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।গেস্ট অব অনারের বক্তব্যে মো. নাইয়ার আজম বলেন, বর্তমান সরকারের ডিজিটাল দেশ গড়ার অংশ হিসেবে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড এজেন্ট ব্যাংকিং কার্যক্রমসহ সেলফিন, এটিএম,সিআরএম সহ ডিজিটাল পদ্ধতিতে নিত্যনতুন ব্যাংকিং সেবা প্রদান করে আসছে। তিনি এ গ্রাহকদেরকে এ সেবা গ্রহণ করার আহবান জানান।

ঝিনাইদহে কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে উপকরণ বিতরণ

 ঝিনাইদহে কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে উপকরণ বিতরণ


কৃষকের মাঝে কৃষি উপকরণ বিতরণ

ঝিানইদহ প্রতিনিধিঃঝিনাইদহে কৃষকদের মাঝে ডাল, তেল মসলা বীজ উৎপাদন, সংরক্ষণ ও বিতরণ করা হয়েছে। সোমবার বিকেলে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উদ্যোগে সদর উপজেলা কৃষি অফিসের আয়োজনে বিনামূল্যে কৃষকদের মাঝে এ উপকরণ বিতরণ করা হয়। সেসময় সদর উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাড. আব্দুর রশীদের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর যশোর অঞ্চলের অতিরিক্ত পরিচালক পার্থ প্রতীম সাহা। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কৃপাংশু শেখর বিশ্বাস, সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রাশিদুর রহমান রাসেল, কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার জুনাইদ হাবীব, উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা খাইরুল ইসলাম প্রমুখ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সদর উপজেলা কৃষি অফিসার জাহিদুল করিম। আলোচনা সভা শেষে তৃতীয় পর্যায়ের প্রকল্প উপকরণ বিতরণ কার্যক্রম সম্পন্ন করা হয়।

এই মেঘ এই রোদ্দুর মোঃ রাসেল মিয়া

 এই মেঘ এই রোদ্দুর          মোঃ রাসেল মিয়া




সবুজ মাঠ সবুজ ঘাস

সবুজে সবুজে একাকার

মুগ্ধতার আহবানে এদিক ওদিক

ফিরে তাকাই বারবার।


রূপের নাই শেষ তোমার

আমার মাতৃভূমি

ভালবাসি সবুজের সমারোহ

সত্যিই অপরূপ তুমি ।


ঋতুর বৈচিত্রতায় অপরূপ সাজে

প্রকৃতি যে সেজেছে আজ

বৃষ্টিতে ভিজে পাতারা

নিয়েছে গাঢ় সবুজের সাজ ।


চারিদিকে সবুজ শান্তির

নেমেছে যেন শীতল ধারা

গাছে ফুটেছে রঙ-বেরঙের ফুল

প্রকৃতির সাথে হই আনন্দে মাতোয়ারা ।


সবুজ পাতার ফাঁকে ফাঁকে

ফুটেছে কৃষ্ণচূড়া

কদম কেয়া আর কামিনী গাছ

ফুলে ফুলে ভরা ।


আমার বাংলার মত কোথাও নাই

এমন সবুজতর রূপ

চারিদিকে ছাতার মত

গাছে গাছে পল্লবের স্তুপ ।


পথে প্রান্তরে নদীর তীরে

বটের ছায়ায়

সবুজে সবুজে মন মাতায়

যেন এক অপরূপ মায়ায় ।


জন্মভুমি মাগো আমার

শত দু:খেও সবুজে প্রাণ জুড়ায়

বিমুগ্ধ নয়নে চেয়ে থাকি

প্রকৃতি তুমি কাছে টান এ কোন মহিমায় ।


পেতে চাই না দামী কিছু

চাইনা অজস্র ধন ভান্ডার

তোমার মাঝে সবই পাই

ধনে যে লালসা নেই আমার ।


এখন আর তোমার রূপে মাগো

মন না রাঙে

খুন-খারাবি আর সন্ত্রাসীর

খবরে প্রতিদিনের ঘুম ভাঙে ।


সবুজে সবুজে প্রাণ হয়না

কেন আজ সিক্ত

মাতৃভূমি মাগো তোমার

বুক রক্তে কেন আজ রক্তাক্ত ।


তবুও আশা রাখি সবুজে সবুজে

হউক উজ্বল তোমার এই ধুলির ধরায়

শত দু:খে যেন জুড়ায় মন প্রাণ

তোমার সবুজের অমৃত স্পর্শ ছোঁয়ায়।

মহাদেবপুরে গলায় ছুরিকাঘাত করে চার্জার ছিনতাই

 মহাদেবপুরে গলায় ছুরিকাঘাত করে চার্জার ছিনতাই

রহমতউল্লাহ আশিকুজ্জামান নুর বদলগাছী নওগাঁঃনওগাঁ জেলার  মহাদেবপুরে ব্যাটারি চালিত চার্জার চালকের গলায় ছুরিকাঘাত করে চার্জার ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। চালক আল আমিন( ১৮) কে প্রথমে আশঙ্কাজনক অবস্থায় নওগাঁ সদর হাসপাতালে নেয়া হলেও পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রাতেই সোহাগ (২১) নামে এক চার্জার চালককে পুলিশ ফাঁড়ি হেফাজতে নেয়া হয়েছে। রোববার (১ নভেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলার চেরাগপুর ইউনিয়নের স্বরুপপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।আল-আমিন মহাদেবপুর উপজেলার বাগধানা গ্রামের আশরাফুল এর ছেলে।স্থানীয়রা জানান, সন্ধ্যায় আল-আমিন শরীরের কাঁদামাটি ও রক্তাত্ত অবস্থায় নওহাটা মোড়ে এসে পড়ে যায়। এরপর পুলিশ ফাঁড়িতে বিষয়টি অবগত করা হয়। ওই যুবক হাত দিয়ে তার গলা ধরে ছিল। তেমন কথা বলতে পারছিল না। পুলিশের সহযোগীতায় আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে প্রথমে নওগাঁ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। ঘটনাস্থলে দেখা যায় একটি কসটেপ ও একটি ব্যাগ পড়ে ছিল। চার্জার ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্যে  হাত-পা ও মুখ বেঁধে গলায় ছুরি দিয়ে জখম করে দূর্বত্তরা 

চার্জার নিয়ে চলে যায়। এক পর্যায়ে আল-আমিন তার হাত ও পায়ের টেপ খুলে গলায় ছুরিকাঘাতের স্থানটি হাতদিয়ে চেপেধরে সেখান থেকে চলে আসতে সক্ষম হয়। ব্যাটারি চালিত চার্জারের মালিক বেলঘরিয়া গ্রামের মন্টু ঋষির ছেলে বিশু ঋষি বলেন, গত তিনদিন পূর্বে তিনি তার চার্জারটি চালানোর জন্য দক্ষিণ-লক্ষিপুর গ্রামের একাব্বর হোসেনের ছেলে সোহাগকে চালানোর দায়িত্ব দিয়ে শ্বশুরবাড়ি বেড়াতে যান। তিনি জানতে পারেন রোববার সন্ধ্যা ৬ টার দিকে সোহাগ হাঁপানিয়া বাজার নামক স্থানে আল-আমিন নামে এক যুবককে চার্জারটি চালানোর দায়িত্ব দেয়। এরপর আল-আমিন নওহাটামোড় থেকে তিনজন যাত্রীনিয়ে স্বরস্বপ্নপুর এর উদ্দেশ্য রওনা দেন।পথিমধ্যে যাত্রীবেশী অজ্ঞাত দূর্বৃত্তরা তার মুখে ও হাত-পায়ে কসটেপ পেচিয়ে রাস্তার ধারে ধানক্ষেতে নিয়ে গলায় ছুরিকাঘাত করে চার্জার নিয়ে পালিয়ে যায়।

মহাদেবপুর থানার নওহাটা পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) জিয়াউর রহমান বলেন, সন্ধ্যায় ওই ব্যাটারি চালিত চার্জার চালক নওগাঁ-রাজশাহী আঞ্চলিক মহাসড়কের নওহাটা মোড় থেকে যাত্রী নিয়ে স্বরুপপুরের দিকে যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে স্বরুপপুরের আগে যেখানে আশপাশে কোন জনবসতি নাই এমন জায়গায় এক ধান ক্ষেতে হাত-পা বেঁধে গলায় ছুরিকাঘাত করে চার্জারটি ছিনতাই করে নিয়ে যায়। তিনি কথা বলতে পারছিলন না। তিনি আরো বলেন, দূর্বত্তরা পরিকল্পনা করে যাত্রী বেশে তার গলায় ছুরিকাঘাত করে চার্জারটি ছিনতাই করে নিয়ে যায়।পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে একটি কসটেপ ও কিছু আলামত জব্দ করেছে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় চার্জার চালককে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। মহাদেবপুর থানার নওহাটা পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক জিয়াউর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

কুলাউড়ার রাউৎগাঁও ইউনিয়নে বিনামূল্যে চক্ষু চিকিৎসা প্রদান

 কুলাউড়ার রাউৎগাঁও ইউনিয়নে বিনামূল্যে চক্ষু চিকিৎসা প্রদান

 


