শ্রীপুরের দ্বারিয়াপুরে মাস্ক বিতরণ করলেন ইউপি চেয়ারম্যান কানন,

শ্রীপুরের দ্বারিয়াপুরে মাস্ক বিতরণ করলেন ইউপি চেয়ারম্যান কানন,




মোঃকুতুবুল আলম
মহম্মদপুর(মাগুরা)

মাগুরার শ্রীপুর উপজেলার দারিয়াপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাকির হোসেন কানন ও ইউপি সদস্যদের উদ্যেগে আজ মঙ্গলবার করোনা প্রতিরোধে দিনভর মাস্ক বিতরন।দারিয়াপুর ইউনিয়নের চার রাস্তার মোর এলাকায় সচেতনতা বার্তা এবং সতর্কতা অবলম্বন করাসহ পথচারীর মাঝে মাস্ক বিতরণ করেন দারিয়াপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাকির হোসেন কাননসহ ওই ইউনিয়নের সদস্যবৃন্দ।এ সময় চেয়ারম্যান জাকির হোসেন কানন বলেন- করোনা ভাইরাস সংক্রমণের ঝুকি রোধে ঘন ঘন দুই হাত সাবান পানি দিয়ে কমপক্ষে ২০ সেকেন্ড ধরে পরিষ্কার করুন। তাছাড়া কোন কাজ না থাকলে ঘরের বাইরে না যাওয়ার জন্য অনুরোধ জানান তিনি। সামাজিক দূরত্ব বাজায় রেখে করোনা ভাইরাস থেকে দেশকে রক্ষা করা সম্ভব হবে বলে জানান তিনি। দাঁড়িয়াপুরের একটি মানুষও মাস্ক ছাড়া ঘর থেকে বের হবে না বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। এ মাস্ক বিতরণ কর্মসূচী চলবে বলে জানান তিনি।এ সময় উপস্থিত ছিলেন ইউপি সদস্য লাভলু বিশ্বাস, মো: হামজা মোল্লা, মোঃনবুয়্যাত হোসেন, মো:ইলিয়াস মোল্লা, মহিলা সদস্য মো:সেলিনা বেগম, মো:হিমানী বেগম, করোননা প্রতিরোধে দারিয়াপুর ইউনিয়নের স্বেচ্ছাসেবক আশিকুর রহমানসহ অনেকেই।

দৈনিক কপোতাক্ষ নিউজে সংবাদ প্রকাশের কয়েক ঘন্টা পর মিলল রানা প্লাজা ধবংসে নিখোঁজ ব্যক্তির সন্ধান

দৈনিক কপোতাক্ষ নিউজে সংবাদ প্রকাশের কয়েক ঘন্টা পর মিলল রানা প্লাজা ধবংসে নিখোঁজ ব্যক্তির সন্ধান



স্টাফ রিপোর্টারঃ  
ইনি আবদুল মজিদ। পরের জমিতে কাজ কাম করে দিন আনে দিন খায়। ২০১৩ সালে জীবিকার তাগিদে তার বড় ছেলে মাহবুবুল আলমকে পাঠিয়েছিলেন গার্মেন্টসে চাকরি করার জন্য। সাভার বাস স্ট্যান্ড এর পাশে একটি বহুতল ভবন রানা প্লাজায়। নব্য বিবাহিত মাহবুবুল আলমের বিয়ের ১৬ দিনের মাথায় খবর আসে ভবনটি ধ্বংসে তার নিচে চাপা পরে আছে। ঘটনার ১৭ দিন পরে ছেলের লাশটা জুটেছিলো অভাগা পিতার ভাগ্যে। 

সে সময় ব্র‍্যাক এনজিওতে নতুন বউ কে উদ্দেশ্য করে একটা ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা বাস্তবায়িত করতে সঞ্চয় করেছিলো যতসামান্য টাকা।  আজ মাহবুবুল আলমের মৃত্যুর ৭ বছর অতিবাহিত হওয়ার পর জানতে পারে সে ব্রাক এনজিও থেকে কিছু টাকা প্রাপ্ত হবেন।

এতদিন যোগাযোগ বিচ্ছিন্নতার জন্য তার প্রাপ্ত টাকা থেকে বঞ্চিত ছিলো। 

গতকাল (২৯ জুন) অনলাইন দৈনিক কপোতাক্ষ নিউজে সংবাদ প্রকাশের মাধ্যমে কৃষ্ণপুর গ্রামের সাবেক চেয়ারম্যান এর ভাতিজা পান্ডুঘর সামসুদ্দিন আহাম্মদ ভূঁইয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের হ্যাড মাওলানা জনাব হাফেজ মোঃ তরিকুল ইসলাম সাহেবের সহযোগিতায় তার খোঁজ মেলে। অতঃপর তার সমস্থ দেনা পাওনার নিশ্চয়তা সম্পন্ন হয়। 

তথ্যসূত্রমতে জানা যায়, সরকারি বেসরকারি সংস্থা মিলিয়ে যে আর্থিক সহায়তা পাওয়ার কথা তার এক তৃতীয়াংশ পায়। 

গতকাল সাভার ব্রাক অফিস কর্মকর্তা মৃত্যুঞ্জয় সরকার এর তত্বাবধানে আবদুল মজিদ তার সমস্থ অর্থ ব্যাংক হিসাবের মাধ্যমে নিজ হাতে গ্রহণ করার নিশ্চয়তা পায়।
এমন সুন্দর সংবাদ প্রকাশ করায় এলাকা বাসী দৈনিক কপোতাক্ষ নিউজ ও অত্র পত্রিকার  কুমিল্লা  উত্তর জেলা প্রতিনিধি আলমগীর হোসাইন সবুজ কে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

এলজিআরডি মন্ত্রীর "শুভ জন্মদিন" সাংবাদিক মো: রবিউল হো: সবুজ এর পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা জ্ঞাপন

এলজিআরডি মন্ত্রীর "শুভ জন্মদিন" সাংবাদিক মো: রবিউল হো: সবুজ এর পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা জ্ঞাপন





মো: রবিউল হোসাইন সবুজ(লাকসাম,কুৃমিল্লা প্রতিনিধি): 

আজ ৩০ জুন রোজ মঙ্গলবার  লাকসাম- মনোহরগঞ্জ গর্ব,সকলের অহংকার প্রিয় স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী জনাব মো. তাজুল ইসলাম মহোদয়ের শুভ জন্মদিন। শুভ হোক আপনার আগামী দিনের পথচলা। আপনার জন্য আজকে  লাকসাম- মনোহরগঞ্জবাসী গর্বিত। আপনি লাকসাম- মনোহরগঞ্জ কে সারা বাংলাদেশে পরিচিত করিয়েছেন।  আপনার কাছ থেকে বহু কিছু শিখেছি। আপনার কথায় আমরা কাজের উৎসাহ পাই। আপনার হাসিমুখ সকলকে কাজের অনুপ্রেরণা যোগায়। আপনার সততায় সকলে মুগ্ধ। এমন একজন সৎ, আদর্শবান, উচ্চ শিক্ষিত নেতা পেয়ে সবাই গর্বিত।  আপনি একজন আলোকিত মানুষ। আপনি লাকসাম- মনোহরগঞ্জে প্রচুর উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করেছেন। এই দুই উপজেলার প্রতিটি ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ এর আলো পৌঁছে দিয়েছেন। মানুষের চলাচলের জন্য শত শত  রাস্তা-ঘাট, ব্রিজ -কালভার্ট নির্মাণ করে দিয়েছেন। প্রতিটি স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসায় নতুন নতুন ভবন নির্মাণ ও প্রতিটি স্কুল, কলেজ,  মসজিদ, মাদরাসা, মন্দিরে  শত শত কোটি টাকা বরাদ্ধ দিয়েছেন। এছাড়াও লাকসাম- মনোহরগঞ্জের অসমাপ্ত উন্নয়ন কর্মকান্ড গুলো বাস্তবায়নের জন্য আপনি পদক্ষেপ নিয়েছেন। লাকসাম পৌরসভা কে স্মার্ট সিটি করার পদক্ষেপ নিয়েছেন। লাকসাম নবাব ফয়জুন্নেছা সরকারি কলেজে বহু কোটি টাকা বরাদ্ধ দিয়েছেন। নীলকান্ত ডিগ্রি কলেজ, মনোহরগঞ্জ স্কুল এন্ড কলেজ ও লাকসাম পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়কে সরকারিকরণ করে দিয়েছেন।  আপনি লাকসাম- মনোহরগঞ্জে আইনের শাসন কায়েম এবং ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা করেছেন। সন্ত্রাস ও চাঁদাবাজ মুক্ত লাকসাম- মনোহরগঞ্জ গড়েছেন। আপনি এখন সারা বাংলাদেশের নেতা। আপনার আলোয় সবাই আলোকিত। যেখানে যাই সবাই শুধু আপনার সুনাম করে। আজকে আপনার জন্মদিনে মহান আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করি হে মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিন আপনি আমাদের প্রিয় নেতা জনাব মো. তাজুল ইসলাম মহোদয়কে নেক হায়াত দান করুন। তিনি যেন সারা বাংলাদেশের জন্য কাজ করতে পারেন। হে মহান আল্লাহ আপনি আমাদের প্রিয় নেতাকে সুস্থ রাখুন, শান্তিতে রাখুন।

দৈনিক কপোতাক্ষ নিউজ এর তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা অসুস্থ্, দোয়া কামনা

দৈনিক কপোতাক্ষ নিউজ এর তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক  উপদেষ্টা অসুস্থ্, দোয়া কামনা






স্টাফ রিপোর্টারঃ দৈনিক কপোতাক্ষ নিউজ এর তথ্য ও  প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা মোঃ জহির উদ্দীন মারাত্মকভাবে ঠান্ডা জনিত কারণে অসুস্থ হয়ে নিজ বাড়িতে আছেন। তার দ্রুত সুস্থতা কামনা করে দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়ে বিবৃতি দিয়েছেন দৈনিক কপোতাক্ষ নিউজ এর সম্পাদক ও প্রকাশক মোঃ মহসীন আলী ( প্রভাষক) । 

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে সাংবাদিক নির্যাতন ঘটনায় গ্রেফতার মাদকব্যবসায়ী

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে সাংবাদিক নির্যাতন ঘটনায় গ্রেফতার মাদকব্যবসায়ী





কুষ্টিয়া প্রতিনিধি।। 


কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের হোসেনাবাদ কান্দির পাড়ায়  গত ২৭ জুন শনিবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে  হুজুর আলীর মাদক ব্যাবসার ভিডিও গোপনে  ফুটেজ ধারন করলে হুজুর আলী (৫৫) সঙ্গীয় আজ্ঞাত ৩/৪ জন তার মাদকসেবী মিলে দৈনিক স্বর্ণযুগ পত্রিকার দৌলতপুর প্রতিনিধি ও অনলাইন দেশান্তর পত্রিকার কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি মোঃ চঞ্চল কে লাঞ্ছিত ও মার ধর করে ও ভিডিও ধারণকৃত মোবাইল ফোনটি ভেঙে দেয় ,এবং হুজুর আলীর বিয়ায়ের ছেলে ওয়ার্ড মেম্বর উজ্জল  সাংবাদিক রা কৌশলে চলে আসার সময় পথোমধ্যে  আটকিয়ে   নানা ভাবে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করে এবং সাংবাদিক চঞ্চলকে হুমকি দেয় এবং আপষে আসার জন্য তার দোকানে দেখা করতে বলে।  পরবর্তীতে সাংবাদিক চঞ্চল সেখান থেকে কৌশলে বের হয়ে এসে  বেপারটা মথুরাপুর পুলিশ ক্যাম্পে অবহিত করে, এবং দৌলতপুর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করে।

এ ঘটনায়  মাদক ব্যাবসায়ী মোঃ হুজুর আলীকে গ্রেফতার করে দৌলতপুর থানা পুলিশ।

অভিনন্দন ৩৮ তম বিসিএসে প্রশাসন ক্যাডারে সুপারিশ পেলেন চৌবাড়িয়ার মেয়ে রেশমা

অভিনন্দন  ৩৮ তম বিসিএসে প্রশাসন ক্যাডারে সুপারিশ পেলেন চৌবাড়িয়ার মেয়ে রেশমা



মোঃকুতুবুল আলম
মহম্মদপুর(মাগুরা)
মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলার বিনোদপুরের চৌবাড়িয়া গ্রামের বাসিন্দা    কৃতিমুখ রেশমা খাতুন ৩৮তম বিসিএসে প্রশাসন ক্যাডারে সুপারিশ পেয়েছেন। 

৩৮তম বিসিএসের চূড়ান্ত ফল আজ মঙ্গলবার প্রকাশ করেছে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)।

জনাব রেশমা বর্তমানে মহম্মদপুর উপজেলা কৃষি ব্যাংক সদর শাখায় সিনিয়র অফিসার পদে কর্মরত আছেন। বাবা মো: মাসুদুর রহমান চৌবাড়িয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক । দুই ভাই ও দুই বোনের মধ্যে রেশমা দ্বিতীয়। মা গৃহিণী। 

ছাত্র জীবনে অত্যন্ত মেধাবী জনাব রেশমা কৃতিত্বের সাথে চৌবাড়িয়া হাইস্কুল থেকে  এসএসসি, মহম্মদপুর কাজী সালিমা হক মহিলা কলেজ থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। পরে তিনি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ফিন্যান্স এ্যান্ড ব্যাংকিং বিষয়ে উচ্চতর ডিগ্রি অর্জন করেন। 

তাঁর এই সাফল্যের খবরে মহম্মদপুরের মানুষ অত্যন্ত আনন্দিত । জনাব রেশমার জন্য শুভ কামনা রইল।

ঝিকরগাছায় আধুনিক পদ্ধতিতে মাছ চাষে তথ্য ভিত্তিক উপস্থাপনা

ঝিকরগাছায় আধুনিক পদ্ধতিতে মাছ চাষে তথ্য ভিত্তিক উপস্থাপনা



স্টাফ রিপোর্টারঃ   
যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলায় সফর আলী মার্কেটে আজ( ৩০ শে জুন) মঙ্গলবার   সকাল ১১ ঘটিকার সময় নিহাল রিসোর্স লিমিটেড বিভিন্ন প্রজাতির মাছের খাদ্য মাছের ঔষধ সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান অত্র এলাকার ডিলার ও মাছ চাষীদের আধুনিক পদ্ধতিতে মাছ চাষের উপর ও রোগ প্রতিরোধের বিষয় তথ্য ভিত্তিক উপস্থাপনা অনুষ্ঠান হয়। উক্ত অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন মোঃ মতিয়ার রহমান, অত্র সংস্থার এরিয়া ব্যবস্থাপক। প্রধান অতিথি ছিলেন এবিএম আহসানুল হক ব্যবস্থাপনা পরিচালক নিহাল রিসোর্স লিমিটেড। বিশেষ অতিথি ছিলেন সারোয়ার আলম কিরণ জেনারেল ম্যানেজার, অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মোঃ গোলাম মোস্তফা অত্র সংস্থার ডিলার বাঁকড়া 
 এলাকা, মোঃ নজরুল ইসলাম ডিলার গদখালী এলাকা, মোঃ আবুল কালাম শিমুলিয়া এলাকা, মোহাম্মদ জিয়াউর রহমান ঝিকরগাছা এলাকা, মোহাম্মদ আখতারুজ্জামান ডিলার, মনিরামপুর রোহিতা ইউনিয়ন চাষীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মোহাম্মদ এমদাদুল হক, মোঃ শাহিনুর রহমান, মোঃ মতিয়ার রহমান, ইদ্রিস আলী, রমজান আলী, আব্দুস সামাদ প্রমুখ

মোহনগঞ্জ পৌরসভার অর্ধ শত কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা

মোহনগঞ্জ পৌরসভার অর্ধ শত কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা





আজহারুল ইসলাম মোহনগঞ্জ  প্রতিনিধি (নেত্রকোনা)

নেত্রকোনার মোহনগঞ্জ পৌরসভার ২০২০-২১ অর্থ বছরের ৫০ কোটি ৬৫ লক্ষ ১৯ হাজার ৯ শত ৫৭ টাকার  বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে।

