নাগরপুরে আইয়ুব আলী মেমোরিয়াল হোমিওপ্যাথিক মেডিসিন রির্সাচ সেন্টারের উদ্যোগে শিশুদের মাঝে মাস্ক ও সাবান বিতরণ

নাগরপুরে আইয়ুব আলী মেমোরিয়াল হোমিওপ্যাথিক মেডিসিন রির্সাচ সেন্টারের উদ্যোগে শিশুদের মাঝে মাস্ক ও সাবান বিতরণ


নাগরপুর(টাংগাইল)প্রতিনিধি:মহামারী করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সচেতনতার অংশ হিসাবে মরহুম আইয়ুব আলী হোমিওপ্যাথিক মেডিসিন রির্সাচ সেন্টার এর উদ্যোগে ও প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ডা.এম.এ.মান্নান এর নেত্বতে নাগরপুরের ঐতিহ্যবাহী দুয়াজানী কলেজ পাড়া ছাত্র কল্যান পরিষদের মহাসচিব মেধাবী ছাত্রনেতা সজিব হুসাইন মোহা.হাসানের পরিচালনায় আজ ২৮ মে রোজ বৃহস্পতিবার সকাল ৯.০০ টা থেকে দুপুর ২.০০ পর্যন্ত নাগরপুরের দুয়াজানী কলেজ পাড়া সহ মাঠে,বাজারে, এলাকায় ঘুরে ঘুরে শিশুদের মাঝে মাস্ক ও সাবান বিতরণ করা হয়।বিতরণ কালে আইয়ুব আলী হোমিওপ্যাথিক মেডিসিন রির্সাচ সেন্টার ও দুয়াজানী কলেজ পাড়া ছাত্র কল্যান পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ডা.এম.এ.মান্নান বলেন, করোনা ভাইরাস দিন যাচ্ছে আরো বেশী ভয়ংকর রুপ নিচ্ছে বেড়ে চলছে মৃত্যুর সংখ্যা। এই ভাইরাস প্রতিরোধে সকলেই ঐক্যবদ্ধভাবে দেশপ্রেমিক হয়ে কাজ করতে হবে। সরকারের পক্ষে প্রতিরোধ করা একা সম্ভব না। নিয়মিত সাবান দিয়ে বার বার হাত ধৈত করতে হবে, সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখতে হবে। জরুরী প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাহিরে বের হবেন না। প্রয়োজনে বের হলে মাস্ক ব্যবহার করে চলাচল করতে  হবে। করোনা প্রার্দুভাবের কারনে কর্মজীবীরা কর্মহীন হয়ে পড়েছে তাদের পাশে সরকারের পাশাপাশি আমদের সকলেই তাদের পাশে দাড়াতে হবে।আমাদের কার্যকম ধারাবাহিকভাবে অব্যাহত থাকবে ইনশাআল্লাহ।  আমি প্রিয় দেশবাসী সহ বিশ্ববাসীর জন্য দোয়া করি মহান আল্লাহ পাক যেন মহামারী করোনা ভাইরাস সহ সকল প্রকার বালা মসিবত থেকে আমাদের হেফাজত করেন,আমিন।                    ছাত্রনেতা সজিব হুসাইন মোহা.হাসান বলেন,মহামারী করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচতে হলে আমাদের সকলকে নিজ নিজভাবে সচেতন হতে হবে। সরকারের দেওয়া সকল নিয়মকানুন ও স্বাস্থ্যবিধী মেনে চলতে হবে।জরুরী প্রয়োজন ছাড়া বাহিরে বের হওয়া যাবে না। গনমাধ্যম কর্মী ও নাগরপুর বাজার বিশিষ্ট ব্যবসায়ী  মো.শরীফুল ইসলাম বলেন-আমি ডা.এম.এ.মান্নান কে অনেক ধন্যবাদ জানাই কারন তিনি বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ হওয়ার পর থেকেই নিজ এলাকা দুয়াজানী কলেজ পাড়া সহ নাগরপুরে অসহায়,কর্মহীন মানুষের পাশে দাড়িয়ে কয়েক ধাপে শুকনা খাবার,কাঁচা বাজার,ইফতার সামগ্রী,ঈদ সামগ্রী সহ মাস্ক,সাবান,মেডিসিন,হ্যান্ডস্যানিটাইজার বিতরন করেছেন। ডা.এম.এ.মান্নান হোমিও চিকিৎসক হিসাবে ইতিমধ্যে ব্যাপক সুনাম অর্জন করেছেন এবং তিনি একজন আর্দশ শিক্ষক ও সমাজসেবক হিসাবেও নাগরপুরে পরিচিতি লাভ করছেন।আমি নাগরপুরের ধনী শ্রেনীর মানুষকে  সরকারের পাশাপাশি অসহায় মানুষের পাশে ডা.এম.এ.মান্নানের মত দাড়ানোর জন্য উদাত্ত আহবান করছি। মহান আল্লাহ পাক যেন বাংলাদেশ কে করোনা ভাইরাস থেকে হেফাজত করেন,আমিন।         মাস্ক বিতরন কালে উপস্হিতি থেকে সার্বিক সহযোগিতা করেছেন দুয়াজানী কলেজ পাড়া ছাত্র কল্যান পরিষদের তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক কলেজ ছাত্র মো.ফয়েজুল ইসলাম, সহ প্রচার সম্পাদক কলেজ ছাত্র মো.ওবাইদুল্লাহ,পাঠাগার সম্পাদক কলেজ ছাত্র মো.শুকুর মাহমুদ,কলেজ ছাত্র নির্বাহী সদস্য মো.সাব্বির হোসেন,স্কুল ছাত্র সিহাব মহিউদ্দীন,সুমন এবং ইয়াসিনপ্রমুখ।

