মাধবপুরে সুবিধাবঞ্চিদের মাঝে হাজী ইনু মিয়া সরদার খাদ্যসামগ্রী বিতরণ

মাধবপুরে সুবিধাবঞ্চিদের মাঝে হাজী ইনু মিয়া সরদার খাদ্যসামগ্রী বিতরণ


লিটন পাঠান মাধবপুর প্রতিনিধি হবিগঞ্জের মাধবপুর পৌরসভায় করোনাভাইরাস সংক্রমে খেটে খাওয়া নিম্ন আয়ের মানুষের মাঝে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন পৌরসভা ৩  নং ওয়ার্ডের সমাজসেবক হাজী ইনু মিয়া সরদার।

করোনাভাইরাস দুর্যোগে মাধবপুর উপজেলার জীবনচিত্র বদলে গেছে। প্রশাসনের আহ্বানে মানুষ এখন ঘরে ঘরে অবস্থান করছে। খুব জরুরি প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের হচ্ছে না কেউ। এ অবস্থায় কাজকর্ম না থাকায় গরিব ও মধ্যবিত্ত পরিবারের লোকজন বিপাকে পড়েছেন। তাদের অনেকে প্রতিদিনের খাবার সংগ্রহ করতে পারছে না।

শনিবার ১৬ মে  রাতে উনার বাসভবনের সামনে   নিজে উপস্থিত থেকে নিম্ন আয়ের পরিবারে মাঝে চাল, ডাল, তৈল, পেয়াজসহ বিভিন্ন খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন।

তিনি আরো জানান, পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ডে গুচ্ছগ্রাম, মালাকা পাড়া, সহ আশেপাশে পাড়া প্রতিবেশীর মাঝে ২৫০ প্যাকেট বিতরণ করা  হচ্ছে। তিনি জানান আরো খাদ্য সামগ্রী দেয়া অব্যাহত থাকবে। 

এসময় উপস্থিত ছিলেন- উনার পুত্রবধূ  মিসেস সোলেমান হাজী সোলেমান এর দুই মেয়ে প্রমূখ,

করোনা ভাইরাসের মধ্যেও দৌলতপুরে চলছে হালখাতার রমরমা অনুষ্ঠান

করোনা ভাইরাসের মধ্যেও দৌলতপুরে চলছে হালখাতার রমরমা অনুষ্ঠান


কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি 

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের ডাংমড়কা বাজারে বাগোয়ান মেডিকেল হলে মোমিনের ওষধের ফার্মেসীর দোকানে চলছে রমরমা হালখাতা অনুষ্ঠান।  নেইনি প্রসাশনিক কোন অনুমতি।  এবেপারে ফার্মসীর মালিক কে জিজ্ঞাসাবাদ করলে দোকানে থাকা কিছু লোক সাংবাদিক কে বিভিন্ন ঝামেলায় ফেলতে চাই এবং হুমকির মুখে পড়তে হয়। 
আজ ১৬ই মে শনিবার কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের ডাংমড়কায় সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে বাগোয়ান ফার্মেসীতে আনুস্ঠানিক ভাবে হালখাতা অনুষ্ঠিত হয়। সরকার ও  প্রসাশনকে কিছু না জানিয়েই করোনা মহামারি তে ৭-৮ জন করে লোক জমায়েত করে হালখাতা করেছে এই ফার্মসীর মালিক। 


এ বিষয়ে সহকারী কমিশনার (ভূমি) আজগর আলী মুঠোফোনে জানান,
উপজেলা প্রসাশন কতৃক কোন প্রকার অনুমতি নেওয়া হয়নি। এবং লোকজন জমায়েত করে আনুষ্ঠানিকভাবে কোন হালখাতা চালানোর অনুমতি  করোনায় মধ্যে দেওয়া হয়নি।

ঝিকরগাছায় অসহাদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করলেন -এমপি নাসির

ঝিকরগাছায় অসহাদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করলেন -এমপি নাসির

মোঃ ইকরামুল করিম সৈকত, ঝিকরগাছা (যশোর) প্রতিনিধিঃ
যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলায় তিন শত পরিবারের মাঝে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার তুলে দিয়েছেন  ডাঃ নাসির উদ্দিন এমপি।
দেশের বর্তমান করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) পরিস্থিতিতে গৃহে থাকা কর্মহীন পরিবারের মাঝে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে ঝিকরগাছা সরকারি এম.এল. মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়  প্রাঙ্গণে উপজেলার সাংবাদিক ইউনিয়ন, ইমাম পরিষদ, পূরোহিত, ক্রিকেট একাডেমীর খেলোয়ার, ইজিবাইক চালক, দুস্থ বাস্তহারা, দিনমজুর ফেরিওয়ালা, আদিবাসী, হতদরিদ্র খালের ধারে বসবাসকারী ও জেলেদের ভিতর মোট তিনশত পরিবারের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে গরীব অসহায় কর্মহীন মানুষের জন্য পবিত্র ঈদ উল ফিতরের খাদ্য উপহার সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।

উক্ত সময় উপস্থিত ছিলেন যশোর-২ (চৌগাছা-ঝিকরগাছা) আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মেজর জেনারেল (অবঃ) অধ্যাপক ডা. মোঃ নাসির উদ্দীন,ঝিকরগাছা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ মনিরুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুমী মজুমদার, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ সেলিম রেজা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান লুবনা তাক্ষী, উপজেলা পরিষদের সিএ ইমদাদুল হক ইমদাদ, যশোর জেলা যুবলীগের সহ সভাপতি ও উপজেলা যুবলীগ নেতা মোঃ আজহার আলী, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও উপজেলা যুবলীগ নেতা রফিকুল ইসলাম বাপ্পী, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা যুবলীগ নেতা শামীম রেজা, উপজেলা যুবলীগ নেতা ইসমাইল হোসন বাবু, ফারুক হোসেন উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এহসানুল হাবিব শিপলু, সাধারণ সম্পাদক কামাল হোসেন, ছাত্রলীগ নেতা, নাইমুর রহমান হৃদয়, হান্নান হোসেন প্রমুখ।

মাধবপুরে টিসিবির পণ্য বিক্রি নেই সামাজিক দূরত্ব ক্রেতাদের উপচেপড়া ভিড়

মাধবপুরে টিসিবির পণ্য বিক্রি নেই সামাজিক দূরত্ব ক্রেতাদের উপচেপড়া ভিড়


লিটন পাঠান,মাধবপুর প্রতিনিধিঃ
বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস বাংলাদেশেও হানা দিয়েছে দেশে দিন দিন করোনায় আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়ছে।

হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুরে সরকার নায্যমূল্যে পণ্য বিক্রি করার জন্য টিসিবি ডিলারের মাধ্যমে পণ্য বিক্রির নির্দেশ দিয়েছে। সে আলোকে মাধবপুর পৌর শহরে ডিলার মাধ্যমে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য বিক্রয় করছে। আজ শনিবার ১৬ মে দুপুর দিকে মাধবপুর পৌর শহরের পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে গিয়ে দেখা যায় ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড় একজনের গায়ের ওপর অন্য এ সময় 
যেন দেখার কেউ নেই। আজ শনিবার (১৬-মে) মাধবপুর উপজেলা এলাকায় লাইনে দাঁড়িয়ে সামাজিক নিরাপদ দূরত্ব বজায় না রেখে টিসিবি’র পণ্য কিনতে দেখা গেছে ক্রেতাদের। করোনার প্রভাবে খরচ বাঁচাতে কমমূল্যে পণ্য কিনতে নারী-পুরুষরা পৃথক লাইনে দাঁড়িয়ে টিসিবির পণ্য কিনেন। এ সময় দায়িত্বরত আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী সদস্যরা বারবার স্মরণ করিয়ে দিচ্ছেন নিরাপদ সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে।

মাধবপুর উপজেলা এলাকায় হবিগঞ্জের টিসিবির ডিলার সুমন রায়ের মাধ্যমে টিসিবি’র পণ্য পাচ্ছে বলে জানা যায়। সুমন রায় জানান, ডিলারের মাধ্যমে টিসিবি’র পণ্য খোলাবাজারে যা পাওয়া যায়- ৮০ টাকা লিটারে সয়াবিন তেল, ৫০ টাকা দরে ডাল ও চিনি এবং ৫০ টাকা দরে পেঁয়াজ ২৫ টাকা ধরে বিক্রি করছে টিসিবি।

মাধবপুরে দুই বোনকে ধর্ষণের অভিযোগ থানায়

মাধবপুরে দুই বোনকে ধর্ষণের অভিযোগ থানায়


লিটন পাঠান মাধবপুর প্রতিনিধিঃ
                                                 হবিগঞ্জের মাধবপুরে দুই বোনকে ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে পিটিয়ে আহত করে, করোনায় ঘর বন্দী থাকা অবস্থায় দুই বোনকে খালি বাড়ীতে একা পেয়ে ধর্ষন করতে না পেরে পিটিয়ে আহত করেছে লম্পটরা স্থানীয় লেকজন  দুই বোনকে উদ্ধার করে মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে।

এ ঘটনায় নির্যাতনের শিকার বড় বোন শনিবার ১৬-মে) দুপুরে মাধবপুর থানায় দুই লম্পটের নাম উখে করে লিখিত অভিযোগ করেছেন। অভিযোগে উল্লেখ করা হয় উপজেলার বহরা ইউনিয়নের গাঙ্গাইল গ্রামের সাইফুল ইসলাম ও শহীদুল ইসলাম নামে দুই বখাটে যুবক মিলে ওই গ্রামে ভাড়া থাকা অবস্থায় দুই বোনকে উত্ত্যপ্ত করত বড় বোনের স্বামী ঢাকা থাকায় অবস্থায় বৃহস্পতিবার বিকেলে দুই-যুবক তাদের ঘরে প্রবেশ করে জোর পূর্বক ধর্ষনের চেষ্টা চালায়। এ সময় তাদের আর্ত চিৎকার ও বাধার মুখে ধর্ষন করতে না পেরে দুই বোনকে পিটিয়ে আহত করা হয়।

পরে গ্রামের লোকজন তাদের উদ্ধার করে মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য পাঠায় নির্যাতিতা বড় বোন জানান, তার স্বামী ঢাকা একটি পোশাক কারখানায় কাজ করে করোনার কারনে গ্রামে আসতে পারে না। ছোট বোনকে নিয়ে একটি ভাড়াটিয়া বাসায় থাকা অবস্থায তারা এ ঘটনা ঘটেছে। আমরা এ ঘটনায় আইনের আশ্রয় প্রার্থী হয়েছি মাধবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইকবাল হোসেন বলেন এ ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ পেয়েছি তদন্তের জন্য একজন পুলিশ কর্মকর্তাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে তদন্তে অভিযোগ সত্য হলে দোষীদের বিরুদ্দে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

রোজাদারদের মৌসুমী ফলে প্রশান্তি

রোজাদারদের মৌসুমী ফলে প্রশান্তি

লিটন পাঠান মাধবপুর প্রতিনিধিঃ
   শুরু হলো জ্যৈষ্ঠ মাস খাঁ খাঁ রোদ ও ভ্যাপসা গরম হঠাৎ দুই এক ফোঁটা বৃষ্টি, ঠিক আবার সেই ভ্যাপসা গরম এর মাঝেই দিনে প্রায় ১৫ ঘণ্টা সিয়াম সাধনা।