 মঙ্গলবার দুপুরে পৌর কার্যালয়ে  মেয়র এড.লতিফুর রহমান রতন এ বাজেট ঘোষণা করেন। 
৫০ কোটি ৬৫ লাখ ১৯ হাজার ৯শত ৫৭ টাকার বাজেটের মধ্যে রাজস্ব হতে আয় ধরা হয়েছে ৩ কোটি ৪৫ লাখ ১৯ হাজার ৯শত ৫৭ টাকা। এবং উন্নয়ন খাত হতে আয় ৪৭ কোটি ২০ লক্ষ টাকা। ব্যয় শেষে সমাপনী স্থিতি ধরা হয়েছে ১১ লক্ষ ৬৬ হাজার ৪৭৭ টাকা। বাজেটকে উন্নয়নের বাজেট হিসেবে ঘোষণা করা হয়। 
বাজেট ঘোষণাকালে পৌর সচিব, ইঞ্জিনিয়ার এবং সকল পৌর কাউন্সিলর সহ সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত   ।

আশাশুনিতে করোনা ভাইরাস সনাক্ত ব্যক্তির বাড়ীসহ ২টি বাড়ী লক ডাউন

আশাশুনিতে করোনা ভাইরাস সনাক্ত ব্যক্তির বাড়ীসহ ২টি বাড়ী লক ডাউন


আহসান উল্লাহ বাবলু,আশাশুনি ( সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি: আশাশুনিতে করোনা ভাইরাস সনাক্ত ব্যক্তির বাড়ী লক ডাউন করা হয়েছে। মঙ্গলবার বিকালে উপজেলার বড়দল ইউনিয়নের মধ্যম বড়দল গ্রামের কাবুল গাজীর পুত্র অলিয়ার রহমান (মন্টু) (৪২) করোনা সনাক্ত হওয়াসহ ২টি বাড়ী লক ডাউন করা হয়েছে। এ ছাড়া পাশ্ববর্তী এলাকায় মাইকিং করে স্বাস্থ্য বিধি মানা ও সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখার নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মীর আলিফ রেজা , পিআইও সোহাগ খান,বড়দল ইউপি চেয়ারম্যন আব্দুল আলিম মোল্যা,ইউপি সদস্য আব্দুর রশিদ, অফিস সহকারী আব্দুর রশিদ ও পুলিশ ফোর্স উপস্থিত ছিলেন।

বয়রা ভেন্নাবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ে মোহাম্মাদ নাসিমের স্বরণে আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত

বয়রা ভেন্নাবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ে মোহাম্মাদ নাসিমের স্বরণে আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত


মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলা
প্রতিনিধিঃ ৩০ শে জুন মঙ্গলবার বাদ আসর বয়রা ভেন্নাবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ে মরহুম নাসিমের স্বরণে আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে। বয়রা ভেন্নাবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি গাজী আকবর হোসেনের সভাপতিত্বে মরহুম নাসিমের জীবনীর উপর স্মৃতিচারণ মূলক বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদ সদস্য ও মুনসুর নগর থানা আঃ যুগ্ন আহবাক গোলাম রব্বানী তালুকদার, ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আনোয়ার হোসেন, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোঃ ছাইদুল ইসলাম জুরান ও অত্র বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ শহিদুল ইসলাম প্রমুখ । পরে মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনায় মুফতি মাওলানা এরসাদ আলী দোয়া পরিচালনা করেন। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ইউঃ ছাএলীগের সভাপতি আঃ আলিম খাঁন। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়ন আ:লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মোঃ মোস্থাফিজুর রহমান বিল্পব, রফিকুল ইসলাম মাস্টার, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আলী হোসেন, শ্রমবিষয়ক সম্পাদক বাবুল আহম্মেদ, ইউঃ যুবলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক আসলাম উদ্দিন সেখ, ইউনিয়ন ইউঃ আঃমী স্বেচ্ছাসেবকলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সোহেল রানা, সাংগঠনিক সম্পাদক হেলাল উদ্দিন, যুবলীগের সভাপতি মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, সাঃ সম্পাদক মোঃ বুলবুল আহমেদ ভু্ট্ট , সদর থানা আ:স্বেচ্ছাসেবকলীগের সহ-সভাপতি এম এইচ মিল্টন, ইউপি সদস্য আবুল কালাম আজাদ, হিরণ, আলী হোসেনসহ অত্র প্রতিষ্ঠানের সকল ছাত্র/ছাত্রী, শিক্ষক-শিক্ষিকা ছাড়াও এলাকার গন্য মান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

করোনায় আক্রান্তদের জন্য দোয়া মাহফিল করলেন গাড়াগঞ্জ ক্রীড়া সংস্থা

করোনায় আক্রান্তদের জন্য দোয়া মাহফিল করলেন গাড়াগঞ্জ ক্রীড়া সংস্থা




সম্রাট হোসেন, শৈলকুপা উপজেলা প্রতিনিধি (ঝিনাইদহ) 

৩০/০৬/২০২০ রোজ মঙ্গলবার ঝিনাইদহ জেলার শৈলকুপা উপজেলায় গাড়াগঞ্জ মিয়া জিন্নাহ আলম ডিগ্রী কলেজ মাঠে "গাড়াগঞ্জ ক্রিড়া সংস্থা" কর্তৃক করোনা ভাইরাস এ আক্রান্ত সকল দেশবাসীর সুস্থতা কামনা করে এক দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়৷ মানবতার ফেরিওয়ালা শৈলকুপা উপজেলার ১৩ নং উমেদপুর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সাবদার হোসেন মোল্লা ও তার পরিবারের  করোনায় আক্রান্ত সকল সদস্যদের সুস্থতা কামনা করে বিশেষ দোয়া করা হয়। এই সময় উপস্থিত ছিলেন  গাড়াগঞ্জ ক্রিড়া সংস্থা" উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য ১.তরিকুল ইসলাম পলাশ ২.সৌরভ হোসেন সোহাগ
৩. সাদ আহমেদ 
আরাও উপস্থিত ছিলেন 
 *নাসিম আহমেদ জয় (আহবায়ক),
 *মুশফিকুর রহমান আবির (সদস্য সচিব)
এছাড়া আরাও উপস্থিত ছিলেন মেহেদি হাসান রাজন,অনি, অভি  এবং রেজানুর রহমান লিংকন এবং গাড়াগঞ্জ ক্রিড়া সংস্থা"সকল সদস্য বৃন্দ।

আশাশুনিতে ভুয়া মৎস্যজীবি সেজে প্রকৃত মৎস্য জীবিদের সাথে প্রতারণা ও অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের দাবীতে মানববন্ধন

আশাশুনিতে ভুয়া মৎস্যজীবি সেজে প্রকৃত মৎস্য জীবিদের সাথে প্রতারণা ও অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের দাবীতে মানববন্ধন




আহসান উল্লাহ বাবলু,আশাশুনি ( সাতক্ষীরা) প্রতিনিধিঃ  আশাশুনিতে সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিত করে ভুয়া মৎস্যজীবি) সেজে প্রকৃত মৎস্য জীবিদের সাথে প্রতারণা, জলমহালের উপর অবৈধ পাকা বাড়ী নির্মাণের অভিযোগে সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিত করে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসি। মঙ্গলবার সকালে আশাশুনি উপজেলা পরিষদ চত্ত্বরে এ দীর্ঘ লাইনে দাড়িয়ে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সাবেক ইউপি সদস্য চন্ডী চরণ গাইন, খোকন মোল্যা, তাপস মন্ডল, ফারুক মোল্যা, দেলোয়ার হোসেন প্রমুখ। এ সময় বক্তবা বলেন, আশাশুনির দুর্নীতি বাজ, ইউপি সদস্য নীলকন্ঠ গাইন  কর্তৃক ভুয়া মৎস্যজীবি (জেলে) সেজে প্রকৃত মৎস্য জীবিদের সাথে বছরে পর বছর প্রতারণা করে যাচ্ছে। সরকারী নীতি লঙ্ঘন করে ধাড়িয়াখালী খাল ও হেতাইলবুনিয়া জলমহালের উপর অবৈধ পাকা বাড়ী  নির্মাণ করে বসবাস করে যাচ্ছে। ইউপি সদস্য ভুয়া মৎস্যজীবি  (জেলে) সেজে নিবন্ধনকৃত হেতাইলবুনিয়া মৎস্যজীবি সমবায় সমিতির নিবন্ধন বাতিলের দাবীতে মানব বন্ধন করছি। সত্য উঘাটন না হওয়া পর্যন্ত আমরা এই সংগ্রাম চালিয়ে যাব। প্রকৃত পক্ষে তার সমিতির নাম ছিল হেতাইলবুনিয়া যুব সমবায় সমিতি। ২০০৯ সালে উক্ত নিলকন্ঠ গংরা অবৈধভাবে ধাড়িয়াখালী ও হেতাইলবুনিয়া খাল জলমহাল দখল করে রাখলে তৎকালিন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ১৬/০৮/২০০৯ তারিখের উ:নি:অ/আশা/৯-১/০১-৭৭২(৩) স্বারকের তার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। কিন্তু উক্ত দূর্নীতিবাজ ইউপি সদস্য নীলকন্ঠ গাইন ২০/০৮/০৯ তারিখে আশাশাশুনি উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে বিবাদী করে বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আদালাতে ৮৯/০৯ (খাস) নং মিস মামলা দায়ের করেন। তদসময় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার শুধুমাত্র প্রকৃত মৎস্যজীবিদের সমিতির মধ্য ইজারা দেওয়ার জন্য ঘোষনা করেন। পরবর্তীতে ২০১১ সালের দিকে প্রশাসনের চোখ ফাকি দিয়ে মৎস্যজীবি না হয়েও ভুয়া মৎস্যজীবি সেজে হেতাইলবুনিয়া মৎস্যজীবি সমবায় সমিতি গঠন নিবন্ধন করেন। কিন্তু গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের ভুমি মন্ত্রণালয়ের শাখা ৭ এর ২৩ জুন ২০০৯ তারিখের প্রকাশিত সরকারি জলমহাল ব্যবস্থাপনা নীতি বর্হিভুত যাহার স্মারক নং ভু:ম:/শা-৭বিবিধ (জল) ০২/২০০৯-১৯১ এর ২(খ)ও ৫এর ধারা অনুসারে নীলকন্ঠ গাইন গংরা যোগ্য নহে।  এঘটনায় বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর এক লিখিত অভিযোগ সূত্রে ও এলাকাবাসীর তথ্য অনুযায়েী সে এবং তার মৎস্যজীবী সমিতির অন্যান্য সদস্যগণ সনাতন ক্ষত্রীয় সম্প্রদায়ের লোকজন। কিন্তু অতি লোভে নিজের ধর্মকে ভুলে যেয়ে ভুয়া জেলে সেজে মৎস্যজীবি সমবায়ে সমিতি রেজিস্ট্রেশন করেন। সরেজমিনে ওই এলাকায়ে উপস্থিত হয়ে দেখা গেছে তথ্য গোপন কারী ইউপি সদস্য নীলকণ্ঠ গাইন ধাড়িয়াখালি ও হেতাইলবুনিয়া খাল জলমাহলটি কুট-কৌশলে শ্রেণী পরিবর্তন করে প্রশাসনকে ফাঁকি দিয়ে ছাদসহ পাকা বাড়ি নির্মাণ করে তিনি নিজেই বসবাস করে যাচ্ছেন। সমিতির অন্যান্য সদস্যরা জলমহালের খাল শ্রেণীকে ভেড়িবাঁদ দিয়ে পুকুর তৈরি করে দীর্ঘদিন ভোগ দখল করে যাচ্ছে। যাহা সরকারি জলমহল ইজারা নীতিমালার পরিপন্থী। এই ঘটনার এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে সরেজমিনে তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেওয়ার জোর দাবি জানিয়েছেন। এব্যাপারে বড়দল ইউনিয়ন (ভূমি) সহকারী কর্মকর্তা রনজিত কুমার মন্ডলের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, বিষয়টি আমি জানার পর আইন অনুযায়ী ইউপি সদস্য নীলকন্ঠ গাইনসহ সকলকে নোটিশ প্রদান সহ উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেছি। উল্লেখ্য  ইউপি সদস্য নীলকন্ঠর বিরুদ্ধে পল্লী বিদ্যুতের লাইন নির্মাণের কথা বলে লক্ষ লক্ষ টাকার আত্মসাৎ করার বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট লিখিত অভিযোগ করেন। উক্ত অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে এলাকায়ে সরেজমিনে তদন্ত কার্যক্রম হয়েছে। তদন্তে টাকা আত্মসাতের বিষয়েটি প্রমাণিত হয়ে র্মমে তার প্রতিবেদনে উল্লেখ করেন। এছাডাও ইউপি সদস্য নীলকন্ঠ গাইন এর বিরুদ্ধে এলাকায়ে একাধিক দাঙ্গা, হাঙ্গামা, মামলা মোকদ্দমা সহ বিভিন্ন প্রকল্পের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ রয়েছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মীর আলিফ রেজার কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

জমি নিয়ে বিরোধে ছোট ভাইয়ের ধাক্কায় বড় ভাইয়ের মৃত্যু

জমি নিয়ে বিরোধে ছোট ভাইয়ের ধাক্কায় বড় ভাইয়ের মৃত্যু




মোরশেদ আলম
যশোর ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধি 

যশোর কেশবপুরে ৩০ জুন মঙ্গলবার বেলা ১২ টার দিকে উপজেলার দোরমুটিয়া গ্রামে দুই ভাইয়ের মধ্যে জমিজমা সংক্রান্ত গোলযোগে ছোট ভাই মকসেদের ধাক্কা খেয়ে বড় ভাই কওসার মোড়ল (৬৫) ইটের উপর পড়ে মাথায় আঘাত পেয়ে আহত হয়।

আহত অবস্থায় কেশবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত ডা; সোনিয়া পারভিন আহত ব্যক্তিকে মৃত বলে ঘোষনা করে। 

এ ঘটনায় কেশবপুর থানা পুলিশ ছোটভাই মকসেদের স্ত্রী ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেফালি বেগগমকে, আটক করে থানায় নিয়ে আসে।
দোরমুটিয়া গ্রামের সাবেক ইউপিসদস্য আব্দুর রাজ্জাক বলেন, নিহত কওসার মোড়লর হার্ডের সমস্যা ছিল।

কেশবপুর থানার অফিসার ইনর্চাজ মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন জানান, হত্যার প্রকৃত রহস্য উদগঠনে লাশ ময়না তদন্তের জন্য, যশোর মর্গে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত না করে, কিছু বোঝা যাচ্ছে না।

করোনার কারণে উদ্ভূত নেতিবাচক পরিস্থিতির প্রভাবে বিশ্বের প্রায় প্রতিটি মানুষই কোন না কোন ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে-এমপি ইসরাফিল আলম

করোনার কারণে উদ্ভূত নেতিবাচক পরিস্থিতির প্রভাবে বিশ্বের প্রায় প্রতিটি মানুষই কোন না কোন ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে-এমপি ইসরাফিল আলম



 মোঃ ফিরোজ হোসাইন 
 রাজশাহী ব্যুরো

নওগাঁ-০৬(আত্রাই-রাণীনগর) এর স্থানীয় সংসদ সদস্য ও নওগাঁ জেলা আওয়ামিলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইসরাফিল আলম এমপি বলেছেন- করোনা ভাইরাস এর কারণে উদ্ভূত নেতিবাচক পরিস্থিতির প্রভাবে বিশ্বের প্রায় প্রতিটি মানুষই কোন না কোন ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে হচ্ছে এবং হবে।

উল্লেখযোগ্য সংখ্যক বাংলাদেশী প্রবাসী বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে কর্মচ্যুত হয়ে বাংলাদেশে ফেরত আসবে, বিভিন্ন রপ্তানি আয় কমে যাওয়ায় বৈদেশিক বাণিজ্যের  আয় কমে যাবে। বিদেশে জনশক্তি প্রেরনের এর আনুপাতিক হার অনেক কমে যাবে।  ফলে রেমিটেন্স প্রবাহ ক্ষতিগ্রস্ত হবে ও বৈদেশিক মুদ্রা আয় কমে যাবে ।

