১৫ ই আগস্টের হত্যাকান্ডের সাথে জিয়াউর রহমান জড়িত- প্রধানমন্ত্রী

১৫ ই আগস্টের হত্যাকান্ডের সাথে জিয়াউর রহমান জড়িত- প্রধানমন্ত্রী




নিউজ  ডেস্কঃ পঁচাত্তরের ১৫ অগাস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যার পেছনে উচ্চাভিলাষী খন্দকার মোশতাকের সহযোগী হিসেবে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান সম্পূর্ণভাবে জড়িত ছিলেন বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে রোববার বিকালে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যোগ দিয়ে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা বলেন, “এই হত্যাকাে  সেইদিন কর্নেল ফারুক, কর্নেল রশীদ, মেজর হুদা, মেজর ডালিম, মেজর শাহরিয়ার, মেজর পাশা সামরিক অফিসার এরা সকলেই যেমন, মহিউদ্দিন, মাজেদ, মোসলেহউদ্দিন, রাশেদ, খায়রুজ্জামানসহ সকলেই জড়িত ছিল।”

কিন্তু এই সামরিক অফিসারদের কারা, কে মদদ দিয়েছিল এবং তাদের পেছনে কে ছিল- প্রশ্ন তুলে তিনি বলেন, “আমার বাবার কেবিনেটেরই এক মন্ত্রী খন্দকার মোশতাক, তার উচ্চাভিলাষ আর তার সহযোগী জিয়াউর রহমান, যে একজন মেজর ছিল, যাকে প্রমোশন দিয়েছিলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, মেজর জেনারেল বানিয়েছিলেন, সে এর সঙ্গে সম্পূর্ণভাবে জড়িত ছিল।

“সেটা স্পষ্ট পাওয়া যায় এই হত্যাকাে র পরৃকর্নেল ফারুক এবং কর্নেল রশীদ তারা একটা ইন্টারভিউ দেয়, যেখানে তারা স্পষ্ট বলে যে তাদের সঙ্গে জিয়াউর রহমান সম্পূর্ণভাবে জড়িত ছিল এবং তার মদদেই তারা এই ঘটনা ঘটাতে সক্ষম হয়েছে।”

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “ৃসেটা আরও প্রমাণ হয় বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর, তিনি রাষ্ট্রপতিৃ তাকে হত্যার পর সেখানে সংবিধান মানা হয়নি। ভাইস প্রেসিডেন্ট সৈয়দ নজরুল ইসলাম সাহেব কিন্তু রাষ্ট্রপতি হননি। রাষ্ট্রপতি ঘোষিত হল খন্দকার মোশতাক। আর খন্দকার মোশতাক রাষ্ট্রপতি হয়েই জেনারেল জিয়াউর রহমানকে বানালো সেনাবাহিনীর প্রধান।

“জেনারেল জিয়াউর রহমান মোশতাকের সাথে যদি এই ষড়যন্ত্রে সম্পৃক্ত না থাকে তাহলে কেন মোশতাক তাকেই বেছে নেবে সেনাপ্রধান হিসেবে? ওই খুনিদের সব ধরনের মদদ দেওয়াৃএটা তো জিয়াউর রহমানই দিয়েছিল। এখানেই তো তাদের শেষ না। মোশতাক..বেঈমানরা কখনও ক্ষমতায় থাকতে পারে না। মীর জাফরও পারেনি। মীর জাফরকে যারা ব্যবহার করেছিল সিরাজদ্দৌল্লাকে হত্যা করতেৃমীর জাফর দুই মাসের বেশি ক্ষমতায় থাকতে পারেনি। ঠিক মোশতাকও পারেনি।”

খন্দকার মোশতাককে সরিয়ে জিয়াউর রহমান আইন লঙ্ঘন করে নিজেকে রাষ্ট্রপতি হিসেবে ঘোষণা দিয়েছিল জানিয়ে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “এই খুনিরা যারা শুধু ১৫ অগাস্টের হত্যাকা  ঘটায়নি, ৩ নভেম্বর ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে যারা হত্যাকা  ঘটায়, তাদেরকে বিদেশে পাঠিয়ে দেওয়া, তাদের রাজনৈতিক আশ্রয়ের ব্যবস্থা করা, ব্যাংকক হয়ে তাদেরকে লিবিয়াতে পাঠানো এবং সেখান থেকে বিভিন্ন দূতাবাসে চাকরি দিয়েৃজিয়াউর রহমান রাষ্ট্রপতি হয়েই এই খুনিদেরকে বিভিন্ন দূতাবাসে চাকরি দিয়ে পুরস্কৃত করে।”

জিয়াউর রহমান জাতির পিতার খুনিদের রক্ষায় ইনডেমনিটি আইন করেছিল বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

জিয়াউর রহমানের স্ত্রী বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ারও সমালোচনা করেন শেখ হাসিনা।

“জিয়াউর রহমান যেটুকু করে গিয়েছেন তারপর তার স্ত্রী আসার পর তো আরও বেশি। খালেদা জিয়া ক্ষমতায় এসে কি করেছে? সকলে নিশ্চয়ই ভুলে যাননি।”

১৯৯৬ সালে ১৫ ফেব্রুযারি ভোটারবিহীন নির্বাচনে কোনো দল অংশ নেয়নি উল্লেখ করে তিনি বলেন, “নামকাওয়াস্তে কিছু দল জুড়ে দিয়ে একটা নির্বাচনের নামে প্রহসন করা হয়েছিল। সারা বাংলাদেশে সেনাবাহিনী মোতায়েন করে সেই নির্বাচন করার চেষ্টা করা হয়েছিল। ভোটাররাও ভোট দিতে আসেনি।

“তারপর খালেদা জিয়া নিজেকে নির্বাচিত ঘোষণা দেন। আর সেই নির্বাচনে কর্নেল রশীদকে নির্বাচিত করা হলে, মেজর হুদাকে নির্বাচিত করা হল। তাদেরকে পার্লামেন্টে বসানো হল এবং সেই খুনি কর্নেল রশীদকে বিরোধীদলের আসনে বসানো হয়েছিল।”

খুনিদের প্রতি খালেদা জিয়ার এত দরদ কেন, প্রশ্ন রাখেন শেখ হাসিনা।

১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ সরকারে এসে ইনডেমনিটি আইন বাতিল করে জানিয়ে তিনি বলেন, “সেই খুনিদের তালিকায় যারা ছিল অনেকে বিদেশে। পাশা, সে মারা যায় বিদেশে। আর খায়রুজ্জামান সে চাকরি ছেড়ে দিয়ে পালিয়ে যায়।”

পাশা মারা গেলেও তাকে পদোন্নতি দেয়া এবং খায়রুজ্জামানকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের চাকরিতে পুনর্বহাল করার কথা তুলে খালেদা জিয়ার সমালোচনা করেন তিনি।

“তার স্বামী যা করেছেৃজাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হত্যাকারীৃতাদের ইনডেমনিটি আর সে এসে নির্বিচারে মানুষ হত্যা করে তাদের ইনডেমনিটি দিয়ে গেছে,” বলেন সরকার প্রধান।

সভায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয় প্রান্তে উপস্থিত ছিলেন সভাপতিমসম্পাদক ওবায়দুল কাদের, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, হাছান মাহমুদ, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, মির্জা আজম, দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন প্রমুখ।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় লাল সবুজ সংঘের উদ্যোগে গাছের চারা বিতরণ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় লাল সবুজ সংঘের উদ্যোগে গাছের চারা বিতরণ



এস.এম অলিউল্লাহ ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধিঃলাল সবুজের প্রচেষ্টা, সবুজ করবো দেশটা স্লোগানকে সামনে রেখে ব্রাহ্মণবাড়িয়া লাল সবুজ উন্নয়ন সংঘের উদ্যোগে বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচি পালিত হয়েছে।অাজ রবিবার সকালে জেলা ঈদ গাহ মাঠে গাছের চারা রোপণ করে সদর উপজেলার প্রায় ১৫ টি গ্রামে গিয়ে চারা উপহার দেওয়া হয়।


এসময় ব্রাহ্মণবাড়িয়া অাইডিয়াল রেসিডেনসিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ সোপানুল ইসলাম সোপান স্যারের সভপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে গাছের চারা বিতরণ কর্মসূচি উদ্বোধন করেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও জেলা সেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট লোকমান হোসেন। 

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন লাল সবুজ উন্নয়ন সংঘের প্রতিষ্ঠাতা ও কেন্দ্রীয় সভাপতি কাওসার অালম সোহেল, জেলা শাখার সভাপতি মমিনুল হক রুবেল, সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান মাহি, সাংগঠনিক সম্পাদক রাসেল অাহমেদ অাশিক, অায়াত চৌধুরী,জাহিদুল,রাসেল অাহমেদ,রাকিবুল হাসান প্রমুখ।


লাল সবুজ উন্নয়ন সংঘের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি কাওসার অালম বলেন, লাল সবুজের সদস্যরা গ্রামের বাড়ি বাড়ি গিয়ে তাঁদের টিফিনের টাকা বাঁচিয়ে গত ৫ অাগষ্ট থেকে গাছের চারা রোপণ ও বিতরণ করে যাচ্ছেন। তিনি অারো বলেন অাগামী তিন মাস কার্যক্রমটি সারাদেশে পরিচালনা করবে লাল সবুজ উন্নয়ন সংঘের সদস্যরা। এবছর ১ লক্ষ ঘরে গাছের চারা উপহার দিবে বলে জানান।

দৌলতপুরে সাংবাদিকের নামে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি পালন

 দৌলতপুরে সাংবাদিকের নামে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি পালন


কুষ্টিয়া প্রতিনিধিঃকুষ্টিয়ার দৌলতপুরে সাংবাদিকের নামে দায়ের করা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে সাংবাদিকরা অবস্থান কর্মসুচী পালন করেছে। আজ বেলা ১০ টা থেকে দুপুর ১ টা পর্য়ন্ত দৌলতপুর উপজেলা পরিষদ চত্বরে অবস্থান কর্মসুচীতে সর্বস্তরের সাংবাদিকগণ অংশ নেয়। এ সময় উপস্থিত সাংবাদিকগণ বলেন, উপযুক্ত তথ্য ও প্রমাণ হাতে পাবার পরই দৌলতপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমে সাংবাদিক তাশরিক সঞ্চয় ফিলিপনগর মরিচা (পিএম) কলেজের গভর্নিং কমিটির সভাপতি ও দৌলতপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাড: শরীফ উদ্দিন রিমনের বিরুদ্ধে সংবাদটি প্রকাশ করেন। সংবাদ প্রকাশের জেরে গত ১০ আগষ্ট অ্যাড: শরীফ উদ্দিন রিমনের ভাগ্নে ওয়ালিউল আলম শাওন বাদি হয়ে কুষ্টিয়ার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে সাংবাদিক তাশরিক সঞ্চয়ের নামে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করেন। অবস্থান কর্মসুচীতে উপস্থিত সাংবাদিকগণ সাংবাদিকদের নামে হয়রানীমুলক মামলাটি অবিলম্বে প্রত্যারের দাবী জানান। অবিলম্বে মামলা প্রত্যাহার না করা হলে তার অতীত, বর্তমান ও ভবিষ্যতের আমলনামা সাংবাদিকদের কলমের মাধ্যমে সারাদেশের কাছে তুলে ধরা হবে। সেই সাথে আজ থেকে অ্যাড: শরীফ উদ্দিন রিমনের যেকোন কর্মসূচির নিউজ প্রত্যাহার করা হলো বলেও ঘোষনা দেওয়া হয়।

সিরাজগঞ্জে বেলকুচিতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনে পঁচাত্তর হাজার টাকা জরিমানা

সিরাজগঞ্জে বেলকুচিতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনে পঁচাত্তর হাজার টাকা জরিমানা

 



মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলাপ্রতিনিধিঃ,                                                                                                                         সিরাজগঞ্জ জেলার বেলকুচি উপজেলার বড়ধূল ইউনিয়নের মেহেরনগর এলাকায়  যমুনানদী হতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে ৭৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

রবিবার (১৬আগষ্ট ) বিকালে এই দন্ডাদেশ দিয়েছেন বেলকুচি উপজেলার উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আনিসুর রহমান। ভ্রাম্যমাণ আদালতের পেশকার মোঃ হাফিজ উদ্দিন জানান,গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সিরাজগঞ্জ জেলার বেলকুচি উপজেলার  বড়ধূল ইউনিয়নের মেহেরনগর এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান পরিচালিত হয়। এ সময় যমুনানদী হতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন দেখতে পান ভ্রাম্যমাণ আদালত। অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করার দায়ে পাবনার ফরিদপুর  উপজেলার মোঃ আব্দুল আলীম নামে এক বালু ব্যবসায়ীকে ৭৫ হাজার টাকা  জরিমানা করা হয়। উক্ত অভিযানে সহযোগিতা করেন পৌর ভূমি সহকারী কর্মকর্তা মোঃ নজরুল ইসলাম ও পেশকার মোঃ হাফিজ উদ্দিন।

রংপুরে করোনা পজেটিভ -৪৫

রংপুরে করোনা পজেটিভ -৪৫

 



  নিউজ ডেস্কঃ  আজ  ১৬/০৮/২০২০ ইং রংপুর মেডিকেল কলেজে ১৮৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৪৫  জনের করোনা শনাক্ত হয়।

রংপুরঃ ১৯

                  সদর            ১৬ জন।

রমেক কর্মচারী -১ জন, কটকীপাড়া- ২ , কেরানীপাড়া- ১ , মডার্ন মোড় ২, লালকুঠি ২(চিকতসক), নূরপুর-১, পূর্ব শালবন ১, রধবললভ ২(চিকিতসক ১), করোনা হাসপাতাল ১,পিটিসি ১,জেলা পুলিশ ১ ,প্রাইম মেডিকেল ১।             

                  মিঠাপুকুর।       ১ জন

                    কাউনিয়া।      ২ জন

কুড়িগ্রামঃ ১৫

                       সদর               ২  জন

                       উলিপুর।         ৪ জন      

                        রৌমারী।          ১  জন

                       রাজিবপুর।       ১ জন

                        নাগেশশরী।      ২ জন

                        ভুরাঙ্গামারী      ৫ জন


লালমনিরহাটঃ ১০

                       হাতীবান্ধা        ২  জন

                       সদর।              ৮  জন

  

ঠাকুরগাঁও : ১  ( রমেকহা ভর্তি)

                   

তথ্যসুত্রঃ অধ্যক্ষ, রমেক।

বশেমুরবিপ্রবিতে হাল্ট প্রাইজ অনেক্যাম্পাস ক্যাস্পাইন এর কমিটি ঘোষণা

বশেমুরবিপ্রবিতে হাল্ট প্রাইজ অনেক্যাম্পাস ক্যাস্পাইন এর কমিটি ঘোষণা




সুমন,বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধিঃ তৃতীয় আসরের হাল্ট প্রাইজ অনক্যাম্পাস ক্যাম্পেইন ২০২০-২১ এর কমিটি ঘোষনা করা হয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ( বশেমুরবিপ্রবি)।


