নবীনগর উপজেলা প্রেসক্লাবের কমিটি গঠন,সঞ্জয় সভাপতি জসিম সাধারণ সম্পাদক

নবীনগর উপজেলা প্রেসক্লাবের কমিটি গঠন,সঞ্জয় সভাপতি জসিম সাধারণ সম্পাদক






এস.এম অলিউল্লাহ ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

ব্রাক্ষণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলা প্রেসক্লাবের নতুন কমিটি গঠিত হয়েছে।এতে সংঘঠনটির প্রতিষ্টাতা সভাপতি সাংবাদিক সঞ্জয় সাহাকে সভাপতি ও বিগত কমিটির সভাপতি এম কে জসীম উদ্দীন কে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত করা হয়।

চলতি কমিটির মেয়াদ উত্তীর্ণ হয় আরো একমাস আগেই,তবে দেশে করোনা প্রাদুর্ভাবের কারণে সময় বিলম্বিত হলেও রবিবার সকালে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে চলতি কমিটি সাধারণ অধিবেশন ডাকা হয় নবীনগর মহিলা কলেজ অডিটরিয়ামে।

তাতে উপজেলা প্রেসক্লাবের সকল সদস্যরা উপস্থিত থেকে দেশের এই আপদকালীন সময়ে কমিটি গঠন নিয়ে ব্যাপক পরিসরে প্রস্তুতি না নিয়ে সমন্বয়ের মাধ্যমে গণতান্ত্রিকভাবে একটি শক্তিশালী গ্রহনযোগ্য ও উদার নেতৃত্ব গঠনের উপর জোর প্রস্তুতি গ্রহণ করেন।

এসময় উপজেলা প্রেসক্লাবের সকল সদস্যরা নবীনগরের চলমান বিভিন্ন বিষয় বিবেচনা করে সাংগঠনিক কাঠামোতে পরিবর্তন আনতে ঐক্যমত পোষণ করে উপজেলা প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি দৈনিক আমাদের সময় পত্রিকার নবীনগর প্রতিনিধি সঞ্জয় সাহা কে সভাপতি ও চলতি কমিটির সভাপতি দৈনিক ভোরের কাগজ পত্রিকার নবীনগর প্রতিনিধি এম কে জসিম উদ্দিনকে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে উপস্থিত সদস্যদের মধ্য থেকে প্রস্তাব আনলে সর্বসম্মতিক্রমে তারা নির্বাচিত হয়।

তাছাড়াও অন্যান পদে সকলের মতামতের ভিত্তিতে নির্বাচিত হয়েছেন সিঃ সহ সভাপতি অধ্যক্ষ মাওলানা রফিকুল ইসলাম (দৈনিক ইনকিলাব)সহ সভাপতি জহিরুল ইসলাম (দৈনিক প্রভাতী খবর)যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক খাইরুল এনাম(দৈনিক আজকের প্রভাত) সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল হাসান জাহিদ (দৈনিক বাংলার নবকন্ঠ) আপ্যায়ন সম্পাদক মনির হোসেন (দৈনিক খবরপত্র) অর্থ ও দপ্তর সম্পাদক খাইরুল ইসলাম (দৈনিক ডেসটিনি) সাহিত্য ও প্রকাশনা সম্পাদক আবু সাঈদ রাফি(দৈনিক বিশ্ব মানচিত্র) তথ্য ও প্রযুক্তি সম্পাদক আনোয়ার হোসেন (ব্রাক্ষণবাড়িয়ার কথা) কার্য্যকরী সদস্য রেজাউল করিম বাবুল মাষ্টার (দৈনিক মাতৃছায়া)খান জাহান আলী চৌধুরী(দৈনিক বাংলাদেশের খবর) মনির হোসেন (দৈনিক আলোর জগত)ওয়াহিদুজ্জামান দিপু (দৈনিক যায়যায়কাল) সহ ১৫ সদ্যসের কার্য্যকরী কমিটি গঠিত হয়েছে।

নির্বাচন কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন অধ্যক্ষ মাওলানা রফিকুল ইসলাম,খান জাহান আলী চৌধুরী ও ওহিদুজ্জামান দিপু।

উল্লেখ্য সংগঠনের বৃহত্তর স্বার্থে একতা ও সম্প্রীতির উজ্জ্বল নিদর্শন স্থাপন করে নবীনগর উপজেলা প্রেসক্লাবের সকল সদস্যরা আন্তরিকতা ও সহমর্মিতার বহিঃপ্রকাশ স্বরূপ এমন নজির সৃষ্টি করলেন।
সেখানে সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতিকে কার্য্যকরী কমিটিতে ফিরিয়ে আনতে সভাপতি ও চলতি কমিটির সভাপতিকে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্বশীল ভূমিকা রেখে সাংগঠনিক কাজে তাদের আন্তরিকতা আর একে অপরের প্রতি সম্মান প্রদর্শনের দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সাধারণ সদস্য  মাসুম মির্জা,মাহফুজ রহমান,হেদায়েত উল্লাহ, আক্তারুজ্জামান,সোহেল মিয়া,আবু সুফি,হেবজুল বাহার,রানা কিশোর।

মাগুরায় দুই ছিনতাইকারী গ্রেফতার

মাগুরায় দুই ছিনতাইকারী গ্রেফতার




মোঃকুতুবুল আলম 
মহম্মদপুর
উপজেলা সংবাদদাতা (মাগুরা,)
 
মাগুরা সদর থানার এক‌টি ছিনতাই‌য়ের ঘটনায় পু‌লিশী তৎপরতায় ছিনতাই হওয়া টাকাসহ ০২ ছিনতাইকারী‌কে গ্রেফতার করে‌ আবারও প্রশংশীত হ‌লেন মাগুরা সদর থানা পু‌লিশ।গত ১৮/০৬/২০২০ খ্রিঃ তা‌রিখ বেলা ১২:০০ ঘ‌টিকায় কু‌ষ্টিয়ার ফে‌রিওয়ালা জ‌নৈক হা‌মিদুল ইসলাম ফে‌রি করবার জ‌ন্যে মালামাল কা‌ধে সদর থানাধীন সা‌জিয়ারা এলাকায় গে‌লে অজ্ঞাত দুইজন ছিনতাইকারী তার পথরোধ ক‌রে। চাকু দে‌খি‌য়ে ছি‌নি‌য়ে নি‌য়ে যায় তার সা‌থে থাকা মালামাল বি‌ক্রির নগদ ৪০০০/= টাকা। ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী সা‌জিয়ারা এলাকার বা‌সিন্দা জ‌নৈক হা‌মিদুর রহমা‌ন ফে‌রিওয়ালা‌র টাকা ছিনতাই‌ হওয়ার বিষয়‌টি ১৮/০৬/২০২০ ত‌ারিখ মাগুরা জেলার এস‌পি ম‌হোদয়‌কে জানান।বিষ‌য়ে অবগত হ‌য়ে মাগুরা জেলা পু‌লি‌শের অ‌ভিভাবক এস‌পি জনাব খান মোহাম্মদ রে‌জোয়ান, পি‌পিএম স্যা‌র উক্ত ঘটনায় জ‌ড়িত ছিনতাইকারী‌দের সনাক্ত 

ক‌রে দ্রুত গ্রেফতার কর‌তে বি‌শেষ টিম গঠন করার নি‌র্দেশ দেন। এস‌পি স্যারের নি‌র্দেশনায় জেলার অ‌তি‌রিক্ত পু‌লিশ সুপার,জনাব মোঃ ইব্রাহীম স্যা‌রের তত্তাবধা‌নে ও‌সি সদর,জনাব জয়নাল আবেদীন স্যা‌রের গ‌ঠিত টিম সদস্য সদর থানার এসআই/ লা‌য়েকুজ্জামান, এসআই/মাসুম বিল্লাহ, এসআই/ মোঃ পার‌ভেজ ও এএসআই/ সোহাগ মিলন ঘটনাস্থ‌লের সি‌সি টি‌ভি ফুটেজ সংগ্রহ ক‌রে প্রযু‌ক্তির সহায়তায় অপরাধী‌দের সনাক্ত ক‌রে শহ‌রের বি‌ভিন্ন স্থা‌নে অ‌ভিযান ক‌রে ৯/০৬/২০২০ তা‌রিখ ঘটনায় জ‌ড়িত ১। মোঃ রিপন ইসলাম শাওন (২৬) ও ২। মোঃ ফি‌রোজ (৪০) না‌মের দুই ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করে।গ্রেফতারকৃত‌দের কাছ থে‌কে ছিনতাই হওয়া নগদ ৪০০০/= টাকা উদ্ধার করা হয়।উক্ত ঘটনায় আসামী‌দের বিরু‌দ্ধে সদর থানায় দস্যুতার মামলা রুজু ক‌রে ২১/০৬/২০২০ তা‌রিখ কো‌র্টে 

প্রেরণ কর‌লে উভয় আসামী ঘটনার দায় স্বীকার ক‌রে আদাল‌তে দোষ স্বীকা‌রো‌ক্তিমূলক জবানবন্দী প্রদান করে। অসহায় ফে‌রিওয়ালার ছিনতাই হওয়া টাকা ইদ্ধার ও ঘটনায় জ‌ড়িত শহ‌রের চি‌হ্নিত দুই ছিনতাইকারী‌কে গ্রেফতার কর‌তে পারায় সা‌জিয়ারা এলাকাবাসী পু‌লি‌শের প্র‌তি সন্তোষ প্রকাশ ক‌রে জেলা পু‌লি‌শের প্রশংসা ক‌রেন।

শিবগঞ্জে ৫ ইউনিয়নে মানবিক সহায়তা বিতরণ

শিবগঞ্জে ৫ ইউনিয়নে মানবিক সহায়তা বিতরণ





শামিম উদ্দিন চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি :চলমান করোনাভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবেলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার হিসেবে চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে মানবিক সহায়তা ও শিশুখাদ্য বিতরণ করা হয়েছে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় হতে প্রাপ্ত রোববার দুপুরে উপজেলার ছত্রাজিতপুর, নয়ালাভাঙা, ঘোড়াপাখিয়া, পাঁকা ও উজিরপুর ইউনিয়নে ৪শ’ পরিবারকে মানবিক সহায়তা ও ২শ’ শিশুর মাঝে শিশুখাদ্য বিতরণ করেছেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য ডা. সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল।

এ সময় প্রত্যেক পরিবারকে মানবিক সহায়তা হিসেবে ১ কেজি পোলাও চাল, ২ কেজি চাল, ১ কেজি আটা, ১ কেজি ডাল, ১ কেজি তেল, ১ কেজি লবণ ও ১ কেজি চিনি প্রদান করা হয়। এছাড়া শিশুখাদ্য হিসেবে সেমাই, চিনি, সূজি, দুধ ও নুডুস প্রদান করা হয়।


 
এতে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা প্রকৌশলী আরিফুল ইসলাম, ছত্রাজিতপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান শামশুল হক, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান এডু, নয়ালাভাঙা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মোস্তাকুল ইসলাম পিন্টু, ছত্রাজিতপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মশিদুল হক, নয়ালাভাঙা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আশরাফুল হকসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

শার্শায় আরো ৪ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত

শার্শায় আরো ৪ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত




তুহিন হোসেন, বেনাপোল প্রতিনিধি  : যশোরের শার্শা উপজেলায় গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আরো ৪ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে উপজেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৩৪ জন।
রবিবার (২১ জুন) শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার ইউসুফ আলী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আক্রান্তরা হলেন, বেনাপোল পৌরসভার বড় আঁচড়া এলাকার জীবন কুমার ও দূর্গাপুর গ্রামের ফারুক আহমেদ এবং শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একজন নারী স্বাস্থ্য সহকরী ও সুমন নামে একজন স্বাস্থ্যকর্মী।

শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার ইউসুফ আলী জানান, নতুন করে নমুনা সংগ্রহ করে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবে পাঠানো হয়। এতে তাদের ৪ জনের নমুনায় করোনা শনাক্ত হয়েছে। তাদেরকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রেখে চিকিৎসা সেবা দেয়া হচ্ছে। তাদের বাড়ি লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, উপজেলায় এই নিয়ে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৪ জন। এর মধ্যে ১৭ জন সুস্থ হয়েছেন। বাকিরা বাড়িতে ও হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা নিচ্ছে।

আশাশুনিতে বীজধান বেশি দামে বিক্রয়ের অপরাধে ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা আদায়

আশাশুনিতে বীজধান বেশি দামে বিক্রয়ের অপরাধে ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা আদায়





আহসান উল্লাহ বাবলু,আশাশুনি( সাতক্ষীরা) প্রতিনিধিঃআশাশুনিতে বিনা লাইসেন্সে বীজধান বেশি দামে বিক্রয়ের অপরাধে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ৩০০০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। রবিবার সন্ধ্যা ৭টায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মীর আলীফ রেজার নির্দেশে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউট ম্যাজিস্ট্রেট শাহীন সুলতানা ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনাকালে উপজেলার আনুলিয়া ইউনিয়নের মধ্যম একশরা গ্রামের ইউসুফ আলী সানার পুত্র শাহিনুর রহমানকে কৃষি বিপণন আইন ২০১৮ অনুযায়ী জরিমানা করাসহ এক বস্তা বীজধান জব্দ করা হয়। জব্দকৃত বীজধান প্রকাশ্য একই বাজারে জনসম্মুখে ওই এলাকার অসহায় ও হতদরিদ্র কৃষক কবির হোসেনকে বিনামূল্যে বিতরণ করা হয়েছে। এছাড়া সবাইকে সরকারী নির্ধারিত মূল্যে বিক্রয়ের জন্য নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন। এ সময় উপজেলা কৃষি অফিসার রাজিবুল হাসান, আশাশুনি থানার পুলিশ ফোর্স, মোবাইল কোর্ট পেশকার অফিস সহকারী মোস্তাফিজুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

টাংগাইলের সরকারী সা'দত কলেজ এর সংক্ষিপ্ত ইতিহাস ও ঐতিহ্য।

টাংগাইলের সরকারী সা'দত কলেজ এর সংক্ষিপ্ত ইতিহাস ও ঐতিহ্য।





মো.আশরাফুল ইসলাম,সরকারী সা'দত কলেজ(টাংগাইল) প্রতিনিধি:জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত "সরকারী সা'দত কলেজ" অথবা সংক্ষেপে সা'দত কলেজ'(করটিয়া), বাংলাদেশের টাঙ্গাইল সদর উপজেলার করটিয়ায় অবস্থিত একটি ঐতিহ্যবাহী কলেজ। এটি হল অবিভক্ত বাংলায় মুসলমানদের প্রতিষ্ঠিত প্রথম কলেজ। ঢাকা-টাঙ্গাইল রোডের উপরে ঢাকা থেকে ৯০ কিলোমিটার উত্তর-পশ্চিমে এবং টাঙ্গাইল থেকে ৭ কিলোমিটার পূর্বে অবস্থিত। ৩৮ একর জমির উপর প্রতিষ্ঠিত এই কলেজ জন্ম লগ্ন থেকেই বাংলাদেশের শিক্ষা উন্নয়নের ক্ষেত্রে এক অনন্য অবদান রেখে চলেছে। কলেজটি বর্তমানে বাংলাদেশ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এর অধিভুক্ত।১৯২৬ সালে আটিয়ার চাঁদ ওয়াজেদ আলী খান পন্নী পিতামহ সাদাত আলী খান পন্নীর নামে কলেজটি প্রতিষ্ঠা করেন। প্রিন্সিপাল ইবরাহিম খাঁ এই কলেজের প্রথম প্রিন্সিপাল ছিলেন। ১৯২৬ থেকে ১৯৪৭ সাল পর্যন্ত সুদীর্ঘ একুশ বছর তিনি এই পদে বহাল ছিলেন। ১৯৩৮ সালে শেরে বাংলা এ কে ফজলুল হক যখন অবিভক্ত বাংলার প্রধানমন্ত্রী হন তখন তিনি কলেজটি পরিদর্শন করতে আসেন এবং কলেজের জন্যে মোটা অঙ্কের অনুদান বরাদ্দ করেন। ঐ বছরই কলেজটি ডিগ্রি কলেজে উন্নীত করা হয়। কথিত আছে যে, শেরে বাংলার সফরের সময় করটিয়ার জনসাধারণ প্রধানমন্ত্রীর কাছে করটিয়াকে একটি আদর্শ গ্রামে পরিণত করার জন্যে আবেদন করেছিল। প্রতি উত্তরে তিনি বলেছিলেন, "করটিয়াকে আর কি করে আদর্শ করবো, এ গ্রামতো আদর্শ গ্রামেরও আদর্শ"।বর্তমানে সরকারি সা'দত কলেজ এ প্রায় ৩০,০০০ জন শিক্ষার্থী অনার্স (সম্মান ) ও পাস কোর্স সহ মাষ্টার্স এ অধ্যয়নরত আছে। বর্তমানে ১৮টি বিষয়ে অনার্স ও ১২টি বিষয়ে মাষ্টার্স কোর্স চালু আছে।নতুন করে পাঁচতলা বিশিষ্ট দুটি একাডেমিক ভবন, একটি ছাত্র হোস্টেলে, একটি ছাত্রী হোস্টেল নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। মোট পাঁচটি একাডেমিক ভবন,দুটি হিন্দু হোস্টেল, তিনটি ছেলেদের হোস্টেল, দুটি মেয়েদের হোস্টেল রয়েছে। সমৃদ্ধশালী লাইব্রেরি রয়েছে, যেখানে আছে হাতে লেখা কোরআন শরীফ সহ আর দুর্লভ সব বই। আছে কবি নজরুল এর বিশ্রাম নেওয়া সেই স্মৃতিচারণ নজরুল কুটির। দুটি মনোরম পরিবেশের পুকুর রয়েছে। বর্তমানে চারতলা ভবন বিশিষ্ট মসজিদ নির্মিত হচ্ছে। এই কলেজে রয়েছে আলাদা মেডিক্যাল হল। যেখানে ছাত্রছাত্রীদের বিনামূল্যে চিকিৎসা করা হয়ে থাকে। এছাড়া রয়েছে বিতর্ক ক্লাব, বিএনসিসি, রোভার স্কাউটস, বাঁধন ( স্বেচ্ছায় রক্তদাতাদের সংগঠন) সহ আরও অনেক সংগঠন। রয়েছে মাসিক সাহিত্য পত্রিকা।
সংগৃহীত: উইকিপিডিয়া