তাই ফরেন রিজাভস এর উপর বিশাল চাপ সৃষ্টি হবে । অন্যদিকে রাজস্ব আদায়ের অভ্যন্তরীণ উৎসগুলো হ্রাস পাবে এবং দুর্বল হবে। কারণ দেশে ব্যাপক সংখ্যক মানুষ কর্মচ্যূত হবে, বেকার হবে এবং মানুষের ক্রয় ক্ষমতা কমে যাবে।

 করোনা ভাইরাস এর প্রভাবে সারা বিশ্ববাসী ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার কারণে বৈদেশিক সহায়তা এবং ঋণ প্রবাহ স্বাভাবিকভাবেই কমে যাবে। চলমান পরিস্থিতি এবং সামগ্রিক অবস্থা বিচার বিশ্লেষণ করলে আমাদের জিডিপি অর্জন ক্ষতিগ্রস্ত হবে।
আর্থসামাজিক উন্নয়ন মানবসম্পদ উন্নয়ন মানুষের জীবনমানের উন্নয়ন এর ধারাবাহিক অগ্রগতি হোঁচট খাবে।

এরকম একটি বৈশ্বিক প্রতিকূল অবস্থার মধ্যে যে সমস্ত দেশের রাষ্ট্রনায়করা তাদের অভিজ্ঞতা দক্ষতা ও কৌশলগত নীতি এবং সিদ্ধান্ত গ্রহণ ও বাস্তবায়নে সফল হতে পারবে তারাই নির্দেশ দেশের জনগণকে সর্বত্র ভাবে দিতে সক্ষম হবে।

অতীতের অভিজ্ঞতা থেকে দেখা যায় বিভিন্ন ধরনের প্রতিকূলতার কারণে বিভিন্ন দেশ যখন অর্থনৈতিকভাবে অনেক ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে তখন বাংলাদেশ জাতির পিতার যোগ্য কন্যা দূরদর্শী অভিজ্ঞ রাষ্ট্রনায়ক দেশরত্ন শেখ হাসিনার আন্তরিক প্রচেষ্টায় দেশের জনগণকে নিয়ে সামনের দিকে এগিয়ে গেছেন।

এবারেও আমাদের শেষ ভরসা বাংলাদেশের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জনগণের নন্দিত নেত্রী এবং আমাদের প্রিয় নেত্রী শেখ হাসিনা। তিনি নিশ্চয়ই বৈশ্বিক এই দুর্যোগ এবং প্রতিকূলতার উপর দাঁড়িয়ে বাংলাদেশকে বাংলাদেশের আর্থসামাজিক উন্নয়নের গতিধারাকে এগিয়ে নিয়ে যেতে সক্ষম হবেন এবং সে লক্ষ্যে দেশের সর্বস্তরের নওগাঁর  জনগণকে আমাদের এই মহান নেত্রী হাতকে শক্তিশালী করার জন্য সরকারের সিদ্ধান্তকে সমর্থন ও বাস্তবায়নে সহায়তা করতে হবে।

সিঙ্গাপুরে দর্শনীয় স্থানগুলো ১ লা জুলাই থেকে খুলে দেওয়া হবে

সিঙ্গাপুরে দর্শনীয় স্থানগুলো ১ লা জুলাই থেকে খুলে দেওয়া হবে



মোঃ নাঈম শেখ সিঙ্গাপুর প্রতিনিধিঃ    
সিঙ্গাপুর ট্যুরিজম বোর্ড (এসটিবি) রবিবার (২৮ জুন) ঘোষণা করেছে,সিঙ্গাপুর চিড়িয়াখানা, আর্টসায়েন্স যাদুঘর এবং ইউনিভার্সাল স্টুডিওসহ আকর্ষণগুলি স্থানগুলো আগামী ১ জুলাই থেকে পুনরায় চালু করার অনুমতি পাবে।

৭ এপ্রিল সিঙ্গাপুরের সার্কিট ব্রেকার শুরু হওয়ার পর থেকে প্রায় তিন মাস ধরে সমস্ত আকর্ষণীয় স্থানগুলো বন্ধ ছিলো। 

এসটিবি জানিয়েছে, তিনটি পর্যায়ক্রমে পুনরায় কাজ শুরু করার অনুমতিপ্রাপ্ত ১৩ টি প্রাক-অনুমোদিত আকর্ষণগুলির মধ্যে রয়েছে,গার্ডেন বাই দ্যা বে, জুরং বার্ড পার্ক, রিভার সাফারি, সিঙ্গাপুর চিড়িয়াখানা, আর্টসায়েন্স যাদুঘর, ক্যাসিনো, স্কাইপার্ক এবং মেরিনা বে স্যান্ডসের পর্যবেক্ষণ ডেস্ক, ইউনিভার্সাল স্টুডিও সিঙ্গাপুর, সী অ্যাকোয়ারিয়াম এবং রিসর্টস ওয়ার্ল্ড সেন্টোসায় ক্যাসিনো, সেন্টোসায় ম্যাডাম তুষস মোম সংগ্রহশালা, ট্রামপোলিন পার্ক বাউন্স এবং ভার্চুয়াল রিয়েলিটি আরকেড জিরো লেটেন্সি।
বেশিরভাগ আকর্ষণীয় স্থানগুলোতে যেকোন সময়ে তাদের অপারেটিং সক্ষমতা ২৫ শতাংশের বেশি হবে না এবং ক্যাসিনোগুলিতে কেবলমাত্র বিদ্যমান সদস্য এবং বার্ষিক শুল্ক ধারকরা সীমাবদ্ধ থাকবে৷ 

অন্যান্য আকর্ষণীয় এবং দেশীয় ট্যুর অপারেটররা এখন পুনরায় খোলার প্রস্তাব জমা দিতে পারবেন এবং বাণিজ্য ও শিল্প মন্ত্রণালয়ের অনুমোদনের পরে কেবল কার্যক্রম শুরু করতে পারবে৷ 
প্রস্তাবগুলি অবশ্যই ব্যাখ্যা করতে হবে যে প্রতিটি আকর্ষণীয় বা সফরের কোভিড -১৯ সংক্রমণ ঝুঁকি কমাতে নিরাপদ ব্যবস্থাপনার কীভাবে তৈরি করা হবে, এসটিবি বলেছে।

যখন খুচরা দোকান, খেলাধুলার সুবিধা এবং অন্যান্য ব্যবসাগুলি অর্থনীতির ক্রমান্বয়ে দ্বিতীয় ধাপে পুনরায় চালু হওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়েছে,তখন বিনোদন আউটলেট এবং আকর্ষণগুলি স্থানগুলো বন্ধ রাখা হয়েছিল কারণ তারা এই স্থানগুলো করোনভাইরাস সংক্রমণের উচ্চতর ঝুঁকি বলে মনে করেছিল।
এসটিবি বলেছে যে আরও বেশি পর্যটন ব্যবসায়ীরা এসজি ক্লিন সার্টিফিকেশনের জন্য আবেদন করতে পারে। এই প্রশংসাপত্রটি পরিষ্কার, স্বাস্থ্যবিধি এবং স্যানিটাইটিসনের উচ্চতর মান নিশ্চিত করে এবং দর্শনার্থীদের আরও আত্মবিশ্বাস জোগাবে, এটি যোগ করেছে।

এসটিবির প্রধান নির্বাহী কিথ টান বলেছিলেন যে, সিঙ্গাপুর পর্যায়ক্রমে খাতকে ধীরে ধীরে পুনরায় চালু করার ক্ষেত্রে, বোর্ডের অগ্রাধিকার হ'ল ব্যবসায়ের দর্শনার্থীদের জন্য একটি নিরাপদ এবং উপভোগযোগ্য অভিজ্ঞতা সরবরাহ করতে পারে তা নিশ্চিত করা।
"যদিও সিঙ্গাপুর আন্তর্জাতিক দর্শনার্থীদের পুরোপুরি স্বাগত জানাতে কিছুটা সময় লাগবে,আমরা আশা করি যে সিঙ্গাপুরবাসী এবং সিঙ্গাপুরের বাসিন্দারা আমাদের পর্যটন ব্যবসায়িকভাবে সামাজিকভাবে দায়বদ্ধ উপায়ে যা উপস্থাপন করবে সেগুলি উপভোগ করবে।

মোংলায় গাছে ঝুলন্ত এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার

মোংলায় গাছে ঝুলন্ত এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার




মোংলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি

মোংলায় গাছে ঝুলন্ত স্বপন মন্ডল (৫০) নামের এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার দুপুরে শহরতলীর কানাইনগর গ্রামের মামা সুরেশ বিশ্বাসের বাড়ীর পুকুর পাড়ের একটি গাছে রশি দিয়ে ফাঁস লাগানো ঝুলে থাকা স্বপন মন্ডলের (৫০) লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ ময়না তদন্তের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে। 


তবে পুলিশের প্রাথমিক ধারণা মতে এটি আত্মহত্যা বলে জানিয়েছেন মোংলা থানার অফিসার ইনচার্জ মো: ইকবাল বাহার চৌধুরী। তিনি বলেন, আপতত আত্মহত্যা বলেই মনে হচ্ছে। ময়না তদন্তের পরই স্পষ্ট হওয়া যাবে আত্মহত্যা নাকি অন্যকিছু। এছাড়া আত্মীয়-পরিজনের মধ্যে জমি নিয়ে বিরোধও থাকতে পারে তাই এ বিষয়টিও আমরা তদন্ত করে দেখবো। 

এদিকে এ নিয়ে স্বপনের আত্মীয় ও স্থানীয়দের মাঝে জমিজমা সংক্রান্ত পরস্পর বিরোধী বক্তব্যও রয়েছে। 

এদিকে স্বপনের বৃদ্ধা মা বলেন, রাতে স্বপন তার কাছেই ঘুমিয়ে ছিলেন, গভীর রাতে পাশ থেকে কখন যে উঠে গেছে তা তিনি টের পাননি। সকালে দেখা গেছে ছেলের লাশ গাছে ঝুলে আছে। তবে কেউ তাকে মারেনি, মাথায় সমস্যা ছিল তাই এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলেও দাবী তার মার। 


উল্লেখ্য, জন্মসূত্রে স্বপন মন্ডল উপজেলার চাঁদপাই ইউনিয়নের কালীকাবাড়ী গ্রামের বাসিন্দা। তবে দীর্ঘ ৩০ বছর যাবৎ ভারতে যাওয়া-আসা ও সেখানে বসবাস করার ফলে তার রয়েছে ভারতের নাগরিকত্ব। গত তিন মাস আগে সে ভারত থেকে মোংলায় তার পৈত্তিক বাড়ীতে বেড়াতে আসেন। বেড়াতে এসে থাকতেন তার মামা জীতেন ঘোষামীর বাড়ীতে। আর ঝুলন্ত লাশ পাওয়া যায় আরেক মামা সুরেশ বিশ্বাসের বাড়ীর গাছে।

মুর্শিদাবাদের বিখ্যাত আমবাগানে উদ্ভাবিত অতি উৎকৃষ্ট জাতের আম নাগা ফজলী এখন নওগাঁয়

মুর্শিদাবাদের বিখ্যাত আমবাগানে উদ্ভাবিত অতি উৎকৃষ্ট জাতের আম নাগা ফজলী এখন নওগাঁয়





 মোঃ ফিরোজ হোসাইন 
 রাজশাহী ব্যুরো

নওগাঁ জেলার বদলগাছি থানার ভান্ডারপুর গ্রামের প্রখ্যাত জমিদার বিনোদ কুমার লাহিড়ী বহুকাল আগে তীর্থভূমি কাশীতে গিয়েছিলেন। 

গঙ্গাতীরবর্তী কাশী বা বেনারস ভারতের প্রধান আম উৎপাদন এলাকাগুলোর মধ্যে অন্যতম। জমিদার বিনোদ লাহিড়ী তীর্থকর্ম শেষে কাশী থেকে দেশে ফেরার পথে কয়েকটি নাগ ফজলী আমের চারা সংগ্রহ করে ভান্ডারপুরে নিজস্ব আমবাগানে রোপণ করেন। 

এরপর নাগ ফজলী আম কলমের চারার মাধ্যমে আশপাশের গ্রামগুলোয় ছড়িয়ে যেতে থাকে। এভাবেই আমটি পরিচিতি পায় ভান্ডারপুর গ্রামের বাইরে। নওগাঁর দুবলহাটি ও বলিহার রাজবাড়ির বাগানেও এ আমের গাছ ছিল বলে জানা যায়।

নওগাঁ জেলার বদলগাছি, ধামইরহাট, সদর, রানীনগর মহাদেবপুর ও আত্রাই  উপজেলায় নাগ ফজলী আমের চাষ হচ্ছে ব্যাপকভাবে। বদলগাছি থানার শ্রীরামপুর, দেউকুড়ী, কোলা, ভান্ডারপুর, দ্বীপগঞ্জ ও দুধকুরি গ্রামে সহ
ধামইরহাট, সদর, রানীনগর মহাদেবপুর ও আত্রাইয়ে
আমের অসংখ্য বাগান গড়ে উঠেছে। 

নাগ ফজলী আম লম্বায় প্রায় চার ইঞ্চি আর চওড়ায় দেড় ইঞ্চি হয়ে থাকে। এর নিম্নাংশ বাঁকানো। নাক বড় এবং স্পষ্ট বেরিয়ে আসা। আমটির গড় ওজন ৩০০ গ্রাম। আকারে অনেকটা বড় এবং নাক স্পষ্ট, এ কারণে এর নাম হয়েছে নাগ ফজলী।

পরিপক্ব অবস্থায় এর ত্বকের রং কলাপাতা সবুজ। পাকার পর বোঁটার আশপাশে হালকা লাল রঙের পাশাপাশি অনেকটা অংশজুড়ে হলুদ রং ধারণ করে। লাল, হলুদ ও সবুজের মিশ্রণে বিচিত্র একটি বর্ণের সৃষ্টি হয় আমটিতে। ফলটির ত্বক মসৃণ, খোসা পাতলা, শাঁস আঁশবিহীন অত্যন্ত মোলায়েম। স্বাদে–গন্ধে তুলনাহীন। অত্যন্ত রসাল এই আমের মিষ্টতা রানিপছন্দ ও গোপালভোগ আমের সমান। শাঁসের রং কমলাভ।

নাগ ফজলী আম প্রতিবছর ফলে। একেকটি গাছে ফল আসে প্রচুর পরিমাণে। গাছটির গড়ন মাঝারি। 

নাগ ফজলী মধ্য মৌসুমি জাতের আম। জুন মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহের শুরু থেকে অর্থাৎ জুন মাসের ৮ তারিখ থেকে ২৫ তারিখ পর্যন্ত নাগ ফজলী আমের ভরা মৌসুম। এরপর বাজারে (নওগাঁ এলাকার) এই আম পাওয়া যায় না। 
পরিপক্ব আম সংগ্রহের পর প্রায় ১৫ দিন ঘরে রেখে খাওয়া যায়।
নাগা ফজলী আম স্বাদে অতুলনীয়,তাই এ নাগা ফজলী আমের বর্তমানে চাহিদা সর্বাধিক।

নওগাঁয় অ্যাডভোকেট হিসেবে তালিকাভুক্তর দাবীতে শিক্ষানবিশদের মানববন্ধন

নওগাঁয় অ্যাডভোকেট হিসেবে তালিকাভুক্তর দাবীতে শিক্ষানবিশদের মানববন্ধন


 
 মোঃ ফিরোজ হোসাইন 
 রাজশাহী ব্যুরো

“মুজিব শতবর্ষে মানবিক আচরণ করুন, আইন শিক্ষানবিশদের প্রতি সদয় হোন” স্লোগানে বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের ২০১৭/২০২০ সালের প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ অনতিবিলম্বে অ্যাডভোকেট হিসেবে তালিকাভুক্ত দাবীতে নওগাঁয় শিক্ষানবিশদের মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল ১০ টায় নওগাঁ জেলা প্রেসক্লাবের সামনের রাস্তায় ঘণ্টাকাল ব্যাপি নওগাঁ বার এ্যাসোসিয়েশনের ২০১৭/২০২০ সালের প্রিলি: পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষানবিশবৃন্দ এ কর্মসূচী পালন করেন। সংগঠনের আহ্বায়ক শামিমুর রেজা রনির সভাপতিত্বে যুগ্ম আহ্বায়ক সুলতান মাহমুদ, রানা, সদস্য সাজিয়া আফরিন ও রুমকি আক্তার সহ অন্যরা বক্তব্য রাখেন। এ সময় বক্তারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে মানবিক দৃষ্টিকোণ থেকে বিশেষ বিবেচনায় বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের এমসিকিউ পরীক্ষায় উত্তীর্ণ সব শিক্ষানবিশদের আইনজীবী হিসেবে তালিকাভুক্তির জোর দাবি জানান। এসময় প্রায় অর্ধশতাধিক শিক্ষানবিশ অ্যাডভোকেট উপস্থিত ছিলেন।

