মজুরি বৈষম্যের শিকার উপকূলীয় এলাকার নারী মৎস্য শ্রমিকবৃন্দ

মজুরি বৈষম্যের শিকার উপকূলীয় এলাকার নারী মৎস্য শ্রমিকবৃন্দ

স্টাফ রিপোর্টারঃ ঢাকা, ২২ নভেম্বর, ২০২০।  উপকূলীয় নারী মৎস্য শ্রমিকবৃন্দ তাঁদের পুরুষ সহকর্মীদের তুলনায় কম মজুরি পাচ্ছেন। অন্যদিকে জেলে পরিবারের বেশিরভাগ নারী সদস্যই কোন না কোনও সহিংসতার শিকার। বেসরকারি সংস্থা কোস্ট ট্রাস্টের এক গবেষণায় এসব তথ্য পেয়েছে। আজ রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এক মতবিনিময় সভায় গবেষণায় প্রাপ্ত ফলাফল তুলে ধরা হয়। কোস্ট ট্রাস্টের উপ-নির্বাহী পরিচালক সনত কুমার ভৌমিকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত ‘ক্ষমতায়ন সূত্রের বাইরে উপকূলীয় জেলে পরিবারের বেশিরভাগ নারী: টেকসই

মৎস্যখাতের জন্য নারীর সক্রিয় অংশগ্রহণ আবশ্যক’ শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয় । এতে গবেষণার বিস্তারিত ফলাফল উপস্থাপন করেন কোস্ট ট্রাস্টের যুগ্ম পরিচালক মো:মজিবুল হক মনির এবং স্বাগত বক্তৃতা করেন একই সংগঠনের পরিচালক-প্রশাসন, মোস্তফা কামাল আকন্দ।  উপকূলীয় জেলা ভোলা, কক্সবাজার এবং বাগেরহাটের ১২০০ জেলে পরিবারের তথ্য সংগ্রহ করে এই গবেষণা পরিচালনা করা হয়েছে, যার মাধ্যমে উপকূলীয় এলাকার জেলে পরিবারের নারী সদস্যবৃন্দের আর্থ-সামাজিক পরিস্থিতি ও ক্ষমতায়নের অবস্থা তুলে আনা হয়েছে।  

সমীক্ষার ফলাফল উপস্থাপন করতে গিয়ে মো:মজিবুল হক মনির বলেন, মৎস্য প্রক্রিয়াজাতের সঙ্গে সম্পৃক্ত নারী শ্রমিকদের সবাই পুরুষ শ্রমিকের তুলনায় দৈনিক প্রায় ২৫% কম মজুরি পাচ্ছেন। সম্পদ কেনাকাটায় জেলে পরিবারের ৩১% নারীরই কোনও মতামত গ্রহণ করা হয় না,পরিবারের সাধারণ ব্যয়ের ক্ষেত্রে ৫৮% নারী সদস্যরেই কোনও মতামত নেওয়া হয় না। অন্যদিকে জেলে পরিবারের মাত্র ২% নারী সদস্য সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের সঙ্গে কোনও বিশেষ প্রয়োজনে সরাসরি যোগাযোগ করেছেন এবং  সমাজের কোন সালিশে বা অন্য কোনও সিদ্ধান্তগ্রহণ প্রক্রিয়ায় জেলে পরিবারের ৮২% নারীই কোনওদিন কোনভাবে অংশ গ্রহণ করেননি। তাছাড়া জেলে পরিবারের নারী সদস্যদের ৬৫% কোনও না কোনও সহিংসতার শিকার এবং পুরুষ সদস্য মাছ ধরতে বাড়ির বাইরে থাকলে তাদের প্রায় সবাই আতংকে থাকেন। 

বাংলাদেশ ক্ষুদ্র মৎস্যজীবী সমিতির সভাপতি ইসরাইল পন্ডিত বলেন‘‘ সরকার মুক্ত জলায়শ নারীদেরকে লিজ দিতে পারে তাহলে তাদের কর্মসংস্থানের সুযোগ হবে এবং ক্ষমতায়িত হবে নদীতে যে চর জাগে তা কৃষকদের বরাদ্দ দেয়া হয় এসকল চর জেলেদের বরাদ্দ দিলে বিকল্প কাজের সৃষ্টি হবে। এডাবের প্রতিনিধি আনামিকা বলেন ক্ষুদ্রঋণ নারীরা গ্রহন করে কিন্তু তা খরচ করার স্বাধীনতা তাদের নেই, এই টাকা খরচের জন্য তাদের মতামত নিতে হবে। সালেহা ইসলাম শান্তনা বলেন, শ্রম আইনে নারী-পুরুষের বৈষম্য না থাকলেও, নারী জেলেরা স্পষ্ট বৈষম্যের শিকার। কঠোর আইন প্রয়োজন। শের ই বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের এ্যাকুয়াকালচার বিষয়ক প্রভাষক মোহম্মদ আলী বলেন, নারীদের অধিকার নিশ্চিত করতে হলে নারীদের জন্য বিকল্প কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করতে হবে। দ্বীপ উন্নয়ন সংস্থার নির্বাহী পরিচালক বলেন নারীদের জন্য কাজের পরিবেশ তৈরী করে দিতে হবে যাতে তারা সঠিকভাবে মৎস্য সেক্টরে কাজ করতে পারেন । 

মৎস্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের প্রতিনিধি শিল্পী দে বলেন আমরা যদি আমাদের নারী উন্নয়ন সরকারী নীতিমালা ২০১১ নারীদের জন্য সঠিকভাবে বাস্তবায়ন করতে পারি তাহলে নারীদের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন সম্ভব হবে । বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ মৎস্য আহরণ থেকে মৎস্য উৎপাদনে বিশ্বে তৃতীয় এবং অভ্যন্তরীণ মৎস্যচাষে বিশ্বে ৫ম, নারীর অংশগ্রহণ এক্ষেত্রে স্বীকৃত হলে আমাদের এই অর্জন টেকসই করা সহজ হবে। 

সংবাদ সম্মেলনে কয়েকটি সুপারিশ তুলে ধরা হয়, সেগুলো হলো: মৎস্য খাতে নারীর অবদান চিহ্নিত করতে বিশেষ নীতিমালা প্রণয়ন, জেলে পরিবারের নারী সদস্যদেরকে অর্থনৈতিক কর্মকান্ডে সম্পৃক্ত করা, নারী জেলেদের মৎস্যজীবী হিসাবে সরকারী আইডি কার্ড প্রদান করা,  মৎস্যখাত সম্পর্কিত বিভিন্ন কর্মসূচিতে নারীর অংশগ্রহণ নিশ্চিত, মৎস্যশ্রমিকদের জন্য শ্রম নীতিমালা বাস্তবায়নের উদ্যোগ গ্রহণ। এছাড়াও বক্তব্য রাখেন আমিনুর রসুল বাবলু, এ এস এম বদরুল আলম, এইচ,এম সহিদুল আলম ফারুক, আসাদুজ্জামান শেখ, হাসান আল মামুন,তাসনুভা জামান,শামীম আরা প্রমূখ ।

হাজী সেলিমদের রক্ষাকর্তারাই দুদক চালায় -মোমিন মেহেদী

হাজী সেলিমদের রক্ষাকর্তারাই দুদক চালায় -মোমিন মেহেদী


প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ  নতুনধারা বাংলাদেশ এনডিবির চেয়ারম্যান মোমিন মেহেদী বলেছেন, দেশ স্বাধীনতার ৪৯ বছরে কেবল উন্নয়নের নামে পতনের দিকে এগিয়ে গেছে; আর এই সুযোগে হাজী সেলিমদের রক্ষাকর্তারাই দুদক চালায়। তা না হলে এত এত দুর্নীতির প্রমাণের পরও হাজী সেলিমের মত জঘণ্য ব্যক্তি বহাল তবিয়তে থাকে কি করে?

২২ নভেম্বর বিকেল ৫ টায় তোপখানা রোডস্থ গীতিকার আহমেদ কায়সার লাউঞ্জে অনুষ্ঠিত জাতীয় পেশাজীবীধারার এক কর্মী সভায় তিনি উপরোক্ত কথা বলেন।

নতুনধারা বাংলাদেশ এনডিবির প্রেসিডিয়াম মেম্বার ও জাতীয় পেশাজীবীধারার আহবায়ক অধ্যাপক শুভঙ্কর দেবনাথের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত তিনি আরো বলেন, নতুন প্রজন্মের প্রতিনিধিদেরকে ধ্বংস করার জন্য শিক্ষাঙ্গণ বন্ধ কিন্তু তাদের আড্ডা-মাদক সহ সকল অন্যায়কে উন্মুক্ত করার মধ্য দিয়ে ছিনতাই-রাহাজানী-চুরি-ডাকাতি-দুর্নীতি বাড়াচ্ছে সরকার ও প্রশাসনের একাংশ। বিনিময়ে একটি চক্র কোটি কোটি টাকা দেশের বাইরে পাচার করার সুযোগ যেমন পাচ্ছে, তেমন ক্রমশ দরিদ্রের সংখ্যা বাড়ছে। এই পরিস্থিতির উত্তরণে নতুনধারা বাংলাদেশ এনডিবি বরাবরের মত রাজপথে থাকলেও চাটুকার আর লোক দেখানো সমালোচকরা ঘরে বসে সরকারের সকল অন্যায়কে হালাল বলে ঘোষণা দিয়ে মাঠে নেমেছে ফান্স নিয়ে। এই চক্রটি মূলত তাদের হীন স্বার্থ চরিতার্থ করতে যেই মহানবী হযরত মুহাম্মদ সা.-এর কোন চিত্রই নেই; সেখানে তাঁর ব্যঙ্গচিত্র করেছে বলে হুজুগ উঠিয়ে অসংখ্য অন্যায় ঢেকে দিতে মাঠে নেমেছে।
সভায় প্রেসিডিয়াম মেম্বার বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজলুল হক, সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান শান্তা ফারজানা ও মহাসচিব নিপুন মিস্ত্রী, জাতীয় পেশাজীবীধারার সহ-সভাপতি প্রকৌশলী জিনাত জাহান খান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।  

মহম্মদপুরে শেখ হাসিনা সেতু আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

মহম্মদপুরে শেখ হাসিনা সেতু আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