করোনায় অসহায় মানুষের পাশে পুলিশ কর্মকর্তা

করোনায় অসহায় মানুষের পাশে পুলিশ কর্মকর্তা


নিউজ ডেস্কঃ

বৈশ্বিক করোনা মহামারীতে পুরো বিশ্ব আজ স্তব্ধ। পিছিয়ে নেই আমাদের বাংলাদেশ। সংকটময় এই সময়ে মানুষের প্রতি মানুষের মানবিক হওয়াই মনুষ্যত্বের সবচেয়ে বড় পরিচয়। সবাই সবার পাশে থেকেই এই দুর্যোগ মোকাবেলা করতে হবে। তেমনিই মানুষের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন একজন মানবিক পুলিশ কর্মকর্তা চাঁদপুর জেলা ফরিদগঞ্জ উপজেলার কৃতি সন্তান বাংলাদেশ পুলিশের বিশেষ শাখা (এসবি) অতিরিক্ত উপ পুলিশ কমিশনার  রাহুল পাটওয়ারী (পিপিএম)। দেশের প্রয়োজনে নিজের জীবন বাজি রেখেই যে শুধু  জননিরাপত্তায় কাজ করে যাচ্ছেন তা নয় বরং অসহায়দের খাদ্য সংকট লাগব করতে মানবিক হয়ে জনমানুষের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন। নিজ উপজেলায়  ৪০০  টি অসহায় পরিবারের মধ্যে ঈদ উপহার পৌঁছে দিয়েছেন মানবিক এই পুলিশ কর্মকর্তা।

ইতিপূর্বে চাঁদপুর জেলার দে‌শের বি‌ভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠা‌নে অধ‌্যায়ণরত  পা‌রিবা‌রিক ভ‌া‌বে অসচ্ছল এমন ছাত্রছাত্রী‌দের প‌া‌শে দা‌ড়ি‌য়ে‌ছেন  এবং তাদের নগদ অর্থ সহায়তাও করেছেন। পুলিশকে জনবান্ধব করতে ও মানবিক পুলিশ বাহিনী গড়ে তুলতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রচেষ্টা সফল করতে বৃত্তের বাহিরে নিরবে নিবৃত্তে কাজ করে যাচ্ছেন এসকল পুলিশ সদস্যরা।

এদিকে  অতিরিক্ত উপ পুলিশ কমিশনার রাহুল পাটওয়ারী  (পিপিএম) বলেন দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে বিত্তবানেরা সবাই তাদের পার্শ্ববর্তী অসহায়, দুস্থদের সহায়তায় এগিয়ে আসলেই আমরা করোনা কে জয় করতে পারবো।  আজকের দিনের মেধাবীরা ভবিষ্যতে জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে অগ্রণী ভূমিকার পাশাপাশি মানুষের সহায়তায় এগিয়ে আসবে । আজকে আমরা যেভাবে তাদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছি ঠিক তেমনি ভাবে তারাও একদিন মানুষের পাশে এসে দাঁড়াবে এমনটাই প্রত্যাশা এই পুলিশ কর্মকর্তা।

উল্লেখ্য রাহুল পাটওয়ারীর বাবা  ফরিদগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং চাঁদপুর জেলা মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম একজন সংগঠক যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল খায়ের পাটওয়ারী নিজ উদ্যোগে দু'বার  উপজেলায় অসহায় গরীবদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করেন।

মধুপুরে অভ্যন্তরিন বোরো ধান/ চাউল সংগ্রহ-২০২০ শুভ উদ্ধোধন

মধুপুরে অভ্যন্তরিন বোরো ধান/ চাউল সংগ্রহ-২০২০ শুভ উদ্ধোধন



মো: আ: হামিদ মধুপুর টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃ

টাঙ্গাইলের মধুপুরে অভ্যন্তরিন বোরো ধান/ চাউল সংগ্রহ-২০২০ শুভ উদ্ধোধন অনুষ্টান অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলায় এ বছর বোরো / ২০২০মৌসুমে উপজেলার বোরো ধান উ্যপাদনকারী কৃষকদের মধুপুর সরাকারী খাদ্য গুদামে ন্যায্যমূল্যে ধান ক্রয়ের উদ্দেশ্যে কৃষক নির্বাচনের জন্য উন্মুক্ত লটারির আয়োজন করা হয়। উপজেলায় এবছর ১২৪২০ হেক্টর জমিতে বোরো ধানের আবাদ হয়েছে।
লটারির মাধ্যমে কৃষক নির্বাচনের উদ্দেশ্যে উপজেলায় গত ১৩, ১৪,ও ১৫ মে ২০২০ইং তারিখে মাইকিং করে ৭৩২৫ জন কৃষকের নামের তালিকা পাওয়া যায়। এদের মধ্যে মধুপুর পৌরসভার ৩৬৫ জন কৃষকের মধ্যে ১৮৯ জন কৃষককে লটারির মাধ্যমে নির্বাচন করা হয়েছে। ক্ষুদ্র, মাঝারি ও বড় এ তিন ক্যাটাগরিতে কৃষক নির্বাচন করা হয়েছে।  লটারির মাধ্যমে ১৮ জন বড় ৪০ জন মাঝারি এবং১৩১ জন ক্ষুদ্র কৃষক নির্বাচন করা হয়েছে। উপজেলার অন্যান্য ইউনিয়নে দ্রুততম সসময়ের মধ্যে তালিকাভূক্ত কৃষকদের মধ্য হতে কৃষক নির্বাচনের কাজ সম্পর্ন হবে। এরই ধারাবাহিকতায় ২৭ মে বিকেলে মধুপুর উপজেলা খাদ্য বিভাগের আয়োজনে মধুপুর খাদ্য গুদামে অভ্যন্তরিন বোরো ধান/ চাউল সংগ্রহ-২০২০ উদ্ধোধনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এসময় ফিতা কেটে ধান ও চাউল সংগ্রহের মধ্য দিয়ে উদ্ধোধন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আরিফা জহুরা, উক্ত সময় উপস্হিত ছিলেন মধুপুর পৌর আওয়ামীলীগ সভাপতি আলহাজ সিদ্দিক হোসেন খান, উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মাহমুদুল হাসান, উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তা মো: আনিসুর রহমান, মধুপুর খাদ্যগুদাম ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিজা খাতুন, প্রেসক্লাব মধুপুর এর সভাপতি এম. এ. হামিদ, সাধারণ সম্পাদক বাবুল রানা, সহ খাদ্য গুদামের অন্যান্য কর্মকর্তাগন।

এশিয়ার একমাত্র বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে ইন্সট্রুমেন্টাল একসেস এওয়ার্ড পাচ্ছে জবি

এশিয়ার একমাত্র বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে ইন্সট্রুমেন্টাল একসেস এওয়ার্ড পাচ্ছে জবি



জবি প্রতিনিধিঃ দক্ষিণ এশিয়া তথা এশিয়া মহাদেশের একমাত্র বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে ইন্সট্রুমেন্টাল একসেস এওয়ার্ড ২০২০ পেতে যাচ্ছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড বায়োটেকনোলজি বিভাগ।

বুধবার (২৭ মে) সিডিং ল্যাবের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এতথ্য জানানো হয়। এবছর জবিসহ বিশ্বের ১০টি দেশের ১৮ টি বিশ্ববিদ্যালয় এই এওয়ার্ড পাচ্ছে। 

এবিষয়ে জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড বায়োটেকনোলজি বিভাগের বলেন বিভাগীয় প্রধান ড. দিলারা ইসলাম শরীফ বলেন, আমরা গতবছর আবেদন করেছিলাম এবং বাংলাদেশের প্রথম বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে এওয়ার্ডটা পাচ্ছি। যে গবেষণা সরঞ্জাম আমরা পাবো, এতে করে একটি উচ্চ মানসম্পন্ন ল্যাব তৈরি করতে পারবো। যা বায়োটেকনোলজিকাল গবেষণার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। 

এবিষয়ে জবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান বলেন, আমরা ভাগ্যবান এওয়ার্ডটা পেয়েছি। এরফলে আমরা অনেক গুরুত্বপূর্ণ গবেষণা করতে পারবো। এছাড়াও ২টা পিএসআর মেশিনও আমরা পাচ্ছি, কোভিড বা অন্যান্য ভাইরাস জাতীয় রোগের পরীক্ষা আমরা করতে পারবো। সবমিলিয়ে বায়োলজিকাল রিসার্সের একটা বড় অগ্রগতি হবে।

উল্লেখ্য এই এওয়ার্ডের আওতায় সিডিং ল্যাব বিশ্বের উন্নয়নশীল দেশের বিশ্ববিদ্যালয় ও গবেষণা ইন্সটিটিউটগুলোকে উচ্চমান সম্পন্ন ল্যাব সরঞ্জাম প্রদান করে। এবছর ২০টি দেশের ৫৮ টি বিশ্ববিদ্যালয় আবেদন জমা দেয়। 


মোংলায় ডিডিএলজি দেবপ্রসাদ ঘূর্ণিঝড় আম্পানে ক্ষতিগ্রস্থদের জন্য প্রধানমন্ত্রী ঘর বরাদ্দ দিয়েছেন

মোংলায় ডিডিএলজি দেবপ্রসাদ  ঘূর্ণিঝড় আম্পানে ক্ষতিগ্রস্থদের জন্য  প্রধানমন্ত্রী ঘর বরাদ্দ দিয়েছেন



মোঃএরশাদ হোসেন রনি, মোংলা   
 প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘূর্ণিঝড় আম্পানে ক্ষতিগ্রস্থদের জন্য ঘর বরাদ্দ দিয়েছেন। তিনি দুস্থদের ঘর-খাবার নিয়ে খুবই চিন্তা করেন। একেবারেই নিজের সন্তান মনে করে চিন্তা করেন। রবীন্দ্রনাথের একটি কথা আছে ঈশ্বর আমাকে বেদনা দিয়েছেন কিন্তু ত্যাগ করেননি। তিনি হরণ করেছেন পূরণও করবেন।চ্আ
আপনাদের অপূরন্ত প্রাণ শক্তি আছে। সেই প্রাণশক্তির মাধ্যমে ঘূর্ণিঝড় এবং করোনার সাময়িক বিপর্যয় আপনারা কাটিয়ে উঠবেন। ২৮ মে বৃহস্পতিবার সকালে মোংলার বুড়িরডাঙ্গা ইউনিয়নের বিদ্যারবাহন-শেলাবুনিয়ায় ঘূর্ণিঝড় আম্পানে ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে জিআর চাল বিতরণকালে তাৎক্ষণিক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় স্থানীয় সরকার বিভাগ বাগেরহাটের উপপরিচালক দেবপ্রসাদ পাল প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টায় চাল বিতরণকােেলে অনুষ্ঠিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বুড়িরডাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান নিখিল চন্দ্র রায়। সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন উপজেলা নির্বাহি অফিসার মোঃ রাহাত মান্নান ও উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ নাহিদুজ্জামান। এসময় উপস্থিত ছিলেন সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সাংবাদিক মোঃ নূর আলম শেখ বুড়িরডাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল দেওয়ান। উল্ল্যেখ্য বুড়িরডাঙ্গা ইউনিয়নের শেলাবুনিয়া এবং বিদ্যারবাহন গ্রামে ঘূর্ণিঝড় আম্পানে ক্ষতিগস্থ দুইশো পরিবারের মাঝে প্রত্যেককে দশ কেজি করে জিআর চাল বিতরণ করা হয়। চাল বিতরণ শেষে অতিথিবৃন্দ শেলাবুনিয়া এবং বিদ্যারবাহন গ্রামের পশুর নদীর ভাঙ্গনকূল পরিদর্শন করেন।###

কুয়েতে করোনা ভাইরাসে নতুন আক্রান্ত ৮৪৫, মৃত্যু ১০

কুয়েতে করোনা ভাইরাসে  নতুন আক্রান্ত ৮৪৫, মৃত্যু ১০



দাইয়ানুর রহমান মিষ্টারনুর কুয়েত প্রতিনিধিঃ

কুয়েতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য মতে, আজ করোনা ভাইরাসে আরো ৮৪৫ জন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন বলে শনাক্ত করা হয়েছে।
এ পর্যন্ত কুয়েতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৪১১২ জনে, চিকিৎসাধীন  ১৫২২৯ জন, সুস্থতা লাভ করেছেন ৮৬৯৮ জন ও বর্তমানে সংকটপূর্ণ অবস্থা ১৮৫ জন।

''আজ নতুন করে ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে।
এনিয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে ১৮৫ জনের। 

গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় আক্রান্ত বিভিন্ন দেশের নাগরিক।
ভারতীয় নাগরিক -২০৮
স্থানীয় নাগরিক- ২১২
মিশরীয় নাগরিক - ৯১
''করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত বাংলাদেশী আজ নতুন করে আরো ১৬১ জন সহ শনাক্ত মোট ২৬০১ জন''।
বাকিরা অন্যান্য দেশের।

গভর্নোরেট এলাকায় আক্রান্তদের সংখ্যা।
ফারওয়ানিয়া - ২৫৫
আহমদি - ২২২
হাওয়াল্লী - ৯৬
জাহরা - ১৮৯
ক্যাপিটাল - ৮৩

আবাসিক এলাকায় সর্বোচ্চ আক্রান্ত।
জিলিব আল-সুয়েখ -৪৮
আব্দালি - ৮২
ফারওয়ানিয়া - ৭৫
খাইতান- ৮৫

এছাড়াও দেশটির তিনটি জায়গায় যথাক্রমে, জওয়ান রেসর্ট,খাইরান রেসর্ট ও আল-কুত বিচ্ হোটেলসহ আরো বেশ কয়েকটি ক্যাম্পে ২৩ জনকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

বর্তমানে কুয়েতে ''জরুরী অবস্থা'' চলছে।
সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলাফেরা করতে নির্দেশ এবং খুব বেশি প্রয়োজন ব্যতীত ঘরের বাইরে বের হওয়া থেকে বিরত থাকতে নিষেধ করেছে দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।
কুয়েতের সর্বত্রে লকডাউন ১০ মে বিকেল ৪টা থেকে ৩০ মে পর্যন্ত।

সূত্র, আরব টাইমস

উত্তর বঙ্গের বগুড়া জেলার হাজার হাজার একর ধানের জমি পানিতে, কৃষক হতাশ

উত্তর বঙ্গের বগুড়া জেলার হাজার হাজার একর ধানের জমি পানিতে,  কৃষক হতাশ


বকুল হোসেন (সাজু) বগুড়া প্রতিনিধিঃ  উত্তর বঙ্গের বগুড়া জেলা কাহালু থানা ৯ নম্বর মালনঙচা ইউনিয়নের আবাদি জমির ধান ঝড় বৃষ্টির কারনে পানির নিচে, কৃষক দিশা হারা। প্রতিটা মানুষের মনের মাঝে কষ্ট  এই পানি যদি দ্রুত শুখিয়ে না  যায় হাজার হাজার কৃষকদের লোকসান গুনতে হবে। সেজন্য এই পানি হয়ে দাঁড়িয়েছে উত্তর বঙ্গের মানুষের জন্য এখন কাল।