কিশোরগঞ্জের ৩৮ পরিবার পেল প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া পাঁকা ঘর

কিশোরগঞ্জের ৩৮ পরিবার পেল প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া পাঁকা ঘর




মো:লাতিফুল  আজম
কিশোরগঞ্জ  নীলফামারী প্রতিনিধি 


নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের অধীনে ৩৮ টি পরিবার পেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেওয়া পাকা ঘর।দারিদ্রসীমার নিচে বাস করা এসব পরিবার প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া নতুন পাকা ঘর পেয়ে এখন তারা মহাখুশি। তাদের চোখে মুখে বইছে আনন্দের ঝিলিক।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ২০১৯-২০ অর্থবছরে গ্রামীণ অবকাঠামো রক্ষণাবেক্ষণ (টিআর) কর্মসূচির আওতায় গৃহহীনদের জন্য দুর্যোগ সহনীয় বাসগৃহ নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলায় ৩৮ টি পরিবারের জন্য এক কোটি ১৪ লাখ টাকা বরাদ্দ দেয় সরকার। প্রতিটি পরিবারের জন্য ঘর নির্মাণে বরাদ্দ ধরা হয় ২ লক্ষ ৯৯ হাজার ৮৬০ টাকা। সরকারি নীতিমালা অনুযায়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবুল কালাম আজাদ ৯ টি ইউনিয়নের অসহায় দরিদ্র, স্বামী পরিত্যক্ত, পুনর্বাসিত ভিক্ষুক এবং যার জমি আছে ঘর নেই এমন মানুষকে শনাক্ত করে এসব ঘর নির্মাণ করে দিয়েছেন।

সোমবার পুটিমারী ইউনিয়নের ভেড়ভেড়ী মাস্টারপাড়া গ্রামে গিয়ে দেখা যায়, সরকারি ১২ শতক খাস জমিতে জান্নাতী বেগম নামে এক অসহায় নারীর জন্য ঘর নির্মাণ করে দেওয়া হয়েছে।


জান্নাতী বেগম বলেন, ‘আমরা খুবই গরীব। আমি ও আমার স্বামীসহ তিন সন্তানকে নিয়ে অন্যের জমিতে অনেক কষ্ট করে বসবাস করতাম। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারিভাবে ঘর প্রদান করছেন এ খবর পেয়ে আমি উপজেলা নির্বাহী অফিসার স্যারের সাথে দেখা করে একটি ঘরের জন্য আবেদন করি। তিনি নিজে আমার বাড়িতে এসে আমার করুণ দশা দেখে সরকারি ১২ শতক খাস জমি আমার নামে বরাদ্দ দেন এবং সেই জমিতে আমাকে ঘর নির্মাণ করে দেন। আমি কোনদিন ভাবতেও পারিনি স্বামী-সন্তান নিয়ে পাকা বাড়িতে থাকব। আমি প্রতিদিন নামাজে বসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের জন্য দোয়া করছি।

এরকম অসহায় দরিদ্র বাহাগিলি ইউনিয়নের ছলি মামুদের স্ত্রী রোকসানা বেগম, বড়ভিটা ইউনিয়নের খয়ের উদ্দিনের ছেলে আফজাল হোসেন, চাঁদখানা উইনিয়নের আব্দুর রহিমের স্ত্রী ফেরোজা বেগমসহ সকলেই থাকার জায়গা পেয়ে প্রধানমন্ত্রীর জন্য দোয়া কামনা করেছেন।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (অতিরিক্ত দায়িত্ব) আবু হাসনাত সরকার বলেন, ‘উপজেলার ৯ টি ইউনিয়নের ৩৮ জন উপকারভোগীর ঘর নির্মাণ কাজ সমাপ্ত হয়েছে। প্রতি উপকারভোগীর জন্য দুইটি করে রুম (থাকার ঘর), একটি রান্নাঘর ও একটি করে স্বাস্থ্যসম্মত টয়লেট নির্মাণ করা হয়।’

উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘এই প্রকল্পটির প্রতি আমাদের বিশেষ নজরদারি ছিল। সরকারি নীতিমালা অনুযায়ী ঘর নির্মাণ কাজ শেষ করা হয়েছে।’

নওয়াপাড়ার ভৈরব ব্রীজে মোটরসাইকেল দূর্ঘটনায় নিহত-১

নওয়াপাড়ার ভৈরব ব্রীজে মোটরসাইকেল দূর্ঘটনায় নিহত-১



মো: দেলোয়ার হোসেন অভয়নগর (যশোর) প্রতিনিধি:
করোনায় রেড জোনের অন্তর্ভুক্ত লকডাউন চলাকালে ফাঁকা ব্রীজের ওপর মোটর সাইকেল দূর্ঘটনায় প্রাণ গেল আল মাসুদ (২২) নামের এক যুবকের। মঙ্গলবার দুপুরে নওয়াপাড়ার ভৈরব ব্রীজের ওপর নসিমনের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষে ঘটনাস্থলে নিহত হন ওই যুবক। গুরুতর আহত হন মোটরসাইকেল চালক বিশাল নামের অপর যুবকটি। এলাকাবাসী ও অভয়নগর থানা পুলিশসূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার দুপুরে নওয়াপাড়ার বউবাজার এলাকার জুলফিকার আলী সরদার ওরফে জুলুর ছেলে আল মাসুদ তার বন্ধু মামুনুর রশীদের ছেলে বিশালকে নিয়ে মোটরসাইকেল যোগে ভৈরব ব্রীজের ওপর দিয়ে যাচ্ছিলেন। এসময় বিপরীত দিক থেকে আসা একটি নসিমনের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এসময় ঘটনাস্থলেই মোটরসাইকেল আরোহী আল মাসুদ মারা যান। গুরুতর আহত হন মোটরসাইকেল চালক বিশাল। তাকে প্রথমে অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তির পর আশংকাজনক হওয়ায় পরে তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। অভয়নগর থানার ওসি (তদন্ত) মিলন কুমার মন্ডল জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।



মহেশপুরে পানিতে ডুবে দেড় বছরের শিশুর মৃত্যু

মহেশপুরে পানিতে ডুবে দেড় বছরের শিশুর মৃত্যু



খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার, ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধি 

মঙ্গলবার সকালে মহেশপুর উপজেলার ৫ নং শ্যামকুড় ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ড শরিষাঘাটা গ্রামের মনোয়ার শিকদারের দেড় বৎসরের শিশুপুত্রের পানিতে ডুবে মৃত্যু হয়েছে।
জানা গেছে-মৃত শিশুপুত্র আলিফ,বাড়ীতে টিউবওয়েলের গোড়ায় পানি নিয়ে খেলা করা কালীন পাশে থাকা পানি নিঃষ্কাশনের ছোট গর্তের মাঝে পড়ে যায়।পরিবারের লোকজন বাচ্চাটিকে খোঁজা খুঁজির একপর্যায়ে গর্ত থেকে ভেষেথাকা মরদেহ উদ্ধার করে।
একমাত্র শিশুপুত্র আলিফ কে হারিয়ে মনোয়ার শিকদার ও তার স্ত্রী পাগল প্রায়।গ্রামটিতে নেমে এসেছে শোঁকের ছাঁয়া।

সাংবাদিক ইয়ারব হোসেন সড়ক দুর্ঘটনায় আহত অল্পের জন্য রক্ষা

সাংবাদিক ইয়ারব হোসেন সড়ক দুর্ঘটনায় আহত অল্পের জন্য রক্ষা





আজহারুল ইসলাম সাদী, জেলা প্রতিনিধিঃ
জাতীয় দৈনিক মানবজমিন পত্রিকার সাতক্ষীরা জেলা প্রতিনিধি, জনপ্রিয় দর্শক নন্দিত অনলাইন নিউজ পোর্টাল " দৈনিক সমাজের আলো"র সম্পাদক ও প্রকাশক সাংবাদিক ইয়ারব হোসেন সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন।
জানা গেছে আজ মঙ্গলবার (৩০ জুন) সকালে তার কর্মস্থল তুজুলপুর গাছের পাঠশালায় গাছের পরিচর্যায় কাজে ব্যস্ত থাকার এক পর্যায়ে সকাল সাড়ে ৮ টার দিকে, যশোর রোড দিয়ে সাতক্ষীরা অভিমুখি তার পাশ দিয়ে দ্রুতগতির একটি মটর সাইকেল তাকে ধাক্কা দিয়ে চলে যায়।
এসময় তুজুলপুর গাছেরপাঠশালার সাধারণ সম্পাদক গোলাম রহমানসহ কয়েকজন দ্রুত তাকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।
বর্তমানে তিনি সেখানে চিকিৎসাধীন আছেন।
তার ডান পা ভেঙে এবং ব্যান্ডেজ করা হয়েছে।
সাংবাদিক ইয়ারব হোসেন এর দুর্ঘটনার খবর পেয়ে সাতক্ষীরার সাংবাদিক সমাজ দ্রুত তাকে হাসপাতালে দেখতে আসেন।
অল্পের জন্য সাংবাদিক ইয়ারব হোসেন বড় ধরনের দুর্ঘটনার কবল হতে রক্ষা পাওয়ার জন্য তিনি, মহান রাব্বুল আলামিনের দরবারে শোকরিয়া আদায় করেন।

সরকারি সা'দত কলেজের অর্থনীতি বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর জামাল উদ্দিনের করোনা পজিটিভ

সরকারি সা'দত কলেজের অর্থনীতি বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর জামাল উদ্দিনের  করোনা পজিটিভ


আশরাফুল,সরকারি সা'দত কলেজ (টাংগাইল)প্রতিনিধি:টাংগাইলের ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীঠ সরকারি সা'দত কলেজের অর্থনীতি বিভাগের চেয়ারম্যান জনাব প্রফেসর জামাল উদ্দিন করোনা আক্রান্ত।                                           
সোমবার ২৯ জুন ২০২০ খ্রি. টাংগাইল সিভিল সার্জন কার্যালয় হতে  জনাব প্রফেসর জামাল উদ্দিন এর করোনা পজিটিভ রেজাল্ট পাওয়া যায়। 

করোনা আক্রান্ত জনাব প্রফেসর জামাল উদ্দীন সকল ছাত্রছাত্রী, অভিবাবক, শিক্ষকবৃন্দ সহ দেশবাসীর কাছে দোয়া প্রার্থনা করেছেন। তিনি সবাইকে সামাজিক দূরত্ব মেনে চলতে বলেছেন এবং প্রয়োজনে বাহিরে গেলে  মাস্ক সহ প্রয়োজনীয় উপকরণ পরিধান করতে বলেছেন।

সিরাজগঞ্জ কাজীপুরে পানিবন্দী লক্ষাধিক মানুষ,ফসলের ব্যাপক ক্ষতি

সিরাজগঞ্জ কাজীপুরে পানিবন্দী  লক্ষাধিক মানুষ,ফসলের ব্যাপক ক্ষতি



মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলাপ্রতিনিধি ঃ
 উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল এবং ভারী বর্ষণে কাজীপুর পয়েন্টে যমুনা নদীর পানি প্রবাহ বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমার ৭৫ সেমি. উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এতে করে নদীর দু'কুল ছাপিয়ে   চরাঞ্চলের ছয়টি ইউনিয়নের বাড়ী ঘরে পানি ঢুকে পড়ে পানিবন্দি হয়ে পড়ছে লক্ষাধিক মানুষ। পানিতে নিমজ্জিত হয়ে গেছে পাট, আউশ ধান,  ভুট্টা, বাদাম, সবজি খেত বীজতলা ও গোচারণ ভুমি। বিশেষ করে কাজীপুরের সিংহভাগ কৃষকের সোনালী স্বপ্নের ভিত গড়ে দেয়া পাটখেত পুরোটাই পানিতে তলিয়ে গেছে।  সবখরচাদী শেষ আর কয়েকদিন পরেই  এই ফসল  কৃষক ঘরে তুলতে পারত।  
সিরাজগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী এ.কে.এম.রফিকুল ইসলাম জানান, গত ২৪ ঘন্টায় সিরাজগঞ্জ পয়েন্টে যমুনা নদীর পানি ব্যাপক বৃদ্ধি  পেয়েছে। মঙ্গলবার   সকাল ৬টায় কাজীপুরে যমুনায় বিপদসীমার ৭৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল। তবে  আশার কথা কর্তৃপক্ষ বুধবার থেকে কমার আশা করছেন।  
কাজীপুর উপজেলা কৃষি অফিসের তথ্য মতে এ পর্যন্ত ১০৫ হেক্টর আউশ ধান, ২০ হেক্টর ভুট্টা, ৩০ হেক্টর আখ,  , ৫৫ হেক্টর শাকসবজি এবং ২৪১০ হেক্টর মিলে মোট ২৬২০ হেক্টর  জমির ফসল  পানিতে নিমজ্জিত হয়ে পড়েছে। 
কাজীপুর উপজেলা কৃষি স¤প্রসারণ কর্মকর্তা রেজাউল করিম  জানান, ‘ এতে করে মোট কুড়ি হাজার কৃষক ক্ষতির সন্মুখিন হয়েছেন। পানি সহসা কমে গেলে ক্ষয়ক্ষতি কমার সম্ভাবনা রয়েছে।  
এদিকে বাড়ি-ঘরে পানি ঢুকে পানিবন্দি পরিবারগুলো শিশু, বৃদ্ধ ও গবাদি পশুপাখি  নিয়ে পড়েছে বিপাকে। তাদের মধ্যে  বিশুদ্ধ পানি, জ্বালানি ও খাবারের সংকট দেখা দিচ্ছে।  বাড়ি-ঘরে পানি ঢুকে পড়ায় অনেক পরিবার বাঁধে নিরাপদ আশ্রয় নিয়েছে।
 কাজীপুর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা একেএম শাহা আলম মোল্লা জানান, আমরা খোঁজখবর রাখছি। ২৩ মে.টন চাল আমাদের হাতে রয়েছে। অবস্থা বিবেচনায় আরও চাহিদা দেয়া হবে। পানিবন্দী পরিবারের  তালিকা তৈরী করে সরকারী ত্রাণ দেওয়া হবে।

দারুল আরকাম মাদ্রাসার শিক্ষকদের বেতনহীন আহাজারি

দারুল আরকাম মাদ্রাসার শিক্ষকদের বেতনহীন আহাজারি



 আব্দুর রাজ্জাক হরিরামপুর (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ
উল্লেখ্য যে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অভিপ্রায়ে ২০১৭সালে  সারাদেশে প্রতিষ্ঠিত প্রত্যেক উপজেলায় দু’টি করে দারুল আরকাম ইবতেদায়ী মাদরাসার আলেম শিক্ষক-শিক্ষিকা  নিয়োগপ্রাপ্ত হন। কিন্তু তারা ২০২০ সালের জানুয়ারী থেকে দীর্ঘ ৬ মাস যাবত বেতন-ভাতা পাচ্ছে না। লকডাউনের মাঝে ১ হাজার ১০টি দারুল আরকাম ইবতেদায়ী মাদরাসার শিক্ষক শিক্ষিকারা পরিবার পরিজন নিয়ে অনাহার অনিদ্রায় দিন কাটাচ্ছেন। পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে দাঁড়িয়েছে যে, তারা কারো কাছে হাত পাততেও পারছেন না।
ইফার একটি সূত্র জানায়, গত ১১ মে পরিকল্পনা কমিশন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রস্তাবিত পাঁচ বছর মেয়াদী ৭তম পর্বে মসজিদভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা প্রকল্পে ৩ হাজার ১২৮ কোটি ৪৬ লাখ টাকা বরাদ্দ দিয়েছে। উল্লেখিত প্রকল্প থেকে দারুল আরকাম ইবতেদায়ী মাদরাসাকে বাদ রাখা হয়েছে। এতে ইফার দারুল আরকাম মাদরাসায় নিয়োগ প্রাপ্ত শিক্ষক শিক্ষিকাদের মাঝে চরম অসন্তোষ দেখা দিয়েছে।
এসব মাদরাসাগুলো চলার জন্য বিকল্প কোনো ব্যবস্থাও নেয়া হয়নি। সারাদেশে এসব মাদরাসায় আরো তিন হাজার ত্রিশজন শিক্ষক শিক্ষিকা নিয়োগের বিষয়টি ও ঝুলে আছে।