কুমিল্লার মুরাদনগরে সাংবাদিক বেলাল উদ্দিন আহাম্মেদ করোনায় আক্রান্ত

কুমিল্লার মুরাদনগরে সাংবাদিক বেলাল উদ্দিন আহাম্মেদ করোনায় আক্রান্ত




শাহ আলম জাহাঙ্গীর
ব্যুরো চিফ, কুমিল্লা।



কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলায় দৈনিক সমকাল পত্রিকার মুরাদনগর প্রতিনিধি বেলাল উদ্দিন আহাম্মেদসহ নতুন করে আরো  ৮জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। রবিবার বিকেলে বিষয়টি নিশ্চিত করেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার সিরাজুল ইসলাম মানিক। তাছাড়াসাংবাদিক
বেলাল উদ্দিন আহম্মেদেরর সাথে মোবাইলে কথা বলেও 
ব্যাপারটি নিশ্চিত হওয়া গেছে। দৈনিক সমকাল পত্রিকা ও দৈনিক রুপসী বাংলা পত্রিকার মুরাদনগর প্রতিনিধি এবং মুরাদনগর প্রেসক্লাবের সাধারণ সসম্পাদক বেলাল উদ্দিন আহাম্মেদ পাশাপাশি  মুরাদনগর নূরুন্নাহার বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক হিসেবে কর্মরত।


নতুন করে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত অপর ৭ জন হলেন- মুরাদনগর উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক ফয়সাল আহম্মেদ নাহিদ, উপজেলার জাহাপুর ইউনিয়নের বাখরাবাদ বাজারের অগ্রণী ব্যাংকের ম্যানেজার, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্যকর্মী ২ জন, টনকী ইউনিয়নের মাজুর গ্রামের ১ জন, বাবুটিপাড়া ইউনিয়নের দড়ানীপাড়া গ্রামের ১জন ও পাহাড়পুর এলাকার গত সপ্তাহে করোনার উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরণ করা ১জন।
এনিয়ে উপজেলায় সর্বমোট করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ২১৩ জন। 
অপরদিকে আক্রান্ত হওয়ার পর সুস্থ হয়েছেন সর্বমোট ১২৯ জন। এ পর্যন্ত উপজেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছে ১০জন। তাদের মধ্যে ৭ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে মৃত্যুর পর। বাকি ৩ জন নমুনা সংগ্রহ করার পর রিপোর্ট আসার আগেই মৃত্যুবরণ করেছেন।
 এর আগে মুরাদনগর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ নাজমুল আলম ও বাঙ্গরা বাজার থানার ওসি মো
কামরুজ্জামান তালুকদারসহ বেশ কজন পুলিশ সদস্য করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।
এবার মুরাদনগর উপজেলায় করোনায় আক্রান্ত হলেন স্থানীয় সাংবাদিক মো. বেলাল উদ্দিন আহাম্মেদ।উল্লেখ্য করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম সাংবাদিক মারা গেছেন দৈনিক সময়ের আলো নগর সম্পাদক মুরাদনগর উপজেলারই  কৃতি সন্তান রাজা চাপিতলা গ্রামের সাংবাদিক হুমায়ুন কবীর খোকন। সাংবাদিক বেলাল নিজে করোনা পজিটিভের  সংবাদ ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে সকলের কাছে দোয়া প্রার্থনা করেন। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি ১ মেয়ে ও ২ ছেলের জনক।

আশাশুনির কুল্যায় জোয়ার ভাটায় ভাসছে শ্মশান ঘাট

আশাশুনির কুল্যায় জোয়ার ভাটায় ভাসছে শ্মশান ঘাট




আহসান  উল্লাহ  বাবলু , আশাশুনি( সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি: আশাশুনি উপজেলার কুল্যা ইউনিয়নের কুল্যা রাজবংশী পাড়ার একমাত্র শ্মশান ও সমাধীস্থল বেতনা নদীর জোয়ারের পানিতে তলিয়ে যায় প্রতিদিন। পূর্ব পুরুষদের শেষ স্মৃতি সমাধীস্থল তলিয়ে যাওয়ায় শ্মশান ব্যবহার ও সমাধির কাজ বিঘ্নিত হয়ে থাকে। স্থানীয়রা জানান, হাজারও বেদনা বুকে চেপে রেখে প্রতিদিন সমাধীস্থল প্লাবিত হওয়ার দৃশ্য দু’নয়নে দেখাা ছাড়া আর কোন উপায় থাকেনা তাদের। তারা দুঃক্ষ প্রকাশ করে বলেন, অনেকে শ্মশান ও সমাধীস্থল উচু করণ সহ বাউন্ডারী ওয়াল দেওয়ার আশ্বাস দিলেও পরবর্তীতে তাদের আর কোন খোঁজ পাওয়া যায়নি। যোগাযোগ করলেও কেউ কেউ ব্যস্ত আছি বলে জানিয়ে থাকেন। রাজবংশী পাড়ার ভীম মন্ডল জানান, রাজবংশী পাড়ার সনাতন ধর্মীয় মৃত ব্যক্তিদের শেষকৃত্য করতে কোন কোন সময় শ্মশান থেকে জোয়ারের পানি নেমে যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়। জোয়ারের পানি নেমে গেলে কাদা পানিতে মরদেহের মুখাগ্নি করে শেষকৃত্য সম্পন্ন করতে হয় তাদের। এমতাবস্থায় শ্মশান ও সমাধীস্থল সংস্কারের জন্য সরকারী সহায়তা পেতে উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন রাজবংশী পাড়ার সনাতন ধর্মীয় সাধারণ মানুষ।

আশাশুনির কুল্যার অর্ধশত পরিবারকে বাড়ী থেকে বের হতে হাটু কাদা মাড়াতে হয়

আশাশুনির কুল্যার অর্ধশত পরিবারকে বাড়ী থেকে বের হতে হাটু কাদা মাড়াতে হয়




আহসান  উল্লাহ  বাবলু  আশাশুনি প্রতিনিধি: আশাশুনি উপজেলার অর্ধশত পরিবারকে নিজ বাড়ী থেকে বাইরে বের হতে হাটু কাঁদা পাড়ি দিয়ে হয়। ফলে এলাকাবাসীর মধ্যে তীব্র ক্ষোভ ও হতাশা বিরাজ করছে। কুল্যা গ্রামের রাজবংশী পাড়ার নূর আলী সরদারের বাড়ী থেকে রনজিৎ বিশ্বাসের বাড়ী পর্যন্ত এবং লিটিল পাড়ের মুদি দোকান থেকে অনন্ত সরকারের ছেলে সন্যাসী সরকারের বাড়ী পর্যন্ত রাস্তাটি কাচা। রাস্তাটি বর্ষা মৌসুমে হাটু কাদায় পরিনত হয়। রাজবংশী পাড়ার ভীম মন্ডল জানান, বাড়ী থেকে বাইরে যেতে বা বাইরে থেকে বাড়ী আসতে হাটু কাঁদা পাড়ি দিতে হয় তাদের। বাড়ীর শিশু থেকে বৃদ্ধদের পচা কাদা ঠেলে পুকুরে, দোকানে, এক বাড়ি থেকে অন্য বাড়ি, স্কুল, মাদরাসা, হাট-বাজারে যেতে হয়। গৃহিনী রাধা রানী জানান, গবাদী পশুগুলো অতি কষ্টে কাদা পার করে মাঠে পাঠাতে হয়। বাড়ীর সামনের সড়কে কাদা পানি থাকায় বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছে শিশুরা। বছরে পর বছর এলাকার সড়কগুলোর কোন পরিবর্তন হয়নি। পরিবারগুলো রয়ে গেছে অবহেলিত, দুর্দশাগ্রস্ত ও বিপদাপ্ন্ন। রাস্তাগুলো পাকাকরণ অথবা আপাতত ইটের সোলিং করতে সংশ্লিষ্ট কতর্ৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন স্থানীয়রা।

প্লাবিত হাজার হাজার মানুষের মানবেতর জীবন যাপন, ভেড়ী বাঁধ রক্ষা সম্ভব হয়নি

প্লাবিত হাজার হাজার মানুষের মানবেতর জীবন যাপন, ভেড়ী বাঁধ রক্ষা সম্ভব হয়নি




আহসান  উল্লাহ  বাবলু  আশাশুনি (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি: সুপার সাইক্লোন আম্ফানের তান্ডবে আশাশুনি উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের পানি উন্নয়ন বোর্ডের ভেড়ী বঁাধ ভেঙ্গে যাওয়ার পর এক মাস অতিবাহিত হলেও বঁাধ রক্ষা সম্ভব হয়নি। ফলে ভাঙ্গন কবলিত অসহায় মানুুষ মানবেতর জীবন যাপন করছে। উপজেলার আশাশুনি সদর, প্রতাপনগর, শ্রীউলা ইউনিয়নের ভেঙ্গে যাওয়া পাউবো’র ভেড়ী বঁাধ এখনো পুন: নির্মান সম্ভব হয়নি। কিছু স্থানে রিং বাঁধ দিয়ে সাময়িক ভাবে কিছু এলাকা রক্ষার উদ্যোগ নেওয়া হলেও তার কিছু পুনরায় ভেঙ্গে একাকার হয়ে গেছে। ফলে প্লাবিত এলাকা নদীর জোয়ার ভাটার পানি উঠানামা করায় ঘরবাড়ি, মৎস্য ঘের, জমির ফসল নিয়মিত নিমজ্জিত হয়ে যাচ্ছে। লবণাক্ত পানিতে গ্রামের পর গ্রাম নিমজ্জিত ও জলমগ্ন থাকায় মানুষ কুলকিনারা খুজে পাচ্ছেন না। খোলপেটুয়া নদী ও কপোতাক্ষ নদের জোয়ার ভাটায় এলাকা এখন একাকার হয়ে গেছে। স্কুল, মাদ্রাসা, মসজিদ, মন্দির, গবাদিপশু, খামারিদের সম্বল, জমির ফসল ও মৎস্য ঘেরের মাছ ভেসে গিয়ে মানুষকে নিঃশ্ব করে দিয়েছে। টোং ঘর বেঁধে, ভেড়ী বঁাধে কিংবা আশ্রয় কেন্দ্রে বসবাসের স্থায়ীত্ব কত দিনের হবে তা ভেবে কুলকিনারা করতে পারছেন না কেউ। পরিবারের আয়ের উৎস শেষ সম্বল মাছ ধরার নৌকায়ও কেউ কেউ বাসগৃহ করে ভাসমান বসবাস করছে। এলাকা ছেড়ে অন্যত্র চলেও গেছে কিছু কিছু পরিবার। প্রতি বছর নদী ভাঙ্গনের কবলে পড়ে ইউনিয়ন বা গ্রামের মানচিত্র পরিবর্তন হতে হতে ভিন্নচিত্রে এসে দাড়িয়েছে। প্রতি বছর বঁাধ ভাংছে এবং প্রতি বছর সাময়িক ভাবে রক্ষার লক্ষ্য নিয়ে বাঁধের কাজ করায় এলাকার মানুষ সর্বশান্ত হয়ে যাচ্ছে। সরকার সেনাবাহিনীর মাধ্যমে বঁাধ নির্মানের ঘোষণা এলাকাবাসীকে আশ্বস্থ করেছে। টেঁকসই বেড়ীবাঁধ নির্মাণের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তড়িৎ পদক্ষেপের মাধ্যকে নিয়মিত ভাঙ্গন ক্রিয়া প্রতিরোধে যথাযথ ব্যবস্থা নেবেন এদাবীএলাকাবাসী সকলের।

জাঃ বিশ্ববিদ্যালয়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল ও গ্রেপ্তারকৃতদের মুক্তির দাবি

জাঃ বিশ্ববিদ্যালয়ে  ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল ও গ্রেপ্তারকৃতদের মুক্তির দাবি


নিউজ ডেস্কঃ  
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল ও গ্রেপ্তারকৃতদের মুক্তির দাবি জানিয়েছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬০ শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের সক্রিয় ২৩ সংগঠন। 

আজ রোববার এক যৌথ বিবৃতিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা এ দাবি জানান। 

চলমান করোনা পরিস্থিতিতে যখন বাংলাদেশের নাগরিকরা হাসপাতালের সামনে চিকিৎসা সেবা না পেয়েই মৃত্যুবরণ করছে তখনই শিক্ষার্থী, শিক্ষক, সাংবাদিক, আইনজীবী, গবেষক কিংবা শিল্পী সবাইকেই বাঁধা পড়তে হচ্ছে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের শিকলে।

বিবৃতিতে তারা বলেন, ‘‘কটূক্তি’, ‘গুজব’, ‘মিথ্যা রটানো’ ইত্যাদি অজুহাতে রাষ্ট্রযন্ত্রকে নিয়োজিত করা হচ্ছে ভিন্ন ভিন্ন সত্য উচ্চারণের কণ্ঠস্বরের বিরুদ্ধে। এক্ষেত্রে রাষ্ট্রযন্ত্রের তাঁবেদারিতে এখন পিছিয়ে নেই বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনও। কিছু ক্ষেত্রে বরং তারা আরও এক ধাপ এগিয়ে।’

এই আইনে গ্রেপ্তারকৃত বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের শিক্ষক সিরাজুম মুনিরা, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক কাজী জাহিদুর রহমানের মুক্তি দাবি করেন তারা। 

একইসঙ্গে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মাহিরের বিরুদ্ধে মামলা এবং ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক জি কে সাদিককে সাময়িক বহিষ্কার করার প্রতিবাদ জানান। 

বিবৃতিতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রশৃঙ্খলা বিধিকে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের ‘কণ্ঠরোধকারী’ আইন হিসেবে উল্লেখ করে এটি বাতিলের দাবি জানানো হয়। 

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, ‘একটি গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে সরকার নাগরিকদের দ্বারা নির্বাচিত ব্যবস্থাপক মাত্র। তাই জনগণের দ্বারা নির্বাচিত সরকার ও জনপ্রতিনিধিদের কর্মকাণ্ডের মূল্যায়ন এবং সমালোচনা গণতন্ত্রের পূর্বশর্ত। এক্ষেত্রে কটূক্তি বনাম সুউক্তির বিভেদ তৈরি করে কটূক্তি দমন করতে চাওয়ার বাসনা গণতান্ত্রিক অধিকার বিরোধী।’ 

‘জনপ্রতিনিধি’ কিংবা ‘মন্ত্রীর’ সমালোচনা করার অধিকার প্রজার কাছ থেকে হরণ করার মানে হলো জনগণের মত প্রকাশের সাংবিধানিক অধিকার হরণ করা বলে ওই বিবৃতি উল্লেখ করেন তারা।