  বিনামূল্যে চক্ষু চিকিৎসা প্রদান

মোঃরেজাউল ইসলাম শাফি, কুলাউড়া উপজেলা প্রতিনিধিঃকুলাউড়া উপজেলার ৮নং রাউৎগাঁও ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গণে  ০২ নভেম্বর সোমবার নিঃস্ব সহায়ক সংস্থা (এনএসএস) সিলেট এর উদ্যোগে ও মৌলভীবাজার বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালের সহযোগিতায় অসহায় ও দরিদ্র মানুষের মধ্যে দিনব্যাপী বিনামূল্যে চক্ষু চিকিৎসা সেবা দেয়া হয়েছে।

রাউৎগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুল জলিল জামাল এর সভাপতিত্বে ও সংস্থার কো-অর্ডিনেটর ফজলে মাওলা চৌধুরী ফুয়াদের পরিচালনায় চক্ষু শিবিরের উদ্বোধনীতে প্রধান অতিথি ছিলেন নিঃস্ব সহায়ক সংস্থার নির্বাহী পরিচালক, সিলেট শাবিপ্রবি’র সাবেক রেজিস্টার জামিল আহমদ চৌধুরী। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন লংলা আধুনিক ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ (ভারঃ) আতাউর রহমান, কুলাউড়া উপজেলা হাসপাতালের ডাঃ মোঃ আশরাফ হোসেন ভুঞা, কুলাউড়া প্রেসক্লাব সভাপতি এম শাকিল রশীদ চৌধুরী, বিশিষ্ট সমাজসেবী রাজানুর রহিম ইফতেখার, সাংবাদিক আব্দুল কুদ্দুছ ও শাহবান রশীদ চৌধুরী অনি।বক্তারা আয়োজকদের ধন্যবাদ জানিয়ে সমাজের অবহেলিত ও অসহায় মানুষের জীবন-মান উন্নয়নে সংস্থার বিভিন্ন সেবামূলক কাজের প্রশংসা করে কার্যক্রমের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখার আহ্বান জানান।ফ্রি চক্ষু শিবিরে মৌলভীবাজার বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালের ডাঃ আব্দুল মান্নান এর নেতৃত্বে ৩ সদস্যের এক মেডিকেল টিম উপজেলার রাউৎগাঁওসহ বিভিন্ন এলাকার প্রায় ৮ শতাধিক পুরুষ-মহিলা চক্ষুরোগীকে বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা প্রদান করেন।

জাতীয় যুব দিবসে বগুড়ায় আলোচনা সভা ও ঋণের চেক বিতরণ

জাতীয় যুব দিবসে  বগুড়ায় আলোচনা সভা ও ঋণের চেক বিতরণ


জাতীয় যুব দিবসে  বগুড়ায় আলোচনা সভা ও ঋণের চেক বিতরণ
মোঃ সবুজ মিয়া বগুড়া প্রতিনিধিঃ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী পালন উপলক্ষে এ বছরের জাতীয় যুব দিবসের প্রতিপাদ্য বিষয়- “মুজিববর্ষের আহবান, যুব কর্মসংস্থান” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে বগুড়ায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় যুব দিবস উদযাপন করা হয়েছে।

শহরের তিনমাথা প্রতিষ্ঠানের হলরুমে যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর বগুড়ার উদ্যোগে আলোচনা সভা, সনদপত্র, ঋণের চেক ও পুরস্কার বিতরণ করা হয়। প্রধান অতিথি ছিলেন বগুড়া বগুড়া জেলা প্রশাসক মো. জিয়াউল হক। এসময় তিনি বলেন, যুব সমাজ হচ্ছে যে কোন জাতির প্রাণ প্রবাহ।

তারা সমাজের সবচেয় কর্মক্ষম অংশ। তাদের শ্রম, মেধা, মনন ও সক্রিয় অংশগ্রহনের মাধ্যমে দেশের উন্নয়ন-অগ্রগতি অনেকাংশে নির্ভর করে। তিনি আরো বলেন, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের মূল লক্ষ হলো যুব সমাজের শক্তি, সাহস, কর্মক্ষমতাকে গঠনমূলকভাবে কাজে লাগিয়ে দেশ-জাতির অগ্রগতি ও কল্যান নিশ্চিত করা। বর্তমানে বেকারত্ব, সন্ত্রাস, মাদকাশক্তি জঙ্গিবাদ ইত্যাদি সমস্যা কবলিত যুব সমাজের সামনে আলোক বর্তিকা হিসেবে যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর কাজ করে যাচ্ছে।

যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর বগুড়ার উপপরিচালক কে এম আব্দুল মতিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবর রহমান মজনু, বগুড়া সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপপরিচালক আবু সাইদ মোহাম্মদ কাওছার রহমান, বগুড়া যুব প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের ডেপুটি কো-অর্ডিনেটর মো. ইসরাফিল হক, দৈনিক করতোয়ার বার্তা সম্পাদক প্রদীপ ভট্রাচার্য শংকর।

যুব উন্নয়ন বগুড়ায় বেকার যুবকদের প্রশিক্ষণ, ঋণ সহায়তা প্রদান, যুব সংগঠনকে নিবন্ধন প্রদান, যুব সংগঠনকে অনুদান প্রদান, আত্মকর্মসংস্থান তৈরি, সফল আত্মকর্মী যুবদের সকল যুব পুরস্কার প্রদান সহ বিভিন্ন প্রকার প্রশিক্ষণ দেয়া হয়।অনুষ্ঠান শেষে এ দিবস উপলক্ষে ১৭৩ জন যুব/যুব মহিলাদেরকে ৮৭ লক্ষ ৮০ হাজার টাকা যুব ঋণ সহায়তা দেয়া হয়

তেকানী চুকাইনগরে ফুটবল ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত

 তেকানী চুকাইনগরে ফুটবল ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত


মোঃ সবুজ মিয়া বগুড়া প্রতিনিধিঃ বগুড়া সোনাতলার তেকানী চুকাইনগর ইউনিয়নের পিএম দাখিল মাদ্রাসা মাঠে গতকাল বিকালে ফুটবল ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে।তেকানী চুকাইনগর ক্রীড়া চক্রের আয়োজনে ফাইনাল ফুটবল খেলায় বগুড়া সদর নুনগোলা ফুটবল একাদশ ও গাবতলী খেলোয়াড় কল্যান সমিতি অংশগ্রহণ করে। খেলায় গাবতলী খেলোয়াড় কল্যান সমিতি ১-০ গোলে বগুড়া সদর নুনগোলা ফুটবল একাদশকে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে।খেলা শেষে সৈয়দ আহম্মেদ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের সমাজকর্ম বিভাগের বিভাগীয় প্রধান মোঃ জাকিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ও পুরস্কার বিতরণ করেন স্পেক্ট্রা হেক্সা ফিডস্ লিমিটেড এর সিনিয়র ম্যানেজার কৃষিবিদ এনামুল হক।

তিনি বলেন, খেলাধুলা করলে মন ভাল রাখে ও নেশা থেকে দূরে রাখে। তাই খেলাধুলা করা দরকার। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন তেকানী চুকাইনগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মহিদুল ইসলাম, বর্তমান সাধারণ সম্পাদক ছানোয়ার হোসেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট সমাজসেবক রোমানুর রহমান, সালেক সোলার পাওয়ার লিমিটেড এর পক্ষে মিজানুর রহমান, উম্মে বেলিজা ক্যাডেট মাদ্রাসার পরিচালক মাওলানা মোঃ ওয়ালিউল্লাহ বিন আফজাল, সরলিয়া লতিফুন্নেছা ইবতেদায়ী মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক মোঃ জুয়েল রানা।চ্যাম্পিয়ন দল গাবতলী খেলোয়াড় কল্যান সমিতির অধিনায়কের হাতে ২০ হাজার টাকার প্রাইজমানি ও রানার্স আপ দল বগুড়া সদর নুনগোলা ফুটবল একাদশকে ১০ হাজার টাকার প্রাইজমানি প্রদান করা হয়।

ঝিনাইদহে সাজা প্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার

 ঝিনাইদহে সাজা প্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার




খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার,খুলনা ব্যুরো প্রধানঃঝিনাইদহ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ জনাব মোঃ মিজানুর রহমান এর নির্দেশে ঝিনাইদহ সদর থানা পুলিশের একটি চৌকশ দল ইং-০২/১১/২০২০ তারিখ বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে সিআর মামলার ০২ (দুই) বছরের সাজা এবং ২,০০০/- টাকা জরিমানা প্রাপ্ত আসামী মোঃ রানা মন্ডল, পিতা-দুলাল মন্ডল, সাং-গড়িয়ালা, থানা ও জেলা-ঝিনাইদহকে গ্রেফতার করেন। উক্ত আসামীকে বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

মুহাম্মদ (সাঃ)কে ব্যঙ্গ চিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত

মুহাম্মদ (সাঃ)কে ব্যঙ্গ চিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত

 