এমন দুর্বিষহ পরিবেশেও মধু মাসের ছোঁয়ায় মধুময় হয়ে উঠেছে এবারের মাহে রমজান। বাজারে আসা মৌসুমী ফল দিয়ে তৃপ্তির সঙ্গেই ইফতার করছে রোজাদাররা সেহরিতেও বাদ যাচ্ছেনা এসব ফল, দুধ-আম মিশিয়ে খেতে ভুল করছেনা কেউ কেউ।

 শনিবার (১৬-মে) মাধবপুর উপজেলা পৌর বাজারসহ বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা যায় ফলের রস আর মৌ মৌ গন্ধে বাজার গুলো ভরপুর। সেখানে উঠেছে নানা রকমের বিভিন্ন জাতের মৌসুমী ফল। দামও কম থাকায় ক্রেতারা তা কিনে নিয়ে যাচ্ছে ইফতারির আয়োজনে। মাধবপুর বাসস্ট্যান্ডে গিয়ে দেখা যায় আম জাম কাঁঠাল, আনারস লিচু জামরুল তালের শাঁস উন্নত জাতের ফেয়ারা বিক্রি হচ্ছে।

ফল বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানায়, রাজশাহীসহ দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে মাধবপুরে আসা হরেক রকম জাতের আম বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকা থেকে শুরু করে ৯০ টাকায় আনারস প্রতি হালি ৬০ টাকা থেকে শুরু করে একশ, ১০ টাকায় জাম প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ‍একশ টাকায়, কাঁঠাল মাঝারি ধরনের দেড়শ’ টাকা লিচু প্রতিশ তিনশ টাকা ডেউয়া প্রতি হালি ৫০ টাকা তালের শাঁস প্রতি পিস ১০ টাকা এছাড়াও দেশিয় জাতের কলা পাওয়া যাচ্ছে প্রতি ডজন ৩০ টাকা থেকে শুরু করে ৬০ টাকায় বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায় মাধবপুর বাজারে ফলের দোকানে ফুট পাতে অলিতে-গলিতে শুধুমাত্র আম-জাম-কাঁঠাল-আনারসের ডাক শোনা যায় জ্যৈষ্ঠের মধু মাস প্রকৃতি এক অকৃপণ দান মধু মাসের সব ফলই খেতে তেমনই তৃপ্তি।

মধু মাসের নানান ফল নিয়ে ফেরিওয়ালারাও ব্যস্ত তারা মাথায় করে ঠেলা গাড়িতে, ভ্যান গাড়িতে বিক্রি করছে অনেকে আছে যারা সারা বছরে শুধু এ মধু মাসেই রসালো ফল বিক্রি করে আনন্দ পায় রাজশাহী-কুষ্টিয়া-রংপুর অঞ্চল থেকে নিয়ে আসে জ্যৈষ্ঠের মধুমাস প্রকৃতি এক অকৃপণ দান মধু মাসের সব ফলই খেতে তেমনই তৃপ্তি।

মাধবপুর বাজারে ফল কিনতে আসা, মাধবপুর প্রেসক্লাবের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক সাবিবর হাসান, সাক্ষাৎকারে গণমাধ্যমকমী লিটন পাঠানকে জানান, দুধ কলা চিড়া আর আমের রসে মজাদার এক খাবার দিয়ে পরিবারের ইফতারি শুরু করেন তিনি। এরপর চলে একটার পর একটা ফল খাওয়া। এবারের গরমে রোজা হলেও মৌসুমী ফল বাজারে আছে। তাই তৃপ্তির সঙ্গেই ইফতার করা যায় ফল দিয়ে।

আরেকজন ফল কিনতে আসা ডিএসবির এসআই সাইকুল ইসলাম সুজন, জানান, বাজারে মৌসুমী ফল পাওয়া গেলেও দাম কিন্তু কমা না মধু মাসের ফলের দাম কম থাকার কথা ছিল কিন্তু তা বেশি দাম দিয়ে কিনতে হচ্ছে।

মাধবপুরে ট্রাক অটোরিকসা সংর্ঘষে নিহত-১

মাধবপুরে ট্রাক অটোরিকসা সংর্ঘষে  নিহত-১

লিটন পাঠান মাধবপুর প্রতিনিধিঃ
 হবিগঞ্জের মাধবপুরে ট্রাক ও সিএনজি অটোরিকসার সংর্ঘষে  আলাল মিয়া (৩০)নামে এক যাএী  নিহত হয়েছে। ঢাকা সিলেট মহাসড়কের মাধবপুর উপজেলা শাহপুর নতুন বাজার এলাকায় শনিবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। নিহত আলাল মিয়া উপজেলার দক্ষিন বেজুড়া গ্রামের রইছ আলীর ছেলে। শায়েস্তাগঞ্জ  হাইওয়ে থানার উপ পরিদর্শক  মনির হোসেন জানান  সিলেট গামী একটি ট্রাক  মহাসড়ের উল্লেখিত এলাকায়  গিয়ে একিট সিএন জি অটোরিকসাকে  ওভারটেক  করতে গিয়ে  ধাক্কা দিলে অটোরিকসার যাএী আলাল ছিটকে মহাসড়কে পরলে ট্রাক টি তার উপর  উঠে যায়। এতে   ঘটনাস্হলে মারা যান। খবর পেয়ে  শায়েস্তাগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশ ঘটনাস্হলে গিয়ে লাশ উদ্বার করে ময়না তদন্তের জন্য হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতেলে প্রেরন করেছে। শায়েস্তাগঞ্জ হাইওয়ে  থানার ভারপ্রাপ্ত  কর্মকর্তা তৌফিক ঘটনার  সত্যতা  নিশ্চিত করেছেন।ট্রাকটি আটক করা হয়েছে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জে ধানক্ষেতে থেকে বিষধর রাসেল ভাইপার উদ্ধার!

চাঁপাইনবাবগঞ্জে ধানক্ষেতে থেকে বিষধর রাসেল ভাইপার উদ্ধার!


মো:শামিম উদ্দিন চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি :
চাঁপাইনবাবগঞ্জের জামতলা এলাকায় একটি ধান ক্ষেত থেকে বিষধর রাসেল ভাইপার সাপ উদ্ধার করা হয়েছে। 
শনিবার (১৬ মে) বেলা ১১টার দিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-আমনুরা সড়কের মনামিনা কৃষি খামার সংলগ্ন এলাকা থেকে সাপটি উদ্ধার করা হয়।

মনামিনা কৃষি খামারের স্বত্বাধিকারী মতিউর রহমান জানান,শনিবার বেলা ১১টার দিকে খামার সংলগ্ন জমিতে ভেজা ধান শুকানোর সময় কৃষকরা রাসেল ভাইপার সাপ দেখত পেয়ে তাকে ফোন দেন। এরপর তিনি সাপটি অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করে বস্তাবন্দি করে রাখেন।

সাপটি উদ্ধারের পর ফেসবুকে তিনি কয়েকটি ছবি শেয়ার করে জানান, সাপটিকে কেউ গবেষণার জন্য নিয়ে গেলে তিনি দেবেন। 
এদিকে সন্ধা পর্যন্ত তার খামারেই সাপটি রয়েছে বলে 'চাঁপাই টুডে নিউজ'কে মুঠোফোনে জানিয়েছেন।

সাপ ধরার বিষয়ে তিনি জানান, তার সাপ ধরার অভিজ্ঞতা আছে। আজ সাধারণ একটি গাছের ডাল দিয়েই তিনি সাপটি ধরে বস্তাবন্দি করেন। 
উল্লেখ্য, এর আগেও তিনি একটি রাসেল ভাইপার ধরে রাজশাহীর পবা উপজেলার ‘স্নেইক রেসকিউ অ্যান্ড স্টাডি’ নামের একটি ক্লাবকে দেন।

চাষীদের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করা হবে -কৃষিমন্ত্রী

চাষীদের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করা হবে -কৃষিমন্ত্রী


 
মোঃ ফিরোজ হোসাইন  
 রাজশাহী ব্যুরো

করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতিতে চাষিদের কথা বিবেচনা করে হাসপাতাল ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের আম, লিচুসহ অন্যান্য মৌসুমি ফল বিতরণের উদ্যোগ নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী মো. আব্দুর রাজ্জাক।

শনিবার (১৬ মে) করোনা উদ্ভূত পরিস্থিতিতে আম, লিচু ও অন্যান্য মৌসুমি ফল এবং কৃষিপণ্য বাজারজাতকরণ বিষয়ে অনলাইনে (জুম প্ল্যাটফর্মে) মতবিনিময় সভার সমাপনী বক্তব্যে তিনি এ কথা জানান।

সভায় মৌসুমী ফল ও কৃষিপণ্য বাজারজাতকরণে বেশ কিছু পদক্ষেপ নেয়া হয়।

কৃষি সচিব মো. নাসিরুজ্জামানের সঞ্চালনায় অনলাইন সভায় খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার, কৃষি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মতিয়া চৌধুরী, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, নৌ প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এতে অংশ নিয়ে মতামত দেন।

এছাড়া জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি আ ফ ম রুহুল হক, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর আতিউর রহমান, চাঁপাইনবাবগঞ্জের সংসদ সদস্য সামিল উদ্দিন আহম্মেদ শিমুল, জাতিসংঘের কৃষি ও খাদ্য সংস্থার বাংলাদেশ প্রতিনিধি রবার্ট সিম্পসন ছাড়াও কয়েক জেলার জেলা প্রশাসক, ফল চাষি ও ব্যবসায়ী, আড়তদার, সংশ্লিষ্ট সমিতির কর্মকর্তারা এ সভায় যুক্ত হয়ে মতামত দেন।

মতিয়া চৌধুরী বলেন, ‘পুলিশ ব্যারাক, সেনাবাহিনীর ব্যারাক, হাসপাতাল, জেলখানাসহ বিভিন্ন সরকারি অফিসে কৃষকের কাছ থেকে আম কিনে সরবরাহ করা গেলে আমের বাজারজাতকরণে কোনো সমস্যা হবে না। এ সংকটের সময়ে কৃষকের উৎপাদিত পণ্যের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করতে হবে।‘

সভায় মতিয়া চৌধুরী ছাড়াও বেশ কয়েকজন আলোচক সরকারিভাবে ফল কিনে তা হাসপাতাল, জেলখানা এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের মধ্যে বিতরণের পরামর্শ দেন।

এ বিষয়ে কৃষিমন্ত্রী বলেন, ‘পুলিশ, আনসার, র‌্যাব, বিজিবি, সেনাবাহিনীসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের জন্য আম, লিচুসহ মৌসুমী ফল দেয়া এবং হাসপাতারেও সরকারের পক্ষ থেকে রোগীদের পথ্যে মৌসুমী ফল রাখার ব্যবস্থার উদ্যোগ নেয়া হবে।’

এসময় সারাদেশে ফল বিপণনে আগামী তিন-চার দিনের মধ্যে একটি অনলাইন প্ল্যাটফর্ম সামনে আনা হবে জানিয়ে কৃষিমন্ত্রী বলেন, শুধু ফলমূল নয়, সব কৃষিপণ্য বাজারজাত করতে আধুনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করব, কৃষক এবং চাষিরা যেন ন্যায্যমূল্য পায় তা নিশ্চিত করা হবে।

এবারের মৌসুমী ফল বিপণনে জেলায় জেলায় মার্কেট করতে চান জানিয়ে রাজ্জাক বলেন, খোলা মাঠ বা স্টেডিয়ামে স্থাপন করা সেই মার্কেটে সাপ্তাহের নির্দিষ্ট দিনগুলোতে অন্য জেলা থেকে আম আসবে।

যেসব জেলায় বেশি আম উৎপাদন হয় সেখানে আগামী বছরের মধ্যে ‘প্রসেসিং সেন্টার’ করারও নিশ্চয়তা দেন কৃষিমন্ত্রী।