খাজরার ঝুঁকিপূর্ণ পাউবো’র ভেড়ীবাধ সংস্কারের দাবি

খাজরার ঝুঁকিপূর্ণ পাউবো’র ভেড়ীবাধ  সংস্কারের দাবি




আহসান  উল্লাহ  বাবলু, আশাশুনি ( সাতক্ষীরা) প্রতিনিধিঃ আশাশুনি উপজেলার খাজরা ইউনিয়নে ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের প্রভাবে মারাত্মকভাবে ঝুঁকিপূর্ন পানি উন্নয়ন বোর্ডের ভেড়ী বাঁধ দ্রুত সংস্কারের দাবি জানিয়েছেন সচেতন এলাকাবাসী। বর্ষা মৌসুমের ভয়াবহ ঝুঁকিতে এসব বাঁধ টিকে থাকবে কিনা এ নিয়ে এলাকার মানুষ শঙ্কিত হয়ে আছে। ২০ মে সুপার সাইক্লোন আম্ফানের তান্ডবে খাজরার কপোতাক্ষ নদে অস্বাভাবিক জোয়ারে খাজরা বাজার সংলগ্ন পাউবো’র ৭/২ নং পোল্ডারের প্রায় ৩শ হাত বাঁধে ধ্বস নেমেছিল। নদী পাড়ের বাসিন্দা দীপক সানা জানান, রাতে বাঁধের অবস্থা খারাপ দেখে খাজরা ইউপির প্যানেল চেয়ারম্যানের সহযোগিতায় ৭০ জনের মত স্বেচ্ছাসেবীর মাধ্যমে কোন রকম বাঁধটি আটকানো সম্ভব হয়েছিল। পরদিন (বৃহস্পতিবার) সকালে বাঁধটি পরিদর্শন করেন, ট্যাগ অফিসার উপজেলার পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর  আলম। এসময় প্যানেল চেয়ারম্যান জালাল মোড়ল, ইউপি সদস্য অনুপ সানা, সাইফুল ইসলামসহ গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু এখনো বাঁধটিকে টেকসই সংস্কার কাজ করা হয়নি। এলাকার মানুষ বিশেষ করে বাঁধের সাধে যুদ্ধ করে যারা প্রতিনিয়ত টিকে আছে সে সব ভুক্তভোগিরা খুবই শংকিত হয়ে পড়েছে। দীর্ঘদিনের জরাজীর্ণ ও চরম ঝুকিপূর্ণ বাঁধটি স্থায়ী ভাবে সংস্কারের ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য এলাকাবাসী উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
সাতক্ষীরা পানি উন্নয়ন বোর্ড-২ এর এসও আবুল হোসেন জানান, খাজরা ইউনিয়নের খাজরা বাজার, হরিমর্দন সুইজ গেট, গদাইপুর ভেড়ী বাঁধ ঝুঁকিপূর্ন। এসব বাঁধ পরিদর্শন করে রিপোর্ট তৈরী করেছি। আশা করি দ্রুত বাঁধগুলো সংস্কার করা হবে।

আশাশুনি হাসপাতালে ২য় ব্যাচের প্রশিক্ষণ

আশাশুনি হাসপাতালে ২য় ব্যাচের প্রশিক্ষণ




আহসান  উল্লাহ  বাবলু, আশাশুনি ( সাতক্ষীরা) প্রতিনিধিঃ  আশাশুনিতে ইলেকট্রনিক ডাটা ট্রাকিং সহ জনসংখ্যা ভিত্তিক জরায়ু-মুখ ও স্তন ক্যান্সার স্ক্রিনিং কর্মসূচির উপর রেজিষ্ট্রেশন এবং রেফারাল ব্যস্থাপনা বিষয়ক ২য় ব্যাচের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার সকাল ১০ টায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের হলরুমে ২য় ব্যাচের প্রশিক্ষণ এবং প্রশিক্ষণ শেষে ২য় ব্যাচের প্রশিক্ষণ প্রাপ্তকে সনদপত্র প্রদান করা হয়। স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের বাস্তবায়নে ৩০টি কমিউনিটি ক্লিনিকে সেবাদানকারী ৩০ জন সি এইচ সি পির অংশগ্রহণে প্রশিক্ষণ প্রদান করেন, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ সুদেষ্ণা সরকার, বিভাগীয় সমন্বয়কারী (ন্যাশনাল ভায়া সেন্টার) মোঃ দারা শিকো মোল্যা, আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ দীপন বিশ্বাস প্রমুখ।

রংপুর মেট্রোপলিটনের উপ-পুলিশ কমিশনার হলেন আশাশুনির কৃতি সন্তান আবু বকর সিদ্দিক

রংপুর মেট্রোপলিটনের উপ-পুলিশ কমিশনার হলেন আশাশুনির কৃতি সন্তান আবু বকর সিদ্দিক






আহসান উল্লাহ  বাবলু, আশাশুনি( সাতক্ষীরা) প্রতিনিধিঃ পুলিশ ট্রেনিং সেন্টার, রংপুর-এ দীর্ঘদিন সুনামের সাথে দায়িত্ব পালনরত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (পুলিশ সুপার পদে পদোন্নতি প্রাপ্ত), সাতক্ষীরা জেলার আশাশুনি উপজেলার শ্রীউলা ইউনিয়নের কৃতি সন্তান মোঃ আবু বকর সিদ্দীককে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার হিসেবে পদায়ন করা হয়েছে। পুলিশ সুপার (এসপি) পদ মর্যাদার ২১৫ জন কর্মকর্তার দপ্তরে পরিবর্তন এনেছে সরকার। জেলা এবং বিভিন্ন বিভাগে কর্মরত এসপিদের রদবদল করে গত বৃহস্পতিবার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব ধনঞ্জয় কুমার দাস স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে পিটিসি, রংপুর-এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার প্রশাসন (পদন্নোতিপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার) মোঃ আবু বকর সিদ্দীককে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার পদে পদায়ন করা হয়। মোঃ আবু বকর সিদ্দীক বাংলাদেশ পুলিশের ২১তম বিসিএস ক্যাডারের কর্মকর্তা। তিনি আশাশুনি উপজেলার শ্রীউলা ইউনিয়নের নাকতাড়া গ্রামের মনুয়ার আলী সানা ও মিসেস জরিনা খাতুন এর ছেলে। তাঁর দাম্পত্য জীবনের সঙ্গী সুরাইয়া সুলতানা ইভা। তিনি প্রজ্ঞা ও প্রমা নামের দুটি কন্যাসন্তানের জনক। আবু বকর সিদ্দিক পেশাগত জীবনে জাতিসংঘ মিশন এবং চট্টগ্রাম, পটুয়াখালী ও কুষ্টিয়ায় বাংলাদেশ পুলিশে সুনাম ও দক্ষতার সাথে দায়িত্ব পালন করেছেন। পেশাগত দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি তিনি একজন লালন গবেষক। ‘লালন মেলায় পাগলেরা ও অন্ধগলির ব্যবচ্ছেদ’ তাঁর প্রকাশিত দুটি গ্রন্থ।

ভালভাবে বেঁচে থাকতে একটি বয়স্ক কিংবা বিধবা ভাতার কার্ড চান তারা

ভালভাবে বেঁচে থাকতে একটি বয়স্ক কিংবা বিধবা ভাতার কার্ড চান তারা




মো:লাতিফুল  আজম
কিশোরগঞ্জ  নীলফামারী প্রতিনিধি:


নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নের কেশবা যুগিপাড়া গ্রামের বাসিন্দা সুভা রানী, বয়স ৭৫ বছর। স্বামী মারা গেছেন দশ বছর আগে। স্বামীর মৃত্যুর পর    তিনি বাঁশের চাই, কুলা, ডালি, খাঁচা (কৃষি যন্ত্রপাতি) ইত্যাতি তৈরী করে বাজারে বিক্রি করে জীবিকা নিবার্হ করে আসছেন। 

 বর্তমানে বয়সের ভারে তিনি অনেকটা কর্মশক্তি হারিয়েছেন। ফলে আগের মত কাজ করতে পারেননা। তাই অনেকটা অনাহারে অধার্হারে দিন কাঁটে তাঁর। অথচ তাঁর কপালে জোটেনি বয়স্ক কিংবা বিধবা ভাতার কার্ড এমনকি মেলেনি কোন সরকারী সহায়তা। ভালভাবে বেঁচে থাকার জন্য তিনি একটি বয়স্ক কিংবা বিধবা ভাতার কার্ড চান।  

সুভারানীর বলেন, আমার চার ছেলে সন্তান এর মধ্যে দুই ছেলে মারা গেছে। বাকি দুই ছেলে বিয়ে করে শশুর বাড়িতে ঘরজামাই হিসাবে রয়েছে।  আমি আমার স্বামীর ভিটায় একটি ছোট ছাপড়া ঘরে কোনরকমে বসবাস করছি। বর্তমানে করোনার কারনে আমি অনেক কষ্টে আছি। এখন পর্যন্ত কোন ধরনের সরকারী সহায়তা পাইনি।

 একই অবস্থা রণচন্ডি ইউনিয়নের সোনাখুলি গ্রামের মৃত্য শিরচান আবদালের কন্যা বামনী বেগমের। বামনী বেগমের বয়স ৬৪ বছর। বামনীর বিয়ের পর তাঁর গর্ভের কোন সন্তান সন্ততী না থাকায়  ১০ বছর আগে তাঁর স্বামী বামনীকে রেখে অন্যত্র আর একটি বিয়ে করেন। সেই থেকে বামনী জীবন বাঁচাতে মানুষের বাড়িতে ঝিয়ের কাজ করে জীবিকা নিবার্হ করে আসছেন। বর্তমানে বয়স বেড়ে যাওয়ায় বামনী আর মানুষের বাড়িতে আগের মত কাজ করতে পারেনা। বামনী অভিযোগ করে বলেন, আমার ইউনিয়নের মেম্বার ও চেয়ারম্যানের কাছে অনেক ধনার্ দিয়েছি সরকারী যে কোন একটি সহায়তার জন্য কিন্তু তারা কোন কর্ণপাত করেননি। এরকম অবস্থা বাহাগিলি ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের কবিরাজপাড়া গ্রামের মৃত্য রহিমুদ্দিনের স্ত্রী আলিজা বেগমের তিনিও একটি বিধবা ভাতার কার্ডের চান। 

এ ব্যাপারে কিশোরগঞ্জ সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আনিছুল ইসলাম আনিছ , সুভারানীর বর্তমান অবস্থার কথা স্বীকার করে বলেন, বিষয়টি আগে আমার জানা ছিলনা। এবার তাঁকে অব্যশই সরকারের বিধবা ভাতা কিংবা যে কোন সুবিধা প্রদান করা হবে। 

রণচন্ডি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোকলেছার রহমান বিমান বলেন,  বামনীর বিষয়ে খোঁজ খবর নিয়ে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

মধুপুরে মন্দিরের সামনে দেয়াল নির্মাণের প্রতিবাদে মানববন্ধন

মধুপুরে মন্দিরের সামনে দেয়াল নির্মাণের প্রতিবাদে মানববন্ধন




মো: আ: হামিদ মধুপুর টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃ

টাঙ্গাইলের মধুপুরে চৌধুরীপাড়া মন্দিরের সামনে দেয়াল নির্মাণের প্রতিবাদে মধুপুরের সনাতন ধর্মালম্বীদের আয়োজনে (২১জুন) দুপুরে মধুপুর বাসষ্টান্ড চত্তরে এক মানব বন্ধনের আয়োজন করা হয়। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন মধুপুর পূজা উৎযাপন পরিষদ কমিটির সভাপতি বাবু সুবল চন্দ্র সাহা, মধুপুর মদন গোপাল দেবত্ব ষ্টেট কার্যকরী পরিষদের সদস্য বাবু শুভ চৌহান, বংশাই পূজা উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক বিদ্যূৎ চন্দ্র ঘোষ সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। ওই সময় অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মধুপুর  কলেজ শাখার সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আকতার, পৌর ছাত্রলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি আসাদুজ্জামান আসাদ। বক্তারা বলেন মধুপুর পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের চৌধুরী পাড়ায় বংশাই নদীর উপর খাস জমিতে চৌধুরী পাড়া বংশাই পাড় শ্রী শ্রী সার্বজনীন দূর্গা মন্দিরে বিগত ৫ বছর যাবত অত্র এলাকার হিন্দু জনসাধারণ ওই মন্দিরে পূজা অর্চনা করিয়া আসিতেছেন। কিন্তু মৃত নিতাই ঘোষের পুত্র নিরঞ্জন ঘোষ এবং নয়ন ঘোষ মন্দিরের নির্মানের পর হইতে মন্দির কমিটির সাথে শত্রুতা সাধন করিয়া আসিতেছে। এছাড়াও নয়ন ঘোষ মন্দির কমিটির সদস্যদের নামে বিভিন্ন রকম মিথ্যা মামলা করিয়া আসিতেছে। নয়ন ঘোষ অত্র এলাকার হিন্দুদের দাবী উপেক্ষা করে মন্দিরে সামন দিয়ে অবৈধভাবে দেওয়াল নির্মাণ করিতেছে৷ মন্দির কমিটির সদস্যগন মন্দিরের সামনের দেওয়াল নির্মাণ করিতে নিষেধ করিলে নিষেধ অমান্য করে তারা দেয়াল নির্মানের কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। এমতাবস্থায় আমরা অত্র এলাকার অসহায় সকল হিন্দু জনসাধারণ সবাই প্রশাসনের সুদৃৃষ্টি আকর্ষন করে 
সুষ্ঠ তদন্ত করে দেয়াল নির্মান বন্ধের দাবী জানান।

সিঙ্গাপুরে আজকে নতুন ২৬২ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত

সিঙ্গাপুরে আজকে নতুন ২৬২ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত





মোঃ নাঈম শেখ, সিঙ্গাপুর প্রতিনিধিঃ     

আজকে ২১ জুন (দুপুর ১২ টা পর্যন্ত) স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেওয়া সর্বশেষ তথ্যমতে,সিঙ্গাপুরে আজকে নতুন ২৬২ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হয়েছে।সিঙ্গাপুরে এখন পর্যন্ত মোট ৪২০৯৫ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত করা হয়েছে। 

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, আজকে আক্রান্তদের মধ্যে ৩ জন সিঙ্গাপুরিয়ান বা পার্মানেন্ট রেসিডেন্স, ৬ ওয়ার্ক পাশ হোল্ডার যারা ডরমিটরির বাহিরে বাস করেন। বাকি সবাই ডরমিটরিতে বাস করেন। 
করোনাভাইরাস আক্রান্ত হয়ে ২০ জুন ৭৬৫ জন হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন।এই পর্যন্ত মোট ৩৪২২৪ জন হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন৷ 
করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এই পর্যন্ত সিঙ্গাপুরে ২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। 

এখনো ১৮৫ জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। এদের মধ্যে একজনের অবস্থা ক্রিটিকাল তাকে আইসিইউতে রাখা হয়েছে। 
২০ শে জুন সর্বশেষ তথ্যমতে ৭৩৯৮ জনের শারীরিক অবস্থা ভালো। তাদের আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।


আমার এলাকার অসহায় মানুষ যেন সব অফিসারের প্রতি সন্তুষ্ট থাকে-এমপি নাসির উদ্দীন

আমার এলাকার অসহায়  মানুষ যেন সব অফিসারের প্রতি সন্তুষ্ট থাকে-এমপি নাসির উদ্দীন





মোঃ ইকরামুল করিম সৈকত,
ঝিকরগাছা (যশোর) প্রতিনিধিঃ

যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলা খাদ্য গুদামে এল এস ডি কতৃক আয়োজিত ২০২০ মৌসুমের অভ্যন্তরীণ বোরো ধান ও চাল সংগ্রহের শুভ উদ্বোধন করেন যশোর-২(চৌগাছা-ঝিকরগাছা) আসনের মাননীয় জাতীয় সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মেজর জেনারেল (অবঃ) অধ্যাপক ডাঃ মোঃ নাসির উদ্দীন। 

শুভ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে সামাজিক দূরাত্ব বজায় রেখে এবং আমার এলাকার অসহায় মানুষ যেন আপনাদের সব অফিসারের ব্যবহারে সন্তুষ্ট থাকে সেই দিকে লক্ষ্য রেখে আপনারা আপনাদের কার্যক্রম পরিচালনা করবেন।

এসময় উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ঝিকরগাছা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুমী মজুমদার, ঝিকরগাছা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ সেলিম রেজা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান লুবনা তাক্ষী, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ পলাশ , মাগুরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক, বাঁকড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নিছার আলী, উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক অফিসার সন্দীপ কুমার দাশ, উপজেলা খাদ্য গুদাম (এল এস ডি) অফিসার প্রবোধ কুমার পাল প্রমুখ।

মাধবপুরে মন্দিরের তালা ভেঙ্গে দুঃসাহসিক চুরি,

মাধবপুরে মন্দিরের তালা ভেঙ্গে দুঃসাহসিক চুরি,





লিটন পাঠান হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ 

হবিগঞ্জের মাধবপুর পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের নোয়াগাঁও এলাকায় শ্রী শ্রী গিরি ধারী মন্দিরের পিতলের মুর্তি, বিগ্রহের গয়না সহ নগদ টাকা চুরি হয়েছে। শনিবার রাতের কোন এক সময়ে চুরির ঘটনাটি ঘটেছে বলে জানা যায়। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, প্রতিদিনের মত শনিবার রাতেও পুরোহিত মন্দিরে পুজো দেওয়ার পর তালা লাগিয়ে ঘরে চলে যান। 

রবিবার (২১-জুন) সকালে ফের তিনি, মন্দিরে পুজো দেওয়ার জন্য এসে তালা খোলার পর চুরির বিষয়টি বুঝতে পারেন। মন্দিরের তালা খোলার পর দেখা যায় সমস্ত জিনিস ওলট পালট হয়ে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে।মন্দিরের মূল ফটকের পাশে ছোট একটি দরজা আছে সেই দরজার তালা ভেঙে চোরেরা, 