মোঃ ফিরোজ  হোসাইনঃরাজশাহী ব্যিরোফ্রান্সের রাষ্ট্রীয় পৃষ্টপোষকতায়  মহানবীর অবমাননা ও ব্যাঙ্গচিত্র প্রকাশের প্রতিবাদে আজ নওগাঁর আত্রাইয়ে  বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।সোমবার সকালে উপজেলা ইমাম মুয়াজ্জিন  ও উলামা মাশায়েখ  পরিষদ এ কর্মসূচীর আয়োজন করে। এতে ব্যানার ফেস্টুন নিয়ে ইমাম মুয়াজ্জিন, উলামা মাশায়খ  ছাড়াও নানা শ্রেণী পেশার জনগন এতে অংশ নেয়।বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন আত্রাই উপজেলা ইমাম উলামা পরিষদের সভাপতি আলহাজ্ব মওলানা আমিনুল ইসলাম।প্রতিবাদ সমাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, আত্রাই মদিনাতুল উলুম মাদ্রাসার মহাতামিম মুজাহিদ খাঁন, হাফেজ মওলানা মতিউর রহমান, হাফেজ মওলানা আরিফুল ইসলাম, হাফেজ মওলানা আব্দুর রহমান, হাফেজ মাওলানা শফিকুল ইসলাম, আব্দুস ছালাম প্রমূখ।এ সময় বক্তারা ফরাসি সব পণ্য বয়কট ও ইসলাম বিদ্বেষী সব চক্রান্তের বিরুদ্ধে সবাইকে সচেতন থাকার আহবান জানান।

বুড়িমারীতে গ্রেপ্তার ৫জনের রিমান্ড শুনানি পিছিয়ে মঙ্গলবার

 বুড়িমারীতে গ্রেপ্তার ৫জনের রিমান্ড  শুনানি পিছিয়ে মঙ্গলবার

রশিদুল ইসলাম রিপন, লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধি: লালমনিরহাটের বুড়িমারীতে গণপিটুনিতে নিহত শহীদুন্নবী জুয়েলকে হত্যা ও মরদেহ পোড়ানোর অভিযোগে গ্রেফতার পাঁচজনকে পাঁচদিনের রিমান্ড আবেদনের শুনানি সোমবার থেকে পিছিয়ে মঙ্গলবার (৩ অক্টোবর) করেছেন আদালত।সোমবার (২ নভেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে  এ তথ্য নিশ্চিত করেন আদালত পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক এর আগে রোববার (১ নভেম্বর) সন্ধ্যা ৭টার দিকে লালমনিরহাট সিনিয়র জুডিসিয়াল আদালত-৩ এর বিচারক ফেরদৌসী বেগম সোমবার রিমান্ড শুনানির দিন ধার্য করে আসামিদের জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখাকে (ডিবি) আলোচিত এ তিন মামলার তদন্তভার দেওয়া হয়। আপাতত হত্যা মামলায় গ্রেফতার পাঁচ আসামিকে পাঁচদিন করে রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করেছেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পরিদর্শক মাহমুদুন্নবী।  গ্রেফতারকৃতরা হলেন- ওই এলাকার ইসমাইল হোসেনের ছেলে আশরাফুল আলম (২২) ও বায়েজিদ (২৪), ইউসুব আলী ওরফে অলি

হোসেনের ছেলে রফিক (২০), আবুল হাসেমের ছেলে মাসুম আলী (৩৫) এবং সামছিজুল হকের ছেলে শফিকুল ইসলাম (২৫)।কোরআন অবমাননার গুজব ছড়িয়ে শহিদুন্নবী জুয়েলকে হত্যার দায়ে নিহতের চাচাত ভাই সাইফুল ইসলাম বাদী হয়ে শনিবার (৩১ অক্টোবর) একটি মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় গ্রেফতার পাঁচ আসামিরই পাঁচদিন করে রিমান্ড চেয়ে আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পরিদর্শক মাহমুদুন্নবীসোমবার (২ নভেম্বর) রিমান্ড আবেদনের শুনানির দিন ধার্য করে আসামিদের হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত।

এ ঘটনায় পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগে পাটগ্রাম থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) শাহজাহান আলী বাদী হয়ে এবং ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) ভাঙচুরের অভিযোগে অপর একটি মামলা দায়ের করেন বুড়িমারী ইউপি চেয়ারম্যান আবু সাঈদ নেওয়াজ নিশাত। বহুল আলোচিত তিনটি মামলায় জেলা ডিবি পুলিশকে তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়। এসব মামলায় প্রথম পাঁচ আসামিকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠায় পুলিশ।

এর আগে বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) বিকেলে পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী বাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে হামলার ঘটনা ঘটে। নিহত যুবক শহিদুন্নবী জুয়েল রংপুর শহরের শালবন মিস্ত্রিপাড়ার আব্দুল ওয়াজেদ মিয়ার ছেলে। তিনি রংপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের সাবেক গ্রন্থাগারিক এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র। গত বছর চাকরিচ্যুত হওয়ায় কিছুটা মানসিক ভারসাম্যহীন হারিয়ে ফেলেন তিনি।


পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, শহিদুন্নবী জুয়েল বৃহস্পতিবার বিকেলে সুলতান যোবাইয়ের আব্দার নামে একজনকে সঙ্গে নিয়ে বুড়িমারী বেড়াতে আসেন। বিকেলে বুড়িমারী কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে আসরের নামাজ আদায় করেন তারা।

নামাজ শেষে পাঠ করার জন্য মসজিদের সানসেটে রাখা কোরআন শরিফ নামাতে গিয়ে অসাবধানতাবশত কয়েকটি কোরআন ও হাদিসের বই তার পায়ে পড়ে যায়। এ সময় কোরআর ও হাদিস বই তুলে চুম্বনও করেন জুয়েল। বিষয়টি নিয়ে তার সঙ্গে মুয়াজ্জিনের কথা কাটাকাটি হয়। এরপর আশপাশের লোকজন ছুটে এসে সন্দেহবশত জুয়েল ও সুলতান যোবাইয়েরকে পাশে ইউনিয়ন পরিষদ ভবনের একটি কক্ষে আটকে রাখে। খবর পেয়ে পাটগ্রাম উপজেলা চেয়ারম্যান, ইউএনও, ওসি বুড়িমারী ইউনিয়ন পরিষদে যান।  

সন্ধ্যায় পুরো বাজারে এবং পার্শ্ববর্তী গ্রামে গুজব ছড়িয়ে পড়ে যে কোরআন অবমাননার দায়ে দুই যুবককে আটক করা হয়েছে। এ সময় উত্তেজিত হয়ে বিক্ষুব্ধ জনতা ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) ভবনের দরজা-জানালা ভেঙে প্রশাসনের কাছ থেকে  জুয়েলকে ছিনিয়ে নিয়ে পিটিয়ে হত্যা করে। পরে মরদেহ টেনে পাটগ্রাম বুড়িমারী মহাসড়কে নিয়ে আগুনে পুড়িয়ে ছাই করে দেয় স্থানীয়রা। এ সময় বিক্ষুব্ধ জনতা মহাসড়কে আগুন জ্বালিয়ে অবরোধ করে বিক্ষোভ মিছিল করে।

সন্ধ্যা থেকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে পাটগ্রাম ও হাতীবান্ধা থানা পুলিশ, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা দফায় দফায় চেষ্টা করে ব্যর্থ হন। এ সময় বিক্ষুব্ধ জনতার ছোড়া ইট পাথরের আঘাতে পাটগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুমন্ত কুমার মোহন্তসহ ১০ জন পুলিশ সদস্য আহত হন। জনতাকে ছত্রভঙ্গ করতে ১৭ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়েপুলিশ।রাত সাড়ে ১০টার দিকে লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক আবু জাফর ও পুলিশ সুপার (এসপি) আবিদা সুলতানা অতিরিক্ত পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। নিহত জুয়েলের সঙ্গী সুলতান যোবাইয়েরকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছে পুলিশ।  

ঘটনাটি তদন্তে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে শুক্রবার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট টি এম এ মমিনকে প্রধান করে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ ঘটনায় নিহত জুয়েলের চাচাত ভাই সাইফুল আলম, পাটগ্রাম থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শাহজাহান আলী ও বুড়িমারী ইউপি চেয়ারম্যান আবু সাঈদ নেওয়াজ নিশাত বাদী হয়ে পৃথক তিনটি মামলা দায়ের করেছেন। ঘটনাস্থলের ভিডিও দেখে আসামি শনাক্ত করে অভিযান চালিয়ে পাঁচজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত সবাই বুড়িমারী এলাকার বাসিন্দা বলে জানায় পুলিশ।ছবি

 

ঝিকরগাছায় ব্যাংক এশিয়া গদখালি আউটলেট এর শুভ উদ্বোধন

ঝিকরগাছায় ব্যাংক এশিয়া গদখালি আউটলেট এর শুভ উদ্বোধন

মোঃ ইকরামুল করিম সৈকত, ঝিকরগাছা প্রতিনিধিঃ ঝিকরগাছায় ব্যাংক এশিয়া গদখালি আউটলেট এর শুভ উদ্বোধন এবং তিন হাজার মাস্ক বিতরণ কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হয়েছে।উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ঝিকরগাছা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জনাব মনিরুল ইসলাম।বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জনাব মোঃ রবিউল ইসলাম, হেড অব ব্রাঞ্চ, যশোর শাখা।বিশেষ অতিথি হিসেবে আরও উপস্তিত ছিলেন ঝিকরগাছা উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জনাব মোঃ সেলিম রেজা। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আলহাজ্ব মোঃ নজরুল ইসলাম (নৌঃ অবঃ)।