ফল ব্যবসায়ী ও আড়তদারদের যাতায়াত নির্বিঘ্ন, প্রয়োজনে তাদেরকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার প্রত্যয়নপত্র দিয়ে নিরাপদ আবাসনের ব্যবস্থা করা, মৌসুমি ফল ও কৃষিপণ্য পরিবহনে দেশের বিভিন্ন এলাকায় ট্রাক ও অন্যান্য পরিবহনের অবাধ যাতায়াত নির্বিঘ্ন করা, ফল ও কৃষিপণ্য পরিবহনের সময় কেউ যাতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মাধ্যমে কোনো ধরনের হয়রানির শিকার না হয় সেই ব্যবস্থা করা হবে বলে জানান কৃষিমন্ত্রী।

তিনি আরও জানান, ফল পরিবহনে বিআরটিসির ট্রাক ব্যবহার, স্থানীয়ভাবে ব্যাংকের লেনদেনের সময়সীমা বাড়ানো, পার্সেল ট্রেনে মৌসুমি ফল ও কৃষিপণ্য পরিবহনের আওতা বাড়ানো, হিমায়িত ওয়াগন ব্যহার করা, বিভিন্ন অঞ্চলে ফল পরিবহন করা ফিরতি ট্রাকের জন্য বঙ্গবন্ধু সেতুতে টোল কমানো এবং ত্রাণ হিসেবে নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রীতে আম, লিচুসহ মৌসুমি ফল অন্তর্ভুক্ত করতে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্টদের অনুরোধ জানানো হবে।

সভায় জানানো হয়, এ বছর ১ লাখ ৮৯ হাজার হেক্টর জমিতে আমের আবাদ হয়েছে এবং প্রত্যাশিত উৎপাদন ২২ লাখ ৩২ হাজার টন। রাজশাহী, নওগাঁ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, সাতক্ষীরা, নাটোর, গাজীপুর এবং পার্বত্য চট্টগ্রামের জেলায় অধিকাংশ আমের ফলন হয়। লিচুর আবাদ হয়েছে প্রায় ৩২ হাজার হেক্টর জমিতে এবং প্রত্যাশিত উৎপাদন ২ লাখ ৩২ হাজার টন। অধিকাংশ লিচুর ফলন হয় রাজশাহী, দিনাজপুর, পাবনা, গাজীপুর এবং পার্বত্য চট্টগ্রামের জেলায়। কাঁঠালের আবাদ হয়েছে ৭১ হাজার ৭০০ হেক্টর জমিতে ও সম্ভাব্য উৎপাদন ১৮ লাখ ৮৯ হাজার টন। টাঙ্গাইল, গাজীপুর ও রাঙ্গামাটিতে সবচেয়ে বেশি কাঁঠাল উৎপাদন হয়। অন্যদিকে, আনারসের আবাদ হয়েছে ২০ হাজার ১২০ হেক্টর জমিতে ও সম্ভাব্য উৎপাদন ৪ লাখ ৯৭ হাজার টন। আনারসের সিংহভাগ উৎপাদন হয় টাঙ্গাইলে।

মানবতার কল্যাণ ফাউন্ডেশ এর উদ্যোগে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ

 মানবতার কল্যাণ ফাউন্ডেশ এর উদ্যোগে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ
মেহেদী হাসান, ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ    
মানবতার কল্যাণ ফাউন্ডেশ এর উদ্যোগে করোনা ভাইরাসের কারণে কষ্টে দিন যাপন করা মধ্যবিত্ত এবং অসহায় দরিদ্র পরিবারের মাঝে ঈদের বাজার এবং খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয় কুষ্টিয়ার ইবি থানায়।

সংগঠনের স্বেচ্ছাসেবকবৃন্দ প্রতি পরিবারের মাঝে চাল, চিনি, প্যাকেট সেমাই, ছোলা, মুড়ি,খেজুর পিকআপ ভ্যানে করে বিতরণ কার্যক্রম পরিচালনা করেন।

উক্ত প্রোগ্রামে উপস্থিত ছিলেন ফাউন্ডেশনের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ও ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী হিসাব পরিচালক মো: আলী জিন্নাহ। তিনি এই মহতি কাজে যারা যুক্ত ছিলেন তাদের কে ধন্যবাদ এবং কৃতজ্ঞতা জানান।

ত্রাণ বিতরণ প্রসঙ্গে ফাউন্ডেশনের প্রেসিডেন্ট মো: আনোয়ার জাহিদ প্রিন্স বলেন, এ সহায়তা ত্রাণ নয় আমাদের পক্ষ থেকে উপহার, এবং ভালোবাসা। অনেকেই ঘর থেকে বের হতে পারছেন না আয়ের পথ বন্ধ, যাদের পক্ষে ঈদের বাজার করার মতো সামর্থ নেই তাই তাদের জন্যে ঈদ উপহার দেয়া হলো। আগামীতে সাধ্যমত এই সহায়তা সমস্ত দেশ ব্যাপী অব্যহত থাকবে।

ফাউন্ডেশনের কুষ্টিয়া জেলা শাখার সভাপতি মো: সাব্বির আহমেদ বলেন-সকলে আমরা সকলের তরে প্রত্যেকে আমরা পরের তরে, এই ভাবনা থেকে আমরা এই মহামারি দুর্যোগে  অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছি।

উক্ত প্রোগ্রামে আরো উপস্থিত ছিলেন ফাউন্ডেশনের কোষাধ্যক্ষ মো: কামাল হোসেন, কার্যকরী সদস্য মহররম হোসেন, শাহরিয়ার আল মামুন, মো: মেহেদি আহমেদ 
(ছরো) মো: নাজমুল ইসলাম, মো: লাল্টু হোসেন, বাচ্চু হোসেন, মো: আশিক রানা, মো: আশিকুর রহমান, মো: সোয়েব আকতার, পাভেল হোসেন ও অন্যান্য সদস্যবৃন্দ।

ছাত্রলীগ কর্মী আবদুল্লাহ আল মামুন এর ভিন্ন মাত্রায় সহযোগীতা

ছাত্রলীগ কর্মী আবদুল্লাহ আল মামুন এর ভিন্ন মাত্রায় সহযোগীতা

রিয়াজুল করিম রিজভী স্টাফ রিপোর্টার চট্টগ্রামঃ-

করোনা পরিস্থিতিতে শিশু ও প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়িয়েছেন চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের একনিষ্ঠ কর্মী,স্বাধীনতা তথ্য প্রযুক্তি পরিষদ চট্টগ্রাম মহানগর শাখার আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক,বঙ্গবন্ধু গবেষণা কেন্দ্র,চট্টগ্রাম জেলা শাখার সহ-সম্পাদক মুহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন ভাই।

সাম্প্রতিক কালের চলমান মহামারীতে মধ্যবিত্ত ও নিম্নবিত্ত পরিবারের লক্ষ লক্ষ মানুষ ক্ষুধা ও দারিদ্রতায় অনাহারে জীবন যাপন করছে।কর্মজীবী মানুষগণও হয়ে উঠেছে বেকার।স্কুল,কলেজ,বিশ্ববিদ্যালয় ও মাদরাসা সহ সকল শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার কারণে তাদের আয়ের উৎসও বন্ধ প্রায়।এহেন পরিস্থিতিতে তাদের সংসার চালানো কঠিন হয়ে পড়ে।পূর্ণবয়স্কদের পাশাপাশি পরিবারের শিশুগণও অনাহারে দিনাতিপাত করছে।পর্যাপ্ত পরিমাণ পুষ্টির অভাবে তাদের বৃদ্ধিতে বাঁধাগ্রস্ত হচ্ছে।শারিরীক ও মানসিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে লাখ লাখ শিশু।

করোনা পরিস্থিতিতে মধ্যবিত্ত ও নিম্নবিত্ত পরিবারের শিশুদের পাশে দাঁড়িয়েছেন চট্টগ্রাম মহানগরের এই তরুণ ছাত্রনেতা।প্রথম পর্যায়ে নিজ এলাকার শিশুদের মাঝে  ৭৭ টি "প্যাকেট ফুড" বিতরণ করেন।

রংপুর পিসিআর ল্যাবে ১৮৮টি নমুনা পরীক্ষায় ১৯ জনের শরীরে করোনা পজেটিভ

রংপুর পিসিআর ল্যাবে ১৮৮টি  নমুনা পরীক্ষায় ১৯ জনের শরীরে করোনা পজেটিভ

নিউজ ডেস্কঃ  
রংপুর নগরীতে -১১ জন। এদের মধ্যে__
পুলিশ লাইনের পুলিশ সদস্য -৫ জন। 
ধাপ পুলিশ ফাঁড়ি- ২ জন। খটখটিয়া বোতলা -২ জন। আমাশু কুকরুল - ১ জন।বাস টার্মিনাল এলাকার -১জন
 
কুড়িগ্রাম জেলাতে -০৮ জন,এদের মধ্যে__

কুড়িগ্রাম সদরের -৬ জন ফুলবাড়ির -২ জন

কেশবপুরে কৃষকের ধান কেটে ঘরে তুলে দিল ছাত্রলীগ

কেশবপুরে কৃষকের ধান কেটে ঘরে তুলে দিল ছাত্রলীগ
 

মোরশেদ আলম 
কেশবপুর যশোর প্রতিনিধি। 


করোনা সংকাটকালে পাকা ধান কাটতে না পারা যশোরের কেশবপুর উপজেলার দিশাহারা কৃষকদের পাশে দাঁড়িয়েছে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা।করোনাপরিস্থিতিতে ধান কাটার শ্রমিক না পাওয়ায় বর্তমানে ছাত্রলীগের স্থানীয় নেতাকর্মীরা কৃষকের ধান কেটে, ধান বাড়ি পৌঁছে দিচ্ছেন।

তারই অংশ হিসাবে যশোরের কেশবপুর উপজেলার ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীরা ১৬ মে শনিবার সকাল থেকে কেশবপুর পৌরসভার ভগতি ২ নম্বর ওয়ার্ডের কৃষক বাপ্পির ১০ শতক জমির বোর ধান কর্তনের পর বাড়িতে পৌঁছে দেয়।

যশোর জেলার সাধারণ সম্পাদক ও যশোর ৬ কেশবপুর উপনির্বাচনের নৌকা মার্কার প্রার্থী শাহীন চাকলাদারের উৎসাহে ধান কাটার কাজে সহায়তা করছেন কেশবপুর উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ন আহবায়ক হাবিবুর রহমান খান মুকুল, ছাত্রলীগ নেতা শারাফাত হোসেন সোহান, রায়হান কবির, খন্দকার জসিম, রাসেল পারভেজ, মোহাম্মদ নাসিম, রোকনুজ্জামান রোকন, মোহাম্মদ জিন্নাত, আব্দুর রহমান, রিপন, পরাগ, আলিমুল ইসলাম প্রমুখ

দেশের এই সংকটময় মুহূর্তে কৃষকদের পাশে দাঁড়িয়ে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা যে দায়িত্ববোধের পরিচয় দিয়েছেন সে কারণে খুশি এলাকাবাসী ও কৃষকরাও।