মন্দিরে ঢুকে ২২কেজি ওজনের, পিতলের মূর্তি রূপার মুকুট থালা বাসন প্রণামী বাক্সের টাকা পয়সা সহ প্রায় ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকার মালামাল নিয়ে পালিয়ে যায়। জানা যায় এটি এই এলাকার একটি পুরোনো মন্দির। খবর পেয়ে রবিবার সকালে সিনিয়র সহকারী,

পুলিশ সুপার নাজিম উদ্দীন মাধবপুর। থানার পরিদর্শক (ওসি) তদন্ত গোলাম দস্তগীর আহমেদ, (এসআই-এনামুল) ও একদল পুলিশসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গকে নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। মাধবপুর থানার পরিদর্শক (ওসি) 
তদন্ত গোলাম দস্তগীর আহমেদ ঘটনার।

সত্যতা নিশ্চিত করে জানান সিনিয়র, সহকারী পুলিশ সুপার নাজিম উদ্দীন স্যার সহ আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। এ ব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে এবং পুলিশের কয়েকটি টিম কাজ করছে।

মোহাম্মাদ নাসিম স্মরনে কে সি আর আর্দশ উচ্চবিদ্যালয়ে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল

মোহাম্মাদ নাসিম স্মরনে কে সি আর আর্দশ উচ্চবিদ্যালয়ে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল
  


মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলাপ্রতিনিধিঃ
   জাতীয় চার নেতার অন্যতম শহিদ ক্যাপটেন এম মনসুর আলীর উত্তরসূরী বাংলাদেশ আ.লীগের সভাপতিমন্ডলির সদস্য ও চৌদ্দ দলের সমন্বয়ক কাজিপুরের এমপি সদ্য প্রয়াত মোহাম্মদ নাসিমের আত্মার শান্তি কামনায় কে সি আর আর্দশ উচ্চবিদ্যালয়ে এর  আয়োজনে এক আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে।
রবিবার (২১জুন) বিকেলে   কে সি আর উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উক্ত বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষ আলমগীর কবির ।  
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কাজিপুর উপজেলা চেয়ারম্যান খলিলুর রহমান সিরাজী। 
অন্যদের মধ্যে জেলা পরিষদের সদ্যস গোলাম রব্বানী তালুকদার,রতন কান্দি ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন, ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোঃ সাইদুল ইসলাম জুরান,বিপল্প হোসেন, রতন কান্দি ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সাইদুল ইসলাম,সাবেক ছাএ নেতা নুরে আলম রতন,সদর উপোজেলা আওয়ামী সেচ্ছাসেবগ লীগের ছিনিয়ার সহ সভাপতি  এম এইস মিল্টন, ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, সাধারণ সম্পদক বুলবুল আহম্মেদ ভুট্টু, আওয়ামী সেচ্ছাসেবক লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সোহেল রানা,  ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল আলীম খাঁন, ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পদক জাকিরুল ইসলাম বাবু  প্রমূখ।

সাতক্ষীরার সাবেক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মাদ ইলতুৎ এর বিদায়ী সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত

সাতক্ষীরার সাবেক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মাদ ইলতুৎ এর বিদায়ী সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত



আজহারুল ইসলাম সাদীঃ
মোহাম্মদ ইলতুৎ মিশ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) সাতক্ষীরা এর পদোন্নতি জনিত বদলী উপলক্ষ্যে বিদায়ী সংবর্ধনা দিয়েছেন জেলা পুলিশ সাতক্ষীরা। এ সময়ে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান, পিপিএম (বার) বিদায়ী পুলিশ সুপারকে ক্রেস প্রদান করেন। উক্ত বিদায়ী সংবর্ধনা ও ক্রেস্ট প্রদান অনুষ্ঠানে জেলা পুলিশের সকল ইউনিটের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

নওগাঁর আত্রাইয়ে পারিবারিক সবজি-পুষ্টির উপকরণ বিতরণ

নওগাঁর আত্রাইয়ে পারিবারিক সবজি-পুষ্টির উপকরণ বিতরণ


 

মোঃ ফিরোজ হোসাইন   
রাজশাহী ব্যুরো  
    
নওগাঁর আত্রাইয়ে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে নভেল করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে পারিবারিক সবজি-পুষ্টির উপকরণ বিতরণ করা হয়েছে।

রোববার দুপুরে উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গনে কৃষিই সমৃদ্ধি মুজিব বর্ষের অজ্ঞীকার নিরাপদ শাক-সবজি উপহার স্লোগানে উপজেলায় ২৫৬ জন ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের মাঝে বিনামূল্যে ১৪ রকমের শবজি বীজ বিতরণ করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. ছানাউল ইসলাম। এসময় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এবাদুর রহমান প্রামানিক, কৃষি অফিসার কৃষিবিদ কেএম কাউছার হোসেন,ভাইস চেয়ারম্যান শেখ হাফিজুল ও মমতাজ বেগম,আত্রাই প্রেসক্লাব সভাপতি রুহুল আমীন, উপ-সহকারী কৃষি দীজেন চন্দ্র সরকার, আয়েন আলী, কেরামত আলী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

কৃষি অফিসার কৃষিবিদ কেএম কাউছার হোসেন সাংবাদিকদের জানান বীজের পাশাপাশি প্রত্যেক কৃষক জৈব ও অজৈব সার ক্রয়, বেড়া তৈরী এবং পরিচর্যা বাবদ ১৯৩৫ শত টাকা মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে পাবেন।

নওগাঁয় রানা প্লাজায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ব্র্যাকের নগদ টাকা বিতরণ

নওগাঁয় রানা প্লাজায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ব্র্যাকের নগদ টাকা বিতরণ





মোঃ ফিরোজ হোসাইন 
রাজশাহী ব্যুরো

নওগাঁর নিয়ামতপুরে রানা প্লাজায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ব্র্যাকের নগদ টাকা বিতরণ করা হয়। রবিবার বেলা ১১টায় ব্র্যাক, নিয়ামতপুর শাখার নিজস্ব কার্যালয়ে এ টাকা বিতরণ করা হয়।

টাকা বিতরণ অনুষ্ঠানে ব্র্যাক প্রতিনিধিদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন ব্র্যাক দাবী প্রকল্পের এলাকা ব্যবস্থাপক মোঃ সাবির আলী মন্ডল, ব্র্যাক প্রগতি এলাকা ব্যবস্থাপক মোঃ রাকিবুল ইসলাম, ব্র্যাক দাবীর শাখা ব্যবস্থাপক মোঃ গোলাম মোস্তফা, ব্র্যাক বিসিইউপি শাখা ব্যবস্থাপক মামুনুর রশিদ, হিসাব ব্যবস্থাপক মোঃ নিহারুল ইসলাম এবং ব্র্যাক সামাজিক ক্ষমতায়ন প্রকল্প নিয়ামতপুর শাখার প্রতিনিধি মোঃ আহসান হাবীব।
নিয়ামতপুরে রানা প্লাজার ২৪ জন ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ২১ লক্ষ ৭৮ হাজার টাকা বিতরণ করা হয়।

নাটোর স্বাস্থ্য বিধি নিশ্চিত করতে অতিরিক্ত ভ্রাম্যমাণ আদালতে

নাটোর স্বাস্থ্য বিধি নিশ্চিত করতে অতিরিক্ত ভ্রাম্যমাণ আদালতে




রাজশাহী ব্যুরো
নাটোর পুরো জেলা জুড়ে আজ রবিবার থেকে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করবার জন্য বেশি বেশি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জেলা প্রশাসন। প্রচলিত মনিটরিংয়ের পাশাপাশি বিশেষ বিশেষ স্থানে চলবে অতিরিক্ত ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান।

ভ্রাম্যমান আদালতের সংখ্যা কয়টি হবে তা প্রকাশ না করলেও জেলা প্রশাসন জানিয়েছে অন্যান্য সময়ের চেয়ে আরো বেশি পরিমাণে চালানো হবে অভিযান। নাটোরের সব কয়েকজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সরকারি কমিশনার সহ সবাই মোবাইল টিম নিয়ে মাঠে নামাবে।

কর্ণফুলীতে বাস ট্রাক সংঘর্ষে নিহত ২ আহত কয়েকজন

কর্ণফুলীতে বাস ট্রাক সংঘর্ষে নিহত ২ আহত কয়েকজন





মোঃ আরিফুল ইসলাম। 



চট্টগ্রাম, প্রতিনিধি।
চট্টগ্রাম পিএবি সড়কের কর্ণফুলী উপজেলার  সিকলবাহায় সড়ক দুর্ঘটনায় দুইজন নিহত ও কয়েকজন আহত হয়েছেন। রবিবার (২১জুন) দুপুর  ১টায় উপজেলার সিকলবাহা কলেজ বাজার এলাকায় যাত্রীবাহী বাস ও বালুবাহী ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

প্রত‍্যক্ষদর্শিরা জানায়, শহরমুখী যাত্রীবাহী  বাস ও বিপরীতমুখী ট্রাকটি কলেজ বাজার এলাকায় আসলে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এ সময়  ঘটনাস্থলে এক জন নারী ও এক জন পুরুষ নিহত হন।

পুলিশ জানায়, নিহতদের মধ‍্যে একজন নারী ও একজন পুরুষ।তবে নিহতদের এখনো নাম পরিচয় পাওয়া  যায়নি।

বাবা দিবস

বাবা দিবস





বর্তমান বিশ্বে উদযাপিত দিবসগুলোর মধ্যে বাবা দিবস একটি। এই দিবসটি পালনের চিন্তা প্রথম ১৯০৯ সালে সনোরা স্মার্ট ডড নামক ওয়াশিংটনের এক মহিলার মাথায় আসে। কিন্তু তার এই ভাবনার কথা প্রথমে সবাই জানার পর হাস্য-রসাত্মক করে উড়িয়ে দিল। পরবর্তীতে ডডের অক্লান্ত পরিশ্রমের ফলে সে মোটামুটি পর্যায়ের সফল হয়। পরের বছর তথা ১৯১০ সালে ওয়াশিংটনের স্পোকান নামক ছোট্ট শহরে কয়েকটি সংগঠনের উদ্যোগে পালিত হলো বাবা দিবস। তারপর ১৯১৬ সালে তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট উড্রো উইলসন এই দিবসকে সমর্থন করেন। পরবর্তীতে এক সময় এটা মার্কিন আইনসভাতেও পাশ হয়। সেই থেকে বিশ্বে বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন সময় বাবা দিবস পালন হয়ে আসছে। কোথাও জুন মাসের তৃতীয় রবিবার, কোথাও ১৪ই মার্চ, কোথাও আবার ১৯শে মার্চ আবার কোথাও জুন মাসের প্রথম রবিবার। বাংলাদেশে দিবসটি পালিত হয় জুন মাসের তৃতীয় রবিবার। পিতার প্রতি সন্তানের ভালোবাসা প্রকাশ করার জন্য বিশেষভাবে উৎসর্গ করে যে দিনটি পালন করা হয় সেটাই বাবা দিবস। আসলে বাবার প্রতি ভালোবাসা প্রকাশের জন্য নির্দিষ্ট কোন দিন লাগে না। তবুও বিশেষভাবে স্মরণ রাখার জন্য আজকের এই দিনটি পালন করা হয়।   

বাবা এমন একজন প্রিয় মানুষ যার সাথে কথা বলতে হয় মেপে। ভুলচুক হলেই বকা খাওয়ার ভয়। বাবা নামের এই মানুষটি বাহিরে যত কঠিন, ভিতরে ততটাই কোমল। পরিবারের প্রধান হিসেবে নানান দায়িত্বের সামাল দিতে হয় তাকে। বাবা হওয়ার মতো গুরু দায়িত্বের কারণে তাকেই সহ্য করতে হয় বাইরের যত যন্ত্রণা। আবার তাকে ঘরের বিষয়গুলোও ভুলে থাকলে চলে না, ছেলে-মেয়েদের অন্ন, বস্ত্র, বাসস্থানের নিরাপত্তা দেওয়া সহ সুশিক্ষিত করে গড়ে তোলার দায়িত্বও থাকে তার কাঁধে। বাবা হচ্ছে সেই মানুষটি যিনি আমার-আপনার প্রয়োজন পূরণের জন্য তার প্রয়োজন বিসর্জন দেন, আমার-আপনার সুখের জীবন নিশ্চিত করার জন্য তার সুখকে বিসর্জন দেন। বাবার ত্যাগের প্রতিদান দেওয়া কখনোই সম্ভব নয় বরং অনুভব করা সম্ভব। সন্তানের ভবিষ্যতের জন্য নিজের বর্তমানকে হাসিমুখে উৎসর্গ করা এই বাবাদের আজ আলাদাভাবে স্মরণ করার দিন। 

হ্যাঁ, প্রতিদিনই বাবার জন্য ভালোবাসা। তবে আজ বিশেষভাবে বাবাকে ভালোবাসি বলার দিন। এই দিনটি আজ পুরো বাংলাদেশে পালিত হবে বিভিন্ন আয়োজনে। কেউ বাবাকে নিয়ে কেক কাটবেন, কেউ বাবাকে বই কিংবা ফুল উপহার দিবেন। আবার যারা বাবা হয়েছেন তারাও ফিরে যাবেন তাদের শৈশবে। প্রয়াত বাবার কথা চিন্তা করে নীরবে চোখ মুছবেন অনেকে। অনেকে আবার নিজের শিশুসন্তানকে বুকে জড়িয়ে ধরে বাবার দুঃখ ভুলার চেষ্টা করবেন। 

বাবাকে নিয়ে প্রতিটি সন্তানের থাকে আবেগ-অনুভূতি। আজ ফেসবুক, টুইটারসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে ভেসে উঠবে বাবাকে নিয়ে লেখা সন্তানের সেই অনুভূতিগুলো। আবার কেউ কেউ বাবাকে চিঠি লিখে বাবার প্রতি তার ভালোবাসার জানান দিবেন। প্রতিটি সন্তানের জীবনের সেই শুরু থেকে বাবাকে নিয়ে থাকে কত স্মৃতি আর ইতিহাস। যেমনটি রয়েছে আপনার কিংবা আমারও। সেই ছোটবেলায় বাবার হাত ধরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যাওয়া আবার সেখান থেকে বাড়ি ফেরা। শিক্ষাজীবনের দুপুরের সেই বিরতিতে নাস্তা খাওয়ার জন্য নিজে টাকা চাওয়ার আগেই বাবা হাসিমুখে হাতে নাস্তা কিংবা টাকা ধরিয়ে দেয়া। এরকম হাজারটা স্মৃতি মনে পড়লে আজও নীরবে বলে উঠি বাবা তোমাকে অনেক ভালোবাসি। আমার এই স্মৃতি আর অনূভুতির মতো আপনার বাবাকে নিয়ে আপনারও আছে এমন হাজারটা অনুভূতি।   

আমাদের যত আবদার আমরা শুনাই আমাদের মায়েদের কাছে। আর সেগুলো পূরণ করেন বাবা। জীবনযুদ্ধে হার না মানা এক অকুতোভয় সৈনিক বাবা। সেই বাবাদের প্রতি ভালোবাসা প্রকাশ করার পাশাপাশি আপনার আছে কতোগুলো দায়িত্বও। প্রতিটি ধর্মই সেই দায়িত্বের তাগিদ দেয়। কখনো কটু ভাষায় কথা না বলা, সর্বোচ্চ সুন্দর আচরণ দেয়া, সবসময় বাবার খোজ খবর নেয়া আর আমৃত্যু সেবা-যত্ন করাও আপনার দায়িত্ব। পবিত্র কুরআনের সূরা বনী ইসরায়েলে মহান আল্লাহ বলেন- 
"  তোমাদের রব আদেশ দিয়েছেন তিনি ছাড়া অন্য কারো ইবাদত না করতে আর বাবা-মায়ের প্রতি
সদ্ব্যবহার করতে"। 

এই দায়িত্ব পালন করার মধ্য দিয়েই প্রকাশ পাবে বাবার প্রতি আমাদের ভালোবাসা। তবেই স্বার্থক হবে বাবা দিবস। ভালো থাকুক পৃথিবীর সকল বাবা। বেঁচে থাকুক সন্তানের শ্রদ্ধা আর ভালোবাসা নিয়ে। অনেক ভালোবাসি তোমায়, বাবা। 

ফজলে রাব্বি ফরহাদ। 
শিক্ষার্থী, লোকপ্রশাসন বিভাগ,
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা।

দুই দিনের বেতনের টাকায় শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়ানোর প্রস্তাব নোবিপ্রবি শিক্ষকের

দুই দিনের বেতনের টাকায় শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়ানোর প্রস্তাব নোবিপ্রবি শিক্ষকের