উক্ত অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন গদখালি এজেন্ট আউটলেট এর উদ্দোক্তা মোঃ আজাহারুল ইসলাম মিথুন।এছাড়া আমন্ত্রিত অতিথি হিসাবে আরও উপস্থিত ছিলেন ৪নং গদখালি ইউনিয়ন পরিষদের ইউপি সদস্য জনাব রফিকুল ইসলাম,

ইউপি সদস্য জনাব মোঃ নজরুল ইসলাম, ফুল ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি জনাব আব্দুর রহিম, বীরমুক্তিযোদ্ধা ডাঃ আবু বকর সিদ্দিক, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল জলিল সর্দার,ব্যাংক এশিয়া হেড অফিসের এল এম আকিদুল ইসলাম, এমসিআইডব্লিউ পরিচালক এ্যাঞ্জেলিকা বিশ্বাস প্রমুখ।

কুমিল্লা টাউনহল মাঠে লাখো তৌহিদি জনতার ঢল

কুমিল্লা টাউনহল মাঠে লাখো তৌহিদি জনতার ঢল

 


মো: রবিউল হোসাইন সবুজ,কুমিল্লা প্রতিনিধিঃকুমিল্লা শহর  কুমিল্লা টাউনহল মাঠে মহানবী হযরত মুহাম্মাদ (সাঃ) এর ব্যঙ্গ চিত্র প্রকাশের প্রতিবাদে বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়েছে।  ফ্রান্সে মহানবী হযরত মুহাম্মাদ (সা:) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের প্রতিবাদে সোমবার (২রা,নভেম্বর) সকাল ১১টার সময় কুমিল্লা টাউনহল মাঠে  বিক্ষোভ সমাবেশ করে।বাংলাদেশ জমিয়াতুল হিযবুল্লাহ,যুব হিযবুল্লাহ ও ছাএ হিযবুল্লাহ কুমিল্লা,লাকসাম শাখা।আমীরে হিযবুল্লাহ ছারছীনা দরবার শরীফের হযরত পীর সাহেব হুজুরের নির্দেশে, কুমিল্লা টাউন হল সংলগ্ন, পূবালী চত্বরে, ফ্রান্সের বিরুদ্ধে মানববন্ধনের আয়োজনে এ বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবি বিভাগের অধ্যাপক, জমিয়তে হিযবুল্লাহ কুমিল্লা জেলার সম্মানিত সভাপতি, ড. হা. মাও. রুহুল আমিন সাহেব ও অন্যান্য নেতৃবৃন্দএসময় ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল মাক্রো’র কুশপুত্তলিকা দাহ করে বিক্ষোভকারীরা। মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন,জমিয়তে হিযবুল্লাহ কুমিল্লা জেলার সম্মানিত সভাপতি, ড. হা. মাও. রুহুল আমিন সাহেব।প্রতিবাদ সমাবেশে ইমাম পরিষদের নেতৃবৃন্দ বলেন, ফ্রান্স সরকার রাষ্ট্রীয়ভাবে পুলিশ পাহারায় মুহাম্মদ (সা.)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন করে বিশ্ব মুসলিমের কলিজায় আঘাত হেনেছে। নবীজির অবমাননা মুসলমানগণ কিছুতেই বরদাশত করবে না। ফ্রান্স সরকার নবীর বিরুদ্ধে ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের মাধ্যমে বিশ্বমুসলিমকে উস্কে দিয়ে ধর্মযুদ্ধ বাধানোর ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে। বক্তারা আরো বলেন, ফ্রান্স সরকারকে অবিলম্বে এ ধৃষ্টতাপূর্ণ ব্যঙ্গচিত্র প্রচারনা বন্ধ করতে হবে। অন্যথায় ফ্রান্সের বিরুদ্ধে সারাবিশ্বে প্রতিবাদের দাবানল ছড়িয়ে পরবে এবং নবী প্রেমিকরা ফ্রান্সের পণ্যবর্জন করতে বাধ্য হবে। তিনি বিশ্বশান্তির দূত হযরত মহানবী (সা.) এর অবমাননা বন্ধে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে রুখে দাঁড়ানোর জন্য মুসলিম বিশ্বের প্রতি আহ্বান জানান। সমাবেশে বক্তারা আরো বলেন,ফ্রান্স সরকারের এমন কর্মকান্ডের তীব্র নিন্দা জানিয়ে ফ্রান্স কে সকল বয়কট সহ দেশটির সকল প্রকার পণ্য বর্জন করার জন্য সরকারের কাছে আইন প্রনয়ন করার দাবী জানিয়েছেন।

দৌলতখানে ফ্রান্সে মুহাম্মদ (সঃ) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে বিক্ষোভ

 দৌলতখানে ফ্রান্সে মুহাম্মদ (সঃ) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে বিক্ষোভ

 

মোঃ আওলাদ হোসেন,জেলা প্রতিনিধি ভোলা,(দৌলতখান)ভোলার দৌলতখানে আজ ২রা নভেম্বর ২০২০ইং রোজ সোমবার, ফরাসি পত্রিকা শার্লি এবদো কর্তৃক প্রকাশিত বিশ্ব মানবতার মুক্তির দিশারী বিশ্ব নবী হযরত মুহাম্মদ (সা:) কে  ব্যঙ্গাত্মক কার্টুন ফ্রান্স সরকারের পৃষ্ঠপোষকতায়  প্রদর্শনের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে জমিয়াতুল মোদাররেছীন কমিটির উদ্যোগে বিশাল বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করা হয়েছে। উক্ত সমাবেশে দৌলতখান উপজেলার বিভিন্ন মসজীদ মাদ্রসা  থেকে নবী প্রেমিক তাওহীদি জনতা মিছিলে মিছিলে শ্লোগানে শ্লোগানে সমবেত হতে থাকে। 

 জৈনপুরী হুজুরের বাড়ির মসজিদের সামনের থেকে  বিক্ষোভ মিছিলটি শুরু হয়ে দৌলতখানের  বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। এ সময় মহানবী (সঃ) এর ভালোবাসার স্লোগানে মুখরিত হয়ে ওঠে গোটা এলাকা।বিক্ষোভ সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেনন, মুসলিমরা শান্তিতে বিশ্বাসী। কিন্তু তার মানে এই নয় যে, মুসলিমদের জীবনের চেয়েও প্রিয় মহানবী হযরত মোহাম্মদকে (সা:) অবমাননা করলে আমরা চুপ থাকব।

‘ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁ হজরত মুহাম্মদ (সা.)-এর ব্যঙ্গচিত্র কার্টুন প্রকাশ করে মুসলিম উম্মাহর হৃদয়ে চরম আঘাত হেনেছে। এ জন্য ফ্রান্সকে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে হবে। ঈমানদার মুসলমানরা এই ন্যাক্কারজনক ঘটনার প্রতিবাদে ফ্রান্সের সকল পণ্য বর্জন করে ওদের দাঁতভাঙ্গা জবাব দেবে।  ফ্রান্সে রাষ্ট্রীয় মদদে মহানবী (সা.) এর অবমাননাকর কার্টুন প্রদর্শন করায় বিশ্বের দুইশ’ কোটি মুসলমান ব্যথিত হয়েছেন। ফ্রান্সের এমন গর্হিত ইসলাম ও মুসলিম বিদ্বেষী কর্মকাণ্ড বন্ধ করতে হবে। বিক্ষুব্ধ মুসলমানদের হৃদয়ের ক্ষত মুছতে হলে ফ্রান্সকে অবিলম্বে রাষ্ট্রীয়ভাবে ক্ষমা চাইতে হবে।


বক্তারা বলেন, আমরা গভীর ক্ষোভ ও উদ্বেগের সাথে লক্ষ্য করছি যে, ফরাসি ঘৃণিত পত্রিকা শার্লি এবদো কর্তৃক প্রকাশিত ও ফরাসি প্রেসুডেন্ট ম্যাক্রো কর্তৃক, বিশ্বের সর্বশ্রেষ্ঠ আদর্শ মহাপুরুষ মহানবী হযরত মোহাম্মদ (সা:) কে নিয়ে ব্যঙ্গাত্মক কার্টুন পুলিশ প্রহরায় অট্টালিকার দেয়ালে টাঙিয়ে প্রদর্শনের ব্যবস্থা করেছে। এমন ঘটনা প্রতিরোধে মুসলিম উম্মাহর উচিৎ ঐক্যবদ্ধভাবে জোরালো প্রতিবাদ করা।

তারা আরো বলেন, একবিংশ শতাব্দীতে কোনো সভ্য জাতি, দেশ বা সরকার কারো মৌলিক বিশ্বাসের ওপর এভাবে আঘাত হানতে পারে না। শুধু মুসলমান নয় বরং বিশ্বের শান্তিকামী দেশের মানুষের কাছ থেকে ধিক্কার ও ঘৃণা কুড়িয়েছিল ফ্রান্স। এর আগেও ২০১৫ সালে এ পত্রিকাটি রাসূলকে (সা:) নিয়ে ব্যঙ্গাত্মক কার্টুন প্রকাশ করেছিল। এ নীতিহীন অপকর্মের ফলে বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে সহিংসতার সৃষ্টি হয়েছিল যাতে বহু মানুষ প্রাণ হারিয়েছিল।