ঝিনাইদহে গাঁজা ও ফেন্সিডিল সহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক করেছে র্যাব- ৬

ঝিনাইদহে গাঁজা ও ফেন্সিডিল সহ দুই   মাদক ব্যবসায়ী আটক করেছে র্যাব- ৬





খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার, ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধি। 



ঝিনাইদহে মিষ্টি কুমড়া ভর্তি পিকআপ ভ্যান থেকে র‌্যাব ১১ কেজি গাজা ও ফফেন্সিডিল  উদ্ধার করেছে।

এ সময় পিকআপ ভ্যানের ড্রাইভার মারুফ হোসেন ও হেলপার হাসমত মোল্লা র‌্যাবের হাতে আটক হলেও পালিয়ে গেছে মাদক পাচারের মুল হোতা বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের নজরুল ও তার সহযোগী চুয়াডাঙ্গার শহিদুল।

মঙ্গলবার দুপুরে ঝিনাইদহ র‌্যাব-৬ এর প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে, সোমবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তারা জানতে পারে চুয়াডাঙ্গার আন্দুলবাড়ীয়া থেকে একটি মিষ্টি কুমড়া বোঝাই পিকআপ ভ্যানে বিপুল পরিমান মাদক পাচার করা হচ্ছে এবং পিকআপ ভ্যানটি ঝিনাইদহের উপর দিয়ে যাবে। সংবাদ পেয়ে র‌্যাব ক্যাম্পের সামনের সড়কে চেক পোষ্ট বসায় ঝিনাইদহ র‌্যাবের কোম্পানী কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ মাসুদ আলম এবং স্কোয়াড কমান্ডার এইচ এম শফিকুর রহমান।

পিকআপ ভ্যানটি ঝিনাইদহ বিসিক শিল্প নগরীর ১নং গেইটে পৌছালে র‌্যাব থামানোর চেষ্টা করে। এ সময় পিকআপটি রাস্তার পাশে থামিয়ে ড্রাইভার ও হেলপার পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। র‌্যাব গাড়ির ড্রাইভার ও হোলপারকে আটক করতে পারলেও পালিয়ে যায় নজরুল এবং শহিদুল।

র‌্যাব পিকআপ তল্লাসী চালিয়ে ৩ লাখ ৩০ হাজার টাকা মুল্যোর ১১ কেজি গাজা, এক লাখ ১৭ হাজার টাকা মুল্যের ১১৭ বোতল ফেন্সিডিল, ৫৪ বস্তা মিষ্টি কুমড়া, ৩টি মোবাইল সেট, ৩টি সীম কার্ড ও মাদক বিক্রি নগদ ৩ হাজার ৮১০ টাকা জব্দ করে।

এ ব্যাপারে গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে ঝিনাইদহ সদর থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন ২০১৮ এর ৩৬(১) সারণির ১৯(খ)/১৪(গ)/৪১ ধারায় মামলা করা হয়েছে।

দেশে করোনায় মৃত্যুর নতুন রেকর্ড!

দেশে করোনায় মৃত্যুর   নতুন রেকর্ড!



নিউজ  ডেস্কঃ (৩০ জুন) দেশে করোনায় আরও ৬৪ জনের মৃত্যু, মোট প্রাণহানি ১৮৪৭। গত ২৪ ঘণ্টায় ১৮৪২৬ নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত ৩৬৮। ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছো ১৮৪৪ করোনা রোগী, মোট সুস্থ ৫৯৬২৪ এ পর্যন্ত  করোনায় দেশে মোট আক্রান্ত ১ লাখ ৪৫ হাজার ৪৮৩

গত ২৪ ঘণ্টায় মৃতদের মধ্যে পুরুষ ৫২, নারী ১২। পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্ত ১৯.৯৮ শতাংশ

উলিপুর প্যারাগন কিন্ডারগার্টেনের পরিচালক এর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার!

উলিপুর প্যারাগন কিন্ডারগার্টেনের পরিচালক এর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার!


মোঃইয়ামিন সরকার আকাশ।
কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ
উলিপুর প্যারাগন কিন্ডারগার্টেন এর পরিচালক এসএম রওশন (৪৬) আত্মহত্যা করেছে, না তাকে হত্যা করে ফাঁসীতে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে, এ নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে পরিবারের স্বজন ও এলাকার মানুষের মাঝে।

আজ মঙ্গলবার সকালে উলিপুর-চিলমারী সড়কে নিজ প্রতিষ্ঠানের একটি কক্ষে ধরনার সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ, পরে ময়না তদন্তের জন্য কুড়িগ্রাম মর্গে প্রেরণ করেছে।

পারিবারিক সুত্রে জানা গেছে এসএম রওশন দীর্ঘদিন থেকে একাকী জীবন যাপন করে আসছে। তার স্ত্রী ও এক পুত্র সন্তান থাকলেও তাদের কাছে নেয়নি তিনি, এ অবস্থায় একদিকে ওই প্রতিষ্ঠানে একাকী জীবন যাপন, অপরদিকে পুত্রকে নিয়ে স্ত্রী বিয়ের সুচনাকাল থেকে স্বামীর সাথে বনিবনা না থাকায় পিত্রালয়ে জীবন যাপন করছেন। এ দিকে একটি সুত্র জানায় বর্তমানে করোনা সংক্রমনের কারনে তার প্রতিষ্ঠান দীর্ঘ ৩ মাস থেকে বন্ধ থাকায় উপার্জনও বন্ধ, সেই সাথে ইতিপূর্বে থেকে
তিনি আর্থিক সংকটে কয়েকজন সুদ ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ঋন নিয়ে পরিশোধ করতে না পারায় সুদ ব্যবসায়ীদের চাপে মানষিক ভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছিলেন। অনেকের ধারনা সুদ ব্যবসায়ীরা তাকে হত্যা করে ফাঁসীতে ঝুলিয়ে রেখেছেন। ময়না তদন্তে বেড়িয়ে আসবে হত্যা না আত্মহত্যা।

এ ব্যাপারে উলিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোয়াজ্জেম হোসেন এর সাথে কথা হলে তিনি সাংবাদিককে জানান ফাঁসীতে ঝুলন্ত অবস্থায় লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে, ময়না তদন্তের রিপোট পাওয়ার পর জানা যাবে হত্যা না আত্মহত্যা।

দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি তাহের উদ্দিনের মৃত্যুতে হুইপ ইকবালুর রহিম এমপির শোক

দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি তাহের উদ্দিনের মৃত্যুতে  হুইপ ইকবালুর রহিম এমপির শোক




দিনাজপুর প্রতিনিধি ॥ দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ও আজীবন সদস্য তাহের উদ্দিন আহমেদ ২৯ জুন দিবাগত রাত ১২ টা ৩০ মিনিটে বার্ধক্যজনিত কারনে নিজ বাসভবন গনেশতলায় ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহে ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন) মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯৭ বছর। তিনি ৩ পুত্র ৫ কন্যা সন্তান সহ অসংখ্য আত্মীয়স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে যান।তার মৃত্যুতে দিনাজপুর সদর-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও  জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। এক শোক বার্তায় মরহুম তাহের উদ্দিনের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান এবং শোকাহত পরিবারের প্রতি শোক ধৈর্য্য ধারনের আহবান জানান।

এমসিকিউ পাশ শিক্ষানবিস আইনজীবিদের তালিকাভুক্তির দাবিতে দিনাজপুরে মানববন্ধন

এমসিকিউ পাশ শিক্ষানবিস আইনজীবিদের তালিকাভুক্তির দাবিতে দিনাজপুরে মানববন্ধন




দিনাজপুর প্রতিনিধি : বাংলাদেশ বার কাউন্সিলে প্রিলিমিনারি এমসিকিউ পাশ (গঈছ) পাশ শিক্ষা নবিশ আইনজীবিদের পুর্ণাঙ্গ আইনজীবি হিসেবে তালিকা ভূক্তির দাবিতে আজ মঙ্গলবার সকালে দিনাজপুর প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছেন শিক্ষা নবিস আইনজীবিরা। একই দাবিতে আজ সারাদেশ দেশজুড়েও কর্মসূচি পালন করছে তারা। দাবির বিষয়টি বিবেচনায় নিতে এর আগে গত ( ৯ জুন) জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর বরাবরে স্মারকলিপি পেশ করেছিলেন তারা।

সামাজিক দুরুত্ব বজায় রেখে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন কর্মসূচির সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তারা বলেন,আমাদের জীবন থেকে আর মুল্যবান সময় কেড়ে না নিয়ে মানবিক দৃষ্টিকোনে বিশেষ বিবেচনায় অবশিষ্ট পরীক্ষা থেকে অব্যাহতি দিয়ে বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের তালিকাভুক্ত আইনজীবি হিসেবে নিবন্ধনভুক্ত করুন।

মানববন্ধনে বক্তব্য দেন শিক্ষা নবিস সমন্বয় পরিষদের নেতা মঈনুল ইসলাম, ফারজানা ফারিয়া ইতু, শাহিন আক্তার, ওবায়দুল্ল্যাহ, ফারজানা রিমা এবং সনাতকতন দাসসহ অন্যান্যরা।

ঐতিহাসিক সান্তাল আদিবাসী কৃষক বিদ্রোহ দিবস উদযাপন উপলক্ষে শ্রদ্ধাঞ্জলী অর্পণ ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

ঐতিহাসিক সান্তাল আদিবাসী কৃষক বিদ্রোহ দিবস উদযাপন উপলক্ষে শ্রদ্ধাঞ্জলী অর্পণ ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত




প্রতিনিধি দিনাজপুরঃ
১৬৫তম ঐতিহাসিক সান্তাল বিদ্রোহ দিবস উদযাপন উপলক্ষে বাংলাদেশ কৃষক ফেডারেশন-কিষানী সভা,বাংলাদেশ আদিবাসী সমিতি ও ভুমিহীন সমিতি এবং নাগরিক উদ্দ্যোগের আয়োজনে দিনাজপুরে শ্রদ্ধাঞ্জলী অর্পণ ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত।
আজ মঙ্গলবার সকালে দিনাজপুর শহরের নিমনগর বালুবাড়ি সাঁওতাল মাঠে সিঁদু-কানু চাঁদÑভৈরব স্মৃতিস্তম্ভে শ্রদ্ধাঞ্জলী অর্পণ করেন ৪টি সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দসহ সংগঠনের সদস্যরা। শ্রদ্ধাঞ্জলী অর্পণের পর ৯ দফা বাস্তবায়নের দাবীতে সামাজিক দুরুত্ব বজায় রেখে একটি র‌্যালী বের করে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদিক্ষন শেষে সামাজিক দুরুত্ব বজায় রেখে বালুবাড়ি সাঁওতাল মাঠে আলোচনা সভায় অনুষ্ঠিত হয়েছে।  
বাংলাদেশ কৃষক ফেডারেশন দিনাজপুর জেলা শাখার সভাপতি তারক কবিরাজ‘র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আদিবাসী সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির সা:সম্পাদক ও দিনাজপুরের সভাপতি স্বপন এক্কা। 
এছাড়াও অন্যানের মাঝে আরো বক্তব্য রাখেন,কিষানী সভা দিনাজপুর কমিটির সভাপতি সাবিহা বেগম,বাং:আদিবাসী সমিতির সহ-সভাপতি শুফল বাস্কে,বাংলাদেশ আদিবাসী সমিতি দিনাজপুর কমিটির সা: সম্পাদক রিকন সরেন ও বাং:ভুমিহীন সমিতির সভাপতি রশিদুল ইসলাম,পৌর কমিটির সভাপতি রওশন আরা,সুফল বাস্কে,বিস্ঠু মর্মূ,সামুয়েল টুডু,প্রদীপ মূর্মূ,সুমিত্রা টুডু প্রমুখ।  আলোচনা সভা পরিচালনা করেন বাংলাদেশ আদিবাসী সমিতির নেতা লতা। 
৯ দফা দাবী‘র মধ্যে রয়েছে সকল ক্ষুদ্র জাতিসত্তাকে আদিবাসী হিসেবে স্বীকৃতি,সামাজিক ও রাষ্ট্রীয় সুযোগ সুবিধা,ভাষা-সংস্কৃতি ও কৃষ্টি সংরক্ষন,ভুমি কমিশন গঠন,কৃষকের ফসলের ন্যায্য মুল্য নিশ্চিত করতে মুল্য কমিশন গঠন,কৃষকের সকল ঋন মওকুফ,কৃষক-আদিবাসীদের ক্ষতি হয় এমন মেঘা প্রকল্প বাতিল,চলতি বছরের ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের ক্ষতিপুরন প্রদান এবং সবর্ত্র পরিবেশ-প্রতিবেশ সম্পন্ন চাষাবাদ ব্যবস্থা চালু করতে হবে।

করোনা প্রতিরোধে খাদ্য ও সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণের পাশাপাশি সচেতনতা সৃষ্টিতে কাজ করেছে আওয়ামী লীগ নেতা- জসিম

করোনা প্রতিরোধে খাদ্য ও সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণের পাশাপাশি সচেতনতা সৃষ্টিতে  কাজ করেছে আওয়ামী লীগ নেতা- জসিম





মোঃএরশাদ হোসেন রনি, মোংলা   

মোংলায় করোনা আক্রান্ত রোগীদের বাড়ী বাড়ী গিয়ে ভিটামিন সি সমৃদ্ধ বিভিন্ন প্রকার ফল উপহার দিয়েছেন পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব শেখ কামরুজ্জামান জসিম। সোমবার বিকেলে তিনি পৌরসভা ও উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় করোনা আক্রান্ত রোগীদের বাড়ীতে গিয়ে খোজঁ খবর নেন এবং তাদের পরিবারের সদস্যদের হাতে আম, কমলা, পেয়ারা, আপেল, লেবু, কলা, আদা, এলাচি, লবঙ্গ দারুচিনি  তুলে দেন। এ সময় তার সাথে ছিলেন পৌরসভার ৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক উত্তম সরকার, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক ইমরান হোসেনসহ মো: দুলাল, মো: পারভেজ, মো: সানী, সাগর, মাসুম ও সুজন।  

আওয়ামী লীগ নেতা ও সাংবাদিক আলহাজ্ব শেখ কামরুজ্জামান করোনা প্রাদুর্ভাবের শুরু থেকেই জনসাধারণকে সচেতন করার লক্ষ্যে নিজে হ্যান্ড মাইক দিয়ে বিভিন্ন এলাকায় প্রচারণা চালানোর পাশাপাশি সুরক্ষা সামগ্রীও বিতরণ অব্যাহত রেখেছেন। কেউ ফোন দেয়া মাত্রই তার কাছে পৌঁছে দিচ্ছেন চাহিদানুযায়ী খাদ্য সামগ্রীও। করোনাকালে এ ধরণের কর্মকান্ডে এলাকা জুড়ে ব্যাপক সুনামও ছড়িয়ে তার। দিন-রাত কমর্ীদের নিয়ে ছুটে বেড়াচ্ছেন বিভিন্ন এলাকায়। খোঁজ খবর নেয়ার পাশাপাশি দলমত নির্বিশেষে সকল শ্রেণী পেশার মানুষকে নগদ অর্থ ও খাদ্য সহায়তা দিয়ে যাচ্ছেন তিনি।

প্রথম দফায় গত ২৪ জুন উপজেলার সুন্দরবন ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কর্মী  কামাল মৃধা (৪০), সোনাইলতলা ইউনিয়নের স্বাস্থ্য কর্মী  মো: মুজাহিদুল ইসলাম (৩৫) ও পৌর শহরের ইসলামী ব্যাংকথর ক্যাশিয়ার এসএম রিয়াজ আলমগীর (৩৪) আক্রান্ত হন।