কৃষক বাপ্পি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছাত্রলীগ শুধু রাজনীতি করে না এরা সব কাজের কাজী। আজ উপজেলা ছাত্রলীগ যে ভাবে আমার ধান কেটে দিয়েছে এতে এটাই প্রমানিত হয়েছে ছাত্রলীগ মানব সেবা়সহ দেশের উন্নয়ন কাজেও গুরুত্বপুর্ন ভূমিকা পালন করে। আজ যদি ছাত্রলীগ আমার ধান কেটে না দিত তাহলে শ্রমিকের অভাবে হয়তো আমার ধান পানিতে তলিয়ে যেত। আমি ছাত্রলীগ নেতাদের প্রতি কৃতজ্ঞ ও ধন্যবাদ জানাই। আর মামনীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু কামনা করি।

ছাত্রলীগ নেতা হাবিবুর রহমান খান মুকুল ও শারাফাত হোসেন সোহান বলেন, করোনা পরিস্থিতির কারণে কেশবপুরে ধান কাটার শ্রমিক সংকট দেখা দিয়েছে। শ্রমিক না পাওয়ায় নিজ জমির পাকা ধান কাটতে পারছেন না কৃষকরা। তাই প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রুহুল আমিন স্যার, সাধারণ সম্পাদক গাজী গোলাম মোস্তফা, ও পৌর মেয়র জনাব রফিকুল ইসলাম মোড়লের, সহযোগিতায় উপজেলা ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ কৃষকদের পাশে থেকে স্বেচ্ছাশ্রমে ধান কেটে ও বাড়িতে পৌঁছে দিচ্ছে।

করোনা ভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি রোধে জেলা তথ্য অফিসের সড়ক প্রচারণা অব্যাহত

করোনা ভাইরাস  সংক্রমণের ঝুঁকি  রোধে জেলা তথ্য  অফিসের সড়ক প্রচারণা  অব্যাহত

মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ
সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসন  ও জেলা তথ্য  অফিস এর উদ্যাগে   করোনা ভাইরাস  সংক্রমণের ঝুঁকি  রোধে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে সড়ক প্রচার ও প্রচারণা  অব্যাহত রয়েছে। 
শনিবার ১৬ মে দিনব্যপী শহরের  বিভিন্ন  স্থানে  মাইকিং এর মাধ্যমে প্রচার  ও প্রচারণা  করে" আতঙ্ক  নয় ব্যক্তিগত সচেতনতাই পারে, করোনা ভাইরাস  প্রতিরোধ করতে" এই শ্লোগান  সামনে রেখে  আগমী ১৭ মে থেকে সকল শপিং  মহল এবং  ব্যবসা প্রতিষ্ঠান  বন্ধ  রাখার  নির্দেশনা দিয়ে যাচ্ছে।   
জেলা তথ্য অফিসের প্রচার কর্মীরা সিরাজগঞ্জ  পৌরসভা এলাকাসহ নয়টি উপজেলার সকল ইউনিয়নের প্রায় সকল গ্রামগঞ্জে ও হাট-বাজারে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব মোকাবেলায় করণীয় বিষয়ে মাইকিং এর মাধ্যমে জনগণকে সচেতন করার জন্য সচেতনতামূলক বার্তা প্রচার করছে । প্রত্যন্ত গ্রামেগঞ্জে ও হাট-বাজারে নিয়মিতভাবে মানুষের মাঝে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা, বাড়িতে অবস্থান করা, গণজমায়েত না হওয়া, হোম কোয়ারান্টাইন এবং জেলা প্রশাসন কর্তৃক জারীকৃত গণবিজ্ঞাপ্তিসমূহ মাইকিং এর মাধ্যমে প্রচার করছে। এর ফলে জেলার মানুষের মাঝে করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে করণীয় বিষয়ে জনসচেতনতা বৃদ্ধি পাচ্ছে। তবে চিকিৎসা  সংশ্লিষ্ট  জরুরি  সেবা সার্বক্ষণিক  খোলা থাকবে ।  এছাড়াও  নিত্য প্রয়োজনীয়  দ্রব্যাদির দোকান, কাঁচাবাজার ও অন্যান্য সরকারি  ঘোষিত  পরিসেবাসমূহ পূর্বে জারিকৃত  নির্দেশনানুযায়ী বিকাল ৪ ঘটিকা পর্যন্ত  খোলা থাকবে। জেলা তথ্য অফিসার মুহাম্মদ  আবুল  খায়ের  জানান, জেলা তথ্য অফিসের সচেতনতামূলক বার্তা প্রচার কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে

জেলা পরিষদের উদ্যোগে ৪শ পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

জেলা পরিষদের উদ্যোগে ৪শ পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ



মোঃ ফিরোজ হোসাইন 
রাজশাহী ব্যুরোঃ

করোনাভাইরাস সংকটে
 নওগাঁ জেলা পরিষদ কর্তৃক ৪শ নি¤œআয়ের পরিবার, কর্মহীন, সুবিধাবঞ্চিত এবং অসহায় মানুষের মাঝে খাদ্যসামগ্রী  বিতরণ করা হয়েছে। 
শনিবার সকালে উপজেলা পরিষদ মাঠে চাল, আলু ,সাবান , ডাল, তেল ও লবণ বিতরণ করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. ছানাউল ইসলাম। বিতরণকালে উপজেলা চেয়ারম্যান এবাদুর রহমান প্রামানিক, এসিল্যান্ড আরিফ মুর্শেদ মিশু, জেলা পরিষদ সদস্য এম এ মজিদ মিঠু ও ফেরদৌসী চৌধুরী  উপস্থিত ছিলেন।
জেলা পরিষদ সদস্য এম এ মজিদ মিঠু জানান, সুবিধাবঞ্চিত এবং অসহায় মানুষের তালিকা তৈরি করা হয়েছে। সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিত করে তারিকা অনুযায়ী দুস্থদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী  বিতরণ করা হয়েছে। করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে না আসা পর্যন্ত এই সহায়তা অব্যাহ থাকবে বলেও তিনি জানান।

চট্টগ্রাম ফিল্ড হসপিটালে এয়ার কন্ডিশনার উপহার দিলেন -মেয়র প্রার্থী রেজাউল করিম চৌধুরী

চট্টগ্রাম ফিল্ড হসপিটালে এয়ার কন্ডিশনার উপহার দিলেন -মেয়র প্রার্থী রেজাউল করিম চৌধুরী


রিয়াজুল করিম রিজভী প্রতিনিধি চট্টগ্রামঃ-
করোনা রোগীদের চিকিৎসার জন্য প্রতিষ্ঠিত ফৌজদারহাটস্থ চট্টগ্রাম ফিল্ড হসপিটালে ব্যক্তিগত তহবিল থেকে একটি ০৫ টনের শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত যন্ত্র (এসি) উপহার দিলেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনীত মেয়র পদপ্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব এম. রেজাউল করিম চৌধুরী । 

শনিবার ১৬ মে চট্টগ্রাম ফিল্ড হসপিটালের উদ্দ্যোক্তা ও সিইও মহৎ প্রাণের মানুষ ডা.বিদ্যুৎ বড়ুয়ার কাছে এয়ার কন্ডিশনারটি হস্তান্তর করা হয়। 

এ প্রসঙ্গে ফোনালাপে মেয়র প্রার্থী রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, এই করোনা ভাইরাস মহামারীর মধ্যে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার ভয়কে ভুলে যারা আমাদেরকে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন, চট্টগ্রাম শহরের প্রত্যেকটা মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন, তাদের পাশে দাঁড়ানোর আমার ক্ষুদ্র চেষ্টা মাত্র। 

তিনি আরো বলেন, প্রত্যেকটা মানুষের নিজ নিজ জায়গা থেকে যতটুকু সম্ভব এই করোনা যোদ্ধাদের পাশে এসে দাঁড়াতে হবে । তারা এই যুদ্ধে টিকে থাকতে পারলেই আমরা মুক্ত হবো করোনা মহামারী থেকে।

হসপিটালের উদ্দ্যোক্তা ডা.বিদ্যুৎ বড়ুয়ার কাছে রেজাউল করিম চৌধুরীর দেওয়া উপহার এয়ার কন্ডিশনটি হস্তান্তরের সময় উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারের বেসরকারি কারা পরিদর্শক ও সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতা আজিজুর রহমান আজিজ, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক উপ-সম্পাদক ও ওমর গণি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইলিয়াস উদ্দিন, চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি আবু আরিফ, ছাত্রলীগ নেতা হাসান, ২৪নং ওয়ার্ড যুবলীগ নেতা বিপ্লব, ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রসংসদের সাংস্কৃতিক সম্পাদক আল-আমিন হোসেন, ছাত্রলীগ নেতা শাহাদাত হোসেন প্রমুখ। 

উল্লেখ্য, করোনা প্রকোপ শুরু হওয়ার পর পরই বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব এম. রেজাউল করিম চৌধুরী নিজ উদ্দ্যেগে নগরীর ৪১ ওয়ার্ডের গরীব, দু:স্থ, অসহায় ও নিম্ন আয়ের মানুষের মধ্যে মাস্ক, সাবান, হ্যান্ড সেনিটাইজারসহ খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করে চলেছেন। মাহে রমজান শুরুর পর নিজ অর্থায়নে রাতের আধাঁরে ফুটপাতে থাকা মানুষদের মাঝে সেহেরী বিতরণ করেছেন। বিভিন্ন এলাকায় ও সংগঠনের মাঝে ইফতার ও সেহেরী সামগ্রী বিতরণ করে চলেছেন। সাধ্যমতো মানুষের পাশে থাকার অঙ্গীকার করেছেন এম. রেজাউল করিম চৌধুরী ।

সিরাজগঞ্জ কাজীপুর থানা সদর কলেজেরের শিক্ষার্থীদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ

সিরাজগঞ্জ কাজীপুর থানা সদর কলেজেরের শিক্ষার্থীদের মাঝে  ঈদ সামগ্রী বিতরণ

মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলাপ্রতিনিধিঃ  শনিবার কাজীপুর থানাসদর কলেজের পক্ষ থেকে কলেজের দরিদ্র শিক্ষার্থীদের মাঝে ঈদ সামগ্রি বিতরণ করা হয়েছে। কলেজের অধ্যক্ষ মনোজ কুমার রায় জানান, আমাদের কলেজের অনেক ছাত্র-ছাত্রী দরিদ্র । করোনার কারণে তাদের মা বাবা কর্মহীন হয়ে পড়েছে। এ বিষয় মাথায় রেখে কলেজের অর্থায়নে ১শ দরিদ্র ছাত্র-ছাত্রীর হাতে সেমাই ,সুজি,লাচ্চা,চিনি তেল, সাবান, একদিনের প্রয়োজনীয়  ইফতারি, ও মাস্ক বিতরণ করা হয়েছে। বিতরণ কালে প্রধান অতিথি হিসাবে কলেজের পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান খলিলুররহমান সিরাজী
কলেজের অধ্যক্ষ মনোজ কুমার রায় সহ প্রভাসক,ও কর্মচারিগণ উপস্থিত ছিলেন।প্রধান অতিথি তাঁর সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে করোনাভাইরাস মকোবেলায় স্বাস্থ্য বিধি মেনে নিজে সুস্থ ও অন্যকে সুস্থ রাখতে সকলের প্রতি উদাত্ব আহবান জানান।