এবার শার্লি এবদোর সাথে সাথে ফরাসি সরকারের এই কাণ্ডজ্ঞানহীন আচরণ শান্তিকামী বিশ্ববাসীকে হতবাক করেছে। এই নিন্দনীয় কাজ প্রতিটি মুসলমানসহ বিশ্বের প্রতিটি বিবেকবান মানুষের হৃদয়ে আঘাত করেছে।

উক্ত সমাবেশে বক্তব্য পেশ করেন,জনাব মাওলানা আবদুস ছামাদ, সভাপতি জমিয়াতুল মোদাররেছীন দৌলতখান শাখা, জনাব মাওলানা মোবাশ্বেরুল হক নাঈম, সাধারন সম্পাদক জমিয়াতুল মোদাররেছীন ভোলা জেলা শাখা, জনাব মাওলানা জয়নাল আবদীন জসিম, সাধারন সম্পাদক জমিয়াতুল মোদাররেছীন দৌলতখান শাখা,উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক, জনাব আনোয়ার হোসেন জাহাঙ্গীর, পৌর মেয়র, জনাব জাকির হোসেন তালুকদার, ভবানীপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান, জনাব গোলাম নবী নবু, মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি, জনাব ফরমুজল হক, হাজিপুর ফাযিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মোহসেন, চরপাতা আলিম মাদ্রসার প্রভাষক জনাব আস্রাফউদ্দিন ফারুখ, হাজিপুর ফাযিল আরবী প্রভাষক, মাওলানা  ওলিউল্লাহ কবির, হাজিপুর ফাযিল মাদ্রসার আরবী প্রভাষক নাজিউর রহমান নবীন সহ আরো অনেকে।দোয়া মুনাজাতের মাধ্যমে প্রোগ্রাম টি সমাপ্তি ঘোষনা করেন।

নির্মম নির্যাতনের স্বীকার একজন সাংবাদিক

 নির্মম নির্যাতনের স্বীকার  একজন সাংবাদিক



বেলাল উদ্দিন   সিনিয়র  স্টাফ রিপোর্টারঃআমাকে আর মারবেন না প্লিজ, আমি আর নিউজ করবোনা’। সহকর্মী সাংবাদিক গোলাম সরওয়ারের উপর কতোটা অমানবিক অত্যাচার চলেছে এ- থেকে অনুমান করা যায়।অপহরণকারীরা তাকে অর্ধমৃত অবস্থায় ফেলে রেখে গেছে অনেকটা বিবস্ত্র করে। এই ঘটনা পুরো সাংবাদিক সমাজের জন্য সতর্কবার্তার পাশাপাশি, লজ্জা ও উদ্বেগের। এই ঘটনার নেপথ্য হোতারা যদি আইনের আওতায় না আসে তাহলে এভাবেই সাংবাদিকরা নির্যাতিত হতে থাকবে।সাংবাদিক গোলাম সরওয়ারের অপহরণকারী ও নির্যাতনকারী পুরো চক্রকে অবিলম্বে গ্রেপ্তারের দাবী জানাই। নিশ্চই পুলিশ, র‌্যাবসহ আইন-শৃংখলাবাহিনী এ ব্যাপারে করণীয় সব ব্যবস্থা গ্রহন করবেন।

দুই মাসে মোংলা বন্দরে জাহাজ এসেছে ১৬২ টি,বেড়েছে রাজস্ব আয়

দুই মাসে মোংলা বন্দরে  জাহাজ এসেছে ১৬২ টি,বেড়েছে রাজস্ব আয়


মোঃএরশাদ হোসেন রনি, মোংলাঃ দেশের দ্বিতীয় সামুদ্রিক বন্দর মোংলায় জাহাজ আগমন বেড়ে যাওয়ায় আমদানি রপ্তানির পরিমান বেড়েছে । সেই সাথে বেড়েছে কর্মচাঞ্চল্য। বন্দরের উন্নয়নে সরকারের গৃহিত প্রকল্পগুলো দ্রুত বাস্তবায়ন হওয়ার ফলে অপারেশনাল কার্যক্রম আগের তুলনায় অনেক বেশি গতিশীল হয়েছে বলে জানিয়েছে বন্দর কর্তৃপক্ষ। এ ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকলে ২০২১ সালে মোংলা বন্দরে জাহাজ আগমনের সংখ্যা ১ হাজার ছাড়িয়ে যাবে বলে আশা প্রকাশ করেছে সংস্থাটি।

বন্দর কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছরের সেপ্টেম্বর মাসে বন্দরে জাহাজ এসেছে ৮৩ টি। অক্টোবরে এসেছে ৭৯ টি। কন্টেইনারের জাহাজ কম আসলেও এবার অক্টোবর মাসেই ৫ টি কন্টেইনার জাহাজ বন্দরে ভিড়েছে। সবমিলিয়ে সেপ্টেম্বর ও অক্টোবর মাসে মোংলা বন্দরে মোট জাহাজ এসেছে ১৬২ টি। চলতি বছরে বন্দরে তুলনামূলকভাবে জাহাজ আগমন বেড়ে যাওয়ায় দ্রুত গতিতে বাড়ছে রাজস্ব আয়।


পরিসংখ্যানে দেখা যায়, ২০০৯ - ২০১০ অর্থবছরে মোংলা বন্দরে মোট জাহাজ এসেছিল ১৫৬ টি। এক বছরে যেখানে জাহাজ এসেছে ১৫৬ টি সেখানে মাত্র ১০ বছরের ব্যবধানে মাত্র দুই তার চেয়েও বেশি সংখ্যক জাহাজ বন্দরে আগমন করেছে। বন্দর সংশ্লিষ্ট জানান, বিগত ১১ বছরে মোংলা বন্দরের অনেক উন্নয়ন হয়েছে। সরকারের আন্তরিক প্রচেষ্টায় এক সময়ের মৃত্য বন্দর আজ একটি লাভ জনক প্রতিষ্ঠানে পরিনত হয়েছে।

চলতি বছরের অক্টোবর মাসে অতীতের সকল রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে মোংলা বন্দর। গত ২৫ অক্টোবর বন্দরের সবগুলো জেটিতে বিদেশী জাহাজে পূরিপূর্ণ ছিল। অর্থাৎ একই সংগে জেটিতে ৫টি জাহাজ বার্থিং করে মালামাল খালাস করেছে। এছাড়াও গত ২১ অক্টোবর রুপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রথম চালানের যন্ত্রপাতি নিয়ে মোংলা বন্দরের জেটিতে মালামাল খালাসের কার্যক্রম সম্পন্ন করেছে।


বর্তমানে মোংলা বন্দরে বিদেশী জাহাজ আগমন বেড়ে যাওয়া এবং রাজস্ব আয় বৃদ্ধির বিষয়টিকে বর্তমান সরকারের একটি অন্যতম সাফল্যে হিসেবেই দেখছেন বন্দরের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল এম. শাহজাহান, এনপিপি, এনডিসি, পিএসসি,বিএন। তিনি বলেন, বন্দরের উন্নয়নে গৃহিত প্রকল্পগুলো দ্রুত বাস্তবায়নের ফলে অপারেশনাল কার্যক্রম বৃদ্ধি পেয়েছে। বন্দরে বিদেশী জাহাজ আগমনের সংখ্যা দ্রুত বাড়ছে। আমদানি রপ্তানিকারকরা এখন এ বন্দর ব্যবহারে সর্বাধিক গুরুত্ব দিচ্ছেন। বিশেষ করে গাড়ি আমদানিতে মোংলা বন্দরের গুরুত্ব বেড়েছে কয়েকগুন। মাওয়ায় পদ্মা সেতু চালু হলে আমদানি রপ্তানীতে শীর্ষ স্থান দখল করবে মোংলা বন্দর। তিনি আরো বলেন, মোংলা বন্দরের উন্নয়নে মাননীয়  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুদূর প্রসারী পদক্ষেপ বন্দরের কার্যক্রমকে আরো গতিশীল করেছে।

আওয়ামী লীগের শেকড় বাংলাদেশের সাধারণ মানুষের মধ্যে

আওয়ামী লীগের শেকড় বাংলাদেশের  সাধারণ মানুষের মধ্যে


তুহিন রানা (আব্রাহাম) খুলনা নগর প্রতিনিধিঃআওয়ামী লীগের শেকড় বাংলাদেশের  সাধারণ মানুষের মধ্যে। খুলনা মহানগর যুবলীগের বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক বলেন, সৃষ্টির পর থেকে আজ পর্যন্ত বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এদেশের মানুষের অধিকার আদায়ে অগ্রনী ভূমিকা পালন করেছে। আওয়ামী লীগের শেকড় বাংলাদেশের  সাধারণ মানুষের মধ্যে। আওয়ামী লীগকে চাইলেই নিশ্চিহ্ন করা সম্ভব নয়। সকল ষড়যন্ত্র প্রতিহত করে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে বলিয়ান হয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এগিয়ে যাবে। এ কারনে প্রতিটি নেতা কর্মীকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে বলিয়ান হয়ে শেখ হাসিনার নেতৃত্ব প্রতিষ্ঠায় কাজ করতে হবে। পরিক্ষীত আদর্শিত কর্মীছাড়া কখনই লক্ষ্যে পৌছানো সম্ভব নয়। অতএব আগামী দিনে যুবলীগের নেতৃত্বে পরিক্ষীত আদর্শিত ও ব্যাক্তিপূর্ণ কর্মীদের আনতে হবে। কোন মাদক ব্যবসায়ী, সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ, ভূমিদস্যু ও দুর্নীতিবাজ ব্যাক্তিদের দলে ঠায়  হবে না।

