সিনহা মো. রাশেদ খান হত্যামামলার তদন্ত ঘিরে বাহিনীগুলোর মধ্যে কোনো সমন্বয়হীনতা নেই

সিনহা মো. রাশেদ খান হত্যামামলার তদন্ত ঘিরে বাহিনীগুলোর মধ্যে কোনো সমন্বয়হীনতা নেই


নিউজ ডেস্কঃ  র‌্যাবের মহাপরিচালক চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন বলেছেন, সিনহা মো. রাশেদ খান হত্যামামলার তদন্ত ঘিরে বাহিনীগুলোর মধ্যে কোনো সমন্বয়হীনতা নেই।

অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা খুনের ঘটনায় পুলিশের বিরুদ্ধে করা এই মামলার তদন্তকারী সংস্থার প্রধান আল মামুন সোমবার বিকালে হত্যাকা-স্থল পরিদর্শন শেষে একথা বলেন।

র‌্যাবের মহাপরিচালক বলেন, অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মো. রাশেদ খান হত্যা মামলার তদন্ত ‘অত্যন্ত গুরুত্ব ও পেশাদারিত্বের’ সঙ্গে করছে র‌্যাব।

“তদন্ত কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে যা যা করা প্রয়োজন করা হচ্ছে।”

এরই অংশ হিসেবে এ পরিদর্শন জানিয়ে আল মামুন বলেন, “আমি নিজেই অত্যন্ত গুরুত্বের সাথে এই মামলার তদন্ত কার্যক্রম তদারকি করছি। অত্যন্ত পেশাদারিত্বের এই সিনহা হত্যা মামলার তদন্ত কার্যক্রম চলছে।

“এই ঘটনা নিয়ে বাহিনীগুলোর মধ্যে কোনো সমন্বয়হীনতা নেই। সুষ্ঠুভাবে তদন্ত কার্যক্রম চলছে।”

গত ৩১ জুলাই কক্সবাজারের টেকনাফে তল্লাশি চৌকিতে পুলিশের গুলিতে প্রাণ হারান অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা, যা ব্যাপক আলোড়ন তোলে।

সিনহা গুলি করতে উদ্যত হলে পাল্টা গুলি চালানো হয় বলে প্রথমে পুলিশের পক্ষ থেকে দাবি করা হলেও তা নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। সাবেক সেনা কর্মকর্তারা সরাসরি পুলিশ কর্মকর্তাদের দায়ী করেন।

এই প্রেক্ষাপটে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে পুলিশ, সেনাবাহিনী ও প্রশাসনের প্রতিনিধিদের সমন্বয়ে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

এর মধ্যে সিনহার বোন নয়জন পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে হত্যামামলা করলে আদালতের নির্দেশে র‌্যাব তার তদন্তের দায়িত্ব নিয়ে আসামি পুলিশ সদস্যদের রিমান্ডে নেয়।

এই পরিস্থিতিতে গত ৫ আগস্ট সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ এবং পুলিশপ্রধান বেনজীর আহমেদ কক্সবাজার পরিদর্শন করে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে তারা বলেছিলেন, এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে উসকানি দিয়ে সেনাবাহিনী ও পুলিশের মধ্যে সম্পর্কে যেন কেউ চিড় ধরাতে না পারে, সেজন্য সবাইকে সজাগ থাকতে হবে।

র‌্যাব কর্মকর্তারা জানান, আল মামুন অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা হত্যার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করতে কক্সবাজার বিমানবন্দর থেকে বিকাল ৪টার দিকে বাহারছড়ার শামলাপুরে যান। ৫টার দিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে ফিরে আসেন।

জাতীয় শোক দিবস উদযাপন উপলক্ষে সাতক্ষীরা নাগরিক কমিটির আলোচনা সভা

জাতীয় শোক দিবস উদযাপন উপলক্ষে সাতক্ষীরা নাগরিক কমিটির  আলোচনা সভা




আজহারুল ইসলাম সাদী, জেলা প্রতিনিধিঃমহান স্বাধীনতার স্থাপতি বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদাত বার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে বাংলাদেশ সচেতন নাগরিক কমিটি সাতক্ষীরা জেলা শাখার উদ্যোগে আজ সোমবার (১৭ আগষ্ট) বিকাল ৪টায় সাতক্ষীরা পুরাতন আইনজীবী সমিতি মিলনায়তনে সংগঠনের জেলা আহবায়ক বিশ্বজিত সাধু'র সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব এড. আল মাহমুদ পলাশের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তৃতা করেন সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের সংগ্রামী সভাপতি জননেতা বীরমুক্তিযোদ্ধা মুনসুর আহমেদ।

সভায় আরো বক্তব্য রাখেন কমিটির যুগ্ন-আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা ময়নুল ইসলাম, শিক্ষাবিদ অধ্যক্ষ সুভাষ সরকার, জেএসডিনেতা সুধাংস শেখর সরকার, জাসদনেতা অধ্যাপক ইদ্রিস আলী, কৃষকলীগনেতা মঞ্জুর হোসেন, বঙ্গবন্ধু পেশাজীবী পরিষদের জেলা সম্পাদক  এড. প্রবীর মুখার্জি, মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক সুবোধ চক্রবর্তি, কলেজ শিক্ষকনেতা অধ্যাপক তপন কুমার শীল প্রমুখ।

এসময়ে উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাাসুম হোসেন, ডাঃ সুব্রত ঘোষ, শ্রমিকলীগ নেতা এড.রফিকুল ইসলাম, অধ্যাপক আমিনুর রহমান, এড. সুনীল ঘোষ, মুক্তিযোদ্ধা মনোরঞ্জন বন্ধ্যোপধ্যায়, প্রভাষক শেখ হেদায়তুল ইসলাম, আসাদুজ্জামান লাবলু, ঘোষ প্রদ্যুৎ কুমার, সাইফুল আযম বাবু, যুব ঐক্য পরিষদের ইন্দ্রজিৎ সাধু, ছাত্র ঐক্য পরিষদের সুজন বিশ্বাস, ইব্রাহিম হোসেন, হাবিবুলালাহ বাহার প্রমুখ।

সভার শুরুতে বঙ্গবন্ধু প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পন করা হয় এবং এক মিনিট নিরাবতা পালন করা হয়।

বক্তারা বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন বাঙালী জাতির এক অবিসংবাদিত নেতা। বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে আমরা বাংলাদেশ নামক একটি স্বাধীন রাষ্ট্র পেতাম না। বঙ্গবন্ধুর অসাধারণ নেতৃত্বের কারণেই দেশ দ্রুত স্বাধীন হয়েছিল। মুক্তিযুদ্ধের সময় ভারত আমাদেরকে আশ্রয় দিয়েছিল। গেরিলা ট্রেনিং দিয়েছিল। অস্ত্র, গুলা বারুদসহ সব ধরনের সরঞ্জাম দিয়ে সহযোগিতা করেছিল। সে কারণে বাংলাদেশ দ্রুত স্বাধীনতা লাভ করে। 

বক্তারা আরো বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে এদেশেরই কতিপয় দুস্কৃতিকারী চক্র তাকে নির্মমভাবে হত্যা করেছিল, তাদের প্রতি ঘৃর্ণা জানাই।

পদ্মা নদীতে ভাসমান রেস্টুরেন্ট তৈরি করা হয়েছে!

 পদ্মা নদীতে ভাসমান রেস্টুরেন্ট তৈরি করা হয়েছে!

 



আব্দুর রাজ্জাক, হরিরামপুর (মানিকগঞ্জ)প্রতিনিধিঃমানিকগঞ্জ জেলার হরিরামপুর উপজেলার আন্ধামানিক সংলগ্ন, ট্রলারঘাট এর পার্শে ভাসমান রেস্টুরেন্ট তৈরি করা হয়েছে। 


আন্ধারমানিকের স্থায়ীয় এক সৌখিন ও ভ্রমন পিয়াসী ব্যক্তি মোঃ শামীম আহমেদ,তিনি এই  ভাসমান রেস্টুরেন্টি তৈরি করেন।


জনাব শামীম আহমেদ  বলেন অনেক দিন আগে থেকেই তার স্বপ্ন ছিলো যে, পদ্মা নদীতে একটি  ভাসমান রেস্টুরেন্ট তৈরি করবেন। তাই তিনি লক্ষ লক্ষ টাকা খরচ করে  পদ্মা নদীতে ভাসমান রেস্টুরেন্ট তৈরি করেছেন।

এখানে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ ভ্রমন আসে ও ঘুরাঘুরি করে।


পানিতে ভাসমান রেস্টুরেন্ট টি দেখতে খুবই সুন্দর, পাশ দিয়ে লাঞ্চ ও ট্রলার চলাচল করে। 


প্রতিদিন বিকেল বেলায় মানুষেরা ঘুরাঘুরি ও আনন্দ উপভোগ করে শান্তি পায়। তাই না দেখে কেউ বিশ্বাস করবে না। রেস্টুরেন্ট এর মালিক মোঃ শামীম আহমেদ আরো বলেন রাতে লাইটের উজ্জ্বল আলোতে আরো সুন্দর লাগে, জনাব শামীম আহমেদ বলেন, মহান আল্লাহ তায়ালা আমার ইচ্ছাটা পূরণ করেছেন। তিনি আল্লাহ তায়ালার কাছে হাজার হাজার শুকরিয়া আদায় করেন।

হবিগঞ্জে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ক্রিড়া সামগ্রী বিতরণ