কুমিল্লায় করোনা আক্রান্তে সর্বশেষ পরিস্থিতি

কুমিল্লায় করোনা আক্রান্তে সর্বশেষ পরিস্থিতি


কুমিল্লা উত্তর জেলা প্রতিনিধি এম এ হোসাইন
~~~~~~~~~~~~~~~~~~~

আজ ১৬ মে, ২০২০ ইং রোজ শনিবার। মহামারি করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে দিগ্বিদিক বিশ্ববাসী। বৈশ্বিক করোনা ভাইরাসের আজকের কুমিল্লার সর্বশেষ অবস্থা জানা যায়, গত ২৪ ঘন্টায় ৪৬৩১ টি নমুনা পাঠানো হয়। তারমধ্যে ৪৩১৯ টি নমুনা গ্রহণ করা হয়েছে। তারমধ্যে ১৬ জনের করোনা পজেটিভ আসে। 


এদিকে কুমিল্লা সিটি করপোরেশন এলাকায় ৬ জন, সদর উপজেলায় ৩ জনসহ মোট ৯ জনের নমুনায় করোনা পজেটিভে এসেছে। সিটি করপোরেশনের ৬ জনের মধ্যে শহরের হাউজিং এস্টেটের ২ নম্বর সেকশনের ২ জন, নেউরার সৈয়দপুরের ২ জন, কুমিল্লা সদর হাসপাতালের এক ওয়ার্ডবয় এবং এক চিকিৎসকের পিতা রয়েছেন। চিকিৎসকের পিতা অবশ্য ঢাকায় থাকেন। সেখান থেকে নমুনা নিয়ে কুমিল্লায় পরীক্ষা করা হয়েছে। 
কুমিল্লার সদর উপজেলার বরদৈল গ্রামের  তিন জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এরা একই বাড়ির। এ তিন জন ঢাকার ইবনে সিনায় চিকিৎসা নিয়ে ফেরা করোনা আক্রান্ত কিডনি সমস্যায় অসুস্থ এক মেয়ের কন্টাক্টে এসেছিলেন। 

এই নয়জন সহ কুমিল্লা জেলায় মোট ১৬ জনের পজেটিভ এসেছে। এর মধ্যে নাঙ্গলকোটে ৩ জন, ব্রাহ্মণপাড়ায় ২ জন, মুরাদনগর ও লাকসামে ১ জন করে আক্রান্ত হয়েছেন। 

গত ২৪ ঘন্টার ফলাফলের মধ্য দিয়ে এই পর্যন্ত কুমিল্লায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২৬৪ জন। আজ মনোহর গঞ্জে একজন সুস্থ হয়েছে, এ নিয়ে মোট আরোগ্য লাভ করেছেন  ৪৭ জন। আজকে নতুন করে  দেবিদ্বারে দুই জনের মৃত্যুসহ এই পর্যন্ত ১১ জনের প্রাণহানি ঘটেছে।

আজকের কুমিল্লায় ১৬ জন আক্রান্তের তথ্য নিশ্চিত করেছেন সংক্রমণ প্রতিরোধে জেলা সমন্বয়ক ডা. নিসর্গ মেরাজ চৌধুরী।

সিরাজগঞ্জের রতনকান্দিতে পূর্বশত্রুতার জের ধরে অতর্কীত হামলা

সিরাজগঞ্জের রতনকান্দিতে পূর্বশত্রুতার জের ধরে অতর্কীত হামলা

 মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ
সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলাধীন রতনকান্দি ইউনিয়নের নারান্দিয়া গ্রামে মৃত জালাল মন্ডলের ছেলে হোসেন আলী (৫০), মোঃ আ: রশিদ, মোঃ রাজিব সুলতান, মোঃইদ্রিস আলীর গং জমি জমা সংক্রান্ত জের ধরে একই গ্রামের মৃত দেলোয়ার মন্ডলের ছেলে শাহ আলম (৪৪), আলাউদ্দিন (৩৮), আল-আমিন (৪০) এই পরিবারের উপর গত ৭/৫/২০ইং তারিখ আনুমানিক সকাল ১০ টার দিকে তাদের নিজ বাড়ির এসে হামলা চালায়। তাদের আত্মচিৎকারে এলাকাবাসী ছুটে আসলে হামলা কারীরা পালিয়ে যায়। হামলায় গুরুতর আহতদের স্থানীয় লোকজন সিরাজগঞ্জ 250 শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেচ্ছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। এতে শাহ আলমের মাথায় ব্যাপক ইনজুরি হয়। এই ঘটনায় এলাকার মাতব্বর গণ ঘটনাটি মিমাংসা দেওয়ার কথা বলে আহতদের হাসপাতাল থেকে নিয়ে আসে। এক দিন দুই দিন করতে করতে কোন ন্যায় বিচার না পেয়ে গতকাল সিরাজগঞ্জ সদর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগটি সদর থানার সাব ইন্সপেক্টর ফারুক আহমেদের কাছে তদন্ত ভার আসে বলে আহত পরিবার জানান। এই প্রতিবেদক  স্থানীয় মুরুব্বী মোঃ শামীম আহমেদ, ইসমাইল তাং, শহীদুল ইসলাম, সাবেক মেম্বার সাইদুল ইসলামদের সাথে কথা বললে তারা জানান, জমি জমা বিষয়টি নিয়ে একাধিক বার বৈঠক করা হয়েছে কিন্তু কোন সুরহা আনতে পারিনি। শামীম আহমেদ জানান, আমি অনেক চেষ্টা করেছি ঘটনাটি মিমাংসা করার জন্য কিন্তু হোসেন আলীর গং আমার কথা কর্ণপাত করেননি। তাই বলেছি তাদের আইনের আশ্রয় নিতে। তদন্ত অফিসার ফারুক আহমেদের সাথে কথা বললে তিনি জানান অভিযোগটি পেয়েছি, ঘটনা তদন্ত করে দুত ব্যবস্থা নিবো।

চৌগাছা উপজেলায় অসহায় কৃষকের ধান কেটে দিলো ছাত্রলীগ

চৌগাছা উপজেলায়  অসহায় কৃষকের ধান কেটে দিলো ছাত্রলীগ

ছবিঃ কপোতাক্ষনিউজ  
স্টাফ রিপোর্টারঃ  

কৃষক বাচলে, বাঁচবে দেশ 
শেখ হাসিনার বাংলাদেশ।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নির্দেশে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ এর সুযোগ্য সভাপতি জনাব আল- নাহিয়ান খান জয় ও সংগ্রামী সাধারন সম্পাদক লেখক ভট্রাচার্য এর নির্দেশে যশোর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি, ছাত্রসমাজের অহংকার রওশন ইকবাল শাহী ভাই এর পরামর্শে চৌগাছা  উপজেলা ছাত্রলীগ এর সুযোগ্য সভাপতি ইব্রাহিম হুসাইন সংগ্রামি সাধারণ সম্পাদক শফিকুজ্জামান রাজুর সার্বিক তত্ত্বাবধায়নে উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রাজু আহম্মেদ, দপ্তর সম্পাদক হাসেম আলী, ছাত্রলীগনেতা হাসান রেজা,সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি আতিকুজ্জামান রিংকু,পৌর ছাত্রলীগ নেতা সৌরভ রহমান বিপুল, মিনহাজুর রহমান জিসাদ ও স্বরুপদাহ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের অন্যতম নেতা নাহিদ হাসান, পাশাপোল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সবুজ হোসেন , রাকিব হোসেন,তানজিল আহমেদ সহ ইউনিয়নের ছাত্রলীগের বিভিন্ন নেতৃবৃন্দের সাথে নিয়ে দ্বিতীয় দিনে  সাঞ্চাডাঙ্গা গ্রামের অসহায় বর্গা চাষি বিপ্লব হোসেনের ৩৭ শতক ধান কেটে দেন।

বাংলাদেশে প্লাজমা থেরাপি শুরু!

বাংলাদেশে প্লাজমা থেরাপি শুরু!

রিয়াজুল করিম রিজভী স্টাফ রিপোর্টার চট্টগ্রামঃ-

বাংলাদেশে ঢাকা মেডিকেল কলেজ এ আনুষ্ঠানিক ভাবে শুরু করোনা রোগীদের জন্য প্লাজমা থেরাপি। প্রথম বারের মত প্লাজমা দিলেন কোভিড জয়ী দুই সেচ্চাসেবী চিকিৎসক।এই থেরাপির সঙ্গে সংশ্লিষ্টরা বলছেন পরীক্ষার পর নির্দিষ্ট মান উর্ওীন হলেই এন্টিবডি হিসেবে করোনা রোগীর দেহে প্রয়োগ করা হবে। করোনা মহামারীতে দিশে হারা দেশে প্লাজমা থেরাপির কার্যক্রম উদ্বোধন অনেকটা খুশির খবর। শনিবার বেলা ১১ টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে টান্সলেশন মেডিসিন বিভাগ এ আনুষ্ঠানিক ভাবে শুরু হয় দেশের ইতিহাসে প্লাজমা সংগ্রহের কার্যক্রম‌। করোনা জয়ী সেচ্চাসেবী দুই চিকিৎসক প্লাজমা দান করেন।এই বিভাগের প্রধান সহ স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ঘোষিত বারো জনের একটি কমিটি থেরাপির পুরো বিষয়টি দেখাশুনা করেছেন।তারা বলছেন কোভিড জয় রোগীর দেহে এন্টিবডি তৈরি হয় এমন ধারণা থেকেই প্লাজমা থেরাপির দিয়ে এগিয়েছেন অনেক বেশি।ঢাকা মেডিকেল কলেজ এর কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটি এই প্লাজমা থেরাপির উদ্ধোধন করেন।

কুড়িগ্রামে মার্কেটে ক্রেতাদের উপচেপড়া ভীড়, মানছে না স্বাস্থ্যবিধি!

কুড়িগ্রামে মার্কেটে ক্রেতাদের উপচেপড়া ভীড়, মানছে না স্বাস্থ্যবিধি!

 মোঃইয়ামিন সরকার আকাশ।
  রাজারহাট প্রতিনিধিঃ
কুড়িগ্রামে মার্কেটে দোকানগুলোয় ক্রেতাদের উপচেপড়া ভিড় মানছে না স্বাস্থ্যবিধি। জেলার উলিপুর, চিলমারী, রৌমারীসহ বিভিন্ন উপজেলার দোকানগুলোয় ক্রেতাদের উপচেপড়া ভিড় লক্ষ্য করা যাচ্ছে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে কেনা-বেচার কথা থাকলেও বেশিরভাগ দোকানে তা মানা হচ্ছে না।
 
শনিবার (১৬ মে) সরেজমিনে উলিপুর ও চিলমারী বাজার ও মার্কেট এই অবস্থা লক্ষ করা গেছে।  
এসময় দেখা যায় বাজারে প্রচুর মানুষের আনাগোনা রয়েছে। বিশেষ করে পোশাক ও জুতার দোকানে নারীদের বেশি ভিড় লক্ষ্যনীয়। তারা সঙ্গে শিশু সন্তানদেরও নিয়ে এসেছেন। দোকানগুলোয় গা ঘেঁষে দাঁড়িয়ে পণ্য কিনছেন তারা। অনেকের মুখেই নেই মাস্ক। 
মার্কেটে মানা হচ্ছে না সামাজিক দূরত্ব। দোকানে যারা পণ্য বিক্রি করছেন তাদেরও হাতে কোনও গ্লাভস এবং মুখেও নেই মাস্ক। এছাড়াও সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত দোকান খোলা রাখার কথা থাকলেও অনেক দোকান এরপরও খোলা রাখা হচ্ছে।
বাজারে পণ্য কিনতে আসা অনেকেই বলেন, পরিবারের জন্য জামা পোশাক কিনতে এসেছিলাম। কিন্তু বাজারে মানুষের ভিড় দেখে ভয়ে জামা না কিনে বাড়ি ফিরে যাচ্ছি। করোনার কারণে সামাজিক দূরত্বের কথা বললেও তোয়াক্কাই করছে না কেউ। বাজারে মানুষ যেভাবে ঘুরছে তাতে করোনা আক্রান্তের ঝুঁকি বাড়ছে। এ বিষয়ে প্রশাসনের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকার দাবী জানিয়েছেন সচেতন নাগরিক মহল।

শনিবার (১৬ মে) দুপুরে কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসক(ডিসি) মোহাম্মদ রেজাউল করিম জানান, ব্যবসায়ীরা স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে কার্যক্রম পরিচালনা করতে জেলা প্রশাসনকে প্রতিশ্রুতি দিয়েও তা মানছে না। মানুষের সচেতনতায় ‘মুখে মাস্ক নাইতো বাজার নাই’ এরকম বিলবোর্ড ও পোষ্টার বাজারের বিভিন্ন জায়গায় লাগানো হয়েছে। এখন থেকে জেলা প্রশাসনের পক্ষ হতে কঠোরভাবে মনিটরিং করা হবে। স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব না মানলে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এব্যাপারে কুড়িগ্রাম পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান বিপিএম জানান, বাজারে বেশ ভিড় লক্ষ্য করা যাচ্ছে। পুলিশের একার পক্ষে এটি নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব নয়। জেলাবাসীকে সচেতন থেকে স্বাস্থ্যবিধি মানতে অনুরোধ করা হয়েছে।