এ সময় তিনি যুবলীগের ওয়ার্ড ও থানা পর্যায়ের মেয়াদ উত্তীর্ণ কমিটি ভেঙ্গে সাবেক ছাত্রনেতা, পরিচ্ছন্ন নেতা কর্মীদের দিয়ে নতুন কমিটি গঠন করতে হবে।বর্ধিত সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম ডি এ বাবুল রানা বলেন, যুবলীগকে তাদের পুরনো কালিমা মোচন করে সংগঠন গড়ে তুলতে হবে। তিনি বলেন, পূর্ববর্তী নগর কমিটি ঘোষিত ওয়ার্ড ও থানা কমিটির সম্পর্কে আমাদের কাছে ভালো রিপোর্ট নেই। এই সকল কমিটি ভেঙ্গে যোগ্যদের দিয়ে নতুন কমিটি গঠন করতে হবে। তিনি আরো বলেন, দলের পদ ভাঙ্গিয়ে প্রশাসনে কোন তদবির করা যাবে না। এ ব্যাপারে তিনি হুশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি তালুকদার আব্দুল খালেক ব্যাতিত কেউ প্রশাসনে তদবির করলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।এই সময় নগর যুবলীগের আহবায়ক সফিকুর রহমান পলাশ ও যুগ্ম আহবায়ক শেখ শাহাজালাল হোসেন সুজন এর সঞ্চালনায় আরো বক্তব্য রাখেন, নগর আওয়ামী লীগ নেতা নূর ইসলাম বন্দ, শহিদুল হক মিন্টু, সাবেক যুবনেতা এস এম আকীল উদ্দীন, যুবলীগ নেতা এস এম হাফিজুর রহমান হাফিজ, রোজি ইসলাম নদী, কামরুল ইসলাম, আব্দুল কাদের শেখ, এ্যাডঃ আল আমীন উকিল, শওকত হোসেন, অভিজিৎ চক্রবর্তী দেবু, কবির পাঠান, মোস্তফা শিকদার,  কাজী ইব্রাহিম মার্শাল,  জুয়েল হাসান দিপু, মহিদুল ইসলাম মিলন, মেহেদী মোড়ল, কে এম শাহীন, ইয়াসিন আরাফাত, আব্দুল্লাহ আল মামুন মিলন, রাশেদুজ্জামান রিপন, মোঃ মিজানুর রহমান রুপম, ওলিউর রহমান রাজু, উপস্থিত ছিলেন, মোঃ আব্দুল মালেক, রবিউল ইসলাম লিটন, আরীফুর রহমান আরীফ, জাকির হোসেন, ইকবাল কবির লিটন, সোহাগ দেওয়ান, ইমরুল ইসলাম রিপন, এজাজ আহমেদ, রকিবুল ইসলাম, মোঃ জুলহাস, আসাদুর রহমান কাঞ্চন, মোঃ হোসাইন সবুজ, মোস্তঈন বিন ইদ্রিস চঞ্চল, শাহীন আলম, হাসান শেখ, মুক্ত সরদার জামাল শেখ, রকিবুল ইসলাম, নূর এ হেলাল, জাহীদ আল মামুন, মোঃ আনিসুর রহমান, মহিদুল হক শান্ত, মাসুম আহম্মেদ ডলার, মোঃ জিহাদুর রহমান জিহাদ, বাচ্চু মোড়ল প্রমূখ।সভায় ১০ নভেম্বর শহীদ নূর হোসেন দিবস উপলক্ষ্যে বাদ আসর দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা ও দোয়া। ১১ নভেম্বর বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষ্যে বিকাল চারটায় আনন্দ র‌্যালী ও কেঁক কাঁটা অনুষ্ঠান। একইদিন বঙ্গবন্ধুর ভ্রাতুষপুত্র, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড এর পরিচালক শেখ সোহেল এর জন্মদিন উপলক্ষ্যে কেঁক কাঁটা অনুষ্ঠান। ০৩ নভেম্বর জেল হত্যা দিবস উপলক্ষ্যে নগর আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় অংশগ্রহনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

মহানবী (সা.)এর অবমাননার প্রতিবাদে নাগরপুরে তৌহিদী জনতার বিক্ষোভ ও সমাবেশ

মহানবী (সা.)এর অবমাননার  প্রতিবাদে নাগরপুরে তৌহিদী জনতার বিক্ষোভ ও সমাবেশ


ডা.এম.এ.মান্নান,টাংগাইল জেলা প্রতিনিধি:ফ্রান্সে রাষ্ট্রীয় পৃষ্টপোষকতায় হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) এর ব্যাঙ্গচিত্র প্রদর্শনকারী বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে সারাদেশের ন্যায় টাংগাইলের নাগরপুরেও ওলামা কেরাম ও তৌহিদী জনতার উদ্যোগে  বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।আজ সোমবার,২ নভেম্বর ২০২০ খ্রি. সকালে  নাগরপুরের প্রাণ কেন্দ্র নাগরপুর সরকারি কলেজ গেট থেকে  এই প্রতিবাদ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। 

নাগরপুরের সর্বস্বরের তৌহিদী নবী প্রেমীকদের অংশগ্রহণে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের  হয়ে নাগরপুরের  প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে নাগরপুর সরকারি কলেজ মাঠ এসে শেষ হয়। পরে মুসলিম বিশ্বকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে বক্তব্য রাখেন নাগরপুরের বিশিষ্ট আলেম সমাজ ও তৌহিদী জনতা।বক্তারা ফ্রান্সে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (স.) এর ব্যাঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদ জানিয়ে ফ্রান্সের সকল পন্য বর্জনের জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানান এবং ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট কে প্রকাশ্য মাফ চাওয়ার আহবান জানান।

মহানবী (সা.) এর অবমাননার প্রতিবাদ বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে উপস্হিত ছিলেন,বাংলাদেশ মুজাহিদ কমিটির স্হায়ী কমিটির সদস্য, বিশিষ্ট আলেম হযরত মাওলানা মো.আলী আকবার( দা.বা),নাগরপুর কওমী ওলামা পরিষদ এর সভাপতি ও নাগরপুর বাজার জামে মসজিদের পেশ ইমাম হযরত মাও.মো.রফিকুল ইসলাম( দা.বা) ও খতীব হযরত মাও.মো.রফিকুল ইসলাম (দা.বা),নাগরপুর সরকারি কলেজ জামে মসজিদ এর পেশ ইমাম হযরত মাও.মুফতী মো.সাদিক মিয়া,দুয়াজানী কলেজ পাড়া জামে মসজিদ এর পেশ ইমাম হাফেজ মো.মাসুম বিল্লাহ আল মাফি খতীব হযরত মাও.মো.রফিকুল ইসলাম(দা.বা),নাগরপুর থানা মসজিদ পেশ ইমাম হযরত মাও.আ.সামাদ,মাও.ইলিয়াছ উদ্দীন,মুফতী মো.শহিদুল ইসলাম,হাফেজ মো.হেলাল, মুহতামিম হাফেজ আবু হুরায়রা,কলেজ শিক্ষক মো.আব্দুস সালাম,হাফেজ সিরাজুল ইসলাম,মুফতী নোমান,ছাত্রনেতা মীর রাছেল,বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথিক পরিষদ,নাগরপুর উপজেলা শাখার সভাপতি ডা.এম.এ.মান্নান ও সাংগঠনিক সম্পাদক ডা.মো.কাউছার খান,হাফেজ মো.আজিম,কলেজ শিক্ষক মো.শামীম মোহাম্মদ (সেলিম),স্কুল শিক্ষক মো.আলম মিয়া,মো.সাইফুল ইসলাম সহ নাগরপুরের সর্বস্বরের আলেম সমাজ,ব্যাবসায়ীগন,সুশীল সমাজ,সাংবাদিক বৃন্দ গন উপস্হিত ছিলেন।

কোন দিকে যাচ্ছে করোনাকালীন শিক্ষাব্যবস্থা?

 কোন দিকে যাচ্ছে করোনাকালীন শিক্ষাব্যবস্থা?


স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় সব বন্ধ ৭ মাস হলো প্রায়। অটোপাশও দিয়ে দেওয়া হলো। সবকিছুই করা হচ্ছে শিক্ষর্থীদের কথা মাথায় রেখে। তাদের ঘরে রাখার জন্য, করোনা থেকে বাঁচার জন্য। কিন্তু বর্তমানে বাস্তব অবস্থাটা আসলে কি?বাংলার প্রতিটা ঘরে ঘরেই শিক্ষার্থী রয়েছে। প্রতিটা ঘরেই কর্মজীবী মা বাবা রয়েছেন। জীবন জীবীকার তাগিদে তাদের বের হতে হয়েছে। দিনশেষে তারা বাড়িতে ফেরেন। এখন প্রশ্ন হলো তারা কতটুকু স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলতে পেরেছে?