আবু নাঈম কাজী,স্টাফ রিপোর্টার:মাগুরার মহম্মদপুরের মধুমতি নদীতে নির্মিত শেখ হাসিনা সেতুর উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রোববার সকাল ১০টার দিকে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সংযুক্ত হয়ে সেতুটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষণা করেন শেখ হাসিনা।এর আগে ভিডিও কনফারেন্সে মাগুরা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে সংযুক্ত হন প্রধানমন্ত্রী। এসময় জেলা প্রশাসক ড. আশরাফুল আলমের সভাপতিত্বে সম্মেলন কক্ষে উপস্থিত ছিলেন মাগুরা-১ আসনের সংসদ সদস্য সাইফুজ্জামান শিখর, মাগুরা-২ আসনের সংসদ সদস্য ড. বীরেন শিকদার, পুলিশ সুপার খান মহম্মদ রেজওয়ানসহ জেলা প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তারা।মধুমতি নদীর ওপর নির্মিত ওই সেতুটির দৈর্ঘ্য ৬০০ দশমিক ৭০ মিটার এবং প্রস্থ ৯ দশমিক ৮০ মিটার। সেতুটিতে ১৫০টি পাইল, ১৪টি পিয়ার, দুইটি অ্যাবাটমেন্ট ও ১৫টি স্প্যান রয়েছে। যার নির্মাণ ব্যয় ৬৩ কোটি ৩১ লাখ ২৮ হাজার টাকা।মহম্মদপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রামানন্দ পাল বলেন, রোববার শেখ হাসিনা সেতুর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন উপলক্ষে এলাকার মানুষকে বিনোদন দিতে সেতু সংলগ্ন নদীর পাড়ে দিনব্যাপী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।মাগুরা-২ আসনের সংসদ সদস্য সাবেক যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ড. বীরেন শিকদার বলেন, মধুমতি নদীতে সেতু নির্মাণের বিষয়টি ছিল আমার নির্বাচনপূর্ব প্রতিশ্রুতি।মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে আজ আনুষ্ঠানিকভাবে এর উদ্বোধন করেছেন। জনগণকে দেওয়া আমার প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন হয়েছে।

নওগাঁর রাণীনগরে আওয়ামীলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত

নওগাঁর রাণীনগরে আওয়ামীলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত

রাজশাহী ব্যুরোঃ নওগাঁর রাণীনগরে আগামী ১০ ডিসেম্বর উপজেলা পরিষদের উপ-নির্বাচন ৷ 
এই নর্বাচন সামনে রেখে নওগাঁর রাণীনগরে আওয়ামীলীগের  আয়োজনে দলীয় কার্যালয়ে রবিবার সকাল ১০ ঘটিকায় বিশেষ সভা অনুষ্ঠিত হয় ৷ 
প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন নওগাঁ ৬ ( আত্রাই রাণীনগর) আসনের সাংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোঃ আনোয়ার হোসেন হেলাল৷ এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন
বীর মুক্তিযোদ্ধা এড্যঃ ইসমাইল হোসেন, যোগ্ন সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসানাত খাঁন, উপজেলা পরিষদ উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনিত প্রার্থী ও উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রউফ দুলু, উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ফরিদা পারভীন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি মাসুদ রানা জুয়েল, দপ্তর সম্পাদক আবু তালেব জলসা প্রমূখ।

নওগাঁর আত্রাইয়ে কীটনাশক ঔষধ পেঁয়াজ ক্ষেতে দিতে গিয়ে প্রাণ গেল

নওগাঁর আত্রাইয়ে কীটনাশক ঔষধ পেঁয়াজ ক্ষেতে দিতে গিয়ে প্রাণ গেল

রাজশাহী ব্যুরোঃ নওগাঁর আত্রাইয়ে পেঁয়াজ ক্ষেতে ঔষধ দিতে গিয়ে প্রাণ গেল আব্দুর রহিমের (৩০) আব্দর রহিম উপজেলার পারকাসুন্দা গ্রামের শখিন আলী সরদারের ছেলে। ঘটনা ঘটে বাগমারা উপজেলার নখপাড়া গ্রামে।
মৃতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, আঃ রহিম দুপুরে  তার পেঁয়াজ ক্ষেতে কৃতনাশক ঔষধ প্রয়োগ করতে গিয়ে অসাবধানতা বসত বিষক্রিয়ায় মাটিতে লুটিয়ে পরে। স্থানীয়রা দেখতে পেয়ে দ্রুত উদ্ধার করে আত্রাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করে।
এ ব্যাপারে আত্রাই থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ মোসলেম উদ্দিন সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন বিষয় দুঃখজনক।

আশাশুনি হাসপাতালে উপজেলা চেয়ারম্যানের পক্ষে এলইডি টিভি প্রদান

আশাশুনি হাসপাতালে উপজেলা চেয়ারম্যানের পক্ষে এলইডি টিভি প্রদান

 আহসান উল্লাহ বাবলু আশাশুনি সাতক্ষীরা  প্রতিনিধি আশাশুনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে স্বাস্থ্যসেবার সার্বিক কার্যক্রমে সন্তোষ প্রকাশ করে প্রচারণামূলক জনসচেতনতার লক্ষ্যে একটি এলইডি টিভি প্রদান করা হয়েছে। রবিবার সকালে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এবিএম মোস্তাকিম এর পক্ষে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা ডাঃ সুদেষ্ণা সরকারের নিকট উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সামাদ বাচ্চু ৩২ ইঞ্চি এ এলইডি টিভি হস্তান্তর করেন। এসময় হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ দীপন বিশ্বাস, ডাঃ শাহনূর হোসেন মিল্কি, স্যানিটারী ইন্সপেক্টর জিএম গোলাম মোস্তফা, উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার এনামুল হক, সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক (ভারপ্রাপ্ত) মোক্তারুজ্জামান স্বপন, সুজন হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, এর আগে উপজেলা চেয়ারম্যান হাসপাতাল ওয়ার্ডে ১০০ ওয়াটের একটি সোলার প্যানেল এবং ক্যাম্পাসে অন্ধকার দূরীকরণের জন্য দুটি সোলার স্ট্রীট লাইট প্রদান করেছিলেন।

লোহাগড়ায় ৫ দিন ব্যাপী কাত্যায়নী পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে

লোহাগড়ায় ৫ দিন ব্যাপী কাত্যায়নী পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে


মো:আজিজুর বিশ্বাস স্টাফ রিপোর্টার নড়াইল।
নড়াইলের লোহাগড়া পৌরসভার কুন্দশী মালোপাড়ায় ৫ দিন ব্যাপী কাত্যায়নী পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। 
আজ পূজার অষ্টমী। 
এই কাত্যায়নী পূজায় লোহাগড়া কুন্দশী মালোপাড়া ছাড়াও বিভিন্ন স্থানের হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা অংশগ্রহন করছেন। করোনা ভাইরাসের সকল প্রকার প্রতিরোধ ব্যবস্থা নিয়ে পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। 
পূজা কমিটির সভাপতি বিজুষ কুমার (পাগল) সাংবাদিকদের বলেন, প্রতিবছর এই পূজা নিজস্ব অর্থায়নে করা হয়।

 এবছর পূজায় প্রায় ১০ লক্ষ টাকা ব্যয় হচ্ছে। আমরা কোন সরকারী অনুদান পাইনা। তাছাড়াও কুন্দশী মালোপাড়া বাসীর দাবী তাদের একটি নাট মন্দির প্রয়োজন।  তাছাড়াও নিরাপত্তা বাহিনী আমাদেরকে সার্বিক নিরাপত্তা প্রদান করছেন।

ড. মোঃ সরোয়ার জাহান বিসিএসআইআর এর রোলমডেল

ড. মোঃ সরোয়ার জাহান বিসিএসআইআর এর রোলমডেল

প্রতিভার বহিঃপ্রকাশ অনস্বীকার্য। পারিপার্শ্বিক অপ্রতুলতা বা অন্য কোন কারনে সেটা চাপা থাকলেও একদিন তার মোড়ক অবশ্যই উন্মেচন হবে। ভাবতেই গর্বে বুক ভরে যায় বিশ্বের শ্রেষ্ঠ দুই শতাংশ বিজ্ঞানীর তালিকায় আমার প্রানের প্রতিষ্ঠান বিসিএসআইআর এর বিজ্ঞানী ড. মোঃ সরোয়ার জাহান স্যারের নাম। প্রতিষ্ঠানের নামটা সবার কাছে অচেনা লাগতে পারে। সহজ বাংলায় সবাই প্রতিষ্ঠানটিকে ‘সাইন্স ল্যাব’ হিসেবেই ভালো চেনে। বাংলাদেশ সরকারের সর্ববৃহৎ বহুমুখী গবেষণা প্রতিষ্ঠান এই ‘সাইন্স ল্যাব’। যেখানে বিজ্ঞানের সকল শাখায় গবেষণা চর্চার পাশাপাশি উদ্ভাবনী পণ্যকে সহজে জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেওয়ার জন্য বিজ্ঞানীদের নিরলস প্রচেষ্টা অব্যহত রেয়েছে। ‘বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও শিল্প গবেষণা পরিষদ’ (বিসিএসআইআর) বিজ্ঞানীদের উদ্ভাবনী পন্যকে শিল্প উদ্যোক্তাদের কাছে পৌঁছে দেওয়ার অভিপ্রায়ে বাংলাদেশের শ্রেষ্ঠ বিজ্ঞানী ড. কুদরাত-এ-খুদার হাতধরে ১৯৫৫ সালে তৎকালীন পিসিএসআইআর নামে যাত্রা শুরু করে বর্তমানে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের অধিভুক্ত একটি প্রতিষ্ঠান। 