তিনি আরও বলেন, পুলিশ সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। মানুষকে সচেতন হতে হবে। জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে মোবাইল কোর্ট পরিচালনায় পুলিশ সহযোগিতা করবে।

ঘাটাইলের ইউএনও অঞ্জন সরকারের মহানুভবতায় বেঁচে গেলো এক অজ্ঞাত মুমূর্ষু প্রতিবন্ধী

ঘাটাইলের ইউএনও অঞ্জন সরকারের মহানুভবতায় বেঁচে গেলো এক অজ্ঞাত মুমূর্ষু প্রতিবন্ধী
 

মো: আ: হামিদ বিশেষ প্রতিনিধিঃ
       
টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অঞ্জন সরকারের মহানুভবতায় উদ্ধার হওয়া অজ্ঞাত মুমূর্ষু প্রতিবন্ধী লোকটি এখন সুস্থ আছেন বলে জানা গেছে।তার অবস্থা এখন আশংকামুক্ত বলে স্বাস্হকমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে। তবে তার পরিচয় এখনো জানা যায় নি।

এবিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা জানান,লোকটা একজন বুদ্ধি প্রতিবন্ধী।দীর্ঘদিন অনাহারে থাকায় দূর্বলতায় পরে গিয়ে মাথায় চোট পেয়েছিলো।চিকিৎসা দেওয়ায় সে এখন সম্পূর্ণ সুস্থ আছে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, ঘাটাইল বাসস্ট্যান্ড এলাকায় আজ দুপুরের দিকে সে অচেতন হয়ে পরে ছিল। পরবর্তীতে সংবাদটি ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সংবাদকর্মী, পৌর মেয়র এবং স্বেচ্ছাসেবকদের মাধ্যমে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার দৃষ্টিগোচর হলে তিনি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা সাথে যোগাযোগ করে এ্যাম্বুলেন্স সহ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে মুমূর্ষু ওই রোগীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তির প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেন। এই ঘটনাটি ঘাটাইলের জনসাধারণের মাঝে সর্বোপরি সচেতন মহলে ইউএনওর মানবিক কর্মকাণ্ডর উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত ও উদাহরণ তৈরি করেছে।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার বেলা এগারটার পর থেকে ঘাটাইল পুরাতন বাসস্ট্যান্ডের পশ্চিম এলাকায় রাস্তার ধারে হোটেল তাজমহলের পাশে একজন মানুষ অচেতন হয়ে পরে থাকতে দেখা যায়।অজ্ঞাত লোকটির অচেতন হয়ে পরে থাকার সংবাদে মুহূর্তেই জনগণের মধ্যে  আতঙ্কের সৃষ্টি করে।সাথে সাথেই  খালি হয়ে হয়ে যায় বাসস্ট্যান্ড সহ আশপাশের পুরো এলাকা।

অনলাইন এক্টিভিষ্ট জাহান কলি ওই লোকটির অচেতন হয়ে পরে থাকার ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করেন। পাশাপাশি স্বেচ্ছাসেবক সংগঠন ‘ঘাটাইলের কথা’র সদস্যরা বিষয়টি ফেসবুক লাইভে দেখান। সাথে সাথে সংবাদটি পৌঁছে যায় ঘাটাইল পৌরসভার মেয়র শহিদুজ্জামান খান শহীদ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অঞ্জন কুমার সরকারের কাছে। এ ঘটনায় প্রশাসনে শুরু হয় তোলপাড়। এর কিছুক্ষণ পরেই বেলা সোয়া দুইটার সময় ইউএনও ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন এবং দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য উপজেলা স্বাস্হ কর্মকর্তাকে অনুরোধ জানান।ইউএনওর অনুরোধে কিছুক্ষনের মধ্যে স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন এ্যাম্বুলেন্স সহকারে। পরে স্বেচ্ছাসেবকদের সহায়তায় তাকে উদ্ধার করে উন্নত চিকিৎসার জন্য এ্যাম্বুলেন্স যোগে প্রেরণ করা হয় ঘাটাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে।

এ ঘটনাটি পর্যবেক্ষণ করেছেন ঘাটাইলের আপামর জনসাধারণ। করোনা আতঙ্কে কেউ যখন ওই অসুস্থ লোকটির সহায়তায় এগিয়ে আসছিলেন না, তখন দেবদূতের মতো আবির্ভূত হয়ে তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে প্রেরণ করলেন একজন মানুষ ইউএনও অঞ্জন সরকার। অল্প কিছুদিন ধরে ঘাটাইল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার দায়িত্ব পাওয়া অঞ্জন কুমার এভাবেই নিজের কার্যক্রম দিয়ে ইতিমধ্যেই মানুষের মনে যায়গা করে নিয়েছেন।দেশের এই দূর্যোগের সময়ে তার এই মানবিকতা কে দৃষ্টান্ত হিসেবেই মনে করছেন ঘাটাইল উপজেলার সর্বসাধারণ।

এ বিষয়ে ইউএনও অঞ্জন  সরকার বলেন, ঘাটাইল বাসস্ট্যান্ড এলাকায় রাস্তার পাশে একজন মানুষের অচেতন হয়ে পরে থাকার সংবাদ পাই ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সংবাদকর্মী, পৌর মেয়র এবং স্বেচ্ছাসেবক ভাইদের মাধ্যমে। পরে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা সাথে যোগাযোগ করে এ্যাম্বুলেন্সের ব্যবস্থা করতে বলে আমি কয়েকজন স্বেচ্ছাসেবক সহ ঘটনাস্থলে অপেক্ষা করতে থাকি এম্বুলেন্সের জন্য। অল্প কিছু সময়ের মধ্যেই উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা এ্যাম্বুলেন্স নিয়ে ঘটনাস্থলে হাজির হন।অতঃপর মুমূর্ষু ব্যাক্তিকে এ্যাম্বুলেন্সে তোলার জন্য দু-তিন জন ব্যক্তির সহায়তা কামনা করায় এগিয়ে আসে হাসপাতালের একজন স্টাফ, একজন স্বেচ্ছাসেবক এবং অন্যজন ছাত্রলীগ কর্মী।তাদের সহায়তায় মুমূর্ষু ব্যক্তিকে হাসপাতালে পাঠানো হয়। আর আশেপাশে সেই দৃশ্য দেখার অপেক্ষায় থাকা শত শত উৎসুক জনতা ছবি তুলতে ও ভিডিও করার কাজেই ব্যাস্ত ছিল।সে সময় কেউ এক ফোটা পানি নিয়েও এগিয়ে আসেনি!এটাই চরম বাস্তবতা।

তিনি আরও বলেন, একজন মুমূর্ষু ব্যাক্তির পাশে আপনি আসবেন না, কেউ করোনায় আক্রান্ত হলে তাঁর পাশে সহমর্মিতার হাত না বাড়িয়ে তাঁকে এলাকা ছাড়তে বাধ্য করবেন, করোনা (COVID-19) ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরন করলে তাঁকে দাফন করতেও যাবেন না। কিন্তু আপনি এবং আপনার পরিবারের স্বাস্থ্য ঝুঁকির কথা বিবেচনা করে জারীকৃত বিধিনিষেধ অমান্য করতেও আপনার বিবেকবোধ কাজ করেনা।

ক্ষোভের সাথে তিনি আরও বলেন, মানুষ হয়ে জন্মগ্রহণ করার চেয়ে মনুষ্যত্ব অর্জন করা অনেক কঠিন কাজ।

এ সময় তিনি পৌর মেয়র ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সংবাদকর্মী ভাইদের তথ্য দিয়ে সহায়তা করার জন্য ধন্যবাদ জানান। তিনি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মহোদয়কে জাতির এ ক্রান্তিলগ্নে অসহায় মুমূর্ষু ব্যাক্তির স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করার জন্য ধন্যবাদ জানান। ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান স্বেচ্ছাসেবক ও ছাত্রলীগ কর্মীর প্রতি, অসহায় মানুষের পাশে নিঃসংকোচে হাত বাড়িয়ে দেয়ার জন্য।

জাতীয় দলের সাবেক ক্রিকেটর রাসেলের সৌজন্যে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ

জাতীয় দলের সাবেক ক্রিকেটর রাসেলের সৌজন্যে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ

মোঃ ইকরামুল করিম সৈকত, ঝিকরগাছা (যশোর) প্রতিনিধিঃ বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক ক্রিকেটর সৈয়দ রাসেল এর সৌজন্যে ঝিকরগাছা ক্রিকেট একাডেমী ও পথশিশু নৈশ্য স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের অভিবাবকদের মাঝে ত্রানসামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল বিকেলে স্থানীয় বিএম হাইস্কুল মাঠ চত্ত্বরে ক্রিকেট একাডেমী ও নৈশ্য স্কুলের প্রায় ১৫০ জন ছাত্র-ছাত্রীর অভিভাবকদের মাঝে ত্রান সামগ্রী বিতরণ করেন ঝিকরগাছা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব মনিরুল ইসলাম।

এসময় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক ক্রিকেটার সৈয়দ রাসেল, ঝিকরগাছা থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ আব্দুর রাজ্জাক, ঝিকরগাছা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সেলিম রেজা, জাগরণী সংসদের সাধারন সম্পাদক আনোয়ারুল ইসলাম, আজম মোহাম্মদ ড্যানী, ফয়সাল মুকুট, কামারুজ্জামান কামাল, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক কামাল হোসেন, রাজ, ক্রিকেট একাডেমী ও নৈশ্য স্কুলের পরিচালক হাবিবুর বাশার , সাধারন সম্পাদক শাহানুর কবীর হ্যাপী, সজীব হোসেন, আবু রায়হান রাজ প্রমূখ।

জলঢাকায় শ্বশুরের বিরুদ্ধে জামাতার থানায় অভিযোগ!

জলঢাকায় শ্বশুরের  বিরুদ্ধে জামাতার  থানায় অভিযোগ!


মোঃ হাবিবুর রহমান শাকিল নীলফামারী প্রতিনিধি:


নীলফামারীর জলঢাকায় আপন শশুর শাশুড়ী ও স্ত্রীর বিরুদ্ধে থানা অভিযোগ দায়ের করেছে জামাতা আশিকুর রহমান। অভিযোগে জানা যায়,উপজেলার গোলনা ইউনিয়নের কালীগঞ্জ ভাটিয়াপাড়ার মৃত আব্দুল কুদ্দুস ভাটিয়ার ছেলে আব্দুল মালেক ভাটিয়া তার জামাতা দক্ষিণ দেশী বাই ধনতোলা এলাকার মৃত মোজাম্মেল হকের ছেলে আশিকুর রহমানকে ফুসলিয়ে বাড়িতে ডেকে এনে মোটরসাইকেল কেড়ে নিয়ে ডাংমার করে তাড়িয়ে দেয়। পরে শশুর শাশুড়ী ও স্ত্রীর নাম উল্লেখ করে জলঢাকা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। এ বিষয়ে আশিকুর রহমান বলেন,প্রায় ৪ বছর আগে আমার বিয়ে হয়েছে। সংসার জীবনে ২ বছরের একটি বাচ্চাও আছে। কিন্তু আমার শশুর আমার বউকে বিভিন্নভাবে ফুসলিয়ে আমাদের স্বামী স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া বিবাদ লেগে দিতেই থাকে। আমার বউ তার বাবার কথা মত চলে যার কারনে সংসারে অশান্তি লেগেই থাকে। ঘটনার দুইদিন আগে শশুর আমার বউকে নিয়ে যায়। পরে আমাকে ডেকে নিয়ে ডাংমারের একপর্যায়ে পকেটে থাকা ব্যবসায়িক টাকা ও মটরসাইকেল আটকে দিলে আমি থানায় অভিযোগ করি।