নোবিপ্রবি প্রতিনিধি

চলমান করোনা মহামারীর কারণে দেশের সকল শ্রেণি- পেশার মানুষের পাশাপাশি অর্থনৈতিক ভাবে বিপর্যস্ত হচ্ছে বাংলাদেশের সকল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের অনাবাসিক শিক্ষার্থীরা। সেই প্রেক্ষিতে  নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের(নোবিপ্রবি) অনাবাসিক শিক্ষার্থীদের মেস ভাড়া সংক্রান্ত সমস্যা উত্তরণের জন্য এবং অসহায় দরিদ্র শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য  বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের দুই দিনের বেতনের টাকা প্রদান করে তহবিল গঠনের জন্য আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ এন্ড লিবারেশন ওয়ার স্টাডিজ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের ভারপ্রাপ্ত প্রভোস্ট শাহীন কাদির ভূইয়া। 

এ ব্যাপারে শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের ভারপ্রাপ্ত প্রভোস্ট শাহীন কাদির ভূইয়া বলেন, করোনা মহামারীর কারনে শিক্ষার্থীদের মেস ভাড়া সংক্রান্ত যে সংকট তৈরি হয়েছে তা নিরসনের জন্য প্রত্যেক শিক্ষকের এগিয়ে আসা উচিত, এক্ষেত্রে আমি সকল শিক্ষককে আহ্বান করছি অন্তত দুই দিনের বেতনের টাকা দিয়ে একটি তহবিল গঠন করার। 

তিনি আরো বলেন, আমরা সবাই যদি একদিন বা দুই দিনের বেতনের টাকা তহবিলে জমা দিই তাহলে সেটা ৬০০*১০০০=৬০০০০০  (ছয় লক্ষ টাকা)( সর্বনিম্ন)  আরো বেশি হতে পারে।।আর এটা আমরা যতদিন এই অবস্থা থাকবে ততদিন দিতে পারি। এক্ষেত্রে ছাত্র-ছাত্রীদের কল্যাণমূলক ফান্ডের টাকা হয়তো আমাদের সাথে প্রশাসন যোগ করতে পারে। সেই ব্যাপারে আমি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

এ ব্যাপারে নোবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. নেওয়াজ মোহাম্মদ বাহাদুর জানান,  বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মেস ভাড়া সংক্রান্ত সমস্যা নিরসনের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন কাজ করছে। আমরা আগেই বিশ্বিবদ্যালয়ের দরিদ্র শিক্ষার্থীদের আর্থিক সহায়তা করার জন্য একটি ফান্ড গঠন করে অনেক শিক্ষার্থীকে সহযোগিতা করেছি। দুই দিনের বেতনের টাকায় ফান্ড গঠনের প্রস্তাবের ব্যাপারে তিনি বলেন, এটি অন্তত সুন্দর একটি প্রস্তাব। এই বিষয়ে শিক্ষক সমিতির সকল সদস্যদের নিয়ে বসে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। তিনি বাংলাদেশ এন্ড লিবারেশন ওয়ার স্টাডিজ বিভাগের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমানের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেওয়া স্ট্যাটাসের কড়া সমালোচনা করেন। তিনি বলেন,  প্রশাসনিক পদের সম্মানী, গাড়ির তেলের টাকা, ইমপ্রেস মানির টাকা এগুলো আদৌ খরচ করা যাবে কিনা বা এটি ইউজিসির অনুমোদন সাপেক্ষ কিনা তা না জেনেই একজন শিক্ষক হিসেবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এসব নিয়ে লিখে শিক্ষার্থীদের মধ্যে বিভ্রান্তিকর পরিস্থিতি তৈরি করাটা অনুচিত বলে মনে করি।

বাবার জন্য ভালোবাসা

বাবার জন্য ভালোবাসা

নিউজ ডেস্কঃ

বাবা! বাবা শব্দটির মধ্যে বিশালতার ছোঁয়া পাওয়া যায়। পাওয়া যায় নির্ভরতার আলিঙ্গন। বাবা মানে আশ্রয়। বাবা মানে একটি বৃক্ষ। বাবা মানে এক টুকরো ছাদ। মাথার ওপর বিশাল আকাশ। বাবা কখনও সন্তানকে বুঝতে দেন না কীভাবে তিনি তার সন্তানের মুখে অন্ন জোগান দেন।



বিশ্বব্যাপী প্রতি বছর জুন মাসের তৃতীয় রোববার বিশ্ব বাবা দিবস পালিত হয়। বাংলাদেশেও এই দিবস পালিত হয়। একটি বিশেষ দিনে আমরা বাবাকে স্মরণ করি। জড়িয়ে ধরে বলি, বাবা তোমাকে ভালোবাসি। কখনও কোনো উপহার কিনে দেয়া না হলেও বাবা দিবসে বাবাকে তার পছেন্দের উপহার কিনে দেই।



বিশ্ব বাবা দিবস উপলক্ষে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে বাবাদের সঙ্গে তোলা ছবি শেয়ার করেছেন সবাই। সেই সঙ্গে বাবাকে নিয়ে প্রকাশ করেছে মনের অনুভূতি। জানিয়েছেন শুভকামনা।




বিশ্বজুড়ে বাবা দিবসকে ঘিরে সন্তানদের আগ্রহ, উৎসাহ ও উদযাপনের বৈচিত্র্যে কোনও কমতি নেই। পিছিয়ে নেই পুরান ঢাকার ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় এর শিক্ষার্থীরাও। তেমনি একজন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান বিভাগের শিক্ষার্থী আব্দুল্লাহ আল রাফি সাকিব। বাবা দিবসে জানিয়েছেন তার সেই অনুভূতির কথা।




বাবা শব্দটাই যেন আবেগ। বাবা হচ্ছে উঁচু বটবৃক্ষ, প্রখর রোদে শীতল ছোঁয়া, অন্ধকার পথের দিশা,মাথার উপর একজোড়া হাত,পায়ের নিচের শক্ত মাটি। বাবাকে আদর করে আমরা কতো নামে ডাকাডাকি করি,কিন্তু সেই বাবাকে কি একবারও মন খুলে প্রাণ খুলে ভালোবাসি বলতে পেরেছি? আমি জানি না সে এক কিসের বাধা যার কারনে বাবাকে জড়িয়ে ধরে ভালোবাসি বলতে পারি না,বাবার কাধে মাথা রেখে কাদতে পারি না? তার মানে কি এই যে বাবাকে ভালোবাসি না? অবশ্যই না, আমরা অনেকেই আছি যারা বাবাকে অনেক বেশি ভালোবাসি কিন্তু বলতে পারি না। আমরা অনেকেই অনেক সময় এই প্রশ্নের সম্মুখীন হয়ে থাকি যে তুমি কাকে বেশি ভালোবাসো? বাবাকে নাকি তোমার মা কে? আমরা অনেকেই বলে দেই মা কে ভালোবাসি কারন আমরা জানি মা কত কষ্ট করে আমাদের লালন পালন করেছে,কত কষ্ট করে ১০ মাস তার গর্ভে ধারন করে রেখেছেন কিন্তু একবার ও কি বাবার কথা আসে না? মা হচ্ছে একটা গাছের শিকর যা থেকে একটা গাছ বড় হয়,আর বাবা হচ্ছে সেই গাছের উপরের সব অগনিত পাতা যা সকল প্রতিকূল পরিবেশে গাছটিকে রক্ষা করার জন্য প্রাণ দিয়ে লরে যায়। আজ এই বাবা দিবসে সকল বাবাদের প্রতি জানাই বিনম্র শ্রদ্ধা। মায়ের কোনো তুলনা হয় না কারন যার পায়ের নিচে সন্তানের বেহেশত সেই বেহেশতের সাথে কিসের তুলনা করবেন। কিন্তু একবারও কি ভেবে দেখেছেন সেই বেহেশত পেতে আদর্শ মানুষ হিসেবে বেড়ে উঠতে যে হয় আমাদের সেই বেড়ে উঠায় ভূমিকা রাখে বাবা আমার মতে। আমার মনে হয় বাবাতো বাবাই, বাবাকে সারা জীবন ভালোবাসা উচিত। বাবার ভালোবাসা একদিন নয় প্রতিদিন। অনেকেরই বাবা নেই। যার বাবা নেই সে বুঝে বাবা না থাকার কষ্ট কি। সবাই প্রত্যেকের বাবা মা কে ভালোবাসি,তাদের বেশি বেশি সময় দেই। মনের সব দুঃখ কষ্ট তাদের সাথে শেয়ার করি। প্রতিটা দিন ই বিশ্ব বাবা ও মা দিবস হওয়া উচিত বলে আমি মনে করি। সবাইকে বিশ্ব বাবা দিবসের শুভেচ্ছা।

হবিগঞ্জ জেলায় করোনার নতুন রেকর্ড

হবিগঞ্জ জেলায় করোনার নতুন রেকর্ড





লিটন পাঠান হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি

হবিগঞ্জ জেলায় একদিনে রেকর্ড (৮১) জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো (৩৫৭) জন। একদিনে এক সঙ্গে এতো বেশি আক্রান্তের খবরে স্বাস্থ্য বিভাগও হতবাক হয়ে পড়েছে শনিবার (২০-জুন) রাতে হবিগঞ্জের ডেপুটি সিভিল সার্জন ডাঃ মুখলেছুর রহমান উজ্জ্বল জানান, 

এটি হবিগঞ্জে এ যাবৎকালে একদিনে, করোনা আক্রান্ত হওয়ার সর্বোচ্চ রেকর্ড সবাইকে আরও বেশি সচেতন হতে হবে। এছাড়া নিজে, পরিবার ও সমাজকে রক্ষা করার আর কোনো উপায় নেই।
জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ জানায়, জেলায় শনিবার একদিনে (৮১) জন করোনা আক্রান্ত হওয়ার রিপোর্ট এসেছে। আক্রান্তদের মধ্যে হবিগঞ্জ সদর উপজেলাও,

শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলাসহ ৪০ জন, মাধবপুরের ২২ জন, চুনারুঘাটের ৭জন বানিয়াচংয়ের ৬জন লাখাইয়ের ২জন, আজমিরীগঞ্জের ২জন, বাহুবলের ১জন ও নবীগঞ্জ উপজেলার ১জন রয়েছেন। এ নিয়ে হবিগঞ্জ জেলায় মোট করোনা আক্রান্ত হয়েছেন (৩৫৭) জন, সুস্থ হয়েছেন (১৫৮) জন ও মারা গেছেন (৪)জন।

মাধবপুরে এক নারীর রহস্যজনক মৃত্যু,

মাধবপুরে এক নারীর রহস্যজনক মৃত্যু,





লিটন পাঠান হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি

হবিগঞ্জের মাধবপুরে এক নারী মৃত্যু নিয়ে রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে। কি কারণে বা কি করে তার মৃত্যু হয়েছে তা নিয়ে পাওয়া গেছে পরস্পর বিরোধী বক্তব্য। কেউ দাবি করছেন বিদ্যুৎস্পৃষ্টে তার মৃত্যু হয়েছে আর কেউ বলছে পরকিয়ার কারণে সে আত্মহত্যা করেছে। তবে রহস্যজনক কারণে নিরব রয়েছে ওই নারীর পরিবার।

নিহত তানিয়া আক্তার (২৭) পাবনা জেলার আটঘরিয়া উপজেলার ষাটগাছা গ্রামের শফিক মিয়ার স্ত্রী। শফিক মিয়া মাধবপুর উপজেলার বাঘাসুরা ইউনিয়নের তাজপুর গ্রামে স্ত্রী ও সন্তানকে নিয়ে বাসা ভাড়া থাকতেন। তিনি মাধবপুর উপজেলার একটি সিরামিক্স কোম্পানীতে কর্মকত ছিলেন।

জানা যায় গত (১৭-জুন) ঘরের ভেতরে তানিয়ার লাশ দেখতে পান স্থানীয়রা। পরে তরিগড়ি করে নিহতের স্বামী, স্থানীয় ময়মুরব্বি ও বাড়িওয়ালা মিলে লাশ পাবনায় পাঠিয়ে দেন এ ঘটনায়, এলাকাবাসীদের কেউ কেউ বলছেন বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে তার মৃত্যু হয়েছে, আবার কেউ কেউ বলছেন পরকিয়ার কারণে তিনি আত্মহত্যা করেছেন।

সূত্র জানায় সেখানে বসবাস করাকালিন, সময়ে স্বামীর অনুপস্থিতিতে একই গ্রামের জনৈক যুবকের সাথে পরকিয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়েন তিনি। এ নিয়ে পারিবারিক কলহের সৃষ্টি হয় এক পর্যায়ে ওই নারী আত্মহত্যা করেন। তার মৃত্যুর পর বিষয়টি ধামাচাপা দিতে মরিয়া হয়ে উঠেন নিহতের স্বামী ও পরকিয়া প্রেমিকসহ তার পরিবার। একই সাথে বাড়িওয়ালা, স্থানীয় ইউপি সদস্য ও মুরব্বিদের ম্যানেজ করে নেয়া হয়।

এ ব্যাপারে নিহতের স্বামী শফিক মিয়ার সাথে বারবার যোগাযোগের চেষ্টা করলেও তাকে পাওয়া যায়নি।
তবে নিহতের বাবা মোঃ বাবুল মিয়া বলেন, আমাদের কাছে মেয়ের মৃত্যুর খবর আসে। সাথে সাথে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ নিয়ে আসি। তবে কি কারণে তার মৃত্যু হয়েছে তা জানতে পারিনি। তবে অনেকে বলছেন সে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা গেছেন।

নাগরপুরে স্বামী - স্ত্রী সহ ৩ জন নতুন করে করোনা আক্রান্ত!

নাগরপুরে স্বামী - স্ত্রী সহ ৩ জন নতুন করে করোনা আক্রান্ত!
  




হাসান সাদী নাগরপুর(টাংগাইল)প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলের নাগরপুরে উপজেলায় নতুন করে একজন চিকিৎসক সহ মোট ৩ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।                      আজ রোববার ২১ জুন ২০২০ খ্রি. সকালে নাগরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো.রোকনুজ্জামান খান আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
তিনি বলেন, ঢাকায় প্রেরিত নমুনার ফলাফলের মধ্যে রোববার সকালে নতুন করে ৩ জনের পজিটিভ আসে। নতুন আক্রান্তদের মধ্যে নাগরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত মেহেবুবা আক্তার নামে ১ জন নারী চিকিৎসক রয়েছেন। তিনি নাগরপুর  উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জরুরী বিভাগে সেবা দিতে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে ধারনা করা হচ্ছে। এছাড়া নাগরপুর উপজেলার দুয়াজানী গ্রামে স্বামী-স্ত্রী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।তাদের নাম হচ্ছে- কাকলী স্টোরের মালিক নিহির সাহার ছেলে মনা সাহা আর স্বামী মনা সাহার সংস্পর্শে এসে স্ত্রী লাকী সাহা করোনায় আক্রান্ত হন। তারা বাড়িতে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন।নতুন তিন জন করোনা আক্রান্ত রোগী নিয়ে নাগরপুর উপজেলায় এ পর্যন্ত মোট ৩৫ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন এবং সুস্হ হয়েছেন ১৯ জন।

না ফেরার দেশে চলে গেলেন এমপি ইসরাফিল আলমের "মা"

না ফেরার দেশে চলে গেলেন এমপি ইসরাফিল আলমের "মা"




 মোঃ ফিরোজ হোসাইন রাজশাহী ব্যুরো
 নওগাঁ-০৬(আত্রাই-রাণীনগর) এর স্থানীয় সংসদ সদস্য ও নওগাঁ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মো. ইসরাফিল আলম এমপি'র মা এসেদা রহমান ইন্তেকাল করেছেন।( ইন্নালিল্লাহে ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন)।

তিনি ছেলে মেয়ে নাতি-নাতনিসহ অনেক আত্মীয়-স্বজন ও শুভাকাঙ্ক্ষী রেখে গেছেন। গতকাল শনিবার দিবাগত রাত ২.৪৪ মিনিটে রাজধানীর মহাখালী ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তিনি করোনা রিপোর্টে নেগেটিভ ছিলেন।

তিনি দীর্ঘদিন যাবত বার্ধক্য জনিত রোগে ভুগছিলেন। হঠাৎ  নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে তিনি ইন্তেকাল করেছেন। আজ রবিবার বাদ জোহর নওগাঁর রাণীনগরের ঝিনা গ্রামের নিজ বাড়িতে জানাজা শেষে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে।

আত্মীয়-স্বজন ও শুভাকাঙ্খীদের তার আত্মার মাগফেরাত ও শান্তি কামনা করে দোয়া অনুষ্ঠিত হবে।

মমতাময়ী মায়ের মৃত্যুতে "শিরোনাম"সাহিত্য পত্রিকা  ও লেখক ফোরাম, পরিবার গভীরভাবে শোকাহত ও তার বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা ও সহানুভূতি জ্ঞাপন করছেন শিরোনাম সাহিত্য পত্রিকা'র সম্পাদক ও প্রকাশক।