দ্বিতীয় দফায় গত ২৮ জুন স্থায়ী বন্দর এলাকার বাসিন্দা মিজানুর রহমান (৫১), তার স্ত্রী সেলিনা বেগম (৪৩) ও মেয়ে মেহেরুন মুনতাহা মালিহা (১৯) ইপিজেড অভ্যন্তরের হেলথ ইউনিটের ওয়ার্ড বয় রুহুল আমিন (৩০) এবং পৌর শহরের ময়লাপোতার মোড়ের আজিজুল হক (২২) আক্রান্ত হয়েছেন। 

আর ২৯ জুন তৃতীয় দফায় বন্দরের শিল্প এলাকার দিগরাজে আক্রান্ত হয়েছেন সোহেবুল ইসলাম বাবু (৩০)।

ঝিনাইদহে আরাও ১০ জন করোনায় আক্রান্ত

ঝিনাইদহে আরাও ১০ জন করোনায় আক্রান্ত





খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার, ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধি। 




আজ ৩০/০৬/২০২০ রোজ মঙ্গলবার বার কুষ্টিয়া ল্যাব থেকে ঝিনাইদহে আরাও ৬৭ টি ফলা পাওয়া গেছে এর মাঝে ৫৭ জন নেগেটিভ ও ১০ জন পজেটিভ। উপজেলা ভিত্তিক নতুন আক্রান্ত সংখা। 

সদর উপজেলাঃ ২ জন
কালীগঞ্জ উপজেলাঃ৫জন
মহেশপুর উপজেলাঃ ৩ জন 


নতুন_আক্রান্তদের_এলাকা

সদর উপজেলা 

১.হাটগোপালপর ২.মির্জাপুর, চণ্ডিপুর

কালিগঞ্জ উপজেলা 

১.রাকরা,দামদুরপুর ২.মধুগন্জ বাজার, নলডাংগা ৩.উপজেলা  স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সর ঠিকানা লিপিবদ্ধ ৪.বলিদাপাড়া,নলডাংগা ৫.বলরামপুর 

মহেশপুর উপজেলা 

১.খালিশপুর ২.দারিয়াপুর ৩.বিজিবি ব্যাটেলিয়ান।

মোট_মৃত্যুর_সংখ্যা_২
শৈলকূপা_১
কালীগন্জ_১

ঘরে থাকুন সুস্থ থাকুন

নাটোর লালপুর মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ)কে নিয়ে ফেসবুকে কুটুক্তি মুলক পোষ্ট করায় হিন্দু যুবক আটক

নাটোর লালপুর মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ)কে নিয়ে  ফেসবুকে কুটুক্তি মুলক পোষ্ট করায় হিন্দু যুবক আটক


   
মোঃ ফিরোজ হোসাইন 
রাজশাহী ব্যুরো

নাটোর লালপুর মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) কে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে কুটউক্তি মুলক পোষ্ট করায় রতন (২২) নামের এক হিন্দু যুবক কে পুলিশে দিয়েছে এলাকাবাসী। রতন লালপুর উপজেলার দুয়ারিয়া ইউপির টিটিয়া গ্রামের হরিপদ সিং এর ছেলে। অভিযুক্ত রতনের উপযুক্ত শাস্তির দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

সোমবার (২৯জুন) সকালে রতনের নামে তথ্য প্রযুক্তি আইনে মামলা দিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করে লালপুর থানার পুলিশ। লালপুর থানার ওসি সেলিম রেজা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। রবিবার (২৮ জুন) রাতে তাকে আটক করে পুলিশে দেয় এলাকাবাসী ।
 
লালপুর থানা পুলিশ সূত্রে জানাগেছে, রতন তার নিজের ফেসবুক আইডি থেকে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) কে নিয়ে কুটউক্তি মূলক পোষ্ট করে । পরে এলাকাবাসী রতন কে আটক করে লালপুর থানা পুলিশে সর্পদ করেন।

এব্যাপারে লালপুর থানার ওসি সেলিম রেজা জানান, এলাকাবাসী রতন কে থানায় হস্তান্তর করেছে। পরে রতনের নামে তথ্যন প্রযুক্তি আইনে মামলা দিয়ে আদালতের মাধ্যমে নাটোর জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

দুর্বিসহ কষ্টে স্বল্প আয়ের মানুষ আশাশুনিতে শাক-সবজির দাম আকাশছোঁয়া

দুর্বিসহ কষ্টে স্বল্প আয়ের মানুষ আশাশুনিতে শাক-সবজির দাম আকাশছোঁয়া




আহসান  উল্লাহ  বাবলু আশাশুনি ( সাতক্ষীরা) প্রতিনিধিঃ
 আশাশুনিতে শাক-সবজির দাম আকাশছোঁয়া হওয়ার কারণে দূর্বিসহ কষ্টে দিন পার করছেন স্বল্প আয়ের মানুষ। উপজেলার বিভিন্ন হাট বাজারে কাঁচা তরিতরকারি ও শাক-সবজির দাম যেন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। কাঁচা মরিচের দাম আজ ৮০ টাকা তো কাল ১২০ টাকা তো পরশু ১৫০ টাকা কেজি! অথচ বাজার নিয়ন্ত্রণের কোন উদ্যোগ নেই। অতিরিক্ত মূল্য দিয়ে নিত্য প্রয়োজনীয় শাক-সবজি কিনতে গিয়ে বিপাকে পড়ছে সাধারণ মানুষ। এ যেন করোনা পরিস্থিতিতে কর্মহীন হয়ে পড়া স্বল্প আয়ের মানুষের জীবনে মরার উপর খড়ার ঘা। মাত্র কয়েক দিনের ব্যবধানে আশাশুনির হাট  বাজারগুলোতে কাঁচা মরিচের দাম শতকরা ৩০০ ভাগ বৃদ্ধি পেয়েছে। যে কাঁচা মরিচ বছরের এই সময়ে ১০/১২ টাকা কেজি বিক্রি হত বৃষ্টিসহ নানা অজুহাতে তা এখন ১৫০ টাকায় পৌঁছে গেছে। বেগুনের কেজি বাজার ভেদে ৬০ টাকা থেকে ৭০ টাকা, পেঁপের কেজি ৫০ টাকা, ঢেঁড়শের কেজি ৪৫ থেকে ৫০ টাকা, পটলের কেজি ৪৫ থেকে ৫০ টাকা, কাচকলা ৫০ থেকে ৫৫ টাকা, ওল ৯০ থেকে ১০০ টাকা, আলু ৩০ টাকা কেজি, উচ্ছের কেজি ১০০ টাকা ছুঁয়েছে। এছাড়া অন্যান্য নিত্যপ্রয়োজনীয় শাক-সবজির বাজার দামও অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে গেছে। এমন পরিস্থিতিতে দ্রব্যমূল্যের অস্বাভাবিক বৃদ্ধিতে স্বল্প আয়ের মানুষের পক্ষে সংসারের ব্যয় নির্বাহ করা অসম্ভব হয়ে পড়েছে। কাঁচা তরকারির বাজারদরের এই অস্বাভাবিক বৃদ্ধির কারণ জানতে চাইলে ব্যবসায়ীরা জানান, এবার সাইক্লোন আম্পান ও অতিবৃষ্টির কারণে বহু কাঁচা তরকারি ও ফসলের ক্ষেত পুরোপুরি নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে। দেশের যেসকল জায়গা থেকে কাঁচা মরিচ আসত সেখানেও বৃষ্টিতে গাছ মরে গেছে। এসকল কারণে বাজারে সবজির সঙ্কট তৈরি হয়েছে এবং দামও বেশি।  এদিকে সার্বিক দিক বিবেচনা করে হাট বাজারগুলোতে যথাযথ কর্তৃপক্ষের নজরদারী বাড়ানোর দাবী জানিয়েছেন সচেতন মহল।

টাংগাইলে দফাদার ও চৌকিদারদের মাঝে বাই সাইকেল বিতরণ করলেন,ডিসি মো.শহীদুল ইসলাম

টাংগাইলে দফাদার ও চৌকিদারদের মাঝে বাই সাইকেল বিতরণ করলেন,ডিসি মো.শহীদুল ইসলাম





ডা.এম.এ.মান্নান  টাংগাইল জেলা প্রতিনিধি:

টাঙ্গাইল জেলার ১২ টি উপজেলার ৩০৯ জন দফাদার ও চৌকিদারের মাঝে বাই সাইকেল বিতরণ করলেন,টাংগাইল  জেলা প্রশাসক জনাব মোঃ শহীদুল ইসলাম।      

২৯ সোমবার, জুন ২০২০ খ্রি.দুপুরে টাংগাইল জেলা প্রশাসক এর কার্যালয়ের সামনে বাই সাইকেল বিতরনের কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হয়। 

স্থানীয় সরকার বিভাগ কর্তৃক প্রদত্ত গ্রাম পুলিশের জন্য পোশাক খাতে বরাদ্দের উদ্ধৃত্ব অর্থ দিয়ে বাই-সাইকেল বিতরণের এ উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। উন্মুক্ত টেন্ডারের মাধ্যমে সরবরাহকৃত উন্নতমানের প্রতিটি বাই সাইকেলের মূল্য ৯ হাজার টাকা। 

টাংগাইল সদর উপজেলার ১২ টি ইউনিয়নের ৪০ জন দফাদার ও চৌকিদার  জেলা প্রশাসকের নিকট থেকে এ বাই সাইকেল গ্রহণ করেন। 

বাই সাইকেল বিতরন অনুষ্ঠানে টাংগাইল জেলার  সরকারি উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তাবৃন্দগণ উপস্হিত ছিলেন।

মাধবপুর থানার সেকেন্ড অফিসারসহ করোনামুক্ত ৮জন পুলিশ সদস্যকে ফুল দিয়ে বরণ,

মাধবপুর থানার সেকেন্ড অফিসারসহ করোনামুক্ত ৮জন পুলিশ সদস্যকে ফুল দিয়ে বরণ,





লিটন পাঠান হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি

হবিগঞ্জের মাধবপুর থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই মুসলেহ উদ্দিনসহ ৮জন পুলিশ সদস্য  করোনা মুক্ত  হওয়ায়  তাদেরকে ফুল দিয়ে কর্মস্থলে বরণ করে নেয়া  হয়েছে। সোমবার (২৯.জুন) রাতে  মাধবপুর সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার নাজিম উদ্দিন ও মাধবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ ইকবাল হোসেন  করোনা মুক্ত পুলিশ সদস্যদের বরণ করেন। সম্প্রতি সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিত  ও করোনা প্রতিরোধে কাজ করতে গিয়ে। 

সামনের সারির যোদ্ধা মাধবপুর থানার   ৪জন এসআই সহ ১৯জন কোভিড (১৯) করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হয়েছিলেন। তারা হোম ও প্রাতিষ্টানিক কোয়ারন্টাইন  থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন। তাদের মধ্যে সেকেন্ড অফিসার মোসলেহ
 উদ্দিনসহ ৮ জন পুলিশ সদস্য করোনা  যুদ্ধে জয়ী হয়েছেন। সোমবার  রাতে মাধবপুর সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার নাজিম উদ্দিন ও মাধবপুর থানার (ওসি) ইকবাল হোসেন তাদেরকে 

ফুল দিয়ে কর্মস্থলে বরণ করে নেন। এ সময় করোনাজয়ী পুলিশ সদস্যদের বরণ করতে গিয়ে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার নাজিম উদ্দিন বলেন, মরণঘাতী করোনা ভাইরাস সংক্রমণের প্রথম থেকেই তৎপর ছিলেন মাধবপুর থানার আইনশৃঙ্খলা বাহিনী পুলিশ সদস্যরা মৃত্যুভয়কে উপেক্ষা করে দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে ৮জন করোনা মুক্তসহ ১৯জন পুলিশ সদস্য পর্যায়ক্রমে
করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হন। 

তবু পিছু হটেনি কেউ নতুন করে লড়াই শুরু হয় করোনার বিরুদ্ধে প্রায় তিন সপ্তাহ বিধি নিষেধ মেনে চিকিৎসা নেওয়ায় সুস্থ হয়ে উঠছেন, এবং ফিরে আসেন মৃত্যুর খুব কাছ থেকে ফিরে এলেও এতটুকু মনোবল হারাননি করোনা মুক্ত পুলিশ সদস্যরা। তিনি আরো বলেন করোনাকে ভয় না পেয়ে সতর্ক হয়ে কাজ করার জন্য মাধবপুর থানার পুলিশ সদস্যদের পরামর্শ দেন।

 এ সময় মাধবপুর থানার সেকেন্ড অফিসার মুসলেহ উদ্দিনসহ তারা ৮জন পুলিশ সদস্য করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে নিজেদের সুস্থ হয়ে উঠার অভিজ্ঞতা জানান, এবং সহযোগিতার জন্য পুলিশ সুপারসহ সহকর্মীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

যাত্রীসহ হ্যালো বাইক উল্টে আহত-৩

যাত্রীসহ হ্যালো বাইক উল্টে আহত-৩



আব্দুর রাজ্জাক হরিরামপুর
(মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধি হরিরামপুর উপজেলা লেচরাগঞ্জ বাজার এর পশ্চিম পাশে দিয়াবাড়ী আশ্রয় প্রকল্পে যাওয়ার রাস্তায় জনাব শামসুল আলম বিশ্বাস (শিরু) তার পুকুর চালায়, মানিকগঞ্জ থেকে দিয়াবাড়ী আশ্রয় প্রকল্পে আসার পথে চেয়ারম্যান এর পুকুরে হ্যালো বাইকটি যাত্রীসহ  উল্টিয়ে পুকুরে পরে ৩ জন আহত হয়, গত দিন আগে ঐ রাস্তায় একটি মালবাহী ভ্যান গাড়ি পুকুরে উল্টিয়ে পরে। ঐ রাস্তাটা একেভারেই খারাপ মানুষ চলাচলের ক্ষেত্রে খুব কষ্ট কর। 
স্থানীয় এলাকাবাসীর দাবি রাস্তাটা যেনো খুব তারাতাড়ি সংস্কার করার হয়। চালা ইউনিয়ন পরিষদের  সম্মানিত চেয়ারম্যান জনাব শামসুল আলম বিশ্বাস (শিরু) এর প্রতি ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধি দের কাছে গ্রামবাসীর  সকলে দাবি রাস্তাটা  যেনো খুব তারাতাড়ি  মেরামত করা হয়। কারণ দিয়াবাড়ীর আশ্রয় এর মানুষ অনেক কষ্টে জীবন যাপন করে থাকে। আর যেনো এরকম  গাড়ী উল্টিয়ে পুকুরে না পরে।

দৈনিক লোকমত এর সম্পাদক ওপ্রকাশকের পিতার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ

দৈনিক লোকমত এর সম্পাদক ওপ্রকাশকের পিতার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ




স্টাফ রিপোর্টারঃ দৈনিক লোকমত নিউজ পোর্টালের সম্পাদক ও প্রকাশক মিঠুন সরকারের   বাবার অকাল মৃত্যুতে দৈনিক কপোতাক্ষ নিউজ এর সম্পাদক ও প্রকাশক মোঃ মহসীন আলী (প্রভাষক)  শোক প্রকাশ করেছেন। 
জানা যায় দৈনিক লোকমত এর সম্পাদক ও  প্রকাশক মিঠুন সরকারের বাবা দিলিপ কুমার আজ (২৯ জুন)  সোমবার সকাল ৮.০০ টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকা সোহরাওয়ার্দী মেডিকেলে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। এর আগে ২৮ শে জুন যকৃৎ ( লিভার) সমস্যা নিয়ে ঢাকা সোহরাওয়ার্দী মেডিকেলে ভর্তি হন। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ সকালে সবাইকে কাঁদিয়ে পরলোক গমন করেন। মৃত্যু কালে তার বয়স হয়েছিল ৫৫ বছর।তার অকাল মৃত্যুতে তার পরিবারের প্রতি সমবেদনা সহ শোক প্রকাশ করেছেন দৈনিক কপোতাক্ষ নিউজ এর সম্পাদক ও  প্রকাশক মোঃ মহসীন  আলী ( প্রভাষক) 

টাংগাইলে করোনা নমুনা সংগ্রহের জন্য বিশেষায়িত গাড়ীর ব্যবস্থা করলো টাংগাইল উপজেলা প্রশাসন

টাংগাইলে করোনা নমুনা সংগ্রহের জন্য বিশেষায়িত  গাড়ীর ব্যবস্থা করলো টাংগাইল উপজেলা প্রশাসন




ইন্জি.তারিকুল ইসলাম  টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃ         টাঙ্গাইল উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ও উপজেলা পরিষদের অর্থায়নে করোনা স্যাম্পল সংগ্রহের জন্য বিশেষভাবে প্রস্তুতকৃত বিশেষায়িত গাড়ীর ব্যবস্থা করা হয়েছে। 

আজ সোমবার (২৯ জুন ২০২০ খ্রি.) বিকেলে বিশেষায়িত গাড়ীর উদ্বোধন করেন টাঙ্গাইল জেলার সুযোগ্য জেলা প্রশাসক মোঃ শহীদুল ইসলাম।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন,উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাজাহান আনসারী, উপজেলা নির্বাহী অফিসার আতিকুল ইসলামসহ অন্যান্য কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ। 

বিশেষায়িত গাড়ি উদ্ধোধন কালে সুযোগ্য টাংগাইল জেলা প্রশাসক মোঃ শহীদুল ইসলাম বলেন, মহামারী করোনা ভাইরাস সন্দেহে স্যাম্পল প্রদানের জন্য ডাক্তারের কাছে যাওয়া ও আসা খুবই ঝুঁকিপূর্ণ। কারন, যাওয়া বা আসার পথে অন্যদের সংক্রমিত করার ঝুঁকি রয়েছে। এই বিশেষায়িত গাড়ী রোগীর বাড়ী থেকে স্যাম্পল সংগ্রহ করবে। এতে স্বাস্থ্য ঝুঁকি অনেক কম ও স্বাস্থ্যকর্মীগণ পিপিই পরিধান করা ছাড়াই স্যাম্পল সংগ্রহ করতে পারবেন। এতে পিপিই পরিধানের কষ্ট ও খরচটাও সাশ্রয়ী হবে।

গ্রাম্য ডাক্তার আলামিন শেখ এর সংবাদ সম্মেলন। হয়রানি মুলক মামলা ও মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদ

গ্রাম্য ডাক্তার আলামিন শেখ এর সংবাদ সম্মেলন। হয়রানি মুলক মামলা ও মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদ




কুষ্টিয়া প্রতিনিধি।। 

আজ (২৯ জুন) বিকাল ৩ঃ০০টায় হালসা বাজারে নিজ প্রতিষ্ঠান জয় ম্যাডিকেল সেন্টারে সাংবাদিক দের উপস্থিতিতে বঙ্গবন্ধু মানব কল্যাণ পরিষদ এর মিরপুর থানার সাংগাঠনিক সম্পাদক, আম বাড়িয়া ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা ও মিরপুর উপজেলা গ্রাম্য ডাক্তার এসোশিয়েশন এর সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক গ্রাম্য ডাক্তার আলামিন তার লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন। 
তার লিখিত বক্তব্যে তিনি উল্লেখ করেন যে
আমি একজন গ্রাম্য ডাক্তার যার এল,এম,এ,এফ,পি (ঢাকা) আর,এম,পি ট্রেনিং মিরপুর উপজেলা সাস্থ্য কেন্দ্র। আমি কখনোই
নিজেকে এম,বি,বি,এস বলে পরিচয় দেইনি।
আমার এলাকার গুরুতর অসুস্থদের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক এর প্রয়োজন হলে কুষ্টিয়ার একতা ডায়াগনস্টিক সেন্টার এর চিকিৎসক এর পরামর্শ নেয়ার জন্য  নিজেই সাথে করে নিয়ে আসি।বেশ কিছুদিন যাবৎ বিভিন্ন ফেসবুক আই ডি থেকে আমার রাজনৈতিক উৎথথানে ঈর্শান্নিত হয়ে আমার নামে মিথ্যা তথ্য দিয়ে হয়রানি মুলক পোস্ট করা হচ্ছে। তারই যের ধরে গত ১৫ ই জুন আমি আমার এলাকার
গুরুতর অসুস্থ কে একতা ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নিয়ে  যায়।এমন সময়ে সাংবাদিক পরিচয়ে  কয়েক জন আমাকে ডাক্তার সেজে রুগি দেখার অভিযোগ করে এবং আমার সাথে চরম 
দুর্ব্যবহার করলে আমি প্রতিবাদ করে আমার নাম প্রতিষ্ঠানের কোথাও আছে নাকি আর আমার ডাক্তার পরিচয়ের কোন প্যাড বা চিকিৎসা পত্র দেখাতে বল্লে তারা ব্যার্থ হয়ে
আমাকে শারীরিক ভাবে লাঞ্চিত করে। এ খবর পেয়ে একতা ডায়াগনস্টিক সেন্টার এর ব্যাবস্থাপনা পরিচালক সাইদুর রহমান ভাই ছুটে আসলে তার সাথে সাংবাদিক পরিচয় কারীর তর্কাতর্কি চলতে চলতে একপর্যায়ে ঠেলাঠেলি হয়, যা প্রতিষ্ঠানের সি সি ফুটেছে আছে। এঘটনাকে কেন্দ্র করে কুস্টিয়া মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের হয় যার নং ২৩ তারিখ ১৩/৩/২০.যা এখন তদন্তাধীন, যা সম্পুর্ন মিথ্যা ও হয়রানি মুলক। সাংবাদিকরা জাতির বিবেক,সমাজের দর্পন মিথ্যা তথ্যের উপর নির্ভর করে আমার উপরে চড়াও হয়ে শারিরীক ভাবে লাঞ্চিত করে, থানাতে আমার
বিরুদ্ধেই হয়রানি মুলক মামলা দায়ের করে। সে বিষয়ের উপর মিথ্যা সংবাদ প্রকাশে আমি তীব্র 
নিন্দা জানায় এবং সুস্থু তদন্ত সাপেক্ষে হয়রানি মুলক মামলার প্রতিকার চায় আপনাদের মাধ্যমে। 
তিনি তার লিখিত বক্তব্য এ আরও দাবি করেন যে মানস কন্যা  দেশ নেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দেয়া নির্দেশ অনুযায়ী আমি আমার এলাকায় প্রায় ১ হাজার পরিবারের মাঝে ত্রান-সাহায্য বিতরণ করেছি আগামী তে তা অব্যাহত থাকবে।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়স্থ খুলনা জেলা সমিতির পক্ষে কয়রায় উপহার সমগ্রী বিতরণ

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়স্থ খুলনা জেলা সমিতির পক্ষে কয়রায় উপহার সমগ্রী বিতরণ




কয়রা প্রতিনিধি  : - খুলনা জেলা সমিতি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় এর পক্ষ থেকে ঘূর্ণিঝড় আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্ত কয়রা উপজেলার রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে উপহার সামগ্রী বিতরণ।

আজ সোমবার সকালে খুলনা জেলা সমিতি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় এর পক্ষে অত্র সমিতির সভাপতি মোঃ শরিফুল ইসলাম সমিতির সদস্যদের নিয়ে কয়রা উপজেলা পরিষদ চত্তরে উপহার সামগ্রী নিয় কয়রার রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যায়নরত ছাত্র ছাত্রীদের একত্রিত করে উপহার সামগ্রী বিতরণ করেন। উপহার সামগ্রীর মধ্যে ছিল চাল, ডাল,আলু, তেল, চিড়া, স্যালাইন, পেয়াজ,লবণ, সাবান।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের খুলনা জেলা সমিতির উপদেষ্টামন্ডলী, শিক্ষক-শিক্ষিকা, এলামনাই সদস্য ও অধ্যায়নরত শিক্ষার্থী থেকে ফান্ড নিয়ে এ উপহার সমগ্রীর ব্যবস্থা  করা হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, মোঃ মোজাহিদুল ইসলাম, সবুজ সানা, মুজাহিদুল ইসলাম আকাশ, জাকিয়া সুলতানা, আবু হেনি মোস্থফা কামাল, শরিফ, সহ আরো অনেকে।

লঞ্চ ডুবির ঘটনার ১৩ ঘন্টা পর জীবিত উদ্ধার - ১

লঞ্চ ডুবির ঘটনার ১৩ ঘন্টা পর জীবিত উদ্ধার - ১




সম্রাট হোসেনঃ  আজ সোমবার লঞ্চ দূর্ঘটনার ১৩ঘণ্টা পর রাত ১০.২০ মিনিটে, একজন ব্যাক্তি নিজেই উপরে উঠে এসেছেন।তাকে ঢাকার মিডফোর্ট হাসপাতে পাঠানো হয়েছে। সে কথা বলতে পারছেনা, কিন্তুু চোখ মেলতে পারছে বলে জানা গেছে। এখন পর্যন্ত তার নাম ঠিকানা জানা যায়নি।

ঝিকরগাছায় আম্পানে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে বিতরণ কৃত টিন দিয়ে চায়ের দোকানের চাল (ছাউনি)তৈরি

ঝিকরগাছায় আম্পানে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে বিতরণ কৃত টিন দিয়ে চায়ের দোকানের চাল (ছাউনি)তৈরি




স্টাফ রিপোর্টারঃ ঝিকরগাছা উপজেলায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে বিতরণ কৃত টিন দিয়ে চায়ের দোকানের চাল ( ছাউনী) তৈরি করার অভিযোগ উঠেছে।জানা যায় যশোর জেলার ঝিকরগাছা উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক আম্পানে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিদের মাঝে ঘর তৈরীর জন্য টাকা ও টিন বরাদ্দ দেওয়া হয়। সেই বরাদ্দকৃত টিন অত্র উপজেলার ১নং গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের ব্যাংদাহ গ্রামের মৃত মালেক ধাবক এর ছেলে রূপচাঁদ ধাবক ঘরের চাল তৈরির পরিবর্তে চায়ের দোকানের ছাউনি দিয়েছে।
এই ব্যাপারে অত্র গ্রামের বাসিন্দা ও ১ নং ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ মোবারক হোসেন দৈনিক কপোতাক্ষ নিউজ কে জানান ঝিকরগাছা উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক ব্যাংদাহ গ্রামের যে সকল ব্যক্তিদেরকে ঘর মেরামতের জন্য টিন ও টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে তাদের আম্পানের দ্বারা কোনো ক্ষতি হয়নি বরং যে সকল অসহায় দরিদ্র মানুষের ঘরের চাল উড়ে গিয়ে ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তাদেরকে বরাদ্দ দেয়া হয়নি।
তিনি বলেন ব্যাংদাহ গ্রামে রূপচাঁদ ধাবক পিতা-মৃত মালেক ধাবক, বিকাশ  পিতা আরব আলী কে এইটিন ও টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। উপজেলা প্রশাসনকে দেখানো হয়েছে তাদের ঘরের ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে প্রকৃত অর্থে এ-ই দুই জনের ভিতর রুপচাঁদ ধাবকের  ঘরের চালের একটি মাত্র টিন ক্ষতি গ্রস্ত হয়েছে কিন্তু   বিকাশের ঘরের কোন সমস্যা হয়নি। 
তিনি আরও জানান অত্র গ্রামে আম্পানে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে   ১. নাজমুল  পিতা মৃত আব্দুর রাজ্জাক, ২.হাসান পিতা মৃত সুবারেক ৩.হোসেন পিতা মৃত সুবারেক ৪.মহির উদ্দীন পিতা মৃত ইলাহি  বক্স।  কিন্তু তাদেরকে সহায়তা না দিয়ে এদেরকে এই সহায়তা দেওয়ায় গ্রামের সর্বস্তরের মানুষ ক্ষোভ  প্রকাশ করেছেন।তিনি আরো জানান এই বরাদ্দকৃত টিন দিয়ে রুঁপচাদ ধাবক  ঘরের চাল (ছাউনি) না দিয়ে অত্র গ্রামের বাঁশ তলার মোড় নামক স্থানে তার চায়ের দোকানের ছাউনি দিয়েছে। যে কারণে গ্রামবাসী হতাশা প্রকাশ করেছেন এবং প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
এই ব্যাপারে মুঠোফোনের মাধ্যমে  ঝিকরগাছার ইউএনও সুমি মজুমদার এর কাছে আম্পানে  ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিদের মাঝে বরাদ্দকৃত টিন দিয়ে চায়ের দোকান মেরামত করার কোন বিধান আছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন এটা প্রকৃত অর্থে ক্ষতিগ্রস্ত বসতঘরের জাল মেরামত করার জন্যই বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে কোন চায়ের দোকান মেরামতের জন্য নয়। 
এই ব্যাপারে অত্র ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য শফিকুল ইসলামের কাছে জানতে চাইলে তিনি দৈনিক কপোতাক্ষ নিউজ কে  জানান বিষয়টি তার জানা নেই । এমত অবস্থায় এলাকাবাসী এই ব্যাপারে দুঃখ প্রকাশ করেছেন এবং সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

অভয়নগরে পাটকল শ্রমিকদের অবস্থান কর্মসূচি ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত

অভয়নগরে পাটকল শ্রমিকদের অবস্থান কর্মসূচি ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত




মোঃ দেলোয়ার হোসেন, অভয়নগর (যশোর) প্রতিনিধি : 
অভয়নগরে রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকলের বিক্ষুদ্ধ শ্রমিকরা মিল অভ্যন্তরে অবস্থানসহ সমাবেশ করেছে। সোমবার (২৯জুন) সকালে রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল যশোর জুট ইন্ডাস্ট্রিজের  (জেজেআই) শ্রমিকরা মিল অভ্যন্তরে বেসরকারি খাতে মিল হস্তান্তরের প্রতিবাদে সকাল সাড়ে ৯টা থেকে বেলা সাড়ে ১১টা পর্যন্ত দু’ঘন্টাব্যাপী অবস্থান নিয়ে সমাবেশ করেছে। জেজেআই শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি ইকবাল হোসেন খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, জেজেআই সিবিএর সাধারণ সম্পাদক এসএম কামরুজ্জামান চুন্নু, সাবেক সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশিদ মল্লিক, বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য এমএ রশিদ, বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দলের সদস্য জনার্দন দত্ত নান্টু, বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির সদস্য গাজী নওশের আলী, এ্যাডভোকেট আবুল হোসেন, ইকবাল কবির জাহিদ, শ্রমিকনেতা গোলাম আজম মিঠু, আবদুল হামিদ প্রমুখ। বক্তারা, জাতীয় উৎপাদনশীলতা মুজুরি কমিশনের পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়নের দাবি জানান। তারা আরও জানান, সরকারি সিদ্ধান্ত পরিবর্তন না হলে আগামীকাল বেলা ২টায় মিল অভ্যন্তরে শ্রমিকরা আবারও অবস্থান কর্মসূচী পালন করবে। জেজেআই সিবিএর সাবেক সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশিদ মল্লিক জানান, বিগত ৪০বছর মিলটি লাভের মুখ দেখতে পারেনি, এর জন্য দায়ী কে? শ্রমিক নাকি ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ। বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য সরকারের প্রতি অনুরোধ জানান। সিবিএর বর্তমান সাধারণ সম্পাদক এসএম কামরুজ্জামান চুন্নু জানান, শ্রমিকদের বকেয়া পাওনাদির জন্য রাস্তায় নামতে হয়, শ্রমিকদের আজ লড়াই করে বাঁচতে হচ্ছে। নাকের কাছে মুলা ঝুঁলিয়ে আজ নয়,কাল-পরশু বলে কালবিলম্ব ঘটানো হচ্ছে। শ্রমিকরা এসব কথা আর শুনতে চায় না। তিনি অবিলম্বে শ্রমিকদের ন্যায্য দাবি মানার আহবান জানান।

মানিকগঞ্জে দারুল আরকাম মাদ্রাসার পক্ষে ধর্মপ্রতিমন্ত্রী ও সাবেক ইফা ডিজি সামীম মোহাম্মদের জন্য দোয়া মাহফিল

মানিকগঞ্জে দারুল আরকাম মাদ্রাসার পক্ষে ধর্মপ্রতিমন্ত্রী ও সাবেক ইফা ডিজি সামীম মোহাম্মদের জন্য দোয়া মাহফিল




আব্দুর রাজ্জাক                 হরিরামপুর(মানিকগঞ্জ)প্রতিনিধি :
২৯/৬/২০ইং দারুল আরকাম শিক্ষক কল্যাণ সমিতি মানিকগঞ্জ কর্তৃক আয়োজিত ধর্মপ্রতিমন্ত্রী শেখ মোঃ আব্দুল্লাহ ও ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সাবেক ডিজি শামীম মুহাম্মদ আফজাল এর রুহের মাগফিরাত কামনায় আলোচনা ও দোয়া মাহফিল সম্পন্ন হয়।

এ সময় জেলা সভাপতি হাঃ মাওঃ মোঃ জাফরুল্লাহর সভাপতিত্বে উক্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়  আলোচনা ও দোয়া মাহফিলে বক্তব্য রাখেন সহঃ সভাপতি হাঃ মাওঃ মাসউদুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ হাঃ মাও আফজাল হুসাইন সহ অন্যান্য শিক্ষকবৃন্দ দের মধ্যে থেকে সদস্য সচিব হাফেজ মাওলানা আব্দুর রাজ্জাক বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তিনি ইচ্ছা করলে আমাদের দারুল আরকাম মাদ্রাসা খুব দ্রুত প্রকল্প পাশ করতে পারেন, তাই আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কাছে আকুল আবেদন জানাই আপনার বাবা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান আলেমদের ভালোবেসে ইসলামিক ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠিত করেছিলেন আপনিও আলেমদের কে ভালোবেসে দারুল আরকাম মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠিত করেছেন অতএব আপনি দয়া করে দ্রুত প্রকল্প পাশ কারার ব্যবস্থা করে দিন, শিক্ষক দের কান্না আপনি বন্ধ করতে পারেন আপনার সমর্জি কামনা করছি। দারুল আরকাম মাদ্রাসা শিক্ষকগন আরো বলেন  ছয় মাস যাবত আমরা আমাদের বেতন না পেয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছি। অথচ এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা হচ্ছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সুতরাং আমরা প্রধানমন্ত্রীর নিকট জোড় দাবী জানাচ্ছি উক্ত প্রকল্প দ্রুত পাশ করে হাজার হাজার শিক্ষক শিক্ষিকাদের খেদমতের সুযোগ সৃষ্টি করে দেওয়ার ও দের লক্ষাধিক শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যত অনিশ্চিয়তার হাত থেকে রক্ষা করবেন। 

আরোও বক্তব্য রাখেন দারুল আরকাম শিক্ষক কল্যাণ সমিতির কেন্দ্রীয় সহঃ প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাঃ মাও মোঃ ছানোয়ার হোসেন  তিনি সাংবাদিক কে বলেন দারুল আরকাম মাদ্রাসা আধুনিক ও ধর্মীয় শিক্ষার সমন্বয়ে একটি নতুন ধারার যুগোপযোগী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, এ প্রতিষ্ঠানটি ইতি মধ্যেই গোটা বাংলাদেশে সাড়া জাগাতে সক্ষম হয়েছে। পাশাপাশি এ প্রতিষ্ঠানটির প্রতিষ্ঠাতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হওয়ায় ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উর্ধতন সকল কর্মকর্তাদের রয়েছে আন্তরিক মনভাব সুতরাং দুশ্চিন্তা করার কিছুই নাই ইনশাআল্লাহ অতি শীঘ্রই আরোও শক্তিশালী, মজবুত ও নির্ভরযোগ্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে দারুল আরকাম মাদ্রাসা আত্ম  প্রকাশ করবে।ইনশাআল্লাহ 

আলোচনা শেষে তিনি সাবেক ধর্মপ্রতিমন্ত্রী শেখ মোঃ আব্দুল্লাহ ও সাবেক ইফা ডিজি শামীম মুহাম্মদ আফজাল এর রুহের মাগফিরাত কামনা সহ চলমান দেশের করোনা ভাইরাস থেকে মুক্তি কামনায় দোয়া মোনাজাত পরিচালনা করেন।

সাংবাদিক রেহেনা আর নেই

সাংবাদিক রেহেনা আর নেই
 




সম্রাট হোসেনঃ
দৈনিক ইত্তেফাকের স্টাফ ফটো সাংবাদিক রেহেনা আক্তার আর নেই (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। সোমবার ( ২৯ জুন) সোমবার আনুমানিক সন্ধ্যা সোয়া ৬ টায় নিজ বাসায় তিনি মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৩২ বছর। তিনি দীর্ঘদিন ধরে ক্যান্সারে ভুগছিলেন। রেহেনা আক্তারের বড় ভাই ফটো সাংবাদিক ফজিত শেখ বাবু তার মৃত্যুর সংবাদটি জানান।
রেহেনা আক্তারের মৃত্যুতে ইত্তেফাকের বার্তা বিভাগের প্রধানসহ সহকর্মীরা গভীর শোক প্রকাশ করেছেন, একইসঙ্গে তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেনে।
রেহেনা আক্তার দৈনিক ইত্তেফাকের আগে পাক্ষিক অন্যান্য, বাংলা নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকমসহ বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে দক্ষতা ও সুনামের সঙ্গে কাজ করেন। গ্রামের বাড়ি ডেমরায় বাবার কবরের পাশে তাকে সমাহিত করা হবে। তার মৃত্যুতে দৈনিক কপোতক্ষ নিউজ  পরিবারের পক্ষ থেকে গভীর শোক ও  তার আত্তার মাগফিরাত কামোনা করছি।

দত্তবাড়ী হাফিজিয়া মাদ্রসায় মোহাম্মাদ নাসিমের স্বরণে আলাচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত

দত্তবাড়ী হাফিজিয়া মাদ্রসায় মোহাম্মাদ নাসিমের স্বরণে আলাচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত



 মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলাপ্রতিনিধিঃ
 ২৯ শে জুন সোমবার বিকাল ৩টায় দত্তবাড়ী হাফিজিয়া মাদ্রাসায় মরহুম নাসিমের স্বরণে আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। বাগবাটি ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড আ:লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ মইনুল ইসলাম তালুকদারের সভাপতিত্বে মরহুম নাসিমের জীবনীর উপর স্মৃতিচারণ মূলক বক্তব্য রাখেন প্রস্তাবিত মনসুর নগর থানার যুগ্ম আহব্বায়ক ও জেলা পরিষদের সদস্য গোলাম রব্বানী তালুকদার, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ও প্রস্তাবিত মনসুর নগর থানা আ:লীগের যুগ্ম আহব্বায়ক মোঃ আমজাদ হোসেন, ইউনিয়ন আ:লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, বিশিষ্ট সমাজ সেবক হাজী সাইফুল ইসলাম, প্রস্তাবিক মনসুর নগর থানা তাতীলীগের সভাপতি হাজী সাইফুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক হাজী রজব আলী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম, ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক ফরিদুল ইসলাম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। পরে মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে অত্র প্রতিষ্ঠানের মুফতি মাও: মোঃ আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ দোয়া পরিচালনা করেন। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ওযাড আ:লীগের অন্যতম সদস্য আব্দুস সাত্তার তালুকদার। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন রতনকান্দি ইউনিয়ন আ:লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ছাইদুল ইসলাম জুরান, ছোনগাছা ইউনিয়ন আ:লীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল আলম, সাধারণ সম্পাদক মোঃ মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ, ছোনগাছা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মোঃ রিমন, রতনকান্দি ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আসলাম উদ্দিন সেখ, বাগবাটি ইউনিয়নের ওযাড আ:লীগের সাধারণ সম্পাদক আজিজুর রহমান সহ বিভিন্ন ইউনিয়ন হতে আওয়ামী সহযোগী সংগঠনের সকল নেতৃবৃন্দ ও জনসাধারণ। এসময় ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হন সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রি মরহুম নাসিমের সুযোগ্য সন্তান সাবেক এমপি তানভীর শাকিল জয়। তিনি বলেন তার পরিবারে এখনও অনেকে অসুস্থ আছেন। তাদের সুস্থতা কামনা ও তার বাবার আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দেশবাসির কাছে দোয়া চান।

কৃষকেরা হতাশ অতি বৃষ্টিতে অসময়ে বন্যায় ফসলের ব্যাপক ক্ষতি

কৃষকেরা হতাশ অতি বৃষ্টিতে  অসময়ে বন্যায় ফসলের ব্যাপক ক্ষতি




 মোঃ ফিরোজ হোসাইন
  রাজশাহী ব্যুরো

 বাংলাদেশ কৃষি প্রধান দেশ যার সার্বিক উন্নয়ন কৃষির ওপরই নির্ভরশীল। করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে আরো স্থবির হয়ে পড়েছে পুরো দেশ।সাথে প্রকৃতির দুর্যোগ তো আছেই। 
বিশ্বব্যাপী জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে আমাদের দেশের আবহাওয়া অনবরত বদলে যাচ্ছে ফলে কৃষিক্ষেত্রে নানা রকম ফসলের সময়মতো উৎপাদন ব্যাহত হচ্ছে। আবহাওয়া পরিবর্তনের সাথে সাথে বাংলাদেশের কৃষির গতি ও প্রকৃতি বদলে যাচ্ছে মারাত্মকভাবে। ভৌগলিক অবস্থানের কারণেই বাংলাদেশের কৃষি প্রতিনিয়ত প্রকৃতির বৈরী পরিবেশের সাথে খাপ খাইয়ে এগিয়ে চলছে। অসময়ে খরা, বন্যার কারণে একদিকে কৃষক হারিয়ে ফেলছে অতি মূল্যবান ফসলসহ নানা জাতের বীজ অন্যদিকে মাটি হারাচ্ছে ফসল উৎপাদনশীলতা। বৈশ্বিক উষ্ণতা বৃদ্ধি তথা জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতিকর প্রভাবে প্রাকৃতিক দুর্যোগের প্রকোপ বৃদ্ধির ফলে বাংলাদেশের কৃষি নির্ভরশীল ক্ষুদ্র খামারভিত্তিক জনগোষ্ঠী সবচেয়ে বেশি ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে।
বাংলদেশের কৃষি ও কৃষকের উন্নয়ন করতে হলে কৃষির এসব সমস্যা নিরূপণ করে, খাদ্য উৎপাদন ও নিরাপত্তার লক্ষ্যে একটি দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা গ্রহণ করা আমাদের জন্য খুব জরুরি। এছাড়াও কৃষিক্ষেত্রে উন্নয়নের লক্ষ্যে টেকসই কৃষি প্রযুক্তির সম্প্রসারণ ও বৈরী আবহাওয়ার সাথে খাপ খাইয়ে পরিবেশবান্ধব কৃষি ব্যবস্থার প্রচলন প্রয়োজন। কৃষি প্রযুক্তির উন্নয়ন ও উদ্ভাবনে আমরা কিছুটা সফল হলেও প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলা করার আধুনিক প্রযুক্তির মারাত্মক অভাব এখনও রয়েছে। জলবায়ু পরিবর্তনের অভিঘাত যেমন- লবণাক্ততা, উচ্চ তাপমাত্রা, খরা কিংবা বন্যাসহিষ্ণু প্রযুক্তির অভাব লক্ষণীয় যা টেকসই কৃষি উৎপাদনের পূর্বশর্ত।
চলতি মওসুমে দেশজুরে বন্যায় ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্থের স্বীকার বন্যাকবলিত অঞ্চলের মানুষ। বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে মানুষের বাড়ি-ঘর, ফসলের ক্ষেত। এই বন্যার ফলে সারাদেশের বন্যাকবলিত অঞ্চলের মানুষ ব্যাপক ক্ষতি গ্রস্থের সম্মুখীন হয়েছেন। বন্যার পানিতে ভেসে গেছে কৃষকের বীজতলা,। হাঁটুপানিতে নেমে অসহায়ের মতো বীজতলা হতড়ানো,ও ফসল উঠানো,বর্তমানে হতাশা ছাড়া কিছুই জোটেনি কৃষকের কপালে। বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে বেশির ভাগ কৃষকের ফসল, শেষ সম্বলটুকু হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে পড়েছেন,বন্যাকবলিত অঞ্চলের কৃষক। মাঠের পর মাঠ এখনো পানির নিচে তলিয়ে আছে। অনেক জায়গায় মাঠে শুধু এখন পানিতে টইটম্বুর। 
বেশির ভাগ কৃষকের ফসল নষ্ট হয়ে যাওয়ায় তাঁদের একমাত্র সম্বল এখন চাপা দীর্ঘশ্বাস। বন্যার ক্ষয়ক্ষতি সম্পর্কে বর্ণনা করতে গিয়ে ডুকরে কেঁদে উঠছে অসহায় কৃষক।
নওগাঁর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের হিসাব অনুযায়ী, এবারের বন্যায় ১ হাজার ৮৬০ হেক্টর জমির রোপা আমনের বীজতলা, ৩ হাজার ৩০ হেক্টর জমির আউশ, ৫ হাজার ৯১২ হেক্টর জমির পাট, ২হাজার ৬৩১ হেক্টর জমির শাক-সবজি, ১৮০ হেক্টর জমির বাদাম,৮০ হেক্টর জমিতে ভুট্টা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।
নওগাঁ  জেলার তিনটি  উপজেলার ২২ টি ইউনিয়নের বেশ কিছু এলাকা বন্যাকবলিত হয়েছে। 
এরমধ্যে রোপা আমন বীজতলা, সবজি, আউশ আবাদ, পাট ও বাদাম নষ্ট হয়ে প্রায় ১০০০ হাজার কৃষক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। জেলায় ১ হাজার ৯২ টি মৎস্য খামার, পুকুর ডুবে ও পাড় ভেঙে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন, ৪০৬ জন চাষী। মাছ ও পোনা ভেসে গিয়ে ক্ষতির পরিমাণ দাঁড়িয়েছে প্রায় ৫কোটি ২ লাখ টাকা।জেলায় অনেক প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের পাঁচটি মাদ্রাসা ও একটি কলেজসহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বন্যার ও  করোনা পরিস্থিতির কারণে
বন্ধু পাঠদান বন্ধ রয়েছে।
অতিবৃষ্টি ও পাহাড়ি ঢলে নওগাঁয় সাম্প্রতিক বন্যার পানিতে নিমজ্জিত হয়ে ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হওয়ায় আর্থিকভাবে নিঃস্ব কৃষকরা। বন্যাপরবর্তী ক্ষতি পুষিয়ে নেয়ার জন্য নতুন করে জমিতে রোপণের জন্য আমন ধানের বীজ সংকট তীব্র আকার ধারণ করবে বলে ধারনা করছেন কৃষবিদরা।  কৃষকদের মাঝে এক ধরনের হাহাকার বিরাজ করছে। আত্রাই ও ছোট যমুনা নদীর পানি হু হু করে বেড়ে চলেছে।আত্রাই ও রাণীনগর উপজেলার বেশ কিছু ইউনিয়নের বন্যাকবলিত হয়েছে। এটা রোপা আউশের মৌসুম ও আমনের বীজতলা তৈরির সময়। বন্যার পানিতে নিমজ্জিত থাকায় জেলার ১৩১ হেক্টর জমির রোপা আউশ ধান ও ৬৫ হেক্টর আমন ধানের চারা পচে কালো হয়ে যাবার সম্ভবনা রয়েছে ।  সরকারি হিসাব অনুযায়ী
এসব জমিতে রয়েছে ধান,বাদাম শাকসবজিসহ বিভিন্ন ধরনের ফসল। এই নিয়ে হাজারো কৃষক চরম বিপাকে পড়েছে। বন্যার পানি দ্রুত অপসারণ না হলে পরবর্তী ফসল ঘরে তোলা নিয়ে রয়েছে শঙ্কা।
কৃষকরা জানিয়েছে,অতি বৃষ্টিতে অসময়ে এই বন্যা আমাদের ফসলের ব্যাপক ক্ষতি  হবে বন্যায় পানি ফসলের জমিতে উঠায় শ্রমিক সংকট,আর অধিক টাকা গুনতে হচ্ছে কৃষকদের। ফসল ঘরে তুলতে  যে পরিমান খরচ তাতে কৃষকেরা হতাশায় নিমগ্ন।
সরকারি হিসাব অনুযায়ী ক্ষয়ক্ষতির যে পরিমাণ এ পর্যন্ত নির্ধারণ করা হয়েছে তা সঠিক নয়। ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ আরো বেশি।