এগারো জন সদস্যকে মনোনীত করে চূড়ান্ত কমিটির নাম প্রকাশ করা হয়।কমিটির সদস্যরা হলেন আবুল বাশার কৌশিক( ক্যাম্পাস ডিরেক্টর), বিএম সাকিবুল হাসান( এসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টর), মোঃ জামিউল ইসলাম( চীফ অব স্টাফ),কাওসার আহমেদ(টিম কো- অর্ডিনেটর), শফিকুর রহমান( জাজ এন্ড ট্রেনিং কো- অর্ডিনেটর), ফাতেমা- তুজ - জিনিয়া(প্রেস এন্ড মিডিয়া কো- অর্ডিনেটর), শেখ মোহাম্মদ হাসান তারেক(মার্কেটিং কো- অর্ডিনেটর),মোহাম্মদ মেহেদি হাসান(টেকনিক্যাল কো- অর্ডিনেটর), মাহমুদুর রহমান ও হুমায়ুন কবির( সহকারী টেকনিক্যাল কো- অর্ডিনেটর), এবং ফাহাদ ইসলাম(লজিস্টিক কো- অর্ডিনেটর)।  এছাড়াও মিডিয়া পার্টনার হিসেবে আছে বশেমুরবিপ্রবি সাংবাদিক সমিতি।


প্রোগামের বিষয়ে ক্যাম্পাস ডিরেক্টর আবুল বাশার কৌশিক বলেন,অক্টোবরের শেষের দিকে প্রোগামটি আয়োজন করা হবে আর ক্যাম্পাস এর মধ্যে খোলা না থাকলে প্রোগামটি অনলাইনে হবে।


কৌশিক আরো বলেন,এ বছরে অংশগ্রহণকারীদের জন্য বিশেষ প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হবে যাতে তারা কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারেন এবং আন্তজার্তিক অঙ্গনে সাফল্যের ছাপ রাখতে পারেন।


জানিয়ে রাখা ভালো যে,প্রতিবছর আলাদা বিষয়কে কেন্দ্র করে এই প্রতিযোগিতা আয়োজন করা হয়।প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী প্রতিটি দলকে একটি করে চ্যালেঞ্জের উপর আইডিয়া জমা দিতে হয়।পরবর্তীতে রিজিওনাল সামিট ও এক্সেলারেশন পর্ব শেষে বিজয়ী দলকে তার আইডিয়াকে একটি সফল ব্যবসায় রূপ দিতে, পুরষ্কার হিসেবে ১ মিলিয়ন ডলার দেয়া হয়।

পাহাড়তলিতে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে নগদ অর্থ ও খাদ্য বিতরণ

 পাহাড়তলিতে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে নগদ অর্থ ও খাদ্য বিতরণ



রিয়াজুল করিম রিজভী,স্টাফ রিপোর্টার চট্টগ্রামঃচট্টগ্রাম মহানগরের ৯নং উত্তর পাহাড়তলি ওয়ার্ডে আলি আজম নগর এলাকায় অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত ও নিহতদের পরিবারের মাঝে নগদ অর্থ, খাদ্যসামগ্রী ও গৃহস্থালি সামগ্রী বিতরন করছেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও আওয়ামী লীগ মনোনীত চসিক মেয়র পদপ্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব এম. রেজাউল করিম চৌধুরী।


এসময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আহবায়ক এস এম আলমগীর, ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদপ্রার্থী নুরুল আবছার মিয়া, পাহাড়তলি থানা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মোজাফফর আহমদ মাসুম, ওয়ার্ড  আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক সরওয়ার মোরশেদ কচি, ওয়ার্ড  আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক আলহাজ্ব এরশাদ মামুন, আবদুল আওয়াল বিপ্লব, ওয়ার্ড  আওয়ামী লীগ নেতা মুজিবুর রহমান শরীফ, ভুট্টু, ওয়ার্ড যুব লীগের ইমরান আলি রাজু, কামারুজ্জামান রুমান,  সিরাজুল ইসলাম লিটন, রাসেল, ওয়ার্ড ছাত্র লীগ নেতা আলি আকবর শাহিন, আশিকুর রহমান প্রিন্স, মাহবুবুর রহমান শাকিল, মোস্তফা কবির সাকিব, আরমান, সাব্বির, সাগর প্রমুখ।

মোংলা বন্দরে আমদানী নিষিদ্ধ ৪ কন্টেইনার পোস্তদানা জব্দের ঘটনায় দুই প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে কাস্টমসের মামলা দায়ের

 মোংলা বন্দরে আমদানী নিষিদ্ধ ৪ কন্টেইনার পোস্তদানা জব্দের ঘটনায় দুই প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে কাস্টমসের মামলা দায়ের


 মোঃএরশাদ হোসেন রনি, মোংলাঃ  মোংলা বন্দরে আমদানী নিষিদ্ধ ৪ কন্টেইনার পোস্তদানা (আফিম বীজ) জব্দের ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। মোংলা কাস্টমস হাউসের সহকারী রাজস্ব কর্মকতা মো: এমদাদুল হক বাদী হয়ে রবিবার বিকেলে এ মামলাটি দায়ের করেন। পোস্তদানা আমদানীকারক প্রতিষ্ঠান ঢাকার মেসার্স তাজ ট্রেডার্স ও মেসার্স আয়েশা ট্রেডার্সের নামে এ মামলা করেছে কাস্টমস কতৃর্পক্ষ। এদিকে  কাস্টমস কর্তৃপক্ষের দায়ের করা এ মামলায় উত্থাপিত তথ্য উপাত্ত নিয়ে পুলিশ ইতিমধ্যেই তদন্ত শুরু করেছে বলে জানিয়েছে মোংলা থানার অফিসার ইনচার্জ মো: ইকবাল বাহার চৌধুরী। 


মোংলা কাস্টমস হাউস ও মোংলা থানা পুলিশ জানায়, গত ৯ আগষ্ট মালয়েশিয়া থেকে মোংলা বন্দরে একটি বিদেশী জাহাজে করে আসা ৪টি কন্টেইনারে ফুটবল, টেনিস বল ও স্নো-স্প্রে আনার ঘোষণা দিয়ে প্রতারণার মাধ্যমে ৬৮ হাজার ২৫৬ কেজি আমদানী নিষিদ্ধ পোস্তদানা আনে ঢাকার সোয়ারী ঘাট এলাকার মেসার্স তাজ ট্রেডার্স ও চক বাজারের আয়েশা ট্রেডার্স নামক দুইটি প্রতিষ্ঠান। এ পণ্যের চালানটি বন্দরের জেটিতে পৌছানোর পর থেকেই আমদানীকারক প্রতিষ্ঠান দুটির কারো কোন হদিস মিলছিল না। কাস্টমসের পক্ষ থেকে কয়েক দফায় যোগাযোগ করা হলেও আমাদানীকারকদের সাড়া না পেয়ে শেষ পর্যন্ত গত বৃহস্পতিবার কাস্টমস কতৃর্পক্ষ কায়িক পরীক্ষা করে কন্টেইনার বোঝাই পোস্তদানার এ চালানটি জব্দ করে। বিদেশ থেকে বাণিজ্যিক জাহাজে ৪টি কন্টেইনারে আসা এ পোস্তদানার মূল্য ১০ কোটি ৯২ লাখ ৮৮৬ টাকা। 

ঝিকরগাছা উপজেলা আ' লীগ কে গতিশীল করতে ধারাবাহিক মতবিনিময় করছেন - এমপি নাসির উদ্দিন

ঝিকরগাছা উপজেলা আ' লীগ কে গতিশীল করতে ধারাবাহিক মতবিনিময় করছেন - এমপি নাসির উদ্দিন



মোঃ ইকরামুল করিম সৈকত, ঝিকরগাছা (যশোর) প্রতিনিধিঃযশোরের ঝিকরগাছায় উপজেলা আওয়ামীলীগ কে গতিশীল করার লক্ষ্যে ও জা‌তির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মু‌জিবুর রহমান এর ৪৫ তম শাহাদাত বা‌র্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপল‌ক্ষে প্রতিটি ইউনিয়নের নেতা কর্মীদের সঙ্গে যশোর-২ (চৌগাছা-ঝিকরগাছা) আসনের মাননীয় সংসদ বীর মুক্তিযোদ্ধা মেজর জেনারেল (অবঃ) অধ্যাপক ডাঃ মোঃ নাসির উদ্দিন এর ধারাবাহিক মতবিনিময় সভার অংশ হিসেবে আজ ১৬আগস্ট নির্বাসখোলা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের নেতা কর্মীদের সঙ্গে মতবিনিম করেন।


উক্ত মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন ঝিকরগাছা উপজেলা আওয়ামীলীগের সংগ্রামী যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের সুযোগ্য চেয়ারম্যান জননেতা জনাব মোঃ মনিরুল ইসলাম। 

সভাপতিত্ব করেন নির্বাসখোলা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও সাবেক ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের দীর্ঘদিনের সাধারণ সম্পাদক খায়রুজ্জামান।


আ‌রো উপ‌স্থিত ছি‌লেন যশোর জেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি আজাহার আলী, উপ‌জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও যুবলী‌গের অন্যতম নেতা র‌ফিকুল ইসলাম বাপ্পী, ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শামীম রেজা, উপজেলা যুবলীগ নেতা ও ঝিকরগাছা উপজেলা পরিষদের ভাইস-চেয়ারম্যান মোঃ সে‌লিম রেজা, জাফিরুল হক, জুল‌ফিকার আলী ভু‌ট্টো, নির্বাস‌খোলা ইউ‌নিয়ন আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুস সাত্তার, জ‌মির হো‌সেন, ফজলুর রহমান, র‌ফিকুল ইসলাম, মাষ্টার গোলাম মোস্তফা, আব্দুল মা‌লেক, ইব্রা‌হিম হো‌সেন, আয়নাল মেম্বর প্রমূখ।

গত ২৪ ঘন্টায় খুলনায় ৫০ জনের করোনা শনাক্ত

 গত ২৪ ঘন্টায় খুলনায় ৫০ জনের করোনা শনাক্ত




তুহিন রানা (আব্রাহম) খুলনা প্রতিনিধিঃখুলনা মেডিকেল কলেজের উপাধ্যায়ী ডাঃ মেহেদী নেওয়াজ  জানাব,রবিবার খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর মেশিনে মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ২৮৩টি। খুলনার নমুনা ২০৫। মোট পজেটিভ ৮০।


খুলনায় নতুন করে দেওয়া আক্রান্ত হয়েছে ৫০ জন।এছাড়াও সাতক্ষীরায় ১৩, বাগেরহাটে ৪, যশোরে ৯, পিরোজপুরে ১ নড়াইলে ০

৩ জন আক্রান্ত হয়েছে।

সরকারি সা'দত কলেজের অর্থনীতি বিভাগের উদ্যেগে ত্রাণ বিতরণ

 সরকারি সা'দত কলেজের অর্থনীতি বিভাগের উদ্যেগে ত্রাণ বিতরণ


আশরাফুল,সরকারি সা'দত কলেজ (টাংগাইল) প্রতিনিধি:

"আমি এমন কিছু করতে পারি যা আপনি পারেন না, আবার আপনিও এমন অনেক কিছু করতে পারেন যা আমি কখনো করতে পারব না। তবে একসাথে মিলে আমরা চাইলে অসাধারণ কিছু করে ফেলতে পারি।"(মাদার তেরেসা)



তেমনি ভাবে সকল বন্ধুদের উদ্যেগে বন্যাদুর্গত এলাকার গরীব অসহায় দুঃস্থ মানুষদের ত্রাণ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন।


আজ রোজ রবিবার,১৬ আগষ্ট ২০২০ ইং সরকারি সা'দত কলেজ,করটিয়া,টাংগাইল এর অর্থনীতি বিভাগ শিক্ষাবর্ষ(২০১৮-১৯) এদের ক্ষুদ্র প্রচেষ্টায় দিনব্যাপি উপজেলার গাবসারা ইউনিয়নের রুলীপাড়া, কালিপুর, রেহাইগাবসারা, রাজাপুর ও চন্ডিপুরসহ বিভিন্ন এলাকায় বন্যা কবলিত মানুষদের মাঝে এই ত্রাণ বিতরণ করা হয়। ত্রাণ সামগ্রীর মধ্যে ছিল চাল, ডাল, আলু, মুড়ি, সাবান ও প্রয়োজনীয় কিছু ওষুধ।


এ সময় উপস্থিত ছিলেন- সা’দত কলেজের অর্থনীতি বিভাগের (২০১৮-২০১৯) বর্ষের শিক্ষার্থী মো. নাজমুল হোসেন, আতিকুর ইসলাম আয়নাল, সবুজ মিয়া, আব্দুর কাইয়ুম মিয়া, আরিয়ান আহমেদ হাসান, মেহেদী হাসান, আব্দুস সাইম, আতিকুর রহমান, সজিব রানা, আফরোজা আক্তার মীম, ফারজানা শারমিন ইতি।

আশাশুনিতে বিশ্ব মাতৃদুগ্ধ সপ্তাহের সমাপনী

 আশাশুনিতে বিশ্ব মাতৃদুগ্ধ সপ্তাহের সমাপনী


আহসান উল্লাহ বাবলু উপজেলা  প্রতিনিধিঃ   মাতৃদুগ্ধদানে  সহায়তা করুন,স্বাস্থ্যকর পৃথিবী গড়ন" এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে আশাশুনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মাতৃদুগ্ধ সপ্তাহের সমাপনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের হলরুমে এ সমাপনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। মাতৃদুগ্ধ দান সপ্তাহের সমাপনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা ডাঃ সুদেষ্ণা সরকার। এসময় উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ দীপন বিশ্বাস, এমওডিসি ডাঃ মিঠুন বিশ্বাস, ডাঃ মোঃ শহীদুল্লাহ্, এস আই জি এম গোলাম মোস্তাফা, এইচ আই মাহাবুবুর রহমান। আলোচকবৃন্দ মাতৃদুগ্ধ সপ্তাহের তাৎপর্য নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন এইচ এ মোক্তারুজ্জামান স্বপন।

নাটোরে গার্মেন্টস কর্মী গণধর্ষণের ঘটনায় চারজন গ্রেফতার

 নাটোরে গার্মেন্টস কর্মী গণধর্ষণের ঘটনায় চারজন গ্রেফতার


 

রাজশাহী ব্যুরোঃ ঢাকা সাভারের এক গার্মেন্টস কর্মী প্রেমিকের সাথে দেখা করতে এসে নাটোরে গণধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের পর পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তিন ধর্ষকসহ চারজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রবিবার দুপুরে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ের সামনে প্রেসব্রিফিংয়ে পুলিশ সুপার এই তথ্য জানান। গ্রেফতারকৃতরা নলডাঙ্গার পাটুল গ্রামের বাচ্চু মিয়ার ছেলে রাশেদ মিয়া, শহরের বড়হরিশপুর এলাকার আব্দুল কাদের পাটোয়ারীর ছেলে রুবেল পাটোয়ারী, একই এলাকার হানিফ মন্ডলের ছেলে ফারুক মন্ডল ও শফিকুল শেখের ছেলে সাদ্দাম শেখ।

পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা সাংবাদিকদের জানান, চঁাপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুরের যুবতী মেয়ে রাজধানীর সাভারে একটি গার্মেন্টসে চাকুরী করেন। চঁাপাইনবাবগঞ্জ থেকে সাভারে যাতায়াতের পথে বাসের হেলপার রাশেদ মিয়ার সাথে তার পরিচয় হয় এবং সখ্যতা গড়ে ওঠে। এরপর তারা বিভিন্ন সময় দেখা সাক্ষাত করেন। এক পর্যায়ে গত ১৩ আগষ্ট রাশেদ মিয়া ওই যুবতীকে নাটোরে ডেকে নিয়ে আসে। পরে তারা বিভিন্নস্থানে ঘুরে বেড়ানোর পর রাশেদের এক পরিচিতজনের বাড়ীতে রাত্রীযাপন করে। এরপর দিন রাশেদ মিয়া ওই যুবতীকে নিয়ে বেড়ানোর পর সদর উপজেলার রাজিবপুর গ্রামের একটি বাড়ীতে নিয়ে যায়। সেখানে পূর্ব পরিনকল্পনা মোতাবেক রাশেদের সহযোগীরা ওই যুবতীকে জোর করে তুলে নিয়ে গিয়ে পরিত্যাক্ত একটি গরুর খামারে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। পরে আসামীদের মধ্যে ফারুক ও রুবেল তাকে মোটর সাইকেলে করে শহরের বড়হরিশপুর বাইপাসে বাসে তুলে দিতে লাগলে যুবতী চিৎকার শুরু করে। এসময় স্থানীয়রা এগিয়ে এলে তারা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় ভুক্তোভোগী বাদী হয়ে সদর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করলে পুলিশ ভুক্তভোগী গার্মেন্টস কর্মীকে প্রয়োজনীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে চঁাপাইনবাবগঞ্জ জেলার গোমস্তাপুরে নিজ বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। পরে গতরাতে শহরের বিভিন্নস্থানে অভিযান চালিয়ে তিন ধর্ষক ও হেলপার রাসেদকে গ্রেফতার করে। তাদের চারজনকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

মাধবপুরে নানা বাড়িতে বেড়াতে এসে লাশ হল শিশু লামিয়া

 মাধবপুরে নানা বাড়িতে বেড়াতে এসে লাশ হল শিশু লামিয়া



লিটন পাঠান হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃহবিগঞ্জের মাধবপুরে নানা বাড়িতে বেড়াতে আসাই কাল হলো ছয় বছরের লামিয়ার। একটি মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় বেঘোরে প্রাণ হারায় সে। জানা গেছে ব্রাহ্মণবাড়ীয়া জেলার বিজয়নগর উপজেলার পাক হরষপুর গ্রামের মো. আশিক মিয়া ও পাপিয়া সুলতানা (পুতুল)-এর ছোট মেয়ে মোছা. লামিয়া আক্তার (৬)। সে মাধবপুর উপজেলার ধর্মঘর ইউনিয়নের শিয়ালউড়ি গ্রামের আব্দুর রশিদ মিয়ার নাতিন। গতকাল (১৫ আগস্ট) শনিবার দুপুরে বিজয়নগর উপজেলা থেকে  মাধবপুর উপজেলার। 


শিয়ালউড়ি গ্রামে মেয়েটির নানার একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে আসে সে বাবা-মার সঙ্গে। লামিয়ার বাবা আশিক মিয়া জানান একই দিন সন্ধ্যা ৭ ঘটিকার সময় লামিয়া খেলা করতে গেলে শিয়ালউড়ি গ্রামের বেনু মিয়ার ছেলে ফুল মিয়া (৩০) অটো রিস্কার ড্রাইভার গ্রামের রাস্তার মধ্যে গাড়িটি পিছনে ঘুরাতে চাইলে পিছনে থাকা লামিয়া গাছের সাথে চাপ লেগে বুকে এবং মাথায় প্রচন্ড আঘাত পায় সাথে সাথে লামিয়ার নাক মুখ দিয়ে রক্ত বের হতে শুরু করে।


পরে স্থানীয় লোকজন হরষপুর স্টেশন বাজারে পল্লী চিকিৎসক ডাক্তার আব্দুর রহমানের কাছে নিয়ে গেলে তিনি লামিয়াকে মৃত ঘোষণা করেন। 

মাধবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ইকবাল হোসেন সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, খবর পাওয়ার পর কাশিম নগর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মোর্শেদ আলমকে ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে।


কাসিমনগর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মোর্শেদ আলম জানান দুর্ঘটনায় নিহত শিশুর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের  জন্য  বোবরার ১৬/৮/২০২০ইং সকালে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

আশাশুনিতে শিক্ষা উপবৃত্তির চেক প্রদান করেন উপজেলা চেয়ারম্যান মোস্তাকিম

আশাশুনিতে শিক্ষা উপবৃত্তির চেক প্রদান করেন উপজেলা চেয়ারম্যান মোস্তাকিম


আহসান উল্লাহ বাবলু উপজেলা   প্রতিনিধিঃ  আশাশুনিতে শিক্ষা উপবৃত্তির চেক প্রদান করেন উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ বি এম মোস্তাকিম। রবিবার সকালে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে এ চেক বিতরণ করা হয়। উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মোঃ রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মীর আলিফ রেজা।সমাজসেবা অফিসের আয়োজনে ২০১৯ - ২০ অর্থবছরে প্রতিবন্ধী ও পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর শিক্ষার্থীদের মাঝে উপবৃত্তির চেক বিতরণ করা হয়। প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী ৩২০ জন্য এবং পিছিয়ে পড়া অনগ্রসর শিক্ষার্থী ২৫ জন সর্বমোট ৩৪৫ জন শিক্ষার্থীকে ছয় মাসের উপবৃত্তির ২০ লক্ষ ৭০ হাজার টাকার চেক প্রদান করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন ফিল্ড সুপারভাইজার মোঃ শাহিনুর ইসলাম।

আশাশুনিতে ভ্রাম্যমাণ আদালত জরিমানা

 আশাশুনিতে ভ্রাম্যমাণ আদালত জরিমানা

 



আহসান উল্লাহ বাবলু উপজেলা প্রতিনিধিঃ  আশাশুনি উপজেলা সদরে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও বিজ্ঞ ম্যাজিস্ট্রেট মীর আলিফ রেজা। রবিবার বিকালে তিনি আদালত পরিচালনা কালে ৪জনকে ৮০০ শত টাকা জরিমানা করেন। আশাশুনি উপজেলার সদর ইউনিয়নে আশাশুনি বাজারে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে মাস্ক পড়া  ও সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিতকরণে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা কালে মাস্ক না পরায় তিনটি মামলায় চার জন কে দন্ডবিধি, ১৮৬০ এর ২৬৯ ধারায় সর্বমোট ৮০০/- (আটশত টাকা) জরিমানা করা হয়| বাজারে আগত সকল ক্রেতা ও বিক্রেতাকে মাস্ক পড়া ও সামাজক দুরত্ব বজায় রাখার জন্য সচেতন করা হয়|

বেরিয়ে আসলো বশেমুরবিপ্রবিতে কম্পিউটার চুরির গোপন রহস্য, পুলিশ বলছে জড়িতদের বিচারের আওতায় আনা হবে

বেরিয়ে আসলো বশেমুরবিপ্রবিতে কম্পিউটার চুরির গোপন রহস্য, পুলিশ বলছে জড়িতদের বিচারের আওতায় আনা হবে



সুমন,বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি ঃগোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ( বশেমুরবিপ্রবি) কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি ভবন থেকে প্রায় অর্ধশতাধিক ( ৪৯ টি) কম্পিউটার চুরির ঘটনার প্রকৃত চিত্র তুলে ধরতে সক্ষম হয়েছে পুলিশ।এ ঘটনায় গ্রেফতারকৃত সাত আসামী আদালতে চুরির দায় স্বীকার করে তাদের জবানবন্দি দিয়েছে।


আজ রবিবার ১৬ আগস্ট গোপালগঞ্জ পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘটনার তথ্যটি তুলে ধরেন পুলিশ সুপার মুহাম্মদ সাইদুর রহমান খান।ঘটনার বুলেট পয়েন্ট চিহ্নিত করে পুলিশ সুপার বলেন,"গত ২৬ জুলাই মধ্যরাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির পিছনের দিকের জানালা ভেঙে ৪৯ টি কম্পিউটার চুরি করে চক্রটি।সেগুলো বশেমুরবিপ্রবি'র কেন্দ্রীয় মন্দিরের কাছে রেখে পরবর্তীতে কৌশলে একটি ট্রাকে করে ঢাকায় পাচার করে।কম্পিউটারগুলো ঢাকা নিয়ে যুবলীগ নেতা পলাশ শরীফের মালিকানাধীন হোটেল ক্রিস্টাল ইনে রাখা হয়।খবর পেয়ে ১৩ আগস্ট রাতে গোপালগঞ্জ ও ঢাকা বনানী থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে দুই আসামি গ্রেফতারসহ ৩৪ টি কম্পিউটার উদ্ধার করে।


এ চুরিতে জড়িত সাত সদস্যে এখন পর্যন্ত ধরতে পেরেছে পুলিশ।গ্রেফতারকৃত সাতজন গত ১৫ আগস্ট গোপালগঞ্জ জেলার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট অমিত কুমার বিশ্বাসের আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন এবং চুরির সকল গোপন রহস্যের বর্ননা দেন।এছাড়া জবানবন্দিতে যুবলীগ নেতা পলাশ শরীফ সহ অনেক রাঘব বোয়ালের নামও বেড়িয়ে এসেছে।তবে সুষ্ঠ তদন্তের স্বার্থে পুলিশ তাদের নাম প্রকাশ করেননি।


মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও গোপালগঞ্জ সদর থানার এসআই মিজানুর রহমান বলেন,গ্রেফতারকৃত ৭ জনের মধ্যে কুমিল্লার দেবিদ্বার থানার ইদ্রাকচর গ্রামের মৃত সেলিম মিয়ার ছেলে দুলাল মিয়া(৪৫) ও ময়মনসিংহ জেলার কোতায়ালী থানার চোরখাই গ্রামের মৃত ময়েজ উদ্দিনের ছেলে হুমায়ুন কবিরকে(২৪) ৩৪ টি চোরাই কম্পিউটারসহ ঢাকার ক্রিস্টাল ইন হোটেল থেকে গত ১৩ আগস্ট রাতে গ্রেফতার করা হয়।প্রযুক্তিগত সহায়তার মাধ্যমে ঢাকা, গোপালগঞ্জ ও নড়াইল জেলার বিভিন্ন স্থানে  অভিযান চালিয়ে অন্য অভিযুক্তদের গ্রেফতার করা হয়।গ্রেফতারকৃত অন্য ৫ জন হলেন স্বয়ং বশেমুরবিপ্রবি'র লোকপ্রশাসন বিভাগের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের ছাত্র ও গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার মেরী গোপীনাথপুর গ্রামের বিল্লাল শরীফের ছেলে মাসরুল ইসলাম পনি শরীফ(২৩),একই উপজেলার বরফা শেখ পাড়ার আবুল হোসেনের ছেলে আঃ রহমান সৌরভ শেখ(১৯), বরফা মধ্যপাড়ার আইয়ুব শেখের ছেলে হাসিবুর রহমান শান্ত ওরফে কাকন(১৯),বরফার কামালপাশা মিনার ছেলে নাইম উদ্দিন(১৯)এবং মাদারীপুর জেলার রাজৈর থানার বিশমপুরদী এলাকার সালজম হালদারের ছেলে নাজমুল হাসান(১৯)।


তদন্তকারী কর্মকর্তা আরো বলেন,গ্রেফতারকৃতদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।ঘটনার সঙ্গে জড়িত অন্যদের ধরতে পুলিশের অভিযান তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে।তাদের ধরতে পারলে ২০১৭,২০১৮ সালের শতাধিক কম্পিউটার চুরিসহ সকল চুরির ঘটনা উদঘাটন করা সম্ভব হবে।


বিশ্ববিদ্যালয়ের সব কম্পিউটার চুরির ঘটনায় এই চক্রটি জড়িত বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে।এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেউ জড়িত আছে কিনা সেটাও খতিয়ে দেখা হবে বলে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়।

আলোর পথের যাত্রী

আলোর পথের যাত্রী


সসালামু আলাইকুম প্রিয় বন্ধুগণ আজ ১৬ই আগস্ট রোজ রবিবার রাত ৯:০০।

"আলোর পথের যাত্রী" পেইজে সাভার সিআরপি জামে মসজিদের ইমাম ও খতীব, মুফতী মুজীবুর রহমান সাহেব আলোচনা করবেন। ইনশাআল্লাহ। 

বিষয়: "নামাজ পড়ছি, কিন্তু নামাজ হচ্ছে কি"?

আপনারা সকলে সাদরে আমন্ত্রিত...

 চোখ রাখুন "আলোর পথের যাত্রী" পেইজে

লাইভ পরিচালনায় : জাকারিয়া মৃধা। 

পেইজ লিংক :- https://www.facebook.com/AlorPotherJatriAmara/

আত্রাইয়ে জাতীয় শোক দিবস ও সদ্য প্রয়াত ইসরাফিল আলমের আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া

আত্রাইয়ে জাতীয় শোক দিবস ও সদ্য প্রয়াত ইসরাফিল আলমের আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া

 

 

 ফিরোজ হোসাইন রাজশাহী ব্যুরোঃনওগাঁর আত্রাইয়ে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ও সদ্য প্রয়াত ইসরাফিল আলম এমপির বিদায়ী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে আত্রাই সাবরেজিস্ট্রি অফিস ও দলিল লেখক সমিতির আয়োজনে দোয়া ও মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। 


রবিবার  (১৬ই আগষ্ট) বাদ যোহর আত্রাই উপজেলা সাবরেজিস্ট্রি অফিস চত্বরে   দোয়া ও মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।  


উক্ত দোয়া ও মাহফিলে অনুষ্ঠানে  উপস্থিত ছিলেন,নাজমুল হাসান সাবরেজিস্টার,আত্রাই।

আত্রাই দলিল লেখক সমিতির সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ কায়েম উদ্দিন সরদার,দলিল লেখক সমিতি ও আত্রাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী গোলাম মোস্তফা বাদল,আত্রাই দলিল লেখক মাদ্রাসার সভাপতি আবু হেনা মোস্তফা কামাল,মাদ্রাসার সুপার মোঃ আলাউদ্দিন সিরাজী, সাব রেজিস্ট্রি অফিস সহকারী মো.মোকলেছার রহমান সহ সাব রেজিস্ট্রি অফিসের সকল কর্মকর্তা কর্মচারী ও দলিল লেখক সমিতির সকল সদস্য বৃন্দ।