বাহিরে বের হলে এখন আর মনে হয় না আমরা করোনা সচেতন। আমি নিজেই মাস্ক পড়ি না। এখন বলবেন কেন?কয়দিন আগে ঢাকায় গেছিলাম। লোকাল বাসে গাবতলী থেকে সদর ঘাট। বাসে উঠেই বেশ ভালো লাগলো এক সিটে একজন। কিন্তু কিছুক্ষণ পরেই লক্ষ্য করলাম একে একে সব সিট পূর্ন হলো। আরো কিছুদুর যেতে বাসে পা রাখার জায়গা নাই। এইটাতো ছিলো ২ মাস আগের কথা। বর্তমান পরিস্থিতি আরো খারাপ।

এখন আসেন আগের কথায় ফিরে যায়। প্রতিদিন শেষে আমাদের মা বাবা করোনা ঝুকি মাথায় নিয়ে বাড়ি ফিরেন। দিন শেষে সচেতন শিক্ষার্থীদের অবস্থা এই যে মা বাবার সাথে তারাও করোনা ঝুঁকিতে বাড়িতে বসে বসেই।এই বার আমার মতো অসচেতন শিক্ষার্থীদের কথায় আসি যারা প্রতিদিনই কারনে অকারনে ঘর থেকে বের হই, ঘুরতে যাই, বাইরের খোলা খাবার খাই, খেলাধুলা করি একসাথে ইত্যাদি।

আমরা না হয় একটু ছোট মানুষ বুঝি না। কিন্তু যারা এই করোনার মধ্যেও বন্ধ স্কুলে মাইকিং করে বিভিন্ন খেলার আয়োজন করতেছে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে এখন তা হলে কি বলবেন?স্বাস্থ্যবিধি কথাটা শুধু ব্যবহার হচ্ছে বাস্তবে কোনো প্রয়োগ নেই। সব কিছুই হচ্ছে স্বাস্থ্যবিধি মেনে, শুধু স্কুল-কলেজই বন্ধ। কি জন্য এখানে নাকি স্বাস্থ্যবিধি মানা সম্ভব নয়। আশেপাশে তো কাউকেই দেখছি না স্বাস্থ্যবিধি মানতে। স্কুল কি স্বাস্থ্যবিধি মানা সম্ভব ছিল না। দেশে এতো এতো পরিকল্পনাবিধ তাও পরিকল্পনার অভাব?

প্রতিটা গ্রামেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আছে। প্রতিটা স্কুলে গড়ে ১০ - ১৫ জন শিক্ষক আছেন। তারা কি গ্রামের প্রতিটা পাড়ায় পাড়ায় গিয়ে ভাগ ভাগ করে  পাঠদান করাতে পারতো না স্কুলের ক্লাসরুমেই পড়াতে হবে তার কোনো মানে আছে। নেট সেবা ভালো না করে, সবার হাতে মোবাইল না দিয়েই শুধু অনলাইন ক্লাসের কথা ভাবেন।আপনারা যারা স্কুল বন্ধ রেখেছের তাদের বাচ্চারা মোবাইল, কম্পিউটার, নেট সবই পাচ্ছে। শহরের স্কুল গুলোতেও অনলাইন ক্লাস হচ্ছে। কিন্তু গ্রামের ছেলে মেয়ে দের কি অবস্থা।আজ ৭ মাস হলো তারা পড়াশুনা করেছে না।আপ্নাদের অটোপাশের কথা শুনে তারা তো মহাখুশী। আমরা তো ছোট মানুষ। আমরা শিক্ষার ক্ষতি কতটুকু বুঝি। এখন বলবেন সব দেশেরই তো একই অবস্থা। আমরা শুধু সব দেশের সাথে তুলনায় করি। নিজেরা কতটুকু করোনা মোকাবেলা করতে পেরেছি ভেবে দেখি না।

মোঃ মশিউর রহমান

উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগ

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়।

ট্রেনে কাটাপড়া দুই ব্যক্তির মৃত্যু

 ট্রেনে কাটাপড়া দুই ব্যক্তির মৃত্যু

 


রাজশাহী ব্যুরোঃবগুড়ার আদমদিঘীর সান্তাহারে রেলওয়ে জংসন  থানার পুলিশ  ট্রেনে কাটাপড়া দুই ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে। শনিবার রাতে ও রবিবার সকালে পৃথক দুই জায়গা থেকে  লাশ দুটি উদ্ধার করা হয়। বিষয় টি নিশ্চিত করেন সান্তাহার রেলওয়ে থানার উপ-পরিদর্শক মোঃ মোস্তফা কামাল।

তিনি জানান, সান্তাহার রেলওয়ে থানাধীন নাটোর ইয়াসিনপুর মধ্যবর্তী স্থানে শনিবারে রাতে কোন এক সময় ট্রেনে কাটা পড়ে ৩৩ বছর বয়সী এক অজ্ঞাত ব্যক্তির মৃত্যু হয়। এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত এখনো তার কোন পরিচয় মিলেনি।  রবিবার সকাল সাড়ে ৯টায় বাসুদেবপুরের মধ্যবর্তী স্থানে উত্তরা ট্রেনে কাটা পড়ে জুয়েল দেওয়ান (২২) নামের এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। মৃত জুয়েল দেওয়ান ফরিদপুরের আমহাঁটি এলাকার শাহজাহান দেওয়ানের ছেলে। এই ঘটনায় দুটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বাংলাদেশের আকাশে-বাতাসে ধ্বনিত হচ্ছে নবীজীর ব্যঙ্গচিত্রের প্রতিবাদ

 বাংলাদেশের আকাশে-বাতাসে ধ্বনিত হচ্ছে নবীজীর ব্যঙ্গচিত্রের প্রতিবাদ


জয়নাল আবেদীনঃ ফ্রান্সে রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় মহানবী হযরত মোহাম্মদ (স.) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে জানানো হচ্ছে প্রতিবাদ।ইউনিয়ন থেকে শুরু করে জেলা পর্যায় পর্যন্ত ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা ফ্রান্স বিরোধী স্লোগানে মুুখরিত করছে বাংলার আকাশ বাতাস। এমনভাবে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করতে দেখা গেছে যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার প্রস্তাবিত বাঁকড়া থানায়।সেখানে জমায়েত হয়েছিলো হাজার হাজার মুসল্লি।

শনিবার বিকালে প্রস্তাবিত বাঁকড়া থানার সাধারন শিক্ষার্থীবৃন্দের উদ্যোগে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করা হয়। এ সময় সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় বক্তারা ফ্রান্সের যাবতীয় পণ্য বর্জন ও তাদের সাথে রাষ্ট্রীয় সকল কুটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করার দাবি জানানো হয়। বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী জয়নাল আবেদীনের পরিচালনায় এ সময় বক্তব্য রাখেন, প্রস্তাবিত বাঁকড়া থানা ইমাম পরিষদের সভাপতি মাওলানা সিরাজুল ইসলাম, সাধারন সম্পাদক মাওলানা তাওহীদুর রশিদ রিয়াদ, মাওলানা রাহানুর রহমান, মাওলানা মফিজুল ইসলাম, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মুজিবর রহমান শিশির,বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী নয়ন হোসেন প্রমূখ।

মানববন্ধন শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল বাজার প্রদক্ষিণ করে।

ঝিনাইদহে গাছিরা খেজুর গাছ তোলায় ব্যস্ত

ঝিনাইদহে গাছিরা খেজুর  গাছ তোলায় ব্যস্ত


খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার,খুলনা ব্যুরো প্রধানঃভোরের শিশিরের সাথে শুরু হয়েছে হালকা শীতের আমেজ। বাংলার ঐতিহ্য খেজুর গাছ থেকে রস সংগ্রহের জন্য প্রস্তুতি চলছে। আর ক"দিন পারে খেজুর গাছ থেকে রস সংগ্রহ করে তা থেকে খেজুর গুড় তৈরির পালা,শুরু হয়ে চলবে বসন্তের শেষ নাগাদ পর্যন্ত। তাই

ঝিনাইদহ জেলা  জুড়ে খেজুর গাছ থেকে রস সংগ্রহের জন্য ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন গাছিরা। শীতের শুরুতেই  অবহেলায় পড়ে থাকা খেজুর গাছের কদর বেড়ে গেছে । গাছিরা খেজুর গাছ থেকে রস সংগ্রহ করার জন্য প্রাথমিক প্রস্ততি শুরু করেছেন। শুরু করেছেন প্রাথমিক পরির্চযাও। যাকে এক কথাই বলা হয় গাছ তোলা।কিছু দিন পরেই আবার গাছে চাছ দিয়ে নলি ও গুছা লাগানো হবে খেজুর গাছ থেকে রস বের করতে ব্যস্ত গাছিরা। 