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের জরিপে অধ্যাপক জন আইওনিডিস, কেভিন ডব্লিউ বয়াক এবং নেদারল্যান্ডস ভিত্তিক প্রকাশনা সংস্থা এলসেভিয়ারের তিন গবেষকের করা তালিকায় বিজ্ঞানের বিভিন্ন শাখার বিশ্বের শীর্ষ দুই শতাংশ বিজ্ঞানীদের তালিকা PLOS Biology জার্নাল প্রকাশ করে। তালিকার স্থান পায় বিসিএসআইআর থেকে আমাদের সর্বজন শ্রদ্ধেয় ড. মোহাম্মদ সরোয়ার জাহান স্যার সহ বাংলাদেশের স্বনামধন্য ২৬ জন বিজ্ঞানী। ড. জাহান বিসিএসআইআর এর পাল্প এবং পেপার রিসার্চ ডিভিশানের ডিভিশন ইনচার্জের দায়িত্বের পাশাপাশি সম্প্রতি মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা পদ হতে পদোন্নতি পেয়ে বিসিএসআইআর এর সর্ববৃহৎ ইউনিট ‘ঢাকা গবেষণাগার’ এর পরিচালকের দায়িত্বে নিয়োজিত আছেন। ড. জাহানের গবেষণার মূল প্রতিপাদ্য বিষয় পাল্পিং কেমিস্ট্রি এবং তিনি বায়োরিফাইনারি, ব্লিচিং, উড কেমিস্ট্রি এবং ন্যানো সেলুলোজ নিয়ে গবেষণা করে চলেছেন। 

ড. জাহান বিদেশে বহু স্বনামধন্য বিজ্ঞানীদের সাথে কলাবোরেশন রিসার্চের সাথে জড়িত। সম্প্রতি তিনি কানাডা অবস্থিত ইউনিভার্সিটি অব নিউ ব্রান্সউইক (University of New Brunswick) থেকে ভিজিটিং স্কলার হিসেবে রিসার্চ শেষ করে দেশে ফিরেছেন। এর আগেও তিনি দুইবার সর্বমোট আড়াই বছর মেয়াদে একই ইউনিভার্সিটিতে ভিসিটিং সায়েন্টিস্ট হিসেবে গবেষণা সম্পন্ন করেন। ড. জাহান রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় হতে ফলিত রসায়ন বিভাগে স্নাতকোত্তর শেষ করে ১৯৯২ সালে বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা পদে বিসিএসআইআর এ যোগদান করেন। এরপর উড এবং পাল্পিং কেমিস্ট্রিতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় হতে ডক্টরাল ডিগ্রী গ্রহন করেন। ড. জাহান যথাক্রমে চীন এবং কোরিয়াতে উড এবং পাল্পিং কেমিস্ট্রির উপর এক বছর মেয়াদে পোস্ট ডক্টরাল গবেষণা সম্পন্ন করেন। তিনি দেশি-বিদেশি আন্তর্জাতিক মানের খ্যাতি সম্পন্ন বিভিন্ন গবেষণা জার্নালে  ১৯০ টি গবেষণা প্রবন্ধ প্রকাশ করেন এবং ওনার গবেষণা পত্রের মোট সাইটেশন সংখ্যা ৩০১০ টি। 

বিশ্বের সেরা গবেষকদের গবেষণাগারের কাতারে আমাদের বিসিএসআইআর মাথা উঁচু করে দাঁড়াবে। বাংলাদেশ ও একদিন গবেষণায় সবচেয়ে সেরা দেশের কাতারে নিজের নাম লেখাবে। সেই দিন বেশি দূরে নয়। ড. জাহানের হাত ধরে এগিয়ে যাবে বিসিএসআইআর, এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ, এগিয়ে যাবে বিশ্ব এই প্রত্যাশা আমাদের সবারই। 


অজয় কান্তি মন্ডল
পিএইচডি ফেলো
ফুজিয়ান এগ্রিকালচার এন্ড ফরেস্ট্রি ইউনিভার্সিটি
ফুজিয়ান, চীন। 

অবশেষে সাতক্ষীরায় শেখ হাসিনার গাড়ি বহরে হামলার ঘটনায় মামলার স্বাক্ষ গ্রহণ শুরু

অবশেষে সাতক্ষীরায় শেখ হাসিনার গাড়ি বহরে হামলার ঘটনায় মামলার স্বাক্ষ গ্রহণ শুরু

আজহারুল ইসলাম সাদী, স্টাফ রিপোর্টারঃশেখ হাসিনার গাড়ী বহরে হামলার ঘটনায় মামলায় ৫ জন স্বাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহন করেছে আদালত। 

রোববার (২২ নভেম্বর)  দুপুরে সাতক্ষীরা চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট হুমায়ুন কবিরের আদালতে আসামীদের উপস্থিতিতে সাক্ষ্য দেন তৎকালিন বিরোধীদলীয় নেত্রী শেখ হাসিনার সফরসঙ্গী জুবাইদুল হক রাসেল, ফাতেমা জামান সাথি, ফটো সাংবাদিক শহিদুল ইসলাম জীবন, সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামীলীগ এর সাবেক যুগ্ন-সম্পাদক ও প্রেসক্লাব সভাপতি অধ্যক্ষ আবু আহমেদ ও আওয়ামী লীগ নেতা সরদার মুজিব।

 সাতক্ষীরা জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর এডভোকেট আব্দুল লতিফ জানান, মামলাটির ১২৩ তম কার্যদিবসে ৫ জন স্বাক্ষী আদালতে সাক্ষ্য দিয়েছেন। তবে সুপ্রিম কোর্টের অ্যাপিলেড ডিভিশনের চেম্বার জজ আদালতে লিভ টু আপীল শুনানীর দিন ধার্য্য হওয়ায় স্বাক্ষীদের জেরা করছেন না আসামী পক্ষের আইনজীবীরা। তিনি আরো জানান, এ নিয়ে এ মামলায় মোট ৩০ জন স্বাক্ষীর মধ্যে ১৫ জন স্বাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহন করেছেন আদালত।

উল্লেখঃ গত ২০০২ সালের ৩০ আগস্ট তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেত্রী ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ধর্ষিতা এক মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রীকে দেখতে আসেন। হাসপাতাল থেকে ঢাকায় ফেরার পথে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে সাতক্ষীরার কলারোয়া বিএনপি অফিসের সামনে গাড়ি বহরে হামলার স্বীকার হন।

এঘটনায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোসলেম উদ্দীন বাদী হয়ে উপজেলা যুবদলের সভাপতি আশরাফ হোসেনসহ ২৭ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত ৭০/৭৫ জনের নামে থানায় মামলা করতে গিয়ে ব্যর্থ হয়ে  আদালতে মামলা দায়ের করেন। পরে আদালতের নির্দেশে এক যুগ পর ২০১৪ সালের ১৫ অক্টোবর কলারোয়া থানায় মামলাটি রেকর্ড করা হয়। এরপর ২০১৫ সালের ১৭ মে জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি ও সাতক্ষীরা ১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য হাবিবুল ইসলাম হাবিবসহ ৫০ জনের নাম উল্লেখ করে ৩০ জনকে স্বাক্ষী করে সম্পূরক অভিযোগপত্র জমা দেন মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা শেখ সফিকুল ইসলাম।

সাতক্ষীরা চীপ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ৯ জন স্বাক্ষীর স্বাক্ষ্য গ্রহণের পর ২০১৭ সালের ২১ সেপ্টেম্বর আসামীপক্ষের আপীল আবেদনে মামলার কার্যক্রম স্থগিতের আদেশ দেন উচ্চতর আদালত। এরপর রাস্ট্রপক্ষের আইনজীবীদের আবেদনের প্রেক্ষিতে উচ্চতর আদালত চলতি বছরের ২২ অক্টোবর মামলাটির স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করে নথি পাওয়ার ৯০ দিনের মধ্যে মামলাটি নিষ্পত্তি করতে চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতকে নির্দেশ দেন। সেই নির্দেশ অনুযায়ী মামলাটির বিচারিক কার্যক্রম অব্যাহত আছে।

নড়াইলের কালিয়া ডিবির হাতে জুয়া খেলার সময় ৪ জুয়াড়ী আটক

নড়াইলের কালিয়া ডিবির হাতে জুয়া খেলার  সময় ৪ জুয়াড়ী আটক

মো: আজিজুর বিশ্বাস স্টাফ রিপোর্টার নড়াইল।।নড়াইলের কালিয়া জুয়া খেলা অবস্থায় ইউপি সদস্য সহ গোয়েন্দা পুলিশ ৪ জন কে আটক করেছে।নড়াইল পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার) এর নির্দেশে,(২২নভেম্বর) রোববার দুপুরে কালিয়া থানার পুরুলিয়া গ্রাম থেকে, গোপন সংবাদের ভিওিতে, জুয়াখেলা অবস্থায় পুরুলিয়া ইউনিয়নের বর্তমান ইউপি সদস্য (মেম্বার) একাধীক (১২) টি মামলার জামিন প্রাপ্ত আসামী মোঃ কোবাদ হোসেন (৪৮) পিতা মৃত জব্বার সাং-লক্ষিপুর, থানাঃ কালিয়া,জেলা, নড়াইল সহ (৪) জনকে,এসআই আনিস,সঙ্গিও এসআই মাফুজুর কনেষ্টবল বিকাশ,দেলোয়ার,শিবলি,সরোয়ার সহ গ্রেফতার করে।


এদিকে,লক্ষিপুর গ্রামের একাধীক ব্যক্তী নাম পরিচয় দিতে অনিচ্ছুক অভিযোগ করে জানান,কোবাদ হোসেন একজন ইউপি সদস্য হয়ে কিভাবে জুয়া খেলায় ব্যস্ত থাকেন ভেবে পায়না,একজন ইউপি সদস্য গ্রাম তথা সমাজের উন্নয়নকাজে ব্যস্ত থাকার কথা কিন্তু তিনি জুয়া খেলায় ব্যস্ত থাকেন,এ কেমন জনপ্রতিনিধি।

গ্রামবাসি আরো জানান,কোবাদ হোসেন মেম্বার যা করে বেড়ায় তাতে অনেক বড় সাস্তি হওয়া উচিৎ ছিল,একজন জুয়ারীকে সামান্য সাস্তি দেয়াতে তার শিক্ষা হয় না,আবারও হাজত খেটে বেরিয়ে এসে কোবাদ মেম্বর জুয়া খেলবে বলেও জানান।

গোয়েন্দা পুলিশের এসআই আনিস এ প্রতিবেদক কে জানান,আজ রোববার দুপুরে গোপন সংবাদ পেয়ে এসপি সারের নির্দেশে অভিযান পরিচালনা করি এসময় বর্তমান ইউপি সদস্য মোঃকোবাদ হোসেন সহ ৪ জুয়ারী কে আটক করে মোবাইল কোর্টের মাদ্ধমে ৪ জুয়ারীকে ৭ দিন করে বিনাস্রম কারাদন্ড প্রদান করে জেলহাজতে প্রেরন করা হয়েছে।