নবীনগরে চাঁদা না পেয়ে গুলি বিদেশী পিস্তল ও ৪৭ রাউন্ড গুলিসহ উদ্ধার আটক-১

নবীনগরে চাঁদা না পেয়ে গুলি বিদেশী পিস্তল ও ৪৭ রাউন্ড গুলিসহ উদ্ধার আটক-১


এস.এম অলিউল্লাহ ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ

 ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর পশ্চিম ইউনিয়নের ফতেহপুর গ্রামে পূর্ব পাড়ায় গতকাল শুক্রবার (১৫/৫) সন্ধ্যায় মোহন মেম্বারের বাড়িতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ঘরের ভিতরে ঢুকে স্ট্রীলের আলমারির নিচের ড্রয়ার হতে একটি বিদেশী পিস্তল (7.65 ) ও ৪৭ রাউন্ড গুলিসহ উদ্ধার করে ।
এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, নবীনগর পৌর সদরে খাঁ বাড়ি সড়কে মার্সেল এক্সক্লুসিভ'র ডিলার রফিকুল ইসলামের বাড়িতে গত মঙ্গলবার(১২/৫) মাক্স পড়া দুই যুবক ঢুকে দাবিকৃত ১৫লক্ষ টাকা চাঁদা চায়।রফিক দিতে অস্বীকার করায় দুবৃর্ত্তরা ২ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়ে পরে  এসে টাকা নিয়ে যাবে বলে চলে যায়। উল্লেখ ৯ মে ফোন করে রফিকের নিকট ১৫লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে ।
পুলিশ ওইদিনই বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে আলাল নামে এক যুবককে আটক করে ।গতকাল শুক্রবার ধৃত আলাল ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারা মতে জবানবন্দী দেয়। এরপরই জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নবীনগর সার্কেল মো. মকবুল হোসেনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ফতেহপুর গ্রামে মোহন মেম্বারের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ওই গুলিগুলোসহ বিদেশী পিস্তল উদ্ধার করে।এই ঘটনায় থানায় অস্ত্র মামলার প্রস্তুতি চলছে । অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মকবুল হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন,অস্ত্র মামলার প্রস্তুতি চলছে।এই ঘটনায় যারাই জড়িত থাকবে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না ।

ইন্দুরকানী‌তে প্রথম তিনজন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে

ইন্দুরকানী‌তে প্রথম তিনজন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে

মিঠুন কুমার রাজ,
পিরোজপুর জেলা প্রতিনিধি। 
‌পি‌রোজপু‌রের ইন্দুরকানী‌তে এই  প্রথম ঢাকা ও নারায়নগঞ্জ ফেরৎ তিনজন ক‌রোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হ‌য়ে‌ছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় তিন জ‌নের ক‌রোনা প‌জি‌টিভ প্র‌তিবেদন ইন্দুরকানী‌তে এ‌সে পৌঁছায়।

এ বিষ‌য়ে উপ‌জেলা স্বাস্থ্য কম‌প্লে‌ক্সের আবা‌সিক চি‌কিৎসক আ‌মিন উল ইসলাম জানান,  গত মঙ্গলবার উপ‌জেলার ৬ জ‌নের নমুনা সংগ্রহ ক‌রে‌ছি। আজ শুক্রবার সন্ধ্যায় প্রাপ্ত প্র‌তি‌বেদ‌নে ছয় জ‌নের ম‌ধ্যে তিন জ‌নের কো‌ভিড ১৯ প‌জি‌টিভ এ‌সে‌ছে। এ‌দের ম‌ধ্যে দুইজন নারী ও একজন পুরুষ। ঢাকা থে‌কে আগত মমতাজ (৫০), রুখসানার (৩৫) বা‌ড়ি বা‌লিপ‌াড়ার সেপাই বা‌ড়ি‌তে। কিছু দিন পূ‌র্বে তারা মাই‌ক্রো বাস যো‌গে ঢাকা থে‌কে ইন্দুরকানীর বা‌লিপাড়ায় নিজ বা‌ড়ি‌তে আ‌সেন। তারপর থে‌কে আমা‌দের স্বাস্থ্যকর্মীরা তা‌দের নমুনা সংগ্র‌হের জন্য ক‌য়েকবার ওই বা‌ড়ি‌তে গি‌য়ে‌ছি‌লেন। কিন্তু তারা সবাই সুস্থ আ‌ছেন ব‌লে স্বাস্থ্যকর্মীদের ফি‌রি‌য়ে দেন। প‌রে গত মঙ্গলবার তা‌দের পাঁচজ‌নের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। 

এছাড়া নারায়নগঞ্জ ফেরৎ বেলাল (২৫) কোরানা আক্রান্ত হ‌য়ে‌ছেন। বেলা‌লের বা‌ড়ি উপ‌জেলা সদ‌রের দ‌ক্ষিণ কালাইয়া গ্রা‌মে। 

উপ‌জেলা নির্বাহী অ‌ফিসার হোসাইন মুহাম্মদ আল মুজা‌হিদ জানান, আজ শুক্রবার রা‌তেই  ক‌রোনা আক্রান্ত‌দের বা‌ড়িসহ স‌ন্দেহজনক এলাকা লকডাউন করা হ‌য়ে‌ছে। এছাড়া আগামী দিন শ‌নিবার আক্রান্ত‌দের সংস্প‌র্শে থাকা সবার নমুনা সংগ্রহ করা হ‌বে।

ফের করোনায় হানা দিলো নীলফামারীর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে!

ফের করোনায় হানা দিলো নীলফামারীর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে!

মোঃ  লাতিফুল  অাজম 
কিশোরগঞ্জ  নীলফামারী  প্রতিনিধি


ফের করোনাভাইরাস হানা দিলো নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। এবারে একজন ভ্যাকসিন পোর্টার করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। লকডাউন করা হলো পাঁচটি কোয়ার্টার।

কিশোরগঞ্জ উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ভ্যাকসিন পোর্টার তৈয়ব আলীর (৪৫) শরীরে কোভিট-১৯ শনাক্ত হয়েছে। তিনি কিশোরগঞ্জ উপজেলার বাহাগিলী ইউনিয়নের উত্তর দুরাকুটি পশ্চিমপাড়া গ্রামের মৃত আবদুল মজিদের ছেলে । তার শরীরে করোনার উপসর্গ দেখা দিলে গত ১০ মে তার নমুনা সংগ্রহ করে আইইডিসিআর-এ পাঠানো হয়কিশোরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. আবু শফি মাহমুদ তার শরীরে করোনা পজিটিভের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, শুক্রবার আইইডিসিআর রিপোর্টে করোনা শনাক্ত হয়। তাকে আইসোলেসনে রাখা হয়েছে। করোনা আক্রান্ত ওই ব্যক্তির উপসর্গ রয়েছে। তিনি হাসপাতাল চত্বরে থাকেন। তাকে নীলফামারী হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।

এদিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পাঁচটি কোয়ার্টার লকডাউন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, কিশোরগঞ্জ উপজেলায় প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একজন চিকিৎসক।

শিবগঞ্জে কর্মহীন পরিবারের পাশে বিএনপি

শিবগঞ্জে কর্মহীন পরিবারের পাশে বিএনপি



মো:শামিম উদ্দিন চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি :

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার দূর্লভপুর ইউনিয়নের কর্মহীন পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছে উপজেলা বিএনপি।
শনিবার (১৬ মে) সকালে দুর্লভপুর ইউনিয়নের ৩৭০ টি কর্মহীন পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরন করে উপজেলা বিএনপি।

 সাবেক সংসদ সদস্য (চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১) ও বিএনপি চেয়ারপার্সনের অন্যতম উপদেষ্টা অধ্যাপক মোঃ শাহজাহান মিঞার নির্দেশে ও দুর্লভপুর ইউনিয়ন বিএনপির অর্থায়নে ১৬ মে শনিবার সকালে খাদ্য সামগ্রী বিতরন করা হয়।
খাদ্য সামগ্রীর মধ্যে ছিল চাল ৪কেজি, আলু ২ কেজি, চিনি ১ কেজি, সেমাই ১ প্যাকেট, বুন্দিয়া ১ প্যাকেট, পাপড় ২ প্যাকেট ইত্যাদি।

শিবগঞ্জ উপজেলা বিএনপি’র সাধারন সম্পাদক সারোয়ার জাহান সেন্টুর নেতৃত্বে ত্রান কার্য পরিচালনা করেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা বিএনপি’র কার্যনির্বাহী সদস্য ও দুর্লভপুর ইউনিয়ন বিএনপি সভাপতি মোঃ মোশারফ হোসেন (এম)।

এসময় উপস্থিত ছিলেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা বিএনপি কার্যনির্বাহী সদস্য মোঃ বারিউল ইসলাম, দুর্লভপুর ইউনিয়ন বিএনপি সাধারন সম্পাদক মোঃ পারভেজ আলী, দুর্লভপুর ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকদল সভাপতি মোঃ আতাউর রহমান সহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

ব্যাপ্টিষ্ট চার্চের উদ্যোগে দরিদ্রদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী ও স্বাস্থ্য সরঞ্জাম বিতরণ

ব্যাপ্টিষ্ট চার্চের উদ্যোগে দরিদ্রদের মাঝে  খাদ্যসামগ্রী  ও স্বাস্থ্য সরঞ্জাম বিতরণ


মোরশেদ আলম 
 যশোর ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধি। 

যশোরের কেশবপুরে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে কালভেরী ব্যাপ্টিষ্ট চার্চ অব বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনায় কম্প্যাশন ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের অর্থায়নে মধ্য ও দক্ষিন বাংলাদেশ শিশু উন্নয়ন প্রকল্প জাহানপুর বিডি- ৩২৯ এর নিবন্ধিত ১৪৭ পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী ও স্বাস্থ্য সরঞ্জাম বিতরণ করা হয়েছে। 

প্রজেক্ট ম্যানেজার উজ্জ্বল দাসের পরিচালনায় শুক্রবার দুপুরে প্রধান অতিথি হিসাবে ১৪৭ পরিবারের মাঝে পরিবার প্রতি ১৫ কেজি করে চাউল, ২ কেজি করে ডাউল, ৫ কেজি করে আলু, ১ লিটার করে তৈল, ১ কেজি করে পেয়াজ, ১ কেজি করে লবণ, ৩টি করে সাবান ও ৫টি করে মাস্ক বিতরণ করেন সাতবাড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান শামসুদ্দিন দফাদার। বিতরণ কালে উপস্থিত ছিলেন কালভেরী ব্যাপ্টিষ্ট চার্চ সাউথ ক্লাস্টারের চেয়ারম্যান স্টিফেন বিশ্বাস, কেশবপুর উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এস আর সাঈদ, প্রকল্পের পালক অনুপ বিশ্বাস প্রমুখ।