জেলার  বিভিন্ন উপজেলার  গ্রামে ঘুরে দেখা যায় রাস্তার পাশে থাকা খেজুর গাছ ঝুড়ার দৃশ্য গাছিরা ব্যস্ত সময় পার করছে। আর কিছু দিন পরই মধু বৃক্ষ থেকে সুমধুর রস বের করে গ্রামের ঘরে ঘরে শুরু হবে গুড়, পাটালি, তৈরির উৎসব।

সুস্বাদু ও পিঠাপুরির জন্য অতি জরুরি উপকরণ হওয়াই খেজুরের রসের চাহিদা বেড়ে যায়। গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য এই খেজুর গাছ আজ অবহেলায় অজান্তে বিলপ্তির পথে। যে পরিমানে খেজুর গাছ নিধন হচ্ছে সে তুলনায রোপন করা যাচ্ছে না অঞ্চল গুলো থেকে গাছ কমে গেছে। খেজুরের রস জ্বালিয়ে পিঠা,পায়েস, মুড়ি, মোয়া ও নানা রকমের  খাবার তৈরির করার ধুম পড়বে কয়দিন পরেই ।আর রসে ভেজা বিভিন্ন ধরনের পিঠার স্বাদই আলাদা প্রতি বছরের ন্যায় এবারও গাছিরা শীতের শুরুতেই খেজুর গাছ থেকে রস সংগ্রহ করার জন্য ব্যস্ত হয়ে পরেছে।শীত শুরু হওয়ার সাথে সাথে খেজুর গাছ কাটার প্রতিযোগিতায় গাছিরা খেজুর গাছ পরিস্কার করার জন্য গাছি দা, পাটের দড়ি,মাটির কলস,বাঁশের চটি ব্যবহার করে থাকে।

কুমারখালীর গড়াই নদীতে ভেসে বেড়াচ্ছে বেওয়ারিশ লাশ

 কুমারখালীর গড়াই নদীতে ভেসে বেড়াচ্ছে বেওয়ারিশ লাশ

খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার,খুলনা ব্যুরো প্রধানঃ কুষ্টিয়ার কুমারখালীর গড়াই নদীতে ৪০ -৪৫ বছরের এক পুরুষ ব্যক্তির বেওয়ারিশ লাশ ভেসে বেড়াচ্ছে।আজ রোববার দুপরের সময় কুমারখালী  উপজেলার চাপড়া ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ড বহোলা গোবিন্দপুর গ্রামের ১ নং সেট সংলগ্ন গড়াই নদীতে লাশটি ভাসতে দেখে স্থানীয়রা।এসময় ভাসমান লাশের ছবি তুলে রাখলেও প্রশাসনকে জানায়নি কেউ।পরে সেই ছবি রাত সাড়ে ৮ টার দিকে ফেসবুকে আপলোড করে স্থানীয় একজন।

এতথ্য নিশ্চিত করে চাপড়া ইউনিয়ন পরিষদের ৪ নং ওয়ার্ড সদস্য সোহেল মুঠোফোনে বলেন, দুপুরের দিকে গড়াই নদীর ১নং সেটের সংলগ্ন অংশে অজ্ঞাত এক পুরুষের লাশ ভাসতে দেখে জনগণ।অনেকে ছবিও তুলে রাখে।তবে প্রশাসনকে জানানো হয়নি।কুমারখালী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মজিবুর রহমান বলেন, ঘটনাটি দুপুরের।রাতে খবর পেয়ে অনেক খোঁজাখুজি করেও লাশ পাওয়া যায়নি।

সাতক্ষীরায় ফ্যাশন ব্রান্ড ‘বন্ড ক্লোথিং হাউজ’এর শুভ উদ্বোধন

সাতক্ষীরায় ফ্যাশন ব্রান্ড ‘বন্ড ক্লোথিং হাউজ’এর শুভ উদ্বোধন


আজহারুল ইসলাম সাদী, স্টাফ রিপোর্টারঃবাংলাদেশের অন্যতম ফ্যাশন ব্রান্ড ‘বন্ড ক্লোথিং হাউজ’ এর সাতক্ষীরা শাখা এর শুভ উদ্বোধন করা হয়েছে। রোববার (১ নভেম্বর) বিকালে সাতক্ষীরা জজকোর্টের দক্ষিণ পাশে প্রধান অতিথি হিসেবে সাতক্ষীরা সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ আসাদুজ্জামান বাবু আনুষ্ঠানিকভাবে ফিতা কেটে উক্ত  ‘বন্ড ক্লোথিং হাউজ’ এর ১৩তম সাতক্ষীরা শাখার শুভ উদ্বোধন করেন।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, কোম্পানীর চেয়ারম্যান মোঃ রবিউল ইসলাম, এমডি মোঃ মিজান, কোম্পানীর জি এম মনিরুজ্জামান, প্রোডাকশন ইনচার্জ মোতাহার হোসেন, ল্যান্ড অর্নার গোলাম মোস্তাফাসহ স্থানীয় রাজনৈতিক, সামাজিক ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

লেখা আহবান

 লেখা আহবান

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ও মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে যশোরের বিদ্রোহী সাহিত্য পরিষদ (বিএসপি) নিয়মিত প্রকাশনা বিদ্রোহী‘র লেখা আহবান জানানো হয়েছে। সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি কাজী রকিবুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা মুন্না স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে আগামী ২০ নভেম্বর এর মধ্যে কম্পোজ করে মেইলে অথবা ডাকযোগে লেখা পাঠানোর অনুরোধ জানানো হয়েছে। প্রকাশিত লেখার মধ্যে ভাল লেখার জন্য সম্মানি প্রদান করা হবে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে লেখিয়ে বন্ধুদের কবিতা/ গল্প/প্রবন্ধ/নিবন্ধ ও গবেষণাধর্মী লেখা নিয়ে বিদ্রোহী সাহিত্য পরিষদ, যশোর সাহিত্য সংকলন ‘বিদ্রোহী’ প্রকাশ অব্যাহত রেখেছে। এবার বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী ও মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে প্রকাশিতব্য বিদ্রোহী এ আগামি ২০ নভেম্বর ২০২০ এর মধ্যে লেখা পাঠিয়ে দিন।

আগ্রহী লেখকদের দুটি কবিতা (৩০ লাইন) প্রবন্ধ, নিবন্ধ ও গবেষণাধর্মী (৮শ শব্দ) সরাসরি বা ডাকযোগে পাঠানো অনুরোধ করা হচ্ছে। লেখা কম্পোজ করে সুতোনী এমজে (sutonnyMJ) মেইলে পাঠাতে হবে।

* বিদ্রোহী প্রকাশিত লেখার মধ্যে ভাল লেখার জন্য সম্মানি দেয়া হবে

* লেখক সংখ্যা বিনামূল্যে দেয়া হবে। তবে নিজ দায়িত্বে সংগ্রহ করতে হবে

* ঢাকা গ্রন্থ মেলা, কলিকাতা (আন্তর্জাতিক) বই মেলায় বিদ্রোহী পাওয়া যাবে।

* লেখা পাঠানোর পর ছাপার জন্য যোগাযোগ করার প্রয়োজন নেই

* লেখা অবশ্যই অপ্রকাশিত হবে হবে।

* লেখা পাঠানোর সময় বর্তমান ঠিকানা, মোবাইল নম্বর ও ইমেইল (যতি থাকে) উল্লেখ করতে হবে।

* লেখা পাঠানোর শেষ তারিখ ২০ নভেম্বর।

*লেখা পাঠানোর ঠিকানা :

ইমেইল : bspjessore@gmail.com.

সরাসরি/ ডাকযোগে-সম্পাদক-বিদ্রোহী, বিদ্রোহী সাহিত্য পরিষদ, কারুকাজ, কেশবলাল রোড,যশোর-৭৪০০

বীরগঞ্জে ঝড়-বৃষ্টিতে আমন ধানে ব্যাপক ক্ষতি

বীরগঞ্জে ঝড়-বৃষ্টিতে আমন ধানে ব্যাপক ক্ষতি

 


খাদেমুল ইসলাম রাজ,বীরগঞ্জ উপজেলা প্রতিনিধিঃএকদিনে সন্ধার বৃষ্টিতে এবং  বাতাসে বীরগঞ্জ  সহ বেশ কয়েকটি উপজেলায় আমন ধান পড়ে যায় এবং দেখতে খেলার মাঠের মতন অবস্থা, দুশ্চিন্তায় পড়েছেন স্থানীয় কৃষকরা।বীরগঞ্জ উপজেলার কৃষক শফিউল আলম গাজু(৩৫) নিজের এক একর জমিতে আমন ধান লাগিয়েছিলেন। টানা বৃষ্টিতে এবং বাতাসে পুরো জমির ফসলই পড়ে  গেছে। কিছু ধান গাছ এরই মধ্যে পচে গেছে।

কেবল বীরগঞ্জ উপজেলায় নয়, জেলার প্রতিটা উপজেলায় একইভাবে আমনের চাষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।জেলার কৃষি কর্মকর্তা জানান, হঠাৎ ঝড়-বৃষ্টিতে জেলায় আমন ফসলের ব্যপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত কি পরিমাণ ক্ষতি হয়েছে তা বলা সম্ভব না।আমন ধান ঝড়ে পড়ে যাওয়ার কারণে কাঙ্খিত লাভ থেকে এবার চাষিরা বঞ্চিত হবে।