 হবিগঞ্জে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ক্রিড়া সামগ্রী বিতরণ




লিটন পাঠান হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃহবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ক্রিড়া সামগ্রী, ইউনিয়ন কমিউনিটি ক্লিনিকে আসবাবপত্র ও ইউপি চেয়ারম্যানদের মধ্যে গাছ বিতরণ করা হয়েছে। ১৭ আগস্ট সোমবার দিনব্যাপী বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে এসব সামগ্রী বিতরণ করা হয়। বানিয়াচং উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাসুদ রানার সভাপতিত্বে ও মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার কাউছার শোকোরানার পরিচালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বানিয়াচং উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, মোঃ আবুল কাশেম চৌধুরী

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বানিয়াচং উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের।


ইউএইচও ডাঃ আবুল হাদি মোঃ শাহ পরান উপজেলা প্রকৌশলী আল নুর তারেক, দুদক বানিয়াচং উপজেলা সভাপতি বিপুল ভূষন রায় বানিয়াচং সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা আবদাল হোসাইন খাঁন শ্রেষ্ঠ এসএমসি সভাপতি ও বানিয়াচং উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এস এম খোকন, শিক্ষা অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) হাসিবুল ইসলাম প্রধান শিক্ষক এম এ তাহের জাকির হোসেন আব্বাছ উদ্দিন, ভানু চন্দ্র চন্দ সাইফুল ইসলাম আবু ইউসুফ, আসাদুর রহমান খাঁন আবুল ফজল তুহিন মিয়া দ্বিপু চন্দ গোপ স্বজল চন্দ গোপ কামরুজ্জামান খাঁন প্রমুখ।


পরে মাদ্রাসা ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ক্রিকেট খেলার সামগ্রী ও ফুটবল এবং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোতে ১টি করে ফুটবল প্রদান করা হয়। এছাড়া ইউনিয়ন কমিউনিটি ক্লিনিকে ১টি টেবিল, ৫টি করে চেয়ার ও প্রত্যেক চেয়ারম্যানের কাছে বিভিন্ন বিদ্যালয় ও সরকারি খালি জায়গায় রোপনের জন্য গাছের চারা প্রদান করা হয়।

শামসুর রাহমান স্বাধীনতার দীক্ষাকবি - মোমিন মেহেদী

শামসুর রাহমান স্বাধীনতার দীক্ষাকবি - মোমিন মেহেদী



প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ 
নতুনধারা বাংলাদেশ এনডিবির চেয়ারম্যান মোমিন মেহেদী বলেছেন, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি কবি শামসুর রাহমান নতুন প্রজন্মের দীক্ষাকবি। তাঁর কবিতা পড়তে পড়তে তারুণ্য নিবেদিত হয়েছে ছাত্র-যুব-জনতার মৌলিক অধিকার রক্ষা আন্দোলনে। আজ যে করোনা পরিস্থিতি সারাবিশ্বে; সেই পরিস্থিতিতে তিনি নির্মল আশার আলো জ্বালতেন, যদি আজ তিনি থাকতেন। 

কবি শামসুর রাহমান-এর মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ১৭ আগস্ট সকাল ১০ টায় শোককাব্য শীর্ষক কবিতা ও আলোচনায়োজনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথা বলেন। এসময় সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান শান্তা ফারজানা, মহাসচিব নিপুন মিস্ত্রি, ঢাকা মহানগর উত্তরের সহ-সভাপতি লিটা দত্ত বক্তব্য রাখেন।

জাতীয় সাংস্কৃতিকধারার উপদেষ্টা অভিনেত্রী অরুণা সরকারের সভাপতিত্বে এতে কবি শামসুর রাহমান-এর ‘স্বাধীনতা তুমি’ কবিতাটি আবৃত্তি করেন অধ্যাপক শুভঙ্কর দেবনাথ। কবিকে নিয়ে নিবেদিত কবিতা পাঠ করেন নতুনধারা বাংলাদেশ এনডিবি, জাতীয় সাংস্কৃতিকধারা, জাতীয় তথ্যধারা, অনলাইন প্রেস ইউনিটি ও ঢাকা বিশ্বহড়বিদ্যালয় কেন্দ্রিক শিক্ষা-সাহিত্য-সাংস্কৃতিক ও সামাজিক সংগঠন সাউন্ডবাংলা’র নেতৃবৃন্দ

কেশবপুরে ব্যবসায়ী সাধন হত্যা মামলার আসামির ৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

কেশবপুরে ব্যবসায়ী সাধন হত্যা মামলার আসামির ৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর


মোরশেদ আলম,যশোর ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধিঃযশোর কেশবপুরে চাল ব্যবসায়ী সাধন কুমার দত্তের হত্যাকান্ডের ঘটনায় গ্রেফতারকৃত হত্যা মামলার আসামি কামরুজ্জামান ওরফে কামরুল ইসলামকে ৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন যশোরের চিপ জুডিশিয়াল আদালত। সে উপজেলার চাঁদড়া গ্রামের এরশাদ আলী শেখের ছেলে।

 কেশবপুর থানার ইন্সেপেক্টর (তদন্ত) শেখ ওহিদুজ্জামান আসামিকে যশোর চিপ জুডিশিয়াল আদালতে হাজির করে ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। শুনানি শেষে চিপ জুডিশিয়াল আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট মেহেদী হাসান ৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। কেশবপুর থানা পুলিশ ১৪ আগস্ট শুক্রবার রাতে চাঁদড়া গ্রাম থেকে কামরুজ্জামান ওরফে কামরুল ইসলামকে আটক করে।

উল্লেখ্য, গত ২ আগস্ট রাতে চাঁদড়া গ্রামের চাল ব্যবসায়ী সাধন কুমার দত্তকে নিজ বাড়ির পাশে কলা বাগানে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়। ৩ আগস্ট সকালে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ব্যাপারে কেশবপুর থানার ইন্সেপেক্টর (তদন্ত) শেখ ওহিদুজ্জামান বলেন, চাল ব্যবসায়ী সাধন কুমার দত্তের হত্যার ঘটনায় সন্দেহজনক ভাবে কামরুজ্জামান ওরফে কামরুল ইসলামকে গ্রেফতার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে তাকে বিজ্ঞ আদালতে হাজির করে ৫ দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হলে আদালত ৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। রিমান্ডে হত্যার আসল রহস্য উৎঘটনের জন্য তার জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

কুমিল্লার হোমনায় ডাকাত সর্দারের সহযোগী চঞ্চল ডাকাত গ্রেফতার

কুমিল্লার হোমনায়   ডাকাত সর্দারের  সহযোগী চঞ্চল ডাকাত গ্রেফতার


শাহ আলম জাহাঙ্গীর,ব্যুরো চিফ, কুমিল্লাঃকুমিল্লার হোমনা উপজেলায় ডাকাত সর্দার মাহবুব কাঞ্চনের বিশ্বস্ত সহযোগী অস্ত্র ও ডাকাতি মামলাসহ বিভিন্ন সন্ত্রাসী কার্যকলাপের সাথে  সক্রিয়ভাবে জড়িত থাকায় ডাকাত সদস্য মোঃ চঞ্চল(২৬)কে গ্রেফতার করেছে হোমনা থানা পুলিশ। 


গতকাল রোববার গভীর রাতে কাচারীকান্দি মোড় থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সে ভিটি কালমিনা গ্রামের মৃত ছোট মিয়ার ছেলে।

হোমনা সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার ফজলুল করিম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গতকাল রোববার (১৬ আগস্ট) রাত্র ০২.৫৫ ঘটিকায় হোমনা থানাধীন কাচারীকান্দি এলাকা থেকে সন্দেহজনক ভাবে ঘুরাফেরা করায় চঞ্চল(২৬) নামের এক জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। 


সে কুখ্যাত ডাকাত মাহবুব কাঞ্চনের বিশ্বস্ত সহযোগী , অস্ত্র ও ডাকাতির মামলাসহ বিভিন্ন সন্ত্রাসী কার্যকলাপের সাথে সক্রিয়ভাবে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে।


আজ সোমবার হোমনা থানার ডাকাতি ও অস্ত্র মামলায়  তাকে আদালতে প্রেরণ করেছে হোমনা থানা পুলিশ।



হবিগঞ্জ বিআরটিএর উদ্যেগে চালকদের দক্ষতা ও সচেতনতামূলক প্রশিক্ষণ

হবিগঞ্জ বিআরটিএর উদ্যেগে চালকদের দক্ষতা ও সচেতনতামূলক প্রশিক্ষণ




লিটন পাঠান হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃহবিগঞ্জ জেলায় বিআরটিএ উদ্যেগে পেশাজীবি গাড়ী চালকদের দক্ষতা ও সচেতনতামূলক প্রশিক্ষণ কর্মশালা আয়োজন করা হয়। সোমবার সকাল সাড়ে ১০টায় হবিগঞ্জ যুব উন্নয়ন প্রশিক্ষণ হল রুমে সরকারী নির্দেশনা মেনে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে এ প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।


উপ-পরিচালক (ইন্জিনিয়ার) মোঃ নুরুজ্জামানের সভাপতিত্বে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শামসুদ্দিন মো. রেজা, সিভিল সার্জনের প্রতিনিধি ডাঃ বাধন আচার্য্য ট্রাফিক সার্জেন্ট তোফাজ্জল হোসেন প্রমুখ।


অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন মোটরযান পরিদর্শক মোঃ শরফউদ্দিন আকন্দ এবং সার্বিক সহযোগীতায় ইন্দ্রজিৎ বিশ্বাস।

বক্তাগণ বলেন জীবনের আগে জীবিকা নয়, গাড়ী চালানোর ক্ষেত্রে কখনও প্রতিযোগীতা নয় নিরাপদে গন্তব্যে পৌছানো আসল লক্ষ্য যেকোন যাত্রা।


শুরুর পূর্বে অবশ্যই যানবাহন পরীক্ষা করে নিতে হবে, কোন অবস্থায় ত্রুটিযুক্ত যানবাহন নিয়ে রাস্তায় বের হওয়া যাবেনা। সরকার এবং আইনশৃংখলা বাহিনী মানুষের জানমালের নিরাপত্তার জন্য কঠোর অবস্থানে আছে তাই এব্যাপারে প্রত্যেককে আরো সচেতন হতে হবে।

শংকরপুর ইউনিয়নের তৃনমুল নেতাকর্মীর সঙ্গে মতবিনিময় করলেন -এমপি নাসির উদ্দিন

শংকরপুর ইউনিয়নের তৃনমুল নেতাকর্মীর সঙ্গে মতবিনিময় করলেন -এমপি নাসির উদ্দিন

নিউজ ডেস্কঃ ঝিকরগাছা উপজেলা তৃণমূলের আওয়ামীলীগ কে গতিশীল করার লক্ষ্যে ও জা‌তির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মু‌জিবুর রহমান এর ৪৫ তম শাহাদাত বা‌র্ষিকী জাতীয় শোক দিবস উপল‌ক্ষে প্রতিটি ইউনিয়নের নেতা কর্মীদের সঙ্গে যশোর-২ (চৌগাছা-ঝিকরগাছা) আসনের মাননীয় সংসদ বীর মুক্তিযোদ্ধা মেজর জেনারেল (অবঃ) অধ্যাপক ডাঃ মোঃ নাসির উদ্দিন এর ধারাবাহিক মতবিনিময় সভার অংশ হিসেবে আজ ( ১৭ ই আগস্ট)   ২য় দিন শংকরপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের নেতা কর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। 


উক্ত মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন ঝিকরগাছা উপজেলা আওয়ামীলীগের সংগ্রামী যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের সুযোগ্য চেয়ারম্যান জননেতা জনাব মোঃ মনিরুল ইসলাম। সভাপতিত্ব করেন শংকরপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের দীর্ঘদিনের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব জাহান আলী।


আ‌রো উপ‌স্থিত ছি‌লেন যশোর জেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি আজাহার আলী, উপ‌জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও যুবলী‌গের অন্যতম নেতা র‌ফিকুল ইসলাম বাপ্পী, ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শামীম রেজা, উপজেলা যুবলীগ নেতা ও ঝিকরগাছা উপজেলা পরিষদের ভাইস-চেয়ারম্যান জনাব মোঃ সে‌লিম রেজা, ঝিকরগাছা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ ইমরান রশিদ, উপজেলা যুবলীগ নেতা জাফিরুল হক, শাহেদুর রহমান শিপলু, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এহসানুল হাবিব শিপলু, শংকরপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতা নাজমুল ইসলাম, ওহাব মোল্লা, জাকিরুল ইসলাম মিন্টু, ইজানুর রহমান, কবিরুজ্জামান মিঠু, আশরাফুল ইসলাম,  আসাদুল ইসলাম, বাবুর আলী, রবিউল ডাক্তার, রিজায়ুল ইসলাম, ইল্লাফ সরদার, ফেরদৌসুর রহমান, রিজাউল, আরাফাত, ছাত্রলীগ নেতা উজ্জ্বল হোসেন শংকরপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি রুনা  প্রমূখ।

অনলাইনে 'ইউসাম পাঠশালা'র কার্যক্রম শুরু

 অনলাইনে 'ইউসাম পাঠশালা'র কার্যক্রম শুরু



মিরসরাই প্রতিনিধিঃবিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত মিরসরাইয়ের শিক্ষার্থীদের সংগঠন ইউসাম (ইউনিভার্সিটি স্টুডেন্টস এসোসিয়েশন অব মিরসরাই) এর উদ্যোগে আগামী ২০ আগস্ট থেকে শুরু হচ্ছে ভার্চুয়াল 'ইউসাম পাঠশালা'র পাঠদান কার্যক্রম। 


ইউসামের তথ্য সূত্রে জানা যায়, প্রাথমিকভাবে উচ্চ মাধ্যমিক ও বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার্থীদের জন্য সহায়ক লাইভ ক্লাসগুলো নেয়া হবে। তিন বিভাগের শিক্ষার্থীদের ক্লাসের পাশাপাশি দেয়া হবে হ্যান্ড নোটস। ক্লাস নিবেন দেশসেরা বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত ইউসাম সদস্যরা। এক্ষেত্রে শিক্ষার্থীরা ইউসামের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজের সাথে সংযুক্ত থেকে ক্লাসের শিডিউল ও ক্লাসগুলো করতে পারবে। 


'ইউসাম পাঠশালা'র উদ্যোগের কারণ জানাতে ইউসাম সভাপতি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী জাছেম বিন মহিব বলেন, "করোনা ভাইরাসের কারণে কলেজ বন্ধ থাকায় পড়াশোনার ক্ষতি কিছুটা পুষিয়ে নিতে আমাদের ক্লাসগুলো শিক্ষার্থীদের সহায়ক হবে এবং বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি প্রস্তুতিতেও বেশ কার্যকর হবে বলে আশা করছি"। 


'ইউসাম পাঠশালা'র সমন্বয়ক চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মোস্তায়িন বিল্লাহ উক্ত কার্যক্রম পরিচালনা করছেন। যোগাযোগঃ

01835266260 - সভাপতি 

01625474442 - সাধারণ সম্পাদক 

01852428030 - সমন্বয়ক

বাংলাদেশ ছাত্রবন্ধু ফাউন্ডেশন এর ধুলিয়ানী ইউনিয়ন কমিটির অনুমোদন

বাংলাদেশ ছাত্রবন্ধু ফাউন্ডেশন এর ধুলিয়ানী ইউনিয়ন কমিটির অনুমোদন



Add caption


প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ বাংলাদেশ ছাত্রবন্ধু ফাউন্ডেশন C.B.F যশোর #চৌগাছা উপজেলা শাখার ধুলিয়ানী ইউনিয়ন শাখা ৭ (সাত) সদস্য বিশিষ্ট পরিচালনা পরিষদ অনুমোদন দেওয়া হলো।মেয়াদ 

৩১ জানুয়ারী ২০২১ খ্রিঃ তারিখ পর্যন্ত। আগামী  ৩১ অক্টোবর ২০২০ তারিখের ভিতর ১১ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কার্যকরী পরিষদ ঘোষণা করা হবে।


#সভাপতি- মোঃ ইমরান হোসেন

সহ সভপতি মোঃ মামুন হোসেন


সাধারণ সম্পাদক - মোঃ বেনজির হোসেন

সহ সাধারণ সম্পাদক - মোঃ রাব্বি

সদস্য ১ মোঃ সুমন

২ মোঃ সোহাগ

৩ মোঃ রুবেল হোসেন


অনুমোদনক্রমে 


  Md Sabuz Hossain    Md Arif Hossain

সভাপতি                            সাধারণ সম্পাদক 

বাংলাদেশ ছাত্রবন্ধু ফাউন্ডেশন চৌগাছা উপজেলা শাখা।

নওগাঁর আত্রাইয়ে বিট পুলিশিং কার্যক্রমের উদ্বোধন

নওগাঁর আত্রাইয়ে বিট পুলিশিং কার্যক্রমের উদ্বোধন



মোঃ ফিরোজ হোসাইন রাজশাহী ব্যুরোঃনওগাঁ আত্রাইয়ে ভোঁপাড়া ইউনিয়নের সোমবার বিকালে বিট পুলিশিং এর কার্যক্রম উদ্বোাধন করেন আত্রাই থানার (ভারপ্রাপ্ত) কর্মকতা মোঃ মোসলেম উদ্দিন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভোঁপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ জান বক্স সরদার, ওসি তদন্ত মোঃ মোজাম্মেল হক, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল কাশেম, ইউপি সদস্য স্বপন কুমার, এস আই মোস্তাফিজ,  প্রদীপ কুমার, নুরুল আলম প্রমূখ।

সিরাজগঞ্জে মাদক সহ এক জন আটক

সিরাজগঞ্জে মাদক সহ এক জন আটক



 মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃসিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার ভুলবায়ড়া গ্রামে অভিযান চালিয়ে সাড়ে ৩ কেজি গাঁজাসহ শাহ আলম (৩৫) নামে এক মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ। সে ওই উপজেলার কাশিপুর গ্রামের বাসিন্দা।

ওসি (ডিবি) মিজানুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি আমাদের প্রতিনিধিকে জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রোববার সন্ধ্যায় পুলিশ সুপার হাসিবুল আলম বিপিএম’র নির্দেশনায় উল্লেখিত স্থানে অভিযান চালানো হয়।

এ সময় সাড়ে ৩ কেজি গাঁজা, মাদক বিক্রির ২০ হাজার ১শ টাকা ও ওজন দেয়ার পাল্লা-পাথরসহ তাকে গ্রেফতার করা হয়। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট থানায় মামলা হয়েছে।

চিলমারীতে মাসুদ হত্যাকারীদের গ্রেফতারের দাবিতে মানববন্ধন

 চিলমারীতে মাসুদ হত্যাকারীদের গ্রেফতারের দাবিতে মানববন্ধন


মোঃইয়ামিন সরকার আকাশ,কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃকুড়িগ্রামের চিলমারীতে মাসুদ রানা (৩০) হত্যার প্রতিবাদে ও দোষীদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার বেলা ১১টায় উপজেলার রমনা বাঁধের মোড় এলাকায় বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের ব্যানারে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। 

এ সময় বিচারের দাবি জানিয়ে বিভিন্ন ধরনের লেখা প্লাকার্ড প্রদর্শন করে শত শত মানুষ মানববন্ধনে অংশ নেন। মানববন্ধন চলাকালে সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব নাজমুল হুদা পারভেজ, রেল ও নৌ যোগাযোগ পরিবেশ উন্নয়ন গণকমিটির প্রধান সমন্বয়ক নাহিদ হাসান নলেজ, সমাজ উন্নয়ন কর্মী ও সাংবাদিক এস এম নুরুল আমিন সরকার, মেধাবী কল্যাণ সংস্থার সভাপতি নুরুল আলম, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা মিজানুর রহমান মিজান, সমাজ উন্নয়ন কর্মী পলাশ মাহমুদ প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।


প্রসঙ্গত, মোটর সাইকেলে ঢাকা যাওয়ার পথিমধ্যে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর মহাসড়কের পাশে পুকুর থেকে গত ৮ জুলাই শনিবার সকালে মাসুদ রানা ও তার বন্ধু রংপুর সদরের চাঁনবাড়ী এলাকার মামুনের গলা কাটা মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

হরিণাকুণ্ড উপজেলা যুবদল নেতার নামে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদ

 হরিণাকুণ্ড উপজেলা যুবদল নেতার নামে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদ


সম্রাট হোসেন, শৈলকুপা  (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধিঃহরিণাকুণ্ড উপজেলা যুবদলের সাবেক  যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক, ঝিনাইদহ জেলা যুবদলের সদস্য কারানির্যাতিত যুব নেতা   নাজমুল হুদা রিপন কে নিয়ে একদল কুচক্রী মহল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন রকমের বাজে মন্তব্য করছেন। 



এই নিয়ে জেলা বি.এন.পির সদস্য সচিব ও হরিণাকুণ্ড উপজেলার সাবেক  সফল চেয়ারম্যান, আলহাজ্ব এ্যাডঃ আব্দুল মজিদ প্রতিবেদক কে  বলেন যে,



 রিপন দলের জন্য এক জন নিবেদিত কর্মী এবং আমার আস্থা ভাজন হাওয়ার কারণে কিছু কুচক্রী মহল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে বাজে মন্তব্য করছে তার তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাইতেছি। 



হরিণাকুণ্ড উপজেলা বি. এন.পির আহাব্বয়ক আবুল হাসান মাস্টার প্রতিবেদক কে জানান যে, 



ঝিনাইদহ জেলার হরিনাকুণ্ডু উপজেলা যুবদলের সাবেক যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ও জেলা যুবদলের সদস্য, মোঃ নাজমুল হুদা রিপন এর নামে হরিনাকুণ্ডু উপজেলা যুবদলের কমিটিকে সামনে রেখে, খালেদা জিয়ার বাংলাদেশ ও সালমান খাঁন খাঁন নামের কয় একটি ফ্যাক আইডি থেকে ফেসবুকে মিথ্যা সংবাদ প্রচার করার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদন জানাইতেছি।  তিনি আরো বলেন নাজমুল হুদা রিপনের নামে মিথ্যা সংবাদটি আসলেই দুঃখজনক, যার নামে আছে একাধিক মামলা ও দুই বার কারাগারে গেছেন এই সরকারের আমলে নাজমুল এর মতন একজন নিবেদিত যুবনেতা কে এই মুহুর্থে হরিনাকুণ্ডু উপজেলা যুবদলের জন্য খুবই প্রয়োজন। আমি হরিনাকুণ্ডু উপজেলা বিএনপি'র পক্ষ থেকে জানাতে চাই সংবাদটি সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। এবং নাজমুল কে হরিনাকুণ্ডু উপজেলা যুবদলের আগামি কমিটিতে গুরুত্বপূর্ণ পদে দেখতে চাঁন হরিনাকুণ্ডু উপজেলা বিএনপি। 



অন্যদিকে  জেলা এবং হরিণাকুণ্ড উপজেলা বি.এন.পি, ও জেলা যুবদলের সকল নেতা কর্মী এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদে জানিয়েছেন।



 ঝিনাইদহ জেলা যুবদলের একাধিক  সিনিয়র নেতৃবৃন্দ   প্রতিবেদককে বলেন,



  রিপন দলের জন্য গায়েবী ও রাজনৈতিক মামলা সহ ৩ মামলার আসামি এবং ২ বারে প্রায়  ৪ মাস কারাভোগ করেছেন। মিছিল, মিটিং, হরতাল, অবরোধের সব খানেই রিপনকে এক ঝাঁক নেতা কর্মী নিয়ে সবার আগে উপস্থিত হতে দেখেছি। এ্যাডঃ আব্দুল মজিদ  এর খুব কাছের  মানুষ হাওয়ার কারণে বিভিন্ন কুচক্রী মহল তাকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে বাজে মন্তব্য করছেন তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানায়।



এই বিষয় রিপন প্রতিবেদক কে জানান যে, আমার নামে যারা বাজে মন্তব্য করছেন আমি তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাইতেছি।

খালি বাসা নিয়ে যন্ত্রণায় পড়ছেন অনেক বাড়িওয়ালা

 খালি বাসা নিয়ে যন্ত্রণায় পড়ছেন অনেক বাড়িওয়ালা


মোঃ  হাসান রিফাত চট্টগ্রাম প্রতিনিধিঃকরোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দেখা দেওয়ায় মার্চ মাস থেকেই নানা ঝামেলায় পড়তে শুরু করেন বিভিন্ন বাসার ভাড়াটেরা। বিশেষ করে ২৬ মার্চ থেকে সাধারণ ছুটি ঘোষণার পরই অনিয়মিত হতে শুরু করে বাড়িভাড়া পরিশোধ।


করোনা সংকট না কাটতেই বাসা খালি হওয়ায় নতুন ভাড়াটে না পেয়ে যন্ত্রণায় পড়ছেন বাড়িওয়ালারা। করোনার কারণে ভাড়াটিয়ারা বাসা ছেড়ে দেওয়ায় নতুন ভাড়াটিয়াও পাচ্ছেন না তারা। এ অবস্থায় অনেক বাড়ির ফ্ল্যাট এখন ফাঁকা।


করোনা ভাইরাসের প্রভাবে সরকারি কর্মজীবী, কিছু সংখ্যক বড় বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ছাড়া বাকি সব পেশাজীবী ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। যেখানে পরিবারের জন্য প্রতিদিনের খাবারের ব্যবস্থা করাই একটি চ্যালেঞ্জ, সেখানে মরার ওপর খাড়ার ঘাঁ হয়ে দেখা দিয়েছে বাড়িভাড়া, গ্যাস বিল, কারেন্ট বিল ও বিভিন্ন সার্ভিসের বিল। এ চাপ সহ্য করতে না পেরে ইতোমধ্যে প্রায় ৫০ হাজার লোক বাসা ছেড়ে দিয়েছেন।’


করোনা ভাইরাস মহামারির পর থেকে ভাড়াটিয়া পরিষদ বাড়িভাড়ার অমানবিক চাপ থেকে অসহায় সাধারণ মানুষকে মুক্তি দেওয়ার জন্য সরকারের কাছে বারবার দাবি জানানোর পরও কোন ফল হয়নি। সরকার বাড়িওয়ালাদের কর মওকুফের মতো কিছু বাড়তি সুবিধা দিয়ে করোনাকালে ভাড়া মওকুফ করে সারাদেশের অসহায় ভাড়াটিয়াদের পাশে দাঁড়াবেন। এমনটাই আশা করেছিলেন অনেক বাড়িওয়ালা ও ভাড়াটে। এমন কোন সিদ্ধান্ত না হওয়ায় ভাড়েটেরা বাসা ছেড়ে নিজ নিজ গ্রামে যাওয়া শুরু করেছেন।

আশাশুনিতে মোবাইল কোর্ট পরিচালনায় ৫৩ শত টাকা জরিমানা আদায়

আশাশুনিতে  মোবাইল কোর্ট পরিচালনায় ৫৩ শত টাকা জরিমানা আদায়


আজহারুল ইসলাম সাদী, জেলা প্রতিনিধিঃসাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক ও বিজ্ঞ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, এস এম মোস্তফা কামাল এর নির্দেশনা মোতাবেক অাজ সোমবার (১৭ আগস্ট)  আশাশুনি উপজেলার  বিভিন্ন বাজারে  আশাশুনি এসিলান্ড শাহীন সুলতানা কর্তৃক মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। এ সময় স্বাস্থ্য বিধি না মানায় ও মাস্ক ব্যবহার না করায় ৫ টি মামলায় ৮০০ টাকা জরিমানা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার তৈরী করায় বুধহাটা বাজারের ২ টি মিষ্টির দোকান যথক্রমে সাতক্ষীরা ঘোষ ডেইরি ও আদি সাতক্ষীরা ডেইরি কে ৪৫০০ টাকা জরিমানা করা হয়।

জনস্বার্থে অভিযান অব্যাহত থাকবে।

কোটচাঁদপুর যথাযগ্য মর্যাদায় পৌর আঃলীগের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর শাহাদাৎ বার্ষিকী পালন

কোটচাঁদপুর যথাযগ্য মর্যাদায় পৌর আঃলীগের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর শাহাদাৎ বার্ষিকী পালন



খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার,ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধিঃ১৫ই আগস্ট জাতীয় শোক দিবস। স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদতবার্ষিকী। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকীর এই বছরে দিনটি হাজির হয়েছে ভিন্ন এক আবহে। বছরজুড়ে জন্মশতবর্ষের নানা আয়োজনের মধ্যে এই শোক দিবস পালন ঘিরেও ছিল নানা পরিকল্পনা। কিন্তু করোনা মহামারির কারণে এবারের শোক দিবসের কর্মসূচি হচ্ছে সীমিত পরিসরে। জাতির পিতার প্রতি সর্বসাধারণের শ্রদ্ধা জানানোর কর্মসূচিও থাকছে না অন্যবারের মতো। তবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে যথাযোগ্য ভাবগাম্ভীর্যের সঙ্গে পালিত হয়েছে  জাতীয় শোক দিবস।

তারই ধারাবাহিকতায় 

ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলায় ১৭ই আগস্ট সোমবার জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৫ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে কোটচাঁদপুর পৌর- আওয়ামীলীগ কতৃক আয়োজিত আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল ও দুস্থদের মাঝে খাবার বিতরন করা হয়।

১৭ইআগস্ট সোমবার বিকাল ৩ টার দিকে প্রথমে জাতীয় পতাকা ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয় এবং বঙ্গবন্ধুর প্রত্তিকৃতিতে মাল্যদান করেন দলের সকল নেতৃবৃন্দ তারপর বঙ্গবন্ধুর আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। দ্বিতীয় অধিবেশনের অংশহিসাবে মহিলা কলেজ চত্বরে শুরু হয় আলোচনা সভা, এবং দলীয় নেতা-কর্মীদের সাথে নিয়ে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে একটি শোক র্র্যালি  শহরে প্রদক্ষন করা হয়।কর্মসূচী শেষে    অসহায় দুস্থ মানুষের মাঝে খাবার বিতরন করা হয়।

এসময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঝিনাইদহ ৩ আসনের (কোটচাঁদপুর-মহেশপুর) মাননীয় জাতীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এ্যাডঃ শফিকুল আজম খান চঞ্চল, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আঃলীগের  সভাপতি মোছাঃ শরিফুন্নেচ্ছা মিকি,উপজেলা আঃলীগের সাধারণ সম্পাদক  শাহাজান আলী,  সিনিয়র সহসভাপতি নুরুল ইসলাম খান বাবলু, সিনিয়র সহসভাপতি লুৎফর রহমান, সাবেক উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার তাজুল ইসলাম, পৌর আঃলীগের  আহ্বায়ক মোঃ ফারজেল হোসেন মন্ডল, যুগ্ম আহ্বায়ক  মোঃ সহিদুজ্জামান সেলিম, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পদক মোঃ সামাউল হক লাড্ডু,পৌর আওয়ামীলীগের মহিলানেত্রী মোছাঃ রুবিনা রহমান,  পৌর স্বেচ্ছাসেবকলীগের আহবায়ক মোঃ জাহিদ হোসেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রিয়াজ হোসেন, পৌর ৪ নং ওয়ার্ড কমিশনার মোঃ জাফর ইকবাল শান্তি, সহ সকল সহযোগী অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মী। 

আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন পৌর আঃলীগের আহ্বায়ক ফারজেল হোসেন মন্ডল। 


উক্ত অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন পৌর-আঃলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মোঃ সহিদুজ্জামান সেলিম।

ঝিনাইদহ মহেশপুরে হিন্দু শিক্ষকের স্ত্রী মুসলমান যুবকের হাত ধরে উধাও

ঝিনাইদহ মহেশপুরে হিন্দু শিক্ষকের স্ত্রী মুসলমান যুবকের হাত ধরে উধাও



খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার, ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধিঃপ্রেম মানে না জাতি কুল, এমন প্রবাদের সত্যতা ঘটলো মহেশপুরে।ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর পৌর এলাকার নিরুপম কুমার হালদার মাস্টারের স্ত্রী ও এক সন্তানের জননী  বাড়ির পাশের মৎস ফিড দোকানদার ফারুক হোসেনের হাত ধরে উধাও।নিরুপম কুমার কুশাডাংগা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক। মৎস ফিড দোকানদার ফারুক হোসেন উপজেলার বাঁশবাড়ীয়া ইউপির বাগানমাঠ গ্রামের মৃত আব্দুল ওহাব মুন্সির পুত্র। ফারুক হোসেন দুই কন্যা সন্তানের পিতা। পূর্বেও ফারুক হোসেন দুইবার নারী কেলেংকারী ঘটনায় ধরা পরার অভিযোগ আছে।জানা যায়, ফারুক হোসেন পৌর এলাকার জাহাঙ্গীর আর্ট গ্যালারি দোকানের সামনে দীর্ঘদিন ধরে মৎস্য খাবারের দোকান নিয়ে ব্যবসা করে আসছিলো। জাহাঙ্গীর আর্ট গ্যালারি দোকানের দ্বিতীয় তলায় নিরুপম কুমার হালদারের বাসাবাড়ি। রাস্তার এপার ওপার বাসা ও দোকান এরই মধ্যে দুই জনের মধ্যে একটি সম্পর্ক তৈরি হয়। একপর্যায়ে সম্পর্ক রুপ নেয় অবৈধ প্রেমের সম্পর্কে।লোকচক্ষুর আড়ালে জমে ওঠে দুই জনের অবৈধ প্রেমের সম্পর্ক। হঠাৎ করে গত দশদিন পূর্বে নিরুপম কুমার হালদারের স্ত্রী একটি ছোট ছেলে সন্তান কে রেখে জাতকুল তোয়াক্কা না করে লম্পট ফারুক হোসেনের হাত ধরে পালিয়ে যায়। এ বিষয়ে নিরুপম কুমার হালদারের কাছে জানতে চাইলে তিনি কোনো কথা বলতে রাজি হননি। একইভাব ফারুক হোসেনের পরিবারেরও কেউ এই বিষয়ে কথা বলতে রাজি হয়নি।এমন ঘটনায় তাদের কে নিয়ে এলাকায় গুন্জ্জন চলছে।

করোনা দুর্যোগ : মেস ভাড়া পরিশোধ করতে না পারা শিক্ষার্থীদের তথ্য চেয়েছে নোবিপ্রবি প্রশাসন

করোনা দুর্যোগ : মেস ভাড়া পরিশোধ করতে না পারা শিক্ষার্থীদের তথ্য চেয়েছে নোবিপ্রবি প্রশাসন




নোবিপ্রবি প্রতিনিধিঃচলমান করোনাভাইরাস(কভিড-১৯) দুর্যোগে লকডাউনের কারণে যেসব শিক্ষার্থী মেস বা বাসা ভাড়া পরিশোধ করতে পারেনি তাদের তথ্য চেয়েছে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়(নোবিপ্রবি) প্রশাসন।


আজ সোমবার (১৭ আগস্ট) বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বিষয়টি জানা যায়। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, করোনাভাইরাসের(কভিড-১৯) বিস্তার রোধে বিশ্ববিদ্যালয়সহ সারাদেশ লকডাউন থাকার কারণে যে সকল শিক্ষার্থী তাদের মেস বা বাসা ভাড়া দিতে পারেনি তাদের নাম, বিভাগ, রোল, মোবাইল নম্বর, বাড়িওয়ালার নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নম্বর, মোট বকেয়া টাকা ও মাসের বিবরণ ও মন্তব্য আগামী ২০ আগস্ট এর মধ্যে registrar.nstu@gmail.com এ প্রেরণের জন্য নির্দেশ দেয়া হলো ।


উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন ধরে মেস বা বাসা ভাড়া নিয়ে দুশ্চিন্তায় ভোগছেন নোবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা। অনেকে বাড়িওয়ালাদের নির্যাতনের শিকারও হয়েছেন। এরই প্রেক্ষিতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এমন উদ্যোগ নিয়েছে। এই বিজ্ঞপ্তি পাওয়ার পর দীর্ঘদিন ধরে মেস ভাড়া নিয়ে দুশ্চিন্তায় ভোগা শিক্ষার্থীরা মনে করছেন এবার অন্তত তাদের সমস্যার অবসান হবে।

বশেমুরবিপ্রবিঃ কর্মচারিদের ছুটি নিয়ে প্রশাসন ও কর্মচারীদের পাল্টাপাল্টি বক্তব্য

বশেমুরবিপ্রবিঃ কর্মচারিদের ছুটি নিয়ে প্রশাসন ও কর্মচারীদের পাল্টাপাল্টি বক্তব্য

 


সুমন, বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধিঃ গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ( বশেমুরবিপ্রবি)  কম্পিউটার চুরির ঘটনায় কর্মচারীরা কেন ছুটিতে ছিলেন তা নিয়ে ধোঁয়াশা সৃষ্টি হয়েছে।এক্ষেত্রে বশেমুরবিপ্রবি প্রশাসন ও কর্মচারী সমিতির ভিন্ন বক্তব্য ফুটে উঠেছে।


বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মচারী সমিতির সভাপতি তরিকুল ইসলাম বলেন,ছুটি নিয়েই কর্মচারীরা কর্মস্থলে অনুপস্থিত ছিলেন।অন্যদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. নূরউদ্দিন আহমেদ বলেন,তারা ছুটি চেয়েছিল, তবে তাদের বলা হয়েছে এভাবে ছুটি হবে না।


বশেমুরবিপ্রবি উপাচার্য ( রুটিন দায়িত্ব) প্রফেসর ড. মো. শাহজাহান বলেন, সাত সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে।কমিটির তদন্তের পর বিষয়টি স্পষ্ট হবে।


জানা যায় ৩০ জন কর্মচারিদের মধ্যে ২০ জনই অনুপস্থিত ছিলেন।বাকি ১০ জনের মধ্যে তিনজন ছিলেন কুশলী ক্যাম্পাসে। এই সুযোগেই চোর চক্রটি কম্পিউটার গুলো চুরি করে।


উল্লেখ্য, গত ২৬ জুলাই গভীর রাতে বশেমুরবিপ্রবি'র কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি ভবন থেকে পিছনের জানালা ভেঙে ৪৯ টি কম্পিউটার চুরি করে চোর চক্রটি।বিষয়টি জানার পর প্রশাসনের পক্ষ থেকে মামলা করা হলে এখন পর্যন্ত সাতজনকে গ্রেফতার করতে পেরেছে পুলিশ।

আশাশুনিতে যুব লীগের আয়োজনে সিরিজ বোমা হামলা দিবসের আলোচনা সভা

আশাশুনিতে যুব লীগের আয়োজনে সিরিজ বোমা হামলা দিবসের আলোচনা সভা

 



আহসান উল্লাহ বাবলু উপজেলা প্রতিনিধিঃ   আশাশুনিতে উপজেলা যুব লীগের আয়োজনে সিরিজ বোমা হামলা দিবসের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার সকালে উপজেলা চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও সদর ইউপি চেয়ারম্যান স ম সেলিম রেজা মিলনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ বি এম মোস্তাকিম। প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ বি এম মোস্তাকিম বলেন ২০০৫ সালের এই দিনে বিএনপি-জামাতের মদদপুষ্ট জেএমবি সারা দেশে ৬৩ জেলায় একযোগে বোমা হামলা চালায়।তিনি হামলাকারী ও তাদের মদদদাতাদের বিচারের মাধ্যমে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান। উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের সদস্য মহিতুর রহমানের সঞ্চালনায় এ সময় উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সামাদ বাচ্চু, শোভনালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সঞ্জয় কুমার দাস, শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান বিপুল,শোভনালী ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি ফরহাদ আহমেদ নয়ন, যুবলীগ নেতা আনিছুর রহমান বাবলা, সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তানভীর রহমান রাজ প্রমুখ।

হবিগঞ্জে শিকারি চক্র সক্রিয় হুমকির মুখে সাতছড়ির মায়া হরিণ

 হবিগঞ্জে শিকারি চক্র সক্রিয় হুমকির মুখে সাতছড়ির মায়া হরিণ


 

লিটন পাঠান হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃহবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট উপজেলার সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানে মায়া হরিণ হুমকিতে পড়েছে। হরিণ রক্ষায় আপ্রাণ চেষ্টা করছে বন বিভাগের লোকেরা কিন্তু নানা কৌশলে শিকারি চক্রের সদস্যরা উদ্যানের গহিন বনে। প্রবেশ করে ফাঁদ পেতে হরিণ শিকার করছে তবে তাদের হাতেনাতে আটক করা সম্ভব হচ্ছে না।

এ ব্যাপারে সাতছড়ি বন্যপ্রাণি রেঞ্জের সাতছড়ি বিট কর্মকর্তা মোঃ আবুল কালাম সামসুদ্দিন বলেন। টহল জোরদার করা হয়েছে রাত হলে সীমিত লোকবল দিয়ে টহল করা কঠিন তারপরও আমরা বসে নেই।


পার্শ্ববর্তী একশ্রেণির বাসিন্দারা সময়-সুযোগে উদ্যানের গহিনে প্রবেশ করে ফাঁদ পেতে রাখে। এ ফাঁদে বন্যশূকর ও অনেক সময় নিরীহ মায়া হরিণ আটকা পড়ে। কিন্তু এসব আমাদের আড়ালে করা হচ্ছে। এ বিশাল বন পাহারায় আরো লোকবল প্রয়োজন। বিভিন্ন অংশে কাঁটা তারের বেড়া দেয়া থাকলে বহিরাগতরা উদ্যানে প্রবেশ করতে পারত না।

তিনি বলেন সাতছড়ি উদ্যানের ইতিহাস জানতে হলে ফিরে যেতে হবে ১৯১২ সালে।


ওই বছর প্রায় ১০ হাজার একর দুর্গম পাহাড়ি জমি নিয়ে গঠিত রঘুনন্দন হিলস্ রিজার্ভই কালের পরিক্রমায় আজকের উদ্যান। অবশ্য জাতীয় উদ্যান হওয়ার ইতিহাস বেশিদিনের নয়। ২০০৫ সালে ৬০০ একর জমিতে জাতীয় উদ্যান করা হয়। এ উদ্যানের ভেতরে রয়েছে অন্তত ২৪টি আদিবাসী পরিবারের বসবাস রয়েছে বন বিভাগের লোকজন।


পর্যটকদের জন্য চালু করা প্রজাপতি বাগান ওয়াচ টাওয়ার হাঁটার ট্রেইল, খাবার হোটেল রেস্ট হাউস মসজিদ রাত যাপনে স্টুডেন্ট ডরমিটরি সবই এখন নিস্তব্ধ। উদ্যানে দুই শতাধিক প্রজাতির উদ্ভিদের মধ্যে শাল সেগুন আগর গর্জন, চাপালিশ পাম মেহগনি কৃষ্ণচূড়া ডুমুর জাম জামরুল সিধা জারুল আওয়াল মালেকাস, আকাশমনি বাঁশ বেত ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য।


১৯৭ প্রজাতির জীব-জন্তুর মধ্যে প্রায় ২৪ প্রজাতির স্তন্যপায়ী, ১৮ প্রজাতির সরীসৃপ, ৬ প্রজাতির উভচর। আরো আছে প্রায় ২০০ প্রজাতির পাখি। রয়েছে লজ্জাবতী বানর, উল্লুক, চশমা পরা হনুমান, শিয়াল, কুলু বানর, মেছো বাঘ, মায়া হরিণের বিচরণ। সরীসৃপের মধ্যে আছে কয়েক জাতের সাপ। কাও ধনেশ বন মোরগ লাল মাথা ট্রগন কাঠঠোকরা


ময়না ভিমরাজ শ্যামা ঝুটিপাঙ্গা শালিক হলদে পাখি, টিয়া প্রভৃতির আবাসস্থল এই উদ্যান। তিনি আরো বলেন, বনবিভাগের কঠোর দেখভালে দিন দিন মায়া হরিণসহ বন্যপ্রাণির সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। এ বনে প্রায় আড়াই থেকে তিন হাজার মায়া হরিণ রয়েছে। এসব মায়া হরিণের দিকে চোখ পড়েছে শিকারি চক্রের। ৬ আগস্ট উদ্যানের বন থেকে একটি মায়া হরিণ শিকার করা হয়। 


রামগঙ্গা চা বাগানের বাসিন্দা কাটুরিয়া বিফল বাউরী এ মায়া হরিণটি শিকার করেন। এমন সংবাদ পেয়ে আমরা অভিযান চালাই। এ সময় হরিণের মাংস ফেলে শিকারি চক্রের সদস্যরা পালিয়ে যায় এ ব্যাপারে হবিগঞ্জ বন আদালতে বিফল বাউরী ও তার ছেলে গণেশ বাউরীর নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত ৩ থেকে ৪ জনকে আসামি করে মামলা হয়েছে।

অপরাহ্ণ সুমন হালদার

অপরাহ্ণ   সুমন হালদার


চারিধারে ঘনায়েছে কালোমেঘ

ওগো, তোরা ঘরে ফিরে আয়রে।

আলোটা লুকায়ে গেছে আড়ালে

বেলা ডুবে বুঝি আজ যায়রে।

দ্বারে বসে দেখ দেখি ওরে রাম

বিটুলদা মাঠ হতে এসেছে?

ভবঘুরে পরীমনি ওই হেথা-

স্বামী কি তাকে ভালোবেসেছে?

উত্তরে দুইঘর টিনের চালা

দক্ষিনে সুপারির সেই বন।

পূর্বে বায়ু ফাঁক পেয়ে পথটা

পশ্চিমে ডোবায় ব্যাঙ লম্ফন।

ওরে তোরা ইট ভাঙা থামাবি?

বক উড়ে যায় তার বাসাতে।

আজ যা করেছ তা ভালোই

থাক শুধু কালকের আশাতে

নওগাঁ -৬ আসনের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন দেওয়া শুরু ১৭ আগষ্ট

নওগাঁ -৬ আসনের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন  দেওয়া শুরু ১৭ আগষ্ট



রাজশাহী  ব্যুরোঃ সম্প্রতি শূন্য হওয়া নওগাঁ-৬ (আত্রাই-রাণীনগর) আসনে নমিনেশন দেওয়া শুরু হবে ১৭ আগষ্ট থেকে ২৩ আগষ্ট, সকাল ১১টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত।বাংলাদেশ আওয়ামী লীগে সভাপতি দেশনেত্রী শেখ হাসিনা এমপি’র ধানমন্ডিস্থ রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে(বাড়ি ৫১/এ,সড়ক ৩/এ,ধানমন্ডি আ/এ, ধানমন্ডি, ঢাকা থেকে দলীয় মনোনয়নের আবেদন সংগ্রহ করতে পারবেন।বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিল্পব বড়ুয়া সাক্ষরিত পত্রে তা জানানো হয়েছে।


নির্বাচন কমিশনের (ইসি) নির্বাচন ব্যবস্থাপনা শাখার কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ইতোমধ্যে আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়েছে। সংসদ সচিবালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত সংসদ সদস্যদের তালিকাতেও আসনটি শূন্য বলে উল্লেখ করা হয়েছে।


গত ২৭ জুলাই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের তিন বারের নির্বাচিত সাংসদ শ্রমিক নেতা সদ্য প্রয়াত ইসরাফিল আলম  করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্য হলে আসনটি শূন্য হয়।


সংবিধান অনুযায়ী, কোনো আসন শূন্য হলে তার পরবর্তী নব্বই দিনের মধ্যে ভোট করতে হয়। তবে দ্বৈবদুর্বিপাক হলে এই সময়ের পরবর্তী নব্বই দিনের মধ্যে ভোট করার ক্ষমতা রয়েছে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের।

এ ক্ষেত্রে প্রথম নব্বই দিনের হিসেব অনুযায়ী, আগামী ২৪ অক্টোবরের মধ্যে ভোট করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

বর্তমানে করোনা ভাইরাসের কারণে সিইসি তার ক্ষমতা প্রয়োগ করে পরবর্তী নব্বই দিনে ভোট করছেন। এ ক্ষেত্রে আসনটিতে ২০২০ সালের ২২ জানুয়ারির মধ্যে ভোট করতে হবে।


ইসি সচিব মো. আলমগীর এ বিষয়ে জানান, আগামী ২৩ ও ২৪ আগস্ট কমিশন বৈঠক রয়েছে। সে সময় এ আসনের ভোট নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে।

সুন্দরবনে মাছের পাশ বন্ধ অনাহারে জেলে পরিবার

সুন্দরবনে মাছের পাশ বন্ধ অনাহারে জেলে পরিবার

 

মোহাঃ ফরহাদ হোসেন,কয়রা  প্রতিনিধি : সুন্দরবনে মাছের পাশ পারমিট বন্ধ হওয়ায় মানবেতর জীবন যাপন করছে সুন্দরবন উপকূলের হাজার হাজার জেলে পরিবার। যাদের নুন আনতে পানতা ফুরায় সুন্দরবনের উপরে নির্ভরশীল এমন পরিবারগুলোর দিন কাটছে না খেয়ে । অধিকাংশ জেলে পরিবারগুলো  জড়িয়েছে বিভিন্ন এনজিওর  সুদের জালে।


পহেলা জুলাই থেকে ৩০ আগস্ট পর্যন্ত সুন্দরবনের সব নদী ও খালে মাছ ধরা নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে বন বিভাগ। ২৪ জুন থেকে সুন্দরবনে প্রবেশের জন্য সব পাশ ও পারমিট দেওয়া বন্ধ রেখেছে বন বিভাগ। এর আগে গত বছর দুই মাস সুন্দরবনে মাছ ধরা নিষিদ্ধ ছিল। নদীর কূলে  বসবাসরত জেলেরা মাছ ধরেই দিনযাপন করে থাকেন। অধিকাংশ জেলেরা মাছ ধরা ছাড়া আর অন্য কোনো কাজের সাথে সম্পৃক্ত নয়, এছাড়া অনেকেই মাছ ধরা ছাড়া আর অন্য কোনো কাজ পারেন না।


সুন্দরবন উপকূলে কথা হয় কয়েকজন জেলের সাথে, কথা বলতেই তারা বলতে থাকেন তাদের দুঃখ দুর্দশার কথা। বংশ পরম্পরা জেলে পেশার সাথে যুক্ত আলতাফ হোসেন বলেন, দীর্ঘ ১০/১৫ বছর ধরে জঙ্গলের সাথে সম্পর্ক, পাশ পারমিট খুবই প্রয়োজন। পাশ না পেলে না খেয়ে মরে যেতে হবে। আমি তো সুন্দরবনের উপর নির্ভরশীল, পাশ বন্ধ থাকায় এখন বাড়িতে বসা, ঋণের উপর চলছে আমার ১০ জনের সংসার ।


তিনি আক্ষেপের সাথে বলেন, সুন্দরবনে প্রবেশের পাশ দিলে সুন্দরবনের বরং উপকার হবে। কোন ক্ষতি হবে না। পাশ না দিলে কাঁকড়া, মাছ নির্দিষ্ট সময়ে মারা যাবে, তাতে ক্ষতি হবে। তিনি আরো বলেন আগে জানতাম জানুয়ারি – ফেব্রুয়ারি এই ২ মাস পাশ বন্ধ থাকে কিন্তু এখন দেখছি ইচ্ছা মত বন্ধ থাকে।



বনজীবী কৃষ্ণ মুন্ডা   বলেন, এখন স্ত্রী  সন্তান নিয়ে খুব খারাপ অবস্থা, এক দিকে করোনা ভাইরাস, ঘূর্ণিঝড় আম্পান, অন্য দিকে জীবিকা নির্বাহের একটি মাত্র পথ সেটাও বন্ধ। মানুষের বাড়ি হাজরী খাটতাম তাও বন্ধ। বনে প্রবেশের পাশ পারমিটটা খুবই প্রয়োজন আমাদের।


আম্পানে এলাকার প্রায় সকল মানুষের কম বেশি ক্ষতি হয়েছিল, কিন্ত এলাকার মানুষ ভেবে ছিল সুন্দরবনে যেয়ে মাছ- কাঁকড়া ধরে ক্ষতিটা পুষিয়ে উঠবে সেটাও হলো না। মহাজনেরা আর ঋণ না দেওয়ার কারণে বনজীবীরা বাধ্য হয়ে বিবিন্ন এনজির  মাধ্যমে ঋণ নিয়েছে সংসার চালানোর জন্য। অনেকেই ভেবেছিল মাছ ও কাঁকড়া ধরে কিস্তির মাধ্যমে ঋণের টাকা পরিশোধ করবে, তারাও এখন কিস্তি নেওয়া শুরু করেছে।




অসহায় জেলে পরিবার গুলো  আরো বলেন, পাশ পারমিট না দিলে চুরি ডাকাতি বৃদ্ধি পাবে, পরিবারে অশান্তি দেখা দেবে। দীর্ঘ দিন পাশ বন্ধ থাকলে বনজীবীরা ভিন্ন পেশা বেছে নেবে, ফলে বনজীবীরা তাদের পেশা হারাবে।


এ সময়ে করোনা সংক্রমণ ঝুঁকি থেকে বাঁচতে তাদের মাস্ক ব্যবহারের কথা বললে তারা বলেন, করোনা ভাইরাসের কথা আমাদের মনেই নেই, কারণ আয় উপার্জন নেই। আয় না থাকলে তো এমনিই মরতে হবে, তা আর করোনার ভয়ে মাক্স পরে কি হবে।


পাশ পারমিট বন্ধ বিষয়ে কয়রা সদর  ইউপি চেয়ারম্যান এইচ,এম, হুমায়ুন কবির বলেন, পাশ বন্ধ থাকায় সুন্দরবন ‚উপকূলের  জেলেরা মানবেতর জীবনযাপন করছে। বনবিভাগ এলাকার নদীতেও মাছ ধরা বন্ধ করেছে। মাছ ধরা বন্ধ থাকায় ঋণের জালে জড়িয়ে যাচ্ছে জেলে পরিবার গুলো।


পশ্চিম সুন্দরবনের সহকারী বন সংরক্ষণ কর্মকর্তা বলেন, সুন্দরবনে মৎস্য সম্পদ রক্ষায় ইন্টিগ্রেটেড রিসোর্সেস ম্যানেজমেন্ট প্ল্যানস এর (আইআরএমপি) সুপারিশ অনুযায়ী ২০১৯ সালে সুন্দরবন বন বিভাগ একটি চুক্তিতে আবদ্ধ হয়েছে। যার অংশ হিসেবে প্রতিবছর ১ জুলাই থেকে ৩০ আগস্ট পর্যন্ত সুন্দরবনের (পূর্ব ও পশ্চিম) সব নদী ও খালে মাছ আহরণ বন্ধ থাকবে। এই দুই মাস সুন্দরবনের নদী খালে থাকা বেশির ভাগ মাছের প্রজনন মৌসুম। যার ফলে এ সময় মাছ ধরা বন্ধ থাকলে সুন্দরবনের নদী খালে যেমন মাছ বৃদ্ধি পাবে, তেমনি অন্যান্য প্রাণী, উদ্ভিদসহ সব জীবের ক্ষেত্রে ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে। পরবর্তী সিদ্ধান্ত না হওয়া পর্যন্ত প্রতিবছর একই সময়ে সুন্দরবনের অভ্যন্তরে মাছ আহরণ নিষিদ্ধ থাকবে। এ সময়ে চোরা শিকারিরা যাতে মেতে না উঠতে পারে সে জন্য বনে টহল জোরদার করা হয়েছে।


তিনি আরও বলেন, আমরা ২৪ জুন থেকে সুন্দরবনে প্রবেশের জন্য জেলেদের পাশ পারমিট দেওয়া বন্ধ রেখেছি। ২৩ তারিখ পর্যন্ত যাদের পাশ-পারমিট দেওয়া হয়েছে তাদেরকে ৩০ জুনের মধ্যে ফিরে আসার নির্দেশ দেয়া হয়েছিল। ৩০ জুনের পরে কাউকে বনের ভেতরে পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বশেমুরবিপ্রবি অর্থনীতি বিভাগের চেয়ারম্যান হলেন জুবাইদুর রহমান

বশেমুরবিপ্রবি অর্থনীতি বিভাগের চেয়ারম্যান হলেন জুবাইদুর রহমান



সুমন,বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধিঃ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের নবনিযুক্ত চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পেলেন সহকারী অধ্যাপক জুবাইদুর রহমান। সাবেক চেয়ারম্যান খসরুল আলমের জায়গায় স্থলাভিষিক্ত হলেন তিনি।


এর আগে তিনি ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেছিলেন।তিনি বিজয় দিবস হলের সাবেক হল প্রভোস্টও ছিলেন।


নবনিযুক্ত স্যারকে অভিনন্দন জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

হবিগঞ্জে শেখ হাসিনা মেডিক্যাল কলেজ অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে মামলা

 হবিগঞ্জে শেখ হাসিনা মেডিক্যাল কলেজ অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে মামলা


.


লিটন পাঠান হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃকোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে হবিগঞ্জ জেলায় শেখ হাসিনা মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. মো. আবু সুফিয়ানসহ দুজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। প্রকৃত দামের চেয়ে অতিরিক্ত দামে বই কিনে এক কোটি ঊনত্রিশ লক্ষ তেত্রিশ হাজার একশত একুশ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয়েছে তাদের বিরুদ্ধে। মামলার অপর আসামি হলেন নির্ঝরা এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী আফসানা ইসলাম কাকলী।


রবিবার(১৬ আগস্ট) দুদকের উপ-সহকারী পরিচালক সহিদুর রহমান বাদী হয়ে এই মামলাটি দায়ের করেন।

শেখ হাসিনা মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. মোঃ আবু সুফিয়ানের বিরুদ্ধে আরও একটি মামলা দায়ের করেছে দুদক। কমিশনের উপ-সহকারী পরিচালক মোঃ ফেরদৌস রহমান বাদী হয়ে এই মামলাটি দায়ের করেন। মামলার অপর আসামি হলেন পুনম ট্রেড ইন্টারন্যাশনালের এসএম নজরুল ইসলাম নুতন।

মামলার অভিযোগে বলা হয়েছে অতিরিক্ত মূল্য দেখিয়ে যন্ত্রপাতি কেনার মাধ্যমে দুই কোটি চৌদ্দ লক্ষ সাতচল্লিশ হাজার সাত শত টাকা আত্মসাৎ করেছেন তারা।


এছাড়া বাংলাদেশ রেলের প্রকল্প পরিচালক রমজান আলী ও তার স্ত্রীর দিলরুবা পারভীন ইলোরার বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে পৃথক দুইটি মামলা দায়ের করেছে দুদক। একটি মামলার অভিযোগে বলা হয়েছে, আসামি মো. রমজান আলী জ্ঞাত আয়ের উৎস বহির্ভূত দুই কোটি তেতাল্লিশ লক্ষ আশি হাজার দুইশত ছিয়াশি টাকার সম্পদ অর্জন ও দখলে রেখেছেন।


অপর মামলায় রমজান আলীর স্ত্রী দিলরুবা পারভীন ইলোরাকে আসামি করেছে দুদক। মানি লন্ডারিং আইনে দায়ের করা মামলায় বলা হয়েছে, জ্ঞাত আয়ের উৎস বহির্ভূত এক কোটি পঁচাশি লক্ষ আট হাজার একশত আশি টাকার সম্পদ অর্জন ও দখলে রেখে দুর্নীতি দমন কমিশন আইন, ২০০৪ এর ২৭(১) ধারা এবং মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইন, ২০১২ এর ৪(২) ও ৪(৩) ধারায় শাস্তিযোগ্য অপরাধ সংঘটন করায় মামলাটি দায়ের করা হয়।

মাধবপুরে শিক্ষকের বাড়িতে দুর্ধর্ষ ডাকাতি

 মাধবপুরে শিক্ষকের বাড়িতে দুর্ধর্ষ ডাকাতি


 

লিটন পাঠান হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজলার গাজীপুর গ্রামে এক অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকের বাড়িতে দুর্ধর্ষ  ডাকাতি হয়েছে। ডাকাতদল বাড়ির সবাই কে জিম্মি করে স্বর্ণালংকার নগদ টাকা, মোবাইল ফোন নিয়ে যায় শনিবার (১৫ আগষ্ট)গভীর রাতে এ ঘটনা ঘটে। এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায় মাধবপুর উপজেলার চৌমুহনী 


ইউনিয়নের গাজীপুর গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক আনোয়ার হোসেন আনু মাষ্টার এর ঘরের রান্না করার চিমটি চুলার উপরের স্লেব সরিয়ে ডাকাত ঘরের ভিতর প্রবেশ করে পরে দরজা খোলে একে একে ১৫/২০ জন ডাকাত প্রবেশ করে। ডাকাতরা দেশীয় অস্ত্রের ভয় 


দেখিয়ে বাড়িতে থাকা ৩ ভরি ওজনের স্বর্ণালংকার,নগদ টাকা ৪ টি মোবাইল ১টি এলইডি টেলিভিশন ১টি ট্যাব নিয়ে যায়। রোববার(১৬ আগস্ট) সকালে কাশিমনগর পুলিশ ফাঁড়ির এসআই মোজাম্মেল হোসেন ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেন এসআই মোজাম্মেল হোসেন জানান, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কেউ অভিযোগ করেনি। ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

নাগরপুর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগ কর্তৃক জাতীয় শোক দিবস উদযাপন

 নাগরপুর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগ কর্তৃক জাতীয় শোক দিবস উদযাপন



হাসান সাদী,নাগরপুর (টাংগাইল) প্রতিনিধি:সারাদেশের ন্যায় টাংগাইলের নাগরপুর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগ কর্তৃক যথাযথ মর্যাদায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৫ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস ২০২০ পালিত হয়েছে।


দিবসটি উপলক্ষে গত শনিবার, ১৫ই আগষ্ট ২০২০ খ্রি. নাগরপুর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগ এর উপজেলা আহবায়ক কমিটির অন্যতম সদস্য মোঃ বাহারুল ইসলাম বাহারের নেতৃত্বে উপজেলা পর্যায়ে সকল নেতাকর্মী ও সকল ইউনিয়ন পর্যায়ের নেতা কর্মীদের সাথে নিয়ে সকাল ১০ ঘটিকা সময় নাগরপুর উপজেলা প্রাঙ্গনে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে স্বাধীনতার এই মহান স্থপতির প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়।


বঙ্গবন্ধু প্রতিকৃতির শ্রদ্ধাঞ্জলী অর্পণের পর হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ এই বাঙালির প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের অংশ হিসেবে সেখানে কিছুক্ষণ নীরবে দাঁড়িয়ে নিরবতা পালন করা হয়।


পঁচাত্তরের ১৫ আগষ্ট শহিদদের স্মরণে অনুষ্ঠিত বিশেষ আলোচনায় সভায় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবির, ,সদর ইউনিয়ন যুবলীগের নেতা খন্দকার লাবু, হারুন আহমেদ, রাসেল,রুবেল,রাজিব,মজিবর,শরিফুল ইসলাম তান্না, গয়হাটা ইউনিয়নের যুবলীগের সিনিঃ যুগ্ম আহবায়ক মেহেদি হাসান (ফারুক) সহ নাগরপুরের সকল ইউনিয়নের নেতাকর্মী পরিশেষে বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্জলি ও মঙ্গল কামনা করে জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু স্লোগান দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।



পরে অনুষ্ঠান শেষে প্রায় ৫০০জন কর্মীর প্রীতিভোজন এর আয়োজন করা হয়।

সাতক্ষীরার তালা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রুগী হয়রানির দায়ে দালালকে ১ মাসের কারাদণ্ড

সাতক্ষীরার তালা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রুগী হয়রানির দায়ে দালালকে ১ মাসের কারাদণ্ড

 

আজহারুল ইসলাম সাদী, স্টাফ রিপোর্টারঃউপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা সেবা নিতে আসা রোগিদের হয়রানি আর নাজেহালের দায়ে মোঃ রফিকুজ্জামান (৪৫) নমের এক ব্যক্তিকে ১ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত।

আজ রবিবার (১৬ আগষ্ট) বেলা ১ টার দিকে ভ্রাম্যমান আদালতের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ও তালা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ইকবাল হোসেন এ দন্ডাদেশ প্রদান করেন। দন্ডপ্রাপ্ত রফিকুজ্জামান তালা উপজেলার আটারই গ্রামের শেখ এলাহী বক্সের ছেলে।

জানা গেছে, বেশ কিছুদিন যাবত একদল দালাল চক্র তালা হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা নিতে আসা রুগীদের হয়রানী ও বিভিন্নভাবে নাজেহাল করে আসছিল। রবিবার সকালে মোঃ রফিকুজ্জামান নামের ঐ ব্যক্তি হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা নিতে আসা কয়েকজনকে হয়রানী করার অভিযোগে পুলিশ তাকে আটক করে। পরে এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ও তালা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ইকবাল হোসেন দন্ডবিধি ২৯১ ধারা মোতাবেক তাকে ১ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করে।


এ ব্যাপারে তালা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ মেহেদী রাসেল বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, দন্ডপ্রাপ্ত রফিকুজ্জামানকে আজ বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।