পাটকল রক্ষায় সম্মিলিত নাগরিক পরিষদের বিক্ষোভ মিছিল

পাটকল রক্ষায় সম্মিলিত নাগরিক পরিষদের বিক্ষোভ মিছিল


তুহিন রানা (আব্রাহাম) ; খুলনা নগর প্রতিনিধিঃ
অবিলম্বে রাষ্টায়ত্ত পাটকল চালু এবং দূর্নীতি-লুটপাট বন্ধে ও পাটকল আধুনিকায়ন করা সহ মোট ১৪ দফার দাবিতে ২২ নভেম্বর বিকাল ৫ টায় খালিশপুরের প্লাটিনাম গেট থেকে এক বিক্ষোভ সমাবেশ করে পাটকল  রক্ষায় সম্মিলিত নাগরিক পরিষদের নেতৃবৃন্দ।

বিক্ষোভ সমাবেশটি খালিশপুরের প্লাটিনাম গেট থেকে শুরু হয়ে বি আই ডি সি সড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে প্রদক্ষিণ করে খালিশপুর গোল চত্বর মোড়ে গিয়ে শেষ হয়।

এসময় উপস্থিতি ছিলেন বাসদ ও শ্রমিক-ছাত্র-জনতা ঐক্যের বিভিন্ন নেতৃত্ব বৃন্দ, উল্লেখ্য বাসদের নেতা জনারধন দত্ত নান্টু ; শ্রমিক-ছাত্র-জনতা ঐক্যের নেতা রুহুল আমিন সহ আরো অনেকে।

উক্ত বিক্ষোভ মিছিলে ১৪ দফা দাবি সমুহের মধ্যে অন্যতম; বদলী,দৈনিকভিত্তিক ও অবসরপ্রাপ্তসহ সকল শ্রমিকের বকেয়া পাওনা ক্ষতিপূরণসহ এককালীন পরিশোধ করতে হবে। বকেয়া ৬ সপ্তাহের মজুরি, উৎসব ভাতা, ইনক্রিমেন্টসহ জুলাই মাসের ২ দিনের মজুরী অবিলম্বে পরিশোধ করতে হবে; পাওনা পরিশোধের আগে শ্রমআইন লঙ্ঘন করে অবসান থেকে শ্রমিকদের উচ্ছেদ বন্ধ করতে হবে; পাটকল রক্ষা আন্দোলনের নেতৃবৃন্দের নামে দায়েরকৃত মামলা  প্রত্যাহার করতে হবে এবং আরো বিভিন্ন দফা।

খুলনা নগরীতে মাদক বিরোধী অভিযানে ১১ জন আটক

খুলনা নগরীতে মাদক বিরোধী অভিযানে ১১ জন আটক


তুহিন রানা (আব্রাহাম); খুলনা নগর প্রতিনিধিঃ
খুলনা মহানগরীতে মাদক বিরোধী অভিযানে গত ২৪ঘন্টায় মাদক দ্রব্যসহ ১১জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এসব ঘটনায় আজ রবিবার (২২ নভেম্বর) সংশ্লিষ্ট থানায় ৭টি মামলা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতদের কাছ থেকে ৬০পিস ইয়াবা, ২ বোতল ফেন্সিডিল ও ১৬০ গ্রাম গাঁজা জব্দ করা হয়।

কেএমপি'র সূত্রে জানা গেছে, গ্রেফতারকৃতরা হল- নগরীর ৫নং মাছঘাট গ্রীনল্যান্ড আবাসন ডি-ব্লকের মৃত রহমান মাতুব্বরের ছেলে ইমরান মাতুব্বর (২৮), একই এলাকার মৃত আব্বাস হাওলাদারের ছেলে শিবলি হাওলাদার (৩৭), সোনাডাঙ্গা ময়লাপোতা বস্তির মৃত কদম আলী ব্যাপারীর ছেলে ইউসুফ ব্যাপারী (৪৮), সাতক্ষীরার কালিগঞ্জের শেখপাড়া এলাকার মৃত শেখ আবদুল গফ্ফারের ছেলে ও সোনাডাঙ্গা থানাধীন ছোট বয়রা কুন্ডুপাড়া কেডিএ টিনশেড ঘরের বাসিন্দা  মোঃ শেখ জাহাঙ্গীর হোসেন (৩৫), গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ার কুশলা গ্রামের মোঃ মোস্তফার ছেলে নগরীর খালিশপুর নিউজপ্রিন্ট শ্রমিক ভবনের পাশে রেল লাইন এলাকার মোঃ হাসান (২১), দৌলতপুরের পাবলা দত্তবাড়ীর মোঃ সাফায়েত মোল্যার মেয়ে মোসাঃ মনজিলা (৩৬), তার বোন তানজিলা বেগম (৩৪), পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া নিজাইম্মা বাজারের মৃত মজিবর আকনের ছেলে নগরীর হরিণটানা থানাধীন হোগলাডাঙ্গা এলাকার মোঃ সরোয়ার আকন (২৭), একই এলাকার মোঃ সেলিম শরীফের ছেলে মোঃ টুলু শরিফ (২৪), খালিশপুরের বিআইডিসি রোডের পিপলস্ গেট এলাকার মোঃ মধু কাজীর ছেলে মোঃ কাজী আবু ইউসুফ সোহাগ (২৪) এবং চিত্রালী বাজারের পিছনের ২৮২নং রোডের ৫১নং বাড়ীর বাসিন্দা মোঃ আজিজুলের ছেলে মোঃ আশিকুজ্জামান রাজু (২৫)।

গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়নেরর কৃতি সন্তান আনোয়ার হোসেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য নির্বাচিত হওয়ায় আনন্দ মিছিল

গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়নেরর কৃতি সন্তান  আনোয়ার হোসেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য নির্বাচিত হওয়ায় আনন্দ মিছিল

 
স্টাফ রিপোর্টারঃ গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়নেরর কৃতি সন্তান  আনোয়ার হোসেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য নির্বাচিত হওয়ায়  গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়নে আনন্দ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। 
উল্লেখ্য যশোর জেলার ঝিকরগাছা উপজেলারধীন ১ নং গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের নবগ্রামের মৃত রওশন আলীর কৃতি সন্তান সদ্য ঘোষিত বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য নির্বাচিত হওয়ায় আজ ২২ শে নভেম্বর রবিবার বিকাল ৫ টার  সময় অত্র ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও বর্তমান এমপি প্রতিনিধি আমিনুর রহমানের নেতৃত্বে ছুটিপুর বাজারে বিশাল এক আনন্দ মিছিল ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। 
উক্ত মিছিল ও  আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আব্দুস সামাদ,মাগুরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের  নেতা রেফাজ উদ্দীন, আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুর জব্বার, ইউনিয়ন আওয়ামী সাংস্কৃতিক ফোরামের সভাপতি প্রভাষক মহসীন আলী, ৮ নং ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বর গোলাম মোস্তফা, ৩ নং ওয়ার্ডের  সাবেক মেম্বর ও আটলিয়া দাখিল মাদ্রাসার সুপার তালিমুল ইসলাম, ৯ নং ওয়ার্ডের মেম্বর মোজাফফর হোসেন,কামরুজ্জামান কামু,  যুবলীগ নেতা জাকির হোসেন ,সাহেব আলী , নজরুল ইসলাম রিলিফ,পলাশ হোসেন, ইমরান হোসেন,ইমামুল হক ,মশিয়ার রহমান, কামারুজ্জামান ,দিয়ানত আলী,শামসুর রহমান, নিমাই চন্দ্র,১ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নেতা জয়নুর রহমান,ইউনুছ আলী, আতাউল হক আতাল ,মাস্টার আব্দুল মজিদ, তরিকুল ইসলাম , ছাত্রলীগ নেতা শামীম হোসেন, আবু সাঈদ, রাম পদ ,আব্দুল গফুর, মন্টু মিয়া, ফারুক হোসেন , সামাউল ইসলাম প্রমুখ।
উক্ত মিছিলটি ছুটিপুর বাজার থেকে শুরু করে  মোহাম্মদপুর মোড়  দিয়ে বালিয়ার  মোড় পর্যন্ত প্রদক্ষিণ করে।মিছিল শেষে  বালিয়ার  মোড়ে  সংক্ষিপ্ত আলোচনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয় উক্ত আলোচনা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন অত্র ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও বর্তমান এমপি প্রতিনিধি আমিনুর রহমান,২ নং মাগুরা ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের নেতা ও ডহুর মাগুরা দাখিল  মাদ্রাসার সভাপতি রেফাজ উদ্দিন, যুবলীগ নেতা জাকির হোসেন, সাহেব আলী প্রমুখ।
 উক্ত-আলোচনা অনুষ্ঠান থেকে আনোয়ার হোসেন কে  বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির প্রেসিডিয়াম সদস্য নির্বাচিত করায়  গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, দেশনেত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনাকে অত্র ইউনিয়ন এর পক্ষ থেকে প্রাণঢালা অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করা হয়।
 

দক্ষিণ আফ্রিকায় মালাউই কর্মচারী হাতে আবারো বাংলাদেশি খুন

 দক্ষিণ আফ্রিকায় মালাউই কর্মচারী হাতে আবারো বাংলাদেশি খুন

আব্দুল জব্বার, স্টাফ রিপোর্টার।।দক্ষিণ আফ্রিকার  ইস্টার্নকেপ প্রভিন্সে গতকাল শুক্রবার ২০ নভেম্বর মোঃ জিতু নামের এক বাংলাদেশি নির্মমভাবে খুন হয়েছেন, দোকানের মালাউই কর্মচারীর ধারালো অস্ত্রের আঘাতে।  (ইন্না---রাজিউন)


বাংলাদেশি মালিকানাধীন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানটিতে জিতু এবং মালাউই নাগরিক চাকুরী করতেন। গতকাল রাতে দোকান বন্ধের পরে, জিতু রাতের খাবার শেষে ঘুমিয়ে পড়লে দোকানে রাত্রি যাপন করা, মালাউই নাগরিক ধারালো অস্ত্র দিয়ে নির্মমভাবে মাথায় আঘাত করে হত্যা করে বাংলাদেশি এই রেমিটেন্স যোদ্ধা কে।