আশাশুনিতে ভ্রাম্যমাণ আদালতে রেনুপোনা ধরা নেটজাল বিনষ্ট ও জরিমানা আদায়

আশাশুনিতে ভ্রাম্যমাণ আদালতে রেনুপোনা ধরা নেটজাল বিনষ্ট ও জরিমানা আদায়




আহসান উল্লাহ বাবলু, আশাশুনি ( সাতক্ষীরা)  প্রতিনিধি: 
আশাশুনিতে অবৈধভাবে নদী থেকে আহরণকৃত রেনুপোনা ধরার নেটজাল বিনষ্ট করাসহ সরকারী নির্দেশ অমান্য করায় সর্বমোট ১১ হাজার ১ শত টাকা ভ্রাম্যমান আদালতে জরিমানা করা হয়েছে। রবিবার সকাল ৮টায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মীর আলিফ রেজা ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনাকালে উপজেলার বড়দল ইউনিয়নের বড়দল বাজার ও খাজরা ইউনিয়নের খাজরা বাজারে অবৈধভাবে নদী থেকে আহরণকৃত রেনুপোনা ক্রয় করে পরিবহন করায়, রেনুপোনা আটক করে নদীতে অবমুক্ত করাসহ নেটজাল বিনষ্ট করা হয়। এবং দোষী ব্যক্তিদের ভ্রাম্যমান আদালতে ১১ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন। নদী থেকে অবৈধভাবে নেটজাল দিয়ে রেনুপোনা না ধরার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে এ বিষয়ে সচেতন করেন। এছাড়া সামাজিক দুরত্ব বজায় না রাখা এবং মাস্ক না থাকায় দুই জনকে ১ শত টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এবং মাস্ক ব্যবহার করা ও সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখার জন্য সবাইকে সচেতন করা হয়েছে বলে জানিয়েছে। এসময় উপজেলা সহকারী মৎস্য কর্মকর্তা গোলাম মোস্তফা, আশাশুনি থানার পুলিশ ফোর্স, অফিস সহকারী আব্দুর রশিদ উপস্থিত ছিলেন।

সাম্যবাদ প্রতিষ্ঠার আহ্বানে মোংলায় কবি রুদ্র'র মৃত্যু বার্ষিকী পালন

  সাম্যবাদ প্রতিষ্ঠার আহ্বানে  মোংলায় কবি রুদ্র'র মৃত্যু বার্ষিকী পালন




মোঃএরশাদ হোসেন রনি, মোংলা    
 ভালো আছি ভালো থেকো, আকাশের ঠিকানায় চিঠি লিখো গানের স্রষ্টা তারুণ্য ও সংগ্রামের দীপ্ত প্রতীক সাম্যবাদী কবি রুদ্র মুহম্মদ শহিদুল্লাহ'র ২৯তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে মোংলায় ২১ জুন রবিবার দিনব্যাপী শারীরিক দূরত্ব এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক ও সামাজিক সংগঠনের আয়োজনে নানা কর্মসুচি পালিত হয়েছে। 


রবিবার সকাল ৯টায় সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট মোংলা, রুদ্র স্মৃতি সংসদ, মোংলা সাহিত্য পরিষদ, অন্তর বাজাও, আওয়ামীলীগ-, সিপিবি-ছাত্র ইউনিয়নসহ বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে মিঠেখালি কবির সমাধিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পন করা হয়। বিকেল ৩টায় সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের মোংলাস্থ অফিসে স্মরণানুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। স্মরণানুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জোটের সভাপতি সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সাংবাদিক মোঃ নূর আলম শেখ। স্মরণানুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন প্রভাষক মাহবুবুর রহামন, প্রভাষক মনোজ কান্তি বিশ্বাস, আওয়ামীলীগ নেতা কাজী গোলাম হোসেন বাবলু,সাংবাদিক মোঃএরশাদ হোসেন রনি,      মোংলা সাহিত্য পরিষদের মোঃ মনির হোসেন, সিপিবি নেতা কমরেড নাজমুল হক প্রমূখ। এছাড়া রুদ্র স্মৃতি সংসদ, রবিবার বিকেলে কবির গ্রামের বাড়ি মিঠেখালিতে  মিলাদ মাহফিল এবং দোয়ার আযোজন করেছে। এসময় উপস্থিত ছিলেন রুদ্র সংসদের সাধারণ সম্পাদক মোঃ বিল্লাল হোসেন, ইউপি সদস্য মোঃ আবুল হোসেন, সিপিবি নেতা নাজমুল হক, যুব ইউনিয়ন নেতা মাহরুফ বিল্লাহ, ছত্তার ইজারদার, মোঃ ইমরান হোসেন খাঁন, আজিজ মোড়ল, লিটন ইজারদার প্রমূখ। করোনাকালীন দুর্যোগের কথা মাথায় রেখে এবার শারিরীক দূরত্ব বজায় রেখে সীমিত পরিসরে এসকল কর্মসুচি পালিত হয়েছে। সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের স্মরণানুষ্ঠানে বক্তারা বলেন অকাল প্রয়াত এই কবি যাবতীয় অসাম্য, শোষণ ও ধর্মান্ধতার বিরুদ্ধে কলম ধরেছেন। একই সঙ্গে  তার কাব্যের আরেক প্রান্তর জুড়ে রয়েছে স্বপ্ন, প্রেম ও সুন্দরের মগ্নতা। দেশ ও জাতির সংকটে রুদ্রের কবিতা হয়ে উঠেছে তারুণ্যের দীপ্র হাতিয়ার। সাম্যবাদী সমাজ প্রতিষ্ঠা মাধ্যমে কবি রুদ্র'র স্বপ্ন বাস্তবায়নে সকলকে এগিয়ে আসতে হবে। 

উল্ল্যেখ্য বাংলাদেশের কবিতায় অবিসস্মরণীয় এই কবির শিল্পমগ্ন উচ্চারণ তাকে দিয়েছে সত্তরের অন্যতম কবি-স্বীকৃতি। ১৯৯১ সালের ২১ জুন মাত্র ৩৫ বছর বয়সে তিনি মারা যান।

আশাশুনির বিভিন্ন এলাকায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কর্তৃক অভিযান পরিচালনা

আশাশুনির বিভিন্ন এলাকায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কর্তৃক অভিযান পরিচালনা




আজহারুল ইসলাম সাদী, জেলা প্রতিনিধিঃ

আশাশুনি উপজেলার বড়দল ইউনিয়নের বড়দল বাজার, খাজরা ইউনিয়নের খাজরা বাজারে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে অবৈধভাবে নদী হতে আহরণকৃত রেনুপোনা ক্রয় করে পরিবহন করার সময় রেনুপোনা আটক করে, নদীতে অবমুক্ত করা হয়। এসময় রেনু পোনা ধরার নেটজাল বিনষ্ট করা এবং দোষী ব্যক্তিদের জরিমানা করা হয়।
নদী হতে অবৈধভাবে রেনু পোনা ধরায় মাছের উৎপাদন হ্রাস পাচ্ছে সেকারনে সংশ্লিষ্ট সকলকে এ বিষয়ে সচেতন করা হয়।
এছাড়া সামাজিক দুরত্ব বজায় না রাখা এবং মাস্ক না পড়ায় দুই জনকে জরিমানা করে, সবাইকে সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখার জন্য সচেতন করা হয়।
আজ ২১ জুন রোববার সকালে উক্ত ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন আশাশুনি উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মীর আলিফ রেজা।
জনস্বার্থে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

ঝিকরগাছায় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষা উপকরণ ও ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ

ঝিকরগাছায় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষা উপকরণ ও ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ




মোঃ ইকরামুল করিম সৈকত 
ঝিকরগাছা (যশোর) প্রতিনিধিঃ

যশোরের ঝিকরগাছায় ২০১৯-২০২০ অর্থবছরে বার্ষিক উন্নয়ন সহায়তা তহবিল ( এডিপি ) এর আওতায় উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বেঞ্চ, ফুটবল ও শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

ঝিকরগাছা উপজেলা পরিষদের ভিডিও কনফারেন্স কক্ষে উপহার সামগ্রী তুলে দেন ঝিকরগাছা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব মোঃ মনিরুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব সুমী মজুমদার। 

এছাড়া উপস্থিত ছিলেন ঝিকরগাছা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান জনাব সেলিম রেজা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জনাব লুবনা তাক্ষী, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার এ এস এম জিল্লুর রশিদ। এছাড়াও  বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

ব্রেকিং নিউজ

ব্রেকিং নিউজ




*** ২৪ ঘণ্টায় ১৫৮৮৫ নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত ৩৫৩১
*** দেশে করোনায় আরও ৩৯ জনের মৃত্যু, মোট প্রাণহানি ১৪৬৪
*** করোনায় দেশে মোট আক্রান্ত ১ লক্ষ ১২ হাজার ৩০৬
*** গত ২৪ ঘণ্টায় পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্ত ২২.৬৬ শতাংশ
*** ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ ১০৮৪ করোনা রোগী, মোট সুস্থ ৪৫০৭৭
*** গত ২৪ ঘণ্টায় মৃতদের মধ্যে পুরুষ ৩৫, নারী ৪

বিশিষ্ট সাংবাদিক ও কলামিস্ট আবুল কালাম আজাদ পরিকল্পিত ষড়যন্ত্রের স্বীকার : এ,জেড,এম মাইনুল ইসলাম পলাশ

বিশিষ্ট সাংবাদিক ও কলামিস্ট আবুল কালাম আজাদ পরিকল্পিত ষড়যন্ত্রের স্বীকার : এ,জেড,এম মাইনুল ইসলাম পলাশ




মোঃ আওলাদ হোসেন 
জেলা প্রতিনিধি ভোলা (দৌলতখান) 

হিংসা,গীবত, পরশ্রীকাতরতা আর অন্যের মান হানি এগুলো এখনকার সমাজে প্রতি রন্ধ্রে রন্ধ্রে অনুপ্রবেশ করছে।বর্তমান বিশ্ব করোনার মত মহামারীতে যখন পুরো পৃথিবী স্তব্ধ, তখনও বসে নাই এই কুচক্রী মহল।
ইতোমধ্যে আমরা দেখেছি একটি কুচক্রী মহল কিভাবে আমাদের খুবই পরিচিত ভাই আবুল কালাম আজাদ ভাইকে বিভিন্ন রকম ট্যাগ লাগিয়ে কত ভাবে হেনস্থা করতে চেষ্টা করেছে। সাম্প্রতিক দৈনিক একটি পত্রিকার বরাত দিয়ে যে ঘৃন্য অপপ্রয়াসে লিপ্ত হয়েছিল সেই পত্রিকার সম্পাদক অবশেষে তার ভুল স্বীকার করেছেন।
বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম BMSF এর কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক, বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টারস সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক, জাতীয় দৈনিক আলোকিত সকাল পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক এবং অনলাইন এডিটরস কাউন্সিলের কার্যকরী সভাপতি আবুল কালাম আজাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা অপবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন ক্রাইম প্রতিদিন পত্রিকার সম্পাদক ও অপরাধ মুক্ত বাংলাদেশ চাই (অমুবাচা) সংগঠনের চেয়ারম্য্যান এ জেড এম মাইনুল ইসলাম পলাশ।

শুক্রবার (১৯/০৬/২০) এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, শ্রদ্ধেয়ভাজন, সিনিয়র সাংবাদিক আবুল কালাম আজাদ ভাই পরিকল্পিত ষড়যন্ত্রের স্বীকার। আবুল কালাম আজাদ ভাইকে আমি ব্যক্তিগত ভাগে যতটুকু চিনি এবং জানি তিনি সততা, নিষ্ঠা, সত্যপরায়নতা ও অন্যায়কারীর বিরুদ্ধে সোচ্চার, তিনি সত্য নিষ্ঠাবান সাংবাদিকদের অহংকার, অপসাংবাদিকতার বিরুদ্ধের রুখে দাড়ানোর সাহসী যোদ্ধা।


 
তিনি আরো বলেন, আবুল কালাম আজাদ ভাইয়ের নাম ও দৈনিক সময়ের আলো পত্রিকার পদবী ব্যবহার করে যেই ফোন নম্বরে বিভিন্ন মহল থেকে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে তা পরিকল্পিত ষড়যন্ত্র ও অপপ্রচার।কারন ঐ একই ফোন নম্বর ব্যবহার করে বিগত দিনেও দৈনিক মানব জমিন পত্রিকার পদবী ব্যবহার করে সোচ্চার ছিল এই চক্র (মোবাইল নাম্বার দিয়ে প্রতারনা)। যা ইতিমধ্যে প্রমানিত হয়ে গেছে। সুতরাং সাংবাদিক আবুল কালাম আজাদ ভাইয়ের বিরুদ্ধে পরিকল্পিত ষড়যন্ত্র ও অপপ্রচারের সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানাচ্ছি।

কুড়িগ্রামে মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান চলমান

কুড়িগ্রামে মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান চলমান




 মোঃইয়ামিন সরকার আকাশ।
কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ

জেলা_গোয়েন্দা_শাখা(ডিবি) , সদর ও ফুলবাড়ি থানার অভিযানে মাদকসহ ৪ জন গ্রেফতার। 

ডিবি কু‌ড়িগ্রা‌মের এক‌টি টিম রাজারহাট ধানাধীন বৈ‌দ্যের বাজার এলাকায় মাদক বি‌রোধী অ‌ভিযান প‌রিচালনা করে ৫১ পিস ইয়াব‌া ট্যাব‌লেট ও ০২ বোতল ফেন‌সি‌ডিল সহ মোঃ আইয়ুব , পিতা_মৃত আছমত আলী, ছত্র‌জিৎ, রাজারহাট, কু‌ড়িগ্রাম কে গ্রেফতার ক‌রে। মামলা রুজু করে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়। 

ফুলবাড়ী থানা এলাকায় মাদকদ্রব্য উদ্ধার অভিযান করিয়া  ৩নং ফুলবাড়ী ইউনিয়নের উত্তর কুটিচন্দ্রখানা গ্রাম হইতে ৩০ ( ত্রিশ) পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট সহ আসামী ১। মোঃ মোজফ্ফর (৩০) ২। মোঃ আশিক রহমান (১৭) দ্বয়কে গ্রেফতার  করা হয়। মামলা রুজু ও বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়।।

কুড়িগ্রাম সদর থানার অভিযানে  পৌর এলাকার সাব্দির মোড়  হতে  মোহাম্মদ আনিসুর রহমান(৩৭) কে ৮.৭৫ গ্রাম হেরোইনসহ গ্রেফতার করা হয়েছে। 
মামলা রুজু করে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয় ।

টাংগাইল "এসএসসি ৯৬ ব্যাচ" বন্ধু মহলের পক্ষ থেকে পদোন্নতি পাওয়া রাজিব ও পলাশ কে অভিনন্দন ও ফুলেন শুভেচ্ছা।

টাংগাইল "এসএসসি ৯৬ ব্যাচ" বন্ধু মহলের পক্ষ থেকে পদোন্নতি পাওয়া রাজিব ও পলাশ কে অভিনন্দন ও ফুলেন শুভেচ্ছা।


    
                  
ডা.এম.এ.মান্নান টাংগাইল জেলা প্রতিনিধি:
টাংগাইল এসএসসি ব্যাচ- ৯৬ ও এইচএসসি ব্যাচ- ৯৮ বন্ধু মহল থেকে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ(ডিএমপি)তে ডেপুটি পুলিশ কমিশনার পদে মো.রাজিব আল মাসুদ ও ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ এর সিআইডি বিভাগের সিনিয়র পুলিশ কর্মকর্তা পদে মো.গোলাম বেনজির পলাশ পদোন্নতি পাওয়ায় সকল বন্ধু মহল থেকে  অভিনন্দন ও শুভেচ্ছায় সিক্ত হলেন।

তাদের দুজনের সংক্ষিপ্ত জীবনী ও কর্মজীবন উল্লেখ করা হইলো--        
                                                রাজিব আল মাসুদ                            --------------------------
রাজিব আল মাসুদ সাতক্ষীরা জেলা এক মুসলিম পরিবারে জম্মগ্রহন করেন। তিনি বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস ২৫ তম বিসিএস পুলিশ বিভাগের ক্যাডার অন্তভুক্ত হয়ে সহকারি পুলিশ সুপার(এএসপি) হিসেবে ২০০৬ সালে কর্মজীবন শুরু করেন। বর্তমানে ডিএমপিতে পদোন্নতি পেয়ে ডেপুটি পুলিশ কমিশনার হিসাবে কর্মরত আছেন তিনি তার কর্মক্ষেত্রে অবদানের জন্য পুরস্কার স্বরুপ চারবার আইজি পদক পেয়েছেন।         
             
গোলাম বেনজির পলাশ                      ----------------------------------                    গোলাম বেনজির রাজবাড়ি জেলার এক মুসলিম পরিবারে জম্মগ্রহন করেন। তিনি বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস ২৫ তম বিসিএস পুলিশ বিভাগের ক্যাডার অন্তভুক্ত হয়ে সহকারি পুলিশ সুপার(এএসপি) হিসাবে ২০০৬ সালে কর্মজীবন শুরু করেন।বর্তমান ঢাকা পুলিশের সিআইডি বিভাগের ডেপুটি পুলিশ কমিশনার হিসাবে কর্মরত আছেন। তার অবদানের জন্য চারবার আইজি পদক পেয়েছেন।  

এদিকে বন্ধু রাজিব আল মাসুদ ও গোলাম বেনজির পলাশের পদোন্নতি সংবাদ শুনেই টাংগাইলে এসএসসি ৯৬, এইচএসসি ৯৮ ব্যাচের সকল বন্ধুদের মাঝে আনন্দে ও উল্লাস লক্ষো করা যাচ্ছে। সকল বন্ধুরা মনে করেন আমরা নিজেরা বড় পদে না যেতে পারলেও আমাদের সফলতার কোন ঘাটতি নেই কারন আমরা সবাই একজোট, আমরা বন্ধু মহল সব সময় একে উপরে পাশে এসে দাড়াই,সবাই মিলে আনন্দ উপভোগ করি। বন্ধু মাসুদ ও পলাশ পুলিশের অনেক বড় অফিসার হয়েছে এটাই আমাদের পরিচয়। এটাই আমাদের ব্যাচের সফলতা। আমরা বন্ধু দুজনের সব দিক থেকে সফলতা কামনা করি এবং টাংগাইলের বন্ধু মহল থেকে অভিনন্দন ও ফুলে শুভেচ্ছা জানান।মাসুদ ও পলাশের ছাত্রজীবনের কথা স্বরন করে বলেন,তারা দুজন অনেক মেধাবী ও ভদ্র,সৎ,বন্ধুপ্রেমীক ছিলেন যার প্রমান তাদের পদোন্নতি।তারা এতো বড় সরকারের অফিসার ও ক্ষমতাশালী হয়েছেন দেখলে তাদের কেউ মনে করবে না। তারা দুজন আমাদের সাথে আগের চেয়ে বেশী যোগাযোগ রাখার চেষ্টা করে, তারা নিজেদের জীবনের চেয়ের দেশের মাটি ও মানুষের বেশী গুরুত্ব দেয় তারই প্রমান হিসাবে বর্তমান সরকার তাদেরকে পদোন্নতি মাধ্যমে সম্মানিত ও উপহার হিসাবে সম্মামনা স্বারক প্রদান করেন।         
                                                 ৯৬,৯৮ ব্যাচের শিক্ষার্থী, টাংগাইলের নাগরপুর বাড়ি,বিশিষ্ট মেডিসিন ব্যবসায়ী ও সফল গনমাধ্যম কর্মী, প্রিয় বন্ধুপ্রেমীক মো.কবীর হোসেন জানান--আমরা ৯৬,৯৮ ব্যাচ সারা বাংলাদেশে ঐক্য আছি। আমাদের ব্যাচ সম্পর্কে সারা দেশ অবগত। বর্তমান করোনা প্রার্দুভাবে সারা দেশ অচল হয়ে পড়েছে। এই কঠিন সময়ে আমাদের সাধ্যঅনুযায়ী করোনা প্রতিরোধে বিভিন্ন কর্মসৃচী হাতে নিয়েছি এবং বাস্তবায়ন করছি। আমাদের ব্যাচের অনেক বন্ধু বান্ধব সরকারি,বেসরকারি বিভিন্ন দপ্তরে অনেক গুরুত্বপৃর্ন পদে সম্মানের সহিত দায়িত্ব পালন করে আসছে যার প্রমান আমাদের প্রিয় বন্ধু মাসুদ ও পলাশের কর্মজীবনে পদোন্নতি লাভে কারন তারা দুজন অত্যন্ত মেধাবী ও চৌকস। যদি তা না হত পুলিশ বিভাগের মত এতো গুরুত্বপৃর্ন পদে পদায়ন হতো না। তারা দুজন বিপিএম সহ একাধিকবার আইজি পদক পেয়েছেন তাদের কর্মক্ষেত্রে ব্যাপক সফলতা ও অবদান রাখায়। আমি একজন বন্ধু হিসাবে মাসুদ ও পলাশের সার্বিক সফলতা কামনা করি এবং নাগরপুর তথা টাংগাইল জেলা বন্ধু মহলের পক্ষ থেকে অভিনন্দন ও ফুলেল শুভেচ্ছা জানাচ্ছি পাশাপাশি মহান আল্লাহ দরবারে শুকুরিয়া জ্ঞাপন করছি,আলহামদুলিল্লাহ। এবং দোয়া প্রার্থনা করছি আল্লাহ যেন তোমাদের দুজন সহ সকল বন্ধুদের সকল দিক থেকে সফলতা ও মংগল দান করেন,আমিন।

সূর্যগ্রহণ (Solar Eclipse 2020) কী এবং এ সময় যা যা করণীয়

সূর্যগ্রহণ (Solar Eclipse 2020) কী এবং এ সময় যা যা করণীয়




মোঃ আওলাদ হোসেন
জেলা প্রতিনিধি ভোলা (দৌলতখান) 

আজ ২১ জুন বিরল পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণের (Solar Eclipse 2020) সাক্ষী হতে চলেছে বিশ্ব।৷ 

আজকের (২১ জুন) সূর্যগ্রহণটি ২০২০ সালের প্রথম সূর্যগ্রহণ৷ তারপরের গ্রহণটি হবে ১৪ ডিসেম্বর৷ সাধারণত চন্দ্রগ্রহণের আগে বা পরে সূর্যগ্রহণ হয়৷ সেই ১৯৯৫ সালের স্মৃতি উস্কে ফের দেখা যাবে আগুনে আংটি বা রিং অফ ফায়ার৷ এই বিশেষ সূর্যগ্রহণ বিভিন্ন কারণে খুবই গুরুত্বপূর্ণ।সবার আগে বলি, 'রিং অফ ফায়ার' খুবই বিরল একটা দৃশ্য।চন্দ্রমা সূর্যের ৯৯.৪% গ্রাস করবে।

#সময়:
আজ সকাল ৯:১৫ থেকেই সরু হয়ে গেছেে আংশিক সূর্য গ্রহণ। 
প্রথম পূর্ণগ্রাস সূর্যগগ্রহণ দেখা যাবে: ১০:১৭:৪৫
গ্রহণের চূড়ান্ত সময়টি হল: ১২:১০:০৪
পূৰ্ণগ্ৰাস সূর্য গ্রহণ শেষ হবে: ১৪:০২:১৭
আংশিক সূর্য গ্রহণের শেষ সময়: ১৫:০৪:০১

#Solar Eclipse 2020: 'রিং অফ ফায়ার' বলতে যা বোঝায়:

এই বিশেষ সূর্যগ্রহণ বিভিন্ন কারণে খুবই গুরুত্বপূর্ণ।সবার আগে বলি, 'রিং অফ ফায়ার' খুবই বিরল একটা দৃশ্য।চন্দ্রমা সূর্যের ৯৯.৪% গ্রাস করবে। নাসার মতে তা পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণের সামনে। এছাড়া  গ্রীষ্মের সংক্রান্তির দিনই পড়েছে এই গ্রহণ, কারণ ২১ জুন দিন সবচেয়ে বড়ো হয়। ১৯৩৮ সালে এই ঘটনা ঘটেছিল, তারপর ২০২০-তে দেখা যাচ্ছে এই দিনে সূর্য গ্রহণ। এরপর ২০৩৯-এ এই সংযোগ পুনরায় দেখা যাবে।

#সূর্য গ্রহণের সময় যা যা খাওয়া যাবে: 
সাধারণত বলা হয়, সূর্য গ্রহণের সময় জল বা কোনও খাবার খাওয়া উচিত না। তবে বিজ্ঞানীরা বহু বছর ধরে চলে আসা এই প্রথার ওপর কাজ করে চলেছেন। নিউট্রিশনিস্ট এবং ম্যাক্রোবায়োটিক হেলথ কোচ শিল্পা অরোরা মনে করেন, এটা এমন একটা সময় যখন আপনি নিজের পরিপাক তন্ত্রসহ শরীর ও মাথাকেও আরাম দেন।''এই সময়টা-তে প্রচুর শক্তির সৃষ্টি হয় সেই সঙ্গে দৃঢ় কম্পন দেখা যায়। সূর্য গ্রহণের সময় ধ্যানে মগ্ন থাকা ও শান্ত থাকাটা খুবই জরুরি।''

খাদ্য আমাদের জীবনের একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয় সেটাকে অস্বীকার কোনও জায়গা নেই।  তাই হয় আমার খাবার খাব বা আগে থেকেই খাওয়া হয়ে যাবে। তবে বিশেষজ্ঞরা মনে করেন গ্রহণের সময় হালকা কিছু খাবার খাওয়াটা ভালো।

যদিও সূর্যগ্রহণের সময় খাবার না খাওয়ার রীতি আছে৷ কিন্তু বিজ্ঞানী, যুক্তিবাদীরা বরাবরই এই রীতির বিরোধিতা করেছেন৷ গ্রহণের সময় সহজপাচ্য খাবার ও ফলের রস খান,পরামর্শ দিচ্ছেন ডায়েটিশিয়ানদের একাংশ৷ হেলথ কোচ শিল্পা অরোরা মনে করেন, ''নিজের শরীরকে আরাম দেওয়ার জন্য হালকা তরল পানীয়, শেক ও জুস্ পান করতে পারেন। পৃথিবীর কম্পন শক্তি এই সময় বেশি থাকার জন্য আপনি লাভবান হবেন ও মানসিক দিক দিয়েও স্বচ্ছতা লাভ করতে পারবেন।

#সূর্যগ্রহণে শরীরের উপর কোনও প্রভাব পড়ে?
এ ধরনের গ্রহণের সময় হাই এনার্জি, ভাইব্রেশন তৈরি হয় বলছেন বিজ্ঞানী এবং চিকিৎসকরা৷

#২১ জুন, ২০২০ কেন ডুমস ডে?
মায়া সভ্যতার ক্যালেন্ডারের ভবিষ্যৎবাণী অনুযায়ী, জুন ২০২০ তে পৃথিবী ধ্বংস হয়ে যাবে৷ মায়ান ক্যালেন্ডারে খ্রিস্টপূর্ব ৩১১৪ সালে পৃথিবীর সৃষ্টি হয়েছে৷ জুলিয়ান ক্যালেন্ডার অনুযায়ী, সেই দিনটা ৬ সেপ্টেম্বর, ৩১১৪ সাল৷ মায়া সভ্যতার ভবিষ্যৎবাণী অনুযায়ী পৃথিবীর আয়ু ৫১২৬ বছর৷ মায়া সভ্যতার ভবিষ্যৎবাণী, অনুযায়ী ২১ ডিসেম্বর, ২০১২ সালে পৃথিবী ধ্বংস হয়ে যাওয়ার কথা ছিল৷ কিন্তু তা হয়নি৷ জুলিয়ান ক্যালেন্ডার অনুযায়ী সেটাই ২১ জুন, ২০২০৷


মোঃ মাঈনুল হাসান
   সহকারী শিক্ষক 
শহীদ আরজু মনি সরকারি উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়,বরিশাল।

কালীগঞ্জ মেইন বাসস্ট্যান্ডে ‌‌''শিপন কম্পিউটার'' দোকানে চুরির ঘটনায় জড়িত দুই আসামী গ্রেফতার

কালীগঞ্জ মেইন বাসস্ট্যান্ডে ‌‌''শিপন কম্পিউটার'' দোকানে চুরির ঘটনায় জড়িত   দুই  আসামী গ্রেফতার






খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার, ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধি। 



২০ জুন  রাত্রীবেলা মোবাইল ফোন ট্রাকিং এর মাধ্যমে ঝিনাইদহ জেলার কালীগঞ্জ থানা পুলিশের একটি চৌকশ দল অভিযান পরিচালনা করে মামলার সহিত জড়িত আসামী ১। জনি মন্ডল(২১), পিতা-মৃত ইকবাল হোসেন, পালিত পিতা-পলাশ মন্ডল, সাং-পিরোজপুর, এপি/সাং-নিশ্চিন্তপুর, ২। ময়না বেগম(৩৭), স্বামী-পলাশ মন্ডল, সাং-আড়পাড়া দরগাপাড়া, এপি/সাং-নিশ্চিন্তপুর, উভয় থানা-কালীগঞ্জ, জেলা-ঝিনাইদহ'দ্বয়কে নিশ্চিন্তপুর গ্রামস্থ তাহাদের বসত বাড়ী হইতে গ্রেফতার করা হয় এবং তাহাদের হেফাজত হইতে চোরাই ৭৪,০০০/-টাকা, ০৫টি মোবাইল ফোন এবং দোকানের তালা ভাঙ্গার কাজে ব্যবহৃত লোহার ছোট লিবার সহ চুরি কাজে ব্যবহৃত বিভিন্ন আলামত উদ্ধার করা হয়।

মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ টাঙ্গাইল জেলা শাখার সহ-সভাপতি নির্বাচিত হলেন নাগরপুরের কৃতি সন্তান আবিদ হাসান

মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ টাঙ্গাইল জেলা শাখার সহ-সভাপতি নির্বাচিত হলেন নাগরপুরের কৃতি সন্তান আবিদ হাসান




হাসান সাদী,নাগরপুর(টাঙ্গাইল)প্রতিনিধিঃ
২০ জুন সংগঠনটির কেন্দ্রীয় কমিটি টাঙ্গাইল জেলা শাখার কমিটি অনুমোদন দিলে সেখানে টাংগাইল জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য আবিদ হাসান কে সহ-সভাপতি পদে দায়িত্ব দেয়া হয়। বাংলার স্বাধীনতা অর্জণের অগ্রগামী মাধ্যম রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধ। তাই মুক্তিযুদ্ধের উজ্জীবিত নিবেদিত প্রাণ মুক্তি সংগ্রামের ইতিহাস কে নতুন প্রজন্মের কাছে পৌছে দিতে প্রবীণদের সার্বিক প্রচেষ্টার আরেক নাম “মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ” তারই ধারাবাহিকতায় মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় সকলে মুক্তি সংগ্রামের স্মৃতিকথা তুলে ধরতে গঠন করা হয়েছে টাংগাইল জেলা কমিটি। মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ কেন্দ্রীয় কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক আগামী দুই বছরের জন্য টাংগাইল জেলা শাখা কমিটি অনুমোদন দেয়া হয়েছে। আজ ২০-০৬-২০২০ তারিখ ইং মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ কেন্দ্রীয় কমিটির প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের কেন্দ্রীয় কমিটির মুখপাত্র আ. ক. ম জামাল উদ্দীন সাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে শামীম কবির রাসেল কে সভাপতি এবং তুষার তালুকদার কে সাধারণ সম্পাদক করে কেন্দ্রীয় কমিটির অনুমোদন দেয়া হয়। সাধারণ সম্পাদক – তুষার তালুকদার সহ সভাপতি-মেহেদী হাসান কামরুল সহ সভাপতি-নাজমুল হাসান বিপ্লব উপ প্রচার সম্পাদক-জুয়েল হিমুকে নির্বাচিত করায় ধন্যবাদ জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের কেন্দ্রীয় কমিটির মুখপাত্র আ. ক. ম জামাল উদ্দীনকে । নিচে কমিটির পূর্ণকমিটির তালিকা দেয়া হলো। সভাপতি-শামীম কবির রাসেল সহ সভাপতি – ফিরোজ অর রশিদ সহ সভাপতি-আসাদুজ্জামান আসাদ সহ সভাপতি-মনোয়ার হোসেন হীরা সহ সভাপতি-মেহেদী হাসান কামরুল সহ সভাপতি-নাজমুল হাসান বিপ্লব সহ সভাপতি-আবিদ হাসান সহ সভাপতি-মোঃহ্নদয় সহ সভাপতি-গোপাল সেন সহ সভাপতি-মাহমুদুল হাসান সাধারণ সম্পাদক-তুষার তালুকদার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক – রুবেল খান যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক-রনি সিকদার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক-হাফিহুর রহমান সাগর যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক-ইসতিয়াক আহমেদ মারুফ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক-মতিয়ার রহমান সজীব যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক-সায়দুর রহমান খান রাসেল যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক-তোফায়েল আহমেদ তুহিন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক-মোঃআল সাব্বির তালহা সাংগঠনিক সম্পাদক – জুয়েল রানা সাংগঠনিক সম্পাদক-বায়জিদ মোহন সাংগঠনিক সম্পাদক-আরিয়ান পাভেল সাংগঠনিক সম্পাদক-নাহিদ হাসান জয় সাংগঠনিক সম্পাদক-মুহিবুর রহমান ইয়াসিন দপ্তর সম্পাদক – আনান উপ দপ্তর সম্পাদক-তোফায়েল আহমেদ নয়ন প্রচার সম্পাদক-তানভীর আহমেদ কৌশিক উপ প্রচার সম্পাদক-জুয়েল হিমু সাংস্কৃতিক সম্পাদক – শরৎ খান গ্রন্থ প্রকাশনা সম্পাদক -মিরন উপ গ্রন্থ প্রকাশনা সম্পাদকউজ্জল মাহমুদ রানা সাহিত্য সম্পাদক -মির্জা সায়েম আনোয়ার বিশাল উপ সাহিত্য সম্পাদক-সবুজ শিক্ষা ও পাঠচক্র বিষয়ক সম্পাদক-মীর রিয়াত হোসেন উপ শিক্ষা ও পাঠচক্র বিষয়ক সম্পাদক-ইমদাদুল হক সজিব সদস্য – জীবন তালুকদার, আলামীন শিকদার, মোঃসোহেল রানা, মোঃআমিনুর, সৈয়দ রুবি হোসেন তাওহীদ, মোঃআক্তারুজ্জান,সানোয়ার শিকদার,মোঃশফিকুল ইসলাম জয়,সোয়ায়েব ইসলাম অন্ত,উজ্জ্বল আল মামুন,বাস্তব ঘোষ, ফারুক ওয়াহিদ স্বাধীন, মোঃইলিয়াস হোসেন,শাহরিয়ার রিফাত,সিফাত তালুকদার,শাহীনুর রহমান শাহীন,মোফাজ্জল আহমেদ মায়া,জয় সরকার,মোঃশাওন সরকার,মোঃআমিনুর,মিঠুন মিঠু, মোঃরুবেল হোসাইন,নাহিদ আহমেদ রিপন,তৌহিদুল আলম নয়ন,রেজাউল করিম হ্নদয়,মোঃইব্রাহীম খলিল,মোঃলিমন মিয়া,ফাহিম আহমেদ লিমন, মোঃপারভেজ খান, আনিসুর রহমান, নাহিদ তালুকদার, রানা হাসান পিয়াস, আবু বকর,সবুজ মিয়া,মোঃশামীম আহমেদ,মোঃপারভেজ,মোঃইমন খান,মোঃরাসেল মিয়া শুভ,মোঃরিফাদ,সামি আলম,সামিনখান,মোঃহাসিব,মোঃবাধন,মোঃমাহিম লিমন, মোঃইমন

দিনাজপুরে সিডিসির উদ্যোগে কোভিড- ১৯ মোকাবেলায় সচেতনতা, লবি ও এ্যাডভোকেসী কার্যক্রম বাস্তবায়ন

দিনাজপুরে সিডিসির উদ্যোগে কোভিড- ১৯ মোকাবেলায় সচেতনতা,  লবি ও এ্যাডভোকেসী কার্যক্রম বাস্তবায়ন





দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ কোভিড- ১৯ মহামারীর সময়ে শিশুর খাবার ও পুষ্টি বার্তা বিষয়ক লিফলেট এবং করোনা ভাইরাস  কোভিড- ১৯) প্রতিরোধে পুষ্টিবার্তা ও কোভিড- ১৯ সংক্রমণে সম্ভাব্য/আক্রান্ত মায়েদের স্তন্যদান বিষয়ক তথ্য সম্বলিত দুই প্রকারের পোষ্টারের মাধ্যমে দিনাজপুর জেলার সদর উপজেলার ০৯টি ইউনিয়ন পরিষদ ও ১টি পৌরসভায় কোভিড- ১৯ মোকাবেলায় সচেতনতা,  লবি ও এ্যাডভোকেসী কার্যক্রম বাস্তবায়ন করা হয়। কার্যক্রমটি ১৪-২০ জুন ২০২০ মেয়াদে বাস্তবায়িত হয়। ইকো সোসাল ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন (ইএসডিও) এর সহযোগিতায় ইকো কো-অপারেশন/সেভ দ্যা চিলড্রেন এর অর্থায়নে সিএসএ ফর সান এর জিসি মেম্বার অর্গানাইজেশন কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট সেন্টার (সিডিসি), দিনাজপুর উক্ত কার্যক্রমটি বাস্তবায়ন করেন। সিএসএ ফর সান এর জেনারেল কমিটির মেম্বার ও সিডিসির নির্বাহী পরিচালক যাদব চন্দ্র রায়ের নেতৃত্বে দুই দিন ব্যাপি কার্যক্রম বাস্তবায়নে সহযোগিতা করেন সিডিসির কর্মসূচি সহকারী সত্যেন্দ্র নাথ রায়, সাপোর্ট স্টাফ, মোঃ হারুনুর রশিদ, সত্যেন্দ্র নাথ রায় (গুতু) এবং কম্পিউটার অপারেটর রাজেশ রায়। উক্ত কর্মসূচির ফলে কর্ম এলাকার বিপুল সংখক নারী, পুরুষ, শিশু, কিশোর-কিশোরী সহ গর্ভবতি মা ও প্রসুতি মা এবং তৃনমূল পর্যায়ের জনমানুষ কোভিড- ১৯ মহামারী প্রতিরোধে সচেতন হয়েছে।

দিনাজপুর প্রেসক্লাবে রাস্তা বন্ধ করে বহুতল ভবন নির্মাণের অভিযোগে দুই ভাইয়ের পাল্টা সংবাদ সম্মেলন

দিনাজপুর প্রেসক্লাবে রাস্তা বন্ধ করে বহুতল ভবন নির্মাণের অভিযোগে দুই ভাইয়ের পাল্টা সংবাদ সম্মেলন





দিনাজপুর প্রতিনিধি ॥ ২১ জুন রোববার দিনাজপুর প্রেসক্লাবে শহরের মধ্য বালুবাড়ী মহল্লার মৃত ইউসুফ আলীর পুত্র মোঃ শওকত আলী রাজু ও মোঃ কুরবান আলী রানা এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, রাস্তা বন্ধ করে বহুতল ভবন নির্মাণের অভিযোগে মৃত লোকমান আলীর কন্যা লায়লা বানু ও শাহিনুর যে সংবাদ সম্মেলন করেছে তা মিথ্যা, বানোয়াট ও ভীত্তিহীন। এতে আমাদের মান সম্মানের হানী হয়েছে। উক্ত সংবাদ সম্মেলনে দুই বোন আরো বলেছে, ১৭৮ দাগে মৌখিকভাবে বন্টনের মাধ্যমে ৪ শতক করে জায়গা পাওয়ার কথা থাকলেও তারা ২শত ৪ লিংক জায়গা পেয়েছে। পক্ষান্তরে রেজিষ্ট্রী কবালা দলিল নং- ৩৮১০ মূলে ২২/১১/১৯৪৬ সালে মোছাঃ হাসনা বানু সিতা রাম বুনিয়ার কাছ থেকে ক্রয় করেন। আমার পিতা মৃতঃ ইউসুফ আলী ১৩/০৬/১৯৬৩ সালে মোছাঃ হাসনা বানুর কাছ থেকে খতিয়ান নং-৬০, দাগ নং-১৭৭, রকম-বাস্তু, পরিমাণ-০৪০০একর জমি ক্রয় করে নেয়। যার খাজনা খারিজ আমার পিতার নামে রয়েছে। দুই ভাই আরো বলেন, আমরা ০.০৪০০একর জমির মধ্যে রিয়েল এস্টেট কোম্পানীর দিনাজপুর ডেভেলপমেন্ট লিমিটেড (ডিডিএল) এর সাথে বহুতল ভবন নির্মাণের জন্য চুক্তিবদ্ধ হই। ডেভেলপার নিয়মনীতি মেনে উক্ত জায়গায় বহুতল ভবন নির্মাণের কাজ শুরু করেছে। অথচ দুই বোন ভিত্তিহীনভাবে সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে মামলা দায়ের করে। রিয়েল এস্টেড কোম্পানী দিনাজপুর ডেভেলপমেন্ট লিমিটেড (ডিডিএল) তাদের চলাচলের রাস্তা বন্ধ না করে আমাদের নিজস্ব জায়গায় ভবন নির্মাণ কাজ করছে। উল্টো আমাদের জায়গায় তারা জোরপূর্বক বাড়ী, গেট ও ড্রেন নির্মাণ করে ৫ফিট ১০ইঞ্জি জায়গা দখল করে আসছে। তারা ডেভেলপারের নামে বিভিন্ন ধরনের অপপ্রচার চালাচ্ছে। যা আমাদের মান সম্মান হানী করছে। আগামীতে তারা আমাদের বিরুদ্ধে এবং ডেভেলপারের বিরুদ্ধে এ ধরনের অপপ্রচার না করতে পারে সেজন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

দিনাজপুরে বাক প্রতিবন্ধী শিশুদের মাঝে সেনাবাহিনীর খাদ্যসামগ্রী বিতরণ

দিনাজপুরে বাক প্রতিবন্ধী শিশুদের মাঝে  সেনাবাহিনীর খাদ্যসামগ্রী বিতরণ





দিনাজপুর প্রতিনিধি : মুজিব বর্ষ উপলক্ষে বাংলাদেশ সেনিাবাহিনী দিনাজপুর বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ও অটিস্টিক বিদ্যালয়ের প্রতিবন্ধী শিশুদের মাঝে উপহার হিসেবে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করলেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ১৬ পদাতিক ব্রিগেডের অধিনে ৬৬ পদাতিক ডিভিশনের ফোর হর্স ।
মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে আজ রবিবার দিনাজপুর বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ও অটিস্টিক বিদ্যালয়ের প্রতিবন্ধী ৫০ জন গরিব অসহায় ও প্রতিবন্ধী শিশুদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন ১৬ পদাতিক ব্রিগেডের অধিনে ৬৬ পদাতিক ডিভিশনের ফোর হর্স ইউনিটের লেফটেনেন্ট আসিফ। খাদ্যসামগ্রী মধ্যে ছিল চাল,ডাল,তেল,আটা,চিনি ও সেমাই। 
করোনা ভাইরাসে সেনাবাহিনীর খাদ্যসামগ্রী সহায়তা প্রদান অব্যাহত থাকবে। ৬৬ পদাতিক ডিভিশনের ফোর হর্স ইউনিটের পক্ষ থেকে করোনা ভাইরাসের শুরু থেকে অসহায়,দুস্থ্য ও কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী সহায়তা প্রদান করে আসছেন।
অসহায়দের মাঝে ত্রাণ বিতরণের সময় উপস্থিত ছিলেন দিনাজপুর বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ও অটিস্টিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো:আবুল শাহনেওয়াজ।

ঝিনাইদহ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বেতন ও মেস ভাড়া মওকুফ করার দাবিতে জেলা ছাত্রদলের স্মারকলিপি

ঝিনাইদহ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বেতন ও মেস ভাড়া মওকুফ করার দাবিতে জেলা ছাত্রদলের স্মারকলিপি





খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার, ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধি। 



ঝিনাইদহ  সকল সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বেতন ও মেস ভাড়া মওকুফ করার দাবিতে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীদের পক্ষে জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছেন ঝিনাইদহ জেলা ছাত্রদলের দনেতৃবৃন্দ। রবিবার  সকাল ১০টায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ঝিনাইদহ  জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে এ স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।
ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীদের পক্ষে স্মারকলিপি দেন ঝিনাইদহ জেলা ছাত্রদলের  সভাপতি এস, এম সমিনুজ্জামান সমিন,সাধারণ সম্পাদক মুশফিকুর রহমান মানিক, সে সময় আরো উপস্থিত ছিলেন   সিনিয়র সহ সভাপতি মিরাজুল ইসলাম, সহ সভাপতি মেহেদী হাসান, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব মিলু, সাংগঠনিক শাহিদুর রহমান সাহেদ সহ জেলা ছাত্রদলের বিভিন্ন ইউনিটের নেতৃবৃন্দ৷ স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়, চলমান করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সরকারি ভাবে ঘোষণা দিয়া হয়েছে করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। এমতাবস্থায়ই ঝিনাইদহ জেলাশসহ বিভিন্ন উপজেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বেতন ও ছাত্রমেস/বাসা ভাড়া নিয়ে হাজারও শিক্ষার্থী বিপাকে পড়েছে।স্মারকলিপিতে আরও বলা হয়, করোনা পরিস্থিতিতে গত ২০ মার্চ থেকে ছাত্রমেস ভাড়া মওকুফ করার জন্য মেস মালিকদের সাথে সমঝোতার বিষয়টি বিবেচনা করার জন্য অনুরোধ জানান ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দরা।

আশাশুনিতে পুলিশের অভিযানে ৪ জুয়াড়ী গ্রেফতার

আশাশুনিতে পুলিশের অভিযানে ৪ জুয়াড়ী গ্রেফতার
 




আহসান উল্লাহ বাবলু আশাশুনি ( সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি:

আশাশুনিতে থানা পুলিশের বিশেষ অভিযানে ৪ জুয়াড়ীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মাদ গোলাম কবির এর নেতৃত্বে শনিবার রাত ৯টার দিকে আশাশুনি থানা এলাকায় আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা, গ্রেফতারী পরোয়ানা তামিল ও বিশেষ অভিযান পরিচালনাকালে এসআই মোঃ বিল্লাল হোসেন শেখ, এএসআই মোঃ মিলন হোসেন সঙ্গীয় ফোর্সের সহায়তায় গোপন সংবাদরে ভিত্তিতে প্রকাশ্যে টাকার বিনিময়ে তাস দ্বারা জুয়া খেলার অপরাধে ফকরাবাদ গ্রামের মৃত আঃ বারি গাজীর পুত্র, বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতিবাজ ইউপি সদস্য রুহুল আমিনের ভাই মোঃ নুরুল আলমকে গ্রেফতার করেন। একই গ্রামের মৃত মুন্সি মুনছুর আলী বিশ্বাস এর পুত্র মোঃ মজিবর বিশ্বাস সোবহান গাইনের পুত্র মোঃ জাহিদ গাইন এবং কাদাকাটি ইউনিয়নের তেঁতুলিয়া গ্রামের আলাউদ্দীন এর পুত্র বজলুর রহমানকে উপজেলার বড়দল ইউনিয়নের ফকরাবাদ গ্রামের মৃত সাবহান গাজীর পুত্র মোশারফ গাজীর বাড়ি থেকে গ্রেফতার করেন। এসংক্রান্তে আশাশুনি থানায় জুয়া আইন এর ১২(৬)২০২০ মামলা রুজু করে। গ্রেফতারকৃত আসামীদেরকে রবিবার সকালে  সাতক্ষীরা জেলর বিজ্ঞ আদালতে বিচারার্থে প্রেরণ করা হয়েছে।

ভোলার বোরহানউদ্দিনে জ্বীনের বাদশা ওরফে ইয়াবা ডন আজাদ মাদকসহ গ্রেফতার

ভোলার বোরহানউদ্দিনে জ্বীনের বাদশা ওরফে ইয়াবা ডন আজাদ মাদকসহ গ্রেফতার




মোঃ আওলাদ হোসেন 
জেলা প্রতিনিধি ভোলা (দৌলতখান)। 

দেশের এই কঠিন পরিস্থিতিতেও কোন ক্রমেই কমছে অপরাধ প্রবনতা।
 বোরহানউদ্দিনের অপরাধ জগতের ডন,মাদক ব্যবসায়ী জ্বীনের বাদশা আজাদকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাসেলুর রহমানের নেতৃত্বে পরিচালিত এক অভিযানে জ্বীনের বাদশা আজাদ হাওলাদারকে ইয়াবা ও গাঁজাসহ গ্রেফতার হয়। শনিবার  গভীর রাতে পরিচালিত ওই অভিযানে আজাদকে কাচিয়া ইউনিয়নের  কুঞ্জেরহাট বাজার থেকে  আটক করা হয়।গ্রেফতারকৃত আজাদ ফুলকাচিয়া ৫ নং ওয়ার্ডের মোফাজ্জল হোসেন এর ছেলে। এ ব্যাপারে স্থানীয় থানায় মাদক আইনে একটি মামলা হয়েছে।
বোরহানউদ্দিন থানাসূত্রে জানা যায়,শনিবার রাতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, লালমোহন সার্কেল জনাব, মোঃ রাসেলুর রহমান, এর উপস্থিতিতে এসআই মোঃ রেজাউল করিম, সংগীয় অফিসার ও ফোর্সদের সহায়তায়  কাচিয়া ইউনিয়নের  কুঞ্জের হাট এলাকার উল্লেখিত স্থানে মাদক উদ্ধার অভিযান পরিচালনা  করা হয়। এ সময় আজাদ হাওলাদার নামক জ্বীনের বাদশাকে গ্রেফতার করা হয়। পরে  তার অফিসে তল্লাশী চালিয়ে ৫১ পিচ ইয়াবা ও ২০ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করা হয়। 
এলাকাবাসী জানায়,গ্রেফতারকৃত আজাদ একজন জ্বীনের বাদশা।প্রতারণামূলক এ ব্যবসার মাধ্যমে সে অনেককে নিঃস্ব করেছেন।তার রয়েছে বিশাল বাহিনী।ইতিপূর্বে সে র্য্যাব,ডিবি পুলিশের অভিযানে একাধিকবার গ্রেফতার হয়েছে।
বোরহানউদ্দিন থানার অফিসার ইনচার্জ মুু.এনামুল হক জানান,আজাদ অপরাধ জগতের একজন ডন।জ্বীনের বাদশা আজাদ একজন মাদক ব্যবসায়ী।তার বিরুদ্ধে একাধিক ওয়ারেন্ট আছে।
গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্বে বোরহানউদ্দিন থানায় মাদক মামলা রুজু করা হয়েছে।