মঠবাড়ীয়া সরকারি খালে বাধ দিয়ে মাছ চাষ। এ নিয়ে দুই গ্রুপে সংঘর্ষ

মঠবাড়ীয়া সরকারি খালে বাধ দিয়ে মাছ চাষ। এ নিয়ে দুই গ্রুপে সংঘর্ষ


নিউজ রিপোর্টঃ  

পিরোজপুরের মঠবাড়ীয়া উপজেলার পৌরসভা (০৮) নং ওয়ার্ড সবুজনগরে সরকারি খালে বাধ দিয়ে মাছ চাষ করেছেন মোঃ সিরাজুল হক ফকির। পাশের বাড়ীর খলিলুর রহমানের হাঁস ঐ মাছের ঘেরে যায়। এ নিয়ে আজ বৃহস্পতিবার আনুমানিক সন্ধ্যা ৬ঃ৩০ মিনিটে তর্কাতর্কি হয় এক পর্যায় সিরাজুল হক (৫৫) তার স্ত্রী মোসাম্মাৎ তাছলিমা বেগম (৪৫) তার মেয়ে মোসাম্মাৎ শিরিন (২৭) আর ছয় সাতজন মিলে খলিলুর রহমান এবং তার শ্যালক মোঃ জাকির গাজীকে এলোপাথাড়ি পিটিয়ে গুরুতর জখম করে। বর্তমানে মোঃ খলিলুর রহমান (৫২)  মঠবাড়ীয়া উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি আছেন। মঠবাড়ীয়া উপজেলা স্বস্থকমপ্লেক্সের ডিউটিরত চিকিৎসক জানান খলিলুর রহমানের স্বস্থ্যের উন্নতি না হলে বরিশালে রেফার করার দ্রুত ব্যাবস্থা নিবেন। এঘটনায় দুই গ্রুপই থানায় মামলা করেন।

সিংড়ায় কৃষক বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু!

সিংড়ায় কৃষক  বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে  মৃত্যু!

   


রাজশাহী ব্যুরো
নাটোরের সিংড়ায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে আমির হোসেন (৪০) নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার বেলা এগারোটার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত আমির হোসেন উপজেলার কাজীপাড়া এলাকার ভুতু প্রামাণিকের ছেলে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, সকাল দশটার দিকে আমির হোসেন তার বাড়ির পাশে সেচ পাম্পের মটরের তার জোড়া দিতে যায়। এ সময় অসাবধানতাবশতঃ তিনি বৈদ্যুতিক তারে জড়িয়ে পড়েন। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। এ সময় পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে দ্রুত সিংড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে বেলা এগারোটার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে সেখান থেকে তার পরিবারের লোকজন মরদেহ বাড়িতে নিয়ে যায়।

পাগল ছেলের আঘাতে প্রতিবন্ধী পিতার মৃত্যু!

পাগল ছেলের আঘাতে প্রতিবন্ধী পিতার মৃত্যু!



মোরশেদ আলম
যশোর ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধি। 

যশোর মনিরামপুরে পাগল ছেলের শাবলের আঘাতে মৃত্যু হল প্রতিবন্ধী পিতার। পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে।
 একই সময় হত্যাকারী পাগলকে আটক করেছে পুলিশ।
এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায় বুধবার দুপুর দুইটার দিকে মনিরামপুর উপজেলার আটঘরা গ্রামের ছায়েল উদ্দীন(৭০) ঘরের বারান্দায় খাটের উপরে নামাজ আদায় করছিলো।

এসময় তার পাগল ছেলে (২৫) লোহার সাবল দিয়ে পিতার মাথায় দুটি ও হাতে একটি আঘাত করলে ঘটনাস্থলে লুটিয়ে পড়ে।ঐ সময় পাগল ছেলেকে ঘরের ভিতরে আটকে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখে। 

এবং রক্তাক্ত জখম অবস্থায় মৃত্যুপ্রায় ভেবে পরিবারের লোকজন ছায়েল উদ্দিনকে উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। যাওয়ার পথিমধ্যে ছায়েল উদ্দীন মারা গেলে বাড়িতে ফেরত নিয়ে আসে।

 থানা পুলিশ সংবাদ পেয়ে ওসি রফিকুল ইসলাম, তদন্ত ওসি শিকদার মতিউর রহমান ঘটনাস্থলে আসেন।পরপরি (সার্কেল) এএসপি সৈয়েব হাসান ঘটনাস্থলে আসেন।
পরে পলিশ লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। একইসময় পাগল ছেলে ইদ্রিস ২৫ কে আটক করে নিয়ে যায়।এবিষয়ে ওসি রফিকুল ইসলাম জানায় লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।

লোহার সাবল ও রক্ত মাখা কাপড় জব্দ করা হয়েছে। হত্যাকারী পাগল ইদ্রীস কে আটক করা হয়েছে।তিনি আরো জানান ইতিপূর্বে মেন্টাল ডাক্তার দ্বারা ইদ্রিস কে চিকিৎসা করানো হয়েছে। যার কাগজপত্র রয়েছে। এ ঘটনায় থানায় হত্যা মামলা রেকর্ড করা হবে।

মোংলায় জিআর চাল বিতরণকালে ডিডিএলজি করোনা যতদিন আছে ততদিন প্রধানমন্ত্রী দুস্থদের পাশে আছেন

মোংলায় জিআর চাল বিতরণকালে ডিডিএলজি  করোনা যতদিন আছে  ততদিন প্রধানমন্ত্রী দুস্থদের পাশে আছেন



মোঃএরশাদ হোসেন রনি, মোংলা  
 করোনা যতদিন আছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অসহায়-দুস্থ মানুষের পাশে আছেন। প্রাণঘাতি করোনা থেকে রক্ষা  পেতে সবাইকে মাস্ক ব্যবহার এবং তিন মিটার দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। নিজেকে এবং পরিবারকে বাঁচাতে সবাই নিরাপদে থাকুন। আম্পানে ক্ষতিগ্রস্থদের সরকার জরুরী ভিত্তিতে খাদ্য সহায়তা এবং পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করবে। ২৭ মে বুধবার বিকেলে মোংলার চিলা ও চাঁদপাই ইউনিয়নে ঘূর্ণিঝড় আম্পান এ ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে জিআর চাল বিতরণকালে তাৎক্ষণিক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় স্থানীয় সরকার বিভাগ বাগেরহাটের উপ-পরিচালক দেবপ্রসাদ পাল একথা বলেন।

বুধবার বিকেল সাড়ে ৩টায় চাঁদপাই ও চিলা ইউনিয়নে জিআর চাল বিতরণকালে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান আবু তাহের হাওলাদার, উপজেলা নির্বাহি অফিসার মোঃ রাহাত মান্নান, সহকারি কমিশনার (ভূমি) নয়ন কুমার রাজবংশী, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ নাহিদুজ্জামান, উপজেলা জনস্বাস্থ্য সহকারি প্রকৌশলী মোঃ সোহান আহমেদ, চাঁদপাই ইউপি চেয়ারম্যান মোল্লা মোঃ তারিকুল ইসলাম, চিলা ইউপি চেয়ারম্যান গাজী আকবর হোসেন প্রমূখ। বুধবার বিকেলে চিলা ও চাঁদপাই ইউনিয়নে ঘূর্ণিঝড় আম্পান-এ ক্ষতিগ্রস্থ দুই হাজার পরিবারের মাঝে ২০টন চাল বিতরণ করা হয়। এছাড়া উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে চাঁদপাই ও চিলা ইউনিয়নে আম্পানে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের মাঝে সুপেয় পানি এবং পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট বিতরণ করা হয়। জানা যায় মোংলা উপজেলার ছয় ইউনিয়ন এবং একটি পৌরসভায় ঘূর্ণিঝড় আম্পানে ক্ষতিগ্রস্থ ৬ হাজার পরিবারের মাঝে মোট ৬৪ মেঃ টন জিআর চাল বিতরণ করা হয়।###