আগামী ১৭ মে থেকে সিরাজগঞ্জে সকল মার্কেট ও শপিং কমপ্লেক্স বন্ধ ঘোষণা

আগামী ১৭ মে থেকে সিরাজগঞ্জে সকল মার্কেট ও শপিং কমপ্লেক্স বন্ধ ঘোষণা
 মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ
সিরাজগঞ্জে করোনা ভাইরাস সংক্রমণে আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বেড়ে চলছে। শুক্রবার (১৫ মে) রাতে করোনার সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে আইনশৃঙ্খলা কমিটির জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়। ১৭মে থেকে জেলার সকল মার্কেট ও শপিং কমপ্লেক্স পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত বন্ধের সিদ্ধান্ত জানানো হয় উক্ত সভায়।
সিরাজগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট মো: তোফাজ্জল হোসেন জানান, সভায় সিদ্ধান্ত অনুযায়ী করোনা পরিস্থিতি বিবেচনা করে আগামী ১৭ মে থেকে সিরাজগঞ্জ জেলার সকল দোকান-পাট, মার্কেট ও শপিং কমপ্লেক্স বন্ধ ঘোষণা করেছে জেলা প্রশাসন। শুক্রবার রাতে জেলা প্রশাসকের ডাকবাংলোতে আইনশৃঙ্খলা কমিটির জরুরি সভায় করোনা পরিস্থিতি নিয়ে জরুরি মিটিংয়ে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। শুধুমাত্র নিত্যপ্রয়োজনীয় দোকান-পাট ও ঔষধের দোকান খোলা থাকবে।
এদিকে করোনাভাইরাস মহামারীতে দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর সরকার বিধিনিষেধ শিথিল করায় ১০মে থেকে মার্কেট খোলা হয়। সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত সীমিত আকারে দোকান খোলা রাখা হয়।
সিরাজগঞ্জের মার্কেটে কেনাকাটা করতে ক্রেতারা গয়ে গা ঘেঁষে অবস্থান করে। অনেকেই মাস্ক ছাড়াই মার্কেটে আসে। বাইরে হাত পরিষ্কারের কোনো ব্যবস্থাও নেই। সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী বৃহস্পতিবার পর্যন্ত সিরাজগঞ্জে ১৮ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের একজন অপরিহার্য ব্যক্তিজন্য তিনি সুস্থ্য ও মানসিক ভাবে ভাল থাকলে দেশ ভালো থাকবে -জেলা ত্রান কমিটি

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের  একজন অপরিহার্য ব্যক্তিজন্য তিনি সুস্থ্য ও মানসিক ভাবে ভাল থাকলে দেশ ভালো থাকবে -জেলা ত্রান কমিটি


 দিনাজপুর প্রতিনিধি ঃ করোনায় একটি লোক ও না খেয়ে মারা যায়নি। প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা সকলের ঘরে ঘরে খাদ্য পৌছে দিচ্ছেন। মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের জন্য একজন অপরিহায্য ব্যাক্তি। তিনি সুস্থ্য ও মানসিক ভাবে ভাল থাকলে দেশ ভালো থাকবে। 
দিনাজপুর জেলা আওয়ামীলীগের ত্রান পরিচালনা কমিটির আহবায়ক ও জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আলতাফুজ্জামান মিতা এ কথা গুলি বলেন। তিনি বলেন,বিশ্বের অনেক শক্তিশালী দেশ করোনায় কাবু হয়ে গেছে,প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা করোনা কে বিচক্ষনতার সাখে মোকাবেলা করছেণ। প্রধান মন্ত্রী করোনা ভাইরাস যেভাবে সফলতার সাথে মোকাবেলা করছেন,তা বর্হিবিশ্বেও সুনাম কেডেছে। 
আজ শুক্রবার সকাল ১০টায় বিরল উপজেলার পাইলট বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ে ২শ খাদ্য সামগ্রী বিতরন করা হয়।
খাদ্য সামগ্রী বিতরন অনুষ্ঠানে বিরল উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও বিরল পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব সবুজার সিদিক্কী সাগরের সভাপতিত্বে আরো উপস্থিত ছিলেন, দিনাজপুর জেলা আওয়ামীলীগের ত্রান কমিটির সদস্য সচিব ও জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সম্পাদক ফারুকুজ্জামান চৌধুরী মাইকেল প্রমুখ, যুগ্ন আহবায়ক তৈয়ব উদ্দিন চেšধুরী,ত্রান পরিচালনা কমিটির সদস্য রফিকুল ইসলাম,কামরুল হুদা হেলাল, এ্যাড,সাইফুল ইসলাম,এ্যাড,করিম,এ্যাড রবিউল ইসলাম প্রমুখ।
 বিরল উপজেলার পর জেলা ত্রান কমিটি  সেতাবগজ্ঞ সরকারি পাইলট স্কুল প্রাংগনে ২শ দুস্থ্য ও কর্মহীন মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরন করা হয়।

দিনাজপুর জেলায় মোট আক্রান্ত- ৬৪, সুস্থ- ১২, মৃত- ১

দিনাজপুর জেলায় মোট আক্রান্ত- ৬৪, সুস্থ- ১২, মৃত- ১


 দিনাজপুর প্রতিনিধি :দিনাজপুর এম.আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের একজন অধ্যাপক ও নাক কান গলা বিভাগের চিকিতসকসহ দিনাজপুর জেলায় নতুন আরও ৫ জন করোনা শনাক্ত হয়েছে। এই নিয়ে দিনাজপুর জেলায় (কোভিড-১৯) পজিটিভ সংখ্যা সর্বমোট পূর্বে ৫৮ + ৬ (বর্তমানে) = ৬৪ জন এর মধ্যে ৪৭ জন পুরুষ ও ১৪ জন মহিলা এবং ৩ জন শিশু।
শুক্রবার রাত ৮ টায় দিনাজপুর সিভিল সাজর্ন অফিসের তথ্য অনুসারে এই ৬ জনের মধ্যে দিনাজপুর সদরে এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নাক, কান, গলা বিভাগের পুরুষ চিকিৎসক ১ জন বয়স ৪২, বিরল উপজেলায় ১ জন পুরুষ বয়স ১৮, খানসামা উপজেলায় ১ জন মহিলা বয়স ২৭, বীরগঞ্জ উপজেলায় ১ জন পুরুষ বয়স ৪১, নবাবগঞ্জ উপজেলায় ১ জন পুরুষ বয়স ৫২, বোচাগঞ্জ উপজেলায় ১ জন মহিলা বয়স ৩৫। সকলেই হোম আইসোলেশনে রয়েছেন।
গত ১৫/০৫/২০২০ তারিখে ৬ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য মেডিকেল কলেজের পিসিআর-টি ল্যাবে পাঠানো হয়েছে। গতকাল পর্যন্ত দিনাজপুর থেকে ২০৫ জনের নমুনার ফলাফল পাওয়া গেছে এর মধ্যে ৬টি করোনা (কোভিড-১৯) পজিটিভ আর বাকী ১৯৯ জনের ফলাফল নেগেিেটভ। অদ্যাবধি ল্যাবটেরিতে প্রেরিত নমুনার সংখ্যা ১৭৬১ টি এবং অদ্যাবধি ফলাফল পাওয়া নমুনার সংখ্যা ১৭৪১ টি। 
সর্ব মোট ৬৪ জন ভাইরাস আক্রান্ত রোগীর মধ্যে (দিনাজপুর সদর- ১৭ জন, কাহারোল- ৭ জন, বোঁচাগঞ্জ- ৫ জন, ফুলবাড়ী- ১জন, পার্বতীপুর- ৫ জন, নবাবগঞ্জ- ৫ জন, ঘোড়াঘাট- ৪ জন, হাকিমপুর- ২ জন, চিরিরবন্দর- ১ জন, বিরল-৬ জন, বিরামপুর- ৪ জন, বীরগঞ্জ- ৬ জন ও খানাসামা-১ জন)  মোট ১৩টি উপজেলায় হয়েছে।বর্তমানে মোট ১২ জন সুস্থ হয়েছেন তার মধ্যে সদরে-৪ জন, ফুলবাড়ী-১ জন, নবাবগঞ্জ-৩ জন, পার্বতীপুরে-১ জন, কাহারোল-১ জন, হাকিমপুর-১ জন এবং বোঁচাগঞ্জে-১ জন। মৃত্যু বরন করেছেন ১ জন। বর্তমানে হোম আইসোলেশনে রয়েছেন ৪৪ জন, অদ্যাবধি প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে ৩ জন এবং এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি-৪ জন। 
দিনাজপুর সিভিল সার্জন মো: কুদ্দুস জানান, হোম কোয়ারেন্টাইনে ৭০৬৬ জনের মধ্যে ৫৩৮৪ জন সুস্থ থাকায় অব্যাহতি পেয়েছে। বর্তমানে হোম কোয়ারেন্টাইনের সংখ্যা দাড়িছে ১৬৮২ জন। গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে দিনাজপুর জেলায় ১৫৭ জন হোম কোয়ারেন্টাইন গ্রহন করেছে। অদ্যাবধি প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে প্রেরিত হয়েছেন ২৩২ জন এবং প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন থেকে অব্যাহতি পেয়েছে ১৫৯ জন। বর্তমানে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ৭৩ জন।
উল্লেখ্য গতকাল দিনাজপুর আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজে চার জেলার সর্বমোট ১৮৮ টি নমুনার ফলাফল হয়েছে তার মধ্যে ১২টি পজিটিভ, ৩টি ইনভেলিট, ১৭৩ টি ফলাফল নেগেটিভ এসেছে।

আক্রান্ত ১০৪১, মৃত্যু ১৪ জনের

আক্রান্ত ১০৪১, মৃত্যু ১৪ জনের

আর. জে. মিজানুর রহমান ইমন, ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃ

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত হয়ে আরো ১৪ জনের মৃত্যু । এ নিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা ২৮৩ জন, এছাড়া গত ২৪ ঘন্টায় দেশে শনাক্ত হয়েছে ১০৪১ জন, এই পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্তান্ত হয়েছে মোট ১৮ হাজার ৮৬৩ জন ।  ১৪ মে বৃহস্পতিবার করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহা পরিচালক  ডা. নাসিমা সুলতানা এ তথ্য জানান ।

তারাকান্দায় ৮০০ পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন গৃহায়ণ ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ এমপি

তারাকান্দায় ৮০০ পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন গৃহায়ণ ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ এমপি


আর. জে. মিজানুর রহমান ইমন, ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃ 

মহামারী করোনা ভাইরাসে খাদ্য সংকটে, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ১৫ মে শুক্রবার তারাকান্দা উপজেলায় বঙ্গবন্ধু সরকারি ডিগ্রি কলেজ মাঠে, সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে, ৮০০ পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন, গনপ্রজাতন্রী বাংলাদেশ সরকারের গৃহায়ণ ও গনপূর্ত প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ এমপি । এ সময় উপস্থিত ছিলেন, তারাকান্দা উপজেলা ছাএলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ ও আওয়ামী অঙ্গসংগঠন সহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ।