জয়পুরহাটে মেধাবী শিক্ষার্থীরা পেল জেলা পরিষদের শিক্ষা বৃত্তি

জয়পুরহাটে মেধাবী শিক্ষার্থীরা পেল জেলা পরিষদের শিক্ষা বৃত্তি
জয়পুরহাটে মেধাবী শিক্ষার্থীরা পেল জেলা পরিষদের শিক্ষা বৃত্তি
জামিরুল ইসলাম জয়পুরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ বঙ্গবন্ধু  শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে জয়পুরহাট জেলা পরিষদের নিজস্ব তহবিল থেকে জেলার পাঁচবিবি উপজেলার ৮৭ জন মেধাবী শিক্ষার্থীর মাঝে ৪ লাখ ৩৫ হাজার টাকার বৃত্তির চেক বিতরণ করা হয়েছে। শনিবার দুপুরে পাঁচবিবির ডাকবাংলো চত্বরে  আয়োজিত অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের চেক তুলে দেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান  ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আরিফুর রহমান রকেট।

চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা চেয়ারম্যান মনিরুল শহিদ মুন্না, পাঁচবিবি উপজেলা  নির্বাহী কর্মকর্তা বরমান হোসেন, মেয়র হাবিবুর রহমান হাবিব, জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আফজাল হোসেন আঙ্গুর, সদস্য মানিক আকন্দ, মামুনুর রশিদ, ফারুক হোসেন, মহিলা সদস্য রাশেদা বেগম, রেবেকা সুলতানা, উপজেলা আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সুমন চৌধুরী সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্টানের শিক্ষকগণ।

এ সময় শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে বক্তারা বলেন, 'আজ থেকে ১০ বছর আগে দরিদ্র মেধাবী শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার জন্য বৃত্তি দেওয়া হতো। দশ বছর পরে আজ কিন্তু দরিদ্র শব্দটা মুছে গেছে। সরকার এখন মেধাবী শিক্ষার্থীদের তাদের মেধার স্বীকৃতিস্বরূপ বৃত্তি দিয়ে আসছে।'মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও দুর্নীতিকে 'না' বলে পড়ালেখা শেষ করে মেধাবী শিক্ষার্থীদের বাংলাদেশ গড়ার কাজে আত্মনিয়োগ করার আহবান জানান বক্তারা।পরে মাধ্যমিক ও তদূর্ধ পর্যয়ে অধ্যয়নরত পাঁচবিবি  জেলার মেধাবী ৮৭ জন শিক্ষার্থীর মাঝে চলতি বছরের জনপ্রতি ৫০০০ টাকা হারে শিক্ষাবৃত্তির টাকার চেক বিতরণ করা হয়েছে

কবি নজরুল ইসলাম লিখেছিলেন মৌলবাদীদের চরিত্র নিয়ে গুন্ডামি ভন্ডামি গোঁড়ামি ধর্ম নয়

কবি নজরুল ইসলাম লিখেছিলেন মৌলবাদীদের চরিত্র নিয়ে গুন্ডামি ভন্ডামি গোঁড়ামি ধর্ম নয়

আব্দুল জব্বার, স্টাফ রিপোর্টার।।গুন্ডামি ভন্ডামি আর গোঁড়ামি ধর্ম নয়,এই গোঁড়াদের সর্বশাস্ত্রে শয়তানি চেলা কয়।নির্বোধ জাতির বোধ উদয়ে কবি নজরুল আরও বলেছিলেন

যাহারা গুন্ডা, ভন্ড- তারাই ধর্মের আবরণে,
স্বার্থের লোভে ক্ষ্যাপাইয়া তোলে অজ্ঞান জনগণে জাতিতে জাতিতে ধর্মে ধর্মে বিদ্বেষ এরা আনি, আপনার পেট ভরায়, তখত চায় এরা শয়তানি।

আজ শষ্যের চেয়ে আগাছা বেশী; ধর্মের চেয়ে টুপি-দাঁড়ি বেশী। এই টুপি-দাঁড়িওয়ালা মোল্লারা কি চায়? পেট পূজারী মোল্লাদের ক'দিন পর পর কী এতো সমস্যা দেখা দেয়? ধর্ম শিক্ষার নামে বলাৎকার, ধর্ষণ, ইসলামের নামে মানুষ হত্যা, জঙ্গীপনা, সাম্প্রদায়িক কলহ, ভাংচুর, লুটতরাজ- মানবতা বিরোধী ইত্যাদি কর্মকান্ডের কোনকিছুই তো ইসলাম সমর্থন করে না। 

তা সত্ত্বেও নির্বোধ মানুষগুলো মনে করে যে, শান্তি বিনষ্টকারী এই মোল্লারাই ইসলামের রক্ষক ও ধারক বাহক। কিন্তু প্রকৃত সত্য হচ্ছে যে, কোন ধর্মের মৌলবাদীরাই সে ধর্মের মূলে নেই, বরং সর্বযুগেই তারা সত্যের গৃহ হতে ছিটকে গিয়ে স্ব স্ব ধর্মেরই প্রেরিত পুরুষদের বিরোধীতা করে এসেছে। 

আর মুসলমান ধর্মের মোল্লারা তো ধর্মের সত্য হতে এমনভাবে বেড়িয়ে গেছে যেভাবে ধনুক হতে একটি তীর বেড়িয়ে যায়। সমাজে আজ যাদেরকে মানুষ মুসলমান বলে মনে করছে এরাই কারবালার ময়দানে মহানবীর ধর্মদর্শন ও নবী-পরিবারের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে মূল ইসলাম থেকে ছিটকে গিয়ে টুপি-দাঁড়ি মার্কা অনুষ্ঠানসর্বশ্ব ভোগবাদী এক এজিদী ইসলামের সূচনা করেছিল যা এখনও প্রচলিত আছে, সেই নবগঠিত ইসলামের খাঁটি উত্তরসুরিই বর্তমান কালের মোল্লা-মুন্সি ও মুফতি-মাওলানারা। 

ইসলামের চেহারাকে পাল্টে দেয়া হয়েছে, এজিদী ধর্মকেই মোহাম্মদী ধর্ম বলে সমাজে, ধর্মগ্রন্থে, জনমনে বলপূর্বক চাপিয়ে দেয়া হয়েছে। তাই কোন ঐশী মহামানবই এইসব মোল্লাদের ধর্মমতকে সমর্থন করেননি, মোল্লাদের ধর্মচর্চাকে সত্য-শুদ্ধ বলে স্বীকৃতি দেননি। পাকিস্তানের জাতীয় কবি আল্লামা ইকবাল মোল্লাদের নিয়ে লিখেছেন, মুশরিক আজ মুসলিম বেশে করিতেছে কোলাহল।

জাস্টিস সার্ভড ফাউন্ডেশনের শুভ উদ্বোধন ও নতুন কমিটি গঠন

জাস্টিস সার্ভড ফাউন্ডেশনের শুভ উদ্বোধন ও নতুন কমিটি গঠন

নিজস্ব প্রতিবেদক: ২৬শে মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবস এবং বাঙালির স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে বাংলাদেশের আইনের শিক্ষার্থী ও আইন অঙ্গনের বিজ্ঞজনদের নিয়ে জাস্টিস সার্ভড ফাউন্ডেশনের নতুন কমিটি গঠনের মধ্য দিয়ে সংগঠনটি কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করা হয়েছে।

ফাউন্ডেশনের সাথে যুক্ত, বরিশালে উপস্থিত সকল সদস্য নিয়ে সকাল এগারোটায় কেক কেটে ফাউন্ডেশনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান উদযাপন করা হয় এবং সন্ধ্যা সাড়ে সাত টায় ভার্চুয়াল প্লাটফর্মে ফাউন্ডেশনের সাথে যুক্ত সকল সদস্য এবং শ্রদ্ধেয় অতিথিবৃন্দের উপস্থিতিতে ফাউন্ডেশনের অফিসিয়াল উদ্বোধনী অনুষ্ঠিত হয়।

জাস্টিস সার্ভড ফাউন্ডেশন - জেএসএফ হল একটি অলাভজনক, অরাজনৈতিক আইনী  সংস্থা যা বাংলাদেশের সকল পাবলিক ও প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন শিক্ষার্থী এবং আইনী অঙ্গনের মানুষের সাথে সম্পর্কিত। ন্যায়বিচার ও শান্তি প্রতিষ্ঠায় সংগঠনের সাথে যুক্ত সবাই প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পটুয়াখালী বিজ্ঞান প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ল এন্ড ল্যান্ড পলিসি বিভাগের সম্মানিত চেয়ারম্যান ও সহকারী অধ্যাপক জনাব মোঃ রেজাউল ইসলাম মাসুম, এবং উত্তরা ইউনিভার্সিটির সিনিয়র লেকচারার এবং ঢাকা জজ কোর্টের আইনজীবী, অ্যাডভোকেট আশরাফুজ্জামান বাবু (নিলয়)। এছাড়াও অনুষ্ঠানে ফাউন্ডেশনের সভাপতিসহ এই ফাউন্ডেশনের সাথে যুক্ত বাংলাদেশের সকল পাবলিক ও প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের আইনের শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। 

অনুষ্ঠানের শুরুতে সকলের সম্মিলিত কন্ঠে জাতীয় সংগীত গাওয়ার পর বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের আইনের শিক্ষার্থীরা তাদের মূল্যবান বক্তব্য তুলে ধরেন। 

ফাউন্ডেশনের  সভাপতি, আজহারুল ইসলাম (শিক্ষার্থী, আইন বিভাগ, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়) তাঁর বক্তব্যে বলেছেন, আইনের শিক্ষার্থীদেরকে সমন্বয়ের মাধ্যমে আইনের সুশাসন প্রতিষ্ঠায়, জনসাধারণের মানবাধিকার সম্পর্কে সুস্পষ্ট ধারনা প্রদান এছাড়াও পাবলিক ইন্টারেস্ট লিটিগেশন নিয়ে কাজ করবে এই প্লাটফর্ম- জেএসএফ।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত শ্রদ্ধেয় অতিথিবৃন্দ জেএসএফ এর সাথে যুক্ত সবাইকে এক হয়ে ফাউন্ডেশনের মূল লক্ষ্য উদ্দেশ্য পূরণ করার আহবান জানান। অনুষ্ঠানের উপস্থাপনায় ছিলেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের আইনের শিক্ষার্থী নিপা রানী সাহা  এবং গ্লোবাল ইউনিভার্সিটির আইনের শিক্ষার্থী নুসরাত জাহান লামিয়া। 

অসাধারণ সমাপনী উপস্থাপনা এবং  ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও সাধারণ সম্পাদক  মোঃ সাহিদ ইসলামের (শিক্ষার্থী, আইন বিভাগ, গ্লোবাল ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ) মূল্যবান বক্তব্যের মাধ্যমে শেষ হয় উদ্ধোধনী অনুষ্ঠান এবং সেই সাথে সংগঠনটির ১ বছর মেয়াদী ৬৭ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি অনুমোদন করা হয় যেখানে সভাপতি হিসেবে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আজহারুল ইসলাম এবং সাধারন সচিব হিসেবে গ্লোবাল ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ এর শিক্ষার্থী সাহিদ ইসলাম দায়িত্বরত হয়েছেন।

মসজিদে হামলা-ফেসবুক ডাউনে নতুনধারার নিন্দা সভা

মসজিদে হামলা-ফেসবুক ডাউনে নতুনধারার নিন্দা সভা

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ  মসজিদে হামলা-ফেসবুক ডাউনে নতুনধারার নিন্দা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। নতুনধারা বাংলাদেশ এনডিবির চেয়ারম্যান মোমিন মেহেদীর সভাপতিত্বে তোপখানা রোডস্থ কার্যালয়ে ২৭ মার্চ বিকেল ৪ টায় অনুষ্ঠিত নিন্দা সভায় বক্তারা বলেছেন, নতুন প্রজন্মের প্রতিনিধিরা রাজনীতিকে পূঁজি করে দুর্নীতি-ধর্ম ব্যবসা-মসজিদে হামলা এবং ফেসবুকের মত আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম ডাউন করে টুটি চেপে ধরার চেষ্টাকে কখনোই মেনে নেবে না। স্বাধীনতার সূবর্ণ জয়ন্তীতে হেফাজতের মসজিদ ভিত্তিক মিছিল এবং প্রশাসনের মসজিদে হামলার পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক বন্ধ করে দেয়ার মধ্য দিয়ে আবারো প্রমাণিত হলো এই সরকারে ষড়যন্ত্রকারীদের দৌড়াত্ম চলছে।

প্রেসিডিয়াম মেম্বার অধ্যাপক শুভঙ্কর দেবনাথ, সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান শান্তা ফারজানা, ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব নিপুন মিস্ত্রী, সাংগঠনিক সম্পাদক ওয়াজেদ রানা, প্রকৌশলী লায়লা আরজুমান্দ আরা প্রমুখ এসময় বক্তব্য রাখেন।

মোহনগঞ্জে করোনা সচেনতায় মাস্ক বিতরন

মোহনগঞ্জে করোনা সচেনতায় মাস্ক বিতরন

আজহারুল ইসলাম মোহনগঞ্জ প্রতিনিধি নেত্রকোনাঃ নেত্রকোনার মোহনগঞ্জে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে মোহনগঞ্জ প্রেস ক্লাবের পক্ষ হতে করোনা সচেনতায় সর্ব সাধারণের মাঝে সারে চার হাজার মাস্ক বিতরন করা হয়েছে। 
শনিবার বেলা ১টায়  মোহনগঞ্জ প্রেস ক্লাবের আয়োজনে উপজেলা পরিষদ  প্রাঙ্গনে মাস্ক বিতরন কর্মসূচীর উদ্ভোধন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব আরিফুজ্জামান। 
এ সময় উপস্থিত ছিলেন,সহকারী কমিশনার (ভুমি) নাজনীন সুলতানা,  উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান বাবু দিলীপ দত্ত,ওসি আব্দুল আহাদ খান,প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা দিপালী, প্রেস ক্লাবের সভাপতি মোঃরকিবুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মাছুম আহমেদ,সাবেক সভাপতি আবুল কাসেম আযাদ,যুগ্নসম্পাদক মানিক তালুকদার,সাংবাদিক সাইফুল আরিফ জুয়েল,সাংবাদিক জহিরুল ইসলাম,সাংবাদিক আঃ রব, সাংবাদিক লুৎফা শেখ,সাংবাদিক আজহারুল ইসলাম ও দোস্ত মোহাম্মাদ প্রমুখ। উপজেলা পরিষদ হতে শুরু করে পৌর শহরের বিভিন্ন স্থানে সাধারণ মানুষের মাঝে প্রায় সারে চার হাজার মাস্ক বিতরন করা হয়েছে।

ভোলার দৌলতখানে যথাযোগ্য মর্যাদায় স্বাধীনতা দিবস পালিত

ভোলার দৌলতখানে যথাযোগ্য মর্যাদায় স্বাধীনতা দিবস পালিত
ভোলার দৌলতখানে যথাযোগ্য মর্যাদায় স্বাধীনতা দিবস পালিত
মোঃ আওলাদ হোসেন,জেলা প্রতিনিধি, ভোলাঃ দৌলতখানে যথাযোগ্য  মর্যাদায় বীর শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানিয়ে উদযাপিত হয়েছে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস এবং সুবর্ণজয়ন্তী ।

 শুক্রবার (২৬মার্চ) দিবসটি উপলক্ষে সকালে ভোলা-২ আসনের সাংসদ আলহাজ্ব আলী আজম মুকুল, উপজেলা প্রশাসন, থানা পুলিশ,  বীর মুক্তিযোদ্ধা ও উপজেলা আওয়ামীলীগ ও বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

 পরে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স চত্বরে  জাতীয় পতাকা উত্তোলন এবং কুচকাওয়াজে সালাম গ্রহণ করেন আলী আজম মুকুল এমপি ও স্থানীয় প্রশাসন।পরে সকাল ৯টার দিকে  উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে উপজেলা পরিষদ চত্বরে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহিদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যদের সংবর্ধনা এবং   আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (অতিরিক্ত দায়িত্ব)  সাইফুর রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, ভেলা-২ আসনের  সাংসদ আলহাজ্ব আলী আজম মুকুল।


অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মনজুর আলম খান, থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)  বজলার রহমান, পৌর মেয়র জাকির হোসেন তালুকদার, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন জাহাঙ্গীর, ভবানীপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান গোলাম নবী নবু, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হামিদুর রহমান টিপু প্রমুখ ।

অনুষ্ঠানে মহান স্বাধীনতা দিবসের বিভিন্ন ইভেন্টে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহিদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যদের সংবর্ধনা দেয়া হয়।

এ ছাড়া দিবসটি উপলক্ষে আজ সকাল থেকে সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উদ্যোগে দিনব্যাপী নানা কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

রাজাপুরে মেম্বর প্রার্থীর তরিকুল ইসলাম তারেকের উঠান বৈঠক

রাজাপুরে মেম্বর প্রার্থীর তরিকুল ইসলাম তারেকের উঠান বৈঠক

মোঃ নাঈম হাসান ঈমন ঝালকাঠি জেলা প্রতিনিধিঃ ঝালকাঠির রাজপুরে ২৬ মার্চ শুক্রবার বিকালে মঠবাড়ি ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের মেম্বর প্রার্থী মোঃ তরিকুল ইসলাম তারেকের নির্বাচনি উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। ওই ওয়ার্ড থেকে পর পর দুইবার নির্বাচিত মোঃ তরিকুল ইসলাম তারেক বলেন, আমি আমার ওয়ার্ডসহ মঠবাড়ি ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডে উন্নয়নের কাজ করেছি। এলাকার ছোট খাটো কম পক্ষে ৮টি রাস্তা আমার নিজ খরচে নির্মান করেছি। এলাকার ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে গরীব দুঃখীদের বিনা খরচে বিভিন্ন ভাতার কার্ড করে দিয়েছি। এলাকার মানুষের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানসহ আমার সাধ্যমতো সেবা দেয়ার চেষ্টা করেছি। তাই এলাকার জনগন আমাকে ভালোবেসে বার বার নির্বাচিত করেছেন। এবারেও এলাকার জনগন আমাকে মঠবাড়ি ইউনিয়ন থেকে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করতে বলেছিলেন। এলাকার জনগনের কথায় আমি চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করতে সকল প্রস্তুতি নিয়েছিলাম। কিন্তু দলিয় সিদ্ধান্তে অন্য একজনকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে এবং এই বছর আমাকে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করতে নিষেধ করায় আমি দলীয় সিদ্ধান্ত মেনে নিয়ে ৬ নং ওয়ার্ড থেকে মেম্বর পদে নির্বাচন করছি। আশা করি জনগন আগের মতো আমাকে ভালোবেসে ভোট দিবেন এবং আমি ১১ এপ্রিলের নির্বাচনে বিজয় লাভ করবো। এ উঠান বৈঠকে মোঃ  ইউনু আলী গোমস্তার সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, ফিরোজ খান, জামাল হাং, সোহরাব হোসেন, মাওলানা কবির হোসেন, মোসা. মাতোয়ারা বেগম, শাহ আলম খান, আহসান কবির, আ: লতিফ খান, মাওলানা রশিদ খান, মাওলানা আঃ খালেক প্রমুখ। অনুষ্ঠান সঞ্চলনায় ছিলেন মোঃ রেজোয়ান।

মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে সিলেট জেলা ছাত্রলীগের মাস্ক ও খাদ্য বিতরণ

মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে সিলেট জেলা ছাত্রলীগের  মাস্ক ও খাদ্য বিতরণ

এম এ আদিল আহমদ,কানাইঘাট উপজেলা প্রতিনিধি: সিলেট জেলা ছাত্রলীগ নেতা বিজয় দেব এর পক্ষ থেকে মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে, মাস্কও খাদ্য বিতরণ করেন অসহায় পত্র শিশুদের মধ্যে এ সময় উপস্থিত ছিলেন সিলেট জেলা ছাত্রলীগ নেতা বিজয় দেব, দিপন দাস,রনি ঘোষ,আরিফ আহমেদ,উসমান সিমান্ত কর্মকার জয় দেব,রাজু পাল
রাব্বি আহমদ সহ অন্যান্য নেত্রীবৃন্দ

যশোরের অভয়নগরে র‍্যাবের হাতে ১৩৮ লিটার চোলাই মদসহ আটক-৩

যশোরের অভয়নগরে র‍্যাবের হাতে ১৩৮ লিটার চোলাই মদসহ আটক-৩

আব্দুল জব্বার, স্টাফ রিপোর্টার।।যশোরের অভয়নগর বন্দর নগরী নওয়াপাড়া নুরবাগ মোড়ের কাঁচা বাজার সংলগ্ন পালহাটা এলাকা থেকে ১৩৮ লিটার চোলাই মদসহ নগরীর শীর্ষ তিন মাদক ব‍্যবসায়ীকে আটক করেছে র‍্যাব - ৬।

গতকাল ২৫শে মার্চ বৃহস্পতিবার দুপুর প্রায় ১২ টার সময় উক্ত এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করতে সক্ষম হয় র‍্যাব -৬।আটককৃতরা হলেন, শীর্ষ তিন মাদক কারবারী অভয়নগর উপজেলার পায়রা গ্রামের মৃত ইব্রাহিম শেখের ছেলে মোহাম্মদ আসীফ (৩৮), শিল্প শহর নওয়াপাড়া বুইকারা গ্রামের মৃত আব্দুল বারেক হাওলাদারের ছেলে মোহাম্মদ আব্দুল মালেক (৬৫), মৃত মোহাম্মদ আমির হোসেনের ছেলে মোহাম্মদ আবুল হাসান (৫১)।

এলাকা সুত্রে জানাযায়, প্রায় এক যুগ ধরে নুরবাগ কাঁচা বাজারের মাদকের আঁকড়া থেকে  একাধিকবার ফেনসিডিল ও চোলাই মদসহ আটক হয়। আইনের ফাঁক ফোকড় দিয়ে বেরিয়ে এসে আবার উক্ত স্থানে বীরদর্পে চোলাই মদ ও ফেনসিডিলের ব‍্যবসা চালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ ছিল। মাদকের মামলাও রয়েছে একাধিক।

গ্রেফতারকৃতদের নিকট থেকে ১৩৮ লিটার চোলাই মদ ও মাদক বিক্রির ১৮ হাজার ৪২০ টাকা এবং একটি মোবাইল জব্দ করা হয়েছে।তাদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা হয়েছে।

সাতক্ষীরায় স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে আওয়ামী লীগের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

সাতক্ষীরায় স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে আওয়ামী লীগের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

আজহারুল ইসলাম সাদী, স্টাফ রিপোর্টারঃ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস এবং স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী পালন উপলক্ষে সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের  আলোচনা সভা ও আনন্দ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

শুক্রবার (২৬ মার্চ) সকাল ১০টায় সাতক্ষীরা পিএন স্কুল এন্ড কলেজ প্রাঙ্গনে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস এবং স্বাধনিতার সুবর্ণ জয়ন্তী পালন উপলক্ষে 
জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সাবেক সাংসদ একে ফজলুল হকের সভাপতিত্বে ও দপ্তর সম্পাদক হারুণ উর রশিদের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায়  বক্তব্য রাখেন, সদর আসনের সাংসদ বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবি, সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ নজরুল ইসলাম, সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ আবু আহমেদ, সহ-সভাপতি শেখ সাহিদ উদ্দীন, যুগ্ম-সম্পাদক ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান বাবু, সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী আক্তার হোসেন, শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক লায়লা পারভিন সেঁজুতী, সদস্য এসএম শওকত হোসেন, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহাজান আলী, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাহাদাৎ হোসেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক এড. ওসমান গণি, ত্রাণ বিষয়ক সম্পাদক এড. আজহারুল ইসলাম, জনস্বাস্থ্য  বিষয়ক সম্পাদক ডা. সুব্রত ঘোষ, জেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক মনজুর হোসেন, কলারোয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জেলা পরিষদ সদস্য শেখ আমজাদ হোসেন, জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক মীর মোস্তাক আলী, সহ-সভাপতি এড. সাইদুজ্জামান জিকো, সদর উপজেলা আ.লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আব্দুর রশিদ, সহ-সভাপতি বৈকারী ইউপি চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান অসলে, পৌর আ.লীগের সভাপতি শেখ নাসেরুল হক, খন্দকার আরিফ হাসান প্রিন্স, শেখ আলমগীর হাসান, ক্রীড়া সংগঠক ইদ্রিস বাবু, সদর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক মঈনুল ইসলামসহ জেলা আওয়ামী লীগ, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ, জেলা যুবলীগ, জেলা ছাত্রলীগ, কৃষকলীগ, স্বেচ্ছা সেবকলীগ, পৌর আ.লীগের ৯টি ওয়ার্ডের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকবৃন্দ।

আলোচনা সভা শেষে একটি বিশাল আনন্দ মিছিল পিএন হাইস্কুল মাঠ থেকে শুরু করে শহর প্রদক্ষিণ করেন।

পটিয়ার বরলিয়া মেম্বার দুলা মিয়া উপর সন্ত্রাসী হামলাকারীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে এলাকাবাসীর প্রতিবাদ সভা অনুুষ্ঠিত

পটিয়ার  বরলিয়া মেম্বার দুলা মিয়া উপর সন্ত্রাসী হামলাকারীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে  এলাকাবাসীর প্রতিবাদ সভা অনুুষ্ঠিত

সেলিম চৌধুরী,স্টাফ রিপোর্টারঃ-চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার বরলিয়া ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডে'র মেম্বার ও চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা জাতীয় যুবসংহতি'র সাধারন সম্পাদক দুলা মিয়া'র উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে ইউনিয়ন পরিষদ ও এলাকাবাসী'র যৌথ উদ্যোগে এক বিশাল  প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত প্রতিবাদ সভায় নারী- পুরুষ পাঁচশতাধিক লোক অংশ গ্রহণ করে। (২৬ মার্চ) পটিয়ার বরলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ দুইবারের নির্বাচিত জনপ্রিয় চেয়ারম্যান শাহিনুর ইসলাম শানু'র সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন, পটিয়া উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সাবেক ধলঘাট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান  রফিক আহমদ, জেলা জাপা নেতা বদিউল আলম প্রবাসী, শাহজাহান রমজান মুন্সি, ফৌজুল কবির চৌধুরী টিটু, মনঞ্জুরুল আলম, জেলা কৃষক পার্টি'র সভাপতি মাহবুবুল রহমান, জেলা যুবসংহতি'র আহবায়ক দিদারুল আলম, নাজিম উদ্দিন মজুমদার, বরলিয়া ইউপি সদস্য মোঃ  মুনছুর আলম চৌধুরী, নুরুল কবির চৌধুরী, অনুপ বড়ুয়া, মোঃ সাইফুদ্দিন, মোঃ মফিজ, আবদুল রহিম, মোহাম্মদ বালি, সুজন, ফেরদৌস বেগম, শামসুর নাহার বেগম, বালি বেগম, সাবেক মেম্বার নুরুল হক, সমাজসেবক নুরুল আবছার চৌধুরী, জসিম উদ্দিন খান, খোকন শাহ, তুষার, ফৌজল করিম, জাহাঙ্গীর আলম, গাজী দুলাল, মিজানুর রহমান, সাংবাদিক রাজীব রাহুল, হাবিবুল্লাহ বাবুল, আবুল ফজল, দিলীপ দাশ, ফেরদৌস চৌধুরী, মামুনুর রশিদ প্রমুখ।সভায় বক্তারা বলেন, পটিয়া বরলিয়া ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডে'র জনপ্রিয় মেম্বার দুলা মিয়া'র উপর সন্ত্রাসী হামলায় জড়িত সন্ত্রাসীদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শান্তি'র দাবি জানান অন্যতাই কঠোর কর্মসূচি দেওয়ার হুশিয়ারি দেন বক্তারা।  বড়লিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহিনের ইসলাম শানু বলেন একজন জনপ্রতিনিধির উপর নেক্কারজনক হামলার ঘটনা কোন সভ্য সমাজের কাজ হতে পারে না তিনি প্রশাসনকে নিরপেক্ষ তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া জন্য পুলিশ প্রশাসনের প্রতি  আহবান জানান।উল্লেখ্য, গত (১৮ মার্চ) রাত সাড়ে ৮টায় ইউপি সদস্য দুলা মিয়া পটিয়া থেকে কাজ শেষ করে বাড়িতে যাওয়ার পথে বরলিয়া ইউপি ৪নং ওয়ার্ডস্থ পূর্ব হিন্দুপাড়া পশ্চিমপাশে সড়কে সন্ত্রাসীরা এলোপাতারি ছুরিকাঘাত করে রক্তাক্ত জখম করে। এতে তার ডান হাতে ৩টি আঙ্গুল বিচ্ছিন্ন হয় এবং শরীরের পায়ে ও পিঠে রক্তাক্ত জখম হয়। বর্তমানের সে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে বলে তার পরিবার সূত্রে জানাগেছে।


নাগরপুরে জিএস জাহিদ প্রীতি গোল্ডকাপ চূড়ান্ত প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত

নাগরপুরে জিএস জাহিদ প্রীতি গোল্ডকাপ চূড়ান্ত প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত

টাংগাইল জেলা প্রতিনিধি:
৫০ তম মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস এবং মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে টাংগাইল এর নাগরপুর উপজেলা প্রাণকেন্দ্রে অবস্হিত নাগরপুর সরকারী কলেজ মাঠে শুক্রবার,২৬ মার্চ, বেলা ৪.০০ ঘটিকায় মুকতাদির হোমিও চিকিৎসা কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ম্যানেজিং ডিরেক্টর ডা.এম.এ.মান্নান সাহেবের সভাপতিত্বে  জিএস জাহিদুল হাসান জাহিদ প্রীতি গোল্ডকাপ চূড়ান্ত ফুটবল প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

♦খেলায় অংশগ্রহনকারী দল-রাতিক বাবু একাদশ সলিমাবাদ  বনাম ফরহাদ ইকবাল একাদশ গয়হাটা।     
                                    
♥বিজয়ী দলের নাম-রাতিক বাবু একাদশ সলিমাবাদ।                        
♦উদ্বোধক হিসাবে উদ্বোধন করেন নাগরপুর থানা সুযোগ্য অফিসার ইনচার্জ জ্বনাব মো.আনিসুর রহমান সাহেব।

 ♦প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্হিত ছিলেন নাগরপুর উপজেলা পরিষদের সম্মানিত ভাইস চেয়ারম্যান জ্বনাব মো.হুমায়ুন কবীর সাহেব।

♦গোল্ডকাপ চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্হিত ছিলেন-নাগরপুর উপজেলা ক্রীড়া সংস্হার সাধারন সম্পাদক জ্বনাব মো.জাকির হোসেন তালুকদার,গয়হাটা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জ্বনাব মো.আবুল কালাম আজাদ,সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো.মোকাদ্দাছ,সাবেক অধ্যক্ষ মো.শাহজাদা ইলিয়াছ,সাবেক বিশিষ্ট ফুটবলার মো.কাউছার আহমেদ,যুবলীগ নেতা মো.ইমরান,ছাত্রলীগ নেতা জ্বনাব মো.খালিদ হাসান, ছাত্রলীগ নেতা মো.তাশরিফ খায়রুল প্রমুখ।

ধারাভাষ্যের দায়িত্বে ছিলেন-মো.সালাউদ্দীন মিয়া,প্রভাষক,ইংরেজী বিভাগ-সরকারি যদুনাথ পাইলট মডেল স্কুল এন্ড কলেজ।

♦এছাড়াও যার নামে গোল্ডকাপ প্রতিযোগিতা খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে সাবেক তুখোর ছাত্রনেতা, বিশিষ্ট সমাজসেবক ও মানবিক কর্মী,নাগরপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ এর সফল সাংগঠনিক সম্পাদক মো.জাহিদুল হাসান জাহিদ উপস্হিত ছিলেন।

♦সার্বিক দায়িত্বে ছিলেন-মো.হাসিবুল হাসান শান্ত,সদস্য সচিব, গোল্ডকাপ চূড়ান্ত প্রতিযোগিতা বাস্তবায়ন কমিটি।

♦খেলা পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন-শুভ সরকার,হাসু মিয়া ও সুমন হোসেন।

আজ সাব্বিরের শুভ জন্মদিন

আজ সাব্বিরের শুভ জন্মদিন
বিশ্বাস মোহাম্মদ সাব্বির হোসেন

প্রেস বিজ্ঞপ্তি
: দৈনিক কপোতাক্ষ নিউজ এর স্টাফ রিপোর্টার  বিশ্বাস মুহাম্মদ সাব্বিরে আজ শুভ জন্মদিন। উল্লেখ্য তিনি জন্ম গ্রহণ করেন  ২৭ মার্চ ২০০৩, আজ সে ১৮ তে পা রাখলো। দেশের জনপ্রিয় এবং বহুল প্রচলিত দৈনিক কপোতাক্ষ নিউজ পরিবারের পক্ষ থেকে অনেক অনেক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন!

বিদ্যোৎসাহী নাকি বিদ্যুৎসাহী?

বিদ্যোৎসাহী নাকি বিদ্যুৎসাহী?

শিক্ষাঙ্গনঃ আমাদের মধ্যে বিদ্যোৎসাহী ও বিদ্যুৎসাহী শব্দ দুইটি নিয়ে অনেক ভুল ধারণা রয়েছে।
আজ বিষটি নিয়ে ব্যাকারণের আলোকে আলোচনা করব। বাংলা ব্যাকারণে স্বরসন্ধির নিয়ম অনুসারে আ+উ=ও, ও তে ো কার। সুতরাং  বিদ্যার জন্য  আ, উৎসাহীর জন্য  উ যোগ করে ও কার হয়েছে। ফলে বিদ্যা+উৎসাহী= বিদ্যোৎসাহী হয়েছে। এ-ই কারণে বিদ্যোৎসাহী লেখাটি সঠিক। বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটিতে একজন বিদ্যোৎসাহী সদস্য থাকেন। অথচ এই বানানটিই ভুল লেখা হয় যা শিক্ষা অঙ্গনের জন্য বড়ই বেমানান।

চট্টগ্রামের হাটহাজারী থানার পুলিশের সঙ্গে হেফাজত নেতাদের দুই দফা বৈঠক

চট্টগ্রামের হাটহাজারী থানার পুলিশের সঙ্গে হেফাজত নেতাদের দুই দফা বৈঠক

নিউজ ডেস্ক: চট্টগ্রামের হাটহাজারী থানায় পুলিশ ও জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে হেফাজত নেতাদের দুই দফা বৈঠকের পর সড়ক ছেড়েছেন মাদ্রাসা ছাত্ররা। গত রাতে হাটহাজারী সড়ক থেকে সরে যায় তারা। এর আগে জুমা নামাজের পর পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে চারজন নিহত হওয়ার ঘটনায় বিক্ষুব্ধ ছাত্ররা সড়ক অবরোধ করে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ওই বৈঠকের পর হেফাজতে ইসলামের আমির জুনায়েদ বাবুনগরী রাত পৌনে ১২টার দিকে মাইকে ঘোষণা দিয়ে ছাত্রদের মাদ্রাসায় ফেরার আহ্বান জানান। এরপর সড়ক থেকে মাদ্রাসায় ফিরে যান তাঁরা।  ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের বিরোধিতা করে জুমার নামাজের পর ঢাকার বায়তুল মোকাররম মসজিদ এলাকায় ধর্মভিত্তিক দলগুলোর নেতা–কর্মী ও মুসল্লিদের একাংশের সঙ্গে ক্ষমতাসীন দলের নেতা-কর্মী ও পুলিশের সংঘর্ষ হয়। এর প্রতিবাদে দুপুরে বিক্ষোভে নামেন হাটহাজারী মাদ্রাসার ছাত্ররা। একপর্যায়ে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে ছাত্রসহ চারজন নিহত হন। পরে ছাত্ররা হাটহাজারী–নাজিরহাট সড়ক অবরোধ করেন।

স্থানীয় সাংসদ আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, পুলিশের ডিআইজি ও জেলা পুলিশ সুপারের সঙ্গে হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব নাসিরউদ্দিন মুনীর, সহকারী অর্থ সম্পাদক আহসান উল্লাহ এবং মাদ্রাসাশিক্ষক মুফতি জসিমউদ্দিন ও ইয়াহিয়ার দুই দফা বৈঠক হয়। প্রথম দফা বৈঠক চলে রাত ৮টা থেকে ১০টা পর্যন্ত।
কিন্তু ওসি প্রত্যাহারসহ হেফাজত নেতাদের পাঁচ দফা দাবি পূরণ না হওয়ায় প্রথম বৈঠকটি ব্যর্থ হয়। পরে রাত ১১টা থেকে আবার বৈঠক শুরু হয়।
বৈঠক শেষে হেফাজত নেতাদের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, তাঁদের কিছু দাবি মেনে নেয়া হয়েছে। সাংসদ ও ডিআইজি বলেছেন, তাঁরা কিছু দাবি মেনে নিয়েছেন। ঘটনা তদন্ত করে দোষী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ বৈঠক শেষ হওয়ার কিছুক্ষণ আগে হেফাজতের আমির মাদ্রাসার মাইকে শিক্ষার্থীদের মাদ্রাসায় ফেরার আহ্বান জানান।
তথ্যের উৎস: মানবজমিন

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচন ভোটগ্রহণ শুরু

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচন ভোটগ্রহণ শুরু
ভোটগ্রহণ শুরু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনে প্রথম দফায় ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। আজ শনিবার সকাল সাতটা থেকে ভোট শুরু হয়েছে।চারটি জেলার বিস্তীর্ণ এলাকা এই রাজ্যের জঙ্গলমহল হিসেবে পরিচিত। এই চার জেলা হলো পশ্চিম মেদিনীপুর, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া ও ঝাড়গ্রাম। এই রাজ্যে রয়েছে ২৯৪টি আসন। আজ প্রথম দফায় ৩০টি আসনে ভোট গ্রহণ হচ্ছে। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নিয়োগ করা হয়েছে ৭৩২ কোম্পানি কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য ও পুলিশ। ভোট শেষ হবে সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায়।

আরো পড়ুন: ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সাতক্ষীরায় পৌঁছেছেন

এ দফায় গুরুত্বপূর্ণ প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছেন মেদিনীপুরে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী অভিনেত্রী জুন মালিয়া এবং পুরুলিয়ার বাঘমুন্ডি কেন্দ্রে কংগ্রেসের পুরোনো নেতা নেপাল মাহাতো।

এই ৩০ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের ১৯১ জন প্রার্থী। তবে সবচেয়ে বেশি প্রার্থী রয়েছে তৃণমূল কংগ্রেসে ও বিজেপিতে। তৃণমূল ৩০টি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য মনোনয়নপত্র জমা দিলেও পুরুলিয়ার জয়পুর আসনে তৃণমূল প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল হয়ে যায়। ফলে তৃণমূল লড়ছে ২৯টি আসনে। এ আসনে তৃণমূল সমর্থন দিয়েছে একজন নির্দলীয় প্রার্থীকে। অন্যদিকে, বিজেপিও লড়ছে ২৯টি আসনে। বিজেপি একটি আসন ছেড়ে দিয়েছে তাদের জোট শরিক অল ঝাড়খন্ড স্টুডেন্টস ইউনিয়ন প্রার্থী আশুতোষ মাহাতকে।


সিপিএম লড়ছে ১৮টিতে। বামফ্রন্ট শরিক সিপিআই ৪টি, ফরোয়ার্ড ব্লক ২, আরএসপি ২ এবং কংগ্রেস লড়ছে ২টি আসনে। জঙ্গলমহল এলাকাটি বরাবর বামপন্থীদের ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত ছিল। এখানে বামেরাই দীর্ঘদিন ধরে শাসন করে আসছে। তবে বামফ্রন্টের শেষ আমলে এখানে সংঘবদ্ধ হয় মাওবাদীরা। বেড়ে যায় মাওবাদী তৎপরতা। এ কারণে এই জঙ্গলমহল হয়ে ওঠে মাওবাদীদের ঘাঁটি। ২০১১ সালের আগে থেকেই তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বামফ্রন্টের বিরুদ্ধে অবস্থান নেন। অবস্থান নেন মাওবাদীদের পক্ষে। তাঁরা মাওবাদীদের পাশেই এসে দাঁড়ান। ২০১১ সালের বিধানসভা নির্বাচনের প্রাক্কালে মমতা ঘোষণা দেন, তৃণমূল ক্ষমতায় গেলে মাওবাদীদের জীবনের মূল স্রোতে ফিরিয়ে আনবেন। ফলে, মাওবাদী নেতারাও ২০১১ সালের বিধানসভা নির্বাচনে মমতার তৃণমূলকে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানান। মাওবাদী নেতা কিষেণজিও মমতাকে প্রচ্ছন্ন সমর্থন দেন।

২০১১ সালের নির্বাচনে মমতা ৩৪ বছরের বাম শাসনের অবসান ঘটিয়ে ক্ষমতায় আসেন। তাঁর প্রতিশ্রুতি অনুসারী অনেক মাওবাদীকে কর্মসংস্থানের ও আর্থিক প্যাকেজের সুবিধা দিয়ে ফিরিয়ে আনেন জীবনের মূল স্রোতে। কিন্তু এ ডাকে সাড়া দেননি মাওবাদীদের কেন্দ্রীয় নেতা কিষেণজি। পরে এই কিষেণজিই পুলিশের সঙ্গে 'বন্দুকযুদ্ধে' ২০১১ সালের ২৪ নভেম্বর নিহত হন। সেই ঐতিহাসিক জঙ্গলমহলের চারটি জেলা এবং পূর্ব মেদিনীপুরের আংশিক এলাকায় আজ বিধানসভার নির্বাচন।জঙ্গলমহল এলাকাটি ক্ষুদ্র জাতিসত্তা ও তফসিলি জাতি–অধ্যুষিত।

২০১৯ সালের সর্বশেষ লোকসভা নির্বাচনের ভোটের নিরিখে ৬০টি আসনের মধ্যে ৫৪টিতেই এগিয়ে ছিল বিজেপি। তাই এবার এই জঙ্গলমহলের আসনে ব্যাপক প্রচার চালিয়েছে বিজেপি। থেমে নেই তৃণমূলও। বাম দলগুলো তাদের হারানো আসন পুনরুদ্ধারের জন্য আজও লড়াই জারি রেখেছে।

তথ্যের উৎস: প্রথম আলো



ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সাতক্ষীরায় পৌঁছেছেন

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সাতক্ষীরায় পৌঁছেছেন
ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি

নিউজ ডেস্ক: ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আজ শনিবার সকালে হেলিকপ্টারে ঢাকা থেকে সাতক্ষীরায় পৗেঁছেছেন। তিনি সাতক্ষীরার যশোরেশ্বরী কালীমন্দিরে গেছেন। তিনি ঐতিহ্যবাহী মন্দিরটিতে পূজা দিয়ে আবার চড়বেন হেলিকপ্টারে। তাঁর পরের গন্তব্য গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া।


সকাল ১১ টার কিছু আগে নরেন্দ্র মোদি টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে গিয়ে জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা জানাবেন। টুঙ্গিপাড়া থেকে নরেন্দ্র মোদি যাবেন গোপালগঞ্জের ওড়াকান্দিতে। তিনি ওড়াকান্দিতে মতুয়া সম্প্রদায়ের লোকজনের সঙ্গে মতবিনিময় করবেন। তিনি মতুয়া সম্প্রদায়ের প্রাণপুরুষ হরিচাঁদ ঠাকুরের মন্দিরে পূজা দেবেন।


ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আজ শনিবার সকালে হেলিকপ্টারে ঢাকা থেকে সাতক্ষীরায় পৗেঁছেছেন। তিনি সাতক্ষীরার যশোরেশ্বরী কালীমন্দিরে গেছেন। তিনি ঐতিহ্যবাহী মন্দিরটিতে পূজা দিয়ে আবার চড়বেন হেলিকপ্টারে। তাঁর পরের গন্তব্য গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া।

সকাল ১১ টার কিছু আগে নরেন্দ্র মোদি টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে গিয়ে জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা জানাবেন। টুঙ্গিপাড়া থেকে নরেন্দ্র মোদি যাবেন গোপালগঞ্জের ওড়াকান্দিতে। তিনি ওড়াকান্দিতে মতুয়া সম্প্রদায়ের লোকজনের সঙ্গে মতবিনিময় করবেন। তিনি মতুয়া সম্প্রদায়ের প্রাণপুরুষ হরিচাঁদ ঠাকুরের মন্দিরে পূজা দেবেন।

আরো পড়ুন:ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচন ভোটগ্রহণ শুরু

দুপুরে ঢাকায় ফিরবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বিকেলে তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে তাঁর কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিক আলোচনা করবেন। তার আগে দুই প্রধানমন্ত্রী একান্তে আলোচনা করবেন। সবশেষে নরেন্দ্র মোদি বঙ্গভবনে যাবেন। সন্ধ্যায় সেখানে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ শেষে ঢাকা ছেড়ে যাবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী।

করোনা মহামারি শুরুর পর মোদি প্রথম বিদেশ সফর করছেন। আর ভারতের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে মোদির এটা দ্বিতীয় ঢাকা সফর। এর আগে ২০১৫ সালের জুনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে শীর্ষ বৈঠকে যোগ দিতে ঢাকায় এসেছিলেন মোদি।
তথ্যের উৎস: দৈনিক প্রথম আলো