জিতুর দেশের বাড়ি মুন্সিগঞ্জ জেলায়। 

জিতু-সহ চলতি বছরে বেশ কিছু বাংলাদেশি মালাউই কর্মচারীর হাতে নির্মমভাবে খুন হয়েছেন। এখন পর্যন্ত দক্ষিণ আফ্রিকাতে কয়েক শত মালাউই নাগরিক, বাংলাদেশিসহ রাতে দোকানে রাত্রিযাপন করে। হত্যার পাশাপাশি প্রতিনিয়ত চুরি ঘটনাও ঘটছে মালাউই নাগরিকের হাতে। কপোতাক্ষ নিউজ পরিবারের পক্ষ থেকে  জিতুর আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি এবং শোকাহত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি।

কবি রুদ্রের ছোট ভাই জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ড. হিমেল বরকত আর নেই

কবি রুদ্রের ছোট ভাই জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক  ড. হিমেল বরকত আর নেই



মোঃএরশাদ হোসেন রনি, মোংলাঃকবি রুদ্র মুহম্মদ শহিদুল্লাহর ছোট ভাই জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক  ড. হিমেল বরকত (৪২) হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্নাইলাহি রাজিউন)। শনিবার সকালে অনলাইনে ক্লাস নেয়ার সময় হঠাৎ হার্ট এ্যাটার্ক করলে তাকে বারডেম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় রবিবার ভোর রাত সাড়ে ৪টার দিকে তার মৃত্যু হয়। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী ও এক কন্যা সন্তানসহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন ও গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। 


মরহুমের ভাই দৈনিক প্রথমআলোর মোংলা প্রতিনিধি সুমেল সারাফাত জানান, রবিবার সন্ধ্যার পর তার ভাইয়ের মরদেহ নিয়ে ঢাকা থেকে মোংলার মিঠাখালী গ্রামের বাড়ীর উদ্দেশ্যে রওনা হওয়ার কথা রয়েছে। এরপর সোমবার সকাল ১০টায় সেখানে জানাযা নামাজ শেষে তাদের পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হবে। মরহুম হিমেল বরকত মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের সাবেক ডক শ্রমিক পরিচালনা বোর্ডের প্রয়াত ডাঃ ওলিউল্লাহর কনিষ্ঠ পুত্র এবং প্রয়াত কবি রুদ্র মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ ও প্রথমআলো পত্রিকার মোংলা প্রতিনিধি সুমেল সারাফাতের ছোট ভাই। হিমেল বরকত পেশায় ছিলেন জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ব বিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক। তাই পেশাগত কারণে স্বপরিবারে ঢাকায় বসবাস করছিলেন। অধ্যাপকের পাশাপাশি তিনি একজন কবি, সাহিত্যক ও গবেষক ছিলেন। অধ্যাপক ড. হিমেল বরকতের অকাল মৃত্যুতে শোকাহত পরিবারের প্রতি গভীর শোক ও সমবেদনা জানিয়েছেন মোংলা প্রেস ক্লাবেকর সভাপতি এইচ এম দুলাল, সাধারণ সম্পাদক মোঃ হাসান গাজী, সাবেক সভাপতি আহসান হাবিব হাসান, সাংবাদিক মনিরুল হায়দার ইকবাল, আমির হোসেন আমু, আবু হোসাইন সুমন, জসিম উদ্দিন, নিজাম উদ্দিন ও শেখ নুর আলমসহ স্থানীয় সাংবাদিকরা। #

মরহুম আ.আলীমের মৃত্যুতে একতা সাংস্কৃতিক উন্নয়ন সংস্হার উদ্যোগে শোক সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

মরহুম আ.আলীমের মৃত্যুতে একতা সাংস্কৃতিক উন্নয়ন সংস্হার উদ্যোগে শোক সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত




ডা.এম.এ.মান্নান, টাংগাইল জেলা প্রতিনিধি:নাগরপুরের ঐতিহ্যবাহী সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন "একতা সাংস্কৃতিক উন্নয়ন সংস্থার প্রচার সম্পাদক মরহুম মো.আ.আলীমের রুহের মাগফেরাত কামনায় সংস্হাটির উদ্যোগে শোক সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

আজ রবিবার,২২ নভেম্বর ২০২০ খ্রি.একতা সাংস্কৃতিক উন্নয়ন সংস্হার নিজস্ব কার্যালয়ে বেলা ২.০০ টায় মরহুম আ.আলীমের শোক সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

একতা সাংস্কৃতিক উন্নয়ন সংস্হা ও জাতীয় মানবাধিকার ইউনিটি নাগরপুর উপজেলা শাখার সুযোগ্য সাধারন সম্পাদক সাংবাদিক মো.তোফাজ্জল হোসেন তুহিনের পরিচালনায় শোক সভা ও দোয়া মাহফিলে উপস্হিতি ছিলেন-নাগরপুর বাজার জামে মসজিদ এর খতিব মাও মো.রফিকুল ইসলাম,পেশ ইমাম মাও.মো.রফিকুল ইসলাম আমিনী,নাগরপুর মহিলা কলেজ এর প্রভাষক মোহাস্মদ আলী আকতার,ডা.মো.আ.ওয়াহাব,নাগরপুর প্রেস ক্লাব এর সাধারন সম্পাদক মো.এরশাদ মিয়া,সাংবাদিক মো.রবিন,ব্যাংকার তারিকুল ইসলাম,ডা.আ.রহমান,সহ সভাপতি মো.নুরুল ইসলাম, আফরোজ,ডা.এম.এ.মান্নান সহ একতা সাংস্কৃতিক উন্নয়ন সংস্হা ও জাতীয় মানবাধিকার ইউনিটি নাগরপুর শাখার বিভিন্ন পর্যায়ের নেত্ববৃন্দ উপস্হিত ছিলেন।

আসন্ন ইউপি নির্বাচনে নৌকার মাঝি হিসেবে দেখতে চান প্রতিভাবান সাংবাদিক ফিরোজ কায়সারকে

 আসন্ন ইউপি নির্বাচনে নৌকার মাঝি হিসেবে দেখতে চান  প্রতিভাবান সাংবাদিক ফিরোজ কায়সারকে

কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি //এম,ডি,আল আসিবুজ্জামান চঞ্চলঃআসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ১১ নং আদাবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের সর্বস্তরের মানুষকে জানাই তরুণ সাংবাদিক ও মেধাবী ছাত্রনেতা ফিরোজ কায়সার ( জেলা প্রতিনিধি আনন্দ টিভি কুষ্টিয়া, সাধারণ সম্পাদক দৌলতপুর প্রেসক্লাব ডিপিসি, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা, কুষ্টিয়া পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট কুষ্টিয়া, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইউনাইটেড অনলাইন প্রেসক্লাব কুষ্টিয়া, সভাপতি মাদক বিরোধী আন্দোলন দৌলতপুর শাখা) এর পক্ষ থেকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। ১১ নং আদাবাড়িয়া ইউনিয়ন কে একটি আধুনিক মডেল ইউনিয়নে রূপান্তরের লক্ষ্যে সকলের দোয়া ও সমর্থন প্রত্যাশী।

মৌলভীবাজারে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা, অর্থদন্ড

মৌলভীবাজারে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা, অর্থদন্ড



আকরাম হোসাইন মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি  :: শীতকাল আগমনের শুরুতেই কোভিড ১৯ এর দ্বিতীয় ঢেউ এর কারণে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী সংখ্যা ও মৃত্যুর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। কোভিড-১৯ এর দ্বিতীয় ঢেউ প্রতিরোধে বাধ্যতামূলক মাস্ক ব্যবহার ও অন্যান্য স্বাস্থ্য বিধি নিশ্চিতকল্পে মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার পৌর শহরে  প্রশাসক মহোদয়ের নির্দেশক্রমে আজ ২২.১১.২০২০ইং রোজ রবিবার ১২.০০সময়ে এক যোগে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়।

বড়লেখা উপজেলায় আজ উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বড়লেখা ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ শামীম আল ইমরান ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট  নুসরাত লায়লা নীরার নেতৃত্বে দুইটি মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। দুটি মোবাইল কোর্টে ৩৮ টি মামলায় ৭৬০০ টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়। এসময় জনগণের মধ্যে মাস্কও বিতরণ করা হয় ।বড়লেখা থানার সেকেন্ড অফিসার এস আই প্রভাকর রায়ের নেতৃত্বাধীন বড়লেখা থানা পুলিশ মোবাইল কোর্ট কে সর্বাত্মক সহযোগিতা প্রদান করেন নিজে সচেতন হন অন্য কে নিরাপদ রাখুন।

জবির একাডেমিক ক্যালেন্ডারের মোড়ক উন্মোচন

 জবির একাডেমিক ক্যালেন্ডারের মোড়ক উন্মোচন

জবি প্রতিনিধি:জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষের একাডেমিক ক্যালেন্ডারের মোড়ক উন্মোচন করা হয়েছে।রবিবার (২২ নভেম্বর ২০২০) জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষের একাডেমিক ক্যালেন্ডারের মোড়ক উন্মোচন করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান।

এসময় ট্রেজারার অধ্যাপক ড. কামালউদ্দীন আহমদ, রেজিস্ট্রার, ডায়েরি-ক্যালেন্ডার সম্পাদনা পর্ষদের আহবায়ক অধ্যাপক ড. মনিরুজ্জামান সহ অন্যান্য সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

রবির স্বল্পমূল্যে ডাটার এসএমএস বিলম্বে ভোগান্তিতে জবি শিক্ষার্থীরা

 রবির স্বল্পমূল্যে ডাটার এসএমএস বিলম্বে ভোগান্তিতে জবি শিক্ষার্থীরা


জবি প্রতিনিধি:  জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) শিক্ষার্থীদের জন্য রবির ৯৯ টাকায় ৩০ জিবি ইন্টারনেট প্যাকটি কেনার জন্য রেজিস্ট্রেশনের প্রায় এক সপ্তাহ পর ও এসএমএস পাচ্ছেন না শিক্ষার্থীরা। এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।


বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে যে, রবির ডাটা প্যাকটির জন্য প্রদত্ত ওয়েবসাইটের লিংকে তথ্য দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করলে উক্ত রবি/এয়ারটেল নাম্বারে কনফার্মেশন এসএমএস আসবে। অতঃপর শিক্ষার্থীরা ১৯৯ টাকা রিচার্জ করবে এবং ইউএসএসডি কোড (*১২৩*৭৭৩৩#) ডায়েল করে বিশ্ববিদ্যালয় ও ‘রবি’ প্রদত্ত সুবিধাটি উপভোগ করতে পারবে।


বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়েছে যে, একজন শিক্ষার্থী ১৯৯ টাকার বিনিময়ে প্রতিমাসে ৩০ জিবি ডাটা পাবেন এবং প্রতিমাসের অব্যবহৃত ডাটা পরবর্তী মাসে স্বয়ংক্রিয়ভাবে যুক্ত হবে। তবে উল্লেখ্য যে, শিক্ষার্থীকে প্রথমবার বান্ডেলটি কিনতে ১৯৯ টাকা প্রদান করতে হবে (সরকারী নীতিমালা অনুসারে) এরপর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ রবি কর্তৃপক্ষের সঙ্গে নাম্বার শেয়ার করার সাথে সাথে ‘রবি’ শিক্ষার্থীর মোবাইল নাম্বারে-এ ১০০ টাকা রিচার্জ পাঠিয়ে দিবে। উক্ত ১০০ টাকা জবি'র পক্ষ থেকে শিক্ষার্থীদের অনুকূলে ভর্তুকি হিসেবে ‘রবি'-কে প্রদান করা হবে।


এদিকে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, ওয়েবসাইটে রেজিস্ট্রেশনের পর প্রায় সাত দিন অপেক্ষা করেও ডাটা প্যাকের কোনো এসএমএস পাচ্ছেন না তারা। এতে করে টাকা রিচার্জ কিংবা ডাটা প্যাকটিও ক্রয় করতে পারছেন না তারা। অনেকে এসএমএস না পাওয়ায় আর সেই ডাটা প্যাকের খুঁজ ও নিচ্ছেন না। এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী অভিজিত জানায়, এসএমএস এর জন্য অপেক্ষা করে দুই দিন ক্লাস মিস দিয়েছি। বাধ্য হয়েই তাই অন্য ডাটা প্যাক ক্রয় করতে হয়েছে। রবির এই ডাটা প্যাকটি ক্রয় করা বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য শিক্ষার্থীরা ও একই সমস্যার কথা জানান।


এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড মীজানুর রহমান এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি অর্থ দপ্তরের পরিচালক কাজী মো: নাসির উদ্দীনের সাথে কথা বলতে পরামর্শ দেন। তিনি বিষয়টির সার্বিক দায়িত্বে রয়েছেন বলেও জানান তিনি।


এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থ কমিটির সদস্য সচিব কাজী মো: নাসির উদ্দীনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এসএমএস না আসার ব্যাপারে আমি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মহোদয়কে বলবো যেনো রবির সাথে যোগাযোগ করে একটা হটলাইনের ব্যবস্থা করে দেয়।


বিশ্ববিদ্যালয়ের আইটি দপ্তর তথ্য অনুযায়ী মাত্র ৪ শ’ জন শিক্ষার্থী স্বল্পমূল্যে ইন্টারনেট পরিসেবার জন্য রেজিস্ট্রেশন করেছেন। এদিকে সমস্যা গুলোর সমাধানের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের নেটওয়ার্ক ও আইটি দপ্তরের পরিচালক অধ্যাপক ড. উজ্জ্বল কুমার আচার্য্য এর সাথে ফোনালাপে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, রেজিষ্ট্রেশন সংক্রান্ত যেকোনো সমস্যা আইটি দপ্তর থেকে সমাধান করা সম্ভব। তবে রবির কোনো সমস্যার (সিম, নেটওয়ার্ক) সমাধান বিশ্ববিদ্যালয় থেকে করা সম্ভব নয়। এসএমএস না আসলে সেটা রবির সমস্যা। রবির সাথে যোগাযোগ করতে হবে।

ঝিনাইদহে ১১০ বোতল ফেন্সিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক

 ঝিনাইদহে ১১০ বোতল ফেন্সিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক


খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার,খুলনা ব্যুরো প্রধানঃঝিনাইদহে ফেন্সিডিলসহ মোমিন নামের এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে পুলিশ। রোববার সকালে শহরের বাস টার্মিনাল এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। সে চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার কানাইডাঙ্গা গ্রামের ফকির মন্ডলের ছেলে।

ঝিনাইদহ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ মিজানুর রহমান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি শহরের কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল এলাকায় মাদক কেনা বেচা হচ্ছে। এমন খবরের ভিত্তিতে এস আই মোখলেচুর রহমান সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে সেখানে অভিযান চালায়। এসময় মোমিন নামের একজনকে আটক করা হয়। পরে তার কাছে থাকা ১শত ১০ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় থানায় একটি মাদক মামলা হয়েছে।

কাগমারী গ্রামের আঃ করিম ( কলম) মেম্বর ইন্তেকাল করেছেন

 কাগমারী গ্রামের আঃ করিম ( কলম) মেম্বর  ইন্তেকাল করেছেন

স্টাফ রিপোর্টারঃ যশোর জেলার ঝিকরগাছা উপজেলার কাগমারী গ্রামের ঈদগাহ  পাড়ার সাবেক ইউপি সদস্য আঃ করিম ( কলম)  (৫৫)  হৃদক্রিয়া বন্ধ হয়ে গতকাল রাত ১২.১০ মিনিট নিজ বাড়িতে  ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না-লিল্লাহ ---রাজিউন)। মৃত্যু কালে তিনি স্ত্রী, তিন কন্যা সহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। আজ বাদ যুহর  মরহুমের জানাজার নামাজ কাগমারী ঈদগাহ ময়দানে অনুষ্ঠিত হবে। 

তার অকাল মৃত্যুতে তার রুহের মাগফেরাত কামনা করা সহ পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও বর্তমান এমপি প্রতিনিধি আমিনুর রহমান। 

পটিয়া পৌর নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রার্থীরা মাঠে দলীয় সমর্থন পেতে জোর লবিং, জাপার একক প্রার্থী

পটিয়া পৌর নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রার্থীরা   মাঠে দলীয় সমর্থন পেতে জোর লবিং, জাপার একক প্রার্থী

সেলিম চৌধুরী স্টাফ রিপোর্টারঃ- চলতি মাসের যে কোন সমশ  ঘোষনা হতে পারে  পৌরসভা নিবার্চনের তফসিল। নির্বাচন কমিশনের ঘোষণা অনুযায়ী বিজয়ের মাস ডিসেম্বরের শেষে দিকে পটিয়া পৌর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।পটিয়া পৌর নির্বাচন নিয়ে  মনোনয়ন যুদ্ধে অবতীর্ণ হয়েছে আওয়ামীলীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টিসহ ইসলামিক দলের সম্ভাব্য প্রার্থীরা। তবে মাঠে নেই জামায়ত প্রার্থী নাম শুনা যাচ্ছে না।    পটিয়া পৌরসভার সর্বশেষ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় গত ২০১৫ সালের ৩০ ডিসেম্বর। মেয়াদ শেষ হবে আগামী বছরের ২৮  ফেব্রুয়ারী।   দলীয় মনোনয়ন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে সম্ভ্যাব্য প্রার্থীরা সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে প্রচারনা, বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক কর্মসূচীতে অংশ নেয়াসহ নানান সামাজিক কর্মকান্ডে তৎপরতা চোখে পড়ছে। এবারের নির্বাচন নিয়ে দলীয় মনোনয়ন যুদ্ধে অবতীর্ণ হয়েছে বিএনপির নবীন-প্রবীন ছয়জন মনোনয়ন প্রত্যাশী।

এরা হলেন পটিয়া পৌরসভা বিএনপি   সাবেক সভাপতি সাবেক পৌর     মেয়র আলহাজ্ব   নুরুল ইসলাম সওঃ গত পৌর নির্বাচনে বিএনপির দলীয় মেয়র প্রার্থী ও পৌরসভা বিএনপির সাবেক যুগ্ন সম্পাদক মোহাম্মদ তৌহিদুল আলম, পৌরসভা বিএনপির সাবেক যুগ্ন আহবায়ক বিশিষ্ট ব্যাবসায়ি   ব্যবসায়ী গাজী মোহাম্মদ আবু তাহের, দক্ষিণ জেলা যুবদলের সিনিয়র সহ সভাপতি মোহাম্মদ  শাহজাহান চৌধুরী, পটিয়া পৌরসভা যুবদলের সাবেক সিনিয়র   যুগ্ম- আহ্বায়ক  পটিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির সদস্য হাজী নজরুল ইসলাম,  জাতীয়তাবাদী তরুন দলের কেন্দ্রীয় কমিটির    চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল কাদের জুলু। এদিকে বসে নেই   জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান ও চট্টগ্রাম  

দক্ষিণ জেলা জাপার  আহবায়ক এবং সাবেক পটিয়া পটিয়া পৌরসভার একাধিকবার নির্বাচিত সাবেক চেয়ারম্যান সামশুল আলম মাস্টার। তিনি আবারও নির্বাচন করতে প্রস্তুতি 

সর্বোচ্চ নিচ্ছেন। সাবেক মেয়র   

জাপা নেতা সামশুল আলম মাস্টার বলেন, আসন্ন পৌর নির্বাচনে জাপার একক প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নেব। ১৯৯০ সালে পৌরসভা প্রতিষ্ঠার পর থেকে একাধিকবার পৌর চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছি। আমার দায়িত্বপালনকালে পৌরসভায় ব্যাপক উন্নয়ন কাজ হয়েছে। আগামীতে নির্বাচিত হলে এটিকে মডেল ও জনবান্ধব পৌরসভা হিসেবে গড়ে তুলব। । বিএনপির দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী সাবেক পৌর মেয়র ও পৌর বিএনপির সাবেক সভাপতি নুরুল ইসলাম জানান, পটিয়া পৌরসভায় বিগত ডিসেম্বর ১৯৯৩-মার্চ ১৯৯৬ সাল পর্যন্ত ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান।