দোয়া পরিচালনা করেন হাফেজ মাওলানা মো.আলিম উদ্দিন।

প্রস্তাবিত মনসুর নগর থানার আয়োজনে বঙ্গবন্ধুর শাহাদৎ বার্ষিকী ও শোক দিবস পালন

প্রস্তাবিত মনসুর নগর থানার আয়োজনে বঙ্গবন্ধুর শাহাদৎ বার্ষিকী ও শোক দিবস পালন



মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃসিরাজগঞ্জের প্রস্তাবিত মনসুর নগর থানার নানা আয়োজনে ১৯৭৫ সালে ১৫ আগষ্ট এ স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু স্ব-পরিবারের সকল শহিদ ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর ৪৫তম শাহাদৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালন করা হয়েছে। শনিবার ১৫আগষ্ট বিকাল ৪টায় প্রস্তাবিত মনসুর নগর থানার অর্ন্তগত ছোনগাছা বাজার গুপ্ত মাঠ প্রাঙ্গনে মনসুর নগর থানা আ:লীগের আয়োজনে বঙ্গবন্ধুর কৃতিত্বে পুষ্পমাল্য অর্পন, স্থানীয মাঠ প্রাঙ্গনে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে মনসুর নগর থানা আ:লীগের যুগ্ম আহব্বায়ক ও জেলা পরিষদের সদস্য গোলাম রব্বানী তাং এর সভাপতিত্বে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত সহ শহিদদের রূহের মাগফেরাত কামনায় ১ মিনিট নিরাপত্তা পালন, বিশেষ দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক সংসদ সদস্য তানভীর শাকিল জয়। প্রধান অতিথি আলোচনা সভায় বলেন সোনার বাংলাদেশ স্বাধীনতা অর্জনের মহান নায়ক বঙ্গবন্ধু স্ব-পরিবারে ১৫ আগষ্ট ঘাতকেরা তাদেরকে হত্যা করে। দেশের উন্নয়নের ধারাকে ব্যহৃত করার চেষ্টা করে ছিল। জননেত্রী প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নের মহাসড়কে আগামীতে এ উন্নয়ন ধারা অব্যহত রাখতে শেখ হাসিনার প্রতি আস্থা রেখে সকলকে ঐক্য বদ্ধ হয়ে কাজ করার আহŸান জানান। ঘাতকদের অবিলম্বে দেশে ফিরে এনে শাস্তির দাবি জানানো হয়। তিনি আর বলেন উত্তর বঙ্গের সিংহ পুরুষ সাবেক স্বাস্থ্য মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম আপনাদের পাশে যে ভাবে ছিলেন ইনশাআল্লাহ আমিও আপনাদের পাশে থাকবো। আপনারাই আমার অভিভাবক। আমাকে দিক নির্দেশনা দিবেন। আমি সেভাবে আপনাদের সেবা করে যাবো। আমার দাদা ও বাবার ঐতিহ্য আমি ধরে রাখার আপ্রাণ চেষ্টা করব, আপনারা আমার বাবার জন্য দোয়া করবেন। উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জেলা আ:লীগের সহ-সভাপতি ও সিরাজগঞ্জ চেম্বার অব কমার্সের চেয়ারম্যান আবু ইউসুফ সূর্য, কাজিপুর উপজেলা আ:লীগে সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান খলিলুর রহমান সিরাজী, জেলা আ:লীগের কৃর্ষি বিষয়ক সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা আ:লীগের সভাপতি গাজী আমিনুল ইসলাম, মিজানুর রহমান দুদু সাবেক উপজেলা আ:লীগের সাধারন সম্পদাক, বহুলি ইউনিয়ন আ:লীগের সভাপতি মুঞ্জুর আলম, ছোনগাছা ইউনিয়ন আ:লীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল আলম,সাধারণ সম্পাদক মোঃ আলী জিন্নাহ, বাগবাটি ইউনিয়ন আ:লীগের সভাপতি আলী হোসেন মল্লিক, সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, রতনকান্দি ইউনিয়ন আ:লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোঃ সাইদুল ইসলাম জুরান, ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন, মেছড়া ইউনিয়ন আ:লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ সহ পাঁচ ইউনিয়নের আ:লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সকল নেতৃবৃন্দ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন কুড়িপাড়া কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ কামরুল ইসলাম। অনুষ্ঠানটি স্বাস্থ্য বিধি মেনে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে অনুষ্ঠিত হয়।

আশাশুনিতে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে চেক বিতরণ

আশাশুনিতে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে  চেক বিতরণ


আহসান উল্লাহ বাবলু উপজেলা প্রতিনিধিঃ  ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫ তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে আশাশুনিতে যুব ঋণের চেক বিতরণ করা হয়েছে। রবিবার সকালে উপজেলা চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে এ চেক প্রদান করেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ বি এম মোস্তাকিম। উপজেলা যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের আয়োজনে জাতীয় শোক দিবস ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাত বার্ষিকীকে অর্থবহ করার লক্ষ্যে আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টির জন্য এ ঋণের চেক বিতরণ করা হয়। উপজেলা যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের আয়োজনে ১৯ জন প্রশিক্ষিত যুবক ও যুব নারীদের মাঝে ৯ লক্ষ ৩০ হাজার টাকার যুব ঋণের চেক বিতরণ করা হয়। চেক বিতরণ কালে এ বি এম মোস্তাকিম বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন ছিল বাংলাদেশকে সোনার বাংলা হিসেবে গড়ে তোলা। তার জন্য তিনি যুবকদের আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টির মধ্য দিয়ে স্বাবলম্বী হওয়ার প্রেরণা জুগিয়েছিলেন। বঙ্গবন্ধুর সেই স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করার জন্য তার সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা স্বল্প সুদে বিভিন্ন প্রকারের ঋণ দিয়ে যুবক ও যুব নারীদের যে আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টি করে চলেছেন তা বিশ্বে বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে।  এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মোঃ আজিজুল ইসলাম, সহকারি যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা তাহমীর সিদ্দিকী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও রিপোর্টার্স ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ বাচ্চু রিপোর্টার্স ক্লাবের দপ্তর সম্পাদক আহসান উল্লাহ বাবলু   প্রমূখ

কিশোরগঞ্জে দুই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে সরকারি বেতন নিচ্ছেন আয়শা আইরিন নামে এক শিক্ষিকা

 কিশোরগঞ্জে দুই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে সরকারি বেতন নিচ্ছেন আয়শা আইরিন নামে এক শিক্ষিকা


মো: লাতিফুল আজম,কিশোরগন্জ নাীলফামারী প্রতিনিধি:নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে এক শিক্ষিকার বিরুদ্ধে দুটি এমপিও ভুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে সরকারি বেতনভাতা গ্রহণের অভিযোগ উঠেছে। ওই শিক্ষিকার নাম আয়েশা আইরিন। তিনি নীলফামারীর কিশোরীগঞ্জ সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুর রউফের স্ত্রী।



আয়েশা আইরিন কিশোরীগঞ্জ শিশু নিকেতন স্কুল এ্যন্ড কলেজের সামাজিক বিজ্ঞান বিষয়ে সহকারী শিক্ষক ও কিশোরীগঞ্জ মহিলা কলেজে ইসলামের ইতিহাস বিভাগের প্রভাষক হিসাবে কর্মরত। ঘটনাটি প্রকাশ হলে এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়। বিষয়টি ধামাচাপা দিতে তার স্বামী কিশোরীগঞ্জ সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুর রউফ বিভিন্ন স্থানে দেনদরবার শুরু করেন।


অভিযোগে জানা যায়, আয়েশা আইরিন ২০০১ সালে এপ্রিল মাসে কিশোরীগঞ্জ শিশু নিকেতন স্কুল এ্যান্ড কলেজে সামাজিক বিজ্ঞান শাখায় সহকারী শিক্ষক হিসাবে যোগদান করলে ওই বছরেই সেপ্টেম্বরেই তিনি সরকারি অংশের বেতনের জন্য এমপিওভুক্ত হন এবং সরকারি অংশের বেতনভাতা পেয়ে আসছেন। ওই শিক্ষিকার স্কুল শাখার ইনডেক্স নম্বর ৫৫৮৬১৪। তিনি প্রতিমাসে ১৭ হাজার ৩৭৬ টাকা হারে বেতন ভাতা উত্তোলন করে আসছেন। ফলে এক বছরের হিসাবে তিনি স্কুল শাখা হতে সরকারি অংশের বেতনভাতা উত্তোলন করেছেন দুই লাখ ৩ হাজার ৮৮৪ টাকা।


অপর দিকে ওই স্কুল শিক্ষিকা উক্ত স্কুলে কর্মরত অবস্থায় কিশোরীগঞ্জ মহিলা কলেজে ইসলামের ইতিহাস বিষয়ে প্রভাষক পদে ২০০৪ সালে যোগদান করেন। ২০১৯ সালের ২৩ অক্টোবর কিশোরীগঞ্জ মহিলা কলেজ জাতীয়করণ হয়। সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী ২০১৯ সালের পহেলা জুলাই থেকে চলতি বছরের (২০২০) মে মাস পর্যন্ত এমপিওভুক্ত কলেজ প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা মোট ১১ মাসের সকল সুযোগ সুবিধাসহ সরকারি বেতনভাতা পাবেন। আয়েশা আইরিনের কলেজ শাখার ইনডেক্স নম্বর ৫৬৭৯৮৩০২ । সে অনুযায়ী তিনি কিশোরীগঞ্জ মহিলা কলেজের প্রভাষক হিসাবে সরকারি অংশের প্রতিমাসে বেতনভাতা বোনাস বাবদ ২৪ হাজার ৯০০ টাকা হিসাবে তার হিসাব নম্বরে জমা হয় দুই লাখ ৭৩ হাজার ৯০০ টাকা। এরমধ্যে ১১ মাসের কল্যাণ তহবিলের জন্য নয় হাজার ৬৮০ টাকা ও অবসরকালীন তহবিলের জন্য ১৪ হাজার ৫২০ টাকা কর্তনের পর তিনি মোট টাকা উত্তোলন করেন দুই লাখ ৪৯ হাজার ৭০০ টাকা।


এ বিষয়ে জানতে চাইলে কিশোরীগঞ্জ শিশু নিকেতন স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুল মালেক বুলবুল বলেন, আয়েশা আইরিন আমার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের স্কুল শাখার সামাজিক বিজ্ঞানের সহকারী শিক্ষক। তিনি সরকারি অংশের বেতনের এমপিওভুক্ত। তিনি আমার প্রতিষ্ঠানের বাহিরে একটি কলেজের প্রভাষক এটি আমার জানা নেই। তিনি এখনও আমার স্কুলের শিক্ষিকা হিসাবে কর্মরত।


অপরদিকে, কিশোরীগঞ্জ মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ মাহফুজার রহমানের কাছে এ বিষয়ে সাংবাদিকরা জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার কলেজের ইসলামের ইতিহাস বিষয়ের প্রভাষক আয়েশা আইরিন। তিনি কিশোরীগঞ্জ শিশু নিকেতন স্কুল এ্যন্ড কলেজে স্কুল শাখায় সহকারী শিক্ষক (সামাজিক বিজ্ঞান) হিসাবে কর্মরত এটি আমার জানা নেই। আমার কলেজে তিনি ইসলামের ইতিহাসের প্রভাষক। আমার কলেজে তার প্রভাষক হিসাবে সরকারি অংশের এমপিও বিল হওয়ায় তাকে তার বেতন ভাতা দিতে হয়েছে। তিনি দুই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত থেকে সরকারি বেতন ভাতা নিবেন, না, কি করবেন সেটি তার ব্যক্তিগত বিষয়।


এ বিষয়ে আয়েশা আইরিন সাংবাদিকদের বলেন, আমি আগে (কিশোরীগঞ্জ শিশু নিকেতন স্কুল এন্ড কলেজ) যে প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ছিলাম সেই প্রতিষ্ঠানের উত্তোলনকৃত বেতনভাতা সরকারি কোষাগারে ফেরত দিয়েছি। কারণ আমার কলেজের সরকারি অংশের বেতন হয়েছে। আমি স্কুলের চাকুরি ছেড়ে কলেজের চাকুরি করবো। এর বেশি বলতে পারবনা।


কিশোরীগঞ্জ সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুর রউফ তার স্ত্রী আয়েশা আইরিন প্রসঙ্গে বলেন, এটি কোন বিষয় না। এমন অনেকে চাকুরি করছেন। তবে আমার স্ত্রী স্কুলের চাকুরি আর করবেনা। তাই নীতিমালা অনুযায়ী আমার স্ত্রী স্কুলের অংশের বেতন সরকারি কোষাগারে জমা দিয়েছে।


কিশোরীগঞ্জ উপজেলা হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা আব্দুল খালেক বলেন, সরকারি কোষাগরে টাকা ফেরত বা জমা দেওয়ার কোনো কাগজপত্র হাতে পাইনি।


কিশোরগঞ্জ উপজেলার মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এটিএম নুরুল আমি শাহ এ ব্যাপারে বলেন ,বিষয়টি আমার জানা নেই। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্তের মাধ্যমে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


উপজেলা নিবার্হী অফিসার রোকসানা বেগম বলেন, একই শিক্ষিকা কোনভাবেই দুইটি এমপিওভুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে বেতন ভাতা উত্তোলন করতে পারবেন না। বিষয়টি খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মাগুরা মহম্মদপুর উপজেলার নহাটায় মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের উদ্বোধন ঘোষণা

মাগুরা মহম্মদপুর উপজেলার নহাটায় মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের উদ্বোধন ঘোষণা

 


মোঃকুতুবুল আলম,  মহম্মদপুর(মাগুরা) মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলার নহাটায় সরকার অনুমোদিত মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করা হয়েছে। রোববার দুপুরে নহাটায় সদ্য নির্মিত এই কারিগরি ও তথ্য প্রযুক্তি শিক্ষামূলক প্রতিষ্ঠানের উদ্বোধন করা হয়।


উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আগে মহম্মদপুর উপজেলার বীর মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদেরকে নিয়ে করোনাকালীন সময়ে সামরিক দূরত্ব বজায় রেখে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বীর মুক্তিযোদ্ধা নজরুল ইসলাম মৃধার সভাপতিত্বে অতিথি হিসেবে উপস্থিতি থেকে বক্তব্য দেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ফারুক হোসেন।


এছাড়াও সভায় বক্তব্য রাখেন মুক্তিযোদ্ধা সাবেক সেনা সদস্য মোঃ লুৎফর রহমান, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান মনিরুল ইসলাম লুলু, মোঃ জাকির হোসেন সহ প্রমুখ। সভায় জানানো হয়, বীর মুক্তিযোদ্ধাগণ দ্বারা পরিচালিত হবে এই প্রতিষ্ঠান। কে.জি থেকে (পি.জি) পোস্ট গ্রাজুয়েশন পর্যন্ত এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষা কার্যক্রম চলবে। জানা যায়, উক্ত প্রতিষ্ঠানটি ২০১৯ সালে নহাটায় স্থাপিত হয়। বিজিবির সাবেক মেডিক্যাল এ্যাসিসটেন্ট মোঃ মনিরুজ্জামান মৃধা এই মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজটি প্রতিষ্ঠা করেন। সবশেষে দোয়া করার মধ্যদিয়ে উক্ত অনুষ্ঠানের সমাপ্ত ঘটে।

ঝিকরগাছায় ছাত্রলীগের উদ্যোগে শোক দিবস উদযাপন

ঝিকরগাছায় ছাত্রলীগের  উদ্যোগে শোক দিবস উদযাপন


মোঃ ইকরামুল করিম সৈকত, ঝিকরগাছা (যশোর) প্রতিনিধিঃ১৫ আগস্ট কালরাতে ঘাতকের নির্মম বুলেটে নিহত স্বাধীনতার মহান স্থপতি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তাঁর পরিবারের সকল সদস্যের শাহাদাৎ বার্ষিকীতে "বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, ঝিকরগাছা পৌর শাখার ও কলেজ শাখার উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি,আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

রবিবার, ১৬আগস্ট ঝিকরগাছা পৌর সদরের হাসপাতাল রোড এর নজরুল চত্ত্বর প্রাঙ্গণে উক্ত  বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি, আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।


আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঝিকরগাছা উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক ও ঝিকরগাছা উপজেলা পরিষদের  চেয়ারম্যান জনাব মনিরুল ইসলাম।


উপস্থিত ছিলেন যশোর জেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি মোঃ আজহার আলী, উপজেলা যুবলীগেরর সাবেক যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক খলিলুর রহমান, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও উপজেলা যুবলীগ নেতা রফিকুল ইসলাম বাপ্পী, উপজেলা যুবলীগ নেতা জাফিরুল হক, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা মীর বাবরজান বরুন, ঝিকরগাছা ট্রাক ও ট্যাংকলরি শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি গোলাম মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর সর্দার, সাবেক ছাত্রনেতা মনোয়ার কবীর বাবু, উপজেলা যুবনেতা হাদিউজ্জামান মিন্টু, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক কামাল হোসেন, যুবলীগ নেতা শামীম পারভেজ, শাহ জামাল শিশির, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা নাঈমুর রহমান হৃদয়, আরিফুর রহমান আরিফ, হান্নান হোসেন,  সাব্বির আলম রিয়ান, শিহাব উদ্দীন রাজ, কলেজ ছাত্রলীগ নেতা হাসিবুর  রহমান, জাহিদ হাসান রুবেল, ছাত্রনেতা সোহেল আরমান সানি, ইমরান হোসেন, অন্তর, হাসিবুল হাসান অনিক, সানী, বিশ্বজিৎ, প্রসেনজিৎ প্রমুখ।

জবির শিক্ষক নিয়োগের গোড়ায় গলদ

 জবির শিক্ষক নিয়োগের গোড়ায় গলদ

জবি প্রতিনিধিঃ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) এর প্রভাষক নিয়োগ ও পদোন্নতি সংক্রান্ত লোয়ার ও হাইয়ার বোর্ডের এক্সপার্ট নিয়োগে থামছে না অনিয়ম ও স্বজনপ্রীতি। যার ফলে প্রতিষ্ঠার ১৫ বছরেও শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ বঞ্চিত থাকছে জবির শিক্ষার্থীরা।


অনুসন্ধানে দেখা যায়, অধিকাংশ বিভাগে এক্সপার্ট আসেন একটি বিশেষ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। এছাড়াও অনেক বিভাগে একই এক্সপার্ট  ৮-১০ বছর ধরেও আসছেন। অনেকক্ষেত্রে বিতর্কিত ব্যক্তিদেরও এক্সপার্ট হিসেবে আনা হচ্ছে বছরের পর বছর। এমনকি একই এক্সপার্ট হাইয়ার বোর্ড ও লোয়ার বোর্ড উভয় বোর্ডেও আছেন। ফলস্বরুপ একটি বিশেষ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ পাচ্ছেন নিয়মিত। এছাড়াও শিক্ষকদের পদন্নোতিতেও স্বজনপ্রীতির সুযোগ থাকছে। 


ইউজিসির ২০০৫ গেজেট অনুযায়ী, লোয়ার বোর্ডে এক্সপার্ট নিয়োগের ক্ষেত্রে সিন্ডিকেট মনোনীত একজন থাকবেন ও উপাচার্য মনোনীত একজন থাকবেন। দুইজন এক্সপার্টের একজন বাইরের বিশ্ববিদ্যালয় থেকে হবে তবে অপরজন যেকোনো বিশ্ববিদ্যালয় থেকে হতে পারে। অর্থাৎ নিজ বিশ্ববিদ্যালয় থেকেও একজন এক্সপার্ট থাকার সুযোগ আছে।


তবে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনিয়র ও অভিজ্ঞ অনেক অধ্যাপক থাকা সত্ত্বেও অজানা কারণেই এক্সপার্ট হিসেবে সুযোগ পান না তারা। এমন অনেক অধ্যাপক আছেন যারা নিয়মিত অন্য বিশ্ববিদ্যালয়ে এক্সপার্ট হিসেবে গেলেও জবির নিয়োগ বোর্ডে তাদের নাম ওঠে না।


অভিযোগ আছে, এক্সপার্ট নিয়োগের ক্ষেত্রে মতামত বা পরামর্শ দূরে থাক জানানোও হয়না অনেক বিভাগের চেয়ারম্যান ও সিনিয়র অধ্যাপকদের যা তাদের জন্য অপ্রীতিকর। এটি নিয়ে ক্ষোভ তৈরি হচ্ছে সিনিয়র অধ্যাপকদের মধ্যে। 


বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, ২০১৯ সাল পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়েল শিক্ষক সংখ্যা ৬৭১জন। এদের মধ্যে জবি শিক্ষার্থী আছেন মাত্র ৩৬ জন। যা মোট শিক্ষকের ৫.৩৬ শতাংশ মাত্র। এছাড়াও বর্তমান উপাচার্যের সময়ে চার শতাধিক শিক্ষক নিয়োগ হলে ২০১৯ পর্যন্ত জবি শিক্ষার্থী নিয়োগ পেয়েছেন মাত্র ৩২ জন। 


জানা যায়, ২০১৪, ২০১৫,২০১৬ ও ২০১৭ সালের জবির ২৮ জন শিক্ষার্থী ‘প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক’ পেলেও শুধুমাত্র মার্কেটিং বিভাগের মেহজাবীন আহমেদ ও সমাজবিজ্ঞান বিভাগের মার্জিয়া রহমান বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন। বাকিদের কেউই শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ পাননি। এমনও অভিযোগ আছে অন্য বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ পেলে জবিতে সুযোগ মেলেনি অনেক শিক্ষার্থীরা।


সর্বশেষ বোর্ডের মেয়াদশেষ হলেও এক্সপার্টদের তথ্য দিতে অস্বীকার করে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ওহিদুজ্জামান বলেন, এভাবে তথ্য দেওয়া যায় না, এক্সপার্টরা বিব্রত হন। তাদের কাছে অনেকে লবিং-তদবির নিয়ে যেতে পারে।


অনুসন্ধানে জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার পর থেকেই অদৃশ্য কারণে প্রাণীবিদ্যা ডিপার্টমেন্টের এক্সপার্ট হিসেবে রয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য আজাদ চৌধুরীর সহধর্মিণী ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণীবিদ্যার অধ্যাপক গুলশান আরা। ভূগোল ডিপার্টমেন্টে দীর্ঘ সময় ধরে অপরিবর্তিত রয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল ডিপার্টমেন্টের অধ্যাপক নাসরিন আহম্মেদ ও অধ্যাপক ড. আব্দুল বাকি। এছাড়াও বাংলা ডিপার্টমেন্টের এক্সপার্ট হিসেবে পরিবর্তিত হয়ে আসেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক সৌমিত্র শেখর ও অধ্যাপক বিশ্বজিৎ ঘোষ, অধ্যাপক সৈয়দ আজিজুল হক। পরিসংখ্যান বিভাগেও পরিবর্তিত হয়ে আসেন অধ্যাপক ড. নিতাই চক্রবর্তী, অধ্যাপক ড. নুরুল ইসলাম, অধ্যাপক ড. সেকেন্দার হায়াত খান। 


রসায়ন বিভাগে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার পর থেকেই এক্সপার্ট হিসেবে রয়েছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক শরীফ এনামুল কবীর। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে একই শিক্ষককে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়োগ দেওয়ার পর আবার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে পুনরায় নিয়োগ দিয়েছেন।


ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক কামালউদ্দিন যৌন হয়রানির অভিযোগে বাধ্যতামূলক অবসরে যান ২০০৮ সালে। এরূপ অভিযোগের পরও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে এক্সপার্ট হিসেবে আছেন তিনি। 


এবিষয়ে নীলদলের (সনাতন) সভাপতি কাজী সাইফুদ্দিন বলেন, আমাদের কি প্রয়োজন বাইরে থেকে যারা আসেন তারা বোঝেন না।  জবিতে প্রায় একশর বেশি অধ্যাপক ও ২৩০ মতো পিএইসডি হোল্ডার আছেন যা অনেক ভার্সিটিতে নাই। আমাদের শিক্ষকরা বোঝেন আমাদের কি লাগবে। যে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এক্সপার্ট আনা হয় তারাতো আমাদের ডাকে না।


নীলদলের (সংস্কারপন্থী) সভাপতি অধ্যাপক ড. জাকারিয়া মিয়া বলেন, আগে না হলেও বর্তমানে কিছু ডিপার্টমেন্টে এক্সপার্ট জবি থেকে নেওয়া হয়েছে। তবে আমরা আশাবাদী ভবিষ্যতে সব ডিপার্টমেন্টে জবির সিনিয়র শিক্ষকদের প্রশাসন রাখবে।


শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. নূর আলম আব্দুল্লাহ বলেন, আমরা উপাচার্যের সাথে এবিষয়ে কথা বলছি, যাতে আমাদের প্রবীণ শিক্ষকরা বেশি বেশি বোর্ডে রাখা যায়। আমরা আশা করছি সামনে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেতর থেকে এক্সাপার্ট সংখ্যা বাড়বে।


এবিষয়ে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান বলেন, হায়ার ও লোয়ার দুই বোর্ডেই জবির শিক্ষকরা আছেন। আস্তে আস্তে এক্সপার্টের সংখ্যা বাড়ানো হবে। আগে অধ্যাপকের সংখ্যা কম ছিলো। অধ্যাপকের সংখ্যা বাড়ছে, আস্তে আস্তে দুই বোর্ডেই জবির শিক্ষকদের সংখ্যা বাড়ানো হবে। শিক্ষক হিসেবে আমাদের শিক্ষার্থীদের সংখ্যা বাড়ানো হচ্ছে। ভবিষ্যতে দেখা যাবে জবি শিক্ষার্থীদের বাইরে কাউকে নিয়োগ দেওয়া হবে না।


বিতর্কিতদের বিষয়ে উপাচার্য বলেন, সিন্ডিকেটের কাছে খবর থাকলে নিয়োগ দেয়া হয়না। চেষ্টা করা হয় যে এমন কেউ যেন না আসেন। দীর্ঘ সময় একই ব্যক্তি এক্সপার্ট দেওয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, এটা সিন্ডিকেটের সিদ্ধান্ত। সিন্ডিকেট যাকে নির্ভরশীল-যোগ্য মনে করে তাকে রাখে।

সাবেক এমপি মরহুম আমজাদ হোসেন ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে গরিব ও দুস্থ পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

 সাবেক এমপি মরহুম আমজাদ হোসেন ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে গরিব ও দুস্থ পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

মামুনুর রশিদ,দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ ১৫ আগস্ট শনিবার জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস- ২০২০ উপলক্ষে সাবেক এমপি বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম আমজাদ হোসেন ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ও ফাউন্ডেশনের সদস্য মরহুমের দুই কন্যা মোছাঃ আফরোজা ইসলাম, মোছাঃ আমিনা হোসাইন এর সহযোগিতায় দিনাজপুর শহরের সুইহারিস্থ নিজ বাস ভবনের সামনে গরিব ও দুস্থ ৫ শতাধিক পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সাবেক এমপি ও জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম এ্যাডভোকেট আমজাদ হোসেনের পুত্র ও দিনাজপুর সরকারি কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক এজিএস মোঃ শওকত হোসেন বুল্লা, সাবেক ছাত্র নেতা জাহিদুল ইসলাম রানা, ইবনে ফয়সাল রিপন, আলী রেজা, জেলা তাতীলীগের যুগ্ন আহবায়ক মোহাম্মদ আলী সোহাগ, সুমন, মোকসেদ প্রমুখ।

দিনাজপুরে মুজিব জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষেসড়ক বিভাগের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচী

দিনাজপুরে মুজিব জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষেসড়ক বিভাগের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচী


মামুনুর রশিদ,দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ মুজিব শতবর্ষ উদযাপন উপলক্ষে সড়ক বিভাগ দিনাজপুরের বাস্তবায়নে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচী ২০২০ সম্পন্ন হয়েছে। ১৫ আগষ্ট শনিবার দিনাজপুর-বিরল-রাধিকাপুর (বিরল স্থল বন্দর) জেলা মহাসড়ক এর দুই পাশ দিয়ে মুজিব শতবর্ষ উদযাপন উপলক্ষে বৃক্ষরোপণ করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন দিনাজপুর সড়ক সার্কেলের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মোহাম্মদ আব্দুল হালিম, দিনাজপুর সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী সুনীতি চাকমা, উপ বিভাগীয় প্রকৌশলী মোঃ কামরুল হাসান সরকার, সহকারী প্রকৌশলী মোঃ জাকির হোসেন, মোঃ মোতাহার আলী, দামাইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুলতানা কাওছার জাহান প্রমুখ। এর আগে বিরল চককাঞ্চন মোড়স্থ দামাইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সম্মুক সড়কের পার্শ্বে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচীর উদ্বোধন করা হয়। রোপণকৃত গাছের মধ্যে রয়েছে আম, কাঁঠাল, নিম, মেহেগুনি ও অর্জুন।

দিনাজপুরে অরবিন্দ শিশু হাসপাতালে রোটারী ক্লাবের স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী প্রদান

 দিনাজপুরে অরবিন্দ শিশু হাসপাতালে রোটারী ক্লাবের স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী প্রদান


মামুনুর রশিদ,দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ রোটারী ডিজিস প্রিভেনশন এন্ড ট্রিটমেন্ট এর আওতায় রোটারী অনলাইন মেডিকেল সার্ভিসের মাধ্যমে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও রোটারী অক্সিজেন সিলিন্ডার পুল প্রকল্পের মাধ্যমে মুমুর্ষ রোগীদের বিনামূল্যে অক্সিজেন সরবরাহের পাশাপাশি দেশের চিকিৎসকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণের কাজ চলছে। এরই অংশ হিসেবে দিনাজপুর রোটারী ক্লাবের মাধ্যমে ১৬ আগস্ট রোববার দিনাজপুর শহরের ঘাসিপাড়াস্থ অরবিন্দ শিশু হাসপাতালের কর্তৃপক্ষের হাতে চিকিৎসা সুরক্ষা সামগ্রী সাবেক রোটারী জেলা গভর্ণর ও ডিস্ট্রিক্ট ট্রেইনার এসএএম শওকত হোসাইনের পক্ষে তুলে দেন দিনাজপুর রোটারী ক্লাবের লেফটেন্যান্ট গভর্ণর সাবেক পিপি রোটারিয়ান একেএম আব্দুস সালাম তুহিন, এসিস্ট্যান্ট গভর্ণর রোটারিয়ান সৈয়দ মোঃ আব্দুস সাত্তার ও রোটারিয়ান পিপি মোঃ আরিফুর রহমান আরিফ। অরবিন্দ শিশু হাসপাতালের পক্ষে উক্ত সামগ্রী গ্রহণ করেন হাসপাতালের কোষাধ্যক্ষ আলহাজ্ব জহির শাহ্।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদত বাষির্কী উপলক্ষে র্দিনব্যাপি ফলজ ও ওষুধি বৃক্ষরোপন

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদত বাষির্কী উপলক্ষে র্দিনব্যাপি ফলজ ও ওষুধি বৃক্ষরোপন


মামুনুর রশিদ,দিনাজপুর প্রতিনিধি: জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদত বাষির্কী উপলক্ষে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড দিনাজপুরের উদ্যোগে শহরের বিভিন্ন স্থানে দিনব্যাপি ফলজ ও ওষুধি বৃক্ষরোপন কর্মসুচী পালন।


আজ সকালে  শহরের ঈদগাবস্তী এলাকায় বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড দিনাজপুরের আয়োজনে ঘাঘড়া খালের দু“ধারের কয়েক ২৯ কি:মি: পরিত্যক্ত জায়গায় ফলজ বৃক্ষরোপন করেন বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড‘র নির্বাহী প্রকৌশলী মো: ফয়জুর রহমান । এসময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উপ বিভাগীয় প্রকৌশলী মো: শরিফুল ইসলাম,উপসহকারী প্রকৌশলী মো: সিদ্দিকুজ্জামান।


আয়োজিত অনুষ্ঠানে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে নিবার্হী প্রকৌশলী মো: ফইজুর রহমান বলেন,গাছ অক্সিজেন দ্বারা মানুষের জীবনি শক্তি জোগাায় আমরা গাছের প্রতি যতœশীল হবো। তিনি বলেন, পরিত্যক্ত জায়গায় ওষুধি গাছ লাগিয়ে আমরা স্বাস্থ্য রক্ষায় মানুষকে উপকৃত করতে পারি অন্যদিকে ফলজ বৃক্ষরোপনের মাধ্যমে নিজের এবং দেশের উপকারে আর্থিক ভাবে অবদান রাখতে সক্ষম হবো। তাই সকলকে তিনি কমপক্ষে একটি করে বৃক্ষরোপনের আহবান জানান।


তিনি জানান,রোপিত বৃক্ষগুলিকে যদি আমরা যতœসহকারে  বড় করতে পারি তবে পত্র পল্লবে শোভিত হয়ে এই গাছগুলিই একদিন পৃথিবীর বুকে আমাদের শান্তিযোগ্য জীবনযাপনের আবাস তৈরীতে সহায়তা করে যাবে।


কর্মসুচীর আওতায় আজ ১ হাজার গাছের চারা বিতরণসহ  ঈদগাবস্তী,আবাসিক এলাকা,পুলিশ লাইন,বড়পুল.ফুলবাড়ি বাসষ্ট্যান্ড সিপাহি পাড়া ও বালুবাড়ি ঢাকাইয়াপট্টি,সুইপারপট্টিসহ শহরের বিভিন্ন স্থান ও ক্যানেলের দু‘ধারের পরিত্যক্ত জায়গায় ফলজ,বনজ ও ওষুধি গাছের চারা রোপন করে।


উল্লেখ্য, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে দিনাজপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের বৃক্ষরোপন কর্মসুচীর একই কর্মসচীতে দিনাজপুরের বিভিন্নস্থানে ৪ হাজার ৯০০টি ফলজ,২৫০টি ভেষজ এবং ১০০০ হাজারটি বনজসহ ধারাবাহিক ভাবে মোট ৬ হাজার ১৫০টি গাছ লাগানো হবে।

প্রধানমন্ত্রীর উপহার পাকা ঘরে উঠেছেন ভিক্ষুক নাজিম উদ্দীন

প্রধানমন্ত্রীর উপহার পাকা ঘরে উঠেছেন ভিক্ষুক নাজিম উদ্দীন


রাজশাহী ব্যুরোঃপ্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহার পাকা ঘরে উঠেছেন শেরপুরের সেই ভিক্ষুক নাজিম উদ্দিন। ভিক্ষা করে ঘর মেরামতের জন্য দু’বছর ধরে জমানো ১০ হাজার টাকা করোনার দুঃসময়ে কর্মহীন মানুষের জন্য ত্রাণ তহবিলে দান করে প্রধানমন্ত্রীর নজরে আসেন তিনি। জীবদ্দশায় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে একবার দেখা করার ইচ্ছা তার।


এদিকে ভিক্ষুক নাজিম উদ্দিনের উদারতায় খুশি হয়ে তার এলাকার একটি বাজারের নামকরণ করা হয়েছে ‘নাজিম উদ্দিন বাজার’।


করোনা প্রতিরোধে লকডাউন চলাকালে ঘরবন্দি কর্মহীন মানুষদের জন্য নগদ দশ হাজার টাকা করোনা তহবিলে জমা দিয়েছিলেন ভিক্ষুক নাজিম উদ্দিন। গত ২১ এপ্রিল গণমাধ্যমে এ সংবাদ প্রচারের পর তার মহানুভবতায় খুশি হয়ে পাকা বাড়ি করে দেয়ার নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী। স্থানীয় প্রশাসনের পক্ষ থেকেও দেয়া হয় সম্মাননা, জীবিকার জন্য দেয়া হয়েছে দোকান।


স্ত্রী ও ৬ ছেলে মেয়ে নিয়ে জরাজীর্ণ ঘরে ভিক্ষা করে সংসার চালাতেন ভিক্ষুক নাজিম উদ্দিন। আজ জীর্ণ মাটির ঘর ছেড়ে প্রধানমন্ত্রীর দেয়া পাকা ঘরে উঠেছেন তিনি। নতুন ঘরের চাবি তার হাতে তুলে দিয়েছেন জেলা প্রশাসক আনার কলি মাহবুব।


ভিক্ষুক নাজিম উদ্দিন বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী খুশি হয়ে আমারে ঘর বাড়ি কইরে দিছে। আমি ম্যালা খুশি হইছি। আমি দোয়া করি আল্লাহ যেন প্রধানমন্ত্রীরে নেক হায়াত দান করেন। তারে আরো মাইনষের উপকার করার দিল দেন।’


তিনি আরও বলেন, ‘ডিসি সাব আমারে একটা দোহান বানাইয়া দিছেন। মাল তুলার লাইগা ২০ হাজার টেহাও দিছেন। হেরেও আল্লাহ সহি সালামতে রাহুক। আমগো উপজেলা চেয়ারম্যান নাঈম ভাই আমারে একটা অটোরিকশা কিন্না দিছেন। হেরেও আল্লাহ ভালা রাহুক।’


এ সময় ভিক্ষুক নাজিম উদ্দিন আবেগাপ্লুত হয়ে বলেন, ‘আমার জীবনের শেষ ইচ্ছা আমি যাতে একবার শেখের বেটিরে সামনা সামনি দেহি। আমার জীবনের সব আমি পাইছি। আমি শেখের বেটির পায়ে ধইরে একবার সেলাম করতে চাই। আল্লাহ যাতে আমার জীবনের এই শেষ ইচ্ছাডা পূরণ করেন।’


এদিকে নাজিম উদ্দিনের উদারতায় খুশি হয়ে তার এলাকার একটি বাজারের নাম ‘নাজিম উদ্দিন বাজার’ করেছেন স্থানীয়রা।


স্থানীয় ব্যবসায়ী সেলিম মিয়া বলেন, ‘নাজিম চাচার উদারতায় দুনিয়ার মানুষ আমগো এলাকা চিনছে। তাই আমরা আমাগো বাজারের নাম চাচার নাম করছি।’


স্থানীয় রেজাউল করিম বলেন, ‘নাজিম চাচা আমাদের সম্পদ। প্রধানমন্ত্রীকে আমরা ধন্যবাদ জানাই, চাচাকে ঘর বাড়ি দেয়ার জন্য। আমরাও খুশি হয়ে আমাদের বাজারের নাম চাচার নামে করে দিছি।’


জীবিকা নির্বাহের জন্য স্থানীয় বাজারে একটি দোকানও করে দিয়েছে জেলা প্রশাসন। ভবিষ্যতেও তাকে সকল সহযোগিতা করবে সরকার, বলেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুবেল মাহমুদ। তিনি বলেন, ‘নাজিম চাচার প্রয়োজনীয় সকল কিছু আমরা দেখভাল করবো ইনশাআল্লাহ।’


এদিকে ব্যক্তিগত অর্থায়নে নাজিম উদ্দিনকে একটি ইজিবাইক কিনে দিয়েছেন ঝিনাইগাতী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এসএমএ ওয়ারেজ নাঈম। তিনি বলেন, ‘আমার এলাকার এরকম একজন উদার মানুষের জন্য আমার উপজেলার ভাবমূর্তি উজ্জ্বল হয়েছে। যেখানে সমাজের বিত্তবানরা এগিয়ে আসেননি, সেখানে তিনি এগিয়ে এসেছেন। তার যাতে আর ভিক্ষাবৃত্তি না করা লাগে, এজন্যই তাকে ইজিবাইক কিনে দিয়েছি। যাতে তিনি স্বাচ্ছন্দে জীবিকা নির্বাহ করতে পারেন।’


প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে নাজিম উদ্দিনের চিকিৎসা ও জীবিকার ব্যবস্থা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক আনার কলি মাহবুব। তিনি বলেন, তার চিকিৎসা ও জীবিকা নির্বাহের জন্য সকল কিছুর ব্যবস্থা করা হয়েছে। ভবিষ্যতেও সার্বিকভাবে সহযোগিতা করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

কালীগঞ্জে নিজ মেয়েকে যৌন হয়রানির অভিযোগে পিতা আটক!

কালীগঞ্জে নিজ মেয়েকে যৌন হয়রানির অভিযোগে পিতা আটক!



খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার, ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধিঃঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার কোলা গ্রামে নিজের ১২ বছরের মেয়েকে যৌন হয়রানির অভিযোগে বাবা নাড়– গোপাল সরকার (৪৫) কে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার রাতে মেয়েকে যৌন হয়রানির অভিযোগে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন ভিকটিমের মা। এরপর রাতেই অভিযান চালিয়ে নাড়– গোপালকে আটক করে পুলিশ। আটক নাড়ু গোপাল সরকার কোলা গ্রামের কমলেশ সরকারের ছেলে। মামলার এজাহারে ভিকটিমের মা উল্লেখ করেছেন, গত ৭/৮ মাস যাবৎ মেয়ের স্পর্শকাতর স্থানে হাত দিয়ে আসে কুলাঙ্গার পিতা। এ বিষয় নিয়ে এর আগে আমার মেয়ে আত্মহত্যাও করতে গিয়েছিল। কিন্তু গত ৭ আগস্ট রাত তিনটার দিকে আবারও মেয়ের স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেয় ওর বাবা। এসময় মেয়ের চিৎকারে পাশের ঘর থেকে তিনি ছুটে আসেন। কালীগঞ্জ থানার ওসি মুহা: মাহফুজুর রহমান মিয়া জানান, নিজ মেয়েকে বিভিন্ন সময় যৌন হয়রানি করে আসছিল নাড়ু গোপাল। ভিকটিমের মা বাদী হয়ে একটি মামলা করেছেন। শনিবার রাতে তাকে আটক করা হয়। রোববার দুপুরে তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

ঝিনাইদহ কোটচাঁদপুর রেলওয়ে স্টেশনের সড়ক নির্মাণ কাজের শুভ উদ্বোধন, এমপি চঞ্চল

 ঝিনাইদহ কোটচাঁদপুর রেলওয়ে স্টেশনের সড়ক  নির্মাণ কাজের শুভ উদ্বোধন, এমপি চঞ্চল



খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার,ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধিঃ  ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর ১৬ ই আগস্ট রবিবার সকাল ১১ টার দিকে ঐতিহ্যবাহী রেলস্টেশনের কার পার্কিং ও আপ্রোচ সড়কপথ নির্মান কাজের  শুভ উদ্বোধন করেন ঝিনাইদহ-৩ আসনের  মাননীয় জাতীয় সংসদ সদস্য, সদস্য রেলপথ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়, সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য আলহাজ্ব এ্যাডঃ শফিকুল আজম খাঁন চঞ্চল। 

এলাকাবাসীর সূত্রে দীর্ঘ কয়েক বছর পর রেলস্টেশনের এই কার পার্কিং ও আপ্রোচ রাস্তাটি সংস্করণ হওয়ায় সকলের মুখে হাসি ফুটেছে। অনেক বাধাবিপত্তি অতিক্রম করে মাননীয় জাতীয় সংসদ সদস্যের হস্তক্ষেপে রাস্তাটির কাজ শুরু হওয়ায় এলাকাবাসী এমপি মহোদয়কে শুভেচ্ছা কামনা করেন। দীর্ঘদিন অবহেলিত ভাবে পড়ে থাকা রাস্তাটি সংস্করণ না থাকায় জনসাধারণের চলাচলের ক্ষেত্রে খুব দূর্বিষহ ছিলো,বিভিন্ন রিকশা ভ্যান ও বড় ধরনের যানবাহন চলাচলে নানা সমস্যা সৃষ্টি হতো এবং অনেক সময় ছোটখাটো দূর্ঘটনার সৃষ্টি হতো। 

উক্ত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঝিনাইদহ -৩ আসনের মাননীয় জাতীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এ্যাডঃ শফিকুল আজম খাঁন চঞ্চল, বিশেষ বাংলাদেশ রেলওয়ের পাকশী ডিভিশনের ব্যবস্থাপক শাহিদুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান রিপন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আঃলীগের সভাপতি মোছাঃ শরিফুন্নেচ্ছা মিকি, পৌরসভার মেয়র জাহিদুল ইসলাম, উপজেলা আঃলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহাজান আলী, সিনিয়র সহসভাপতি নুরুল ইসলাম খাঁন বাবলু, সিনিয়র সহসভাপতি লুৎফর রহমান, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার তাজুল ইসলাম, পৌর আঃলীগের আহবায়ক ফারজেল হোসেন মন্ডল,যুগ্ম আহবায়ক সহিদুজ্জামান সেলিম, পৌর স্বেচ্ছাসেবকলীগের আহবায়ক জাহিদ হোসেনসহ সকল সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও রেলওয়ের কর্মকর্তাবৃন্দ। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ রেলওয়ের পাকশী ডিভিশনের ব্যবস্থাপক শাহিদুল ইসলাম।

উল্লেখ্য সরকারি বাজেট অনুযায়ী মোট ৭৪ লক্ষ উনসত্তর হাজার পাঁচশত একাশি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হচ্ছে। 

প্রায় ২৭০০ বর্গমিটার আপ্রোচ সড়ক ও ৬১ বর্গমিটার কার পার্কিং সড়ক নির্মাণ হওয়ার বাজেট ঘোষনা হয়। উক্ত সড়ক নির্মানের কাজ করছেন পাকশী অঞ্চলের ১ম শ্রেনীর ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান মের্সাস বিশ্বাস ট্রের্ডাস।


উক্ত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন বাংলাদেশ রেলওয়ের বিভাগীয় প্রকৌশলী শ্রী বীরবল চন্দ্র।

মাগুরায় মেয়াদ উত্তীর্ণ কোমল পানি পান করায় ছোট ভায়ের মৃত্যু ও বড় বোন অসুস্থ

মাগুরায় মেয়াদ উত্তীর্ণ কোমল পানি পান করায় ছোট ভায়ের মৃত্যু ও বড় বোন অসুস্থ


মোঃকুতুবুল আলম মহম্মদপুর(মাগুরা)আজ ১৬/০৮/২০ মাগুরা মহম্মদপুর উপজেলার বিনোদপুর গ্রামে মেয়াদ উত্তীর্ণ কোমল পানীয় পান করায় এক শিশুটির মৃত্যু হয়েছে ও বড় বোন  আফরিন সুলতানা আসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন বলে জানান তাদের পরিবার।


শনিবার রাতে মেয়াদ উত্তীর্ণ বিষাক্ত কোমল পানীয় পান করেন শিশু শিমুল (৯) ও আফরিন সুলতানা (১৭)  পরে পেট ব্যাথা বুকে জ্বালা অনুভূত করেন  এ ভাবে ভোর রাতে বেশি অসুস্থ হয়ে পড়েন শিশু শিমুল। 


 সকাল ৬টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শিশুটির মৃত্যু হয়।


ওই পানীয় পানে অসুস্থ হয়ে চিকিৎসাধীন রয়েছেন শিশুর বড় বোন আফরিন সুলতানা। 


মাগুরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জয়নাল আবেদীন  জানান মেয়াদ উত্তীর্ণ কোমল পানীয় বিষক্রীয়ার আকার ধারণ করায় শিশুটির মৃত্যু হয়েছে বলে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

নাটোর লালপুর থানায় গত এক বছরে অব্যাহত অভিযানে ৩২৩ টি মাদক মামলা দিয়েছে থানা পুলিশ

নাটোর লালপুর থানায় গত এক বছরে অব্যাহত অভিযানে ৩২৩ টি মাদক মামলা দিয়েছে থানা পুলিশ

রাজশাহী ব্যুরোঃনাটোর লালপুর থানায় গত এক বছরে ৯হাজার ১৬৩ পিচ ইয়াবা, ৬০ কেজি ৯৭৬ গ্রাম গাঁজা, ১৩২ লিটার ৯শ গ্রাম চোলাইমদ ও ৯৪৯ বোতল ফেন্সিডিল,৮৪.৫৫ গ্রাম হেরোইন উদ্ধারসহ ৩২৩ টি মাদক মামলা দিয়েছে থানা পুলিশ।

লালপুর থানার ওসি সেলিম রেজা এই তথ্য দিয়ে জানান, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছেন, আর গত ২০১৯ সালের পহেলা আগস্ট লালপুর থানায় যোগদানের পর থেকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ বাস্তবায়নে সুন্দর লালপুর গড়ার লক্ষে মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধঘোষনা করেন তিনি। মাদক নির্মূল করতে প্রতিনিয়োতই চালিয়েছেন মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযান। তারই ফল হিসেবে গত এক বছরে ৩২৩টি মাদক মামলাসহ ৯হাজার১৬৩ পিচ ইয়াবা, ৬০ কেজি ৯৭৬ গ্রাম গাঁজা, ১৩২ লিটার ৯শ গ্রাম চোলাইমদ, ৯৪৯ বোতল ফেন্সিডিল ও ৮৪.৫৫ গ্রাম হেরোইন উদ্ধার করা হয়েছে।


সাজাপ্রাপ্ত ১৩৫ ও বিভিন্ন মামলার ৩৪৬ জনসহ মোট ৪৮১জন আসমীকে গ্রেফতার করে আদালতরে মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করেছেন তিনি। 


তিনি আরো জানান, মাদক ও সন্ত্রাস মুক্ত লালপুর গড়তে অপরাধীদের সঙ্গে আপস না করে নিরোলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে লালপুর থানা পুলিশ। শুধু তাই নয় করোনা মহমারীতেও লালপুরের মানুষের জনসচেতনতাবৃদ্ধি ও স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে ফ্রন্ট লাইনে কাজ করে যাচ্ছেন তারা।


মাদক ও সন্ত্রাস মুক্ত সুন্দর লালপুর গড়তে লালপুর বাসির সর্বাঙ্গীন সহযোগিতা কামনা করেছেন এই কর্মকর্তা।

মাধবপুর এখন মাদকের ট্রানজিট রোড

মাধবপুর এখন মাদকের ট্রানজিট রোড


 লিটন পাঠান, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলায় হাত বাড়ালেই মিলছে মাদক। প্রশাসনের কঠোর নজরদারির সত্বেও উপজেলার সীমান্তবর্তী এলাকাগুলোতে খুব সহজেই মিলছে মাদকদ্রব্য। মাধবপুর উপজেলার কয়েকটি মাদকের হটস্পটের মধ্যে সীমান্তবর্তী তেলিয়াপাড়া চা বাগান অন্যতম। এখানে রয়েছে মুক্তিযুদ্ধের ২, ৩ ও ৪ নং সেক্টরের শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের স্বরণে নির্মিত স্মৃতিস্তম্ভ বুলেট,

এখানে সংগঠিত হয়েছিল মহান মুক্তিযুদ্ধের প্রথম সামরিক সভা এবংএখান থেকেই শুরম্ন হয়েছিল সুসংগঠিত প্রতিরোধ যুদ্ধ। তাই প্রতিদিন শতশত পর্যটক ঐতিহাসিক এই স্থানটিকে দেখতে আসেন। আর এই সুযোগে এখানে মাদকসেবীরা চলে আসে মাদক সেবনের জন্য। মাদক চোরাকারবারিরা অভিনব কৌশলে এখানে মাদক সরবরাহ করে। মাদক সরবরাহের জন্য ব্যবহার করা হয় স্কুল কলেজের ছাত্র উঠতি বয়সী কিশোরদের, স্মৃতি-ত্মম্ভ এলাকার লেকের ঘাটলায় গোসলের জন্য অথবা আশপাশের চা বাগান।


এলাকায় রাখাল সেজে গরম্ন নিয়ে অপে—গা করে এ-সব উঠতি বয়সী কিশোর। মাদকসেবি পর্যটকদের দেখলেই তারা চিনতে পারে। তাদের আসেপাশে ঘুরাঘুরি করে। মাদকসেবীরা তখন তাদের সাথে কথা বলে। কথাবার্তা বলে যখন নিশ্চিত হয় এরা আসলেই মাদক সেবনের উদ্দেশ্যে এসেছে,তখন শুরম্ন হয় দরকষাকষি। দরদাম ঠিক হলে পাইকারী মাদক বিক্রেতার কাছে থেকে এনে সরবরাহ করা হয় চাহিদা মতো মাদক। 


এখানে ভারতীয় ফেনসিডিল বেশি বেচাকেনা হয় বলে জানা গেছে। বর্তমানে একেকটি ফেনসিডিল সাড়ে ৮শ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তবে বেশি বেশি কিনলে পাইকারী মূল্য প্রতি পিস ৬শ থেকে সাড়ে ৬শ টাকায় পাওয়া যায়। মাদক বেচাকেনা করতে গিয়ে অনেক সময় এসব কিশোর প্রশাসনের হাতে আটক হলেও পাইকারি বিক্রেতা বা গডফাদাররা অদৃশ্য খুঁটির জোরে বারবারই থেকে যায় ধরাছোঁয়ার বাইরে।


একটি সূত্র জানায় তেলিয়াপাড়া চা বাগানের বড়ো মাদক চোরাকারবারি ও গডফাদাররা কখনো চা বাগানের বাইরে বের হয় না। বাগানে প্রবেশের প্রতিটি রা¯ত্মায় আছে চেকপোস্ট। ফলে চেকপোস্ট দিয়ে প্রশাসনের লোকজন প্রবেশ করার সাথে সাথেই খবর পৌঁছে যায় গডফাদারদের কাছে।ফলে পুলিশ। 


ডিবি কিংবা অন্য কোন বাহিনী অভিযানে আসলে মাদক সহ গডফাদাররা নিরাপদ স্থানে চলে যায়। এতে করে মাদক বিরোধী অভিযানের সফলতা চুনোপুঁটিদের আটকের মধ্যেই সীমাবদ্ধ আছে।

নাটোর সিংড়া মডেল প্রেসক্লাব এর উদ্যোগে দোয়া ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

 নাটোর সিংড়া মডেল প্রেসক্লাব এর উদ্যোগে দোয়া ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত


রাজশাহী ব্যুরোঃনাটোর সিংড়া মডেল প্রেস ক্লাবে  ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি,সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৫ তম শাহাদাত বার্ষিকী সহ সকল শহীদের আত্মার মাগফিরাত কামনায় আলোচনা সভা,দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।


এসময় উপস্থিত ছিলেন, সিংড়া মডেল প্রেসক্লাব এর সভাপতি এস,এম রাজু আহমেদ, সহ-সভাপতি খলিল মাহমুদ, সম্মানিত সদস্য সচিব মাহাবুব আলম বাবু, কোষাধ্যক্ষ জুলহাস কায়েম, প্রচার ও প্রকাশনা বিষয় সম্পাদক রনজু আহমেদ,

তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক রবিন খান, সদস্য আবু সাঈদ, লিটন হোসেন প্রমূখ।

নবীগঞ্জ উপজেলার ৪নং দিঘলবাক ইউনিয়নে শোক দিবস পালন

নবীগঞ্জ উপজেলার ৪নং দিঘলবাক ইউনিয়নে শোক দিবস পালন



মোঃ নাসির চৌধুরী তানভীর, নবীগঞ্জ উপজেলা প্রতিনিধি। শোকাবহ ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুর ৪৫ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী শোক দিবস উপলক্ষে ৪নং দীঘলবাক ইউনিয়ন ছাত্রলীগের শোক পালন ও আলোচনায়,উপস্হিত ছিলেন নবীগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহ:ফয়ছল তালুকদার। 

দীঘলবাক ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আহবায়ক:ডারজন খান,যুগ্ন-আহবায়ক: তানিন আহমেদ তাহের,যুগ্ন-আহবায়ক সায়েম আহমেদ সহ ১ ও ৩ নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগ বৃন্ধ।


১৯৭৫ সালের ১৫-ই আগষ্ট ভয়াল কালো রাত্রীতে নিহত বাঙলা - বাঙালী ও বাংলাদেশের সমার্থক জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও উনার পরিবার সহ নিহত সকলের প্রতি আমাদের বিনম্র শ্রদ্ধা।


উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি শাহ:ফয়ছল তালুকদার জানান,১৫ আঘষ্টের শোক বাঙালী জাতির শোক আমরা হারিয়েছি এক মহান নেতা,যাঁর অনুপ্রেরণা ও আদর্শে আমরা উজ্জীবিত হয়ে বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বুকে লালন করে এগিয়ে যেতে হবে।ছাত্রলীগ কে আরও দৃঢ় ও রোল মডেলের ন্যায় প্রগতিশীল হয়ে কাজ করতে হবে। পদ্মা,মেঘনা, যমুনা,গৌরি বহমান,যতকাল রবে কৃর্তী তোমার শেখ মুজিবুর রহমান।

আমদের সরকার বঙবন্ধুর তনয়া,জননেত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের এক ডিজিটাল রুপকার হিসবে পেয়ে আমরা গর্বিত, উনার দীর্ঘায়ু কামনা করি।

নবীগঞ্জে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে উপজেলা ছাত্রলীগের পুষ্পমাল্য, বৃক্ষরোপণ ও মিলাদ মাহফিল কর্মসূচি পালন

 নবীগঞ্জে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে উপজেলা ছাত্রলীগের পুষ্পমাল্য, বৃক্ষরোপণ ও মিলাদ মাহফিল কর্মসূচি পালন


 মোঃ নাসির চৌধুরী তানভীরঃ নবীগঞ্জে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে নবীগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগ তারপর বৃক্ষরোপণ ও মিলাদ মাহফিল কর্মসূচি পালন করা হয়।


জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর ৪৫ তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ এবং বৃক্ষ রোপণ ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।


আজ ১৫ আগস্ট শনিবার সকাল ১০ঘটিকার সময় উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহ ফয়সাল তালুকদার এবং সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান রাজু’র নেতৃত্বে উপজেলা কমপ্লেক্স ভবনের সামনে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান উপজেলা ছাত্রলীগের সকল স্তরের নেতৃবৃন্দ।


এবং বাদ জোহর উপজেলা জামে মসজিদে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এর উদ্যোগে মিলাদ মাহফিল আনুষ্টিত হয়।


উপস্থিত ছিলেন নবীগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহ ফয়সাল আহমেদ তালুকদার সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান রাজু, সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক  জাহেদুল ইসলাম রুবেল, ১২নং ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি মুজাহিদ আহমেদ জিহাদ, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা শুভরত মুন্না,আরিফুল ইসলাম প্রমি,তারেকুল ইসলাম, রনি রায়,তারেক আহমেদ, সালাউদ্দীন,রেদুয়ান তালুকদার , পারবেজ আহমেদ,মিজানুর রহমান, ১২নং ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক উজ্জল সরকার,মোঃ নাসির চৌধুরী তানভীর, জুবরাজ চন্দ্র দে প্রমুখ।

শোক দিবসে নিম্নবিত্ত মানুষদের ভোজন করালো রেড ক্রিসেন্ট চট্টগ্রাম।

 শোক দিবসে নিম্নবিত্ত মানুষদের ভোজন করালো রেড ক্রিসেন্ট চট্টগ্রাম।


রিয়াজুল করিম রিজভী,স্টাফ রিপোর্টার চট্টগ্রামঃবাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি চট্টগ্রাম জেলা ও সিটি ইউনিটের উদ্যােগে  যুব রেড ক্রিসেন্ট, চট্টগ্রামের বাস্তবায়নে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর শাহাদাত বার্ষিকী ও  জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে দরিদ্র অসহায় নিম্নবিত্ত মানুষদের  ভোজন করানো হয়। চট্টগ্রাম সিটি রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের সেক্রেটারি আবদুল জব্বার এর সভাপতিত্বে যুব রেড ক্রিসেন্ট চট্টগ্রাম এর যুব প্রধান মোঃ ইসমাঈল হক চৌধুরী ফয়সাল এর তত্ত্বাবধানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির ম্যানেজিং বোর্ড সদস্য ও জেলা রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের ভাইস চেয়ারম্যান ডাঃ শেখ শফিউল আজম।সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি ইউনিটের কার্যকরী পর্ষদ সদস্য মহসিন উদ্দিন চৌধুরী ফয়সাল,  আনোয়ার আজম। আরো উপস্থিত ছিলেন যুব রেড ক্রিসেন্ট চট্টগ্রাম এর বন্ধুত্ব ও সাংস্কৃতিক বিভাগীয় প্রধান গাজী ইফতেখার হোসেন ইমু সহ প্রায় ২৫ জন স্বেচ্ছাসেবক।

নাগরপুর উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগ কর্তৃক জাতীয় শোক দিবস উদযাপন

নাগরপুর উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগ কর্তৃক জাতীয় শোক দিবস উদযাপন


হাসান সাদী,নাগরপুর (টাংগাইল) প্রতিনিধি:সারাদেশের ন্যায় টাংগাইলের নাগরপুর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ কর্তৃক যথাযথ মর্যাদায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৫ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস ২০২০ পালিত হয়েছে।


দিবসটি উপলক্ষে আজ শনিবার, ১৫ই আগষ্ট ২০২০ খ্রি. নাগরপুর উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেত্বত্বে সকল ইউনিয়ন পর্যায়ের নেতা কর্মীদের সাথে নিয়ে সকাল ৮ ঘটিকা সময় উপজেলা স্মৃতি সৌধে পুষ্প অর্পন করেন।


উপস্থিত ছিলেন, নাগরপুর উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগ এর বিপ্লবী সভাপতি জনাব বাবর আল মামুন,সিনিঃ সহ-সভাপতি জনাব সাগর মিয়া, সংগ্রামী সাধারন সম্পাদক জনাব মোঃ ফারুক হোসেন,যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মেহেদী হাসান রয়েল,নাগরপুর সদর ইউনিয়নের সভাপতি মোঃ সোরহাব হাসান,সিনিঃ সহ-সভাপতি রন্জন তাম্বলী,সহ-সভাপতি সজিব হুসাইন মুহাঃ হাসান, সাধারন সম্পাদক আলিম মিয়া,সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুল হক মনি সহ সকল নেতা কর্মী, মামুননগর ইউনিয়নের সভাপতি সুমন মিয়া, সাধারন সম্পাদক নজরুল ইসলাম,গয়হাটা ইউনিয়নের সভাপতি শেখ সম্রাট সহ সকল ইউনিয়নের নেতা কর্মী।


পরে অনুষ্ঠান শেষে প্রীতিভোজন এর আয়োজন করা হয়।

মানিকগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ড পক্ষ থেকে জাতীয় শোক দিবস পালন

মানিকগঞ্জ পানি  উন্নয়ন বোর্ড পক্ষ থেকে জাতীয় শোক দিবস পালন



আব্দুর রাজ্জাক মানিকগঞ্জ  জেলা প্রতিনিধিঃমানিকগঞ্জ জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ডের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৫ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী  উপলক্ষে খতমে কুরআন দোয়া মাহফিল আয়োজন করা হয়। 


উক্ত দোয়া মাহফিল  অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জনাব মোঃ মাইনুদ্দিন   নির্বাহি প্রকৌশলী (পুরঃ) পানি উন্নয়ন বোর্ড মানিকগঞ্জ শাখা। 


আরো উপস্থিত ছিলেন মোঃ মাহমুদুল হাসান প্রধান হিসাব রক্ষক মানিকগঞ্জ পানি উন্নয়ন  বিভাগ। আরো উপস্থিত ছিলেন পানি উন্নয়ন বোর্ডের অফিস  কর্মকর্তা বৃন্দ। 


সকাল ৯.০০ থেকে১১.৩০ মিনিট পর্যন্ত কুরআন খতম করা হয়। 

কুরআন তেলাওয়াত কারীদের নাম তালিকা সমূহ 

১/হাফেজ আব্দুর রাজ্জাক ২/হাফেজ মাহসিন আল ইসলাম ৩/হাফেজ আব্দুল আলীম  ৪/ হাফেজ রেজাউল করিম ৫/ হাফেজ আয়াতুল্লাহ ৫/ মুফতি জাহাঙ্গীর কবির। 



 উক্ত দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে আলোচনা ও দোয়া মোনাজাত  পরিচালনা করেন,

মুফতি জাহাঙ্গীর কবির ইমাম পানি উন্নয়ন বোর্ড মসজিদ মানিকগঞ্জ।

নাগরপুরে কবি নজরুল উচ্চ বিদ্যালয়ে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে দোয়া ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

নাগরপুরে কবি নজরুল উচ্চ বিদ্যালয়ে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে দোয়া ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত



ডা.এম.এ.মান্নান টাংগাইল জেলা প্রতিনিধি:টাংগাইলের নাগরপুরে ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীঠ কবি নজরুল উচ্চ বিদ্যালয়ে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। 


আজ শনিবার,১৫ আগস্ট ২০২০ খ্রি.  সকাল ৯.০০ টায়  জাতীয় শোক দিবস উদযাপিত হয়। বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদ এর সম্পাদক ও প্রধান শিক্ষক জ্বনাব মো.মাহফুজুর রহমান এর সভাপতিত্বে উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয়ের সহকারি প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ মোন্নাফ মিয়া,সহকারী শিক্ষকদের মধ্যে মো.জাহাংগীর হোসেন,মো.আবুল বাশার,মো.দেলোয়ার হোসেন,রাখাল বাবু,মোছা.শারমিন আক্তার,মোছা.ফেরদৌসী আক্তার,মো.মনির,সন্জয় কুমার বিশ্বাস,গোলাম মাসুম ও আরটি এম.এ.মান্নান প্রমুখ।


উক্ত অনুষ্ঠানে দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন ধর্মীয় শিক্ষক মাও.আ.হাকিম।

বগুড়ার নন্দীগ্রামে জাতীয় শোক দিবস পালিত

বগুড়ার নন্দীগ্রামে জাতীয় শোক দিবস পালিত


 নন্দীগ্রাম বগুড়া প্রতিনিধি :বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বগুড়ার নন্দীগ্রামে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। শনিবার (১৫ আগস্ট) সকালে নন্দীগ্রাম উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা আওয়ামী লীগ বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে পৃথক পৃথক ভাবে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।


বেলা ১১ টায় উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে বাসষ্ট্যান্ড বঙ্গবন্ধু চত্বরে আলোচনা সভা, র‌্যালী ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক আনোয়ার হোসেন রানা এলএলবি’র স লানয় বক্তব্য রাখেন, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনিছুর রহমান, সাধারন সম্পাদক মুকুল হোসেন, আ’লীগ নেতা শফি উদ্দিন, মখলেছুর রহমান মিন্টু, জুলফিকার আলী, কালিপদ রায়, বীর মুক্তিযোদ্ধা একরাম হোসেন, নিকুঞ্জু রায়, মোতাহার হোসেন, আনিছুর রহমান আলো, নূর মোহাম্মদ, সেকেন্দার আলী, জালাল উদ্দিন, হাফিজুর রহমান, মুক্তার হোসেন, আনোয়ার হোসেন, মোজাম্মেল হক, লুৎফর রহমান, তীর্থ সলিল রুদ্র, মোফাজ্জল হোসেন, আবদুল্লাহেল বাকী, যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আব্দুস সালাম, শ্রমিক লীগের সাধারন সম্পাদক সরফুল হক উজ্জল, স্বেচ্ছা সেবকলীগের সাধারন সম্পাদক কামরুল হাসান সবুজ, জননেত্রী শেখ হাসিনা পরিষদের সভাপতি রেজাউল করিম, যুবলীগ নেতা ফারুক হোসেন, সুজন প্রামানিক, পৌর শ্রমিক লীগের সভাপতি এনামুল হক, সাধারন সম্পাদক সানোয়ার হোসেন মিলন, ছাত্রলীগ নেতা আবু নোমান নাদিম, আবু তৌহিদ রাজীব, আল-জাহিদ, মশিউর রহমান প্রমূখ। এরপরে একটি শোক র‌্যালী পৌর শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে।


এরপূর্বে সকাল সাড়ে ১০ টায় পরিষদ হলরুমে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছা. শারমিন আখতারের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।


অপর দিকে উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক আফজাল হোসেনের সভাপতিত্বে শোক দিবসের র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রেজাউল আশরাফ জিন্নাহ প্রমূখ।

বেনাপোলে ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস পালিত

বেনাপোলে ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস পালিত




শার্শা প্রতিনিধি: ফজলুর রহমান


 যশোরের বেনাপোলে ১৫ ই আগস্ট শনিবার বিকালে বঙ্গবন্ধুর ৪৫ তম শাহাদত বার্ষিক উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে লাখো মানুষের  উপস্থিতিতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন যশোর জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক বেনাপোল পৌরসভার জননন্দিত মেয়র জননেতা আশরাফুল আলম লিটন, বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন শার্শা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান জনাব মেহেদী হাসান,শার্শা উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি আলহাজ্ব শহিদুল আলম,প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক জনাব ইলিয়াছ আজম,দপ্তর সম্পাদক জনাব আজিবর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক জনাব আব্দুল মালেক,কৃষি বিষয়ক সম্পাদক জনাব আব্দুর রহমান,অর্থ বিষয়ক সম্পাদক জনাব আলহাজ্ব খোদা বক্স,ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক জনাব আলতাব হোসেন,বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক জনাব শেখ সরোয়ার,শ্রম বিষয়ক সম্পাদক জনাব শেখ কোরবান আলী,পুটখালী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি জনাব আব্দুল গফফার সরদার,বেনাপোল পৌরসভার প্যানেল মেয়র জনাব শাহাবুদ্দিন মন্টু,নিজামপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান জনাব আলীম রেজা বাপ্পি, লক্ষণপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জনাবা আনোয়ারা বেগম,বেনাপোল পৌর কাউন্সিলর জনাব আলহাজ্ব মিজানুর রহমান,জনাব রাশেদ আলী,উপজেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদিকা শারমিন আক্তার,সাংগঠনিক সম্পাদক জনাবা বিউটি খাতুন। সভাপতিত্ব করেন বেনাপোল পৌর আওয়ামীলীগের আহ্বায়ক জনাব আলহাজ্ব আহসানউল্লাহ মাস্টার

সহ শার্শা উপজেলা আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ প্রমুখ।

শিবগঞ্জে শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষণ ও পুনর্বাসন কেন্দ্রের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস পালিত

শিবগঞ্জে শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষণ ও পুনর্বাসন কেন্দ্রের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস পালিত




শামিম উদ্দিন চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি :

আজ ১৫ আগষ্ট ২০২০ শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষণ ও পুনর্বাসন কেন্দ্রের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়েছে।


জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫ তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষণ ও পুনর্বাসন কেন্দ্র শিবগঞ্জ চাঁপাইনবাবগঞ্জ কর্তৃক আয়োজিত চিত্রাঙ্কন ও রচনা প্রতিযোগিতা শিশুদের উন্নতমানের খাবার পুরস্কার বিতরণ করা হয়েছে।এসময় উপস্থিত ছিলেন ৪৩ চাঁপাইনবাবগঞ্জ ১ (শিবগঞ্জ) আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য ও নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সম্মানিত সদস্য ডাঃ সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল, সমাজ সেবা কর্মকর্তা কাঞ্চন দাস,, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ সাকিব আল রাব্বি ।উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম,উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ গোলাম কিবরিয়া পৌর মেয়র এআরএম কারিবুল হক রাজিন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যা শিউলি বেগম সহ সহ অন্যরা।

বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের সভাপতি মিন্টু বিশ্বাসের নেতৃত্বে নানা কর্মসূচির মাধ্যমে পালিত হল শোক দিবস

বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের সভাপতি মিন্টু বিশ্বাসের নেতৃত্বে নানা কর্মসূচির মাধ্যমে পালিত হল শোক দিবস




এম এ অয়ন মাগুরা জেলা প্রতিনিধি:-আজ মাগুরায় বিভিন্ন কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে পালিত হল স্বাধীনতার মহান স্থপতি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস। কর্মসূচীর মধ্যে ছিল কালো ব্যাচ ধারন, জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ, শোক র‍্যালী, শোক সভা, দোয়া মাহফিল ও তাবারক বিতরণ।


হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী 

শতাব্দীর মহানায়ক জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ ১৫ই আগষ্টের সকল শহীদ দের স্মরনে মাগুরা জেলা বঙ্গবন্ধু সৈনিকলীগের প্রতিষ্টাতা সভাপতি ও বর্তমান সভাপতি জনাব মোহাম্মাদ মিন্টু বিশ্বাসের নেতৃত্বে আজ প্রভাতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পূষ্প অর্পন করে শ্রদ্ধা জানান মাগুরা জেলা বঙ্গবন্ধু সৈনিকলীগের নেতৃবৃন্দ।

উপস্হিত ছিলেন-জেলা কমিটির সহসভাপতি যথাক্রমেঃ মোঃ রহুল আমিন,রাজিবুল ইসলাম রাজ,মোঃ নজরুল ইসলাম,আলহাজ্জ সোলায়মান মিয়া।

সাধারন সম্পাদক-সৈয়দ সোহাগ আলী,

যুগ্ম সাধারন সম্পাদক-জাফর জোয়াদ্দার ও জাকির হোসেন।

সাংগঠনিক সম্পাদক-মোছাঃ হীরা খাতুন ও সাংবাদিক ফারুক আহম্মেদ।

অর্থ সম্পাদক-রোজিনা আক্তার,

সহ অর্থ সম্পাদক-মোতালেব সরদার,

মহিলা সম্পাদক-ফরিদা রহমান,

সহ-মহিলা সম্পাদক-নিলুফা বেগম,

যুব ক্রিড়া সম্পাদক-সাংবাদিক ইমান উদ্দিন,

তথ্য ও গবেষনা সম্পাদক-টোকন হোসেন,

ত্রান ও যোগাযোগ প্রযুক্তি সম্পাদক-নাজমুল,

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি সম্পাদক-আজিম মিয়া,

সদস্য বাবর আলী,

ইমন,বশর,নিলয়,সৃতি,মিনতী,কাজল,কামরুল,সুখদেব,বিদুৎ,দুখু মিয়া,নিজাম,সাগর,আব্দুল্লাহ।

পৌর সভাপতি-ইউসুব খান ও সেক্রেটারি রিপন আহম্মেদ।

সদর থানার সভাপতি মোঃ হাসান আলী,

শ্রীপর থানার সভাপতি মোঃ আঃ হাই সহ আরো অনেকে।

শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে ১৫ই আগষ্টের শহিদ দের স্বরনে দোয়া করা হয়।


পরিশেষে মাগুরা জেলা বঙ্গবন্ধু সৈনিকলীগের প্রতিষ্টাতা সভাপতি ও বর্তমান সভাপতি জনাব মোহাম্মাদ মিন্টু বিশ্বাস নেতৃবৃন্দ দের উদ্দেশে বক্তব্য প্রদান করেন ও সভা সমাপ্ত ঘোষনা করেন।

গুলবাগপুর গ্রামে বঙ্গবন্ধুর ৪৫ তম শাহাদাত বার্ষিকী পালিত

গুলবাগপুর গ্রামে বঙ্গবন্ধুর ৪৫ তম শাহাদাত বার্ষিকী পালিত


 স্টাফ রিপোর্টার:গুলবাগপুর গ্রামে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫ তম শাহাদাত বার্ষিকী পালিত হয়।আজ ১৫ ই আগস্ট শনিবার বিকাল ৩ ঘটিকার সময় ঝিকরগাছা উপজেলার গুলবাগপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের উদ্যোগে মহান স্বাধীনতার স্থপতি বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫ তম শাহাদাত বার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে এক আলোচনা  ও দোয়া  অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ১ নং গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও বর্তমান এমপি প্রতিনিধি মোঃ আমিনুর রহমান।
অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দৈনিক কপোতাক্ষ নিউজ এর সম্পাদক ও প্রকাশক প্রভাষক মো: মহসীন আলী, অত্র প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক মোঃ সেলিম হোসেন,  বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আমির আলী সরদার, ইউনিয়নের দুই নম্বর এমপি প্রতিনিধি মো: আশরাফুল ইসলাম ময়না অত্র ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য শামসুর রহমান ,মেম্বার পদপ্রার্থী মোঃ তরিকুল ইসলাম, আওয়ামী লীগ নেতা  মোঃ মুরাদ আলী, মো: শহীদ হোসেন, ছাত্রলীগ নেতা শামীম হোসেন ,আরিজুল ইসলাম প্রমুখ।
উক্ত আলোচনা ও দোয়া মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন মো: নূর আলী মহুরী এবং দোয়া পরিচালনা করেন গুলবাগপুর হাট খোলা জামে মসজিদের  ইমাম মাওলানা মো: মনিরুল ইসলাম।

অনুষ্ঠান শেষে উপস্থিত সকলের মাঝে মিষ্টান্ন বিতরণ সহ গ্রামের ৩৭৫পরিবারের মাঝে মিষ্টান্ন বিতরণ করা হয়।  

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে পলাশবাড়ী ইউনিয়নের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধাঞ্জলী নিবেদন

জাতীয়  শোক দিবস উপলক্ষে পলাশবাড়ী ইউনিয়নের পক্ষ  থেকে শ্রদ্ধাঞ্জলী নিবেদন


 খাদেমুল ইসলাম রাজ,বীরগঞ্জ উপজেলা প্রতিনিধিঃ  আজ ১৫ ই আগস্ট, শনিবার, সকাল  ১০টার দিকে জাতীয় শোক দিবস ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর ৪৫ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী। এবং জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বীরগঞ্জ উপজেলার পলাশবাড়ী ইউনিয়ন এর পক্ষ থেকে শ্রদ্ধাঞ্জলি জ্ঞাপন করা হয়। বঙ্গবন্ধু সহ তাঁর পরিবারের যে সকল সদস্য আজকের এই দিনে বাঙালির ইতিহাসের নিষ্ঠুরতম ঘটনা দুষ্কৃতিকারীদের হাতে নির্মমভাবে নিহত হয়েছিলেন, শাহাদাৎ বরণ করেছিলেন সে সকল শহীদদের পলাশবাড়ী ইউনিয়ন বাসী গভীরভাবে স্মরণ করছে।আল্লাহ সুবহানু তায়ালার নিকট বঙ্গবন্ধু সহ সকল শহীদদের রুহের মাগফেরাত কামনা সহ দেশের উন্নয়ন এবং বৈশ্বিক মহামারী করোনা থেকে মুক্তি কামনা করে দোয়া করেন। দোয়া পরিচালনা করেন আনোয়ার হোসেন মওলবী শিক্ষক বি,কে উচ্চ বিদ্যালয়। 

 

পলাশবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের পাশে, বি কে উচ্চ বিদ্যালয়ে জাতীয় শোক দিবস পালন করা হয়। অনুষ্টানে আলোচনা রাখেন  পলাশবাড়ী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জুয়েলুর রহমান জুয়েল অত্র বিদ্যালয়ের সভাপতি , যয়ন্ত কুমার দেবনাথ সহকারী প্রধান শিক্ষক,মিজানুর রহমান প্রধান শিক্ষক।