জুন ২০০৫-জুন২০০৮ সাল পর্যন্ত নির্বাচিত চেয়ারম্যান এবং জানুয়ারি ২০০৮- ফেব্রুয়ারি ২০১১ পর্যন্ত মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছি। দলের দু:সময়ে নির্বাচনে অংশ নিলেও গত নির্বাচনে পারিবারিক সমস্যার কারণে অংশ নিতে পারিনি। এবার নিবার্চনে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশা করছি। দল যদি মনোনয়ন দেন অবশ্যই নিবার্চনের অংশ নিবেন বলে তিনি জানান। আরেক দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী  গত পৌর নির্বাচনে বিএনপির দলীয় প্রার্থী মোহাম্মদ তৌহিদুল আলম বলেন, গত পৌর নির্বাচনে দলের কঠিন সময়ে দলীয় প্রতীক নিয়ে মেয়র পদে জনগণের যে ভালবাসা পেয়েছি তা ভুলবার নয়। ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচন করে চট্টগ্রাম বিভাগে সর্বোচ্চ ভোট পেয়েছি।

আমি দু:সময়ে দলের পক্ষে নির্বাচন করেছি। করোনাকালে সাধারণ মানুষের পাশাপাশি দলীয় কর্মীদের পাশে দাঁড়িয়েছি। যড়যন্ত্রমূলক বিভিন্ন মামলায় হয়রানির শিকার হয়েছি। তিনি বলেন, দল সবদিক বিবেচনা করে প্রার্থী দেবে বলে আশাবাদ ব্যাক্ত করে বলেন, দল  যেটা সিদ্ধান্ত  নির্বাচনে জয়ী হলে পটিয়াকে একটি আধুনিক ও দৃষ্টিনন্দন শহর হিসেবে গড়ে তুলবো। বিএনপির মেয়র পদে আরেক মনোনয়ন প্রত্যাশী ও প্রভাবশালী বিএনপি  নেতা গাজী মো: আবু তাহের। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের সাবেক এ নেতা ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে আসন্ন পটিয়া পৌরসভা নিবার্চনে দলের মনোনয়ন পেলে নির্বাচনে মেয়র পদে লড়তে চান তিনি। তিনি জানান, 'দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন সংগ্রাম ও দলীয় কর্মসূচীতে দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি পারিবারিক ও ব্যক্তিগত উদ্যোগে বিভিন্ন সামাজিক কর্মকান্ডে অংশ গ্রহন করছি। এছাড়া একাধিক সামাজিক ও ক্রীড়া সংগঠনের সাথেও কাজ করছি। বিএনপি চেয়াারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া ও ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানে আমাকে মেয়র পদে মনোনয়ন দিলে আমি বিজয়ী হব  এবং পটিয়া পৌরসভাকে একটি পরিকল্পিত, আধুনিক, উন্নত ও মানসম্মত পৌরসভায় রূপান্তর করা হবে। 

দক্ষিণ জেলা যুবদলের সিনিয়র সহসভাপতি   মেয়র প্রার্থী মো. শাহজাহান চৌধুরী বলেন, তাদের পারিবারিক ঐতিহ্য রয়েছে। তার দাদা মরহুম আমজু মিয়া সওদাগর ও পিতা আবু মুছা প্রকাশ বালি সওদাগর পটিয়া ১৪ নং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ছিলেন। আগামী পটিয়া পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপির সমর্থনে ধানের শীর্ষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করতে আগ্রহী তিনি জানান ১৯৯০ সালে রাজনীতি শুরু দলের জন্য অনেক ত্যাগ শিকার করেছি আশা করি দল আমাকে মুল্যায়ন করবে।            

পটিয়া পৌরসভা যুবদলের সাবেক সিনিয়র  যুগ্ম- আহ্বায়ক হাজী নজরুল ইসলাম বিকম, 'আমি ১৯৮৮ সাল থেকে ছাত্রদলের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত থেকে অদ্যবধি গনতন্ত্রের প্রবক্তা শহীদ জিয়াউর রহমানের আদর্শকে লালন করে আসছি। ওয়ান ইলেভেনের সময় দলের কাজ করতে নির্যাতনের শিকার হয়েছি। আমি ইতিমধ্যে আমার প্রয়াত বাবা আলহাজ্ব আবদুস সালাম ফাউন্ডেশন গঠন করে এলাকার সামাজিক কর্মকান্ডের মাধ্যমে দু:স্থ অসহায় ও সাধারন মানুষকে সহযোগীতা করার চেষ্ঠা করে যাচ্ছি। এবারের পৌর নির্বাচনে ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচন করার প্রস্তুত রয়েছে ।  দল তাকেই মনোনয়ন দেবেন বলে আশা প্রকাশ করেন। যুবদ। বিএনপির মেয়র  মনোনয়ন প্রত্যাশী ও জাতীয়তাবাদী তরুন দলের কেন্দ্রীয় কমিটির   

চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল কাদের জুলু। তরুন এ  বিএনপি নেতা ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে আসন্ন পটিয়া পৌরসভা নির্বাচনে নির্বাচনী বৈতরনী পার হতে চান। তিনি জানান, সামাজিক ও ক্রীড়া সংগঠনের সাথেও কাজ করছি। দলের মনোনয়ন পেলে নির্বাচনে মেয়র পদে লড়তে চায়।

স্বজন হারানোর এক সপ্তাহের আগেই মানব সেবায় শহীদ শেখ আবু নাসের পরিবার

স্বজন হারানোর এক সপ্তাহের আগেই মানব সেবায় শহীদ শেখ আবু নাসের পরিবার

তুহিন রানা (আব্রাহাম) ; খুলনা নগর প্রতিনিধিঃ
৭৫ এর ১৫ আগষ্ট পিতাসহ চাচা, তার স্ত্রী, সন্তান সকলকে হারিয়ে দিশেহারা পাঁচ ভাই ও দুই বোন যে বট বৃক্ষের ছায়ায় বেড়ে উঠেছে। তৎকালীন দেশদ্রোহী জাতির পিতার খুনী ও তাদের দোসরদের সকল রকচক্ষু উপেক্ষা করে, সকল ষড়যন্ত্র প্রতিহত করে দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলের মানুষের সেবায় পাঁচ পাঁচটি শক্ত খুঁটি নির্মান করে গেছেন যে মানুষটি। সেই মানুষটি হলেন আপোষহীন নাড়ী বেগম রিজিয়া নাসের। গত ১৬ নভেম্বর মহিয়সী এই নাড়ী সকলকে অশ্রু জলে ভাসিয়ে না ফেরার দেশে পারি জমিয়েছেন(ইন্না.....রাজিউন)।

যে শোকে এখনও বিহ্বল দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলের মানুষ। তেমনি শোকে কাতর শহীদ শেখ আবু নাসের এর পরিবারের সদস্যরা। 

তারপরও সেই শোককে শক্তিতে পরিণত করে মায়ের শেখানো মানোবতার সেবায় নিজেদের নিয়োজিত করেছেন দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলের মানুষের রক্ষা কবচ শহীদ শেখ আবু নাসের পরিবারের সদস্যরা। 
বর্তমান এই মহামারীর সময়ে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় আজ বাগেরহাট জেলা প্রশাসকের গুরুত্বপূর্ণ সভায় ভার্চুয়ালী অংশগ্রহন করেছেন শহীদ শেখ আবু নাসের ও রিজিয়া বেগমের বড় পুত্র শেখ হেলাল উদ্দীন এমপি এবং নাতী শেখ  সারহান নাসের তন্ময় এমপি। সেখানে তারা দিক নির্দেশনা মূলক বক্তব্য রাখেন এবং সভায় উপস্থিত ছিলেন বাগেরহাটের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার ৫০০ এর অধিক প্রতিনিধি'র বক্তব্য শুনেন। এর আলোকে প্রশাসনকে সিদ্ধান্ত গ্রহনের নির্দেশ দেন। 


একইভাবে তাদের অপর সন্তান সেখ সালাহউদ্দীন জুয়েল এমপি, শেখ সোহেল, শেখ জালালউদ্দিন রুবেল ও শেখ বেলালউদ্দীন বাবু তাদের নিজ নিজ কর্মক্ষেত্রে জনগনের সেবায় কাজে করে যাচ্ছেন। এটাই জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর পরিবারের মূল লক্ষ্য। জনগনের সেবার কাছে ব্যাক্তি জীবন তাঁরা বংশ পরম্পরায় বিসর্জন দিয়েছেন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা, শেখ কামাল, শেখ জামাল, শেখ রাসেল, সহোদর শহীদ শেখ আবু নাসের যেমন এদেশের সেবায় জনগনের অধিকার রক্ষায় নিজেদের জীবন দান করেছেন। তাদের মৃত্যুর পরে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ও দেশনেত্রী শেখ হাসিনা যেমন এ দেশের সেবায় ও জনগনের অধিকার রক্ষায় নিজেকে যেমন অকাতরে বিলিয়ে দিয়েছেন। ফিনিক্স পাখির ন্যায় বার বার মৃত্যুর দোয়ার থেকে ফিরে এসে সুখী, সমৃদ্ধ  বাংলাদেশ গড়ার যে সংগ্রাম করে যাচ্ছেন। সেই সংগ্রামকে সফল করতে দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলের মানুষের ভাগ্যের উন্নয়নে নিজেদের উজার করেছেন শহীদ শেখ আবু নাসের এর পরিবারের সদস্যরা।


নারায়গঞ্জের আড়াইহাজারে ১৫০টি ফলজ ও বনজ গাছের চারা কর্তন থানায় অভিযোগ।

নারায়গঞ্জের আড়াইহাজারে ১৫০টি ফলজ ও বনজ গাছের চারা কর্তন থানায় অভিযোগ।

নারায়নগঞ্জ প্রতিনিধিঃ  আড়াইজার উপজেলার কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নে ইজারকান্দি গ্রামে ফার্মের পাশে তিনি গাছ লাগান,সামাজিক প্রতিহিংসার কারনে গাছ কেটেছে বলে ইউসুফ আহমেদের দাবি , যারা পূর্বে আমার এই বাগানের চারা গাছ কেটে ছিল তারাই এই কাজ করেছে, এবং এসব গাছ কাটার সঙ্গে প্রতিহিংসা সম্পৃক্ততা রয়েছে ।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায় ২০১৭ সালে ওই এলাকায় ফার্মের টিলা ভূমিতে আম, লিচু,ডাব,করুই গাছ, লেবুসহ বিভিন্ন ফলজ ও বনজ চারা রোপণ করেন। বাগান করার পর এ নিয়ে দুই বার চারা কেটে ফেলে দুর্বৃত্তরা।

ইউসুফ আহমেদ বলেন, 'শখের বসে আমি আমার ফার্মের চার একর টিলা ভূমিতে ২০১৭ সালে এই ফলজ ও বনজ চারা রোপন করি। ঢাকা থেকে এনে ৩০০বেশি আমগাছের চারা সঙ্গে লিচু ও লেবুসহ অন্যান্য ফলজ ও বনজ চারা রোপণ করি।

কিন্তু দুর্বৃত্তের হাত থেকে বাগানটি রক্ষা করতে পারছি না। আগের দুইবারও কয়েক শ আমগাছের চারা কাটা হয়েছিল।' তিনি বলেন, 'আমার সঙ্গে শত্রুতা করুক, গাছের সঙ্গে কিসের শত্রুতা। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ করেন ইউসুফ আহমেদ।

ঝিনাইদহের আখ চাষী ও শ্রমিক কর্মচারীদের ৫ দফা দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ

 ঝিনাইদহের আখ চাষী ও শ্রমিক কর্মচারীদের ৫ দফা দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ

 


খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার,খুলনা ব্যুরো প্রধানঃআখচাষী বাঁচাও, শ্রমিক বাঁচাও, মিল বাঁচাও, হটাও দালাল, বাঁচাও মিল, মুজিব বর্ষের এই অঙ্গীকার নিয়ে ঝিনাইদহের মোবারকগঞ্জ চিনিকলের আঁখ চাষী ও শ্রমিক কর্মচারীদের ৫ দফা দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও ফটক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

শনিবার সকালে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে মোবারকগঞ্জ চিনিকল প্রাঙ্গনে এ সমাবেশের আয়োজন করে বাংলাদেশ আঁখচাষী ফেডারেশন ও বাংলাদেশ কর্পোরেশন শ্রমিক কর্মচারী ফেডারেশন। 


সমাবেশে মোচিক আঁখচাষী কল্যান সমিতির সভাপতি জহুরুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মোচিক শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি গোলাম রসুল। বিশেষ অতিথি হিসেবে  বক্তব্য রাখেন মোচিক শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম, মোচিক আঁখচাষী কল্যান সমিতির সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রহমান মন্টু, সহ-সভাপতি ফজের আলী, কৃষক জহুর আলী, আক্কাস আলী, বাবুর আলী যুবলীগ নেতা কবির হোসাইন, সহ শ্রমিক নেতৃবৃন্দ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন শ্রমিক নেতা সাইদুর রহমান পিকু।

এসময় বক্তারা চিনি শিল্প রক্ষায় সরকারের কাছে ৫ দফা দাবি তুলে ধরেন। (২১ নভেম্বর) শনিবার স্ব স্ব মিলে আখচাষী ও শ্রমিক কর্মচারীদের সমন্বয়ে ফটক সভা অনুষ্ঠিত, (২৮ নভেম্বর) শনিবার সকালে স্ব স্ব মিল এলাকায় আখ চাষী ও শ্রমিক কর্মচারীদের সমন্বয় মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত, প্রত্যেক মিল এলাকায় পোষ্টার, ব্যানার ও লিফলেট বিতরণ করা, একই সঙ্গে ১৫ টি চিনিকলের মাড়াই মৌসুমের তারিখ নির্ধারণ না হওয়া পর্যন্ত কোন মিলে বয়লার স্লো-ফায়ারিং করা যাবে না। অবিলম্বে এ দাবি বাস্তবায়ন না হলে বৃহত্তর আন্দোলনের কর্মসূচি ঘোষনার হুশিয়ারি দেন নেতৃবৃন্দ। পরে মিল চত্তরে আখচাষী ও শ্রমিকরা বিক্ষোভ মিছিল বের করে।

শ্বশুরবাড়িতে বেড়াতে এসে যুবকের আত্মহত্যা

শ্বশুরবাড়িতে বেড়াতে এসে যুবকের আত্মহত্যা


স্টাফ রিপোর্টার :  শ্বশুরবা‌ড়ি‌তে বেড়া‌তে এ‌সে জহুরুল ইসলাম নুনু (২৮) না‌মে এক যুবক ‌আত্নহত্যা করেছেন।তি‌নি যশোরের ঝিকরগাছা উপ‌জেলার মাগুরা ইউ‌নিয়‌নের জয়রামপুর গ্রা‌মের ঠান্ডু মিয়ার ছে‌লে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দুইমাস পূ‌র্বে চৌগাছা উপ‌জেলার পাশা‌পোল ইউ‌নিয়‌নের রঘুনাথপুর গ্রা‌মের আবু জাফ‌রের মে‌য়ে তা‌হেরা খাতুনের সা‌থে জহুরুল  ইসলা‌মের বিয়ে হয়। কিন্তু শুরু থে‌কেই তা‌হেরা খাতুন তার শ্বশুরবা‌ড়ি‌তে যে‌তে অস্বীকার ক‌রেন। তা‌কে বেশ ক‌য়েকবার জোরপূর্বক সেখানে পাঠা‌নো হয়। ১৫ দিন আগে আগে শ্বশুরবা‌ড়ি গি‌য়ে তা‌হেরা খাতুন খাওয়া-দাওয়া বন্ধ ক‌রে দেন। এরপর তার ননদ তা‌কে রঘুনাথপুর রে‌খে যান। শ‌নিবার সকা‌লে জহুরুল তার স্ত্রী‌কে নি‌তে আ‌সেন। দুপু‌রে খাওয়া-দাওয়ার পর নি‌য়ে যে‌তে চাই‌লে তা‌হেরা খাতুন বেঁকে বসেন। একপর্যা‌য়ে বিকেলে জহুরুল ইসলাম সবার অ‌গোচ‌রে বিষপান ক‌রেন।

মৃত জহুরুল ইসলা‌মের শ্বশুর আবু জাফ‌র বলেন, 'মে‌য়েটা শ্বশুরবা‌ড়ি যে‌তে না চাওয়ায় জামাই‌কে আমরা ফি‌রে যে‌তে ব‌লি। কিন্তু ফি‌রে না গি‌য়ে সে বিষপান ক‌রে আত্মহত‌্যা ক‌রে।'

পরে চৌগাছা উপ‌জেলা স্বাস্থ‌্য কম‌প্লে‌ক্সে নি‌য়ে এলে জরুরি বিভা‌গের চি‌কিৎসক আ‌সিফ রায়হান তা‌কে মৃত ঘোষণা ক‌রেন।

সংবাদ পে‌য়ে জহুরুল ইসলা‌মের প‌রিবা‌রে লো‌কেরা হাসপাতা‌লে এ‌সে এ মৃত‌্যু‌কে 'অস্বাভা‌বিক' দাবি করলে পু‌লিশ লাশ হেফাজ‌তে নেয়।

চৌগাছা থানার ডিউ‌টি অ‌ফিসার এএসআই  বাবুল আক্তার জানান, ময়নাতদ‌ন্তের জন‌্য মরদেহ আগামীকাল য‌শোর জেনা‌রেল হাসপাতা‌লে পাঠা‌ন হবে।

মাদক মুক্ত সমাজ চাই

মাদক মুক্ত সমাজ চাই




বেলাল উদ্দিন সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টারঃ

স্থান ও সময়ঃ- চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব,সকাল ১০.০০ঘটিকা

তারিখঃ- ২৯ নভেম্বর ২০২০ খ্রিঃ

আয়োজনেঃ রূপনগর সমাজ কল্যাণ সমিতি, চট্টগ্রাম মহানগর কমিটি। 

দেশ থেকে মাদক নির্মুল করতে সকলকে ২৯ নভেম্বর ২০২০ খ্রিস্টাব্দ তারিখে সকাল ১০.০০ ঘটিকায় চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব এর সামনে মাদকের বিরুদ্ধে মানববন্ধনে অংশ গ্রহণ করার জন্য অনুরোধ করা হইল। 

নিবেদক

মোঃ বেললা উদ্দিন 

সভাপতি 

 রূপনগর সমাজ কল্যাণ সমিতি 

চট্টগ্রাম পতেঙ্গা থানা  কমিটি।

জাপার সন্মেলনে যোগ দেবেন অতিরিক্ত মহাসচিব রেজাউল ইসলাম নেতৃত্বে সাংগঠনিক টিম

জাপার সন্মেলনে যোগ দেবেন অতিরিক্ত মহাসচিব রেজাউল ইসলাম নেতৃত্বে সাংগঠনিক টিম



সেলিম চৌধুরী স্টাফ রিপোর্টারঃ-  আজ রাত  ৯টায় জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও চট্টগ্রাম বিভাগীয় অতিরিক্ত মহাসচিব এড.মোঃ রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া'র নেতৃত্বে ৩ (তিন) দিনের সাংগঠনিক সফর শুরু করেছেন জাতীয় পার্টির  চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাংগঠনিক টিম। 

আগামীকাল ২২ নভেম্বর রবিবার   বেলা ০৩ টায় পটিয়ায় জাতীয় পার্টি চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলার প্রতিনিধি সন্মেলন প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখবেন। এতে সভাপতিত্ব করবেন জাতীয় পার্টি কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান ও দক্ষিণ জেলার আহবায়ক সাবেক মেয়র শামসুল আলম মাষ্টার। এদিকে সন্মেলন সফল করতে জাতীয় পার্টি নেতা কর্মীরা ব্যাপক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে বলে দৈনিক জনতা'কে উপজেলা জাতীয় পার্টি আহবায়ক মুক্তিযোদ্ধা রফিক আহমদ চেয়ারম্যান জানান। এছাড়াও নেতৃবৃন্দ ২৩শে নভেম্বর সোমবার সকাল ১১ টায় চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ও ২৪শে নভেম্বর সকাল ১১ টায় জাতীয় পার্টি খাগড়াছড়ি জেলার সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের সাথে সাংগঠনিক মতবিনিময় সভা করবেন সাংগঠনিক টিম।

উক্ত সাংগঠনিক সফরে এড.মোঃ রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়ার সফরসঙ্গী হচ্ছেন- জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য- নাজমা আকতার এমপি, আলমগীর সিকদার লোটন, মোঃ এমরান হোসেন মিয়া,ভাইস চেয়ারম্যান- মৌলভী মোঃ ইলিয়াস ও মোঃ লুৎফর রেজা খোকন এবং যুগ্ম-মহাসচিব- মোঃ বেলাল হোসেন।